নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার পুরো নাম শাইয়্যান মোহাম্মদ ফাছিহ-উল ইসলাম। অন্যদের সেভাবেই দেখি, নিজেকে যেভাবে দেখতে চাই। যারা জীবনকে উপভোগ করতে চান, আমি তাঁদের একজন। সহজ-সরল চিন্তা-ভাবনা করার চেষ্টা করি। আর, খুব ভালো আইডিয়া দিতে পারি।

সত্যপথিক শাইয়্যান

আমার পোস্ট সংখ্যা এক সময়ে ৩০০টিতে গিয়ে ঠেকেছিলো। আগে অনেক বিষয় নিয়ে লিখলেও এখন আমার ভাবনার বিষয় শুধুই চীন। তবে, পোস্টগুলো বেশিরভাগই ভাবানুবাদ হবে।

সত্যপথিক শাইয়্যান › বিস্তারিত পোস্টঃ

প্রধানমন্ত্রীকে বুঝতে হবে খারাপ শিক্ষার্থীদের দিয়ে স্কুল ভরলে পরীক্ষার সময় টুকলিফাইং হবেই

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৪১



মাননীয় শেখ হাসিনা একবার নিজের জনসভায় বলেছিলেন, এখন এত্তো মানুষ। অথচ, বঙ্গবন্ধু মারা যাবার সময়ে এই ভীড় কোথায় ছিলো! কথাটার মর্মার্থ অনেক গভীরে। প্রধানমন্ত্রী মনে হয় আস্তে আস্তে বুঝতে পারছেন, তাঁর চারপাশ একদল হিংস্র, চাটুকার, দূর্নীতিবাজ ঘিরে ধরেছে। এমন পরিস্থিতিতে, শেখ হাসিনা কি খুব একলা বোধ করছেন? এই আতংকজনক অবস্থায়, তিনি কি এখন নিজেকে গুটিয়ে নিবেন, নাকি নিজের কমফোর্ট জোন থেকে বের হয়ে এসে সমস্যার মুখোমুখি হয়ে শক্ত হাতে দেশের হাল ধরবেন? এখানেই, আসল শেখ হাসিনার পরিচয় মিলবে।

আওয়ামী লিগে অনেক ত্যাগী নেতা ছিলেন। এখনো আছেনও। যেমন, আমার চাচা যিনি কি না নিজ এলাকার হাল ধরতে মাল্টি ন্যাশনাল কোম্পানীর চাকরী ছেড়ে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হয়েছিলেন। এরপর থেকে পাঁচ বারই এলাকার মানুষই তাঁকে সেই পদে মনোনিত করে। খুবই অতিথীপরায়ন এই মানুষটি বেশ কড়া প্রকৃতির লোক। কারো কোন ভুল পেলে, সবার সামনে লোকটিকে তিক্ত কথা শুনাতে পিছপা হোন না। তাঁর ভয়ে ইউনিয়ন অফিসের ধারে-পাশে ঘেষতে পারেন না চাটুকাররা। এই কারণেই কি না, দলের ক্ষতি হচ্ছে এই ধুয়া তুলে ইউনিয়ন আওয়ামী লিগ তিন ভাগে বিভক্ত। তবুও, পাঁচ বার তিনি চেয়ারম্যান পদে।

আমার চাচা যত ভালো লোকই হোন, হয়তো দলের হাত শক্ত ভাবে ধরে রাখতে পারেননি বলেই ইউনিয়ন পর্যায়েও তিন ভাগে বিভক্ত হয়ে গিয়েছে। দলের পরবর্তী প্রজন্মকে কাছে টেনে সঠিক ট্রেইনিং দিতে না পারাতেই হয়তো সেইসব তরুণেরা লুকিয়ে-ছাপিয়ে দলের ক্ষতি হবে জেনেও তাঁর বিরুদ্ধে মিটিং করে।

কোথায় যেন শুনেছিলাম, বিরাট অশুত্থ গাছ (নাকি বট গাছ?) যখন মারা যেতে থাকে, তখন বাইরে থেকে কেউ বুঝতে পারে না। কেউ ঠাহর করতে পারে না সেই গাছের তলা ফাঁপা হয়ে যাওয়ার ব্যাপারটা। একদিন সামান্য হাওয়াতেই সেই গাছ ভেঙ্গে পড়ে। কেউ কি ভেবেছিলো, আওয়ামী-মুসলিম লিগ শুধুই আওয়ামী লিগে পরিণত হয়ে যাবে? সেই আওয়ামী লিগ থেকেই খন্দকার মোস্তাকের মতো মানুষ তৈরী হবে? কেউ কি স্বপ্নেও ভেবেছিলো, এই আওয়ামী লিগেরই কিছু নেতা 'মাইনাস টু' ফর্মুলায় রাজি হয়ে যাবে?

তাই, সাধু সাবধান!



মন্তব্য ২০ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (২০) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৪৫

খাঁজা বাবা বলেছেন: সে নিজেও তো টুকলিফাইং করে পদে বসেছেন
অন্যদের কি দোষ?

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৫২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: আপনি কি নির্বাচন কমিশনের লোক?

২| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৪৯

রাজীব নুর বলেছেন: রাজনীতি মানেই টুকলিফাইং।

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৫৭

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: না, তা নয়, ব্লগার রাজীব নুর।

৩| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৫৮

খাঁজা বাবা বলেছেন: লেখক বলেছেন: আপনি কি নির্বাচন কমিশনের লোক?

জি না, আমি অত বড় টুক্লিফাইয়ার না।

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৫৯

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: তাহলে, কেন বাজে মন্তব্য করছেন?

৪| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৫৯

নেওয়াজ আলি বলেছেন: আমার চাচাও ভালো লোক। আওয়ামী লীগ করে।

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:০১

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: মানুষের মাঝে খারাপের চেয়ে ভালো'র দিকটাই বেশি।

ধন্যবাদ, ভাইটি।

৫| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:৫০

খাঁজা বাবা বলেছেন: লেখক বলেছেন: তাহলে, কেন বাজে মন্তব্য করছেন?

সত্য কি বাজে হয় ভাই?

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:০০

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: নির্বাচন কমিশনের মানুষেরা গুনায় ভুল করলে রাজনীতিবীদদের কি করার আছে বলুন তো?

৬| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:০৫

খাঁজা বাবা বলেছেন: নির্বাচন কমিশনের মানুষেরা গুনায় ভুল করলে রাজনীতিবীদদের কি করার আছে বলুন তো?

এখন যারা কমিশনে আছে ওনাদের সৃষ্টি কারী তো রাজনীতিবিদরাই

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:০৯

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

করোনা পশু থেকে সংক্রমিত হয়েছে।

নীতি'র শিক্ষা পরিবার থেকেই। দূর্নীতির উৎসও কি তা-ই নয়?

৭| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:১৯

বিজন রয় বলেছেন: উত্থান-পতন সবসময় আছে। শেষ পর্যন্ত সত্য টিকে থাকে।

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:৫৯

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: সত্য সব জায়গায় বিরাজমান। আমাদেরকে তা খুঁজে পেতে হবে।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৮| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৪:৫৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: মন্তব্যগুলো ভাল লাগলো

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:৫৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: মন্তব্যগুলো সঠিক ভাবে দিতে পেরেছি জেনে ভালো লাগলো।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৯| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:২৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা বুদ্ধিমতি হলে, তিনি দলটাকে চোর/ডাকাতের দল থেকে রাজনৈতিক দলে পরিণত করতেন, আর একজন বুদ্ধিমান মানুষকে প্রধানমন্ত্রী বানাতেন; উনি লাঠিওয়ালা কম-বুদ্ধিমতি মহিলা।

১৩ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৮

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

আমারও মনে হয়, বাংলাদেশকে রাষ্ট্রপতি শাসিত একটি দেশে পরিণত করার সময় এসেছে। অন্য কোন মানুষকে প্রধানমন্ত্রী বানিয়ে, শেখ হাসিনা রাষ্ট্রপতি হলে অনেক ভালো হবে।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

১০| ১৪ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:৪৩

মা.হাসান বলেছেন: যাহারা পাস করিতে পারিতো তাহারা নাকি আজকাল আর ইসকুলেই ভর্তি হয় না।

১৮ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:৫৯

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: শিক্ষার্থীরা না আসলে শিক্ষকদের উচিৎ তাদেকে খুঁজে বের করে নিয়ে আসা। আমার এক শিক্ষক এমনই ছিলেন।

দেরী করে উত্তর দেওয়ার জন্যে দুঃখিত।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.