নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ব্লগের স্বত্বাধিকারী সামিয়া

সামিয়া

সৎ, সাদাসিধা মানুষ। একটু স্বাধীন টাইপ। পড়তে ভাললাগে, লিখতে ভাললাগে, ছবি তুলতে ভাললাগে, মানুষের মুখে হাসি দেখতে ভাললাগে।

সামিয়া › বিস্তারিত পোস্টঃ

মরে গেলে তো তুমি একবারে গেলে মরিয়াই

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:১০


জাপানে দিন দিন আত্মহত্যার পরিমান বাড়ার কারনে বিশেষ করে করোনা মহামারির সময়ে গত অক্টোবরের জরিপেই দেখা যায় আত্মহত্যা করেছেন ২ হাজার ১৫৩ জন, করোনায় গত শুক্রবার পর্যন্ত মারা গেছেন ২ হাজার ৮৭ জন, করোনার ভুগে মরার মৃত্যু থেকে ইচ্ছা মৃত্যু বেশি হওয়ায় জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা একাকীত্ব মন্ত্রণালয়ের গঠনের ঘোষণা দেন। জাপানের প্রথম একাকীত্ব মন্ত্রী তেতসুশি সাকামোতো।

জাপানের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সারাবিশ্বের মানুষ। আধুনিক যুগের কারনে মানুষ নিজের মতন একা একা বসবাস করতে করতে, কারো সাহায্য ছাড়া বিপদে আপদে একা চলতে চলতে, অতিরিক্ত কাজ করতে করতে নিজের জীবনের উপর ত্যাক্ত বিরক্ত হয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়াই সহজ মনে করেন তাদের জন্য।

এখন মন্ত্রী তেতসুশি সাকামোতোর কাজ হল এই সকল মানুষের “অবসাদ, একাকীত্ব কাটাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া তাদের বিনোদনের ব্যাবস্থা করা, কাজের পরিমান কমিয়ে দেয়া, তাদের মনের ভার লাঘব করে দেয়া। ভালো পদক্ষেপ।
বিশ্বের মধ্যে ইচ্ছা করে মরে যাওয়া লোক নাকি জাপানে বেশি, এটা কিন্তু জোর দিয়ে বলা যায় না, কারন এসবের জরিপ সব দেশে হয়না বলে জানা যায় না, কোন দেশ জরিপ করলেও প্রকাশ করেনা,জাপানে আত্মহত্যার তথ্য নিয়মিত প্রকাশ করা হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আত্মহত্যার তথ্য প্রকাশ করা হয় বেশ বিলম্বে।
যুক্তরাষ্ট্রে এ সংক্রান্ত তথ্য সর্বশেষ ২০১৮ সালে প্রকাশ করা হয়েছিল তারপর এরা এসব ব্যাপারে একদম চুপ। এখন ঐ সকল দেশের বাংলাদেশি প্রবাসি যাদের এই তথ্য জানা নেই তারা বলবে “আমরা কত ভালো দেশে বাস করি দেখছো আমাদের আমেরিকা লন্ডনে তো আত্মহত্যাই হয়না আমরা তো স্বর্ণ দিয়ে ব্রেকফাস্ট করি। আত্মহত্যা করো তোমরা গরীব বাঙ্গালী জাতিরা শুধু।''

জাপানে কিন্তু আত্মহত্যা করার জঙ্গল ও আছে, জঙ্গলটার নাম হল অকিগাহারা, ৩৫ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই বন থেকে প্রতিবছর গড়ে একশ জন মানুষের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।
এখন জাপানের প্রথম একাকীত্ব মন্ত্রী তেতসুশি সাকামোতোর প্রথমেই উচিৎ ঐ জঙ্গলে অবসাদ্গ্রস্ত মানুষের দল বল নিয়ে যেয়ে আত্মহত্যার পার্ককে বিনোদন পার্কে রূপান্তর করা। দুনিয়ায় এই জিনিস যে আর কোথাও নাই এটা ভালো ব্যাপার।

ছবিঃনেট

মন্তব্য ২৪ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (২৪) মন্তব্য লিখুন

১| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:৩৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: কেন যে মানুষ এ পথই বেছে নেয় :(

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:৫১

সামিয়া বলেছেন: হুম :(

২| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:৫৭

ডার্ক ম্যান বলেছেন: সবাই তো আর মানসিকভাবে শক্তিশালী নয় তাই আত্মহত্যার মত পথ বেছে নেয় । যার উপর যায় সে বুঝে ।

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:০৪

সামিয়া বলেছেন: 100% true

৩| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:০৭

মেহেদি_হাসান. বলেছেন: কোথায় যেন পড়েছিলাম যুক্তরাষ্ট্রের গোল্ডেন গেইট ব্রিজ আত্মহত্যা করার জন্য বিশ্বের অন্যতম কুখ্যাত স্থান,ওখানে প্রতি দুই সপ্তাহে গড়ে একজন করে আত্মহত্যা করে।

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:১০

সামিয়া বলেছেন: আনজানা আনজানি মুভির‌ starting সুইসাইড শুট মনেহয় ঐ ব্রিজটাতে করেছিল।

৪| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:৪০

ফয়সাল রকি বলেছেন: যারা আত্মহত্যা করতে চায় তাদের খাঁচার মধ্যে পুড়ে চিড়িয়াখানায় রাখা উচিত। ব্যাপারটা আরো ইন্টারেস্টিং করার জন্য বাঘ/সিংহের পাশের খাঁচায় রাখা যেতে পারে।

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৩৯

সামিয়া বলেছেন: আপনি এটা কি মন্তব্য করলেন, আত্মহত্যা করে মানুষ ডিপ্রেশন থেকে আর ওটা একটা অসুখ, সব রোগের মতন এটার ও চিকিৎসা দরকার আর জাপান সেই পদক্ষেপই নিয়েছে সেটাই বোঝাতে চেয়েছি আমি, আর এই ধরণের রোগে আক্রান্ত মানুষের জন্য সকলের অনেক অনেক ভালোবাসা প্রয়োজন ঠাট্টা বা তিরস্কার নয়।

৫| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:২২

রাজীব নুর বলেছেন: কাতারে যে আমাদের দেশের প্রবাসী ভাইরা মরছে সেই খবর রাখেন?

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৩৬

সামিয়া বলেছেন: কাতারে শুধু বাংলাদেশি শ্রমিক মারা যাচ্ছে তা নয় ভারত পাকিস্থান নেপাল শ্রীলঙ্কা সহ আরও দেশের মানুষ মারা গেছে এবং যাচ্ছে গত দশ বছর ধরে এটা হচ্ছে, বাংলাদেশের চাইতেও ভারতের শ্রমিক বেশি মারা গেছে, আমি পোস্ট করেছি রিসেন্ট একটা নিউজ নিয়ে, এর ভেতর আপনার প্রশ্নের সামঞ্জস্য কি?? টপিকের বাইরে উল্টা পাল্টা মন্তব্য করতে আসলে আঙুল কেটে দিবো ভাই হাসতে হাসতে।

৬| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৪৭

নজসু বলেছেন:


লেখাটা পাঠ করলাম আর প্রথম লাইক দিলাম।
বিচিত্র দেশ জাপান।

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৫৫

সামিয়া বলেছেন: আর বইলেন‌ না আমার‌ লেখাই কেউ লাইকই দিতে চায় না :) বিশ্ব বিখ্যাত সব ব্লগারদের আশেপাশেই তো দাঁড়াতে পারিনা আবার লাইক, আপনার প্রথম লাইকের জন্য কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ কষ্ট করে পড়ার জন্য।

৭| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:২৬

সপ্তম৮৪ বলেছেন: জাপানের মন্ত্রী যদি আত্মহত্যার পার্ককে বিনোদন পার্কে রূপান্তর করতে সফল হন তাইলে একবার সেই পার্কে ঘুরে আসবো।

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:৩৭

সামিয়া বলেছেন: ভালো‌ ইচ্ছা পোষন করেছেন।

৮| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:০৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


পুরো জাপানী জাতি এক মেকানিক্যাল জীবনের অবতারণা করেছে, তারা বিয়ে করছে না ঠিক সময়ে; ইহা পুরো জাতিকে এক ভুল জীবনের দিকে টানছে।

২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:৫৮

সামিয়া বলেছেন: True...

৯| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:৪৭

শায়মা বলেছেন: আত্মহত্যার জন্য আবার জঙ্গলও বানিয়ে দিয়েছে! কেমন বুদ্ধি চিন্তা করো....

২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৪৫

সামিয়া বলেছেন: ওটা অটো তৈরি হয়ে গিয়েছে আপু :)

১০| ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১২:৩৭

রাজীব নুর বলেছেন: বোন আমার মন্তব্যের উত্তর দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।

২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৪৫

সামিয়া বলেছেন: প্রতি উত্তরে মাইন্ড করেননি!!! হাহাহা!!

১১| ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ২:৪১

অনল চৌধুরী বলেছেন: জাপানে এই সমস্যা গত ৫০ ধরেই আছে। কিন্ত এখনো রাশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, বেলজিয়াম ও ভারত জাপানের উপরে।List of countries by suicide rate
চাঁদগাজী বলেছেন:পুরো জাপানী জাতি এক মেকানিক্যাল জীবনের অবতারণা করেছে, তারা বিয়ে করছে না ঠিক সময়ে; ইহা পুরো জাতিকে এক ভুল জীবনের দিকে টানছে- বিয়ে করে পরকিয়া করার চেয়ে না করা অনেক ভালো।

২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৪৬

সামিয়া বলেছেন: ভালো মন্তব্য, অনেক ধন্যবাদ। ভালো থাকুন।

১২| ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ৮:১৭

কবিতা ক্থ্য বলেছেন: আত্মহত্যার জন্য কারো যদি সঙ্গী- সাথীর দরকার হয় আমারে আওয়াজ দিয়েন।
সাথীর অভাবে ওই পথ মাড়ানো হয়নাই।

২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৫০

সামিয়া বলেছেন: মরে গেলে তো কারো উপকার হবে না, আমার বাসায় জীবিত কাজের লোক দরকার :) :)

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.