নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

শয়তান এবং দুষ্ট জ্বীনকে ঘরে ঢুকতে না দেওয়া ও ঘর বন্ধ করার আমল

২৬ শে জুন, ২০২০ দুপুর ১:৪৯



হযরত কাতাদাহ রহঃ বলেছেন, যে ব্যক্তি রাতের শুয়ার সময় আয়াতুল কুরসী পাঠ করে তার কাছে দু'জন ফেরেশতা মোতায়েন করা হয়, যারা তাকে ভোর পর্যন্ত হিফাযত করে।

রাসুল সাঃ বলেন, সূরা বাকারা এমন একটি আয়ত আছে যেটি সমস্ত আয়াতের সর্দার। যে ঘরে শয়তান ও জ্বিন থাকে, সে ঘরে এই আয়াত পাঠ করলে শয়তান ও জ্বিন সেখান থেকে দৌড়ে পালিয়ে যায়, আয়াতটি হল আয়াতুল কুরসী।

হযরত ইবনু মাসউদ রাঃ হতে বর্ণিত, যে ব্যক্তি সূরা বাকারা দশ আয়াত রাতের বেলায় পাঠ করবে, সেই রাতে শয়তান বা জ্বিন সেই ঘরে প্রবেশ করতে পারবে না।
উক্ত আয়াত গুলি হচ্ছে, সূরা বাকারা শুরুতে প্রথম চার আয়াত, এক আয়াত আয়াতুল কুরসী, ও আয়াতুল কুরসীর পরের দুই আয়াত এবং বাকি তিন আয়াত হচ্ছে সুরা বাকারা শেষ তিন আয়াত।

অন্য আরেক হাদিসে এসেছে,
এরকম, যে ব্যক্তি সুরা বাকারা প্রথম চার আয়াত, আয়াতুল কুরসী, আয়াতুল কুরসী পরের দুই আয়াত এবং বাকারা শেষ তিন আয়াত পড়বে সেই দিন তার কাছে জ্বিন বা শয়তান আসবে না, তার বাড়ির লোকজনের কাছেও আসবে না, এবং পরিবারের কোন অনিষ্ট হবেনা এবং তার ধন সম্পদের কোন ক্ষতি হবেনা।

পাশাপাশি ঘর বন্ধের জন্য যে কাজটি করা যেতে পারেঃ
পাত্র পানি নিবেন এবং সেই পানিতে, আয়াতুল কুরসী, সূরা সফফাত প্রথম দশ আয়াত, সূরা জ্বিনের প্রথম পাচ আয়াত, সূরা ইখলাস, ফালাক, নাস পড়ে পানিতে ফু দিবেন এবং সকালে একবার বিকালে একবার ঘরে পানি ছিটিয়ে দিবেন। পরপর তিনদিন এরকম করতে হবে। প্রতিদিনের পানি প্রতিদিন তৈরি করে ছিটাবেন। একদিনেরটা অন্য দিন ছিটালে কাজ হবে না।

প্রিয় বন্ধুগন মনে রাখবেন- ঘর বা বাড়ি বন্ধের জন্য কোনো তাবিজ নেই। সুতরাং তাবিজকে না বলুন। নিয়মিত আমল করুন।

মন্তব্য ৮ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৮) মন্তব্য লিখুন

১| ২৬ শে জুন, ২০২০ বিকাল ৫:১৮

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: এ জাতীয় ওয়াজ মাহফিল আগে তো শুনি নাই।

২৬ শে জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৯

রাজীব নুর বলেছেন: বহু কিছু আছে যা আপনি শুনেন নাই। সেই সব জিনিস আমি আপনাকে শুনাবো।

২| ২৬ শে জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫৬

ইসিয়াক বলেছেন:




কি কব আর দুঃখের কথা?
কব না, মনে ব্যাথা।

২৬ শে জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৯

রাজীব নুর বলেছেন: বলে ফেলুন। বললেই মনের ব্যথা দূর হয়ে যাবে।

৩| ২৬ শে জুন, ২০২০ রাত ৮:০৫

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
এই সব জিনিস কাজ দিলে তো আর ডাক্তার কবিরাজ লাগার কথা না।
খুব দ্রুতই সব সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল বন্ধ হয়ে যাবে ।
ডাক্তাররা সব বেকার হয়ে যাবে।

২৬ শে জুন, ২০২০ রাত ৯:৪৬

রাজীব নুর বলেছেন: আরে ভাই এসব জিনিস তো সবাই জানে না। যারা জানে তারা হেসে উড়িয়ে দেয়।

৪| ২৬ শে জুন, ২০২০ রাত ৯:৫২

সাহাদাত উদরাজী বলেছেন: আমাদের বাসায় এমন কিছু আছে, আমি যে রাতে দোয়া কলমা না পড়ে ঘুমাই সেই রাতে অনেক আজে বাজে স্বপ্ন দেখি।

২৬ শে জুন, ২০২০ রাত ১১:০৭

রাজীব নুর বলেছেন: আপনি কুসংস্কার বিশ্বাসী মানূষ। আধুনিক নন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.