নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

প্রথমত আমি মানুষ, তাই মানবতার প্রাধান্য সবার আগে, তারপর না হয় জাতিগোষ্ঠীর প্রাধান্য। -- [email protected]

হাবিব ইমরান

ভালো লাগে প্রচুর পড়তে, জানতে, ভাবতে এবং স্বাধীনভাবে ঘুরে বেড়াতে। ধার্মিকতা আর বকধার্মিকতার ক্ষেত্রে বাড়াবাড়ি বিলকুল অপছন্দ।

হাবিব ইমরান › বিস্তারিত পোস্টঃ

\'অর্থ-সম্পদ-প্রভাব\' নয়, নৈতিকতা আর ভালোবাসা ই মানুষকে বাঁচিয়ে রাখে অনন্তকাল

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ সকাল ১১:০৮



টাকা-কড়ি, ধন-সম্পদ, অর্থ, ঐশ্বর্য, দামি অলংকার, উৎকৃষ্ট আরাম দায়ক গাড়ী, উঁচু দালান বাড়ী, জমিদারি সহ সবকিছুই মানুষের নিত্য দিনের চাওয়া পাওয়া। কে না চায় তার জীবনে অঢেল সম্পত্তি?
আজকের দিনে প্রভাব প্রতিপত্তির জন্যই চ্যালেঞ্জিং পৃথিবীতে দিন রাত এক করে লড়ে যাওয়া ।
একটু শান্তিতে থাকতে পারবে, শান্তিতে ঘুমোতে পারবে তার জন্যই এতকিছুর আয়োজন!
কিন্তু আদৌ কি মানুষ শান্তিতে থাকতে পারছে? উত্তর আসবে- হয়তো পারছে আবার হয়তো না!
কিন্তু এতকিছু হওয়ার পরেও 'হয়তো না' কেউ শুনতে ইচ্ছে করবেনা। এরকম উত্তর আসাও উচিত নয় । শান্তি কেন থাকবে না? শান্তি থাকতেই হবে! এতোকিছু করেছিলাম কিসের জন্য ? - শান্তির জন্যই তো!
কিন্তু শান্তি কেন আসবেনা?

জরিপে দেখা যায়,
মানুষ অভাবে মারা যাওয়ার সংখ্যা যতটা তার চেয়ে বেশি মারা স্বভাবে । কিভাবে?
অভাবে কিছু সংখ্যক মারা যায় এটা ঠিক । কিন্তু স্বভাবে মারা যায় আরো বেশি ।
মানুষের জন্মগত একটা অভ্যাস হলো লোভ । আর লোভ ই সব কিছুর মূলে। অপরাধ, চরিত্রহীনতা, অন্যায়, বিবেদ, সম্পর্ক ভাঙ্গন সহ নানান সমস্যা দেখা দেয়। লোভে পড়ে মানুষ কি না করে!
খুন পর্যন্ত করতে হাত বাড়ায় । আর স্বভাবের কারণেই দেখা দেয় সমস্যা, বিশৃঙ্খলা । সংসারে দেখা দেয় দ্বন্দ্ব, অশান্তি । লোপ পায় আন্তরিকতা, ভালোবাসা, সম্মান । হারিয়ে যায় নৈতিকতা, আদর্শ, মূল্যবোধ । ফলে পরিবার থেকে সমাজে, সমাজ থেকে আরো বড় পরিসরে এটা ছড়িয়ে পড়ে ছোঁয়াছে রোগের মতো । যার প্রতিকার সহজভাবে কল্পনাও করা যায়না । আর এর মধ্যেই হারিয়ে ফেলতে হয় জীবনের অনেক মূল্যবান সময়, সম্মান।
হারিয়ে ফেলতে হয় সবচেয়ে কাছের প্রিয় জিনিসটিও । দেখা দেয় ভালোবাসার অভাব । আর এ ভালোবাসার শূন্যতার অভাবের জন্যই মূলত এর প্রতিরোধ, প্রতিকার সম্ভব হয়ে উঠেনা ।
আর এভাবে ধ্বংস করে দেয় নিজেকে ।

স্বভাববশতঃ মানুষ স্বাধীনচেতা জীব । Psychology তাই বলে । বুঝ-জ্ঞান হওয়ার পর থেকেই নিজেকে 'একটা কিছু' ভাবতে গিয়েই এ স্বভাবের সূত্রপাত ঘটায় । আদেশ, নিষেধ, বৈধ, অবৈধ, নৈতিক, অনৈতিক, ভালো, মন্দ, উচিৎ, অনুচিৎ সহ Ethical কোন কিছুই গায়ে নিতে চায়না । 'গায়ে রক্ত আছে? তো কিসের ভীরুতা, এগিয়ে চলো বীরের মতো' নীতিতে চলতে গিয়ে তারা মূলত এ বিপত্তি বাঁধিয়ে ফেলে। সমাজ থেকে ঠেলে দেয় বিশৃঙ্খলার দিকে । হাতে টাকা আছে, উড়িয়ে দাও পাতার মতো । ভাত ছিটালে যেমন কাকের অভাব হয়না, তেমনি টাকা ছিটালেও অপরাধীরা এক হতে সময় লাগে না । অপরাধীদের না আছে Ethics আর না আছে Religion আর না আছে Reason. টাকা আর মাদকই হলো তাদের আসল Religion. সমাজের, পরিবারের সন্তানরা 'অন্ধকার পথ' এ পথে যাওয়ার একমাত্র কারণ হলো মাদকের সহজলভ্যতা । যার ফলে একজন থেকে আরেকজন আরেকজন থেকে আরেকজন এভাবে একজনের দেখাদেখি আরেকজন এ পথে পড় বাড়াতে সক্ষম হয় ।
'কি ব্যাপার সে যেহেতু মাদক সেবন করছে আর তাকে কেউ কিছু বলছেনা, আমিও সেবন করি তাহলে আমাকেও কেউ কিছু বলবেনা' এ নীতিতে চলতে গিয়ে মাদক সেবনকারীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আর ধ্বংস হচ্ছে দেশ, জাতি । বিপথে যাচ্ছে যুব সমাজ । অঙ্কুরেই নষ্ট হচ্ছে দেশের ভবিষ্যত্ প্রজন্ম । আজ যাদের হাতে দেশ গড়ার সরঞ্জাম দেয়ার কথা ছিলো তাদের হাতে আজ মাদক আর অস্ত্র দিয়ে দিয়ে মূলত দেশকেই ধ্বংস করে দেয়া হচ্ছে ।

প্রশ্ন উঠতে পারে,
কেউ একজন প্রস্তাব করলেই কি খারাপ হয়ে যেতে হবে? ব্যক্তির কি বিবেক ছিলো না?

এ প্রশ্নের উত্তরে দেখা যাবে,
এসব অপরাধ জগতে কখন মানুষ যায়?
স্বাভাবিকত মানুষ আবেগীও । আর এ অতিরিক্ত আবেগের কারণেই মানুষ খারাপ পথে পা বাড়ায় । কেউ প্রিয়জন হারানোর শোক থেকে এ পথে পা বাড়ায়, আর কেউ অর্থের লোভে । আবার কেউ পা বাড়ায় পারিবারিক ভালোবাসা না পাওয়ার অভাবে ।
আবার অনেক পরিবারে দেখা যায় অতিরিক্ত শাসনের প্রবণতা, আর এই অতিরিক্ত শাসনই তাদের বিপথে পরিচালনা করার জন্য সহযোগীতা করে ।
আবেগ, ভালোবাসা, শাসন সহ সবকিছুই হওয়া উচিৎ নির্দিষ্ট মাত্রার । বেশিও নয়, কমও নয় । বেশি হলে আশকারা পেয়ে মাথায় উঠে যায়, আর ভয় পায়না । ফলে যা ইচ্ছে তাই করে । আবার পরিবারে ভালোবাসা কম হয়ে গেলে অন্য কোথাও ভালোবাসা খুঁজতে গিয়ে এ সমস্যার সম্মুখীন হয়ে পড়ে ।

তাই অনিয়ন্ত্রীত জীবনযাপন মানুষকে অন্ধ করে ফেলে । পাশাপাশি জাতির জন্য তৈরি করে এক ভয়াবহ সমস্যা।

তাই,
শাসন, অর্থ সম্পদের পাশাপাশি নৈতিকতা শিক্ষা এবং প্রকৃত ভালোবাসাই মানুষকে অন্ধকার জগতে যাওয়া থেকে বিরত রাখতে পারে ।

আসুন বৃহত্তর স্বার্থে একে অপরকে ভালোবাসি । লোভ নয়, ভালোবাসাই সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন এ সময়ের জন্য ।

মন্তব্য ১৪ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ সকাল ১১:৪১

সনেট কবি বলেছেন: ভাল লিখেছেন।

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:০৮

হাবিব ইমরান বলেছেন: ধন্যবাদ। ভালোবাসা।

২| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ সকাল ১১:৫৫

পাঠকের প্রতিক্রিয়া ! বলেছেন: সুন্দর ভাবনা।


"'অর্থ-সম্পদ-প্রভাব' নয়, নৈতিকতা আর ভালোবাসা ই মানুষকে বাঁচিয়ে রাখে অনন্তকাল।"
কথাটা হয়তো ঠিক। কিন্তু বাস্তবে টাকা আর ক্ষমতা না থাকলে মানুষ সমীহ করতে চায় না।।

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:১২

হাবিব ইমরান বলেছেন: হয়তো আপনার কথা ঠিক।
কিন্তু মনের প্রশান্তি বলে একটা কিছু তো আছে। আর সে জন্যই ভালোবাসা থাকাটা জরুরি। টাকা পয়সা আসবে যাবে কিন্তু ভালোবাসা!

৩| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:২৯

মেহেদী হাসান হাসিব বলেছেন: ঠিক বলছেন।

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:১২

হাবিব ইমরান বলেছেন: ধন্যবাদ সাপোর্ট দিয়ে পাশে থাকার জন্য।

৪| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ দুপুর ২:১৪

আবু মুহাম্মদ বলেছেন: লোভ নয় ভালবাসাই সব থেকে বেশি প্রয়োজন। কিন্তু এ সত্য কেউ বোঝে না।

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৫৯

হাবিব ইমরান বলেছেন: ঠিক বলেছেন।
কেউ এটা বুঝতেও চায়না।

৫| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:০৪

রাজীব নুর বলেছেন: আপনার পোষ্ট টি পর-পর দুই বার পড়লাম।
চমৎকার লিখেছেন।

আমি খুব বুঝতে পারছি এই শহরের মানুষ দিনদিন খুব বেশি অমানবিক হয়ে পড়ছে।

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ১১:০২

হাবিব ইমরান বলেছেন: পৃথিবী খারাপ মানুষের জন্য ধ্বংস হবে না।
ধ্বংস হবে ভালো মানুষদের নিশ্চেতনার কারণে।

৬| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:৫১

সোনালী ঈগল২৭৪ বলেছেন: খুব ভালো লিখেছেন , এই কথা যদি সবাই উপলব্ধি করতো তবে আমাদের দেশের হিংসা , হানাহানি অনেকটাই থাকতো না , তারপরেও স্বপ্ন দেখি কোনোএকদিন এই শহরের মানুষগুলো দিন শেষে নিশ্চিন্ত মনে ঘুমুতে যাবে

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ১১:০৭

হাবিব ইমরান বলেছেন: ধন্যবাদ, আশাবাদী হয়ে সহমর্মিতা জ্ঞাপন করে আশাবাদী করার জন্য।
প্রতিরাতেই স্বপ্ন দেখি একটি নিরাপদ নতুন সকালের।

৭| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৫৮

আলআমিন১২৩ বলেছেন: বাস্তবতায় পূর্ন সঠিক চিন্তা সমৃদ্ধ লেখাটি ভালো লাগলো। ধন্যবাদ।

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রাত ১১:০৮

হাবিব ইমরান বলেছেন: ধন্যবাদ জনাব, ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা রাখবেন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.