নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার পুরো নাম শাইয়্যান মোহাম্মদ ফাছিহ-উল ইসলাম। অন্যদের সেভাবেই দেখি, নিজেকে যেভাবে দেখতে চাই। যারা জীবনকে উপভোগ করতে চান, আমি তাঁদের একজন। সহজ-সরল চিন্তা-ভাবনা করার চেষ্টা করি। আর, খুব ভালো আইডিয়া দিতে পারি।

সত্যপথিক শাইয়্যান

আমার পোস্ট সংখ্যা এক সময়ে ৩০০টিতে গিয়ে ঠেকেছিলো। আগে অনেক বিষয় নিয়ে লিখলেও এখন আমার ভাবনার বিষয় শুধুই চীন। তবে, পোস্টগুলো বেশিরভাগই ভাবানুবাদ হবে।

সত্যপথিক শাইয়্যান › বিস্তারিত পোস্টঃ

খিনী মালেকের ফাঁসির সময়ে জনতার উল্লাস আর ব্রাহ্মণবাড়িতে খেলাফত মজলিসের সমাবেশ এক নয়

১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৪৫

বঙ্গবন্ধুর খুনী মাজেদের ফাঁসির সময়ে কিছু মানুষ উল্লাসে রাস্তায় নেমে এসেছিলেন। বাংলাদেশ তখনো করোনায় আক্রান্ত। এই যারা উল্লাস করেছিলো- তাদের কিছু হয়তো সত্যি সত্যি নিজেদের আনন্দ প্রকাশের জন্যে রাস্তায় নেমেছিলেন। কিছু হয়তো ছিলেন দলীয়। আর কিছু না বুঝেই।

ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে খেলাফত মজলিসের নেতা মরহুম আনসারী সাহেবের জানাযাইয় যারা এসেছিলেন তাদের মধ্যে কত জন সত্যি সত্যি জানাজার জন্যে, আর কত জন দলীয় আর কত জন না বুঝেই এসেছিলেন?

যদি জানাজার জন্যে এসে থাকেন, সেটা কি নবীজী (সাঃ )-এর নির্দেশ মেনে? জানাজার সম্পর্কে বলা হয়েছে- এলাকার যে কোন একজন জানাজায় গেলেই চলবে। আর, মহামারী সম্পর্কে বলা হয়েছে- এই সময়ে ঘরে থাকার জন্যে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, কোন হাদিসটি এখন প্রযোজ্য বেশি? কোনটা আগে মানা লাগবে? আলেমরাই এটা ভালো বলতে পারবেন।

কিন্তু, কেউ যদি খুনী মাজেদের ফাঁসির উল্লাসে নেমে আসা জনতার সাথে তাল মিলিয়ে সেই জানাজায় উপস্থিত থেকে থাকেন, তাহলে বলতে হবে, সেই ব্যক্তির উদ্দেশ্যে গড়মিল ছিলো। সেই ব্যক্তি জানাজার জন্যে নয়, বরং, অন্য কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ঐ সমাবেশে গিয়েছিলো!

খুনী মাজেদের ফাঁসির সময়ে রাস্তায় নেমে আসা জনতা যদি 'সোশ্যাল ডিসট্যান্স' মেনে না থাকেন, তাই বলে আপনি যে কি না ইসলামের পতাকাধারী, সে-ই একই ভুল করলেন!

কেন, ভাই, কেন! কেন ইসলামকে আবারো কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন!

মন্তব্য ১২ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (১২) মন্তব্য লিখুন

১| ১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:২০

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সবাই বাংলার আদম

১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:১৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: কেউ বুদ্ধিমান, আর কেউবা মূর্খ। এটাই ফারাক।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

২| ১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:০৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


করোনার সংক্রমণ বন্ধ কফাঁষী রার জন্য সরকার নিয়মাবলীর মাধ্যমে লকডাউন ঘোষণা করেছে, এগুলো রাষ্ট্রীয় নিয়মাবলী; ফাঁসী নিয়ে রাস্তায় নামার পর, এরা রাষ্ট্রীয় নির্দেশ অমান্য করেছে, ব্রাম্মণবাড়ীয়ায় জানাজায় সমাবেশে আগমণকারীরা ছিলো রাষ্ট্রীয় নিয়ম ভংগে করেছে।

রাষ্ট্রীয় নিয়মের বেলায় কোন হাদিস ইত্যাদির প্রয়োগ চলবে না; হাদিস কি বলে, উহা জানারও দরকার নেই, রাষ্ট্র যেটা বলেছে, সেটাই নিয়ম।

১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:১৭

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

রাষ্ট্রীয় আইন মানাটাও হাদিসেরই নির্দেশ। যা রা আইন না মেনে রাস্তায় এসেছিলেন, তারা রাষ্ট্রীয় আইন ভেঙ্গেছিলেন, সেই সাথে হাদিসের বর্ণিত রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর নির্দেশ অমান্য করেছেন।

তাই তারা যে-ই হোন না কেন। তারা অপরাধী।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৩| ১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৮

রাজীব নুর বলেছেন: শিরোনামটা ঠিক করুন।

১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:০৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: ভুল ধরিয়ে দেওয়ার জন্যে ধন্যবাদ নিরন্তর।

৪| ১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ৮:১৮

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি বলেছেন, " রাষ্ট্রীয় আইন মানাটাও হাদিসেরই নির্দেশ। যা রা আইন না মেনে রাস্তায় এসেছিলেন, তারা রাষ্ট্রীয় আইন ভেঙ্গেছিলেন, সেই সাথে হাদিসের বর্ণিত রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর নির্দেশ অমান্য করেছেন। তাই তারা যে-ই হোন না কেন। তারা অপরাধী। ধন্যবাদ নিরন্তর। "

-কেহ রসুলের নিয়ম হাজার বার না মানুষক, তাতে রাষ্ট্রের কিছু যায় আসে না; রাষ্ট্রের আইন যে মানে না, তার বিচার হওয়ার দরকার আছে।

১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:১০

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:
রাষ্ট্রে সব ধর্মের নাগরিকই থাকবেন। তাই, কেউ যদি হাদিস না মানেন, তাতে রাষ্ট্রের কিছু করার দরকার নেই বলে আমিও মনে করি।

তবে, এক ধর্মের মানুষ আরেক ধর্মের অনুসারীকে যদি অহেতুক খুঁচা-খুঁচি করার মাধ্যমে সেই ব্যক্তির মানসিক ও দৈহিক ক্ষতি করে, তাহলে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের চলমান আইনে ব্যবস্থা নেয়াই যেতে পারে।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৫| ১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:০৯

নগরবালক বলেছেন: খিনি মালিক কে ব্রাদার?? তালেবান জংগী নাকি

১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৩৬

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: খিনি মালিক নয়, খুনি মাজেদ হবে। বঙ্গবন্ধুর খুনি।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৬| ১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:১৫

নতুন বলেছেন: যারা মিছিল করেছে তারা আয়ামীলিগের নেতাদের কথায় বলেছে।

সাধারন মানুষ এখন এতো বেকার নাই যে ফাসি হয়েছে তাই রাস্তায় মিছিল করতে নামবে।

এলাকার পাতি নেতারা বলেছে তাই কিছু মানুষকে মিছিল করিয়েছে।

জনগন মন থেকে খুশি হয়েছে যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আরেক খুনির ফাসি হয়েছে। কিন্তু বত`মানে মানুষ সুবিধা না থাকলে মিছিলে যাবার মতন অবস্থায় নেই।

১৯ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৫২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:
আপনি যা বললেন, তা অনেক খুঁজলাম। কোথাও পেলাম না যে ঐ মানুষদের আওয়ামী লিগের নেতাদের কথায় মাঠে নামানো হয়েছিলো।

আপনার সাথের কেউ কি গিয়েছিলেন যার কাছ থেকে এমন তত্থ্য পেয়েছেন?

ধন্যবাদ নিরন্তর।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.