নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

দীপ ছিলো, শিখা ছিলো, শুধু তুমি ছিলেনা বলে...

শায়মা

দিয়ে গেনু বসন্তেরও এই গানখানি বরষ ফুরায়ে যাবে ভুলে যাবে, ভুলে যাবে,ভুলে যাবে জানি...তবু তো ফাল্গুন রাতে, এ গানের বেদনাতে,আঁখি তব ছলো ছলো , সেই বহু মানি...

শায়মা › বিস্তারিত পোস্টঃ

মাই বিউটিফুল টেরারিয়াম ওয়ার্ল্ড

০৫ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৫৩


আজকের বানানো নতুন টেরারিয়াম.......:)

মন হারিয়ে যায় রে মন হারিয়ে যায়....

ঐ গাছের পাতায় রোদের ঝিকি মিকি....

আনন্দ! আহা কি আনন্দ!
আহা কি আনন্দ আকাশে বাতাসে....

আরেকটা নতুন :)
কিছুদিন আগে গিয়েছিলাম গুলশান-২ এর ইউনি মার্টে। শপিং শেষে মানে শপিং এর শেষ মুহুর্তে যখন পে করতে যাবো তার ঠিক একটু আগেই চোখ আটকে গেলো এক অপরূপ সুন্দর গ্লাস কন্টেইনারে। আমি মুগ্ধ এবং অবরুদ্ধ! আমার চোখের সামনেই যেন দাঁড়িয়ে রয়েছে এক টুকরো স্বর্গদ্যান! আমি নিশ্চিৎ এক নিমিষেই এই উদ্যানে মন হারিয়ে যাবে যে কারোই। সেখানে এক টুকরো পাথুরে বন্ধুর পরিবেশে ফুটে উঠেছে অদ্ভূত সজীব শ্যামল অনাবিল সৌন্দর্য্যের ছোট্ট একরত্তি বাগান। বনসাই বা বামন গাছ বলে যদি কিছু থেকে থাকতে পারে তো এ যেন এক বামন বাগান। হ্যাঁ আমার চোখে যেন সেই বাগানটি ধরা দিলো পৃথিবীর সপ্তম আশ্চর্য্যের এক আশ্চর্য্য ব্যাবিলনের বামন বাগান হয়েই।

কিন্তু প্রাইস ট্যাগে চোখ আটকে গেলো! আমার তো আক্কেল গুড়ুম দাম দেখে। একটার দাম সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা, আরেকটার দাম সাত হাজার! আরে এই এক রত্তি বাগানের দাম এত! যদিও সৌন্দর্য্যের বিচারে আমার কাছে এর মূল্য তখন কয়েক কোটি টাকা। তবুও বিফল মনোরথ হয়ে দোকানীকে জিগাসা করলাম ডিসকাউন্ট দেওয়া যাবে কিনা। তিনি তো অনড় অটল, না এক দামই। আর এই ফিক্সড প্রাইজের শপে আমি আবার দামাদামি করছি দেখে সে একটু সন্দেহের চোখেই তাকালো আমার দিকে। আমি তখন এতই বেপোরোয়া মুগ্ধ তো পারলে প্রায় কিনেই ফেলি। ব্যাগে আর টাকা ছিলো না (ভাগ্যিস) শপিং শেষে। তাই ফিরে এলাম সেই মুগ্ধ করা এক টুকরো বাগানকে সাথে না নিয়েই। কিন্তু মন পড়ে রইলো আমার সেই অপরুপ রুপকথাময় উদ্যানে।

বাসায় এসে নেটে সার্চ দিলাম কোথায় পাওয়া যায় এই গ্লাস বন্দী স্বর্গদ্যান? কি বা তার নাম? খুঁজতে খুঁজতে পেয়েও গেলাম সব তথ্যাবলি। জানলাম একে নাকি বলে টেরারিয়াম। মাই গড! এ্যকুরিয়াম শুনেছি টেরারিয়াম তো জীবনে শুনিনি। কাজেই চোখ একটু কপালে উঠলো। আরও উঠলো যখন দেখলাম পৃথিবীতে এই বৃক্ষ সজ্জা বা টেরারিয়াম বহু যুগ আগে থেকেই, সেই রাণী ভিক্টরিয়ার আমল থেকেই নাকি প্রচলিত ছিলো। ব্যাস শুরু হয়ে গেলো আমার টেরারিয়াম গবেষনা।

জীবনে যা একবার মনোস্থ করেছি তার শেষ না দেখে আমি কখনও ছাড়িনি। কাজেই মনোস্থ করলাম নিজেই বানাবো টেরারিয়াম। কিনতে গেলাম ক্যাকটাস। মাই গড ক্যাকটাসও তো কম না। এমনিতে কয়েক যুগ আমলের আমাদের বাগানে প্রোথিত বুড়া বুড়া ক্যাকটাস হাতের কাছেই ছিলো। কিন্তু আমার তো দরকার ছোট্ট ছোট্ট একদম মনের মত। তো কিনতে গিয়ে বুঝলাম এক একটার এত্ত দাম! তবুও কি আর করা কিনে নিলাম ছোট্ট ছোট্ট কিছু ক্যাকটাস।

এরপর কি কি লাগবে সব তো নেট থেকে পড়ে পড়ে আগেই লিস্টি করা ছিলো। কাজেই মনে পড়লো বেশ কিছুদিন আগে গুলশান আড়ং এর পাশে হোম টেক্সে দেখেছিলাম এক অপূর্ব সুন্দর ফিশ বোল। মাথায় চেপেছে তখন টেরারিয়াম। কাজেই কে ঠেকায় আমাকে! গেলাম সেটাই নিতে। সেখানে কয়েক রকম ছিলো আমি বেছে বেছে গোলগালটাকেই পছন্দ করলাম। হলো গাছ এবং গ্লাস কন্টেইনার। এরপর মাটি, কয়লা, বালু এসব যোগাড় করতে লাগিয়ে দিলাম আমাদের সর্বকর্মা শামীমকে। সে সেসব বিপুল উৎসাহে নিয়ে নিয়ে এলো। আমি গেলাম মাছের দোকানে কিছু কুচি পাথর, শামুক ঝিনুক কিনে আনলাম।

বাসায় আসার পরে মোরশেদা বলে, "আপু এই রকম পাথর তো আমাদের পুরান ওয়াটার ফিল্টারের মধ্যে অনেক রকম সোন্দর সোন্দর আছে।" সে নিয়ে এলো সেসব প্লাস্টিকের খোলস ভর্তি। তাতে অবশ্য তার কুচ পরোয়া নেহি। সে শিল নোড়ার নোড়াটা দিয়ে দুমদাম ভেঙ্গে ফেললো শক্ত প্লাস্টিক আর বের করে আনলো নানা রকম সুন্দর কুচি পাথর। আমি বসে গেলাম বানাতে আমার সাধের টেরারিয়াম উইথ মাই টু সাগরেদ।

পাত্রটাকে ধুয়ে মুছে প্রথমেই আমি এক লেয়ার কালো পাথর বিছিয়ে দিলাম। এটা দেবার নিয়ম কারণ পাথর পানি নিস্কাশনে কাজ করে। ইচ্ছা করে একটু উচু নিচু করে বিছালাম যেন বাস্তব উদ্যানের এবড়ো খেবড়ো ভাবের সাথে খাপ খায়। তারপর ,মাটির মাঝে গর্ত করে গাছগুলো বসিয়ে দিলাম। ঝুরঝুরে মাটিও উপরে ছড়িয়ে দিয়ে পানি স্প্রে করেছি একটু। এরপর কাঠ কয়লা, শুকনো কাঠ পাতা ঘাস আর লেয়ার করে নানা রকম পাথর দিয়ে সাজিয়েছি।
এছাড়াও আমি কাঁচের মাশরুম, ছোট্ট টিয়াপাখি আর ভাঙ্গা ওয়াটার ক্যান এ্যাড করেছি। আমার থিমটা ছিলো একটা বনজ পরিবেশ।
কিন্তু একটা বানিয়েই খ্যান্ত হলাম না আমি। মাথায় তখন শুধু ক্যাকটাসিও কাঁটা কাঁটা সবুজ আর সাদা কালো লাল নীল অপার্থীর জগতের পাথুরে বাগান। কাজেই কি করা যায়, কি করা যায়? চোখ বুজলেই দেখি টেরারিয়ামের নানা রকম ডিজাইন। আবার তো তাইলে শপিং যেতে হবে। তার থেকে বাসাতেই কি কি আছে খুঁজে বের করি। পেয়ে গেলাম ছোট্ট একটা পুরোনো গোল ফিশ বোল, দুইটা মধুর বড় সড় বোতল। এইবার পাথর আর্টিফিয়াল গাছ পালা ডেকোরেশন বাড়ি ঘর যা পেলাম তাই দিয়েই সাজাতে বসলাম আমার নিউ নিউ টেরারিয়াম। তবে মেইন টেরারিয়ামটা করেছিলাম আমি ছুটির তিনদিনে। আর বাকীগুলো স্বল্প সময়ের সাধ মিটাতে ওয়ার্কিং ডেইজগুলোর বিকালে। তবে এরপরের ছুটির দিনে আনবো আরও আরও গাছ পালা, নুড়ি পাথর ইট কাঠ।

আরও আরও টেরারিয়াম বানাবো আমি। আমার রুপকথার রাজ্যের গোল্ডিলকস যেই বনপথ ধরে হারিয়ে গিয়েছিলো সেই রকম একটা পথ কাটবো আমি আমার ছোট্ট বাগানের টেরারিয়ামে। সেখানে থাকবে একটা বাড়ি। আর সেই বাড়িটাই ঢুকবে আমার ছোট্ট গোল্ডিলকস।
আর থাকবে তিনটা ভালুক, তারা বাগানে ঘুরে বেড়াবে, মা ভালুকটার হাতে থাকবে ছোট্ট এ্যপেল বাস্কেট। তারা বনের পথে হেঁটে যাবে। আরও নিয়ে আসবো মৎস্যকন্যাকে, ফুল পাখি আর প্রজাপতিদের সাথে খেলতে যে উঠে আসবে আমার ছোট্ট স্বর্গদ্যানে। বাড়িওয়ালা বনটা তারই নমুনা মাত্র। আরও কাজ বাকী আছে।:)

এতক্ষন বললাম আমার রুপকথার স্বর্গদ্যানের উপাখ্যান। এবার এই টেরারিয়াম সম্পর্কে কি কি জেনেছি আমি তাই একটু বলি। আগেই বলেছি টেরারিয়াম আর এ্যকুরিয়ামের মাঝে শাব্দিক মিল আছে এবং সজ্জাতেও অনেকটাই মিল আবার একেবারেই অনেকটাই বা পুরোপুরিই আলাদা। এ্যকুরিয়ামে হয় জলের তলের স্বর্গ বা রুপকথা রাজ্য আর টেরারিয়ামের হয় রুপকথার বৃক্ষরাজ্য। ঘরের ভেতর মাছের ছোট্ট জলাধার বা বাড়িতে ছোটখাটো সমুদ্র তলের অপরুপ সৌন্দর্য্য সৃষ্টি করা যায় এ্যকুরিয়ামে এবং তা বলতে গেলে আমাদের সকলের জানা।

তবে টেরারিয়াম শব্দটা খুব একটা পরিচিত নয় আমাদের সকলের কাছে। তাই অনেকের কাছেই তা উদ্ভট বা নতুন মনে হবে। এ শব্দটি ভিভারিয়াম নামক একটি ল্যাটিন শব্দ থেকে এসেছে। অ্যাকুয়ারিয়াম শব্দের উৎপত্তিও ভিভারিয়াম থেকেই। ভিভারিয়ামের অর্থ বদ্ধপরিসরে স্বয়ং-সম্পূর্ণভাবে বাস্তুতন্ত্র গড়ে তোলা। টেরা অর্থ স্থলভাগ। সে বিবেচনায় বদ্ধ স্থলভাগে বাস্তুতন্ত্র। তবে টেরারিয়াম শব্দটার আরও একটা অপূর্ব সুন্দর অর্থ আছে। টেরারিয়াম মানে ‘প্লেস অফ লাইফ’ বা জীবনের জন্য জায়গা। আসলেই কি ঘরের মধ্যে এই বিশালতার প্রতীক একরতি ছোট্ট বৃক্ষ বাগান দেখে এটাই বেঁচে থাকার জায়গা মনে হয়না! ‘টেরারিয়াম’ এক অর্থে অন্দরে ছোট বাগান। যা ঘরের ভেতরেই ডেকে আনে প্রকৃতির মুগ্ধতা! আর তা নিজের হাতে তৈরী হলে তো কথাই নেই। একদম মনের মত!
আমার কল্পরাজ্যের সাগরতল-এ্যকুরিয়াম

সে যাইহোক, এতখনে আমার বকবকে বুঝা হয়ে গেছে, স্বল্প পরিসরে কাঁচের পাত্র বা বোতলের মধ্যে গাছ বা লতা-গুল্ম লাগিয়ে ঘরের সৌন্দর্য বাড়ানোর যে শিল্প, তাকেই বলা হয় টেরারিয়াম। ওহ তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এটা কাচের বোতলে করা হয় বলে একে ‘বটল গার্ডেন’ বা বোতল বাগানও বলা হয়ে থাকে।টেরারিয়াম হচ্ছে এমন একটি ক্ষুদ্র আকৃতির বদ্ধ কাচের কিংবা কনটেইনারের স্থাপনা, যা আর্দ্রতা ধরে রেখে উদ্ভিদ ও গাছপালা জন্মাতে সহায়তা করে।

এবার বলি টেরারিয়ামের ইতিহাস :
টেরারিয়ামের উৎপত্তি ভিক্টোরিয়ান যুগে, ১৮২৭ সালে ডা. নেতানিয়েল ওয়ার্ড মথ ও ক্যাটারফিলার নিয়ে গবেষণা করেন। তখন দেখতে পান জারের তলানিতে ছোট ছোট ফার্ন বেড়ে উঠছে ( ভাগ্যিস দেখেছিলেন নইলে আমি কোথা থেকে এমন মুগ্ধতা পেতাম!) এবং সংরক্ষিত কাঁচের ভেতর বাতাস ছাড়া গাছ জন্মাচ্ছে। পরবর্তীতে এটাই ওয়ারডিয়ান কেইজ বা টেরারিয়াম নামে পরিচিতি লাভ করে। আস্তে আস্তে তা সারা বিশ্বের সৌন্দর্য পিপাসু মানুষের( আমার মত তো বটেই:) )দ্বারপ্রান্তে প্রবেশ করে। তবে বাংলাদেশে দুই দশক ধরে এর দেখা মিললেও এখনো জনপ্রিয় হয়ে ওঠেনি আমার বিশ্বাস সে শুধু অনেকেরই অজ্ঞতা বা টেরারিয়াম সম্পর্কে না জানার কারণেই।

টেরারিয়াম তৈরির উপাদান :
গ্লাস কনটেইনার হলেই ভালো তবে প্লাস্টিকেরও হতে পারে। কনটেইনার অবশ্যই স্বচ্ছ ও পরিষ্কার হতে হবে যেন পাত্রের বাইরে থেকে ভেতরের গাছপালা পরিষ্কারভাবে দেখা যায় তা মনে রাখতে হবে। টেরারিয়ামের আকার কেমন হবে তা নির্ধারিত হয় ব্যক্তির সৃজনশীলতার ওপর। যে কোনো কাঁচের পাত্র বা বোতল এমনকি অ্যাকোরিয়ামের পাত্রও কনটেইনার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। পাত্রের আকার, আকৃতি কিংবা খোলা মুখ কেমন হবে তা নির্ভর করে কী ধরনের এবং কেমন আকৃতির গাছ কনটেইনারে লাগানো হবে তার ওপর।

কনটেইনার প্রস্তুত :
বাতাস চলাচল করার জন্য কনটেইনারের তলানিতে ১ থেকে ২ ইঞ্চি পরিমাণ নুড়ি, বালি কিংবা ভাঙ্গাচোরা টুকরা দিয়ে সাজাতে হবে। তলানির অতিরিক্ত পানি ধরে রাখার জন্য মস বা শেওলা উপরে দেয়া যেতে পারে। বদ্ধ পরিবেশে দুর্গন্ধ দূর জন্য মসের ওপর কাঠকয়লার স্তর ছিটিয়ে দেয়া হয়। নুড়ি পাথরের পরিবর্তে কাঠকয়লার ১ থেকে ২ ইঞ্চি স্তর ব্যবহার করা যেতে পারে। তারপর দেড় থেকে ২ ইঞ্চি উর্বর মাটি দিয়ে গাছ লাগানোর উপযুক্ত করা হয়।

গাছ নির্বাচন :
গাছ নির্বাচনটাই টেরারিয়ামের সবচাইতে লক্ষনীয় বিষয়। সাধারণত ধীরগতিতে বৃদ্ধি পায় এমন গাছ নির্বাচন করা উচিত। স্বল্প আলোয় জন্মাতে পারে এমন গাছ পছন্দ করা যায়। বিভিন্ন আকার, আকৃতি, রংয়ের গাছের ব্যাবহারে মনের মত উদ্যান সাজানো যায়। এই বোতল বাগান বা টেরারিয়ামে সাকুলেন্ট জাতীয় গাছ যেগুলো কাণ্ড, শাখা-প্রশাখা,পাতা বা মূলে পানি জমিয়ে রাখে সে ধরনের গাছ ব্যাব হার করা যেতে পারে। তবে এ ব্যাপারে অতিরিক্ত আর্দ্রতার ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের ফার্ন, মস জাতীয় গাছও রাখা যায় অথবা সব ধরনের মিলিয়েও রাখা যায়। টেরারিয়ামে প্রয়োজন অনুযায়ী পানি স্প্রে করতে হবে। অতিরিক্ত আর্দ্রতার কারণে কাঁচের গায়ে জলীয় বাষ্প জমলে ওপরের ঢাকনাটা খুলে দিতে হবে। বিভিন্ন পোকার সংক্রমণ থেকে গাছকে বাঁচাতে কীটনাশক এবং ছত্রাকনাশক ব্যবহার করতে হবে।
যত্ন :
টেরারিয়ামে মাটি শুকিয়ে গেলে সামান্য পরিমাণ পানি স্প্রে করতে হবে। আবার মাটি অত্যধিক আর্দ্র হলে কনটেইনারের মুখ খুলে দিতে হবে। সাধারণত জৈব সার টেরারিয়ামে ব্যবহার করা হয় তবে অজৈব সারও ব্যবহার করা যায়। যদি গাছের শাখা-প্রশাখা বেড়ে যায় তাহলে ছাঁটাই করে দিতে হবে। টেরারিয়াম পরিপূর্ণ অবস্থায় যাবার জন্যে কিছু সময় দিতে হবে, টেরারিয়াম সরাসরি রোদে রাখা যাবে না। যদি গাছের পাতা হলুদ হয়ে যায় তবে পানিতে দ্রবীভূত হয় এমন সার প্রয়োগ করতে হবে।

কোথায় পাওয়া যাবে এই সাধের টেরারিয়াম?
টেরারিয়াম আমাদের দেশে এখনও তেমন পরিচিত নয় তবে অনেক বেশি না হলেও গাছের দোকানগুলোতে এবং ইউনিমার্টের মত কিছু শপে পাওয়া যাবে টেরারিয়াম তবে সব থেকে ভালো হয় নিজেই বানিয়ে ফেললে। আমি তো এমন কোনো শিল্পকর্ম বানানোর পরে নিজেই তার দিকে তাকিয়ে থাকি ঘন্টার পর ঘন্টা। কে কি পছন্দ করলো কি বললো তা জানিনা তবে নিজের যে কোনো সৃজনশীল কাজের ভালো লাগা যে কতখানি হতে পারে তা মনে হয় আমার মত আরও কিছু পাগল ঠিকই বুঝবে । কাজেই আমাকে দেখে বা আমার এই লেখা পড়ে যারা যারা এই টেরারিয়াম বানাতে চান দেখে নিন কি কি লাগবে।:)

১। একটা কন্টেইনার( গ্লাস, পাথর, মাটি, কাঠ) যে কোনো কিছুর হতে পারে।
২। কিছু গাছ
৩।মাটি
৪। কয়লা
৫। পাথর
৬।মস
৭।বালু
৮।গাছের ছাল বাকল
৯। শামুক, ঝিনুক
১০। নুড়ি
১১। কাঠি
১২। অন্যান্য ডেকোরেশন

সব আয়োজন শেষ হলো এবার দেখি খুব সহজে পাঁচটা ধাপেই কিভাবে বানানো যায় মনের মত টেরারিয়াম! টেরারিয়াম আসলে ইনডোর গার্ডেন। এই আকর্ষনীয় মায়াবী এক টুকরো বাগান ঘরে নিয়ে আসে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের ছোঁয়া। তাহলে মাত্র পাঁচটা ধাপেই বানিয়ে ফেলুক সবাই এই টেরারিয়াম বা আভ্যন্তরীন ক্ষুদ্র স্বর্গীয় উদ্যান।

১ম ধাপ জার নির্বাচন।

২য় ধাপ পাথর দিয়ে এই জারের কিছু অংশ ভর্তি করা।

তৃয় ধাপ কয়লার স্তর। (স্তরগুলি আলাদা হবে।সাথে মাটি।

৪র্থ ধাপ সবুজ মস এবং গাছ পাতা সাজানো।

শেষ বা ৫ম ধাপ কীট পত্ঙ্গ, খেলনা, মানুষ, প্রাণীর মূর্তী দিয়ে সাজিয়ে যে কোনো থিম সৃষ্টি করা।

টেরারিয়াম নিয়ে কাজ করা মানে কোনো এক অপার্থীব স্বর্গীয় জগতে চলে যাওয়া। যেখানে নিজের হাতেই প্রকৃতি উঠে আসে। কল্পনার তুলিতে যেন এঁকে যাওয়া ছবি! যেন সেই যাদু পেন্সিলে আঁকা দৃশ্য, আঁকলেই যা সত্যি হয়ে ধরা দেয় হাতের মুঠোয়।

সবাইকে এই অপার্থীব জগতের আমন্ত্রণ রইলো মানে সবাই নিজে নিজে এক একটা করে বানিয়ে ফেলুক নিজের হাতের স্বর্গদ্যান বা টেরারিয়াম!!!:) আর তারপর হারিয়ে যাক ঘরের মাঝেই এই অপরুপ সুন্দর স্বর্গদ্যানে আর বুকের মাঝার থেকে উঠে আসুক একটি শব্দ- আহঃ! --
প্লেস অব লাইফ...... আহা !!!!!!!!

এরপর আরও কিছু নতুন সংযোজন


বন বনান্তে




ইয়াহু!!!!!!!!!!!!!!!!!



মন্তব্য ৪১৪ টি রেটিং +৪০/-০

মন্তব্য (৪১৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:০১

গেম চেঞ্জার বলেছেন: এত দিনে??? যাক পোস্ট তো পাওয়া হলো!! :)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:০২

শায়মা বলেছেন: কি এত দিনে!!!!!!!!!! B:-)


পোস্ট আর কি আমি তো নিজেই হারিয়ে গেছি ভাইয়ু!:(



মানে টেরারিয়ামের রাজ্যে!:)

২| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:০২

জেন রসি বলেছেন: টেরারিয়াম সম্পর্কে কোন আইডিয়া নাই। সম্পূর্ণ নতুন জিনিস সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করতে যাচ্ছি বলে মনে হচ্ছে। :)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:০৩

শায়মা বলেছেন: হা হা হা

জিনি ভাইয়ু!!!!!!!!!!!!!

তোমার আবার কোনো কিছু নিয়ে জ্ঞান নেই!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!


ইহাও আমাকে বিশ্বাস করিতে হইবেক!!!!!!!!!!!!!


কাভি নেহি!!!!!!!!!!!!!! :P

৩| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:০৬

হুকুম আলী বলেছেন: স্বল্প পরিসরে কাঁচের পাত্র বা বোতলের মধ্যে গাছ বা লতা-গুল্ম লাগিয়ে ঘরের সৌন্দর্য বাড়ানোর যে শিল্প, তাকেই বলা হয় টেরারিয়াম। ওহ তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এটা কাচের বোতলে করা হয় বলে একে ‘বটল গার্ডেন’ বা বোতল বাগানও বলা হয়ে থাকে।

এবার টেরারিয়াম বুঝতে পারলাম।

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:০৭

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া টেরারিয়াম হলো এ্যকুরিয়ামের বড় ভাই আর তাদের বড় ভাই ভিভারিয়াম !!!:)

৪| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:০৭

জেন রসি বলেছেন: প্রায় সব ব্যাপারেই আমি অজ্ঞ। পোস্ট এখনো পড়িনাই। ছবিগুলো দেখেছি। তবে অনেক দিন পর এমন ইন্টারেস্টিং বিষয় নিয়ে পোস্ট দিয়েছেন দেখে আনন্দিত হলাম। :)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১০

শায়মা বলেছেন: তাই নাকি!!!!!!!!!!!

তুমি অজ্ঞ!!!!!!!! চুপ চুপ! তুমি না আমার জিনিয়াস গ্রুপের মেম্বার!!!!!! কাজেই এই কথা বলে আমাকে ডুবিওনা!!!!!!!!


আর পড়ো পড়ো শিঘ্রী পোস্ট পড়ো। এই টেরারিয়াম যদিও দেখিবার বস্তু তবে কিছু জানিবারও আছে।:)

৫| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১১

গেম চেঞ্জার বলেছেন: টেরারিয়াম নামটাই নতুন! জানা তো বহুত দুর হ্যায়। ;)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১৩

শায়মা বলেছেন: হায়রে আমার গিয়ানী গুণী ভাইয়াদের মুখে এ কি শুনি!!!!!!!!!!!!!!

গেমুভাইয়া তুমিও না অনেক গিয়ান পিপাসু!!!!!!!!!! আর এই সামান্য টেরারিয়াম নিয়ে নামটাই না জানা!!!!!!!

বুঝেছি বুঝেছি সারাদিন অংক আর বিজ্ঞান চর্চা করিলে এমনই শিল্প বিষয়ক গিয়ানে অজ্ঞ হতে হয়! :P

৬| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১৪

কাবিল বলেছেন: মস টা আবার কি??



তোমার যেমন চোখ আটকে গেলো এক অপরূপ সুন্দর গ্লাস কন্টেইনারে।
আমারও তেমনি চোখ আটকে গেলো তোমার পোস্টে।
লগইন না করে আর পারা গেল না।

সুন্দর শেয়ার অনেক অনেক ভাল লাগা রইল।

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১৮

শায়মা বলেছেন: কাবিলভাইয়ু!!!!!!!!!!!!!!!

মস খুবই মানে খুবই একটা সাধারণ জিনিস যা তোমার বাড়ির পাশে গাছের গায়ে, পঁচা ডোবা , মজা পুকুরেও জন্মে। তবে ইহা দেখিতে বড়ই সৌন্দর্য্য!

মস= শেওলা বা শৈবাল। মানে টেরারিয়াম যেহেতু বিশাল এক খন্ড বাগানকে ছোট্ট একটা পরিশরে রূপ দেওয়া কাজেই এই মস বা শৈবালটা সবুজ ঘাস ঘাস ভাব আনে।:)


লগ ইন না করে থাকো কেনো ভাইয়ু!!:(

কি হয়েছে?

৭| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১৪

গেম চেঞ্জার বলেছেন: আমি তো ভাবছি, এত কষ্ট না করে, আর্টিফিসিয়াল করলেই তো হয়? ভালভাবে ইল্যাস্ট্রেট করে থ্রিডি প্রিন্ট করে নিলেই কেল্লা ফতে।
আমি আর্টিফিসিয়াল টেরারিয়াম করব মনস্থির করলাম। :)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২০

শায়মা বলেছেন: ঠিক ঠিক আর্টিফিসিয়ালও করা যায় তো। আমার বোতলের মাঝে মরুদ্যানের উট দেখো। ইহা তোমার বুদ্ধিতে করা হইয়াছে মানে আর্টিফিসিয়াল।:)

৮| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১৮

হাবীব কাইউম বলেছেন: মাছের হাগু পরিষ্কার করতে করতে ক্লান্ত হয়ে অ্যাকুরিয়াম দান করে দিয়েছিলাম আরেকজনকে। এবার মনে হচ্ছে বোতল বাগান তোলা যেতে পারে। গাছ তো আর হাগু দেবে না!

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২৩

শায়মা বলেছেন: ঐ ভাইয়া। মাছের হাগু পরিষ্কার কি? বুঝেছি তুমি মাছেদেরকে বেশি বেশি খাওয়াতে। এত খাওয়ালে তো .......... কত আর সহ্য করবে আর তাই বিরক্ত হয়ে তারা......


শুনো একটা মাছ ৫ দানা পাবে এই পরিমানে খাওয়াবে দুইবেলা সকাল আর রাতে। তাহলেই দেখবে তোমার এ্যকুরিয়াম পরিষ্কার ঝকঝকে তকতকে।

আর গাছও কিন্তু যত্ন না করলে রাগ করে আত্নহত্যা করবে ।


কাজেই মনে রেখো---- দে নিড ভালোবাসা। ভালোবাসা আর যত্ন ছাড়া তাহারা তোমাকে ছাড়িয়া যাইবেক! কাজেই হু হু .........

৯| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১৮

আউলাঝাউলা পাগল বলেছেন: বিস্তারিত পোষ্টের জন্য অনেক ধন্যবাদ। টেরিয়ামের প্রেমে পরে গেলাম। এইবার বড় আফা টেকা দেন,টেরিয়াম বানামু :-B

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২৭

শায়মা বলেছেন: আউলাঝাউলা পাগলুভাইয়া তোমার জন্য একটা বানাই দেবো ওকে? পাগল মানুষ আবার টাকা নিয়ে শুধু শুধু টাকাটাই মাটি করে দেবে!:(

আপাতত এই ছবিটা নিয়ে খুশি থাকো ভাইয়ু~!!!!!:)

১০| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২০

হাবীব কাইউম বলেছেন: Moss-এর কিন্তু বাংলা আছে! B-)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২৮

শায়মা বলেছেন: বাংলা তো শেওলা বা শৈবাল! তো কি হইসে!!!!!!!!!!!!!!!!!!!


বাংলাটা না লিখে একটু স্টাইল করলাম ভাইয়ু!!!!!!!!! জানোই আই এ্যাম স্টাইলিশ!!!!!!:) :) :)

১১| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২২

কাবিল বলেছেন: গেম ভাইয়ের ৭ নং মন্তব্যে লাইক দিলাম।

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২৯

শায়মা বলেছেন: আমিও .........


বিকজ মাই জিনিয়াস ভাইয়ুর বুদ্ধি হ্যাজ!!!!!!! বাট আলসা আর কি !!!!!!! :P

১২| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২৩

তাসলিমা আক্তার বলেছেন: তোমার এত গুন কইন্যা? আমার কোনো গুন নাই। আমারে একটা বানাই দিবা। এই বলে দিলু:)

পোস্ট এ্যাজ ইউজুয়াল, ভালো লাগলো।

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৩২

শায়মা বলেছেন: ইশ!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

বললেই হলো তোমার গুণ নাই!!!!!!!!!!!!!!


ডোন্ট বিলিভ আপুনিমনি!!!!!!!!!!!!!!!


যাই হোক তোমার জন্য আলোরিয়াম বা লাইটারিয়াম!:) ( শব্দটা আমি বানাইসি) :) :) :)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৩৪

শায়মা বলেছেন: অপস !!!!!!!!!!!!

আলোরিয়াম বা লাইটেরিয়ামের সাথে একটা গানা দিতে ভুলে গেলাম!!!!!!!!!!!!!

আলোকের এই ঝর্ণাধারায় ধুইয়ে দাও
আপনাকে এই লুকিয়ে রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও.....

:) :) :)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪৬

শায়মা বলেছেন: https://www.youtube.com/watch?v=EYPD8YvziS4

১৩| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২৫

কাবিল বলেছেন:



লগ ইন না করে থাকো কেনো ভাইয়ু!!:(

কি হয়েছে?


ইহার মধ্যে এক ধরনের আনন্দ খুজে বেড়াচ্ছি :P

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৩৬

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া তুমি মনে হয় কিছুদিনের মাঝেই সন্যাসব্রত গ্রহন করিতে যাচ্ছো! সন্যাস রোগে পেলে এমন হয় । এসব সন্যাসের লক্ষন আমারও হয়েছে জানো!:(





:P
:P
:P

১৪| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৩৩

কাবিল বলেছেন:



লেখক বলেছেন: আমিও .........


বিকজ মাই জিনিয়াস ভাইয়ুর বুদ্ধি হ্যাজ!!!!!!! বাট আলসা আর কি !!!!!!! :P

গেম ভাই কই গেলেন-- আমার তো-- X( X( X(

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৩৯

শায়মা বলেছেন: ঐ ভাইয়া রাগের ইমোর কারণ কি? গেমুভাইয়াকে আলসা বলছি বলে রাগ দেখাও নাকি তাকে জিনিয়াস বলছি তাই হিংসা করো !!!!!!!!!!!!!



হাহাহাহাহাহাহাাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহহা :P

১৫| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৩৮

কাবিল বলেছেন:




তাসলিমা আক্তার আপুর জন্য গানের লিস্টটা না হয় আমিই দিলাম।
https://www.youtube.com/watch?v=M0EwhcdCM9M

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪০

শায়মা বলেছেন: কি লিংক দিসো!!!!!!!!!

হা হা আমার কাছে আরও ভালো লিঙ্কু আছে! ওয়েট আনছি!:)

১৬| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪০

পুলহ বলেছেন: নতুন এবং ইন্টারেস্টিং একটা জিনিস জানলাম!
পোস্টে প্লাস!

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪৮

শায়মা বলেছেন: পুলহভাইয়ু/আপু ( কাকে যেন একদিন আপু বলতে শুনেছিলাম) থ্যাংকস আ লট!!!!!!!!!!!!!!!!!!:) :) :)

১৭| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪০

গেম চেঞ্জার বলেছেন: কাবিল ভাই!
আমি আসলেই আলসে। :) আমার অনেক কাজ কম্পিউটার নিজে থেকেই করে দেয়। B-)) সাথে ফ্যামিলির মানুষ তো আছেই। হাঃ হাঃ

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪৯

শায়মা বলেছেন: চুপ চুপ সাবধান ভাইয়ু!!!!!!!!!
এই কথা শুনলে কিন্তু বিয়ে হবেনা!!!!!!!!! B:-)

বউ পালাবে শেষে সারাদিন কাজ করে মরতে হবে ভেবে!!!!!!!!!!!!!:( :( :(

১৮| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪২

কি করি আজ ভেবে না পাই বলেছেন: কি দেখছি!ভুল নাকি!
পোষ্ট এক টাটকা;
শিরোনামে বাজিমাত
আপুনির সেকি ঝটকা।

আপুনির মুকুটেতে
আরো এক স্টোনপিস;
শায়মা'স এনাদার
পিএইচডি থিসিস।

প্লেস অব লাইফ,,,আহা
জীভে আসে লোল;
দাম শুনে মাথা ঘুরে
আদা জলে ঘোল।

যত দ্যাও জ্ঞান বাপু
পারবোনা বানাতে;
দেবে নাকি বিডে গিফট
বানিয়ে তা নিজ হাতে? :P

পোষ্ট নিয়ে কথা নাই
আমি পুষি মিউ মিউ;
প্রাউড অফ ইউ এন্ড
ভেরি মাচ লাভিউ..............

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:০৩

শায়মা বলেছেন: ডোন্ট ওরি ভাইয়ুনি
নো নিড টু মেক
বানিয়ে দেবো তোমাকেই
করো ডান্স শেকি শেক!!!!!

বার্থ ডে তে কিনে দেবো
ভাবীমনি জরিনা
দেখে নিও ঠিক ঠিক
মিছে বক বক করিনা!:)

১৯| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪৩

কাবিল বলেছেন: লেখক বলেছেন: ভাইয়া তুমি মনে হয় কিছুদিনের মাঝেই সন্যাসব্রত গ্রহন করিতে যাচ্ছো! সন্যাস রোগে পেলে এমন হয় । এসব সন্যাসের লক্ষন আমারও হয়েছে জানো!:(



ঠিকই বলেছ আপু, এই জন্য জেন ভাইয়ের কাছ থেকে কিছু ফতোয়া আশা করছি।

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:০৪

শায়মা বলেছেন: জিনিভাইয়ার কাছে থেকে ফতোয়া!!!!!!!


তাইলেই হয়েছে!!!!!!! একটু আগে তার পোস্টে আরেক টেরারিয়াম দেখে আসলাম। পুরাই মগজ টেরারিয়াম। মাথার ভেতর পুরা বিশ্ব!!!!!!!!

২০| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৫০

জেন রসি বলেছেন: গেম চেঞ্জার বলেছেন: কাবিল ভাই!
আমি আসলেই আলসে। :) আমার অনেক কাজ কম্পিউটার নিজে থেকেই করে দেয়। B-)) সাথে ফ্যামিলির মানুষ তো আছেই। হাঃ হাঃ

আমার চেয়ে আলসে কারো পক্ষে হওয়া সম্ভব না! এই দিক দিয়ে আমি চ্যাম্পিয়ন! B-)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:০৬

শায়মা বলেছেন: হায় হায় সব গুলা জিনিয়াসরাই দেখি আলসে!!!!!!!

ছি ছি

ছি!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

২১| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:০৪

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: ভাইয়া তুমি মনে হয় কিছুদিনের মাঝেই সন্যাসব্রত গ্রহন করিতে যাচ্ছো! সন্যাস রোগে পেলে এমন হয় । এসব সন্যাসের লক্ষন আমারও হয়েছে জানো!:(



ঠিকই বলেছ আপু, এই জন্য জেন ভাইয়ের কাছ থেকে কিছু ফতোয়া আশা করছি।


ফতোয়া নম্বর একঃ লগ আউট কিংবা লগ ইন মুখ্য ব্যাপার না। মুখ্য ব্যাপার হচ্ছে আনন্দ। আনন্দের জন্য প্রয়োজনে সব রকম ডিভাইসও বর্জন করা যেতে পারে।

ফতোয়া নম্বর দুইঃ ব্লগ থেকে আনন্দ না পাইলে অন্য কিছু অনুসন্ধান করাই উত্তম। সেটা কি হবে তা নিজেকেই খুঁজে বেড় করতে হবে। কারন নিজের প্রদীপ নিজেকেই জ্বালাতে হয়!

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:১১

শায়মা বলেছেন: আহারে তোমাদের প্রদীপ প্রদীপ শুনে আমার এই প্রদীপের কথা মনে পড়লো!


:(


https://www.youtube.com/watch?v=Cz3rPtGkplE

২২| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:০৫

কাবিল বলেছেন: জেন রসি বলেছেন: গেম চেঞ্জার বলেছেন: কাবিল ভাই!
আমি আসলেই আলসে। :) আমার অনেক কাজ কম্পিউটার নিজে থেকেই করে দেয়। B-)) সাথে ফ্যামিলির মানুষ তো আছেই। হাঃ হাঃ

আমার চেয়ে আলসে কারো পক্ষে হওয়া সম্ভব না! এই দিক দিয়ে আমি চ্যাম্পিয়ন! B-)


গত বারের চ্যাম্পিয়ন কিন্তু আমি ছিলাম

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:১৩

শায়মা বলেছেন: বাহ ভাইয়া!

একেই বলে মহাবুভবতা!

তোমার এত মূল্যবান উপহারটা দিয়ে দিলে!!!!!!!!!!!

২৩| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:১৭

কি করি আজ ভেবে না পাই বলেছেন: টু জেন রসি
রসি ভায়া স্রেফ দিনু
দু-একটা নমুনা;
যা বুঝার বুঝে নিও
এর বেশী কমুনা।

ব্রেকফাস্ট নামে এক
চিজ আছে শুনেছি;
কি করে খায়,কে বা খায়
চোখে নাহি দেখেছি।

লাঞ্চ করি সন্ধায়
ডিনারটি মাঝরাতে;
সারাদিন নাক ডাকি
রাতে কাজ,এ অজুহাতে।

লোকমুখে শুনেছি কত
দিনে উঠে সূর্য;
ঘুম ভেঙ্গে সে দেখার
নেই বাপু ধৈর্য্য।

খাওয়াতেও কত শ্রম
মুখ হয় নাড়াতে;
ভাবি খুব ভালো হতো
যদি খেত কেউ ভাড়াতে।

বিড়ি ফুঁকে ছাই ফেলা
সেও কত কষ্ট;
কতবার বেড পিলো
পুড়ে হলো নস্ট।

ফিরিস্তি আরো দিলে
উঠবে যে ছমছমি;
নিউট্রালি কও এবার
আলসে কে?আমি না তুমি?

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৪৮

শায়মা বলেছেন: কাজে কামে আলসেতে
জুড়ি নেই সে জানি,
একখানা ব্যাপারে
তুমি সেরা সে মানি।


বলো দেখি বলছি কি
কোন সেই ঘটনা?
বলবো কি ভরা হাটে
শুনেছি যে রটনা?

২৪| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৪০

সুমন কর বলেছেন: সামুতেই এ নিয়ে আগে একটা পোস্ট দেখেছিলাম। তোমার পোস্টটাও ভালো এবং বিস্তারিত আছে।

আমার কিন্তু একটা টেরাটিয়াম চাই...... ;) (পোস্টে তুমি বলেছ, আরো আরো বানাবে, তাই আমার একটা)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৪৯

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে তোমাকেও বানাই দেওয়া হইবেক ভাইয়ু!

আসলেই মেতে আছি টেরাটেরিয়ামের কদিন পরে পানি খাবার গ্লাসও মনে হয় আর বাসায় খুঁজে পাওয়া যাবেনা!:(

২৫| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৫৭

নীলপরি বলেছেন: অভিনব পোষ্ট । খুব ভালো লাগলো ।

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:০১

শায়মা বলেছেন: নীলপরিমনি!!!!!!!!!!!!

এই টেরারিয়াম সত্যিই এক মনোমুগ্ধ করা জিনিস!!!!!!:)

২৬| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:০৫

জনৈক অচম ভুত বলেছেন: এ্যাকুরিয়ামের যে একটা ট্যারা ভাই আছে তা তো জানতাম না। :P
তবে নামে ট্যারা হইলেও দেখতে কিন্তু অসাধারণ। B-))

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:০৮

শায়মা বলেছেন: হা হা আর বলো না ভুতভাইয়া তিনিই বড় ভাই। টেরা মানে মাটি তাই টেরাতে যা যা হয় তাই বানানো হয় সেখানে আর এক্যু মানে জল, সমুদ্রতল বানিয়ে ফেলা হয় সেখানে। এদের সবার বড় ভাই আবার ভিভা। অবশ্য সে বোনও হতে পারে।:)


আর ট্যারা যে কি সুন্দর তা আর কি বলবো!!!!!!!!!

২৭| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:১০

পার্থিব পার্থ বলেছেন: সুন্দর আয়োজন।

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:২০

শায়মা বলেছেন: পার্থভাইয়ু!!!!!!!!!!! :) :) :)


থ্যাংক ইউ!!!!!!!!!!!!!!!


এই নাও তোমার জন্য

২৮| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:১৮

অদ্ভুত_আমি বলেছেন: টেরারিয়াম সুন্দর হয়েছে আপু ।

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:২৩

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

আমি এই পোস্ট লেখার সময় তোমার কথা ভাবছিলাম!!!!!!!!:)


২৯| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:৩১

অদ্ভুত_আমি বলেছেন: আমাকে তো আগে এক পোস্টে বলেছিলেন যে নেক্সট প্রজেক্ট টেরারিয়াম । তাই আমিও অপেক্ষায় ছিলাম টেরারিয়াম পোস্টের ।

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:৩৩

শায়মা বলেছেন: হুম ভাইয়ু!!!!!!!!!!!!


তবে এখনও শেষ হয়নি। কেবল শুরু।

আরও আরও টেরারিয়াম বানানো হবে।

তোমারগুলো দেখতে চাই। :) :) :)

৩০| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:১৪

আমিই মিসির আলী বলেছেন: অনেক দিন পর লেখা পাইলাম।


টেরোরিয়াম জিনিসটা দেখেছিলাম আগে, তবে নামটাই শুধু অজানা ছিলো।

এই জিনিস বানানো সহজ গভীর আগ্রহ থাকলে, আমার মতো অলসের জন্য পাঁচ হাজার টাকা খর্চা কইরা কিনে ফেলাটাই সহজতর এবং আনন্দের।

আচ্ছা, নিজে বানাইতে টোটাল কত খরচ হইলো?

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:২৯

শায়মা বলেছেন: হা হা ভাইয়ু!

তুমিও দেখি আরেক অলস!!!!!!

বোলটা ১৫০০+ গাছগুলো১২০০+ ডেকোরেশন বাসা্ কেনা মিলে ১০০০+ পাথরগুলো পুরান ফিলটারের আর ৩ প্যাক ৪৫০টাকা উফ এত হিসাব করা যাবেনা ভাইয়া!


তার থেকে বানায় ফেলো না পারলে আমাকে বলো আমি বানায় দেবো ওকে!!!!!!!:) :) :)

৩১| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৩০

জেন রসি বলেছেন: স্বল্প পরিসরে বাস্তুতন্ত্র গড়ে তোলার ব্যাপারটা ইন্টারেস্টিং। বিশেষ করে সেটা যদি বৃক্ষ দিয়ে হয়, তাহলেত কথাই নাই। এই এক্সপেরিমেন্টটা ভালো লাগছে। এমন কিছুর ব্যাপারে আগে কোন রকম আইডিয়াই ছিলনা। আলসামি কাটাইতে পারলে কোন একদিন চেষ্টা করে দেখা যাবে। :)

সাপ, বেজি- এগুলো দিয়ে কোন বাস্তুতন্ত্র গড়ে তোলা যায়না? ;)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৩৬

শায়মা বলেছেন: সাপ বেজি দিয়েও গড়ে তোলা যায় তবে খবরদার সত্যিকারের সাপ বেজি এনোনা ভাইয়ু!!!!!!!!! তবে মূর্তী বা টয় দিয়ে যত খুশি তত বানাও নো প্রবলেমো!!!!!!!!:)

৩২| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৩২

আমিই মিসির আলী বলেছেন: ওকে।

আপনি একটা গিফট করলে তো হয়েই গেলে!
শায়মা আপুর গিফট কয়জনের ভাগ্যে জোটে!

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৩৮

শায়মা বলেছেন: হ্যাঁ গিফটই করে দেবো ওকে ভাইয়ু। থাক আর কষ্ট করে বানাতে হবেনা। হাজার হোক মিসির আলীকে গিফট দেবো!!!!!!!!:)

৩৩| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৩৯

ইমরাজ কবির মুন বলেছেন:
চমৎকার তো!
ফেসবুকে ছবি দেখে বুঝতেসিলাম না কিছু।ব্লগে প্রক্সি দিয়ে লগইন করা লাগলো।কি সমস্যা হৈসে বুঝতেসিনা।
আমার পিকাচু ড্রইং কৈঈঈঈঈঈ??

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৫২

শায়মা বলেছেন: আসলেই ভাইয়া!

টেরারিয়াম খুবই অদ্ভুত সুন্দর এক শিল্প!

ব্লগে কেনো ঢুকতে পারবেনা? আর দুদিন দেখো এরপর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।


পিকাচু ড্রইং আঁকছি তো!!!!!!!!:)

৩৪| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৪৩

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: সাপ বেজি দিয়েও গড়ে তোলা যায় তবে খবরদার সত্যিকারের সাপ বেজি এনোনা ভাইয়ু!!!!!!!!! তবে মূর্তী বা টয় দিয়ে যত খুশি তত বানাও নো প্রবলেমো!!!!!!!!:)

নকল বাস্তুতন্ত্র গড়ে তুলে কি আর আসল এক্সপেরিমেন্ট হবে? করলে আসল সাপ আর বেজী দিয়েই করতে হবে। :)

০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৫৪

শায়মা বলেছেন: আসল দিয়ে বাস্তূতন্ত্রের চেরেষ্টা চালাইলে কিন্তু ভাইয়ু জীবন নিয়েও মাঝে সাঝে টানা টানি লেগে যেতে পারে । না বাবা এত বাস্তূর দরকার নেই!!!!!!!!! এই ভালো তো!!!!!!!!:):)

৩৫| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৪৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ওরে আল্লাহ এত সুন্দর করে বানাইছ ? আমার টা বুকিং দিয়ে রাখলাম জুলাইতে ডেলিভারী দিবা ।
বিড়াট জ্ঞানী পুষ্ট তাও তুমি লিখছ বলে পড়লাম কিন্তু ধাক্কা খেয়ে জায়গা মত ফেরত আসছে জ্ঞান ;)

আমি কয়দিন থেকে ভাবছিলাম তোমাকে আড্ডা পোস্ট দিতে বলব ব্লগে আর সেই মিল মোহাব্বত খুজে পাচ্ছি না :(
নিজে ও চেস্টায় আছি দেয়ার ।
দেশের বাইড়ে থাকি আত্মিয় ,বন্ধু কেউ নাই আশে পাশে ব্লগে ই সব এইট ঝিমাইয়া গেলে বসে বসে হিন্দি সিরিয়াল দেখতে হবে
:-&
শায়মা ট্রেড মার্কের পোস্ট এ পীলাচ :)

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৭:৫৭

শায়মা বলেছেন: আপু
তোমার কমেন্টটা পড়ে কালকে রিপলাই দিতে গিয়েও আটকে গেলাম। কারণ নস্টালজিক হওয়া আর অকারনে আনন্দের দিনগুলো ভেবে আনন্দের বদলে কষ্ট পাবার একটা বাজে ব্যাপার আমার মধ্যে আছে। একে বলতে পারো দুঃখবিলাস হয়তোবা। কিন্তু আমার প্রিয়জনেরা আল্লাদ করে বলে আমি সেন্টিমেন্টাল বা একটু পাগল। তবে এই কথা সত্যি আমি যেহেতু যতদূর পারা যায় ভালো থাকতে চাই বা যতক্ষন পারা যায় কারো মনে কষ্ট দিতে চাইনা সেহেতু ঠিক আমার সাথে কেউ বিপরীত ব্যাবহারটা করলে আমিও সব কিছুই ভুলে ........:(

যাইহোক তুমি লিখেছো-
(আমি কয়দিন থেকে ভাবছিলাম তোমাকে আড্ডা পোস্ট দিতে বলব ব্লগে আর সেই মিল মোহাব্বত খুজে পাচ্ছি না :(
নিজে ও চেস্টায় আছি দেয়ার ।
দেশের বাইড়ে থাকি আত্মিয় ,বন্ধু কেউ নাই আশে পাশে ব্লগে ই সব এইট ঝিমাইয়া গেলে বসে বসে হিন্দি সিরিয়াল দেখতে হবে)

আড্ডা পোস্ট লাগতো না আপু আমি যে সময় ব্লগে এসেছিলাম অনেক অনেক নামী দামী বড় বড় মানুষেরা তখন ছিলো এই ব্লগে তাদের জ্ঞান গরীমা ও ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছি আমি। তারা অনেক বড় বড় ভাবনা চিন্তা ও একই সাথে সৌহার্দ্যপূর্ণ আচরন ও আনন্দে থাকতে, মজা করে এই পরাবাস্তব জগতে বাস্তবের সকল দুঃখ, কষ্ট ব্যাথা বেদনা ভুলে কিছু শিখতে সুন্দর সময় কাটাতে শিখিয়েছিলো আমাদেরকে।

আমার মনজুরুল ভাইয়া, সুরঞ্জনা আপু,খলিলভাইয়া, নুশেরাআপু, নাজনীন খলিলআপুনি, মেহবুবা আপু, স্বপ্নজয়ভাইয়া এমন শত শত নাম লিখতে বসলে রাত ফুরিয়ে যাবে। তাদের কাছ থেকে আমরা একই সাথে অনেক কিছুই পেয়েছিলাম। তিনারা নিজেদেরকে বড় বড় বলে রামগড়ুড়েে ছানার মত গুরু গম্ভীর মুখে আমাদেরকে শুধু পন্ডিতি করে যেতেই এখানে বলেনি। বরং আনন্দে থেকে একে অন্যের সাথে সুন্দর সময় কাটিয়ে আমরা তখন লেখা যে উৎসাহ উদ্দিপনা পেতাম তা আর এখন নেই।

হ্যাঁ মানুষের জীবনের বা কোনো কিছুরই সব সময় একই রকম যায় না। নানা ঘাত প্রতিঘাত পেরিয়ে ব্লগে আজ এমন একটা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে কে কত হনু বা কে কত বড় পান্ডিত্য দেখাবে তাতেই মত্ত। কেনো এত আড্ডাবাজী হবে? কেনো এত কথা কমেন্টে কমেন্টে হবে? কে কার সাথে বেশি সখ্যতা দেখাবে, কেনো তাদের নাম সাম্প্রতিক মন্তব্যের তালিকায় বেশি বেশি দেখা যাবে এই নিয়ে বসে বসে কোঁদল করা ছাড়া আর তাদের জীবনে কিছুই করার নেই। সোজা ভাষায় ভুতের সিনেমায় দেখা কিছু অতৃপ্ত আত্মাকেই মনে পড়ে আমার তাদের কার্য্যকলাপ দেখে।


যাইহোক সেসব ব্লগারেরা আবার নিজেরাই যাহা বলেন তাহাতে নিজেদেরই খবর নাই। সেই কাজগুলোই করার জন্য তারা অন্যদেরকে ঠেকিয়ে উঠে পড়ে লাগে। আসলে আনন্দ নিয়ে যা করা যায় না তা যেমনই নিজের জন্য উপভোগ্য নয় অনয়ের জন্যও নয়। শুধু কিছু কিছু ভুতের সিনেমায় দেখা অতৃপ্ত আত্না রামগড়ুড়ের ছানারা মাঝে মাঝে আসে পরিবেশকে উস্কে দিতে। এই উস্কানীটাই সবচেয়ে বড় ক্ষতি করে দিয়ে যায়।

মিলমহব্বত ভাঙ্গাতে বাস্তবেও তাদের যেমন জুড়ি নেই (আমার ধারণা) তেমনি এখানেও একই কাজ করে কারণ স্বভাব যায় নাকি মরলেও। কাজেই এই সব ভুত পেত্নীগুলোর পাল্লায় পড়ে আনন্দ হারিয়ে যায় ধীরে ধীরে। এদেরকে আমার ঠিক ক্যান্সারের মত লাগে। যাইহোক কি আর করা! নাথিং টু ডু ! তুমি বা আমি না চাইলেও কি আর এই সব কর্কট, মর্কটদেরকে চিরতরে নির্মূল করা যাবে? যাবেনা...... :(


কারণ কারো সাথে কারো মিল মহব্বত দেখলেি তারা সুই নিয়ে আসে। হা হা হা

যাইহোক আপুনি ভালো থেকো অনেক অনেক। লাভ ইউ সো মাচ!!!!!!

৩৬| ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৫৪

গুলশান কিবরীয়া বলেছেন: সায়মা আপু সব সময় দারুণ দারুণ পোস্ট দেয় । দারুণ ক্রিয়েটিভ গো তুমি । :) আর বেশ টিপটপ পরিপাটীও । আমার একটা ছিল , আমার ছেলে ভেঙ্গে ফেলেছে । তোমার মেথডটা নিয়ে একটা তৈরি করে ফেলবো ভাবছি । অনেক অনেক ভালো লাগা । :)

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:১৭

শায়মা বলেছেন: দারুণ দারুণ মানেই আমার অং বং পোস্ট! মানে যে সব নিয়ে আমি আনন্দে মেতে থাকি আপুনি। অবশ্য এপ্রিল মাসটা গেছে মানুষজন নিয়েই দারুন সব কাজে। তাই আর লেখালিখি হয়নি। ছেলে ভেঙ্গে ফেলুক আমি আরেকটা বানায় দেবো আপুনি! আর আমি নিজে তো আরও আরও বানাবো কয়েক মাস! :P

৩৭| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ১২:২১

ইমরাজ কবির মুন বলেছেন:
অহহহ, তিনকু! :)

এগুলা ঝামেলা আর ভাল্লাগেনা।আচ্ছা ঠিকাসে আর ২দিন দেখলাম, এরপর পরিবেশ বন্ধুকে দিয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য সার্ভার ডাওন করায়ে দিবো এক্কদম ||

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:২৫

শায়মা বলেছেন: হাহাহা পরিবেশ বন্ধু ভাইয়াকে লাগবে কেনো??? আমরাই আন্দোলন শুরু করে দেবো ভাইয়ুমনি!!!!!!!!!!!:)

৩৮| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ১২:৪৮

রূপক বিধৌত সাধু বলেছেন: কতকিছু জানিনারে!

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:২৬

শায়মা বলেছেন: হা হা সবচেয়ে বেশি জানোনা পাগলকে যে সাঁকো নাড়াতে হয় না!!!!!!!!! :P

৩৯| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ১:৫৭

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: প্রচন্ড রকমের সৌখিন ভাবনার বাস্তব রূপায়ন দেখলাম।। প্রতিভা একেই বলে।।

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:২৭

শায়মা বলেছেন: হা হা ভাইয়ু! প্রতিভা কিনা জানিনা কিন্তু জানোই তো শখের তোলা আশি টাকা এই কথা আমার জন্য শতভাগ প্রযোজ্য!!!!!!!:) :)


থ্যাংক ইউ ভাইয়ামনি!

৪০| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ২:০৪

অপু তানভীর বলেছেন: এতো দিন পর পোস্ট কেনু ?

কই ছিলা শুনি ?

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:২৮

শায়মা বলেছেন: ছিলাম তো বৈশাখ নিয়ে ভাইয়া!!!!!!!!:(


পোস্ট লেখার সময় পাইনি!:(

৪১| ০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:২২

চাঁদগাজী বলেছেন:



খুশী?

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:৩০

শায়মা বলেছেন: হা হা

চাঁদগাজী ভাইয়ু!!!!!!!!! আই এ্যাম অলওয়েজ হ্যাপী!!!!!!!!! :)


আর রেগে গেলে কি করি জানা আছে নিশ্চয়!!!!!!!!! X((



:P

৪২| ০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:২২

কল্লোল পথিক বলেছেন: এ্র্যাকুরিয়াম সম্পর্কে জানা ছিলা টেরারিয়াম সম্পর্কে জানা ছিল না।
চমৎকার একটা বিষয়।
দেখি আপনার পদ্ধতি অনুযায়ী বানাতে পারি কিনা।

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:৩১

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া আমিও কি জানতাম নাকি??
আমি তো টেরারিয়াম নাম শুনেই এই কথাটাই প্রথমে ভেবেছি। আরে এ্যকুরিয়াম শুনেছি টেরা তো শুনিনি! হা হা হা


বানাও ভাইয়া। অনেক ভালো লাগবে !


অনেক অনেক থ্যাংকস তোমাকে! অনেক ভালো থেকো।:)

৪৩| ০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:৩৬

হাফিজ বিন শামসী বলেছেন:


দারুন পোস্ট। অনেক দিন পরে পোস্ট পেলাম। টেরারিয়াম জগতে হারিয়ে গিয়েও যে আমাদেরকে ভুলেননি এ জন্য ধন্যবাদ।

ভাবছি, আমার মত অলস মানুষ দিয়ে তো আর টেরারিয়াম বানানো সম্ভব নয়।তাই তেরারিয়ামের কিছু পিকচার দেয়ালে টাঙিয়ে রাখব।

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:৫১

শায়মা বলেছেন: হা হা না ভাইয়া!!!!!!!!!!!


পিকচার কেনো ঝুলাবে? আর সবাইকে অলস হলে চলবে??????

তার থেকে তোমার পরীর মত মেয়েটাকে এই পোস্ট এক কপি করে দাও। সেই বানাবে। আই নো শি ইজ ট্যালেন্ট আর জানোই এইসব ক্রিয়েটিভ ওয়ার্ক ট্যালেন্টরাই করে লাইক মি!!!!!!!!!!!!!! :P হাহাহাহাহাহাহাহাহাহাাহাহাহাহাহাহাহা

৪৪| ০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:৪৯

সায়ান তানভি বলেছেন: দারুন পোস্ট।প্রিয়তে নিয়ে রাখলাম, যদি কখনো সময় সুযযোগ হয় চেষ্টা করবো বাসায়।ধন্যবাদ শায়মাপু চমৎকার বিষয়টা জানানোর জন্য।

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:৫২

শায়মা বলেছেন: যদি মদি না ভাইয়ু!!!!!!!!!!!!! আজকেই শুরু করে দাও। তুমি নিশ্চয় উপরের ভাইয়াদের মত অলস না!!!!!!!!:)

৪৫| ০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:৫৫

মাঈনউদ্দিন মইনুল বলেছেন:

ক্রিয়েটিভ!

মন হারিয়ে গেলো টুকরো স্বর্গে বাগানে। এখন আর মনকে খুঁজে পাচ্ছি না....

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:৫৭

শায়মা বলেছেন: মন ধরে আনো ভাইয়ু!!!!!!!!!!!!!!

শিঘরী!!!!!!!!!!!! শিঘরী!!!!!!!!!!!! নাইলে কিন্তু স্বর্গের বাগানের প্রেতাত্নারা ধরবে!


হায় হায় কি হবে তখন এই ছুটির দিনে!!!!!!!!!!! দিনটাই মাটি!!!!!!!!!!! :(




:P :P :P

৪৬| ০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ১০:০৫

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: আসল দিয়ে বাস্তূতন্ত্রের চেরেষ্টা চালাইলে কিন্তু ভাইয়ু জীবন নিয়েও মাঝে সাঝে টানা টানি লেগে যেতে পারে । না বাবা এত বাস্তূর দরকার নেই!!!!!!!!! এই ভালো তো!!!!!!!!:):)

জীবন নিয়েও মাঝে সাঝে টানা টানি না লাগলে আর কিসের বাস্তূতন্ত্র হইলো? ;)

নাকি আপনিও জীবন মানে জি বাংলা থিয়োরিতে বিশ্বাসী? :P

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ১০:০৯

শায়মা বলেছেন: ছি ছি ভাইয়ু!!!!!!!!!! তুমিও জি বাংলা দেখো!!!!!!!!!!!!!

ছি ছি ছি !!!!!!!!!!!!!! আমার জিনিয়াস ভাইয়ুটার এত অধঃপাত!!!!!!!!!!!!! জানতাম না!!!!!!!!!!!!!! :((


নো ভাইয়া নো মোর জি বাংলা!!!!!!!!!!!!! তার থেকে রোজ রোজ জিলাপী খাবা!!!!!!!!! জীলাপী!!!!!!!!!!! ওকে??? :)

৪৭| ০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ১০:৫২

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: ছি ছি ভাইয়ু!!!!!!!!!! তুমিও জি বাংলা দেখো!!!!!!!!!!!!!

ছি ছি ছি !!!!!!!!!!!!!! আমার জিনিয়াস ভাইয়ুটার এত অধঃপাত!!!!!!!!!!!!! জানতাম না!!!!!!!!!!!!!! :((


নো ভাইয়া নো মোর জি বাংলা!!!!!!!!!!!!! তার থেকে রোজ রোজ জিলাপী খাবা!!!!!!!!! জীলাপী!!!!!!!!!!! ওকে??? :)

আমি জি বাংলা দেখি কখন বললাম?

আপনার এই টয় সাপ আর বেজী দিয়ে বাস্তুতন্ত্র গড়ার কথা শুনে মনে হলো সেটা অনেকটা জি বাংলা দেখেই জীবনের স্বাদ নেওয়ার মত! ;)

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:০৭

শায়মা বলেছেন: জি বাংলা না দেখলে জি বাংলা থিয়রী জানলে কেমনে!!!!!!!


বললেই হলো দেখি না!!!!!!!!!!!!!

দেখো না আমি দেখি না তাই জি বাংলা চিনিই না!!!!!!!:) :) :)



:P


আমি চন্ডালিকা ডান্স ড্রামা দেখছি এখন!:)

৪৮| ০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:১৫

রানার ব্লগ বলেছেন: ব্যাপারটা জানতাম কিন্তু বানানর প্রক্রিয়া জানতাম না। ধন্যবাদ বিস্তারিত বর্ণনা করার জন্য । এই বার দেখি আমার দ্বারা এই কার্জ সম্পন্ন হয় কি না। কেউ কেউ বলে আমি নাকি মহা অকর্মা।

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:২২

শায়মা বলেছেন: অর্কমা বলে কিছু আছে নাকি ভাইয়া? আমি আবার সর্বকর্মা যা মনে চাইবে করা চাই ই চাই। হোক না অং বং আর যাই ইচ্ছা তাই। আমি নিজে করে নিজেই খুশি!!!!!!


তুমিও শিঘরী বানায় ফেলো ভাইয়া আর আমাকে একটা ছবি তুলে এনে দেখাও ওকে? :)

৪৯| ০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৪৪

পবন সরকার বলেছেন: কাঁচের ভিতরে গাছ লাগালে অক্সিজেনের অভাবে গাছ মরবে না তো?

০৬ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৪৯

শায়মা বলেছেন: না মরবে না!!!!!! আর সে রকম গাছ লাগাতে হবে নইলে খোলা মুখের পাত্রে লাগানো হয়েছে তো ভাইয়া!!!!!:)

৫০| ০৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:০৩

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: জি বাংলা না দেখলে জি বাংলা থিয়রী জানলে কেমনে!!!!!!!


বললেই হলো দেখি না!!!!!!!!!!!!!

দেখো না আমি দেখি না তাই জি বাংলা চিনিই না!!!!!!!:) :) :)



:P


আমি চন্ডালিকা ডান্স ড্রামা দেখছি এখন!:)



ডাইনোসরের পড়ে আবির্ভাব হওয়ার পড়েও মানুষ যেমনে জানে ডাইনোসর ছিল তেমনে! ;)


দেখো না আমি দেখি না তাই জি বাংলা চিনিই না!!!!!!!:) :) :)

শাক দিয়ে মাছ ধাকাও একটা প্রতিভা বটে! :P

ঠিক আছে, চন্ডালিকা ডান্স ড্রামা দেখেন!

আমি সাম্বা নৃত্য দেখবো। :)

০৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:২২

শায়মা বলেছেন: সাম্বা!!!!!!!!!!!!!

হাম্বাটাও দেখো!! এইটাও বা বাকী থাকবে কেনো!!!!!!!!

https://www.youtube.com/watch?v=B6ZuzJsFQ9o
:) :) :)

৫১| ০৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:৩৪

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: সাম্বা!!!!!!!!!!!!!

হাম্বাটাও দেখো!! এইটাও বা বাকী থাকবে কেনো!!!!!!!!

https://www.youtube.com/watch?v=B6ZuzJsFQ9o
:) :) :)

সাম্বা এবং হাম্বার মধ্যে ছন্দগত দিক থেকে মিল ছাড়া আর কোন মিলই নাই।

তবে আপনার এই লিংক করার তরিকা দেখে মনে হচ্ছে ডারউইন আসলেই ঠিক ছিলেন! :P

০৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:৩৭

শায়মা বলেছেন: হা হা হা হা

দেখলে তো কাকতালীয় বা বাঘতালিয় কিংবা কাউতালিয়া বা সাউতালিয়া সবই আমি একই ঘাটে জল খাওয়াতে পারি!!!!!!!:) :) :)


তো সাম্বার উপর হঠাৎ এত ভালোবাসা উথলে উঠলো কেনো বলোতো??? শিখছো নাকি!

৫২| ০৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:৪৫

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: হা হা হা হা

দেখলে তো কাকতালীয় বা বাঘতালিয় কিংবা কাউতালিয়া বা সাউতালিয়া সবই আমি একই ঘাটে জল খাওয়াতে পারি!!!!!!!:) :) :)


তো সাম্বার উপর হঠাৎ এত ভালোবাসা উথলে উঠলো কেনো বলোতো??? শিখছো নাকি!


এক ঘাটে জল খাওয়ায় সার্কাসের লোকরা! ;)

আপনারও কি তেমন কোন দল আছে নাকি? :P


সাম্বার মধ্যে একধরনের স্বতঃস্ফূর্ত ব্যাপার আছে।

তাই মাঝে মাঝে........... :P

০৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১:৪১

শায়মা বলেছেন: আছে তো আমার তো কত্ত দল!!!!!!!!!!:)

আমি সর্বদল!!!!!!!!!!!!!

সতস্ফুর্ত ব্যাপার দেখছো কেনো?

তোমার কি স্বতঃস্ফূর্ততা প্রাকটিসের দরকার পড়েছে ভাইয়ু!!!!!!!!!

৫৩| ০৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:৫৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা ,




কৃতি মেয়ের যতো কান্ড !!!!!!!!
সুন্দর ।

০৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১:৪২

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়ামনি!!!!!!!!!!


অনেক অনেক থ্যাংকস আমার টেরারিয়াম দেখতে আসার জন্য।:)

৫৪| ০৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:৫৬

জুন বলেছেন: মুগ্ধ হোলাম শায়মা তোমার টেরিরিয়াম দেখে যেমন হয়েছি ব্যংককের ইন্ডেক্স লিভিং মল আর হোম প্রোতে দেখে।কোন দেশে থাকার স্থিরতা নেই দেখে কিনি নি :(
তবে এই আমার এয়ার প্ল্যন্ট আর স্পেনিশ মস । যে কোন সময় ইচ্ছে হলেই বানিয়ে নিতে পারি B-)





০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৩:০৪

শায়মা বলেছেন: কোথায় আছো এখন আপু? বাংলাদেশে থাকলেই আজকেই ড্রাইভার দিয়ে আমার বাসায় এই সব পাঠায় দাও। আমি বানায় দিচ্ছি তোমাকে। তোমার আর কষ্ট করতে হবেনা। :) আমার তো বানাতে খুবই ভালো লাগে।:)

৫৫| ০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:১২

সুলতানা রহমান বলেছেন: এই পোস্ট দেখেই লগ ইন করলাম।

খুব সুন্দর! কতটা গোছানো আর ধৈর্যশীলা হলে এত কাজ করা যায়!

০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:১৯

শায়মা বলেছেন: আপুনি!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

কোথায় থাকো তুমি!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

লগ ইন করোনা কেনো???????????????

তুমি আবার পোস্ট লিখো!!!!!!!!!!!!!!!!!!

সব পোস্ট ফিরাই আনো!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

একজন আমাকে রিকোয়েস্ট করেছে তোমাকে ফিরে আসতেই হবে বলতে!!!!!!!!!!!!!!:(

হি ইজ মিসিং ইউ!!!!!!!!!!!!!! আমিও!!!!!!!!!!!!!!:(

৫৬| ০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৩৮

জেন রসি বলেছেন: আমার কিছু প্রশ্ন ছিল?

১) এই শিল্পকর্ম কি একটা রুম নিয়ে করা যাবে! তারপর সেই রুমে টারজান হয়ে............ :P

২) আপনার এত গুনের রহস্য কি?

৩) কি করি ভাইয়ের ছড়ার জবাব দিতে গিয়ে দেখি ছন্দই মিলাতে পারছিনা। ছড়া ব্লক কাটানোর জন্য কি করিব?

০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৪৮

শায়মা বলেছেন: তুমি টারজান হবে নাকি!!!!!!! ভাইয়ু!!!!!!!!!!!! কি বলো !!!!!!!!!!!! রুমের মধ্যে বন আর সেই বনে তুমি টারজান!!!!!!!! হাহাহাহাহাহাহাহা হতে পারো তবে দেখো বাইরে থেকে আবার বাড়ির লোকজন তালা লাগাই দিতে পারে। :)


এত গুনের রহস্য আমি রোজ সকালে গুন অংক কষি!:)


ছড়া ব্লক কাটানোর একটা মহৌষধী আছে।:) :) :)



একটা ছড়ি কিনে রোজ একটু একটু করে ভেঙ্গে পানি দিয়ে গিলে খাওয়া। এই ছড়ির টুকরোগুলোই পেটের ভেতর গিয়ে হয়ে যাবে ছড়া। আর অমনি তারা কি আর থাকতে পারবে। বেরিয়ে আসতেই চাবেই চাবে আর তুমি শুধু একটা পেন্সিল হাতে নিলেই হয়ে গেলো!!!!!!!!


গড় গড় করে বেরিয়ে আসবে ছড়া!:

৫৭| ০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৩৮

সুলতানা রহমান বলেছেন: না শায়মা, আপাতত এখন আর আসছি না। তবে মাঝে মাঝেই দেখি। সব ফেলে আসাতেই একটা মায়া থেকে যায়।

কিন্তু এইসব কাজ আমি কখনোই করতে পারবো না। কিন্তু যারা করতে পারে তারা প্রশংসার দাবিদার।

০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৪৩

শায়মা বলেছেন: আপু!!!!!!!!!!!!!!!!!
হবে না!!!!!!!!!!!!! তোমাকে আসতেই হবে!!!!!!!!!!!!!!!!!

শুনো রাগ করে এইভাবে কোনো কিছুই বোকামী ইউ নো!!!!!!!!
আমরা তোমাকে মিস করি আপু!!!!!!!!!!!

তুমি ফিরে আসো!!!!!!!!!!!!!


তুমি ফিরে আসো আজকেই একটা কবিতা নিয়ে আর আসলেই আমি এইবার ডরুমা ডল বানাবার পোস্ট দেবো আর তোমাকে বানিয়েই দেবো একটা প্রমিজ!!!!!!!!!!!!!!:)

৫৮| ০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৪৮

সুলতানা রহমান বলেছেন: জেন রসির ছাপ্পান্ন নাম্বারে লাইক =p~

শায়মা আড্ডা পোস্ট দিলে আড্ডা দিতে আসবো। পুরানোরা সবাই দেখি হাওয়া। ব্লগ অনেক মনমরা।

সব পুরানোরা দল বেঁধে হৈ হৈ করে উঠুক। কেউ পেছনে লাগবে, কেউ সামনে। এই তো মজা। যৌথ পরিবার গুলো এরকম হয়।
এও তো যৌথ পরিবারের মতো।

শুভকামনা রইলো।

০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৫৯

শায়মা বলেছেন: জিনি ভাইয়া বিশাল বড় টেরারিয়াম বানাতে চায় তাতে আবার নাকি নিজেই সাজবেন টারজান!!!!!!!!! হাহাহাহাহাহাহাহহাহাহা আমাকে খবর দিলে অবশ্য একটা শের খান এনে ছেড়ে দেবো!!!!!!!! :P


ভাইয়া অবশ্য তাকেই লজিক শেখাতে বসবেন। বললে শুনো বৎসো কার্ল মাক্সের নিয়ান্ডার্থাল আমল থেকে সম্ভবত আজ থেকে আড়াই লক্ষ বছর আগে আত্মার কাছে তোমাকে পাঠায় দেবো। বেশি বাড়লে পিথেকানথ্রোপাস আর সিনানথ্রোপাসের আমলেও তোমাকে তন্ত্র মন্ত্র বলে পাঠাইতে পারি! :P


আর না আপু আর না!!!!!!!!! বাপরে যে ভালোবাসার দল আমি পেছনে ফেলে এসেছি আর তার করুণ পরিনতিও দেখেছি! আর শখ নাই মাফ চাই!!!!!!!!!!!! যৌথ পরিবারগুলো এমন হয় বটে তবে আজকাল যৌথ পরিবারে লেগেছে কালসাপ/সাপিনীদের ছোঁয়া তারা আবার এই হাসিখুশি পরিবেশের নাম দেন অপ্রাসঙ্গিক হা হা হে হে আরও কি কি যেন নাম মনেও করতে চাইনা!:( :( :(

থাকুক রামগড়ুড়ের ছানারা তাদের দূরাভিসন্ধিই নিয়ে!:(

৫৯| ০৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৫৪

উইশ বলেছেন: পুরাই পাংখা পোস্ট। অ্যাত্তো গুলো ধইন্যাপাতা আফা.... B-)

০৬ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:০৬

শায়মা বলেছেন: হা হা থ্যাংক ইউ ভাইয়ু!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!! :P

৬০| ০৬ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:০৬

উইশ বলেছেন:
উইশ!!!!!!!!!!!!!!!!!!! ইউ এগেইন ব্রেক ইওর প্রমিজ!!!!!!!!!!!!!!!! B:-)

০৬ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১১

শায়মা বলেছেন: হা হা হা হা কই কই কই!!!!!!!!!!!!!!!! B:-)


ইউ নেভার ব্রেক এনি প্রমিজ!!!!!!!!!!!!!!!

হা হা হা হা :P
আলাই বালাই কালাই
তাড়াতাড়ি গিফট নাও....... কি বলেছি ভুলে যাও!!!!!!!!!!!!!!!!!!

৬১| ০৬ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:০৬

গেম চেঞ্জার বলেছেন: কাবিল বলেছেন: জেন রসি বলেছেন: গেম চেঞ্জার বলেছেন: কাবিল ভাই!
আমি আসলেই আলসে। :) আমার অনেক কাজ কম্পিউটার নিজে থেকেই করে দেয়। B-)) সাথে ফ্যামিলির মানুষ তো আছেই। হাঃ হাঃ

আমার চেয়ে আলসে কারো পক্ষে হওয়া সম্ভব না! এই দিক দিয়ে আমি চ্যাম্পিয়ন! B-)

গত বারের চ্যাম্পিয়ন কিন্তু আমি ছিলাম



কাবিল ভাই ও জিনি ভাই নিজেকে চ্যাম্পিয়ন মনে করেন। অথচ আমি সেটাও ভাবতে আলসে বোধ করি। B-) :``>>

০৬ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৩

শায়মা বলেছেন: হা হা হা হা তুমি দেখছি আসল পিপু!!!!!!!!!!!!!!!!!!! :P

৬২| ০৬ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৫৮

দীপান্বিতা বলেছেন: অসাধারণ! :)

০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১৯

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ আপুনিমনি!!!!!!!:)

৬৩| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: না আড্ডা পোস্ট এ দাও সব পোস্ট কে গল্পের বানানোর দরকার নাই ,চা , কফি যে যা খেতে চায় আড্ডা তেই দিবা আগের মত ।

০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:২৫

শায়মা বলেছেন: কি যে বলো আপুনি!!!!!!!!!!!!


আবার এসে যেতে পারে কিছু অকারণ হিংসুটে পন্ডিৎ পন্ডিৎনীরা!!!!!!!

এসে আবার আতলা হবার ইচ্ছা পোষন করে বাঘ সিংহ ছাগল পাগল নিয়ে পিছে লাগবেনা কি গ্যারান্টি আছে বলো!:(

৬৪| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ব্লগে সব ধরনের লেখাই আসবে ..
তবে সব পোস্ট কে আড্ডা না বানানোই ভালো আমার মনে হয় ,তাতে কি লিখলাম তার ফিড ব্যাক আসে না । নিজেদের মাঝে আড্ডা , ফান পোস্ট আসতেই পারে সেটা যাদের ভালো লাগবে তারা জয়েন করবে , আংশ নিবে যাদের বাহুল্য মনে হবে তাঁরা এরিয়ে যাবে ।
সাহিত্য পোষ্ট এ প্রাসঙ্গিক মন্তব্য ই শ্রেয় ।

০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪৮

শায়মা বলেছেন: এইটা কি পোস্ট তাইলে আপুনি!!!!!!!!!!!!!!

ইজ ইট সাহিত্য!!!!!!!!!!!!!!! ইহাই আমার আড্ডা পোস্ট! কারণ আমি একটা জিনিস বানিয়েছি । অনেক সুন্দর। অনেক পছন্দের আমার কাছে তাই দেখাটে এনেছি আর তার সাথে রিলেটেড ইতিহাস পাতিহাস নিয়ে আলোচনা করছি মানে গল্প!:)

আর নিজেদের মাঝেই আড্ডা হবে কিছু প্রাসঙ্গিক কিছু অপ্রাসঙ্গিক তার মানে এই না যে খড়গ নিয়ে বসে আতলামী করবো! ফুহ!!!!!!!!!!!!!!


আমিও সেটাই করি যেখানে পছন্দ না এড়িয়ে যাই আর যেখানে ভালো লাগে , পছন্দ হয় সেখানে নির্দ্বিধায় কথা বলি!:)

০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪৯

শায়মা বলেছেন: ওহ এই নাও গোল্ড টি! নিজে হাতে বানানো:)

৬৫| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৫১

জিয়ানা বলেছেন: মানতে হবে...একেই বলে ক্রিয়েটিভিটি! খুব সুন্দর,সৃজনশীল কাজ আপনার! মুগ্ধ হলাম! :)

০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৫৬

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ সো মাচ জিয়ানা আপুনি!!!!!!!!!!!!!

আমিও টেরারিয়াম দেখে মুগ্ধ হয়েছিলাম!!!!!!!!

৬৬| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:২৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হুহ খালি চা
তোমার মত ফুহ দিলাম ;)
না মানে চা গরম তো তাই :P

০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৩২

শায়মা বলেছেন: কি যে বলো আপুনি!!!!!!!! দাঁড়াও এখুনি আনছি!:)

৬৭| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৩৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: :)

০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৩৬

শায়মা বলেছেন: হা হা আপুনি!!!!!!!!!!!!

লাভ ইউ সো মাচ!!!!!!!!:)

৬৮| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৪৬

যুগল শব্দ বলেছেন:
বাঘ, উট সব বোতলে ভরেছেন নাহ,
ওদেরকে কি গরু পেয়েছেন !!? B-)



০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৪৯

শায়মা বলেছেন: সব বোতলে ভরে বোতল বন্দী করে রেখেছি! হা হা হা


গরুরাই কি শুধু বোতলে থাকবে???


বাঘ সিংহরাও থাক। :)

৬৯| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৪৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: সুলতানা রহমান বলেছেন: জেন রসির ছাপ্পান্ন নাম্বারে লাইক =p~

শায়মা আড্ডা পোস্ট দিলে আড্ডা দিতে আসবো। পুরানোরা সবাই দেখি হাওয়া। ব্লগ অনেক মনমরা।

সব পুরানোরা দল বেঁধে হৈ হৈ করে উঠুক। কেউ পেছনে লাগবে, কেউ সামনে। এই তো মজা। যৌথ পরিবার গুলো এরকম হয়।
এও তো যৌথ পরিবারের মতো।

শুভকামনা রইলো

একদম ঠিক , সহমত :)

০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৫১

শায়মা বলেছেন: হায় হায় সবাই জিনিভাইয়াকে লাইক দিচ্ছে কেনো!!!!!!

সবাই কি টারজান টেরারিয়াম চায় নাকি!!!!!!!!!!!!


নাহ তোমাদের জন্য দেখছি আর আড্ডা পোস্ট ছাড়া চলছে না!

৭০| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৫৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: মজার মজার খাবার দিবা কিন্তু ;)

০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ৭:৩৫

শায়মা বলেছেন: সে আর বলতে খানা পিনা গানা বাজনা সব হবে! এমনকি নাচা(অন্যের) সেটাও হবে।:)


আপুনি!!!!!!!!!!!!!!!! লাভ ইউ সো মাচ!!!!!!!!!!!!! তাড়াতাড়ি দেশে আসো আমাদেরকে দাওয়াৎ দাও!!!!!!!!:)

৭১| ০৬ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:১৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: টেরারিয়াম !!!!! নাম টাই প্রথম শুনলাম !

সব কিছুর একটা সীমা থাকা দরকার । ক্রিয়েটিভিটিরও । শায়মা দেখছি সব সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে । B-)

০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ৭:৩৭

শায়মা বলেছেন: আমিও তো প্রথমই শুনেছিলাম!!!!!!!!!!

ভাইয়া আসলেই আমি সীমাহীন মানে মাথায় অনেক সীমাহীন ভুত বাস করে!!!!!!!!!!!!!! ভুতগুলো তাড়াতে চাই!!!!!!!! পারিনা!!!!!!!!!:(

লাভ ইউ ভাইয়ামনি!!!!!!!!!!


অনেক অনেক সফল হও!!!!!!!!!! (পরীর দোয়া নো বিফল মনে রেখো।:))

৭২| ০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ১২:৩৪

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: আসলে জিনিয়াসতো জিনিয়াসই। বাহ বাহ দারুণ র্সষ্টিশীল কর্ম। ভাল লাগার শতভাগ ।

০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ৭:৩৭

শায়মা বলেছেন: হা হা ভাইয়া !!!!!!!!!!!!!!!থ্যাংক ইউ!!!!!!!!!!!!!!!

৭৩| ০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ১:০৫

অরুনাভ বলেছেন: ওপস... :) :) :)...

০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ৭:৩৮

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!!!!!!!!!! কতদিন পর দেখলাম!!!!!!!! কেমন আছো কোথায় আছো ভাইয়ামনি?

৭৪| ০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:২৭

বঙ্গভূমির রঙ্গমেলায় বলেছেন:

এটাকে যে টেরারিয়াম বলে জানতাম না। :`>

আপনার সৃজনশীলতা আর মেধার প্রশংসা করেই বলছি দারুন পোস্ট।

আপনার ট্রেডমার্ক পোস্ট। +++++++

০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:৩৬

শায়মা বলেছেন: হা হা এতদিনে বুঝলাম শিল্পকলা, গীতকলা, নৃত্যকলা, রন্ধনকলা সকল কলাই আমার ট্রেডমার্ক!!!!!! সবাই এটাকেই ট্রেডমার্ক বলছে!!!!!!!!!!

এই কমেন্ট লিখতে গিয়ে মনে পড়ে গেলো আরেকটা উপমা, কলাবরিষ্ঠা!

আমাকে খলিলভাইয়া এই উপাধি দিয়েছিলো। আমিও অবশ্য টেরারিয়ামের মত কলাবরিষ্ঠা ওয়ার্ড শুনেও প্রথমে টাস্কি। ভাবলাম এটা আবার কি!

পরে ভাইয়া মিনিং বলে দিয়েছিলো!:)


থ্যাংক ইউ ভাইয়ামনি!:)

৭৫| ০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:৪৩

বঙ্গভূমির রঙ্গমেলায় বলেছেন:

কলাবরিষ্ঠা!!!!

ইহা আবার কি? ঝাতি মানে জানতে চায় :)

০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ৯:৪৯

শায়মা বলেছেন: আরে বলেই দিলাম তো!!!!!!!

সকল কলায় পারদর্শী গুণবতী নারীকেই কলাবরিষ্ঠা বলা হয়! ( আমার মত আর কি বুঝছো!!!!!!! হা হা হা হা হা ) :P

আবার জানতে চেয়োনা কলা আবার কি? সাগরকলা, চাঁপা কলা, কবরী কলা,শবরী কলা কোনটা!!!!!!

:P


৭৬| ০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ১০:০৩

বঙ্গভূমির রঙ্গমেলায় বলেছেন:
বুচবার পারচি। :)

আর জানতে চামু না। :) কলা মানে সাগর কলাই বুঝতাসি। ইয়ে আমি এখন সাগর কলা খাচ্চি তো তাই.................।

০৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ১০:০৭

শায়মা বলেছেন: হায়রে!!!!!!!

সাগরকলা দিয়ে আমি কাস্টার্ড বানাই, বানানা শেকও আর কাঁচকলা দিয়ে কাঁচকলার ভর্তা তাহাকে বলে রন্ধনকলা!

৭৭| ০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪৯

জেন রসি বলেছেন: বাস্তুতন্ত্র নিয়া এক্সপেরিমেন্টের খবর কি?

সব আছে? নাকি বাঘ খেয়ে ফেলছে? :P

০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:০০

শায়মা বলেছেন: আরে না!!!!!!!!!!!!!

আজকে রাতে নিউ এক্সপেরিমেন্ট হবে!!!!!!!!!! কালকেই তার ছবি এ্যাড করে দেবো!:)

তোমার রুমের মধ্যে টারজান গার্ডেনের খবর কি জিনিভাইয়ু!!!!!!!!!! হাহাহাহাহা

৭৮| ০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:০৩

জেন রসি বলেছেন: এবার কি ডাইনোসরও থাকবে নাকি?

ছবি দেখার অপেক্ষায় থাকলাম। :)

আমার রুম আপাতত মরুভুমি আর আমি আরব বেদুইন! :P

০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:০৬

শায়মা বলেছেন: না না ডাইনোসর মাইনোসর প্রাগৈতিহাসিক থিমে নাই আমি!!!!!! তবে রুপকথা কথকথা থাকিতে পারে। :)

আর আরব বেদুঈনের জন্য তাইলে এইটা

৭৯| ০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:১৬

এস কাজী বলেছেন: ইয়াহ আল্লাহ অনেক সুন্দর তো!!!! ইতিহাস জানলাম :) সুন্দর পিক দেখলাম :)

০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:১৯

শায়মা বলেছেন: তোমার জন্য একখানা বানাচ্ছি জামাইবাবা। সুর্য্যকন্যার ছবি দিয়ে!:)

৮০| ০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:২১

এস কাজী বলেছেন: তাহলে তাড়াতাড়ি বানাও :) আমি খুব তাড়াতাড়ি দেখতে চাই :)

০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:২৬

শায়মা বলেছেন: সেইটা তো তোমার বিয়েতে আমার গিফ্ট করার কথা! বিয়ের ডেট ফিক্সড করো তাড়াতাড়ি!

৮১| ০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:২৫

জেন রসি বলেছেন: এটা দেখে খুব পিসফুল মনে হচ্ছে!

মরুঝড়ে সারভাইভ করতে না পারলে আর কিসের বেদুঈন ;)

একটা মরুঝড় হচ্ছে এমন টেরারিয়াম বানাইয়া দেন। :)

০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:২৮

শায়মা বলেছেন:
এইরে
গেছি


মরুঝড়!!!


আতলামী শুরু হলো!!!!!!!!!!!!! B:-)

৮২| ০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:২৯

আরাফআহনাফ বলেছেন: অনেক অনেক সুন্দর আর ক্রিয়েটিভ।
টেরারিয়াম নামটাই অদ্ভুত আর দারুন সুন্দর এক শিল্প! অবসরে একবার চেষ্টা করবো তৈরি করতে, ছবি দেখেই প্রেমে পড়ে গেলাম যে!

০৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:৩৮

শায়মা বলেছেন: আমিও তো ভাইয়া!!!!!!!! যেদিন দেখেছি সেদিনই প্রেমে পড়েছিলাম!!!!!!!


তুমিও বানিয়ে ফেলো শিঘরী শিঘরী!:)

৮৩| ০৮ ই মে, ২০১৬ রাত ১:০৪

খায়রুল আহসান বলেছেন: অত্যন্ত সুলিখিত, সুপরিবেশিত এই পোস্টটা পড়ে বিমোহিত হ'লাম। বাকী কথা পরে আবার এসে বলবো কোন এক সময়ে।
আপনার একটা পুরনো লেখাও পড়ে এলাম একটু আগে।

০৮ ই মে, ২০১৬ রাত ১:২৭

শায়মা বলেছেন: হা হা ভাইয়া আপাতত টেরিরিয়াম নিয়ে মেতে আছি। আজ সারাদিন এই টেরিরিয়ামের পিছে ঘুরে বেড়িয়েছি মানে সাজসজ্জা যোগাড় করতে। যাইহোক আমার লেখা পুরোনো পোস্টগুলো পড়ার কারণে আমারও পড়া হয়। তবে আগে লিখতাম মনের আনন্দে মনে যা আসে তাই তবে এখন যা আসে তাই লিখি না, লিখতে গেলে থমকাই। একটু ভেবেই লিখি। লেখা হয়তো এখন সুলিখিত হয় বটে তবে সেই বাঁধভাঙ্গা আনন্দ নিয়ে লেখাটা কমে এসেছে নানা কারনে পারিপার্শ্বিকতায়।


"তারপরেও আমারে বাঁধবি তোরা সেই বাঁধন কি তোদের আছে?" আমাকে কে ঠেকাবে বলো আমার আনন্দ থেকে। সারাদিন ঘুরেছি কিন্তু রিপোর্ট কার্ড লেখা হয়নি!:( কেবলি শেষ হলো!

এইবার পুরোনো কোন লেখাটা পড়লে ? আবারও কোনো নোটিফিকেশন আসেনি কিন্তু আর আমার তাতে কোনোই দোষ নেই!সব দোষ সামুর!:( :( :(

৮৪| ০৮ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:৪৮

রুদ্র জাহেদ বলেছেন: টেরারিয়াম যতটা না স্বর্গীয় আকর্ষণীয় তার চেয়ে বেশি মন কেড়ে নিল পোস্টটা।ব্যতিক্রম তথ্য জানতে পারছি।পরে ট্রাই করমু।সুপ্রভাত শায়মাপু

০৮ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:০৬

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!!!!!!!!!!!!!
একটু আগে আমার বানানো নিউ টেরারিয়াম!!!!!!!:) :) :)


আমি স্বর্গীয় আনন্দে আছি!!!!!!!!!!!

৮৫| ০৮ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:১৭

রুদ্র জাহেদ বলেছেন: ওরে কী অসাধারন।মনে হচ্ছে দুর্গম পাহাড়ের কোন এক স্বর্গীয় দৃশ্য!

০৮ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:২১

শায়মা বলেছেন:


আমি তো নিজের সৃষ্টিতে নিজেই মুগ্ধ হয়ে যাচ্ছি। পুরাই রুপকথার জগৎ হাতের মুঠোয়!:)

৮৬| ০৮ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:২৮

বাঘ মামা বলেছেন: সত্যি চমৎকার সৃষ্টি এতে কোন সন্দেহ নেই,

আমার নতুন অফিস রুমটা রেডি হচ্ছে,সেই রুমটায় এমন কিছু থাকলে ভালো হতো,পাঠিয়ে দিবে নাকি কয়টা বানিয়ে :)

শুভ কামনা সব সময়

০৮ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৩০

শায়মা বলেছেন: বাঘমামা তোমাকে দিয়েই আস্ত টেরারিয়াম বানাবো ভাবছি হা হা হা ...... মানে

ঐ যে দেখো বাঘম তার গায়ে ডোরা দাগ
যখন তখন হালুম হুলুম আর কি ভীষণ রাগ!!!!!!!!!

তুমি কয়টা চাও বলো!!!!!!!!!!!

সত্যিই কিন্তু ছোট্ট একটা বন চৌকোনো কাঁচের জারে বাঘসহ বানিয়ে দেবো বাঘমামাজী!!!!!!!!!!!!!!!!

শুধু বলো কবে চাই। বাঘমামা বনসহ হাজির হয়ে যাবে তোমার বাড়িতে!!!!!!!:)

৮৭| ০৮ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৩০

রুদ্র জাহেদ বলেছেন: এমন সবুজ গাছ পাতার সংগ্রহ কিভাবে?কোথাও সচরাচর এসবের অস্তিত্ব নাই মনে হয়।

আমিও মুগ্ধ এই সৃষ্টি দেখে

০৮ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৩৭

শায়মা বলেছেন: এইগুলা তো স্বর্গের উদ্যান জানোনা!!!!!!!!!! B:-)

স্বর্গদ্যান কি আর যা তা হবে বলো!!!!!!!!!!!!!!!


হা হা হা :P

৮৮| ০৮ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:০০

প্রীতম বলেছেন: কিভাবে যেনো আমার মন সিদ্ধহস্থ যে এমন একটি জিনিস তার লাগবেই। কি করি বুঝতে পারছিনা।
টেরারিয়ামরে টেরারিয়াম...........
তোমারে লেখাগুলোতো পড়ে ফেলেছি সহজেই কিন্তু জোগাড়যন্ত্রের অংশে গিয়ে ধৌর্য্য হারিয়েছি। আমারতো লাগবেরে ভাই।
আমার ভাংগা ঘরের ভাংগা বেড়ার ফাক দিয়ে চান্দের যে চিকন আলো আসে, সে আলোয় আমি টেরারিয়ামের স্বপ্নময় জগতটাকে আরো গভির আর আবেগ দিয়ে অনুভব করতে চাই। চাইই.....।
কি করে যে কি করি বুঝতে পারছিনা। তোমাদেরতো পাওয়াগুলো সহজ। ইচ্ছে করলে, চাইলে, অর্থ আছে, তো ব্যাস হয়ে গেলো।
কিন্তু যত ঝক্কি ঝামেলা আমাদের। কোন কিছুই নাই, শুধু স্বপ্ন আর ইচ্ছে ছাড়া।
তুমিই বলো শুধু এদুটো দিয়ে কি টেরারিয়াম হয়?

০৮ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:২৩

শায়মা বলেছেন: এইসব কি বলো ভাইয়া!!!!!!!!!

এই নাও নতুনটাই তোমাকে দিয়ে দিলাম। এইমাত্র বানালাম!:)

০৮ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:৩১

শায়মা বলেছেন:


এই নাও আরও দুইটা!!!!!!:)

৮৯| ০৮ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:৩৩

লাল আমস্ট্রং বলেছেন:



দেখতে ভালই, নাম জানতাম না। এত শৈল্পিকভাবে দেখি নাই কখনও।

০৮ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:৪২

শায়মা বলেছেন: আমিও জানতাম নাকি এর নাম!!!!!!!!!!! আমিও তো কতই না দেখেছি, ইভেন তোমাদের আর্মি স্টাফ রোডের ব্রীজের নীচ দিয়ে যে গাছগুলো নিয়ে কাজটা করেছে হি অলসো নো আবাউট টেরারিয়াম আর আমি জানতাম না!!!!!!!!!!:(

যাই হোক জেনেই যখন গেছি আর থামাথামি নাই ৩/৪ মাসে! :P

আর এই কাজগুলো করে আমার কি যে ভালো লাগছে আমি কোনো ভাষাতেই প্রকাশ করতে পারবোনা। একদম প্রান ফাটা ভালো লাগা। :) :) :)

রুপকথার রাজ্য নিজের হাতেই বানিয়ে ফেলা আর কি!:)

৯০| ০৮ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:৪৭

লাল আমস্ট্রং বলেছেন:
-

এক্যুয়ারিম বানানোর দিকেও আগ্রহ আছে আপনার মনে হয়?

০৮ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৩:১৪

শায়মা বলেছেন: আছেই তো! :)

এই পোস্টেও তো একটা এ্যকুরিয়ামের ছবি দিয়েছি। আলাদীন, ট্রেজার বক্স, মারমেইড আর রাজকুমারের ছবিওয়ালাটা।:)

০৮ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৩:৪৮

শায়মা বলেছেন:


এই যে এ্যকুরিয়াম:)

৯১| ০৮ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৩৩

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: সামুতে এসেছি নতুন, অনেকের কাছ হতে এখনো আছি বহু দুরে । মিস যে করেছি অনেক রতন এসেছে তা অনুভবে । এযে বিশাল মহিরুহ যার মেঘ বৃস্টির ছায়াতলে এমনকি বোতলে ভরে জম্মায় অপরূপ সৃস্টি তরুলতার মতন । অনেক ভাল লাগল এ অপুর্ব সৃজনশীল কর্ম, দেখে বার বার মিটেনা আশ তাই ত্বরিত রেখে এলাম প্রিয়তমের পাশ ।
অনেক ভাল থাকুন এ শুভ কামনা থাকল ।

০৮ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৪০

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া এটা হলো ঘরের মধ্যে স্বর্গদ্যান!!!!!!!!!

মন ভালো হতেই হবে!!!!!!!!!


এই নাও তোমার জন্য জাস্ট রিসেন্ট ওয়ান.....:)

৯২| ০৮ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৩

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ত্বরিত প্রতি উত্তরের জন্য । মন ভরে গেল ধরের মধ্যে মরুদ্যান দেখে । এখন যেখানে বসবাসি ছযমাসের বেশি থাকে বরফের রাশী । ঘরের ভিতর গড়ে তুলা ক্যকটাছের গোলা দেয়া হল নীচে একটা
অনেক ভাল থাকুন এ শুভকামনা থাকল ।

০৮ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৫৮

শায়মা বলেছেন: মাই গড!!!!!!! ভাইয়া এত সুন্দর!!!!!!!!!! মুগ্ধ হয়ে গেছি!!!!! বুঝেছি তুমিও অনেক অনেক সৌন্দর্য্যবিলাসী!!!!!!

৯৩| ০৮ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:২২

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ছরি টাইপিং ভুলে ঘরের হয়ে গেছে ধরের , পোষ্ট হওয়ার পরে মন্তব্যের ঘরে অনিচ্ছাকৃত ভুল সংশোধনের সুযোগ নেই বলে দু:খিত ।

০৮ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:০০

শায়মা বলেছেন: হা হা দেখেছি ভাইয়া আর বুঝেছিও ঘরই লিখতে চেয়েছিলে। আমিও অনেক এরর মাস্টার কাজেই ডোন্ট ওয়ারী আমি সব ভুলভাল টাইপিং ঠিকঠাক পড়তে পারি।

৯৪| ০৮ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:০৬

জেন রসি বলেছেন: যাই বানাচ্ছেন দেখে শান্ত স্নিগ্ধ মনে হচ্ছে। ধ্যান করার উত্তম জায়গা!

ধ্যান ভঙ্গের জন্যও উত্তম জায়গা! :P

০৮ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১২

শায়মা বলেছেন: হা হা তুমি কোনটা করবা ভাইয়ু!!!!!!!!!

ধ্যানে বসবা নাকি ধ্যান ভেঙ্গে হা করে প্রকৃতির দিকেই তাকিয়ে থাকবা!!!!!!!!


হাহাহাহাহাহাহা

৯৫| ০৯ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:১৩

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: হা হা তুমি কোনটা করবা ভাইয়ু!!!!!!!!!

ধ্যানে বসবা নাকি ধ্যান ভেঙ্গে হা করে প্রকৃতির দিকেই তাকিয়ে থাকবা!!!!!!!!


হাহাহাহাহাহাহা


আমি প্রকৃতির দিকে হা করে তাকিয়ে থেকে ধ্যান করব!!! ;)

ধ্যান করতে করতে বিলীনও হয়ে যেতে পারি! :P

=p~ ;) :P :)

০৯ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৩৭

শায়মা বলেছেন: বাপরে এইটা কি ধ্যান! মানে প্রকৃতির দিকে তাকিয়ে ধ্যান করার নাম কি ? আবার বিলীনও হয়ে যাবা? শূন্যে!!!!!! B:-)

৯৬| ০৯ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:০৯

তামান্না তাবাসসুম বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপুনি নতুন এক শিল্পের সাথে পরিচত হলাম। কিছু শপে মাঝে মাঝে এমন দেখেছি কিন্তু নাম জানতাম না।
আর আপনার ধৈর্যর তারিফ করতে হয়!
ভাল থাকুন, সবসময় সৃজন ছন্দে থাকুন। ভালবাসা। :)

০৯ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪৮

শায়মা বলেছেন: আমিও দেখেছিলাম কিন্তু আমিও জানতাম না এর নাম আপুনি!


আর আমার ধৈর্য্য !!!! অনেক অনেক অনেক!!!!!!:) :) :)


আমি সত্যিই আনন্দে আছি আপুনি! তুমিও ভালো থেকো! অনেক অনেক।:):) :)

৯৭| ১০ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:২৮

তাশমিন নূর বলেছেন: সুন্দর! সুন্দর!! সুন্দর!!!

কিন্তু এসব বানানো আমার পক্ষে কখনোই সম্ভব নয়। যা অলস আমি! একটা গল্পের প্লট মাথায় নিয়ে ঘুরি মাসকে মাস, তবু লিখি না। :-P

১০ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:২৯

শায়মা বলেছেন: হায় হায় !

তুমিও অলস!!!!!!!

আমি ভেবেছিলাম শুধু আমার ভাইয়ারাই অলস!!!!! শুনো আর যাই করো তাই করো স্বদেশ, প্রদেশকে কিন্তু একটু শিক্ষা দীক্ষা দিতেই হবে।


আপু তুমি একজন গ্রেট লেখিকা! গল্প লেখিকা!:)

অনেক অনেক ভালো থেকো!

৯৮| ১০ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৫১

তাশমিন নূর বলেছেন: হা হা হা! শায়মা, আপনার বয়স কত জানি না। আমার ছোট না বড় তাও জানি না। কিন্তু আপনি খুবই মিষ্টি মেয়ে, সেটা কি জানেন?

আমার গল্প পড়ার জন্য ধন্যবাদ। দেখি, ঐ দুই বাঁদরকে শিক্ষা দেয়ার কোন ব্যবস্থা করা যায় কিনা। :-P

১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:০৮

শায়মা বলেছেন: আপুনি আমার বয়স শুনলে তুমি ঠাস করে পড়ে অজ্ঞান হয়ে যেতে পারো তবে আই এ্যাম অলওয়েজ নাইনটিন! মানে নাইনটিনেই আটকে গেছি। একবার এক কাউন্সেলরও আমাকে এই কথাই বলেছিলো। পরে ভেবে দেখলাম আসলেই তাই আর তারপর আমি এইখান থেকে আর বের হবার ট্রাই ই করিনি! :P

তবে আমি মিষ্টি কি তিতা জানিনা, মাঝে মাঝে মনে হয় মিষ্টি যখন তোমার মত কেউ বলে। আবার মাঝে মাঝে মনে হয় তিতা করোলা মানে ডাইনী বুড়ি যখন রেগে যাই!!!!!!!!!!!! :P

৯৯| ১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৫০

কাল্পনিক_ভাবনা বলেছেন: সুন্দর অনেক সুন্দর ভালো লাগল আপনার লেখাটি পড়ে ।

১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৫৩

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া!!!!!!!!!!:) :) :)

১০০| ১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:১৬

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: বাপরে এইটা কি ধ্যান! মানে প্রকৃতির দিকে তাকিয়ে ধ্যান করার নাম কি ? আবার বিলীনও হয়ে যাবা? শূন্যে!!!!!! B:-)

প্রকৃতির দিকে না তাকিয়ে চোখ বন্ধ রাখলে ঘুম এসে যাবে! তারপর স্বপ্ন! তার চেয়ে প্রকৃতির দিকে তাকিয়ে সজাগ থেকেই ধ্যান করা উত্তম। ;)

১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:২৪

শায়মা বলেছেন: ধ্যান করিবার আগে গঞ্জিকা সেবন অপরিহার্য্য!

আর গঞ্জিকা সেবনে চক্ষু মেলিয়া রাখা দায় আর তাই ঘুম, আধা ঘুম আর ঝিমানীর মধ্যে ধ্যানই প্রকৃত ধিয়ান বলিয়া জানিতাম মানে শুনিয়াছিলাম এখন দেখছি ইহা চক্ষু কর্নের বিবাদ ভঞ্জন ধিয়ান!!!!!! গেছি!!!!!!!!!

১০১| ১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:১৮

গেম চেঞ্জার বলেছেন: চোখ খুলে ধ্যান করে তো কেবল সৌন্দর্য উপভোগ করাই হবে। ধ্যানমগ্ন হওয়া যাইবে নাহঃ B-)

১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:২৫

শায়মা বলেছেন: গেমুভাইয়া বুঝিলে না!!!!!!!! ইহা নব্য ধিয়ানি মিঃ জেন রসিয়া ধিয়ান। ইহার নাম চক্ষু কর্ণের বিবাদ ভঞ্জন ধিয়ান!!!!!!!!! :P

১০২| ১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৩০

গেম চেঞ্জার বলেছেন: হাঃ হাঃ নতুন কিছু ট্রাই করা ভাল। তবে আবার, কপালপোড়া ফ্রেড ডুজেনবার্গের মতো না হলেই হলো।

১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৩৪

শায়মা বলেছেন: না না ফ্রেড ডুজেনবার্গ হবে কেনো? ধ্যানী সন্যাসীরা মর্তে থাকতে চান বুঝি? তারা তো উড়তে চান তাই বলাও যায় বা ফ্রেড ডুজেনবার্গের মতো না হয়ে ফ্র্যাঞ্জ রেইচেল্টের মত হতে পারে আর কি!!!!!!! তবে রক্ষা যে তাহা শুধুই মনে মনে ......


মানে মনে মনে মেলে দিলেম গানের সুরের এই ডানা মনে মনে .........( ধ্যানে ধ্যানে) :P

১০৩| ১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৩৪

জেন রসি বলেছেন: গেম চেঞ্জার বলেছেন: চোখ খুলে ধ্যান করে তো কেবল সৌন্দর্য উপভোগ করাই হবে। ধ্যানমগ্ন হওয়া যাইবে নাহঃ B-)

সাধকরা মানে যারা বাস্তবিক অর্থেই ধ্যান করতেন, তারা বলেছেন ধ্যান করার অর্থই হচ্ছে সব কিছুকে আরো তীব্র ভাবে অবলোকন করা। কিন্তু তাদের অনুসারীরা সেটা করতে গিয়ে ঘুমের জগতেই হাঁড়িয়ে গেছে। ;) তাই আমি সব গুল্লি মাইরা চোখ খুলে প্রকৃতির সাথেই একটু পলান টুকটুক খেলব সিদ্ধান্ত নিয়েছি! =p~

১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৭

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া তুমি যখন ধ্যান করছিলে তখন একখান ছবি তুলে এনেছি!:)

১০৪| ১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৬

প্রামানিক বলেছেন: টেরারিয়াম নামটাই প্রথম শুনলাম। তবে খুব ভাল লাগল কাঁচের বৈয়মের ভিতর বাগান।

১০ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৮

শায়মা বলেছেন: আমিও প্রথম শুনেছিলাম ভাইয়ু!!!!! থ্যাংক ইউ! থ্যাংকস আ লট!!!!!!!!:)

১০৫| ১০ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:৩১

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: ধ্যান করিবার আগে গঞ্জিকা সেবন অপরিহার্য্য!

আর গঞ্জিকা সেবনে চক্ষু মেলিয়া রাখা দায় আর তাই ঘুম, আধা ঘুম আর ঝিমানীর মধ্যে ধ্যানই প্রকৃত ধিয়ান বলিয়া জানিতাম মানে শুনিয়াছিলাম এখন দেখছি ইহা চক্ষু কর্নের বিবাদ ভঞ্জন ধিয়ান!!!!!! গেছি!!!!!!!!!

প্রথমে বুঝতে হবে মানুষ কেন গঞ্জিকা সেবন করে এবং ধ্যান করে। গঞ্জিকা সেবন করা হয় নার্ভ নিস্তেজ করে দিয়ে সব কিছু থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার জন্য। আর ধ্যান করা হয় অতিমাত্রায় সজাগ হয়ে প্রকৃতির সাথে আরো বেশী কানেক্ট হওয়ার জন্য। তাই গঞ্জিকা সেবন করিরা ধ্যান করা হচ্ছে অনেকটা ম্যাটার আর এন্টি ম্যাটার এক করে বিস্ফোরিত হয়ে ভেজিটেবল হয়ে যাওয়ার মত! ;)

১১ ই মে, ২০১৬ রাত ১২:১৬

শায়মা বলেছেন: তুমি কি ধ্যান ভেঙ্গে আসলে ভাইয়ু!

থাক ভেজিটেবলে হয়ে কাজ নেই, তুমি মাংস, মাছ, ডিম হয়েই থাকো!:)

১০৬| ১১ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৩:৪৫

কাবিল বলেছেন: আরও কিছু ছবি আপডেট হয়েছে বুঝি

১১ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৩৫

শায়মা বলেছেন: আরও আরও বানিয়েছি ভাইয়া। ছবি আর দেইনি!:)

১০৭| ১১ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪১

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: তুমি কি ধ্যান ভেঙ্গে আসলে ভাইয়ু!

থাক ভেজিটেবলে হয়ে কাজ নেই, তুমি মাংস, মাছ, ডিম হয়েই থাকো!:)

হা হা হা হা হা হা হা হা

মাংস, মাছ, ডিম সহ আরো অনেক কিছু হয়েই আসলাম! :P


১১ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৫১

শায়মা বলেছেন: কি হয়ে আসলে আবার!!!!!!

ধ্যানী থেকে জ্ঞানী!!!!!!!!!!!

না না জ্ঞানী তো আগেই ছিলে। তাইলে!!!!!!!!!! B:-)

১০৮| ১১ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:২৭

দীপংকর চন্দ বলেছেন: জীবনের জন্য জায়গা

শ্রমসাধ্য শিল্পবিনির্মাণে, বিষয়বস্তু উপস্থাপনে মুগ্ধতা !!!

প্রিয়তে থাকলো।

অনিঃশেষ শুভকামনা।

ভালো থাকবেন। সবসময়। অনেক।

১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:৫১

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ প্রিয় ভাইয়া!!!!!!:)

তোমার জন্য এটা


১০৯| ১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ৮:৫১

শায়মা বলেছেন:
এইগুলোও তোমাকে দিয়ে দিলাম ভাইয়া।:)

১১০| ১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:০৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অসম্ভব সুন্দর পোষ্ট । ধন্যবাদ আপু

১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:২০

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ আপুনিমনি!!!!!!!!

তোমার জন্য কোনটা দেই? ভাবছি.....



আচ্ছা এত্তগুলা নাও!!!!!!!!!:)

১১১| ১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৩০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: বামের টা নিমু আর সাথে আইসক্রিম খামু :)

১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৩৩

শায়মা বলেছেন: আইস্ক্রিমও!!!!!!!!!!! B:-/ B:-/

আচ্ছা দাঁড়াও একটু অপেক্ষা করো আনছি!!!!!!!!!

১১২| ১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৩৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি আচ্ছা আপি.... না দাঁড়িয়ে অফিসের চেয়ারে বসে আছি :)

১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৩৯

শায়মা বলেছেন: Click This Link


এই নাও বানিয়ে ফেলো অফিসে বসে বসে আইসক্রিমগুলি!!!!!!!!

অবশ্য চকলেট কালারটার জন্য বাড়ি ফেরার পথে রঙ পেনসিলের দোকান ঘুরে যেও!:)

১১৩| ১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৪০

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: কি হয়ে আসলে আবার!!!!!!

ধ্যানী থেকে জ্ঞানী!!!!!!!!!!!

না না জ্ঞানী তো আগেই ছিলে। তাইলে!!!!!!!!!! B:-)

সব মিশিয়ে একটা রাসায়নিক বিক্রিয়া করে দেখছি কি হয়! ;)

তারপর যা হয় তাই হয়ে যাব! B-)

১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৪৬

শায়মা বলেছেন: হুম জানি জানি !!!!!!!

ইউ আর অলসো এক্সপেরিমেন্টাল লাইক মি!!!!!!!!!!!!:) :) :)


বাট তুমি জ্ঞানী, তুমি ধ্যানী, তুমি জিনিয়াস আর আমি রাঁধুনী।:( বাট রান্না করি রঙ দিয়ে ঢঙ দিয়ে, তাল, লয় মুদ্রা দিয়ে আর গলা দিয়ে গানা আর ঝগড়াঝাটি তবে সবচাইতে মজাদার রান্না মগজ রান্না!!!!!!!!! কিসের মগজ বলোতো!!!!!!!!! :P

১১৪| ১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৪৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: থ্যাংকু আপি অনেক ধন্যবাদ রেসিপির জন্য ভাল থাকুন

মাঝে মাঝে আমার ব্লগে আসবেন দাওয়াত রইল

আড্ডা হবে ইনশাআল্লাহ

১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৫১

শায়মা বলেছেন: আসি তো মানে যাই তো তোমার ব্লগে আপুনিমনি!!!!!!!!


দাওয়াৎ দিয়েছো তাই আরও আরও যাবো। আমার জন্য ডোনাট বানাও ক্রিসপি ক্রিম রেসিপি!:)

১১৫| ১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৫০

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: হুম জানি জানি !!!!!!!

ইউ আর অলসো এক্সপেরিমেন্টাল লাইক মি!!!!!!!!!!!!:) :) :)


বাট তুমি জ্ঞানী, তুমি ধ্যানী, তুমি জিনিয়াস আর আমি রাঁধুনী।:( বাট রান্না করি রঙ দিয়ে ঢঙ দিয়ে, তাল, লয় মুদ্রা দিয়ে আর গলা দিয়ে গানা আর ঝগড়াঝাটি তবে সবচাইতে মজাদার রান্না মগজ রান্না!!!!!!!!! কিসের মগজ বলোতো!!!!!!!!! :P


গরুর মগজ!!!

একবার রান্না কইরা দাওয়াত দিছিলেন!!!

যদিও আমি আসতে পারি নাই!!!!

আমি তখন মুরগীর ঠ্যাং নিয়া বিজি ছিলাম!!! :P

১২ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৫৪

শায়মা বলেছেন: শুধু গরুর!!!!!!!!!!


কি বলো !!!!!!!!! B:-/

ধ্যাৎ সেদিন আসোনি বলেই তো জানোনি!!!!!!!!

আমি সেদিন গরু ছাগল, গাধা, পাঠা সব কিছুর মগজের ডিফারেন্ট আইটেম বানিয়েছিলাম তো!!!!!!!!!!!!!
গরুর মগজের ভুনা, ছাগলের মগজের কাবাব, গাধার মগজের কালিয়া, পাঠার মগজের রোস্ট!!!!!!!!! ধ্যাৎ তুমি মিস করলে!!!!!!!!!!!!! :( :( :(

১১৬| ১২ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:০৯

কাল্পনিক_ভালোবাসা বলেছেন: এই গুলোর মধ্যে মাছ ছেড়ে দিলে কেমন হবে?

১২ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৩:১৫

শায়মা বলেছেন: তখন সেটা আর টেরারিয়াম থাকবে না সেটা হয়ে যাবে এক্যুরিয়াম!!!!!!!:) অবশ্য মাছের সাথে পানিও দিতে হবে।:)

১১৭| ১২ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:১০

জেন রসি বলেছেন: ক্ষুধা লেগেছিল বলে কিছুক্ষনের জন্য চলে যাওয়াও অপরাধ বটে!!!

এমনটাই ধারনা করেছিলাম!

আমার ধারনা কি আর ভুল হতে পারে? ;)

১২ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৪:৫২

শায়মা বলেছেন: ভাইয়ু!!!!!!

কোন অপরাধের কথা বলো!!!!!!!!

তোমার তো সাত দুগুনে চৌদ্দ খুন মাফ!!!!!!


জানোনা!!!!!!!!!!!!!!!!! B:-)

১১৮| ১৩ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১:১৭

খন্দকার আমিন বলেছেন: আপনার কর্ম সত্যিই অতি প্রশংসার দাবিদার ......
ভিষণ ভাল লাগলো ।

১৩ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৪:১৬

শায়মা বলেছেন: অনেক অনেক থ্যাংকস ভাইয়া!!!:)

১১৯| ১৩ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:২৪

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: আগে তো কখনো নামই শুনিনি, এখন তো দেখে সত্যিই লোভ লাগছে........হয়তো কোন একদিন আমারো থাকবে টেরারিয়াম জগৎ

১৩ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৩৪

শায়মা বলেছেন: হয়তো আবার কি? এখুনি বানাতে পারো ভাইয়া। শুধু একটু যোগাড় যন্তর প্রয়োজন! আর নাম আমিও আগে শুনিনি। যখনই শুনলাম তখনই তো .....:)

১২০| ১৪ ই মে, ২০১৬ রাত ৩:১৬

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: প্রতি উত্তরের উত্তরের জন্য অনেক ধন্যবাদ ।
আপুমনি আপনি অবশ্যই মাষ্টার তবে এরর মাষ্টার নন, এরর মাস্টার হিসাবে মেনে নিতে পারলাম না বলে দু:খিত। বানান ভুল নিয়ে আপনি তত সিরিয়াস নন বলে সাহস করে লিখছি । বাংলা লিখতে গিয়ে বানান প্রমাদ কিংবা বানান বিভ্রাট একটি বিরাট সমস্যা । বানান ভুল হওয়ার একটি বড় কারণ বাংলা লিপিতে প্রচুর সংখ্যক সমউচ্চারণ মুলক বর্ণের সমাহার । বাক্যে শব্দ লিখার সময় বর্ণের চেয়ে অনেক সময় ভাবটুকু বেশী থাকায় সঠিক বর্ণের প্রয়োগটি গুরুত্ব না পাওয়ায় বানানটি ভুল হয়ে যায় ।
অনেক পাঠক আছেন যারা মন্তব্যের ঘরে গতানুগতিক ভাল/ সুন্দর ঘরানার দু একটি কথা বলেই বানান ভুল নিয়ে মিহিন সুরে গুটি কয়েক কথা শুনিয়ে দিয়ে কাটা গায়ে নুনের ছিটা দেয়ার মতো মধুর বচনে আরো বলে দিয়ে যান মনে কিছু নিবেন না । আসাবধানতা বশত দু একটি শব্দে ভুল বর্ণ প্রয়োগ জনিত দুচারটি বানান ভুলের চেয়েও যে তা সজ্ঞানে সুস্থ মস্তিস্কে আরো বড় ভুল বিজ্ঞ বানান বিশারদদের উর্বর মস্তিসকে সেকথাটি তেমনভাবে প্রবেশ ত করেইনা বরং লিখককে জনান্তিকে একটু হেয় করার মানসিকতাই পরিস্ফুট হয় । যাহোক, সচেতন পাঠকের এতদ সংক্রান্ত মন্তব্য আখেরে শুদ্ধ বানানে প্রলুব্ধ করে তাতে কোন সন্দেহ নেই, সেজন্য এধরণের বিজ্ঞ পাঠককে অন্তরের অন্তস্থল হতে শ্রদ্ধা জানাতে মোটেও কুন্ঠিত নই । এটা বুঝা যায় যে ভুল বানানদুস্ট লিখাটি পাঠের পর এটা পাঠকের বিরক্তিরই বহিপ্রকাশ মাত্র । এজন্য লিখকই এককভাবে দায়ী কোনমতেই মন্তব্যদানতারী পাঠক নহেন কারণ লিখক নীজেই ক্ষেত্রটি তৈরী করেন তথা যেমন কর্ম তেমন ফলতো ভুগ করতেই হবে ।

তবে কথা হল বাংলা লিপিতে অর্ধশতাধীক বর্ণ ও প্রায় ২৩ টির মত সমউচ্চারণমুলক বর্ণ থাকায় বাংলা লিখায় প্রচুর ভুল হয়ে যায় সামান্য একটু অসাবধান হলেই ।

ইংরেজী ২৬ টি বর্ণ নিয়ে এবং স্পেনিশ ভাষা ২৯ টি বর্ণ নিয়ে তা আজ দুনিয়া দাবরীয়ে বেড়াচ্ছে ।

আমার ধারণা সকলে মিলে একটু চেষ্টা করলে বাংলা বর্ণ থেকে ১১টি সমউচ্চারণমুলক বর্ণকে সহজেই কমাতে পারি । যেখানে সুযোগ পাই সেখানেই বিষয়টি আমি তুলে ধরার চেষ্টা করি। সামুর পাতায় একটি হালকা পোষ্ট দিয়েছিলাম “বাংলা ভাষায় বর্ণ কমানোর বিষয়ে ভাবনা” লিখাটি মাত্র গুটি কয়েক পাঠকের নজরে পরেছে । একজন শ্রদ্ধেয় পাঠক অনেক বিলম্বে লিখাটি পাঠ করে বলেছিলেন কথার মধ্যে যুক্তি আছে । লিখাটিকে আবার একটু অন্য আংগিকে পোস্ট দেয়ার জন্য তিনি বলেছিলেন ।

উনার পরামর্শকে আমলে নিয়ে বিষয়টি নিয়ে নতুন একটি পোস্ট দেয়ার কথা চিন্তা করি । গদ্যে লিখা বিষয়টি পাঠকের রুচীতে ধরেনি বিধায় এবার একটু ভিন্ন ভাবে কবিতার মত দেখায় আংগীকে লিখে “বাংলা বানান নিয়ে টানাটানি : বর্ণ সংখ্যা কমানো যায়কি? ‘’ সামুতে পোস্ট করি ।

এবারো দেখি অবস্থা একিরূপ । ভেবেছিলাম বিষয়টির উপর কিছু পাঠকের সুচিন্তিত মতামত পেলে বাংলা একাডেমী ও সংস্লিষ্টদেরদের এ সম্পর্কে মনযোগী হওয়ার জন্য বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে পত্র মারফত অনুরোধ করব । ইংরেজী বর্ণমালার অবৈজ্ঞানিকতা দুর করার জন্য রবার্ট বারনার্ড শ দান করেছিলেন মোটা অংকের অর্থ যার ফলে ইংরেজী বর্ণমালার অবৈজ্ঞানিকতা অনেকাংশে দুর হয়ে এটা আজ মাত্র ২৬ টি বর্ণ নিয়ে বানান বিভ্রাটের হাত হতে অনেকাংশে মুক্ত ।

ঠিক কি কি কারণে বাংলা লিখায় বানান ভুল হয় সে সম্পর্কে সাধারণ মানুষের লিখা পর্যালোচনা করে এখন পর্যন্ত কোন উল্লেখযোগ্য সমীক্ষা ধর্মী গবেষণা আমার নজরে আসেনি । সাধারণ মানুষের লিখায় ভুলের প্রকৃতি ও মাত্রার উপর গভীর পর্যবেক্ষণ ব্যতিত বানান ভূল শুধরানোর জন্য পন্ডিতের দেয়া পরামর্শ ( অর্থাৎ বানান ভুলের প্রতি যত্নবান হোন ) যে বিশেষ কাজ হচ্ছেনা তার জলন্ত প্রমান তো প্রতিদিনই প্রতিক্ষনেই আমরা কাগজের পাতায় দেখতে পাচ্ছি । তাই বাংলা লিপি থেকে বর্ণ সংখ্যা কমিয়ে একে বানান প্রমাদের হাত থেকে কিছুটা মুক্তি দেয়ার জন্য আমার ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখব । এ লক্ষে আমি একটি অন লাইন সমীক্ষা পরিচালনার জন্য ধারণা পত্র প্রনয়নের প্রকল্প নিয়ে কাজ করছি । জানি এ কাজের জন্য হয়তবা আমাকে অনেক তির্যক সমালোচনার মুখামুখি হতে হবে । কাওকে পাশে না পেলেও আমি একাই লড়ে যাব এ দৃঢ় প্রত্যয় আমার আছে ।

এটাও জানি যে বাংলা লিপি থেকে এই মহুর্তে বর্ণ সংখ্যা কমানো সম্ভব নয় । তবে ভুল বর্ণে তৈরী এবং বাক্যে প্রয়োগতৃত শব্দটি যদি বক্তার/লিখকের মনের ভাব প্রকাশ করতে সক্ষম হয় তাহলে দীর্ঘদিন তা প্রয়োগের ফলে শুদ্ধ বানানে পরিনত হবে । যেমনটি আপনিও বলেছেন যে শব্দে ব্যাবহৃত ভুল বানানকে আপনি আপনার বিজ্ঞতা প্রয়োগ করে তা সঠিকভাবে পড়তে ও অনুধাবন করতে পারেন ।

এখানে উদাহরণ হিসাবে উল্লেখ করা যায় যে, চাঁদ এর মধ্যে চন্দ্রবিন্দু না দিলে কি চাঁদটা চাদ হয়ে দুরে চলে যাবে না চাঁদের আলো হুমায়ূন আহমেদ এর গল্পের মত ভুতের ছেলেরা খেয়ে খেলবে । ‘বাঁশ বাগানের মাথার উপর চাঁদ উঠেছে ঐ’ লিখতে গিয়ে যদি লিখা হয় ‘’বাঁস বাগানের মাথার উপর চাদ উঠেছে ঐ “ তাহলে কি বাঁস টা বাঁশ হয়ে বাগানে চলে আসবে । এখানে দেখা যায় যে চন্ত্র বিন্দু ঁ ঠিক রেখে স ও শ এ এক বর্ণ করা যায় ।

যাহোক, এ লিখাটির উদ্দেশ্য হল বাংলালিপি হতে বর্ণ সংখ্যা কমানো যায় কিনা সে সম্পর্কে আপনার একটা মতামত পাওয়া । আপনার মতামত আমার প্রকল্প প্রণয়নে ও বাস্তায়নে সহায়তা করবে ।

আপনার পোস্টের ছবি গুলি পরিবারের সকলকে দেখানোর জন্যে এখানে এসে আপনার প্রতি উত্তরের প্রক্ষিতে এ কথাগুলি বলা । মন্তব্যের ঘরে অযাচিত ভাবে এত লম্বা কথা বলে বিরক্তি উৎপাদনের জন্য ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি । লিখাটি পাঠে আপনি বিরক্ত হলেও আমার পরিবারের সকলেই ছবিগুলি দেখে খুব খুশী হয়েছে ।

অনেক অনেক ভাল থাকুন এ কামনা থাকল ।

১৪ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:০৮

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া বর্ণমালা নিয়ে তোমার উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়। যদিও এ ব্যাপারে আমি কখনও ভাবিনি বরং এ বর্ণমালাগুলিকেই পৃথিবীর আদর্শ লিপি বলেই জেনেছি। তবুও তোমার বলা কথাগুলিও আসলেও ভেবে দেখবার।
(আপুমনি আপনি অবশ্যই মাষ্টার তবে এরর মাষ্টার নন, এরর মাস্টার হিসাবে মেনে নিতে পারলাম না বলে দু:খিত। বানান ভুল নিয়ে আপনি তত সিরিয়াস নন বলে সাহস করে লিখছি । বাংলা লিখতে গিয়ে বানান প্রমাদ কিংবা বানান বিভ্রাট একটি বিরাট সমস্যা । বানান ভুল হওয়ার একটি বড় কারণ বাংলা লিপিতে প্রচুর সংখ্যক সমউচ্চারণ মুলক বর্ণের সমাহার । বাক্যে শব্দ লিখার সময় বর্ণের চেয়ে অনেক সময় ভাবটুকু বেশী থাকায় সঠিক বর্ণের প্রয়োগটি গুরুত্ব না পাওয়ায় বানানটি ভুল হয়ে যায় । )

আসলে বাংলা বা ইংলিশ যেটাই হোক না কেনো সঠিক ভাবে লেখাটাকেই সর্বজন কাংখিত ধরে নেওয়া হয়। সুশিক্ষিত মানুষ মাত্রেই বানান সচেতন হওয়া উচিৎ যদিও আমরা অনেকটাই সচেতন থাকার পরেও ভুল করি ( আমার মত অনেকেই।) তাই বলে একদম সিরিয়াস নই সেটা ঠিক না। একটু সিরিয়াস অবশ্যই থাকি আর পড়তে পড়তে লিখতে লিখতে অটো যেটুকু এসেছে আর কি। আর স্কুলে জব করার কারণে ইংলিশ বানানটা নিয়ে বেশি সচেতন থাকতে হয়। কোথাও খটকা লাগলে ডিকশনারী লাগবেই লাগবে। বাচ্চাদেকে তো আর জেনে শুনে ভুল শেখানো যায় না। সে হোক বর্ণমালা কিংবা ছোট ছোট ওয়ার্ডই।

(বানান ভুল হওয়ার একটি বড় কারণ বাংলা লিপিতে প্রচুর সংখ্যক সমউচ্চারণ মুলক বর্ণের সমাহার । বাক্যে শব্দ লিখার সময় বর্ণের চেয়ে অনেক সময় ভাবটুকু বেশী থাকায় সঠিক বর্ণের প্রয়োগটি গুরুত্ব না পাওয়ায় বানানটি ভুল হয়ে যায় ।)
এইখানে কথাটা বেশ সত্য এবং এ কারণেই ভুলটা হয়ে থাকে । তারপরেও কথা আছে ভাইয়া। যতই পড়িবে ততই শিখিবে। কাজেই বাংলা বানানগুলো সঠিক ভাবে শিখবার ইচ্ছা আছে যাদের এবং এই সমচ্চারিত শব্দ বা এর প্রয়োগ নিয়ে যত বেশি যারা সিরিয়াস হবে তারাই হবে আসল বাংলা ভাষাপ্রেমী। স্বল্প শিক্ষিত, সুশিক্ষিত বা উচ্চ বা পন্ডিৎ শ্রেনীতে তাই তফাৎ থেকে যাবেই। যতই বর্ণ কমাও বা পরিবর্তন করো শব্দের গঠন বা বিন্যাস। এই ব্যাপারে তোমার বাকি মন্তব্যের জবাব একটু পরে দিচ্ছি।

১৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:২৭

শায়মা বলেছেন: (অনেক পাঠক আছেন যারা মন্তব্যের ঘরে গতানুগতিক ভাল/ সুন্দর ঘরানার দু একটি কথা বলেই বানান ভুল নিয়ে মিহিন সুরে গুটি কয়েক কথা শুনিয়ে দিয়ে কাটা গায়ে নুনের ছিটা দেয়ার মতো মধুর বচনে আরো বলে দিয়ে যান মনে কিছু নিবেন না । আসাবধানতা বশত দু একটি শব্দে ভুল বর্ণ প্রয়োগ জনিত দুচারটি বানান ভুলের চেয়েও যে তা সজ্ঞানে সুস্থ মস্তিস্কে আরো বড় ভুল বিজ্ঞ বানান বিশারদদের উর্বর মস্তিসকে সেকথাটি তেমনভাবে প্রবেশ ত করেইনা বরং লিখককে জনান্তিকে একটু হেয় করার মানসিকতাই পরিস্ফুট হয় । যাহোক, সচেতন পাঠকের এতদ সংক্রান্ত মন্তব্য আখেরে শুদ্ধ বানানে প্রলুব্ধ করে তাতে কোন সন্দেহ নেই, সেজন্য এধরণের বিজ্ঞ পাঠককে অন্তরের অন্তস্থল হতে শ্রদ্ধা জানাতে মোটেও কুন্ঠিত নই । এটা বুঝা যায় যে ভুল বানানদুস্ট লিখাটি পাঠের পর এটা পাঠকের বিরক্তিরই বহিপ্রকাশ মাত্র । এজন্য লিখকই এককভাবে দায়ী কোনমতেই মন্তব্যদানতারী পাঠক নহেন কারণ লিখক নীজেই ক্ষেত্রটি তৈরী করেন তথা যেমন কর্ম তেমন ফলতো ভুগ করতেই হবে ।)

অবশ্যই লেখকের কিছু দায় দায়িত্ব আছে ভুল এবং শুদ্ধ বানানগুলি নিয়ে লিখবার সময় কিছুটা না বেশ কিছুটাই ভাববার তবুও যারা দু একখানা কথা বলার আগেই পড়ি মড়ি করে বানানে ভুল ধরাতে উঠে পড়ে লাগে এবং বেশ এক বিজ্ঞ চাল চালে। তাদের উদ্দেশ্য যত মহৎ বা সৎই হোক না কেনো গায়ে মানেনা আপনি মোড়লগিরি সব সময় সহ্য হয়না !:( আমার বিশ্বাস এই মাতবরী দেখানোর জন্য তারা বাংলা ডিকশনারীতে যে কারো কবিতাখানা পড়ার বদলে বানান চেক করতে দিয়ে ভুল বানানগুলি বের করে করে মাতবরী পান্ডিত্য ফলাবার চেষ্টা করে। এদের ধরে ধরে টেস্ট নিতে হবে আর অবশ্যই বাংলা ডিকশনারীগুলিকে দূরে রেখে। :P


তবুও ভাইয়া যাই বলো আর তাই বলো লেখককে নিজেকেই সচেতন হতে হবে। দরকার হলে পাবলিশের আগে ১০০বার পড়তে হবে। এবং ঐ সব মাতবর মন্তব্যকারীদেরকে সুযোগ না দেবার জন্য নিজেকেই আগে ডিকশনারী দেখে বানানগুলো চেক করে নিতে হবে। তাহলেই মাতবরদের মাতবরী আর চলবেনা। আর নিজেরও শেখা হবে।:)

১৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:০৩

শায়মা বলেছেন: (এটাও জানি যে বাংলা লিপি থেকে এই মহুর্তে বর্ণ সংখ্যা কমানো সম্ভব নয় । তবে ভুল বর্ণে তৈরী এবং বাক্যে প্রয়োগতৃত শব্দটি যদি বক্তার/লিখকের মনের ভাব প্রকাশ করতে সক্ষম হয় তাহলে দীর্ঘদিন তা প্রয়োগের ফলে শুদ্ধ বানানে পরিনত হবে । যেমনটি আপনিও বলেছেন যে শব্দে ব্যাবহৃত ভুল বানানকে আপনি আপনার বিজ্ঞতা প্রয়োগ করে তা সঠিকভাবে পড়তে ও অনুধাবন করতে পারেন । )

দীর্ঘদিন ব্যাবহারে ভুল কে শুদ্ধ করতে করতে হয়তো আমাদের জীবদ্দশায় আর সে শুদ্ধতা দেখা হবেনা ভাইয়া। এই ভুল পড়তে গিয়ে মানে শুদ্ধভাবে পড়তে গিয়ে আমার মত ভালোমানুষ, স্বজনেরা সহজভাবে দেখলেও সবাই কি আর মানবে?


(এখানে উদাহরণ হিসাবে উল্লেখ করা যায় যে, চাঁদ এর মধ্যে চন্দ্রবিন্দু না দিলে কি চাঁদটা চাদ হয়ে দুরে চলে যাবে না চাঁদের আলো হুমায়ূন আহমেদ এর গল্পের মত ভুতের ছেলেরা খেয়ে খেলবে । ‘বাঁশ বাগানের মাথার উপর চাঁদ উঠেছে ঐ’ লিখতে গিয়ে যদি লিখা হয় ‘’বাঁস বাগানের মাথার উপর চাদ উঠেছে ঐ “ তাহলে কি বাঁস টা বাঁশ হয়ে বাগানে চলে আসবে । এখানে দেখা যায় যে চন্ত্র বিন্দু ঁ ঠিক রেখে স ও শ এ এক বর্ণ করা যায়)


বাঁস আর বাস মানে বাসগাড়িটাই এইভাবে বাগানে এসে যায় কিনা চিন্তায় ফেলে দিলে।:(


বাংলালিপি হতে বর্ণ সংখ্যা কমানো যায় কিনা সে সম্পর্কে একটা মতামত চেয়েছিলে। অবশ্যই কমানো যায় এবং অনেক বানান সহজও করা সম্ভব এবং উচিৎ বলে আমিও মনে করি। তবে আমি অাপাতত শ,স ষ এসবের মোটামুটি ব্যবহার শিখে গেছি। নতুনদের জন্য মনে হয় এই উদ্যোগ ভালো হবে তবে তখন আবার আমাদের কিছু সমস্যা হতে পারে।


আমার টেরারিয়ামের ছবিগুলি দেখবার জন্য অনেক অনেক থ্যাংকস।

১২১| ১৪ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:৪০

ডিজিটাল অপু বলছি বলেছেন: আপু আপনিতো দেখছি ক্রিয়েটিভের ডিব্বা ।

১৪ ই মে, ২০১৬ দুপুর ১২:১১

শায়মা বলেছেন: হা হা ভাইয়া!!!!!!

তোমার সত্য কথাটা শুনে হাসছি!!! :P


১২২| ১৪ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:১৯

শেয়াল বলেছেন: দিয়ে গেনু বসন্তেরও এই গানখানি বরষ ফুরায়ে যাবে ভুলে যাবে, ভুলে যাবে,ভুলে যাবে জানি...তবু তো ফাল্গুন রাতে, এ গানের বেদনাতে,আঁখি তব ছলো ছলো , সেই বহু মানি...

১৪ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:১৬

শায়মা বলেছেন: শেয়ালভাইয়া তুমিও রবীন্দ্র সঙ্গীত গাও!!!!!!!!

গুড গুড ভেরী গুড!!!!!!!!:)

১২৩| ১৪ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৩:১৯

অপরাধ দমন কমিশন বলেছেন: স্বর্গ দেখালেন নরক দেখাবেন না ।
আর স্বগতো এমন নাও হতে পারে ।

১৪ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:২২

শায়মা বলেছেন: তুমি তো মরণের পরেও আরেক জীবনের কথা জানো ভাইয়া। আমি কেনো স্বর্গ কেমন জানবোনা!!!!!!!!!!

আমিও জানি স্বর্গ এমনই!!!!!!!!!!!!!!


:) :) :)

১২৪| ১৪ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৫০

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ আংশিক প্রতি উত্তরের জন্য । অপেক্ষায় রইলাম বাকি অংশের । তবে বুঝতে পারছি বাংলা লিপি থেকে বর্ণ কমানোর প্রচেষ্টা খুব একটা মসৃন হবেনা । বানানটি যে কেন ভুল আর শুদ্ধ হিসাবে দাবীদার বানানটি যে ব্যকরণগত ভাবে কতটুকু শুদ্ধ তা আগে বিশ্লেষণ করতে হবে ব্যাপক ভাবে । ভুল বানানটি যে কেন শুদ্ধ বলে গৃহীত হবেনা সে বিষয়টিও প্রচলিত ব্যাকরণের আলোকেই বিশ্লেষণ করতে হবে । ব্যকরণ কোন বাইবেল নয় এর মধ্যেও এখনো অনেক সীমাবদ্ধতা রয়ে গেছে । সাহস করে এ বিষয়টিতে কেহ হাত দেয়না বিবিধ কারণে ।

বর্তমানে যথাযথ শব্দের যে বানান প্রচলিত আছে তাই প্রয়োগ করতে হবে তাতে কোন সন্দেহ নেই । কেও যেন বানান ভুল না করে প্রচেষ্টাটুকু সেখানেই । বিভিন্ন গ্রহণযোগ্য বানান রীতি অনুসরণ করেই শব্দের বানানকে কিভাবে আরো সহজলভ্য করা যায় আসলে প্রচেষ্টা সে টুকুই । প্রয়োজনে একটু চেষ্টা করে সমউচ্চারণ মূলক বর্ণ কমানো একটি সম্ভবনা মাত্র । ভুল বানান লিখা ও শিখানোর জন্য এ প্রচেষ্টা নয় । অাশা করি ভুল বুঝবেন না । বর্ণ কমালেও পড়াশুনা করতে হবে প্রচুর জানতে হবে প্রচুর । পন্ডিত ও শিক্ষিত লোকদের জানাশুনা বেশী তাঁদের লিখায় বানান ভুল হলে সেটা বেশ কটুই দেখায় । তবে সাধারণ অশিক্ষিত মানুষ এবং যাদের সংখ্যাটা একে বাবে কম নয় তাদেরকে রাতারাতি সকল শব্দের শুদ্ধ বানান লিখানো যাবেনা । তাদের বলয়ের ভিতর থেকেই শুদ্ধ বানান রীতি প্রচলন করা যায় কিনা তা একটু ভেবে দেখতে চেয়েছিলাম । বিষয়টি মাথায় আসে একবার ঢাকা হতে চাটগা বাসে যাওয়ার পথে বাসের ভিতরে লিখা আছে " বদ্র ব্যাবহারে ভংসের পরিচয়" লিখাটি দেখে ড্রাইভারকে অনুলোধের স্বরে বলেছিলাম ভাই বানানটা ভুল আছে একটু শুদ্ধ করে নিবেন । শুনে ড্রাইভার রেগে বলল গত তিন বছর যাবত এটা এখানে লিখা আছে কেও ভুল ধরে নাই, আর মশাই আজ আপনে আসছেন ভুল ধরতে । আরো অনেক কথা , সেই যে বানানের প্রতি সাধারণ আমজনতার দৃষ্টিভংগী দেখেছিলাম সেখান থেকেই মনের মধ্যে ধারণা জম্মেছিল এটাকে কি ভাবে সকলের তরে আর ও একটু সহজ করা যায় যেন তাদেরকে বারে বারে ডিকশনারীর দ্বারস্ত না হতে হয় । শাতকরা ৫০ ভাগ বংগবাসী বাংলা ডিকশনারী বা ব্যকরণ বই তেমনভাবে পড়ে দেখেনি অথচ প্রাত্যহিক তাদেরকে কথায় ও লিখায় বাংলা ব্যবহার করতে হয় । তাই প্রাত্যহিক কাজে আমজনতাকে সঠিক ও নির্ভুল বাংলা লিখার জ্‌ন্য সহজ কোন বানান রীতি প্রচলন করা যায় কিনা সেটা ভেবে দেখার জন্য সকলের প্রতি একটি অনুরোধ রেখে যাব । এটা একক প্রচেষ্টায় কোন দিনই সম্ভব হবেনা । এখানে বিজ্ঞ ভাষা ও বর্ণ বিজ্ঞানীদের হস্তক্ষেপ অবশ্যই লাগবে। আমি শুধু প্রয়োজনের পতাকাটি উড়িয়ে দিতে চাই সকলের মাঝে যদিও ভুল বুঝাবুঝির কারণে আমার নীজ ইমেজ হবে ভুলুন্ঠিত ।

উল্লেখ্য যে আমার বলতে একটু ভুল হয়ে গেছে আমি বলতে চেয়েছিলাম অন্যের বানান ভুল ধরার বিষয়ে আপনি তত সিরিয়াস নন কিন্তু লিখা সংক্ষেপ করতে গিয়ে ভুলে লিখা হয়ে গেছে বানান ভূলের বিষয়ে আপনি তত সিরিয়াস নন । আমার অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য ক্ষমাপ্রার্থী ।

ভাল থাকুন এ শুভকামনা থাকল ।

১৪ ই মে, ২০১৬ রাত ৯:২৩

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!!!!!!!!!!!!!
আংশিক না সব উত্তর দেবো তো!!!!!!!

শুধু একটু ঝামেলায় আছি।

টেরারিয়াম নিয়ে না কিন্তু রিপোর্ট কার্ড নিয়ে!:(


ফ্রি হলেই সব কথা নিয়ে এসে যাবো তাড়াতাড়ি!!!!!!!!:)

১২৫| ১৪ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:৪৪

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ । জলদী উত্তরের কোন প্রয়োজন নেই । এই মহুর্তে রিপোর্ট কার্ডটিই বেশী ইমপরটেন্ট । যখন সময় সুযোগ হবে দিলেই চলবে । অনেক ভাল থাকুন এ কামনা রইল ।

১৪ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:০৯

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া।:)

১২৬| ১৪ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৩০

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ আপুমনি ।

১৫ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৪:০৭

শায়মা বলেছেন: :)

১২৭| ১৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১০:৫৬

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপু তোমার দিক নির্দেশনামূলক বিজ্ঞ মতামত পেয়ে । আমার করনীয় আমি বুঝে গেছি । হাজার বছরের কাল পরিক্রমায় বাংলালিপির এ বর্তমান অবয়ব রাতারাতি পরির্তন সম্ভব নয় । এখনই উদ্যোগ নিলে হয়ত আগামী দিন গুলিতে সুফল কিছু আসলেও আসতে পারে , ভয় হয় বেশী রক্ষণশীল হয়ে থাকলে আবার সংস্কৃতের আকার ধরে শুধু ডিকশনারী আর কিছু পন্ডিতের শুদ্ধ আচারে গন্ডিবদ্ধ না হয়ে পরে,( যেমন এককালের সমৃদ্ধ সংস্কৃত কোন পরিবর্তন ও পরিমার্জন গ্রহণ না করে অতি রক্ষনশীল হয়ে স্থান নিয়েছে এখন শুধু মন্ত্র পাঠ আর পুজার মন্ডপে দেবদেবীর পদমুলে) আর তার স্থান দখল করে নেয় বিদেশী ভাষা যেমনটি গ্রাস করছে অফিস আদালত রাস্তা আর দোকানের সাইন বোর্ডে । দেখুন না বিশ্বের সবচেয়ে বড় বাংলা ভাষার ব্লগের নামটি পর্যন্ত ইংরেজীতে Somewherein বাংলা নামের কত আকাল পরেছে ।

ভাল থাকুন এ শুভকামনা থাকল ।

১৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:৫০

শায়মা বলেছেন: ঠিক তাই, রাতারাতি সম্ভব না। তাই বলে কখনই সম্ভব নয় তাও নয়। উপযুক্ত যথার্থতা দেখিয়ে এগিয়ে যেতে পারলে অবশ্যই সব কিছুই সম্ভব।


আর পরিবর্তন কখন কিভাবে আসে বলা যায় না। যা করতে হয়তো বছরের পর বছর পেরিয়ে যায় তা আবার অনেক সময় খুব অল্প দিনেই সম্ভব। আর বিদেশি স্বদেশী বলে নয়। পিক, সেলফি এমন সব পরিবর্তিত নিউ নিউ ভাষাও কিন্তু রাতারাতি বহু প্রচলিত হয়ে যেতে পারে।

অনেক অনেক শুভকামনা ভাইয়া!

১২৮| ১৫ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:৪১

ফরিদ আহমাদ বলেছেন: সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত।
বানাবোই একটা।
ব্যতিক্রমী পোষ্ট, প্রিয়তে রাখলাম।

১৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:৫১

শায়মা বলেছেন: অবশ্যই বানাবে ভাইয়া!!!!!! :) :) :)

আর বানিয়ে আমাকে দেখাতে মানে ছবি তুলে দেখাতে ভুলোনা!:)

১২৯| ১৬ ই মে, ২০১৬ ভোর ৫:২৮

দিয়া আলম বলেছেন: অনকে অনেক অনেক সুন্দর হয়েছে আপু, আমাদের বাসায় আছে এগুলো, আম্মু কিনে এনেছিলো, কিন্তু উনি কখনো নিজে তৈরী করেনি, আজকে তোমার পোস্ট দেখে বলছে সে নিজেই নাকি বানাবে এখন থেকে।

ধন্যবাদ এমন সুন্দর পোস্টের জন্য

১৬ ই মে, ২০১৬ দুপুর ২:৫২

শায়মা বলেছেন: গুড গুড ভেরী গুড আপুনি!


তুমিও বানাও আর ছবি তুলে এনে দেখাও আমাকে!:)

১৩০| ১৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৩:১৭

পলক শাহরিয়ার বলেছেন: দারুন একটা পোস্ট উপহার দেয়ার জন্য ধন্যবাদ। আমার বউ ছাদে/বারান্দায় বাগান করার মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। তোমার এই পোস্টটা ধরায় দিব তাকে। [বউ এখন টের না পেলেই হয় যে এই মহামূল্যবান পোস্ট নারীকুল হতে কাছে প্রাপ্ত হইয়াছি]

১৬ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৩:২১

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!!!!!!!!!!!!!!নারীকুল হতে পেয়েছো বলবা না, বলবা ইহা তাহার একজন অতি ক্রিয়েটিভ ননদ হইতে প্রাপ্ত।:) ওপস স্যরি ননদ না ননাস মানে বড় বইন। দেখো আর কিছুই বলবেনা । তবে তাও যদি না শুনে তাইলে আমার ফোন নাম্বারটা দিয়ে দিও। :) :) :)

আই এ্যাম ভেরী গুড ইন কনভিন্সিং ......:)

১৩১| ১৭ ই মে, ২০১৬ সকাল ১১:০১

খায়রুল আহসান বলেছেন: ৩৪, ৯৩, ১০০, ১০৫, ১১৬, ১২০, ১২২ এবং ১৩০ (সর্বশেষ প্রাপ্ত) নম্বর মন্তব্যের উত্তরগুলো খুব ভাল লেগেছে। ৪৯ নম্বরের লিঙ্কটা দারুণ! কোথায় পান এসব? এগুলো খুঁজে বের করতেও তো ট্যালেন্টের প্রয়োজন! ১০৩ এর বেলায়ও একথা প্রযোজ্য।

১৭ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৩:৫৫

শায়মা বলেছেন: এগুলো খুঁজে বের করতেও তো ট্যালেন্টের প্রয়োজন!


এতক্ষন পর এটা কি বললে ভাইয়া!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!


এতদিনেও জানোনি আমি এক মহা ট্যালেন্ট!!!!!!!!!!!!!!!!!! B:-)

আমি তো নিজেই এখন টাসকি খেয়ে ফেল্লাম!!!!!!!!!!! B:-)

১৩২| ১৭ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৪:০৯

খায়রুল আহসান বলেছেন: খোকা ভাইকে নিয়ে লেখা আপনার অনবদ্য কবিতা "পুনশ্চ এবং পুনর্বার..." এ দুটো মন্তব্য রেখে এসেছি। নোটিফিকেশন বোধ হয় পান নাই, আর পাবেনও না।

১৭ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৪:১১

শায়মা বলেছেন: ওকে ভাইয়া এখুনি খুঁজতে যাচ্ছি!:)

না নোটিফিকেশন পাইনা তো!!!!!!!!!! :(


মানে মাঝে মাঝে পাই! নতুন লেখায় পাই। পুরোনো লেখায় পাইনা!:(

১৩৩| ১৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৩৬

এম এস আরেফীন ভুঁইয়া বলেছেন: খুব ভাল লাগল, দেখে বিমুগ্ধ হলাম।

১৭ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:৪৮

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া!:)

১৩৪| ১৭ ই মে, ২০১৬ রাত ১১:২২

পরিবেশ বন্ধু বলেছেন: অনিন্দ্য সুন্দর ছবি ও বর্ণনা শায়মা , বাগানের কারিগর নিশ্চই তুমি । দেখে চোখ জুড়িয়ে যায় ।

১৮ ই মে, ২০১৬ বিকাল ৫:৫৩

শায়মা বলেছেন: হুম ভাইয়া!!!!!এখন আমি টেরারিয়াম কারিগর!!!!!! আমার আশেপাশের মানুষদের অনুরোধে তাদেরকে বানায় দিতে দিতে আমি এক্সপার্ট হয়ে গেছি!!!!!!!:)

১৩৫| ১৮ ই মে, ২০১৬ ভোর ৪:৫৬

ভাবনা ২ বলেছেন: অন্য আর এক জনের একটি কবিতা পাঠ করতে গিয়ে আপনার সন্ধান পেয়ে এলাম এখানে , এসে দেখি বিশাল কান্ড খুশীতে মন ভরে গেল । অভিভুত হয়ে দেখলাম । খুব ভাল লাগল ধন্যবাদ সুন্দর পোষ্টিটির জন্য ।
যে কথা বলছিলাম , জনৈক জেন রসির ( ইচ্ছেগুলো সব অবিনশ্বর হয়ে গেছে!) কবিতাটি পাঠ করছিলাম । এটায় আপনার মন্তব্যের সাথে আমার ধারণা মিলে যায় । আমিও সেরকমই একটি মন্তব্য লিখতে শুরু করি । কিন্তু বড় হয়ে যাওয়ায় মন্তব্যের ঘর থেকে উঠিয়ে পৃথক একটি পোষ্ট দেই : '' আধুনিক বাংলা কবিতা ক্রমেই দুর্বোদ্ধ হতেছে " শিরনামে । সম্ভব হলে দেখার জন্য অনোরোধ করছি ।
ধন্যবাদ ভাল থাকুন ।

১৮ ই মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:০৯

শায়মা বলেছেন: ভাবনাভাইয়া ২ তোমাকে ধন্যবাদ আমার পোস্ট আর পোস্টের টেরারিয়ামগুলি দেখার জন্য।

জেন রসিভাইয়ার যে কবিতাটা নিয়ে লিখেছো তাতে আমি যে সব মন্তব্য দিয়েছি তা অধিকাংশই মজা করে। আবল তাবল মন্তব্য। তুমি হয়তো সেটা দেখে বিভ্রান্ত হয়েছো। আসল ডিসকাশন সেখানে আসলেই করা হয়নি। যা করেছি ভাইয়ার সাথে মজা করে। কারণ জেন রসিভাইয়া বা আমাদের প্রিয় জিনি ভাইয়ার কবিতার অন্তর্নিহিত অর্থ বুঝা যে কোনো সাধারণ মানুষের কাজ নয় তা বললে ভুল হবে তা আসলে একটু মন দিয়ে পড়লেই বুঝা সম্ভব তবে আসলে কবিতাই তো সবার জন্য নহে। তার কবিতাগুলি আসলে ঠিক তার মতই অপ্রতিরোধ্য সুন্দর ও সাবলীল। এই কবিতার পেছনের বা দুনিয়ার যে কোনো কবির কবিতার পেছনের ইতিহাস যেমনই আমাদের জানা নেই তেমনি কবি কিন্তু তার কাব্যাভাবাবেগের অর্থ বিশ্লেষন করে বেড়াতে বাধ্য নন।

কবি তার মত করেই লিখবেন তার উপলদ্ধি, জ্ঞান বা ভাবাবেগ দিয়ে পাঠক যার যার মত করে বুঝে নেবেন যার যার সাধ্য অনুযায়ী । এখানে পাঠকের চাহিদা, জ্ঞান, বুদ্ধি, বিবেক, চেতনা, শিক্ষা, দীক্ষা মতাদর্শের যে ভিন্নতা সেই ভিন্নতা মোতাবেক কবিতা দূর্বোধ্য বা সুবোধ্য হয়ে উঠবে।

তোমার ('' আধুনিক বাংলা কবিতা ক্রমেই দুর্বোদ্ধ হতেছে " শিরনামে । সম্ভব হলে দেখার জন্য অনোরোধ করছি । ) শিরোনামের লেখাটি এখনও পড়িনি তবে কিছু পরেই তা পড়তে যাবো তবে ভাইয়া বোল্ড করা শব্দগুলোর বানান ঠিক করে দিও। লেখার ভিতরে বানান যাই হোক শিরোনামে এত ভুল খুব দৃষ্টিকটু ও বিরক্তিকর।


তোমাকে আবারও ধন্যবাদ অনেক অনেক। ভালো থেকো!!!!!!:)

১৩৬| ২২ শে মে, ২০১৬ দুপুর ১:০০

অদৃশ্য বলেছেন:



বিষয়টা খুবই চমৎকার... এর মাঝে কেউ ভালোভাবে তাকালে তার মনের ভেতরে এর ছাপ পড়বেই... এটা সব বয়সের মানুষদেরই প্রভাবিত করবার ক্ষমতা রাখে... দারুন একটা বিষয় নিয়ে লিখলেন যা কিনা কখনোই ভাবনাতে ছিলোনা... আমি এমন জিনিস আকুরিয়ামের ভেতরে আগে দেখেছি... তবে পানি ছাড়া এই প্রথম...

আপনার বানানো টেরারিয়ামগুলো খুবই চমৎকার... অসাধারণ বললেও ভুল হবেনা...
শুভকামনা...

১৩৭| ২২ শে মে, ২০১৬ দুপুর ২:০৯

সিলা বলেছেন: ইস.... কিসুন্দর আপি........ :)
আর জদি কেউ কখনো ফুল দিতে আসে তাহলে বলব জাও টেরোরিয়াম নিয়ে আসো তবে ভেবে দেখব হাহাহা....

১৩৮| ২২ শে মে, ২০১৬ বিকাল ৩:৪৮

অপ্‌সরা বলেছেন: @অদৃশ্য ভাইয়া!:( :( :( :(

আমার এই নিক যে মেইল আইডি থেকে করা হয়েছিলো সেটা আর নাই। :( এই নিক উদ্ধার করতে কত বছর লাগবে কে জানে? সামু থেকে তো কোনো উত্তরই নাই!:(

যাই হোক তুমি আমার টেরারিয়াম দেখেছো তাতেই আমি খুশি!!!!!!!!!!!!!!:) :) :)

অনেক অনেক ভালো থেকো!!!!:)

১৩৯| ২২ শে মে, ২০১৬ বিকাল ৩:৫০

অপ্‌সরা বলেছেন: @সিলা .....টেরারিয়াম তো সবখানে পাওয়া যায় না!!!!!!! সে কই থেকে আনবে???? তবে আমার বাড়ি পাঠায় দিতে পারো!!!!!!! :) :) :)

১৪০| ২২ শে মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৫৩

সিলা বলেছেন: আয় হায় আপি..... তুমি নাই হয়ে গেলা :(
এই দুঃক্ষ কই রাখি?
জেখান থেকে পারে আনবে ৭সাগর আর ১৩ নদী পারি দিবে তবেই তো...... আহেম...
তার আর দরকার নাই তোমার থেকে নিয়ে আসতে বলব আপি :)
কিন্তু.... তাহলেজে কয়েকদিন পর পর এক এক জন জাবে পারবে তো সামলাতে!!!

১৪১| ২২ শে মে, ২০১৬ রাত ৮:০৬

অপ্‌সরা বলেছেন: @সিলা কয়দিন পর পর এক একজন!!!!!!!!!!!! ( গেছি !!!! B:-) )

আচ্ছা ঠিক আছে তাই হবে। কদিন পর পর ই পাঠিও । কিন্তু প্রথম জন টেরারিয়াম দেবার পরেই না তুমি রাজী হতে চাইছিলা?

১৪২| ২৪ শে মে, ২০১৬ সকাল ৮:৫০

সিলা বলেছেন: না আপি.... রাজি হলাম কই!!
আমি তো বল্লাম দেয়ার পর বলব জাও এখন ভেবে দেখি :)

১৪৩| ২৪ শে মে, ২০১৬ বিকাল ৪:২৪

অপ্‌সরা বলেছেন: @সিলা তাইলে তো অনেকগুলা টেরারিয়াম জমে যাবে!!!!!!!!! :)

১৪৪| ২৪ শে মে, ২০১৬ বিকাল ৪:৩৬

সিলা বলেছেন: এতক্ষনে বুঝলা আপি....!
আমিতো এই কারনেই এই বুদ্ধিটা করলাম।
রমজান আসছে আমিতো কিছুই পারিনা বানাতে, আপি কয়েকটা রেসিপি র পোস্ট দাওনা একটু সিখি :(

১৪৫| ২৪ শে মে, ২০১৬ বিকাল ৪:৩৭

সিলা বলেছেন: এতক্ষনে বুঝলা আপি....!
আমিতো এই কারনেই এই বুদ্ধিটা করলাম।
রমজান আসছে আমিতো কিছুই পারিনা বানাতে, আপি কয়েকটা মজার ঝাল জাতিও রেসিপি র পোস্ট দাওনা একটু সিখি :(

১৪৬| ২৪ শে মে, ২০১৬ বিকাল ৪:৪৫

অপ্‌সরা বলেছেন: দেবো তো সিলামনি!!!!!!!!!!
এইবারের এইম হলো ৭ দিন ৭ দেশীয় রেসিপি, সেকেন্ড ৭ দিন ফুড ডেকোরেশন রেসিপি, থার্ড সপ্তাহে বাড়ির মানুষ যা বািনয়ে দেবে তাই মানে দেশীয় এবং দেশীয়, বাকি দিনগুলি নো মোর বাড়ির ইফতার। শুধু বাইরের রেস্টুরেন্টে চাখাচাখি। বাইরে না খেলে খানা চিনবো কেমনে বলো!!!!!:(

১৪৭| ২৪ শে মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৩১

পুলহ বলেছেন: "পুলহভাইয়ু/আপু ( কাকে যেন একদিন আপু বলতে শুনেছিলাম)..."-- হা হা হা, আমি আসলে ভাইয়াই হই, আপু না।
ভালো থাকবেন শায়মা আপু!

১৪৮| ২৪ শে মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৫১

অপ্‌সরা বলেছেন: হায় হায় আমি এতদিন আপু জানতাম ভাইয়া[email protected]পুলহ ভাইয়া!!!!!!!!!!!!!!:)

আমার এই নিক দেখে আবার ভুত দেখোনা যেনো। আমি পাসওয়ার্ড হারিয়ে মরে ভুত হয়ে পুরান আইডিতে চলে গেছি।:(

১৪৯| ২৭ শে মে, ২০১৬ বিকাল ৪:২০

কামরুন নাহার বীথি বলেছেন: সর্বনাশ -----------!!!!! এ যে মহাযজ্ঞ!!!!!

এই টেরারিয়াম, শত শত বছর হয় আবিষ্কৃত হয়েছে!!!!!!
আপুনি, আমারতো মনে হচ্ছে, এটি তোমারই আবিস্কার!!!

তোমার বোতল বাগানগুলোই অনেক অনেক সুন্দর হয়েছে!!!
সামনের বসন্তে, আমার জন্মদিনে, একটা কিন্তু চাইই চাই!!!!! :)

১৫০| ২৭ শে মে, ২০১৬ বিকাল ৪:২২

কামরুন নাহার বীথি বলেছেন: আপু, লেখাটি আমার ফেইসবুকে শেয়ার করি?

১৫১| ২৭ শে মে, ২০১৬ রাত ৯:২৩

অপ্‌সরা বলেছেন: @বিথী আপুনি!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

থ্যাংক ইউ থ্যাংক ইউ থ্যাংক ইউ!!!!!!!!!!!!!!!


এই নিক থেকেই উত্তর দিচ্ছি। যেখানে খুশি সেখানে শেয়ার করে দাও। নো প্রবলেম!!!!!!!!!!!!!:)

১৫২| ২৮ শে মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৬

অপ্‌সরা বলেছেন: আজকের টেরারিয়ামগুলো এইখানে রেখে যাই--







১৫৩| ২৮ শে মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৭

অপ্‌সরা বলেছেন:


১৫৪| ২৮ শে মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৫১

অপ্‌সরা বলেছেন:



১৫৫| ২৮ শে মে, ২০১৬ রাত ৮:১৩

সোহানী বলেছেন: ওয়াও..... আমিতো তোমার শিল্পকর্মে মুগ্ধ..... এখনই এখনই এখনই চাই কিন্তু বানাতে পারবো না টাইম নাই...... তোমার বাসার ঠিকানা দাও চলে আসি..... হাহাহাহা

৩০ শে মে, ২০১৬ বিকাল ৩:০৪

শায়মা বলেছেন: আপুনি!!!!!!!!!!!


তোমার জন্য কোনটা চাই বলো!!!!!!

১৫৬| ২৮ শে মে, ২০১৬ রাত ৯:৪৯

অপ্‌সরা বলেছেন: আসো আসো আসো আপুনি!!!!!!!!!!!!! তোমার জন্য কোনটা চাই বলো!!!!!!! @সোহানীআপুনি!!!!!!!!!!!

১৫৭| ৩০ শে মে, ২০১৬ রাত ১:২৩

রক্তিম দিগন্ত বলেছেন: ওয়াও!!! এটাই টেরারিয়াম। এটার কথাই বলছিলা??? দেখে জাস্ট ফিদাহ!!! ভাবতেছি বিয়ের সময় কন্যার জন্য বাড়িঘর সাজাতে তোমাকেই পাকড়াও করে আনবো!!! :-B :-B :-B

৩০ শে মে, ২০১৬ দুপুর ২:৫৩

শায়মা বলেছেন: হুম ভাইয়ু!!!!!!!!!

কেমন আছো ভাইয়ামনি!!!!!!!!!!

অনেক অনেকদিন পর দেখলাম তোমাকে!!!!!

ওকে ওকে বিয়ের সময় আমাকে দাওয়াৎ দিও শুধু বাড়িঘর না কন্যা শুদ্ধু সাজাই দেবো!:)

১৫৮| ৩০ শে মে, ২০১৬ রাত ২:৫৮

মহা সমন্বয় বলেছেন: কি আর বলব.. এ এক অসাধারণ পোষ্ট অনেকদিন পর সামুতে ভাল কোন পোষ্ট দেখালম।
সত্যিই মন জুড়ানো সব ছবির সমহার। :)

৩০ শে মে, ২০১৬ দুপুর ২:৫৪

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া থ্যাংকস আ লট!!!!!!!!

এইটা হলো আমার আনন্দে মন ভরা যাওয়া কাজ!!!!!!!!:) :) :)


১৫৯| ৩০ শে মে, ২০১৬ রাত ১০:০১

জে.এস. সাব্বির বলেছেন: কনগ্রাটস আপুনি
আসিছেন ফিরি
মডুদের কলে পরে
হয়ে ছিলেন অপ্সরী

এসেছেনই যখন
একখান আবদার করি
পূরণ করিবেন
আপনার হাতে-পায়ে ধরি ।

আমার জন্য আমি একটা
টেরারিয়াম চাই
এরসাথে তুলনার যে
আর কিছু নাই ।

০২ রা জুন, ২০১৬ রাত ৯:৪৭

শায়মা বলেছেন: ভুল ভুল ভুল ভায়া করিয়াছো ভুল
অপ্সরী সাচা আমি, সেই নিক মূল!
একদা আকাশ হতে এসেছিনু নামি
মর্ত্যের ভালোবাসা পেয়েছিনু দামী।

সেই হতে রয়ে গেনু এই মোর বাস
ভুলে গেল সক্কল আসল নিবাস।
আবদার মিটাবো যে ঠিকানাটা দাও
এক যুগ পরে এসে টেরারিয়াম নিয়ে যাও।

১৬০| ৩০ শে মে, ২০১৬ রাত ১০:০২

জে.এস. সাব্বির বলেছেন: কনগ্রাটস আপুনি
আসিছেন ফিরি
মডুদের কলে পরে
হয়ে ছিলেন অপ্সরী

এসেছেনই যখন
একখান আবদার করি
পূরণ করিবেন
আপনার হাতে-পায়ে ধরি ।

আমার জন্য আমি একটা
টেরারিয়াম চাই
এরসাথে তুলনার যে
আর কিছু নাই ।

০২ রা জুন, ২০১৬ রাত ৯:৫২

শায়মা বলেছেন:

দেবো দেবো নো মোর কাদাকাটি ভায়া
আকাশে তাকিয়ে দেখো পড়ে কার ছায়া?
জল পড়ে পাতা নড়ে চোখ ছলো ছলো
টেরারিয়াম চাই কবে ঠিক ঠিক বলো!!!!!!

১৬১| ৩০ শে মে, ২০১৬ রাত ১১:৪৯

মহা সমন্বয় বলেছেন: সত্যিই এ যেন এক ছোট খাটো স্বর্গ। !:#P নিঃশ্চই অনেক যত্ন নিয়ে মনে মাধুরী মিশিয়ে পোষ্টটি সাজিয়েছেন। :)
আমার মনে হয় ভবিষ্যতের মানুষ এভাবে কাচের বাক্সে বন্দি প্রকৃতি দেখবে।
বাস্তব প্রকৃতি দেখার সৌভাগ্য তাদের হবে না। সে দিক থেকে আমরা ভাগ্যবান। :D

০২ রা জুন, ২০১৬ রাত ১০:১৯

শায়মা বলেছেন: অনেক অনেক অনেক আনন্দ পেয়েছি ভাইয়া!!!!!!!!!!!!!!

এত মজা পেয়েছি টেরারিয়াম বানিয়ে!!!!!!! স্টিল বানিয়েই যাচ্ছি!!!!!!!!!!:)


হুম পৃথিবী ছোট হয়ে আসবে। আমরা তবুও সবুজ প্রকৃতি দেখছি। আর ভবিষ্যৎ কাঁচের বাক্সে র জন্য এখুনি প্রাকটিস করছি।


অনেক অনেক অনেক থ্যাংকস ভাইয়া !!!!!!!!!:)

১৬২| ৩১ শে মে, ২০১৬ রাত ১:০৭

রক্তিম দিগন্ত বলেছেন: তোমাকে দাওয়াত দিব না??? কেমনে ভাবলা??? /:) /:)

[আমি আছি ভালই আপু। তুমি কেমন আছো? ]

০২ রা জুন, ২০১৬ রাত ১০:৫৬

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে তাড়াতাড়ি দাওয়াৎ দাও!!!!!!!!!!!:)


আমিও ভালো আছি!!!!!!!!!!!:)

১৬৩| ৩১ শে মে, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:১৭

সৈয়দ আবুল ফারাহ্‌ বলেছেন: কপি এন্ড পেষ্ট:

টেরারিয়াম শব্দটা খুব একটা পরিচিত নয় আমাদের সকলের কাছে। তাই অনেকের কাছেই তা উদ্ভট বা নতুন মনে হবে। এ শব্দটি ভিভারিয়াম নামক একটি ল্যাটিন শব্দ থেকে এসেছে। অ্যাকুয়ারিয়াম শব্দের উৎপত্তিও ভিভারিয়াম থেকেই। ভিভারিয়ামের অর্থ বদ্ধপরিসরে স্বয়ং-সম্পূর্ণভাবে বাস্তুতন্ত্র গড়ে তোলা। টেরা অর্থ স্থলভাগ। সে বিবেচনায় বদ্ধ স্থলভাগে বাস্তুতন্ত্র। তবে টেরারিয়াম শব্দটার আরও একটা অপূর্ব সুন্দর অর্থ আছে। টেরারিয়াম মানে ‘প্লেস অফ লাইফ’ বা জীবনের জন্য জায়গা। আসলেই কি ঘরের মধ্যে এই বিশালতার প্রতীক একরতি ছোট্ট বৃক্ষ বাগান দেখে এটাই বেঁচে থাকার জায়গা মনে হয়না! ‘টেরারিয়াম’ এক অর্থে অন্দরে ছোট বাগান। যা ঘরের ভেতরেই ডেকে আনে প্রকৃতির মুগ্ধতা! আর তা নিজের হাতে তৈরী হলে তো কথাই নেই। একদম মনের মত!

০২ রা জুন, ২০১৬ রাত ১১:৩৫

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাই্য়ু!!!!!!!!!!!!

১৬৪| ০৩ রা জুন, ২০১৬ রাত ২:১৪

স্বরব্যঞ্জ বলেছেন: ব্যপারটা আগে জানতাম না :( ভালোই লাগলো, আপনাকে অনেক ধন্যবাদ টেরারিয়াম নিয়ে লেখার জন্য।

০৩ রা জুন, ২০১৬ সকাল ১০:১৬

শায়মা বলেছেন: আমিও জানতাম না ভাইয়া। এ্যকুরিয়াম জানতাম, টেরারিয়াম না।

কিন্তু এটা যেখানে প্রথম দেখি সেটা না দেখে যত মজা পেয়েছি তার চেয়েও কোটি কোটি গুন বেশি মজা পেয়েছি টেরারিয়াম বানিয়ে!!!!!!!!!!!


অনেক অনেক থ্যাংকস ভাইয়ামনি!:)

১৬৫| ০৩ রা জুন, ২০১৬ রাত ৯:৫৫

বাকরখানি বলেছেন: কেমন হৈসে বাকরখানি নিকটা? B-))

০৩ রা জুন, ২০১৬ রাত ১০:০৩

শায়মা বলেছেন: ভালো হইসে! বাকের আর খানিবেগমের প্রেম কাহিনী মনে পড়েছে এই নিক দেখে তবে

তার থেকেও মানে নিকের থেকেও ভালো হইসে স্টিকি পোস্টের লাস্ট কমেন্ট!

হাসতে হাসতে মারা গেছি। বাট কিছু বলি নাই! মরে যাবার পরে কি কেউ কিছু বলতে পারে!

পারেনা!

আমিও পারিনা! :( :((




:P

১৬৬| ০৩ রা জুন, ২০১৬ রাত ১০:১৬

নীলপরি বলেছেন: আমার লেখাটা ( ]কিছু মানিক্য খুঁজে পেলাম । আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম । সময় পেলে দেখবেন ) রিপোষ্ট করতে বাধ্য হলাম । সময় পেলে দেখে আসবেন । নাহলেও ঠিকাছে । আগের বারে মন্তব্য করেছিলেন । তাই এখানে ধন্যবাদ জানিয়ে গেলাম ।

আপনি এই নিক থেকে মন্তব্য করতে পারছেন দেখে ভালো লাগলো ।

০৩ রা জুন, ২০১৬ রাত ১০:৫৪

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ আপুনি!


আগেরবারে গিয়েছিলাম । অনেক ভালো লেগেছে। আবারও যাবো!:)

১৬৭| ০৫ ই জুন, ২০১৬ বিকাল ৩:০৭

বাকরখানি বলেছেন: বারবার সবাই রিপুট করাতে মডু গাজীমাম্মার জবান পুরাপুরি খুইল্যা দিসে B-)) ভাবতাসি ফেসবুকে একটা গুরুপ খুলুম "আমরা গাজী ভেরিফাইড মগজসহ (তেল্বাজ) ব্লগার (ছাগু) হৈতে পারি নাই" নামে। কেমুন হয়? B-))

০৫ ই জুন, ২০১৬ বিকাল ৪:২৪

শায়মা বলেছেন: বাজে হয়! :-P

কাম নাই কাজ নাই গাঁজি পাঁজিভাইয়াকে নিয়ে সময় নষ্ট করি আর কি!!!!!!!! ফুহ!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!! :-/

সে যেমন পাঁজি কমেন্ট দেয় সবখানে, আমাকে আর একদিন দিলে আমিও তার পাঁজির পাঝাড়া শয়তানের রাজীম মার্কা কমেন্ট ছুটাই দেবো। X((

পাগলামী এক্টিং কি সে একাই শুধু পারে!!!!!!!!!!!!! X(





:) :) :)

১৬৮| ০৫ ই জুন, ২০১৬ বিকাল ৪:২৯

কাশফুল মন (আহমদ) বলেছেন: দারুণ ছবি,সাথে লেখনির চমৎকার লেখা

০৫ ই জুন, ২০১৬ বিকাল ৪:৩৪

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া!!!!!!!!:)

১৬৯| ০৫ ই জুন, ২০১৬ রাত ৯:৪১

জেন রসি বলেছেন: নতুন পোস্ট দেন!

আলোকিত হই! :)

০৬ ই জুন, ২০১৬ বিকাল ৫:৩৬

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে তোমাকে আলোকিত করার ব্যাবস্থা করছি ভাইয়ু!!!!!!!:)

১৭০| ০৬ ই জুন, ২০১৬ বিকাল ৫:৪৮

রিকি বলেছেন: আপুনি এই পোস্ট অফলাইনে পড়েছি---আমার একটা প্রশ্ন আছে---আপনি এত ধৈর্য কোথায় থেকে, কীভাবে, কী উপায়ে পান????

০৬ ই জুন, ২০১৬ বিকাল ৫:৫৯

শায়মা বলেছেন: আমারও একই প্রশ্ন রিকিমনি! নিজের কাছেই.....:)

তবে ধৈর্য্যের পরে কপালে কিছু উত্তম মধ্যমও জোটে। সেসব না হয় কানে কানে বলবো! এইখান বলতে সবার সামনে লজ্জা লাগে তো!:(


:P

১৭১| ০৬ ই জুন, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:০২

রিকি বলেছেন: B-)) B-)) B#)আপনার এই পোস্টের ফিল্টারের পাথরের অংশ পড়ে যা হেসেছিলাম। আপনার বাড়ির বুয়াগুলোর সেন্স অফ হিউমার সেই-ইইইইই B-))

০৬ ই জুন, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৮

শায়মা বলেছেন: হা হা হা রিকিমনি!!!!!!

বিশ্বাস করো সারা কাটাবন খুঁজেও অত সুন্দর সব কালারফুল পাথর কুচি আর কোথাও পেতাম না। সেই গুলাই বেস্ট ছিলো! তবে আমাদের বুয়ারা খুবই সৌন্দর্য্য বিলাসী আর তাই আমার সকল কার্য্যে তাহাদের সাথে পাই। তারা ভোজনবিলাসীও তবে আমার নিউ এক্সপেরিমেন্ট খেতে মাঝে মাঝে আপত্তি জানায়!:(

১৭২| ০৬ ই জুন, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৬

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: সা য়মা াথবা অপ্‌সরা, আমাকে একটা টেরাটোরিাম বানিয়ে দাওনা...আমার আজনমো লালিতো স্বাদ বাড়িতে েকটা রাখি...

০৬ ই জুন, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৯

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে তোমাকে না বানিয়ে দিয়ে পারি!!!!!!!!!!

শিঘরী কানে কানে ঠিকানা দিয়ে যাও!!!!!! একটা না দশটা বানিয়ে দেই।:) :) :)

১৭৩| ০৯ ই জুন, ২০১৬ বিকাল ৪:৫৯

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: আমার ইমেল আইডি তোমাকে দেইনি??

০৯ ই জুন, ২০১৬ রাত ৮:১২

শায়মা বলেছেন: দিয়েছিলে তো!!!!!!!!


কিন্তু আমি ........:(

১৭৪| ১১ ই জুন, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৫৯

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: আবার দিলাম [email protected]

১১ ই জুন, ২০১৬ রাত ৮:০৪

শায়মা বলেছেন: এইবার তো টেরারিয়াম না পাঠিয়ে আর রক্ষা নেই ভাইয়া!!!!!

:) :) :)

১৭৫| ১১ ই জুন, ২০১৬ রাত ৮:০৩

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: আমার মেইল এ তোমার ইমেল আইডি দাও, আমি আমার বাশার ঠিকানা দিয়ে দেবো

১১ ই জুন, ২০১৬ রাত ৮:১৮

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে তাই হবে ভাইয়ু !!!!!!!!!:)

এইখানেই ঠিকানা নিয়ে নাও।

[email protected]

১৭৬| ২০ শে জুন, ২০১৬ সকাল ১১:২৬

শাহেদ খান বলেছেন: চমৎকার জিনিস! প্রথমদিকের ছবিগুলো দেখে ভাবছিলাম, প্লাস্টিকের তৈরি গাছপালা কিনা। পরক্ষণে মনে হল, সেক্ষেত্রে শায়মা'পু এটা নিয়ে পোস্ট দেয়ার কথা না। নিশ্চয়ই আরও সৃজনশীল কিছু হবে।

পুরোটা পড়ে এবং দেখে আমি যথাক্রমে মুগ্ধ এবং বিস্মিত! অসাধারণ কাজ, আপু!

সবসময়ের শুভেচ্ছা!

২০ শে জুন, ২০১৬ রাত ৮:৫৮

শায়মা বলেছেন: আমিও মেতে ছিলাম কিছুদিন টেরারিয়াম রাজ্যে ভাইয়া। তবে এখন অন্য রাজ্যে হারিয়েছি। তুমি কত দিন পরে আসলে!!!!!!! নিশ্চয় অনেক ভালো আছো। :)

১৭৭| ২১ শে জুন, ২০১৬ বিকাল ৫:৪৮

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: আজো পেলাম না....

২১ শে জুন, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৪

শায়মা বলেছেন: স্কুল বন্ধ হয়নি তো ভাইয়া!!!!!!
আগে ছুটি হোক!!!!!!!!!!! :) :) :)

১৭৮| ২৭ শে জুলাই, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৩০

কি করি আজ ভেবে না পাই বলেছেন: এই আপু শুনছ কি?
ফেবুয় এখন আছ কি?
কথা ভারি জরুরি
রিপ্লাই দাও হারি।

৩০ শে জুলাই, ২০১৬ রাত ১০:০৮

শায়মা বলেছেন: ওপস স্যরি ভাইয়াজী
সেইদিনই দেখেছি।
ফেবুতেই কথা হতে
এই কথা ভুলেছি!:)

১৭৯| ২৭ শে জুলাই, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:১০

কি করি আজ ভেবে না পাই বলেছেন: আসিয়াছি ফিরে
এসো ত্বরা করে :)

৩০ শে জুলাই, ২০১৬ রাত ১০:২১

শায়মা বলেছেন: ত্বরা ত্বরি সব শেষ
দুই দিন হলো!

কি যে করি ভাইয়াটা
কোথা মোর গেলো!!!!!!!

১৮০| ৩১ শে জুলাই, ২০১৬ সকাল ৭:৫১

কি করি আজ ভেবে না পাই বলেছেন: সালামুন সালামুন
এট ইউর সার্ভিস;
ফেবুয় আছি কবে থেকে
তুমিই শুধু নেই,ইশশশ।

৩১ শে জুলাই, ২০১৬ দুপুর ২:২০

শায়মা বলেছেন: কে বলেছে নেই ভায়া
তুমি এক কানা ভাই
রাত দিন গান গাই
তোমারই তো দেখা নাই!!!!!!!

১৮১| ০৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সকাল ১০:৪৫

মিনহাজ রিয়াজ বলেছেন: অসাধারণ লাগছে

০৭ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৩:৫১

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া!:)

১৮২| ০৭ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৪:৫৫

মিনহাজ রিয়াজ বলেছেন: wc আপু।

০৭ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৫:২৬

শায়মা বলেছেন: :)

১৮৩| ০৮ ই আগস্ট, ২০১৬ ভোর ৬:১২

সম্রাট৯০ বলেছেন: ডিকশনারীতে এই শব্দ আছে নাকি? টেরারিয়াম? জীবনে শুনেছি বলেতো মনে হলোনা, :(

আপনি আর কি কি পারেন? দেখি আপনাতে ঘুরে ফিরে আর কি কি মিলে, :)

গান- :)

০৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:১৭

শায়মা বলেছেন: আছে নিশ্চয়ই!!!!!!

এ্যকুরিয়ামের ভাই টেরারিয়াম ভাইয়া।

এ্যকু মানে জল আর টেরা মানে স্থল!!!!!!!


আমি কি কি পারিনা আমি বলবো না!!!!!!!!!!!!


আমি সবজান্তা শমসেরাাা!!!!!!!!!!!!:)

১৮৪| ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৬ রাত ১:১২

জলপাতা বলেছেন: কি যে সুন্দর হয়েছে!একদম আপনার মত।এত গুণ কোথায় রাখেন বলেনতো।কেমন আছেন শায়মা?

২৫ শে ডিসেম্বর, ২০১৬ দুপুর ১২:১৬

শায়মা বলেছেন: আমার মত সুন্দর!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!! :)

অনেক অনেক খুশি হলাম আপুনি!!!!!!!!!!!!!

লাভ ইউ!!!!!!!!!!

এত গুন কোথাও রাখিনা সব ঢেলে দেই!!!!!!!!!! ফেলেও দেই কিছু মিছু!!!!!!!!!!! :P


অনেক অনেক ভালোবাসা আর শুভকামনা তোমার জন্য!!!!!!!!!!!!!:)

১৮৫| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:০৯

সজিব। বলেছেন: আপু আমারে একটা দিবা ?
:(

২১ শে জানুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:১৭

শায়মা বলেছেন: আমি তো সবাইকেই দেই!!!!:)

১৮৬| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৪১

সজিব। বলেছেন: বুঝতে পারসি । থাক দেওয়া লাগবে না। শুধু বলে দাও কোথায় কমে কিনতে পাবো ?

২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৪৭

শায়মা বলেছেন: B:-)
কেনো!!!!!!!!!!!!!

কোথাও তো এই জিনিস কম বা বেশিতে কিনতে পাওয়া যায় না ভাইয়া!!!!!!!!

ইহা একমাত্র অপ্সরীয়া স্পেশাল!!!!!!!!!! :)

আমার পরীর দেশে পাওয়া যায়!!!!!!!

১৮৭| ২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:০৬

সজিব। বলেছেন: পনার পরীর দেশে যেতে চাই আমি আপু।

২৮ শে এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৫:৩১

শায়মা বলেছেন: :)

১৮৮| ২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:০৭

সজিব। বলেছেন: আপনার পরীর দেশে যেতে চাই আমি আপু।

২৪ শে জানুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:২০

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে ডানার অর্ডার দেই একজোড়া!!!!!!! :)

১৮৯| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:২৫

সজিব। বলেছেন: আচ্ছা কবে নাগাদ যেতে পারবো ? তারাতারি অর্ডার দেন আপু।

২৫ শে জানুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০০

শায়মা বলেছেন: ওকে কাল অর্ডার দেবো বাট কবে নাগাদ যে অর্ডার ডেলিভারী হয়!!!!! :(

১৯০| ২৫ শে জানুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৬

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: ছবি গুলো সুন্দর। কাঁচের বৈয়মে গাছগুলো অবাক করা সুন্দর।

২৫ শে জানুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৭

শায়মা বলেছেন: ঠিক বলেছো ভাইয়া!!!!!!

অনেক অনেক প্রিয় শিল্প আমার!!!!

১৯১| ২৬ শে এপ্রিল, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৪

নাজমুন আহমেদ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ । আজ একদম নতুন কিছু জানলাম।আমি ও টেরারিয়াম তৈরির চেস্টা করব। আমি কি এটা ফেবু তে শেয়ার করতে পারি?

২৬ শে এপ্রিল, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪২

শায়মা বলেছেন: হা হা সে অনেকদিন যাবৎ মেতে ছিলাম টেরারিয়ামের জগতে! এখন অবশ্য সে শখ কিছুটা কমেছে! বাড়িঘর সবই তো ভরে ফেলেছিলাম গাছ পালায়!

যাইহোক শেয়ার করতে পারো ভাইয়া!!!!! :)

১৯২| ২৮ শে এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৩:৫৪

নাজমুন আহমেদ বলেছেন: হায় হা্য, , , আমি ভাইয়া না তো।

২৮ শে এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৪:০১

শায়মা বলেছেন: স্যরি আপুনি!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

লাভ ইউ লাভ ইউ লাভ ইউ!!!!!!!!!!

আবারও স্যরি!!!!!!!!!!!!!!

১৯৩| ১৯ শে জুলাই, ২০১৭ রাত ৯:৩৮

এনজেল৩০ বলেছেন: খুব সুন্দর

১৯ শে জুলাই, ২০১৭ রাত ৯:৪৪

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইঊ এনজেল আপুনি!!!!!!!!!!!:)

১৯৪| ৩১ শে আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ১২:৫৫

ডা. সুরাইয়া বীথি বলেছেন: অাপু টেরোরিয়াম দেখে অামি অভিভূত! অামি অবশ্যই এটা বানাতে চেষ্টা করব। কিন্তু অাপু টেরোরিয়ামে অাপনি যে ছোট ছোট গাছ, মস ব্যবহার করেছেন এগুলো কি অার্টিফিশিয়াল নাকি রিয়েল? যদি রিয়েল হয়ে থাকে তাহলে এগুলো মরে/কিংবা পচে যায় না? অার অার্টিফিশিয়াল হলে কোথায় কিনতে পাবো এগুলো?

৩১ শে আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ১:০৪

শায়মা বলেছেন: রিয়েল এবং আর্টিফিসিয়াল দুই দিয়েই বানানো যায়। রিয়েলটাও পঁচে না ঠিকঠাক যত্ন নিলে! পানি খুব কম দিলেই চলে।


আর আর্টিফিসিয়াল সবই কিনতে পাওয়া যায় গুলশান ১ ডিসিসি মার্কেট। নিউ মার্কেটেও পাওয়া যাবার কথা আপুনি!!!!!! :)

১৯৫| ৩১ শে আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ১:০০

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: তোমার না আমাকে একটা টেরারিআম দেয়ার কথা ছিলো?

৩১ শে আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ১:০২

শায়মা বলেছেন: টেরারিয়াম কেমনে দেবো!!!!! :(

কাঁচের জিনিস কি পাঠানো যায় নাকি!!!!!!!!! :(

তোমার বাড়িতে তাহলে দাওয়াৎ দাও গিয়ে দিয়ে আসি!!!!!! :)

১৯৬| ৩১ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৩:৪১

ডা. সুরাইয়া বীথি বলেছেন: এ
এই টেরোরিয়ামের গাছ গুলো কি রিয়েল?

৩১ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৫:৩৪

শায়মা বলেছেন: না এটা আর্টিফিসিয়াল প্লান্টস দিয়ে বানানো ! :)

১৯৭| ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৬

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: আমার বাসার ঠিকানা দিলে আসবে? সততি?

২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:৩৫

শায়মা বলেছেন: হুম!!!!!!!!!!



যখন তুমি গভীর ঘুমে থাকবে!!!!!!

তখন পরীর দেশ থেকে পরীরা নামে তো!!!!!!!!! :)

১৯৮| ২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৪৭

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: আমি ইনসোমনিয়ার রোগি...আমার ঘুম আশেনা...মেইলে তোমার বাশার থিকানা দাও, আমি গিয়ে নিয়ে আশবো।

২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৩৬

শায়মা বলেছেন: বাসার ঠিকানা!!!!!!!!!!

অপ্সরা
বাসার নামঃ অপ্সরীয়া ভবন
ঠিকানাঃ অপ্সরীয়া হাউজিং......
আকাশবাড়ি, পরীস্থান!!!!!!!!!!!!! :)

১৯৯| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:৫৭

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: বয়স তো কম হলোনা, ঠিক সময় বিয়ে করলে তোমার ছেলে বা মেয়ে এবার এস এস সি দিত। বুড়ি ধারি হোয়ে এসব ছেলে মানুশি তোমায় মানা য় না।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:০৯

শায়মা বলেছেন: ঐ বেশি বাড়লে কিনতু তোমার বুড়া থুত্থুড়া লাঠি নিয়ে হাঁটাহাঁটি ছবি দিয়ে দেবো!!!!!!! তোমার জামাই, বৌমা, সবার ছবি!!!!!!!! :)

২০০| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১:৫১

উদাস মাঝি বলেছেন: শামাপু এগুলা কোথায় কিনতে পাওয়া যায় ?
আর দাম কিরকম পরবে ?

আমি তো টেরারিয়ামের প্রেমে পরে গেলাম, এখন কি হবে বলত !!

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:১১

শায়মা বলেছেন: আমার বাসায় পাওয়া যায় ! এছাড়া এই দুনিয়ার কোথাও পাবে না !!!!!! তবে টেরিরিয়াম পাবে নানা রকম প্লান্টস বা ক্রাফ্টস এর দোকানে !:)


টেরিরিয়ামের প্রেমে যখন পড়েইছো তখন টেরিরিয়ামের সাথে প্রেম করো ভাইয়ু!!!!!!!!! :)

২০১| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১১:৪৪

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: ছবি কিনতু আমার কাছেও আছে...রাগিও না আমায়।

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:১১

শায়মা বলেছেন: এহ!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!


এহ লে!!!!!!!!!!!!!!! :P

২০২| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:৩৯

যোগিনী বলেছেন: বাপ রে! প্রতিভার ছড়াছড়ি B-)

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:৪৩

শায়মা বলেছেন: যোগিনী আপুনি! তোমাকে কিন্তু ভুলিনি আমি! :)

২০৩| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:৪৮

যোগিনী বলেছেন: বলেন কি?? আমি তো নিজেই নিজেকে ভুলতে বসেছি :P
ধন্যবাদ মনে রাখার জন্যে ।

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:৫৫

শায়মা বলেছেন: আবার ফিরে আসো আপুনি! :)

২০৪| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১:০৮

যোগিনী বলেছেন: ইন শা আল্লাহ, আপু :)

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সকাল ১০:৫১

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ আপুনি!!!!!!

২০৫| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ২:১৩

মলাসইলমুইনা বলেছেন: দুর্ধর্ষ !

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সকাল ১০:৫২

শায়মা বলেছেন: হা হা

থ্যাংক ইউ মুসাল্লাম ভাইয়া!!!!!!!!!! :)

২০৬| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৯

মলাসইলমুইনা বলেছেন: আগে মুরগি লিখলে আমি মাইন্ড করতাম তাতো আমি বলিনি !

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ রাত ১১:২৫

শায়মা বলেছেন: তাইলে কি আমি মোরগ মুসাল্লামই লিখবো ভাইয়ু!!!!!!!!!

২০৭| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৭ রাত ২:৪৬

মলাসইলমুইনা বলেছেন:
ওহ, এতো মনে হয় গ্রামাটিক্যাল মিস্টেক করে ফেলেছি বড় সড় ! রান্নায় আপনিই প্রিন্সিপাল | আপনার কথাই শিরোধার্য করি | যে কোনো একটা হলেই হবে |শুধু একটাই রিকু স্বাদে গন্ধে যেটা বেশি চলবে সেটার সাথে সংযোগ সাধন রাখতে হবে | আমি সাধারণ তাই বলে কি অসাধারণের সাথে একটু সম্পর্ক রাখতে পারবো না ? প্লীজ ...I

০১ লা অক্টোবর, ২০১৭ দুপুর ১:১৩

শায়মা বলেছেন: পারবে পারবে!!!!!
অবশ্যই পারবে!!!!!!!
পারিবোনা এ কথাটি বলিও না আর!!!!!!!!!!!!
একবার না পারিলে দেখো কোটিবার!!!!!!!!

২০৮| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:২৫

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: ডাকিনি যোগিনির কাছ থেকে আমরা সবাই সাবধান থাকি।

০১ লা অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:৫৮

শায়মা বলেছেন: ঐ ভাইয়া যোগিনী আপুর পিছে লাগো কেনো আবার!!!!!!!

২০৯| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪২

ইয়াশফিশামসইকবাল বলেছেন: এই শেষ, তোমার আর কোনো লেখায় আর কোনোদিন কোনো মনতবব করবো না। বিদায় বনধু, ভালো থেকো।

০১ লা অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:০২

শায়মা বলেছেন: আহালে ইয়াশিফিয়াশি ভাইয়ু!!!!!!!!!!!

তুমি তো অকালনেই লাগ কলো!!!!!!!!

জানি জানি জানি !!!!!!!!!!!!!


২১০| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ১১:০৫

অজানিতা বলেছেন: এইটা আমার অনেক পছন্দের একটা পোস্ট। :)

শায়মাপু থ্যাঙ্কিউ এত্ত সুন্দর একটা লেখার জন্য। :)

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:৫৯

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ তিমনি!!!!!!!! :)

২১১| ১৭ ই নভেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৫৫

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন: সত্যিই ছবিগুলো অসাধারণ ! ;)

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৫৮

শায়মা বলেছেন: ঐ আবার ছবি বলছিস!!!!!!!! X((

২১২| ২৫ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৪৯

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: চমৎকার পোস্ট....
তোমার মতোই ;)

২৮ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ২:৪৪

শায়মা বলেছেন: হা হা হা ঠিক ঠিক আমি সৌন্দর্য্য বিলাসী মানুষ!!!!!! :)

২১৩| ২৫ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৫৫

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: প্রিয়তে নিলুম B-))
তোমাকেই প্রিয়তে নেওয়া হলো :D

০৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৩৪

শায়মা বলেছেন: থ্যাংকইউ ভাইয়া!!!!!

২১৪| ১১ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৪২

শাহিদা খানম তানিয়া বলেছেন: দূর্দান্ত সুন্দর একটি পোস্ট। প্রিয়তে নিয়ে রাখব। ++++

২১৫| ১১ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৪৯

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ আপুনি!!!!!!

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.