নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ব্লগের স্বত্বাধিকারী সামিয়া

সামিয়া

সৎ, সাদাসিধা মানুষ। একটু স্বাধীন টাইপ। পড়তে ভাললাগে, লিখতে ভাললাগে, ছবি তুলতে ভাললাগে, মানুষের মুখে হাসি দেখতে ভাললাগে।

সামিয়া › বিস্তারিত পোস্টঃ

কুয়াশা কেটে গিয়ে আলোকজ্জ্বল ভোর দেখা যায়, কাজেই অল্পতে ভেঙে পড়া সঙ্গত নয়।

০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৩৮




পানওয়ালা ব‍্যাচে পান
ধানওয়ালা ব‍্যাচে ধান
বান্দি চাকর কয় কথা
না দিবো কান।।

দারুন আক্রমণাত্মক একটা প্রবাদ, কারো উপর কেউ সেই পরিমাণ ডিস্টার্ব হলে এইরকম প্রবাদ ভালো শান্তনা কিন্তু!!

তবে আমি মনে করি যুগে যুগে ব‍্যবহারিত কথাটা, প্রতিটি মানুষ দুনিয়ায় তার কর্মফল ভোগ করে থাকেন।

সেই ক্ষেত্রে বান্দি চাকর যদি উল্টা পাল্টা কথা বলে তার জন্য আছে তিনগুণ বেশি তিক্ত কথা, বিপদ, অপমান ।

কথা হচ্ছে সব কিছুর তো সাইড ইফেক্ট থাকে, ভালোর খারাপের সমস্ত কর্মকান্ডের। আবার যুক্তিযুক্ত কারণ ও থাকে যা আমরা বুঝতে পারিনা, সোনা পুড়ে যেমন খাটি হয় তেমনি মানুষ সংগ্রাম করে বিপদের মোকাবেলা করে শক্তিশালী হয় খাটি হয় ভালো মানুষ হয়, আমি দেখেছি বিপদে মানুষ সব থেকে বেশি বিনয়ী হয়, ভেদাভেদ অহংকার হিংসা ভুলে যায়।

কেউ আপনাকে বিপদে ফেলবে উল্টা পাল্টা অপমান করবে এমনি এমনি না, তার একটা ভালো দিক থাকে, আপত দৃষ্টিতে যা মন্দ যা খারাপ কিন্তু আসলে কিন্তু তা খারাপ না।

একটা গল্প আছে এইরকম, এক অতি রুক্ষ চঞ্চল স্বভাবের লোক গাড়ি চালিয়ে তার গন্তব্যের উদ্দেশ্যে পৌঁছানোর জন্য গাড়ির স্পীড বাড়াইয়া দেন কেননা সে যেই লোকেশনে গাড়ি চালাচ্ছিলেন সেই পথ দুর্গম উচু নিচু ভাঙ্গা জনশূন্য, কাজেই সূর্য ডোবার পর সেই পথ যে অতি বিপদজ্জনক হবে তা তো বলার অপেক্ষা রাখে না এবং যে করেই হোক তাকে সূর্য ডোবার আগে পৌঁছাতে হবে।


সে তার গাড়ি নিয়ে দ্রুত বেগে ছুটতে ছুটতে পথের এক প্রান্তে এসে চাকা পাংচার হয়ে যায়। অনেক চেষ্টা করেও গাড়ি ঠিক করতে ব্যর্থ হয়ে কপাল চাপড়ে হাত পা ছুরে হোয়াই মি জাতীয় আফসোস করতে থাকেন।

সে ভাবে তার মত দুর্ভাগা দুনিয়াতে আর একটা ও নাই আর শুধু মাত্র তার সঙ্গেই বিধাতা এই অন্যায়টা করেছেন।দাদাকেমকম এক সময়ে লোকটির বাজে চিন্তার সময় অদ্ভুত এক ঘটনা ঘটলো, সে যেইখানে বসা এবং তার গাড়িটা রাখা তার দুই গজ সামনে পাশের পাহাড়ের উপর থেকে ধাম করে বিশাল এক পাথর পড়লো, এইখানেই শেষ নয় যেই অংশে পাথর পড়েছে সেই অংশ চুরমার হয়ে নীচে পরে গেলো।

আসলে ঐটা একটা খাদ ছিল, যদি সে তার গাড়ি নিয়ে এগিয়ে যেতেন খাদের মধ্যে পড়ে তৎক্ষণাৎ পটল তুলে ফেলতেন।


আসলে যে কোনো সমস্যা বিপদ আপদ কটু কথা অপমানের ভালো সাইড ইফেক্ট ও আছে ওকে?! কিন্তু সেই পরিমাণ উচু ধৈর্য প্রত্যেকের থাকা উচিত।

মেঘ দেখে করিসনে ভয় আড়ালে তার সূর্য হাসে কে লিখেছেন এই মুহূর্তে মনে করতে পারছিনা।
তবে সাহস দেখাতে না পারলে ও ধৈর্য ধারণ তো করা যেতে পারে, প্রতিবাদ করার পথ খোলা নেই, অবজেক্টটিভ প্রশ্নের মতন চারটি উত্তরের অপশন নেই, ভাষা নেই, সাহায্য নেই, তাহলে কি করা যেতে পারে? তাহলে ধৈর্য ধারণ করা যেতে পারে।
যে সহে সেই রহে গো ।।

মন্তব্য ৩৪ টি রেটিং +৬/-০

মন্তব্য (৩৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৪৭

হাবিব বলেছেন: অতি উত্তম কথা......

০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:১৩

সামিয়া বলেছেন: ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

২| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৫৩

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: ধৈর্যই শক্তি....

বিপদে না পড়লে নিজের সামর্থ্য বোঝা যায় না....

সর্বোপরি পোস্ট ভালো লেগেছে আপু :)

০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:১৩

সামিয়া বলেছেন: ওয়েল সেইড
ধন্যবাদ----------

৩| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৫৫

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: মেঘ দেখে কেউ লাইনের লেখক সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত :)

০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:১৪

সামিয়া বলেছেন: আবারো ধন্যবাদ

৪| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:০৬

সাইন বোর্ড বলেছেন: বিপদে অবশ্যই ধৈর্য্য ধরা উচিৎ ।

০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:১৫

সামিয়া বলেছেন: ঠিক-----------

ধন্যবাদ

৫| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৩৭

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: ধৈর্য্য -- অতি উত্তম কথা বলেছেন আপু আর একদম আমার মনের কথা । যে কোন বিপদে ধৈর্য্যই হচ্ছে একমাত্র ভরসা । আর হা আমার একমাত্র আমিই থাকবো সবসময় । সবাই ছেড়ে গেলেও তখন আমার আমিতেই খুজে নিতে হবে আশ্রয় । আমি গতকালকেই একটি কবিতা লিখেছি ঠিক এই বিষয় নিয়েই । পড়ে দেখতে পারেন আপু


অন্ধকারের আলো

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:২৫

সামিয়া বলেছেন: ভালো বলেছেন আপু ধন্যবাদ

৬| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৪৯

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: গাছের দিকে তাকিয়ে থাকুন। তাহলে গাছ আপনাকে নিরবতা পালন করার উপায় শিখিয়ে দেবে

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:২৫

সামিয়া বলেছেন: ভালো বুদ্ধি,
ধন্যবাদ।

৭| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৪৯

রাজীব নুর বলেছেন: বোন পোষ্ট টি মনে হয় আমার জন্য লিখেছেন। পোষ্ট পড়ে শান্তি পেলাম। গল্পটাও ভালো।
অনেক ধন্যবাদ।
ভালো থাকুন।

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:২৬

সামিয়া বলেছেন: আপনাকেও ধন্যবাদ ভাইয়া ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন শুভকামনা

৮| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:১৩

জাহিদ অনিক বলেছেন:

আসলেই ধৈর্য্য ধরে থাকাটাও একটা বিরাট কঠিন কাজ। আমরা তো অল্পতেই ভেঙ্গে যাই--

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:২৮

সামিয়া বলেছেন: ভেঙ্গে না যে উপায় আছে!! মাঝে মাঝে তো মনেহয় নিজেকে কত তুচ্ছ!! মন আরো শক্ত করতে হবে, ধন্যবাদ ভাই শুভেচ্ছা।

৯| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:২০

শেখ মফিজ বলেছেন: দু বছর কেটে গেছে,
কুয়াশা কাটেনি, ভোরের রেখাও দেখা মেলেনি ।
ধৈর্য্য ধরে আছি ।
জীবনটা এতদিন আলোময় ছিল ।
আবার আলো আসবেই ।
সাহসের কথা পড়তে ভাল লাগলো ।

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:২৯

সামিয়া বলেছেন: অনেক অনেক ধন্যবাদ ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন শুভকামনা
আপনার জন্য রইল দোয়া, হ্যাঁ অবশ্যই আসবেই আপনার জীবনে।।

১০| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:৩১

নতুন-আলো বলেছেন: কুয়াশা কাটবে কবে?

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩০

সামিয়া বলেছেন: কুয়াশা একেবারে কাটে না, কখনো কখনো কাটে, আবার কোত্থেকে চলে আসে যে, এটাই নিয়ম, ধন্যবাদ।

১১| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৯

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
ধৈর্য অনেক কঠিন। তাই তার ফলও বেশ সুস্বাদু, অসাধারণ।
মহান প্রভুর ভাষায়- ‘নিশ্চয়ই আল্লাহ ধৈর্যশীলদের সঙ্গে রয়েছেন।


হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর কথা, ‘ধৈর্যের চেয়ে উত্তম ও ব্যাপকতর কল্যাণ কাউকে দেওয়া হয়নি।’
–সহিহ বোখারি ও মুসলিম

সকল কাজে ধৈর্য্য ধর। শক্ত হও ।
ম‌নে রেখ , সময় সর্বদা এক অবস্থায় থা‌কে না ।
আর প‌রিশ্রম কখনও বেইমানী ক‌রে না ।


কোরআনে কারিমের অন্যত্র আরও ইরশাদ হয়েছে,
‘অবশ্যই আমি তোমাদিগকে পরীক্ষা করবো কিছুটা ভয়,
ক্ষুধা, মাল ও জানের ক্ষতি ও ফল-ফসল বিনষ্টের মাধ্যমে।
তবে সুসংবাদ দাও- সবরকারীদের। যখন তারা বিপদে পতিত হয়,
তখন বলে, নিশ্চয় আমরা সবাই আল্লাহর জন্য এবং আমরা সবাই তারই
সান্নিধ্যে ফিরে যাবো। তারা সে সমস্ত লোক, যাদের প্রতি আল্লাহর অফুরন্ত অনুগ্রহ ও
রহমত রয়েছে এবং এসব লোকই হেদায়াতপ্রাপ্ত।
-সূরা বাকারা

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩১

সামিয়া বলেছেন: আপনার মূল্যবান মন্তব্যের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। অসংখ্য ধন্যবাদ।।

১২| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:০৯

দেবদাস বাবু বলেছেন: যে ব্যাক্তি যত ধৈর্য্য ধরতে পারে তার সফলতা তত বেশি

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩১

সামিয়া বলেছেন: ভালো বলেছেন ধন্যবাদ

১৩| ০৭ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০৭

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন:

নিয়ন্ত্রিত ধৈর্য সফলার সঙ্গি।

লেখাটা ভাল লাগলো আপু।

তা এবারের বইমেলায় কোন কোন বই আসছে?

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩৩

সামিয়া বলেছেন: ধন্যবাদ শুভকামনা।
হ্যাঁ এবারের বইমেলায় একটি গল্পগ্রন্থ বের হচ্ছে।

১৪| ০৮ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ২:০৯

স্বপ্নের শঙ্খচিল বলেছেন: কিন্তু সেই পরিমাণ উচু ধৈর্য প্রত্যেকের থাকা উচিত।
...............................................................................
যথেষ্ট ধৈর্য না থাকলে নাকি
ভালো রাঁধুনী হওয়া যায় না ?
................................................................................

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩৪

সামিয়া বলেছেন: ভালো রাধুনীর ব্যাপারটা ব্যাপারটা আমি জানিনা
সুন্দর ছবি দেয়ার জন্য ধন্যবাদ শুভকামনা

১৫| ০৮ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৯

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন:



আপাতত ধৈর্য্য আর বিবেকের স্টক শেষ ।

সাইড ইফেক্ট নিয়ে আর ভাবি না । মরে যাবো । কিছু দিন পরেই ।

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩৬

সামিয়া বলেছেন: আপনি মরে যাবেন কিছুদিন পরে এরকম ভাবার কিছু নেই, কার কবে কখন মৃত্যু আসে কেউ বলতে পারে না, আর যেহেতু কোন পথ খোলা নেই কাজেই ধৈর্য ধরা যেতেই পারে তাই না? ধন্যবাদ শুভকামনা ভাল থাকুন! অনেক দিন বাঁচুন!

১৬| ০৮ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৫৭

ক্লে ডল বলেছেন: বাণী অমৃত!! মোটিভেটেড হয়ে গেলাম! :) :)

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩৭

সামিয়া বলেছেন: আবার বইন যেন থাকে দুধে ভাতে।। :)
হা হা ধন্যবাদ ভালো থাকুন।

১৭| ০৮ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:২৭

অবনি মণি বলেছেন: যে সহে সেই রহে গো....
অনন্তকাল সইবো নাকি?? .......

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩৯

সামিয়া বলেছেন: আমরা তার আনন্দ কাল বাঁচবো না তাই না, তবে যে কটা দিন বাঁচে ধৈর্য ধরলে অন্তত শান্তিপূর্ণ ভাবে বাঁচা যায়, তাছাড়া্ যদি ধৈর্য ছাড়া আর কোন পথ খোলা না থাকে তাহলে ধৈর্য ধরা ছাড়া আর কি বা করার থাকে মানুষের !? ধন্যবাদ শুভকামনা

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.