নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

অনেকে আমাকে \'স্বপ্নবাজ সৌরভ\' নামে চেনে।

স্বপ্নবাজ সৌরভ

এমন যদি হতো , ইচ্ছে হলে আমি হতাম প্রজাপতির মতো!

স্বপ্নবাজ সৌরভ › বিস্তারিত পোস্টঃ

না , পৃথিবী ধ্বংস হয় নি !

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৩৬



গতকাল ডিসেম্বরের ২১ তারিখ এক বিশেষ দিন ছিল। পৃথিবী টিকে থাকবে, নাকি প্রলয়ে ধ্বংস হবে নাকি হারিয়ে যাবে কালের গর্ভে?

আজ থেকে সাত বছর আগে। ২০২১ সালের ২১ ডিসেম্বর তারিখটাকে ঘিরে দোদুল্যমান ছিল বিশ্বের অনেক মানুষ। পৃথিবী কি তাহলে ধ্বংস হয়ে যাবে ? প্রশ্ন টা ছিল এখানে ওখানে , চায়ের কাপে , আড্ডায় ক্লাসরুমে।

কারণ, মায়া সভ্যতার বর্ষপঞ্জির হিসাব অনুযায়ী ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর— এই দিনটিতে এই মহা পৃথিবী ধ্বংস হওয়ার ভয়াবহ আভাস ছিল । মায়া সভ্যতার বর্ষপঞ্জি অনুযায়ী ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর শেষ দিন।

দক্ষিণ আমেরিকায় ইউরোপীয় উপনিবেশ স্থাপনের আগে এই বর্ষপঞ্জি অনুসরণ করত ওই অঞ্চলের মানুষ। পরে চালু হয় গ্রেগরিয়ান বর্ষপঞ্জি। সেই বিখ্যাত মেসো-অ্যামেরিকান লং কাউন্ট ক্যালেন্ডার পাঁচ হাজার ১২৫ বছরের বৃত্ত শেষ করবে ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর। এ কারণে গুঞ্জন শুরু হয়েছিল, ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর পৃথিবীর শেষ দিন। কিন্তু ধ্বংস হবে কি ভাবে ? ভূমিকম্প , জলোচ্ছাসের মতো কোনো কিছুর প্রভাবে ?

না , সেই সময় এক তত্ত্ব হাজির করেছিল গবেষকেরা। সুমেরীয়দের আবিষ্কৃত গ্রহ নিবিরু আর পৃথিবীর কক্ষপথ একই রেখায় চলে আসবে , অতঃপর পৃথিবীর ধ্বংস অনিবার্য।

মেসোপটেমিয়ার পটভূমিতে কল্পকাহিনী অনুযায়ী , নিবিরু গ্রহটি ৩৬ হাজার বছরে একবার সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে। ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর ! কি অদ্ভুত মিল। এই মনগড়া তথ্যের ওপর আগুনে ঘি ঢেলে দিল ন্যান্সি লেইডার। তার দাবি তার সঙ্গে ভিন গ্রহের বুদ্ধিমান প্রাণির যোগাযোগ আছে। এবং নিবিরু গ্রহটি পৃথিবীতে আছড়ে পড়বে। বুঝুন অবস্থা !

একেতে রহস্যময় মায়া সভ্যতা , ভিনগ্রহের প্রাণী তার সাথে আবার যুক্ত হলো হলিউড মুভি ২০১২। '২০১২' মুভিটি মুক্তি পায় ২০০৯ সালে।ভয়াবহতা আর চরম উত্তেজনায় মানুষ ধ্বংস হতে দেখলো পৃথিবী।

পৃথিবী কিন্তু ধ্বংস হয়ে যায় নি। আমার ধারণা খুব শিগ্রী পৃথিবী ধ্বংস হচ্ছে না। মানুষ জ্ঞান - বিজ্ঞানে আরো শক্তিশালী হবে। মানুষ পৌঁছে যাবে জ্ঞানের চরম শিখরে। হুমায়ুন আহমদের ফিহা , লিলিয়ান , স্রুরার মতো মহামতিরা জন্ম নিবে। হয়তো সময় সমীকরণের সমাধান হবে একদিন। কত নতুন জ্ঞান, নতুন পথ, আপনি এসে ধরা দেবে মানুষের হাতে।

২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর পৃথিবী ধ্বংস হয় নি। নিবিরু গ্রহ আছড়ে পড়েনি পৃথিবীর বুকে। দিব্যি টিকে আছে।
তবে আমরা পৃথিবীকে ভালোবাসি না , জীবনানন্দের মত পৃথিবীকে দেখি না। আমরাই নিয়ে যাচ্ছি পৃথিবীকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তরে।
নিবিরু গ্রহ কে এই পৃথিবীর জ্ঞানী মানুষেরা আটকে দেবে। ভিনগ্রহের প্রাণীকেও কব্জা করবে এই পৃথিবীর মানুষ। কিন্তু আমরাই যদি ......

মন্তব্য ৪৪ টি রেটিং +৭/-০

মন্তব্য (৪৪) মন্তব্য লিখুন

১| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৫০

কনফুসিয়াস বলেছেন: বেচে থাকতে আরো কত আজব কিচ্ছা শুনতে পাব। B-)

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৫২

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: সব শুরু হয় ওই মার্কিন মুলুক থেকেই। :)

২| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:১৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




স্বপ্নবাজ সৌরভ ভাই,
এটি একটি ট্রেইলার মাত্র সিনেমা এখনো বাকী আছে আমার ভাই! ২০১২ সনে পৃথিবী ধ্বংস হয়নি তবে পৃথিবী ধ্বংস হওয়ার নমুনা সিনেমা এটি কিভাবে পৃথিবী ধ্বংস হতে পারে তার চিত্র। চীনাদের সূত্রে পৃথিবী ধ্বংস হতে সময় নেবে তবে মানুষ শেষ হয়ে যাবে তারও অনেক আগে। যাই হোক আমি আপনি এতোদিন বাঁচবো না। চলুন ভালো কাজ করি আর ভালো খাওয়া দাওয়া করি।

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:২৮

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:

মহাপ্রলয় দেখার কোন ইচ্ছাই আমার নেই। :)
এখনো বেঁচে আছি। স্কুলে যখন স্ক্যাউটিং করতাম তখন ভালো কাজের একটা খাতা ছিল। সপ্তাহের শেষে ভালো কাজের খাতা টা স্যার কাছে জমা দিলাম। স্যার সবারটা পরে শোনাতেন। কেউ আজ নিঁ গাছে উঠে প্রতিবেশীর জন্য নিমপাতা পেড়ে দিয়েছে , কেউ বাজার করে দিয়েছে।
আমি তো গাছে উঠতে পারিনা , বাজারেও যায় না। লজ্জা লাগত।
ভালো কাজ করা খুব কঠিন মন হতো।
স্যার আমার খাতা পড়তে লাগলেন।
শনিবার --- রাস্তায় ফেলে রাখা কলার খোসা পরিষ্কার করছি।
রবিবার --- রাস্তায় ফেলে আবর্জনা পরিষ্কার করছি।
সোমবার --- রাস্তায় পরে থাকা ইট সরিয়ে রেখেছি।

সবাই হেসে উঠলো। স্যার সবাইকে থামালেন। বললেন , ভালো কাজ কর খুব কঠিন কিছু না। শুধু শুরু করার সাহস আর ইচ্ছা থাকতে হবে।
তখন ক্লাস সিক্সে পড়ি , দিব্যি মনে আছে।

৩| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:০৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




স্বপ্নবাজ সৌরভ ভাই,
আপনি যে কাজ করেছেন তা করার মতো মন মানসিকতা বাংলাদেশর ৯৯% মানুষের নেই। আপনি ১০০ জনের মাঝে ১ জন মানুষ। আপনি ধন্যবাদ পাবার যোগ্য। আমার ধন্যবাদ গ্রহন করুন।

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩০

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: ধন্যবাদ স্যার। ছোটবেলার ওই অভ্যাস টা রয়ে গেছে। সুযোগ পেলে রাস্তায় পরে থাকে প্লাস্টিকের বোতল কিংবা ইট সরিয়ে রাখার চেষ্টা করি , তবে সেটা ১০ বারে ১ বার। :(

৪| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১৯

জাহিদ হাসান বলেছেন: :) :)

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩২

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: মজা পেলেন নাকি ? :)

৫| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৩৬

কামরুননাহার কলি বলেছেন: পশ্চিমা দেশগুলোরা দেখবেন কয়দিন পর বলবে ভিনগ্রহের প্রাণীর সাক্ষাৎকার নিয়ে আসছি আমরা। হাহাহাহাহা।

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৪

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: হতে পারে। ভিনগ্রহের প্রাণীর সাথে সাক্ষাৎ জরুরি। :)

৬| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৪৮

ফয়সাল রকি বলেছেন: গাছ লাগানো শুরু করা উচিত সবারই।

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪০

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: এটাই সঠিক পন্থা। প্রত্নতান্ত্রিকরা ধারণা করেন মায়া সভ্যতার পতন হয়ে গিয়েছিলো অনাবৃষ্টি আর বনাঞ্চল বিলীন হবার কারণে।

৭| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৪

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
কেয়ামত ছাড়া আর কোনভাবেই পৃথিবী একেবারে ধ্বংস হবে না।

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৫

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
কেয়ামত হবে পৃথিবীর পরিবেশের চরম বিপর্যয়ের মাধ্যমে( আমার ধারণা ) । তেমন জানা নেই।

৮| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫১

শের শায়রী বলেছেন: অনেক দিন পর আপনার কাছ থেকে একটা দারুন পোষ্ট পেয়েছি। ২০১২ আমি দেখছি অনেক আগে এই সব নিয়ে গুল তাপ্পি মার্কা ছবি দেখতে খারাপ লাগে না, তবে এটাও আমি বিশ্বাস করি এই গ্রহ এভাবে ধ্বংস হবে না, একটা নির্দিষ্ট পর্যায় পর্যন্ত যাওয়া আমাদের নিয়তি কারন আইনষ্টাইনের সেই বিখ্যাত উক্তি আবার মনে পড়ল "ঈশ্বর তার সৃষ্টিকে নিয়ে পাশা খেলে না।"

এরকম লেখা আরো চাই ব্রাদার। সামু সমৃদ্ধ হোক।।

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:১১

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:

ঈশ্বর তার সৃষ্টিকে নিয়ে পাশা খেলে না।
ধন্যবাদ প্রিয় ব্লগার , লেখা টা আরো বড় করার ইচ্ছা ছিল। পরে কেন জানি আর মন টানলো না। ভালো থাকবেন। আশা করি আরো লিখবো।

৯| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৫১

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: উল্কাপিন্ড সম্পর্কে অবগত আছেনে নিশ্চয় । পৃথিবীর বুকে এমন উল্কাপাতের ঘটনা আছে।ে আপনাদের দাক্ষিনাত্যে একটি উল্কাপাত হয়েছিল । মধ্যাকর্ষ অভিকর্ষ বল শেষ হয়ে গেলে পৃথিবীর ধ্বংস অনিবার্য ।

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:০১

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: কোনো না কোনো ভাবে তো ধ্বংস হবেই। ধন্যবাদ প্রিয় কবি।

১০| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:০৯

সোনালী ডানার চিল বলেছেন:

আপনার কথাটি একদম সঠিক,
পৃথিবীতে আমরা ভালোবাসি না; আসলে আমাদের সবার কি জীবনানন্দের চোখ আছে!
দেখার বাইরেও অদৃশ্যমান ভবিতব্য সেখানে ক’জনই চিন্তা রাখতে পারছি!!

তবুও শুভবুদ্ধির মানুষেরা পরস্পর ছডিয়ে দিক স্বপ্নালু সৌরভ!!

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:০৯

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
পৃথিবী হয়তো কয়েক মিলিয়ন বছর বেঁচে থাকবে কিন্তু মানুষ নিঃশেষ হবে তারও আগে। পৃথিবীতে মানুষের কার্যবিধি সেটাই বলে।
ধন্যবাদ আপনাকে।

১১| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:১২

রাজীব নুর বলেছেন: তবে পৃথিবী ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে।
ভালো করে চারপাশ দেখুন আলামত দেখতে পাবেন।

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১২

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: পৃথিবীর কয়েক মিলিয়ন বছর টিকে থাকবে কিংবা না। কে জানে কি ?

১২| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৭

নুরহোসেন নুর বলেছেন: আমরা বেঁচে আছি আজো এর থেকে আনন্দ আর নেই!

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১২

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
সেটাই বড়ো কথা। :)

১৩| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৫৮

রূপম রিজওয়ান বলেছেন: দারুণ বিষয়,চমৎকার কথামালা!+++++++
আরেকটু বড় করতে পারতেন :(
হা হা হা! ভালো স্মৃতি মনে করিয়ে দিয়েছেন। তখন আমি ক্লাস ফাইভের সমাপনী পরীক্ষা শেষ। ২১ ডিসেম্বর বন্ধুরা মিলে মজা করে উদযাপন করেছিলাম। যদিও এখন বুঝি...
যাহোক,শেষ আড়াই লাইনে যা বলেছেন,আসল কথা ওটাই।

আছেন কেমন,ভাইয়া? ব্লগে আজকাল কম আসা হয়?

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১৪

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: মন্তব্যে অনেক ধন্যবাদ। হমম , আমিও ভেবেছিলাম -- লেখাটা বড় করা যেত।
ইদানিং খুব ঝামেলা যাচ্ছে। কম আসছি খেয়াল করেছেন দেখে খুব ভালো লাগল।
ভালো থাকবেন।

১৪| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:১১

আহমেদ জী এস বলেছেন: স্বপ্নবাজ সৌরভ,




ভয় পাবার কিছু নেই, এতো সকালে ধ্বংস হচ্ছেনা পৃথিবী । প্রাকৃতিক ভাবেই পৃথিবী নামক গ্রহটির আয়ু আছে আরো প্রায় ৫বিলিয়ন বছর, যখন সূর্য ছোট বামন তারায় পরিনত হবে তার ফুয়েল খুঁইয়ে।

আমরা মানুষেরা পৃথিবীকে ধ্বংস করতে পারবোনা তবে মনুষ্য প্রজাতি এবং তাবৎ প্রানীকূল ধ্বংস হয়ে যেতে পারে ঐ সময়ের মধ্যে।

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১৭

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
পৃথিবী থাকলেও হয়তো মানুষ থাকবে না। আমারও মাঝে মাঝে মনে হয়।
না স্যার , পৃথিবী ধ্বংস হওয়া নিয়ে মোটেই ভয় পাচ্ছি না। :)
ধন্যবাদ নিন। ভালো থাকবেন।

১৫| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৩৫

সাইন বোর্ড বলেছেন: সত্য এবং ভালবাসা যতদিন পৃথিবীতে বেঁচে থাকবে ততদিন আমার মনে হয় পৃথিবীও টিকে থাকবে ।

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১৯

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
সত্য আর ভালোবাসা বিহীন পৃথিবী চকচকে কিন্তু আবেগহীন।নিস্প্রাণ।

১৬| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:২৭

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: বেশ লাগল প্রিয় সৌরভ ভাই পুরানো এবং অজানা কিছু বিষয়কে নতুন আঙ্গিকে তুলে ধরা।
পোষ্টে সপ্তম লাইক।

শুভেচ্ছা নিয়েন।

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:২১

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
হাস্যকর একটা বিষয় ছিল কিন্তু। :)
ধন্যবাদ প্রিয় ভাই।

১৭| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৩২

রাজীব নুর বলেছেন: সবার মন্তব্য গুলো পড়তে পোষ্টে আবার আসা।

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:২২

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
হালকা পোষ্ট কিন্তু ভারী মন্তব্য !! :)

১৮| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:১৬

মলাসইলমুইনা বলেছেন: স্বপ্নবাজ সৌরভ,
এখনো কেউ যখান বলে চলো সোভিয়েত দেশ বেড়িয়ে আসি সেজন্য আমি ও আরো কত ব্লগার এক পায়ে রাজি হয়ে থাকি ---আর এর মধ্যে আপনি কি সব হিপোকেলিপ্টিক কথা বলছেন ! পৃথিবীর এখনো ধ্বংসের অনেক বাকি । তার আগে আরেকটা রাশিয়ান ভিসার বন্দোবস্ত করুন আমার (আমাদের) জন্য ।

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:২৪

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: ইশ , পৃথিবী ধ্বংসের আগেই যদি সোভিয়েতের দেশ থেকে ঘুরে আসা যেত। :)

১৯| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:২০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ভালো লাগলো পোস্ট

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:৩৭

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: ধন্যবাদ ছবি আপু। পৃথিবীর জন্য শুভকামনা। :)

২০| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:২১

পদ্মপুকুর বলেছেন: মানুষ নিজের সৃষ্টি আর ধ্বংসের সীমা-ই বলতে পারেনা ঠিক করে, আর বলবে পৃথিবী ধ্বংসের সীমার কথা! পাবলিককে ফাসানোর জন্য হলিউডের কত্ত আইডিয়ার দরকার হয়, আর সেইগুলো দেখে বেকুব আম্রিকানরাও লাফাইতে থাকে। ৯৭-এ আইবিএ অডিটোরিয়ামে প্রথম 'ইনডিপেন্ডেন্স ডে' দেখার সময় শুনলাম, এই মুভিতে হোয়াইট হাউজ ভেঙে পড়ার দৃশ্য দেখে নাকি আম্রিকানরা সব হায় হোসেন হায় হোসেন করতে করতে রাস্তায় নেমে এসেছিলো.... মানে হোয়াইট হাউজই না থাকলে আর এই দেশের কি হবে!

যাইহোক, ঠাকুর মাহমুদ এর মন্তব্যের প্রতিমন্তব্যে খুব মজা পেলাম। আমি নিজেও স্কাউটিংয়ে ছিলাম।

মলাসইলমুইনা স্যার, রাশায় ক্যান?

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:২৯

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: আম্রিকানরা পারেও ! :)
ইন্ডিপেন্ডেন্স ডে দেখেছি সম্ভবত ১৯৯৬ সালে ৮/৯ পড়তাম।
অনেক ধন্যবাদ আপনাকে। স্কাউটিং নিয়ে অনেক মজার স্মৃতি আছে।

২১| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৫

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:
গল্পের বই সত্যি হওয়ার কারণ নেই। ২০১২ আগেই সবাই নিশ্চিত ছিল এ নিয়ে
উল্কায় পৃথিবী ধ্বংস হবে না। এজাবত অনেক বড় বড় উল্কার আঘাত সহ্য করে টিকে আছে পৃথিবী।

বিজ্ঞানীদের হিসেবে পৃথিবীর আয়ু আছে আরো প্রায় ২ বিলিয়ন বছর, মানুষ শিল্পবিপ্লবের পর মাত্র ২০০ বছরে বিপুল বিজ্ঞান প্রযুক্তির অগ্রগতি সম্ভব করেছে।
আগামী এক হাজার বছরে জড়া মোকাবিলা করে মানুষের আয়ূ, জ্ঞ্যন, টেকনোলজি সক্ষমতা ধারণাতীত পর্যায়ে বেড়ে যাবে। মিলিয়ন বছরে অসীম..........

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:৩৫

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
মায়া দিনপঞ্জি অনুযায়ী কাল্পনিক নিবিরু গ্রহ পৃথিবীর মুখোমুখি চলে আসবে। গল্পটি বেশ ছিল। তবে পৃথিবী কোনো এক কারণে ধ্বংস হবে একদিন।
Y2K নিয়েও ইলেক্ট্রনিক্স জগতে ভয়াবহ গুজব ছিল। ভাগ্যিস সেই সময় ফেসবুক ছিল না।

২২| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৫

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:
গল্পের বই সত্যি হওয়ার কারণ নেই। ২০১২ আগেই সবাই নিশ্চিত ছিল এ নিয়ে
উল্কায় পৃথিবী ধ্বংস হবে না। এজাবত অনেক বড় বড় উল্কার আঘাত সহ্য করে টিকে আছে পৃথিবী।

বিজ্ঞানীদের হিসেবে পৃথিবীর আয়ু আছে আরো প্রায় ২ বিলিয়ন বছর, মানুষ শিল্পবিপ্লবের পর মাত্র ২০০ বছরে বিপুল বিজ্ঞান প্রযুক্তির অগ্রগতি সম্ভব করেছে।
আগামী এক হাজার বছরে জড়া মোকাবিলা করে মানুষের আয়ূ, জ্ঞ্যন, টেকনোলজি সক্ষমতা ধারণাতীত পর্যায়ে বেড়ে যাবে। মিলিয়ন বছরে অসীম..........

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:৩৫

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
মায়া দিনপঞ্জি অনুযায়ী কাল্পনিক নিবিরু গ্রহ পৃথিবীর মুখোমুখি চলে আসবে। গল্পটি বেশ ছিল। তবে পৃথিবী কোনো এক কারণে ধ্বংস হবে একদিন।
Y2K নিয়েও ইলেক্ট্রনিক্স জগতে ভয়াবহ গুজব ছিল। ভাগ্যিস সেই সময় ফেসবুক ছিল না।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.