নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

শব্দকবিতা : শব্দেই দৃশ্য, শব্দেই অনুভূতি \n\[email protected]

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই

দুঃখের কবিতাই শ্রেষ্ঠ কবিতা। ভালোবাসা হলো দুঃখ, এক ঘরে কবিতা ও নারী।

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই › বিস্তারিত পোস্টঃ

আমার বাবা ও আমি

১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:৪৬

আমি বা আমার বাবা

ঘরের ভেতর অগোছালো হাঁটছিলাম
সহসা আয়নায় নিজের ছায়া দেখে আঁতকে উঠি-
আয়নার ভেতর অই যে পায়চারিরত লোকটা, সে আমি নই,
সে আমার বাবার ছায়া।
কখনো নিজের কণ্ঠস্বরেই চমকে উঠি, একি! আমার গলায়
যে-জন কথা বলে উঠলো, সে তো আমি নই, অবিকল বাবার কণ্ঠস্বর।

বাবার যৌবন বুড়ো হয়ে গেল আমার যৌবনে
ধীরে ধীরে বাবা তাঁর সমগ্র সত্তায় ভর করেন আমার অবয়বে
আমার বাবার ভেতরে আমি
কিংবা আমার ভেতরে আমার বাবা
বাবার পদছাপে পা ফেলে ক্রমশ ছুটে চলি বাবার অন্বেষণে।

১২ জুলাই ২০১৩



বর্তমান পুরুষের প্রথম ক্রমিক


আমার মুক্তিযোদ্ধা চাচা ছিলেন
ভাইবোনদের মধ্যে জ্যেষ্ঠতম
তিনি ২০০৬ সালের ৬ এপ্রিলে মারা যান

ভাইবোনদের মধ্যে দ্বিতীয়া ছিলেন আমার ফুপু
২০১১ সালের জুলাইয়ে তিনি মারা গেলেন

আমার পূর্বপুরুষদের শেষ মহীরুহ
আমার বাবা- সারাবেলা তসবি হাতে দিন গুনতেন
আর ভাইবোনের চলে যাওয়া পথের দিকে
ধুধু চোখে তাকিয়ে থাকতেন
তারপর ১৩ ফেব্রুয়ারি : ২০২০-এর একটা উজ্জ্বল করুণ দিনে
তিনিও অনন্ত মহাকালের গর্ভে ডুব দিলেন

আমার পূর্বপুরুষেরা যে ক্রমিকে পৃথিবীতে অবতরণ করেছিলেন
প্রয়াণ ঘটেছে একই রীতিতে

বর্তমান পুরুষের প্রথম ক্রমিকে
যে নামটি জ্বলজ্বলে অপেক্ষমান- তার নাম আমি

৭ জানুয়ারি ২০১২/২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০



**

স্যাড নোট : আমার বাবা ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখে ইহলোকের মায়া ছেড়ে অনন্তকালের জীবনে পাড়ি জমান। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন। আপনারা আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন প্লিজ।

মন্তব্য ১৮ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (১৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:২২

নেওয়াজ আলি বলেছেন: শুভ কামনা অহর্নিশি। ♥♥।

২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৪

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ নেওয়াজ আলি।

২| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ১২:১৬

করুণাধারা বলেছেন: দোয়া করি আল্লাহ আপনার বাবাকে জান্নাতবাসী করুন।

২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ আপু।

৩| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ১:১৪

নিভৃতা বলেছেন: আল্লাহ উনাকে জান্নাত নসিব করুন। উনার আত্মার শান্তি কামনা করছি।

২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ নিভৃতা।

৪| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ৩:১৯

সোহানী বলেছেন: ওপারে ভালো থাকুক বাবা। জানি কি বিষন্নতায় ভরা আপনার মন.....

২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৯

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: বাবার কথা বলতে গেলে, একমনে ভাবতে থাকলে আপনা আপনি চোখ গড়িয়ে পানি পড়ে
আপন মৃত্যুগুলো এমনই

৫| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:৩০

রাজীব নুর বলেছেন: কাল আপনার বাবা'র কথা জানতে পেরেছি জাদিদ ভাইয়ের কাছ থেকে।
আল্লাহ আপনার বাবাকে জান্নাতবাসী করুন।

২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫১

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: জাদিদ ভাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমার এই শোক সংবাদটা এই ব্লগের ফেইসবুক গ্রুপে শেয়ার করার জন্য। সকল সহব্লগারকে ধন্যবাদ আমার বাবার জন্য দোয়া করার জন্য।

৬| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৪:৪৩

মিরোরডডল বলেছেন: ধুলো আই’ম সো সরি টু নো ইউর নিউজ ।
আই ডোন্ট নো হোয়াট টু সে ।
আমি নিজে এসময়ের মধ্যে দিয়ে গিয়েছি । আই ক্যান ফিল ইট ।
আই উইশ ইউ এন্ড ইউর ফ্যামিলি ক্যান ম্যানেজ দিস টাফ টাইম টুগেদার ।

২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: আপন মৃত্যুগুলো সবকিছু উলট পালট করে দিয়ে যায়। আমার বাবার মৃত্যু হলো ৮০ বছর বয়সে। এ বয়সে মৃত্যুটা আল্লাহর কাছে আমাকে আরো নতজানু করেছে। আমার মায়ের মৃত্যু হয়েছে আমি যখন ক্লাস সেভেনে পড়ি। আমার বাবার মৃত্যুও আমার ঐ বয়সে হতে পারতো। আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি, আল্লাহ আমার বাবাকে আমাদের লালন পালন করার সুযোগ দিয়েছিলেন। আল্লাহর কাছে এখন এটাই প্রার্থনা, আমার মহান বাবাকে আল্লাহ যেন বেহেশত নসিব করেন।

৭| ১৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:২৯

রুমী ইয়াসমীন বলেছেন: প্রার্থনা করি মহান আল্লাহ আপনার বাবাকে জান্নাতবাসী করুন।

২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ রুমী ইয়াসমীন।

৮| ২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫৮

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: আল্লাহ উনাকে জান্নাত নসিব করুন। উনার আত্মার শান্তি কামনা করছি।

২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৩৭

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ সেলিম আনোয়ার ভাই।

৯| ২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪০

পদ্ম পুকুর বলেছেন: ১৯৯৯ এ প্রথম আলো বাবা দিবসে একটা সাপ্লিমেন্ট করেছিলো সুমনা শারমীনের সম্পাদনায়। অসাধারণ ওই সাপ্লিমেন্টে একটা ফিচার ছিলো সদ্য বাবাহারা একজনকে নিয়ে। শুরুটা এমন ছিলো যে, বাবাহারা হওয়ার তিন চারদিন পর সে ভার্সিটিতে এসেছে, বন্ধুরা তাঁকে সহজ করার চেষ্টা করছে। বিভিন্নভাবে সমবেদনা জানাচ্ছে। কিন্তু ছেলেটা কোনো কথারই জবাব দিচ্ছে না বরং কিছুটা রাগ লাগছে তার। কারণ আমার কষ্টটা আমাকেই বুঝতে দাও, আমার যা হারিয়েছে সেটা তুমি কোনোদিনই বুঝবে না..... এরকম।

এটা আসলেই সত্যি। যখন নিকটাত্মীয় হারিয়ে যায়, তখন আশেপাশের সবাই শুধু সমবেদনাই জানাতে পারে, দোয়া করতে পারে, কিন্তু দিনশেষে প্রিয়জন হারানোর কষ্টটা একান্তই নিজের। আর বাবা-মা হলে তো কোনো কথাই থাকে না।

আপনি ব্লগে শেয়ার দিয়েছেন। দোয়া করি আপনি যেন এই কঠিন মুহূর্তে ধৈর্য্যধারণ করতে পারেন, এই অপরিসীম কষ্ট থেকে দ্রুতই স্বাভাবিক হতে পারেন। সাথে সাথে চাচাজানকে আল্লাহ জান্নাত দান করুন। আমিন।

খুব সম্ভবত একই দিনে অফিসে আমার ডিপাটর্মেন্টের এক সহকর্মীর মা মারা গিয়েছেলেন চেন্নাইয়ে। আমি এয়ারপোর্টে গিয়েছিলাম উনার মৃতদেহ গ্রহণ করতে। যখন তাঁর কফিন বের হয়ে আসছে, আত্মীয় পরিজনের কষ্টকর প্রকাশ আমি সহ্য করতে পারছিলাম না। আমার সর্বশেষ পোস্টটা পড়তে পারেন, এ বিষয়ে লেখা।

তবুও ভালো থাকবেন।

০৩ রা মার্চ, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৩

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: আপনার পোস্টে গিয়েছিলাম। কোনো মৃত্যুর বর্ণনা, পিটিয়ে মানুষ, এমনকি প্রাণী মেরে ফেলার দৃশ্য আমি এড়িয়ে চলার চেষ্টা করি। এগুলো আমার ব্রেইনে খুব চাপ ফেলে, ঘন ঘন চোখে ভাসতে থাকে। তাই আপনার পোস্টের প্রথম কিছু অংশ পড়ার পর আর সামনে যাই নি।

আমার এক ক্লাসমেট বললো সেদিন, মা-বাবা মারা যাবার পর তাদের কথা উঠলে আপনা-আপনিই চোখ গড়িয়ে পানি পড়তে থাকে। কথাটা খুব সত্য। আমার মা মারা যায় ১৯৮০ সালে। এর প্রায় ৮/৯ বছর পর আমি চাকরিতে ঢুকি। চাকরির প্রথম দিনে আমার কলিগরা জিজ্ঞাসা করলো- আপনার মা কী করেন? (পেশা কী?) আমি নিজেই অবাক হলাম, আমি কথা বলতে পারছি না, আমার চোখ দিয়ে দরদর বেগে পানি পড়ছে, মনে হচ্ছে আমার বুক ভেঙে যাচ্ছে। এরপর বহুবার এমন হয়েছে।

আমার বাবাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকার পথে রওনা দিল আমার মা। মাঝপথে এসে মা বললো- তোমার বাবার তো দম পাওয়া যাচ্ছে না, নাড়িও পাওয়া যাচ্ছে না। আমি তখন অফিসে, আমার সামনে কয়েকজন কলিগ, আমি মায়ের সাথে কথা বলতে পারছি না, অটোমেটিক্যালি আমার গলা দিয়ে উচ্চস্বরে কান্না বের হচ্ছে- হায়, বাবার সাথে তো আমার শেষ কথাটা হলো না, শেষ কথাটা না বলেই বাবা চলে গেলো?

বাবার জন্য দোয়া করবেন ভাই।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.