নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

জ্ঞানের আলো ছড়িয়ে পড়ুক জগতের কোনায় কানায়।

ক্ষুদ্রমানব

একজন জ্ঞানপিপাসু মানুষ

ক্ষুদ্রমানব › বিস্তারিত পোস্টঃ

নবী মুহাম্মদের জন্মদিন

২১ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:০৪



আজ ১২'ই রবিউল আউয়াল
ইসলাম ধর্মের প্রবর্তক- ''আবু আল-কাশিম মুহাম্মাদ ইবনে ʿআবদুল্লাহ ইবনে ʿআবদুল মুত্তালিব ইবনে হাশিম ওরফে হযরত মুহাম্মদ সঃ এর জন্মদিন ।
অনেকে'র মতে তাঁর জন্ম ৫৭০ খ্রিষ্টাব্দে অনেকের মতে ৫৭১ খ্রিষ্টাব্দে ।
জন্মসাল নিয়ে যেমন মতবিরোধ আছে তেমনি তারিখ নিয়ে'ও মতবিরোধ আছে।
জন্মসাল নিয়ে মতবিরোধের কারণ- মধ্যযুগে আরব পঞ্জিকায় ১২ মাসের হিসেব থাকলেও বছরের কোনো হিসেব হতো না। শাবান মাস, রজব মাস, মুহররম মাস এই রকম ১২ মাসের নাম ছিলো । কিন্তু জানুয়ারি ফেব্রুয়ারি'র মতো কোনো বছরের নাম ছিলো না ।
তারা বছর হিসেব করতো ঘটনার মধ্য দিয়ে যেমন- ওকাজ মেলার পরের মাসে এই শিশুটির জন্ম হয়েছে বা এ' ঘটনার এক মাস আগের ঘটনা।
এরুপ আবাবিল পাখির ঘটনা অনুযায়ী নবী মুহাম্মদের জন্মসালকে হস্তিবর্ষ দ্বারা নির্দেশিত করা হয় ।
নবী মুহাম্মদ ছিলেন ইসলাম ধর্মের প্রবর্তক এবং অন্ধকারাচ্ছন্ন বা জাহিলিয়া যুগের সংস্কারক অর্থাৎ তৎকালীন আরবের সমাজসংস্কারক ।
ধর্ম নির্বিশেষে আস্তিক নাস্তিক সকলের কাছে তিনি ছিলেন প্রচন্ড জ্ঞানী ও মেধাবী একজন । রাজনৈতিক পরিসরে'ও তিনি ছিলেন সফল । ৭০০ কোটি জনসংখ্যার এ নীল গ্রহে তাঁর অনুসারীর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৫০ কোটির'ও উপরে। আলোচনা সমালোচনার পর্ব ছাড়িয়ে মাইকেল এইচ হার্টসের ''১০০ মনিষীর জীবনীতে'' স্থান পেয়েছেন সকলের শীর্ষে ।
বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর, সমাজসংস্কারক, বুদ্ধিমান রাজনৈতিক ব্যাক্তির জন্মদিনে জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা ।

মন্তব্য ৫ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৫) মন্তব্য লিখুন

১| ২১ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:৪৬

মা.হাসান বলেছেন: ১২ই রবিউল আওয়াল নবীজির জন্মদিন না। জন্মদিন কবে তা নিয়ে মতভেদ আছে। কারোকারো মতে নবীজি মহররম, সফর, রজব এমন কি রমজান মাসে জন্ম নিয়েছেন।
এই বিষয়ে দ্বিমত নাই যে ১২ রবিউল আওয়াল নবীজির মৃত্যু দিবস। মৃত্যু উৎসব পালনের জন্য ঢোল-বাদ্য সহ রাস্তায় উল্লাস মিছিল করতে পারেন। তবে রোজা রাখা বা সদকা করাই বেশি ভাল হবে।

২| ২১ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৫:৫৩

আব্দুল্লাহ্ আল মামুন বলেছেন: ভালো লাগলো।।

৩| ২১ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: নিখিল-নাস্তিক ও অখিল-আস্তিক সকল ভাইবোনকে নবী-জয়ন্তীর শুভেচ্ছা।

৪| ২১ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:৪৬

হাবিব স্যার বলেছেন: সুন্দর, ভালো লাগলো.............

৫| ২১ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:৫৭

ঢাকার লোক বলেছেন: জন্ম সন এবং তারিখ নিয়ে মতভেদ থাকতো না যদি রাসুল্লাহ (স) তাঁর জন্মদিন ঈদ হিসাবে পালনে অনেক সওয়াব হবে বলে যেতেন অথবা নিজে বা তাঁর সাহাবারা তৎকালে তাঁর জন্মদিনকে বিশেষ দিন হিসাবে মিসিল প্যারেড করে উদযাপন করতেন !

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.