নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সাধারণ একজন মানুষ। বলার মতো বিশেষ কিছু নেই। মনের ভাবনাগুলো তুলে ধরতে চাই। ভালো লাগে কবিতা, লিখা-লিখি আর ছবি তোলা, এইতো! https://bhuiyan.us/

ইফতেখার ভূইয়া

গণতন্ত্র মুক্তি পাক, পরিবারতন্ত্র নিপাত যাক

ইফতেখার ভূইয়া › বিস্তারিত পোস্টঃ

নিউ ইয়র্কের কুইন্স বরোর রাস্তায় হাটাহাটি (ভিডিও ব্লগ)

১২ ই জুন, ২০২১ রাত ২:০৩

নিউ ইয়র্ক শহরের কুইন্স বরোতে বসবাস করছি দেড় দশকের বেশী সময় ধরে। স্বাভাবিকভাবেই এর রাস্তা-ঘাট আমার যথেষ্ট পরিচিত হলেও অনেক স্থানে ঘোরাফেরা করার সময় হয়নি। অপ্রয়োজনে ঘোরাঘুরি করার মতো যথেষ্ট সময় আমার হাতে না থাকলেও সময় করে প্রতিদিনই আমি হাটতে বের হই। হাটাহাটি বরাবরই আমার ভালো লাগে। বহুদিন আগে প্রথম আলো পত্রিকার রাশিচক্র পড়তে গিয়ে জানতে পারলাম আমার জন্ম তারিখ অনুযায়ী আমি যে জাতকের অর্ন্তগত সেই জাতকের মানুষগুলো নাকি হাটাহাটি বেশ পছন্দ করে। ব্যাপারটা জেনে ভালো লাগলেও আমি মূলত সুস্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করেই হাটাহাটি করি।

সম্প্রতি আমার এলাকার কিছুটা দূরের ৮১তম স্ট্রিটে হাটাহাটি করার জন্য বের হয়েছিলাম। ভর দুপুর না হলেও কিছু পড়ন্ত বেলায় বের হয়েছি। তার কারণ হলো সূর্যের আলোতে ভিডিওর মান তুলনামূলকভাবে ভালো হয়। যেই ভাবনা সেই কাজ। ক্যামেরা নিয়ে বের হয়ে গেলাম। যাত্রা শুরু হলো রুজভেল্ট এ্যাভিনিউ আর ৮১তম স্ট্রিটের সংযোগ স্থান হতে। যাত্রা শেষ হয়েছে ২৫তম এ্যাভিনিউতে গিয়ে। সে যাত্রার অংশ বিশেষের ভিডিও শেয়ার করছি আপনাদের সাথে। এ সংক্রান্ত কোন প্রশ্ন থাকলে তা মন্তব্য সেকশনে জিজ্ঞেস করতে পারেন। উত্তর দেয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে। ধন্যবাদ।

মন্তব্য ৪ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১২ ই জুন, ২০২১ রাত ৩:৪০

জোবাইর বলেছেন: প্রায় ২৬ মিনিট ভিডিওতে অনেকখানি পথ হাঁটালাম, সেইসাথে অনেককিছু দেখলাম। ধারা বর্ণনায় আশেপাশের এলাকা, পার্ক এবং দালান-ইমারত সম্পর্কে কিছু তথ্য থাকলে আরো ভালো হতো।

১২ ই জুন, ২০২১ ভোর ৪:২১

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: আসলে বেশীরভাগ রাস্তাতেই আমার আগে কখনো হাটা হয়নি। অনেকটা আপনাদের সাথে আমিও ঘুরে দেখেছি। এই রাস্তাটি মূলত আবাসিক এলাকার মধ্যে, বেশীরভাগ বাড়ি বা দালানগুলোই আবাসিক। মাঝে মধ্যে কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং ধর্মীয় ইমারত দেখা যাচ্ছে। ভিডিওর সাথে/ আমার সাথে ঘুরে দেখার জন্য ধন্যবাদ। আগামীতে আরো তথ্য সমৃদ্ধ করার চেষ্টা করবো।

২| ১২ ই জুন, ২০২১ সকাল ১০:১৮

নয়া পাঠক বলেছেন: ভ্রমণ আমারো খুবই ভালো লাগে। কিন্তু এখন তেমন একটা বেড়ানোর মত সময় পাই না। তবে প্রতিদিনই হাটি কমবেশি ২০-৩০ মিনিট হাঁটি। তবে আমাদের এই সোনার বাংলায় অনেক সোনা বলে হন্টনকালীন সময় ভিডিও করে তা আপনাদের দেখানোটা উচিত বলে মনে হয় না। কারণ তাতে আমাদের সোনার বাংলার সোনাগুলি কোথায় রয়েছে কেমতে রয়েছে তা আপনারা জেনে ফেলবেন আর .......

ধন্যবাদ কষ্টকরে হেঁটে এমন একটি ভিডিও আমাদের দেখানোর সুযোগ করে দেওয়ার জন্য।

১৩ ই জুন, ২০২১ দুপুর ২:০১

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: আমি মূলত ঢাকার ছেলে। কোন এক সময় ঢাকার কিছু রাস্তা-ঘাটের ভিডিও করে সময় মতো আপলোড করে দেবো, চিন্তা করার কিছু নেই। তবে সে পর্যন্ত আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে এই যা। সময় করে ভিডিও দেখার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.