নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সালাউদ্দিন রাব্বী

রাবব১৯৭১

সালাউদ্দিন রাব্বী

রাবব১৯৭১ › বিস্তারিত পোস্টঃ

প্রসঙ্গ নবীর কার্টুন

২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:৪০

নবী মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কোন ছবি নেই বা কোন মুর্তি নেই । এখন কেউ যদি মনগড়া কোন ছবি অংকন করে আর সেটাকে মহাম্মদের ছবি বলে, আমরা মানবো কেন? সেটাকে অামরা মুহাম্মদ মনে করবো কেন? কেউ মনগড়া ছবি অাকে সেটা তো মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ছবি হলোনা। তবে ওটা নিয়ে যদি প্রতিক্রিয়া দেখাই তবে সেটা অামরা স্বীকার করলাম যে এটা মুহাম্মাদের ছবি। অাসলে মুহাম্মাদের কোন ছবির অস্তিত্ব নেই। ফ্রান্সে এ কার্টুন নিয়ে যা ঘটেছে তা সত্যি সত্যিই ন্যাক্কার জনক। তবে বাংলাদেশ থেকে ফ্রান্সের পন্য ব্যান করার যে ডাক দিয়েছেন তারা অাসলে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী, এটা করা সম্ভব নয়। যারা চেষ্টা করছেন তাদের কাছে জীবন থেকে ধর্ম বড়!

মন্তব্য ১৩ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (১৩) মন্তব্য লিখুন

১| ২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:০৭

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: ভালো বলেছেন।

২| ২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:২১

নুরুলইসলা০৬০৪ বলেছেন: এরা গান্ধীর কাছ থেকে এসব শিখেছে।এতে মুসলমানরাই ক্ষতিগ্রস্ত হবে বেশি।এরদোগানদের এর জন্য চড়া মুল্য দিতে হবে।

৩| ২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:২২

বুর্জোয়া বলেছেন: সুন্দর বলেছেন রাব্বী ভাই, জাগতিক আর মনস্ত্বাতিক স্বাধীনতা এই দুইয়ের মাঝে পার্থক্য করতে পারিনা বলেই, জাগতিক স্বাধীনতার আদলে মনস্ত্বাতিক দাসত্যকে আমরা নিজেদের অজান্তেই বয়ে বেড়াই।

৪| ২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:৪২

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: অল্প কথায় ভালো লিখেছেন। যার কোনো ছবিই নেই তাঁর ছবি আসল না নকল, কার্টুন না অন্য কিছু চিন্তা করাটাই বোকামি।

৫| ২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:৫২

শাহ্ মোঃ অ্যালিন বলেছেন: মেয়াদ উত্তীর্ণ গাঁজা সেবন করিয়াছ নিশ্চয়।আমার কাছে অবশ্যই জীবনের চেয়ে ধর্ম বড়।

৬| ২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ১০:১৭

রাজীব নুর বলেছেন: ফ্রান্সের পণ্য বর্জন আমি করবো না।

৭| ২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ১০:২৩

রাশিয়া বলেছেন: ধর্মের চেয়ে জীবন কখনোই বড় হতে পারেনা। ধর্মে আছে বলেই জীবন বাঁচাতে শুকরের মাংস খেতে কোন বাধা নেই। কিন্তু ধর্মে আছে বলেই প্রমাণিত খুনীর প্রাণ হরণ করতে বা চোরের হাত কাটতে কোন মানবিকতা দেখানো যায়না।

রাসূলের (স) কোন মূর্তি বা ছবি নেই। কিন্তু কেউ যদি সম্মান করেও তার কোন প্রতিমূর্তি অঙ্কন করে, সেটাও আমাদের অন্তরে বেদনার সৃষ্টি করে। আর ফরাসীরা তো আর সম্মান করে কার্টুন বানাচ্ছেনা, তারা নবীর (স) অবমাননা করতে চাচ্ছে। ছবি বা মূর্তি কোন বড় কথা না। অবমাননা করা হচ্ছে, সেটাই বড় কথা। এর যথার্থ প্রতিবাদ মুসলিম উম্মাহর পক্ষ থেকে করা না হলে আল্লাহ্‌র অপমানজনক শাস্তি থেকে কেউই রেহাই পাবেনা।

৮| ২৬ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ১০:৩৬

পঞ্চগড়ের বাসিন্দা বলেছেন: প্রকিত মুসলিমরা সহজেই কাফির, মুশ্রিক এবং মুসলিম নামধারী মুনাফিকদের চিনতে পারে, তারা এটাও জানে এদের সর্বশেষ পরিনতি কি

৯| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ সকাল ৮:৪৬

অগ্নিবেশ বলেছেন: রাশিয়া কুমারের বুদ্ধির লেভেল সেই রকম, আপ্নে কাফের দের হাতে বিরাট অস্ত্র তুলে দিছেন, যে কেউ আপ্নেরে স্পর্শ না করেই আপ্নের হৃদয় ফালাফালা করে দিতে পারে, শোকে আপনাকে পাগল করে দিতে পারে। আপ্নে খুব বিপদে আছেন।

১০| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ সকাল ৯:২৯

রাশিয়া বলেছেন: @অগ্নিবেশ, হ্যাঁ ভাই, আমি খুব বিপদে আছি। আমার বৌকে খুব ভালোবাসি বলেই তাঁকে নিয়ে কেউ বাজে কথা বললে আমি সহ্য করতে পারিনা। আবার বাবা মাকে ভালোবাসি বলে তাঁদের হারানোর ভয় আমাকে বিপর্যস্ত করে ফেলে। আমার সন্তানদের ভালোবাসি বলে তাদের ভবিষ্যতের চিন্তায় আমার নাওয়া খাওয়া হারাম হয়ে গেছে।

কাজেই, কাউকে ভালোবাসতে যাবেনা না। ভয়ানক বিপদে পড়বেন। একা থাকবেন। ভালো থাকলেও খুশি, মন্দ থাকলেও অসুবিধা নাই।

১১| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:১২

অগ্নিবেশ বলেছেন: রাশিয়া কুমার, ব্যক্তিগত কথা বলতে চাইনা। বৌরে ভালোবাসা ভালো, আবার দেইখেন ভালোবাইস্যা পাগল না হয়ে যান।

১২| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:৩৫

রাশিয়া বলেছেন: ভালোবাসা মানুষকে পাগল বানিয়ে ফেলে। আমার বাবাকে নিয়ে কেউ খারাপ কথা বললে সে কোন রেসলিংয়ের পালোয়ান - সেটা দেখবোনা। প্রথম চান্সেই এক ষুষিতে চোখ কানা করে ফেলব।

১৩| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ১০:৫৩

মরুর ধুলি বলেছেন: নবী (স) কে নিজের জীবনের চেয়ে ভাল না বেসে কেউ প্রকৃত ঈমানদার হতে পারেনা, সে যতো বড় সূফীই হয়ে থাকুক না কেন।
প্রত্যেক মুসলমান তার অন্তরে নবীর জন্য সর্বোচ্চ আসনটিই যত্ন করে রাখে। চাই সে ধনী, গরীব, ধার্মীক বা অধার্মীকই হোক না কেন। ঈমানদারের ঈমানের সত্যতা ও তার মাপকাঠিই হলো নবী মুহাম্মদ (স) কে সব কিছুর উর্দ্ধে স্থান দেয়া। একজন মুমিন ব্যক্তি অন্যদের চলনে-বলনে আচরণে অনুমান করতে পারে কে মুসলিম আর কে মুসলিম নামধারী মুনাফেক যেমনটি বলেছেন পঞ্চগড়ের বাসিন্দা।
নবী মুহাম্মদের কার্টুন আকা নিয়ে আজ পৃথিবীব্যাপি যে সমস্যা তার মূল অনেক গভীরে। শুধু কার্টুন একেই কি ওরা ক্ষান্ত ছিল তা নয়। বাজে মন্তব্যও নিশ্চয় করেছে যা তাদের স্বভাব। তবে এদের মূল উপরে ফেলা সহজ নয়। তবুও আমাদের আরো সতর্ক হয়ে চলতে হবে। কাফেরের ষড়যন্ত্র যতনা মারাত্বক তার চেয়ে মুনাফেকদের চরিত্র আরো মারাত্বক। এদের থেকে সাবধান।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.