নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ব্লগের স্বত্বাধিকারী সামিয়া

সামিয়া

সৎ, সাদাসিধা মানুষ। একটু স্বাধীন টাইপ। পড়তে ভাললাগে, লিখতে ভাললাগে, ছবি তুলতে ভাললাগে, মানুষের মুখে হাসি দেখতে ভাললাগে।

সামিয়া › বিস্তারিত পোস্টঃ

গ্লাস পাথরের সমুদ্র সৈকত (একটি বর্ণিল পোস্ট)

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:০৬


ফোর্ট ব্র্যাগ ক্যালিফোর্নিয়ার মেনডোসিনো কাউন্টি উপকূলে একটি শহর। এটি প্যাসিফিক কোস্ট হাইওয়ে বরাবর সান ফ্রান্সিসকো থেকে উত্তরে, যা সান দিয়েগো থেকে ক্যালিফোর্নিয়ার উপকূলে সমস্ত পথ জুড়ে।
১৯০৬ সালে সান ফ্রান্সিসকোতে দ্য গ্রেট সান ফ্রান্সিসকো ভূমিকম্প হিসাবে পরিচিত, ৭.৮ স্কেলের এমন এক বিশাল ভূমিকম্প হয়েছিল সেখানে, ফোর্ট ব্রাগের শহর কেন্দ্র সহ বেশিরভাগ উপকূল অঞ্চল সে সময় বিধ্বস্ত হয়ে শেষ প্রায়।
ভূমিকম্পের ফলে আগুন লেগেছিল এত যে স্থানীয় কল কারখানা এবং শহরকে হুমকির মধ্যে ফেলেছিল। সমস্ত ইটের ভবন পুড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিল।

অনেকগুলি বাড়িঘর মেরামতির বাইরের পর্যায়ে ক্ষতিগ্রস্থ এবং তা বুলডোজেড করে পিন স্ট্রিটের শেষে ধ্বংসস্তূপটি বেশ আক্ষরিক অর্থে সমুদ্রে ফেলে দেওয়া হয়েছিল।

বিশ শতকের গোড়ার দিকে ফোর্ট ব্রাগের বাসিন্দারা, অন্যান্য উপকূলীয় শহরগুলির মতো, তাদের ঘরের আবর্জনা ও পাহাড়ের উপরে এবং সমুদ্রের মধ্যে ফেলে দিতেন। তারা আনুষাঙ্গিকভাবে কাঁচ, সরঞ্জাম এবং এমনকি পুরো গাড়িও চিন্তা ছাড়াই ফেলে দিত সমুদ্রে।

সেই সময়, জমিটি ইউনিয়ন ল্যাম্বার কোম্পানির মালিকানাধীন ছিল এবং স্থানীয়রা এটিকে "দি ডাম্পস" নামে অভিহিত করেছিল। এমন তিনটি সমুদ্র সাইট ছিল যা ধ্বংসস্তুপ, ইট, কাঠ এবং দুধের গ্লাস, টেবিলের জিনিস, খাবারের পাত্রে এবং খালি ওষুধের বোতল পর্যন্ত সবকিছু ছুঁড়ে ফেলার জন্য ব্যবহৃত হয়েছিল।


৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে, তীব্র তরঙ্গগুলি এই আবর্জনা ধুয়ে ফেলে দেওয়া কাঁচ ছোট, মসৃণ, রঙিন সমুদ্রের কাঁচের টুকরা হয়ে যায়।


বেশিরভাগ কাঁচের টুকরো পরিষ্কার, বাদামী এবং সবুজ। মাঝে মাঝে, এই জ্বলন্ত ধ্বংসাবশেষ থেকে সামুদ্রিক মৃৎশিল্পের টুকরো এবং গ্লাসের বিরল রঙের রঙ এমনকি "ফায়ার গ্লাস" খুঁজে পাওয়া যায়।

কেউ বুঝতে পারেনি তখন তারা ভবিষ্যতের প্রজন্মকে উপভোগ করার জন্য সবচেয়ে অবিশ্বাস্য গ্লাস বিচ তৈরি করছেন!


যেগুলো বর্তমানে বর্নীল পাথরের সমুদ্র সৈকতে পরিনত হয়েছে।
১৯৯৮ সালে গ্লাস বিচ জনসাধারনের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। আগে অবশ্য দীর্ঘ পাঁচ বছর সংস্কারকর্ম চালানো হয়। ২০০২ সালে এই সৈকতটিকে ম্যাক্যারিচার স্টেট পার্কের অধীনে নেয়া হয়।সৈকতটিতে প্রতি বছর প্রায় ১০,০০০ দর্শনার্থীর আগমন ঘটে। গড়ে প্রতিদিন এ সংখ্যা হাজার থেকে বারশো। আমি এই গ্লাস বিচ কোন একদিন স্বচক্ষে দেখার এবং নিজ ক্যামেরায় পাথরগুলোর ছবি তোলার ইচ্ছা পোষন করি।

তথ্য ও ছবিঃ গুগল
মনোমুগ্ধকর গ্লাস বিচ
Glass Beach

মন্তব্য ৫৬ টি রেটিং +৯/-০

মন্তব্য (৫৬) মন্তব্য লিখুন

১| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:১১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: সুন্দর পোস্ট ধন্যবাদ ইতিকে

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:১৫

সামিয়া বলেছেন: Thank you too apu :)

২| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:২২

নতুন বলেছেন: চমতকার :)

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:২৬

সামিয়া বলেছেন: চমৎকার বানান ভুল :(

৩| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৪৩

রাজীব নুর বলেছেন: পাথর গুলো কি সুন্দর!!!

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৫৮

সামিয়া বলেছেন: আসলেই, আফসোস যে পাথরের ছবি গুলো নিজে হাতে তুলতে পারলাম নাহ।

৪| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:২৮

এম. হাবীব বলেছেন: বাহ্ চমৎকার সব বর্ণিল পাথরের সমাহার; পোষ্ট পড়তে পড়তে মনে হচ্ছিল বিচেই ঘুরছি :)
সুযোগ পেলে হাটতে হাটতে একদিন গ্লাস বিচে ঘুরে আসার ইচ্ছা আছে :)
অত্যন্ত মনোমুগ্ধকর সেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:৩৭

সামিয়া বলেছেন: সুন্দর মন্তব্যের জন্য আপনাকে ও ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন।

৫| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:৫৯

এল গ্যাস্ত্রিকো ডি প্রবলেমো বলেছেন: মাইন্ড ব্লোয়িং!

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:৩৭

সামিয়া বলেছেন: Exactly..

৬| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:১৫

নেওয়াজ আলি বলেছেন: ছবি দেখে আর আর বর্ণনা পড়ে ঘুরে আসলাম স্বপ্নে :D

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:৩৮

সামিয়া বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই

৭| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:০৫

ডার্ক ম্যান বলেছেন: ব্লগের এই মহামন্দার কালে নিয়মিত পোস্ট বেশ আশাবাঞ্জক খবর।
এই বছর কি নতুন কোন বই আসছে ।

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:১২

সামিয়া বলেছেন: কি যে বলেন, আমার থেকে কত ভালো ভালো ব্লগার আছে, আমি আর এমন কি পোস্ট দেই।
এই বছর নতুন কোন বই আসছে না, ধন্যবাদ।

৮| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:২৯

ফয়সাল রকি বলেছেন: আমিও একবার ঘুরে আসবার ইচ্ছা পোষণ করছি।

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:১৪

সামিয়া বলেছেন: আশা পুরনের দোয়া রইল

৯| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:৩৪

নতুন বলেছেন: লেখক বলেছেন: চমৎকার বানান ভুল :(

অফিসের কি বোর্ড থেকে ৎ খুজে পাইনা :) তাই ত দিয়াই চালাইয়া দিছি

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:১৬

সামিয়া বলেছেন: হাহাহা আমার একবার এই সমস্যা হয়েছিল, প্রশ্নবোধক চিহ্ন দিতে পারতাম না , তখন বাক্য শেষ করতাম নাকি বলে :) যেমন খেয়েছো নাকি, গেছো নাকি , আসছো নাকি , যাবা নাকি, :) :) :)

১০| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:৪০

মোহামমদ কামরুজজামান বলেছেন: আহাঃ !! বড়ই সৌন্দর্য!!!

ঝামেলাপূর্ণ জীবনে একঝলক শান্তির পরশ বুলিয়ে কিছুক্ষনের জন্য ভাললাগায় বুদ করে দিল আপনার এ পোস্ট।

ময়লা থেকে যদি এরকম দারুন কিছু হয় তাহলে ময়লাই ভাল।

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:১৭

সামিয়া বলেছেন: ময়লা থেকে না অধিকাংশ পোড়া থেকে হয়েছে ধন্যবাদ ধন্যবাদ :) :)

১১| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:৫২

মিরোরডডল বলেছেন:




ইস ! কি ভীষণ সুন্দর !
কিছু আবার দেখতে ললিজের মতো :)
দারুণ সামিয়াপু ।






১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:১৮

সামিয়া বলেছেন: এগুলো কি সমুদ্রের পাথর না চকলেট না আর্টিফিশিয়াল স্টোন?

১২| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:৫৬

মাসুদুর রহমান (শাওন) বলেছেন: মনটা ভরে গেলো...

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:১৯

সামিয়া বলেছেন: আসলেই এত সুন্দর পাথরগুলো

১৩| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:৫৬

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি ইহা দেখেননি? আপনি কোথায় থাকেন?

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:৫৭

সামিয়া বলেছেন: ক্যালিফোর্নিয়ার সী বীচ কি আমার দেখার কথা? আমি বাংলাদেশে থাকি।

১৪| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৩০

মেহেদি_হাসান. বলেছেন: কোনদিন দেখার ইচ্ছে আছে

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:৫৭

সামিয়া বলেছেন: আশা পূর্ণ হোক আপনার

১৫| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:৫৩

নাসরীন খান বলেছেন: অসম্ভব সুন্দর।আমার ভীষণ দেখতে ইচ্ছে হচ্ছে।

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:৫৮

সামিয়া বলেছেন: দোয়া করি আশা পূর্ণ হোক আপনি স্বচক্ষে এগুলো দেখেন

১৬| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:২২

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: বিশ্বাস করতে মন যায় না !! আবর্জনা এমন রত্ন হয়ে ফিরে এলো!!

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:৫৮

সামিয়া বলেছেন: রাসায়নিক বিক্রিয়ার ব্যাপার কিছু আছে, যেমন করে হীরা হয়।

১৭| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৫৯

শায়মা বলেছেন: আহা কি যে অপরূপ!


আমি যদি একটাও পেতাম!!!

আহা......

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৪৪

সামিয়া বলেছেন: ক্যালিফোর্নিয়ার গ্লাস সী বীচ‌ থেকে ঘুরে এলেই পারো আপু।

১৮| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:০৬

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: আসলেই, আফসোস যে পাথরের ছবি গুলো নিজে হাতে তুলতে পারলাম নাহ।

আপনি কোন ক্যামরা ব্যবহার করেন?

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৪৭

সামিয়া বলেছেন: আমার ক্যামেরা হলো নিকন D5100, অফিসে থেকে যেটা ব্যবহার করি সেটা হলো ক্যানন eos-6D এই ক্যামেরাটা অসাম।

১৯| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ভোর ৪:২৬

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি যায়গাটা না দেখেও লিখতে পেরেছেন, আমি দেখার পরও বেশীরভাগ সময় লিখতে পারি না।

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৪৮

সামিয়া বলেছেন: আপনি এইখানে গিয়েছিলেন?

২০| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ৮:৩৫

কাছের-মানুষ বলেছেন: চমৎকার ছবিগুলো! ভাল পোষ্ট।

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৪৮

সামিয়া বলেছেন: ধন্যবাদ :)

২১| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:১২

কল্পদ্রুম বলেছেন: পৌরাণিক কোন সমুদ্র সৈকত যেখানে মণিমুক্তো ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে। তবু কেউ সেখান থেকে কিছু আনতে পারে না। ছবিগুলো সুন্দর।

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৫৫

সামিয়া বলেছেন: ধন্যবাদ, আপনাকে ব্লগ থেকে আগে থেকে চিনি, মন্তব্য করা হয়নি, আপনার লেখা সব কয়টা গল্প আমি পড়েছি, সব কয়টাই শ্রেষ্ঠ গল্প। হিজড়াদের বাচ্চা হীন সংসারহীন জীবনের হাহাকার নিয়ে গল্পটা মনে দাগ কেটেছে, লাশ ভেবে কবর স্থানে সৎকারের নামে মেরে ফেলা অনুবাদ গল্পটি দুর্দান্ত, আর চোখ রিপ্লেসমেন্ট এর গল্পটি মনে হচ্ছিল আগে পড়েছিলাম, ওটা কি রহস্য পত্রিকায় ছাপানো হয়েছিল?

২২| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:৩৫

ইসিয়াক বলেছেন: সুন্দর পোস্ট।

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৫৬

সামিয়া বলেছেন: ধন্যবাদ ভাইয়া

২৩| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:৫৭

করুণাধারা বলেছেন: আসলে অফলাইনে বাবুটাকে দেখে ঠিক করেছিলাম মন্তব্য করবো এভাবে বাবুর ছবি না দিতে। এখন দেখছি পোস্ট নাই। ভালো করেছেন। বাবুর জন্য অনেক দোয়া।

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:০১

সামিয়া বলেছেন: আমাদের রাজীব নুর ভাই কে দেখি তার বাবুর ছবি দেয়, তাই আমার লেখার সাথে প্রাসঙ্গিকতায় আমার বাবুর পিক দিয়েছিলাম ব্লগে দেয়ার পর থেকেই অস্বস্তি লাগছিলো তাই সরিয়ে ফেলেছি। ধন্যবাদ।

২৪| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:৫৮

করুণাধারা বলেছেন: চমৎকার ছবি ভয় এই পোস্টে লাইক।

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:০২

সামিয়া বলেছেন: ভয় শব্দটা ভুলে হয়ে গিয়েছে বোধহয়! ধন্যবাদ

২৫| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:১৫

মা.হাসান বলেছেন: আপনার আম্রিকা যাইয়া ছবি তোলা লাগবে না। আমরা কক্সবাজারে যা ফালাইতেছি তাতে ত্রিশ বছর পর কক্সবাজারও এইরাম সুন্দর হইয়া যাইবে, তখন তুইলেন। B-))

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:০৩

সামিয়া বলেছেন: হাহাহাহাহাহাহাহাহাহা চমৎকার আশাব্যঞ্জক কমেন্টের জন্য ধন্যবাদ :)

২৬| ২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ভোর ৪:৩৩

চাঁদগাজী বলেছেন:



আমাদের ১ জন ব্লগার উনার খোঁ দিয়েছেন; কিন্তু সমস্যা আছে, আমাদের কিছু করার মতো অবস্হা ওখানে নেই।

২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:৪০

সামিয়া বলেছেন: আচ্ছা, বুঝেছি।

২৭| ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:৩৪

কল্পদ্রুম বলেছেন: কোথাও ছাপানো হয়নি।ঐসব লেখা তো সিরিয়াস কিছু না।তবুও আপনার প্রতিমন্তব্য পড়ে ভালো লাগলো।অপ্রত্যাশিত চমক বলা যায়।ব্লগে পুরাতন লেখাগুলো সময় পেলেই পড়ি।আপনার লেখাগুলোও আমি পড়েছি।যদিও সব এখনো পড়তে পারিনি।আপনার জন্য শুভকামনা রইলো।

০১ লা মার্চ, ২০২১ বিকাল ৪:৫৬

সামিয়া বলেছেন: প্রতি মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ আপনার জন্য ও শুভকামনা

২৮| ০২ রা মার্চ, ২০২১ বিকাল ৫:৩১

মিরোরডডল বলেছেন:




স্যরি ফর লেইট রিপ্লাই সামিয়াপু ।
আমার ছবিটা ছিল ললিজ :)
ঐযে বললাম দেখতে অনেকটা গ্লাস স্টোনের মতো ।






০৩ রা মার্চ, ২০২১ বিকাল ৪:১০

সামিয়া বলেছেন: আচ্ছা আচ্ছা :)

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.