নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আধার রাত্রি ভোরের অনেক বাকী স্বপ্ন দেখার সুযোগ এখন তাই

চলে যেতে যেতে বলে যাওয়া কিছু কথা

মাহিরাহি

বাড়ী আখাউড়া। আখাউড়া রেলওয়ে হাইস্কুল থেকে পাস করে সোজা ঢাকায় চলে আসি। কিছুদিন সিটি কলেজে ছিলাম। ছিলাম জগন্নাথেও। তারপর টোকিওতে কাটিয়েছি সাড়ে ছয়টি বছর। দেশে ফিরে এসে চাকুরি আর সংসার নিয়ে আছি। দুটো ছেলে, মাহি আর রাহি। একজনের সাড়ে ছয় আর আরেকজনে সদ্য চার পেরিয়েছে। ওদের নামদুটো জুড়ে দিয়েই আমার নিকের জন্ম। বেশিরভাগ সময়কাটে সন্তানের সান্নিধ্য। ঘরকুনো মানুষ আমি। লেখালেখিতে হাতেখড়ি এই সা ইন বল্গে এসেই। কেউ বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিল ফিরিয়ে দেয়ার মত উদ্ধত্য আমার নেই। সবারই বন্ধু হতে চাই।

মাহিরাহি › বিস্তারিত পোস্টঃ

আপনার সন্তান যেন একজন সৎ এবং সাধাসিধে মানুষ হয়।

০৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:০৬

স্যার আপনাদের মত গুনী মানুষদের কর্মই যুগে যুগে পৃথিবীর চেহারা পাল্টে দিয়েছে। আমার মত মায়েরা স্বপ্ন দেখে তার সন্তান যেন আপনার মত গুনী মানুষ হয়।

প্রফেসর স্মিত হাসলেন। তারপর বললেন, দেখুন আমার বাবা একজন কৃষক ছিলেন। তিনিই আমায় পড়ালেখায় উতসাহ যুগিয়েছিলেন। কিন্তু একসময় আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে রণে ভঙ্গ দেন। আমাদের প্রতিবেশি ছিলেন একজন জেলে, ছিলেন তিনি নি:সন্তান। তিনি দয়াবশত: আমার পড়ালেখার ভার নেন। সবচাইতে মজার ব্যপার আমাদের আশেপাশের দশগ্রামে কোন স্কুল ছিল না। আমাদের গ্রামের স্কুলটি নির্মাণে সবচাইতে বেশি অবদান ছিল নিরক্ষর এক কাঠমিস্ত্রির। সে বহুবছরের পরিশ্রমে বিদ্যালয়টি নির্মাণে নিরলশ পরিশ্রম করে গিয়েছেিল। স্কুলটি প্রথম শিক্ষকটিকে অর্ধশিক্ষিত বললে অতুক্তি হবে না। শিক্ষাদান করে কোন অর্থ গ্রহন করতেন না। এদের প্রায় সবাই অতন্ত্য সত এবং সাধাসিধে অশিক্ষিত মানুষ ছিলেন। আর হ্যা আমার গায়ের এক দরিদ্র দোকানির কথা বলতে ভুলেই গেছি। প্রতিদিন স্কুল থেকে ফেরার পথে আমার হাতে একটা চকলেট ধরিয়ে দিতেন। সবশেষে মায়ের কথা বলি। অর্ধাহারে অনাহারে থেকে আমার জন্য ভাল খাবারের ব্যবস্থা করতেন। ছিলেন আমার পড়ার সহপাঠি। মায়ের দোয়া', আমাদের দেশে এই বাক্যটি আপনার চোখেপড়বে অনেক জায়গাতেই, সেই মায়ের দোয়া এবং স্নেহকে আমার একজন গুনী মানুষ হওয়ার চাইতেও মূল্যবান মনে হয়।


মন্তব্য ৯ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৯) মন্তব্য লিখুন

১| ০৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:১৩

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: সত না সৎ হবে

০৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:১৪

মাহিরাহি বলেছেন: ধন্যবাদ। সৎ কিভাবে টাইপ করতে হয়!

২| ০৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:৫৯

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: এটাই সবার প্রত্যাশা....

০৭ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ৮:৫৩

মাহিরাহি বলেছেন: ধন্যবাদ

৩| ০৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:০১

রাজীব নুর বলেছেন: মা তো সন্তানদের জন্য সব সময় ভালো দোয়াই করেন। কিন্তু সব সন্তান ভালো হয় না।

০৭ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ৮:৫৩

মাহিরাহি বলেছেন: সব সন্তানেরা যেন ভাল হয়

৪| ০৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১১:২৫

সনেট কবি বলেছেন: ভাল লিখেছেন।

০৭ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ৮:৫৩

মাহিরাহি বলেছেন: ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য

৫| ১০ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৫১

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন:




আমার সন্তান যেন থাকে দুধে ভাতে । তারা যেন মানুষ হয় ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.