নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার পুরো নাম শাইয়্যান মোহাম্মদ ফাছিহ-উল ইসলাম। অন্যদের সেভাবেই দেখি, নিজেকে যেভাবে দেখতে চাই। যারা জীবনকে উপভোগ করতে চান, আমি তাঁদের একজন। সহজ-সরল চিন্তা-ভাবনা করার চেষ্টা করি। আর, খুব ভালো আইডিয়া দিতে পারি।

সত্যপথিক শাইয়্যান

আমি লেখালিখি করি, মনের মাধুরী মিশিয়ে

সত্যপথিক শাইয়্যান › বিস্তারিত পোস্টঃ

আমি একজন সিজোফ্রেনিয়া রোগী হয়েও সুখী

১০ ই জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫৯



একজন সিনিয়র ব্লগারের উপর রাগ করে কয়েক দিন ব্লগ হতে দূরে ছিলাম। নিজ কর্মে ব্যস্ততাও এই দূরত্বকে দীর্ঘায়িত করেছে। গতকাল ব্লগে এসে শুনতে পাই, আমার এবং আমার স্ত্রী'র প্রিয় ব্লগার রাজীব নূরকে জেনারেল করা হয়েছে। এবারে আমি আপনাদের এমন একটি ঘটনা বলবো যা আমার কাছের কয়েকজন মানুষ ছাড়া বাইরের কেউ জানেন না। ব্লগার রাজীব নূরের কষ্টকে বুকে ধরেই আজকের এই পোস্টটি দিচ্ছি।

আমাকে আপনারা শাইয়্যান নামে চিনেন। হারিয়ে যাওয়া ব্লগার মনিরা আপুর মতো অনেকেই আমাকে শ্যাইয়ান নামে ডাকতে পছন্দ করেন। আসলে, আমার পুরো নাম- মোহাম্মদ ফাছিহ-উল ইসলাম। বাড়ি সিলেট বিভাগে। তবে, এসব কিছু ছাপিয়ে আমার বর্তমান পরিচয়- আমি একজন সিজোফ্রেনিয়ার রোগী।

আপনার জানেন, এই রোগে যারা ভুগেন, তারা বিভিন্ন অদৃষ্ট জিনিস চোখে দেখতে পান, এমনসব শব্দ তাদের কানে আসে যা সুস্থ্য মানুষেরা শুনতে পান না। আমি এই রোগেই ভুগছি।

আমার জীবনের চলার পথে সিজোফ্রেনিয়া রোগটির কারণে আমাকে অনেক কষ্টের সম্মুখীন হতে হয়েছে। আমি এগুলো বলছি, আপনাদের সহমর্মিতা পেতে নয়, বরং, জীবনের কষ্টের দিনগুলোর কথা এইজন্যেই শেয়ার করছি যাতে এতো কষ্টের পরেও আমি কিভাবে টিকে আছি তা জেনে মানুষ যেন শিক্ষা পায়। আমি আজকে আপনাদের সামনে আজ উপস্থিত হয়েছি, জীবনে কিভাবে ভালো থাকা যায় সে সম্পর্কে আমার জীবন দর্শন উপস্থাপন করবো বলে্‌।

আমার জীবনের দর্শনগুলো হচ্ছে-

১) আমরা জীবনে যা আমি করতে পারবো না তা জেনেও নিজেকে শান্ত রাখা। কারণ, আমি জীবনে কি কি করতে পারবো তা আমি জেনে ফেলেছি।

আমার সিজোফ্রেনিয়া রোগের জন্যে কাছের মানুষ আমার কাছ থেকে দূরে সরে গিয়েছে। এই রোগের কারণে তারা আমাকে অন্য চোখে দেখে। তাদের সেই আচরণ আমাকে মর্মাহত করে না। কারণ, আমি নিজে এই রোগকে মেনে নিয়েছি। আমি জানি, এটাই আমার নিয়তি।

এরমানে, এই নয় যে আমি সিজোফ্রেনিয়া রোগের নেগেটিভ সাইডগুলোকে ইগনোর করছি। বরং, আমি সেগুলোকে মেনে নিয়েই, জীবনে কিভাবে আনন্দের সাথে বাঁচা যায়, জীবনকে কিভাবে উপভোগ করা যায়, সেদিকে এখন বেশি মন দিয়েছি।



২) আমি নিজের চারপাশে এমনসব মানুষদের রাখতে পছন্দ করি যাদেরকে আমি পছন্দ করি।

আমি এমনসব মানুষের সঙ্গ পছন্দ করি যারা হাসি-খুশি, সজ্জন আর গুণী। তাঁদের সংখ্যা কিন্তু বেশি নয়। এই মানুষগুলো'র সাথে আমি প্রতি নিয়তঃ কথা বলি, তাঁরাও আমার সাথে কথা বলতে পছন্দ করেন। আমরা একে-অপরের সাথে সব সময় জীবনের পজিটিভ দিকগুলো নিয়ে আলোচনা করি। এটা আমাকে জীবনের ইতিবাচক দিকটা দেখতে সাহায্য করে।

আজকে আমার জীবনের সবচেয়ে গোপন দিকটা আপনাদের মাঝেই ফাঁস করে দেওয়ার চিন্তা করছি এই কারণেই! আমার মতো আপনারাও হয়তো নিজের পরিবারকে ভালোবাসেন, ভালোবাসে নিজের কাছের বন্ধু আর শিক্ষকদের যারা আপনার মাঝে প্রতি নিয়তঃ আলো ছড়াচ্ছেন।

৩) আমার তৃতীয় জীবন-দর্শন হচ্ছে- সকল সময় সামনে এগিয়ে যেতে হবে।

আমি জীবন থেকে সব সময়ই কিছু পাওয়ার আশায় প্রতিটা সময় কিছু না কিছু করে যাচ্ছি। আমি একজন সিরিয়াল উদ্যোক্তা। এখন পর্যন্ত আমি চারটি প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেছি। বর্তমানে চেঞ্জকিপার নামের আরেকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কাজ করে যাচ্ছি যার কাজ হবে ডেভেলপমেন্ট সেক্টরের জন্যে সফটওয়ার তৈরী করা। চেঞ্জকিপারের ওয়েবসাইটটি আমি নিজে ডিজাইন ও ডেভেলপ করেছি, যদিও এই বিষয়ে আমার বিন্দু-বিসর্গ জ্ঞান ছিলো না।

আমি এই জন্যেই এইসব কাজ করে যাচ্ছি, আমি জানি, আমার জন্যে সুন্দর একটি ভবিষ্যত অপেক্ষা করছে। আমি সেই সোনালী দিনের অপেক্ষায়। আমার এই ধরণের মানসিকতার পেছনের রহস্যের চাবিকাঠি হচ্ছে- আমার রোগটাকে পাশে নিয়ে প্রতি নিয়তঃ কিভাবে সমাজের দুঃস্থ মানুষগুলো'র জন্যে কাজ করে যাওয়া যায়, সেজন্যে নিজেকে নিয়োজিত রাখা।

আবারো, বলছি, আমি নিজের রোগকে ভুলে যাচ্ছি না। বরং, এই রোগটাকে মেনে নিয়েই জীবনে কিভাবে আরেকটু ভালো থাকা যায়, সেটার চেষ্টা করে যাচ্ছি।

জীবনে, যা-ই ঘটুক না কেন, আমি মনে করি, আমি আমার চারপাশের পরিবেশের জন্যে কিছু একটা করতে পারবো। সেই ক্ষমতা আমার আছে।

আমার রোগের একটা চরম আঘাতে, আমাকে কয়েকবার একটি মানসিক হাস্পাতালে থাকতে হয়েছিলো। সেখান থেকে কখনো ছাড়া পাবো কি না তা নিয়ে সংশয়ের সৃষ্টিও হয়েছিলো। এতোটাই ভয়াবহ ছিলো অবস্থা।

সেই নির্জনে থাকা অবস্থাই একদিন ভাবোদয় হয়- এভাবেই কি জীবন চলবে? মানুষের জন্যে কিছু না করেই কি আস্তে আস্তে নিজের জীবন নিঃশেষ হয়ে যাবে? সব সময়ই তো মানুষের ভালো দিন হতে পারে না। মাঝে মাঝে তো খারাপ দিনের সম্মুখীন হতেই হয়!

এই চিন্তাটাই আমাকে আজ এই অবস্থায় নিয়ে এসেছে। জীবনে কিছু করতে হলে সাহসী হতে হয়। জীবন যুদ্ধে পলায়ন করা বীরদের সাজে না। আর, আমি জানি, আমি একজন বীর যোদ্ধা। তাই, আমাকে সব সময় পজিটিভ থাকতে হবে।

আমার মনে দৃঢ় বিশ্বাস, আপনারা যারা কষ্টে আছেন, তাঁরা আশাহত হবেন না। জীবনে সাফল্য লাভ করতে আপনাদের প্রয়োজন নিজের প্রতি একটু মনোযোগ। ব্যস! বাকি পথ নিজেরাই খুঁজে পাবেন।







মন্তব্য ৫৭ টি রেটিং +৮/-০

মন্তব্য (৫৭) মন্তব্য লিখুন

১| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:০৬

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি কঠিন এক সমস্যাকে জয় করে কন্ট্রোলে রেখেছেন, আপনি সত্যই একজন শক্তিশালী মনোভাবের মানুষ।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:৪৬

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

ধন্যবাদ। প্রতিটি মানুষকেই জীবনে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। সেটা বড় হোক কি ছোট, আমাদেরকে সেই সমস্যা সমাধান করেই সামনে এগিয়ে যেতে হবে।

২| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:১৮

মোহাম্মদ গোফরান বলেছেন: রাজীব নুর ভাই পুরনো এবং নিয়মিত ব্লগার।উনাকে আরেক বার সুযোগ দেয়া যেতে পারে। উনি চলে গেলে আমরা যে মিস করবনা তা কিন্তু সত্য নয়।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:৫১

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

এই ব্যাপারটা ব্লগের মডারেটর টিমের হাতে। ব্লগের নির্দেশনাগুলো না ভাঙলে কারো বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয় না বলেই জানি।

আসল কথা হচ্ছে, জেনারেল থাকাবস্থায়ও কিভাবে জীবনকে উপভোগ করা যায় তা আমাদের শিখতে হবে। ব্লগার রাজীব নূর থেকে পাঠকরা আশা পায়। তাই, তাঁকেই পথ দেখাতে হবে।

আমি জানি, জেনারেল থাকাবস্থায় কেউই ভালো থাকেন না। ব্লগার রাজীব নূরকে পজিটিভ থাকতে হবে।

ধন্যবাদ।

৩| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:১৮

কাছের-মানুষ বলেছেন: রোগকে মেনে নিয়ে চলা অনেক বড় ব্যাপার। আপনার প্রতি শুভকামনা রইল।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:৫২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

রোগকে সাথে নিয়ে নিজের মানসিকতাঁকে পজিটিভ রাখতে হবে।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৪| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:২৫

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: অসাধারণ এক জন মানুষ।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:৫৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

আমারও তা-ই মনে হয়।

ভালো থাকুন নিরন্তর।

৫| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:০২

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: শুভকামনা আপনার জন্য ।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:৪২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

অনেক ধন্যবাদ, সেলিম আনোয়ার ভাই।

ভালো থাকুন নিরন্তর।

৬| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:০৩

নেওয়াজ আলি বলেছেন: আপনার সুন্দর জীবন কামনা করি। সাহস এবং ধৈর্য্য জীবনকে ভালো করে

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:৪৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

সাহসী মানুষরাই অন্যকে সাহস দেয়।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৭| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:২৪

সাহাদাত উদরাজী বলেছেন: পক্ষে বিপক্ষে যাবার দরকার নেই, আমরা সবাই ব্লগার, এটাই পরিচয়।
এখনো দেখুন। আশা করছি সবাই বুঝতে পারবে।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:৪৪

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

দূর্দিনে আমাদের পজিটিভ থাকতে হবে।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৮| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:৫৯

রাজীব নুর বলেছেন: সিজোফ্রেনিয়া মানসিক রোগ।
বাংলাদেশের প্রতিটা মানূষের কোনো না কোনো মানসিক রোগ আছেই।
আপনি এই রোগ থেকে পুরোপুরি মুক্তি পান এটাই কামনা করি।

আচ্ছা, আপনার কি হ্যালুসিনেশন হয়?

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:১৫

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

নিজের অভিজ্ঞতা থেকেই মানুষ শিক্ষা পায়। সেই অভিজ্ঞতা- ভালো কিংবা মন্দ যেটাই হোক না কেন!

আমার হ্যালুসিনেশন হতো।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

৯| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:২৩

আমি সাজিদ বলেছেন: শুভকামনা নিরন্তর। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১১:০৮

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

আপনাদের শুভকামনাই আমাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

১০| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:৪৪

বিপ্লব০০৭ বলেছেন: আপনার সিজোফ্রেনিয়ার কোন টাইপ আছে? কমন সিজোফ্রেনিয়া নাকি বিশেষ কোন একটা টাইপের সিজোফ্রেনিয়া? আর এই রোগের জন্য কোন ধরনের চিকিৎসা নিচ্ছেন?

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১১:১১

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

আমি তো এতো গবেষনা করিনি! শুধু জানি যে, আমার হ্যালুসিনেশন হতো! আর, কিছু কিছু কোন জিনিস আমি আগে থেকে বুঝতে পারতাম। এখন অবশ্য বুঝি না।

এটা কোন টাইপ?

চিকিৎসাটা একজন মানসিক ডাক্তারের কাছে নিচ্ছি।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

১১| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১১:২২

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া সিজোফ্রেনিয়ার মানুষেরা একসময় হয়ত বুঝতে পারেনা তাদের সিম্পটমগুলো যা আশে পাশের মানুষ বুঝে এবং একবার যদি বুঝিয়ে দেয় তখন তার নিজের চিকিৎসক সে নিজেই হতে পারে। সেল্ফ ইম্পরুভমেন্টের উপরে আর কিছুই নেই আসলে.....

এমনটাই মনে হয়েছে আমার কাউকে কাউকে দেখে আজ তোমার কথা শুনেও মনে হলো।


অনেক অনেক ভালোবাসা ভাইয়া....

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১১:৪১

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

সেল্ফ ইম্পরুভমেন্টটা আসলে অনেক বড় কিছু। নিজেকেই নিজের চিকিৎসা করতে হবে।

আর, রোগ হলে তা নিজের মেনে নেওয়াটা খুব জরুরী। আসল ইম্পরুভমেন্টটা ওখানেই!

কোন মানুষই রোগ-শোকের উর্ধে নয়। কিন্তু, সেই রোগকেই যদি অন্য মানুষের শিক্ষার জন্যে, সমাজের ভালো'র জন্যে কেউ ব্যবহার করতে পারে, তা থেকে বড় কিছু আর কি হতে পারে?

ধন্যবাদ নিরন্তর, আপু।

১২| ১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১২:৩৭

করুণাধারা বলেছেন: আপনি যখন বুঝতে পেরেছেন আপনার সমস্যাটা কী, আশাকরি সমাধানও করতেপাবেন। প্রার্থনা করি।


মনে পড়ল, কয়মাস আগে আপনি মানসিক হাসপাতাল নিয়ে চমৎকার এক সিরিজ লিখে মাঝপথে থামিয়ে দিয়েছিলেন!!

শুভকামনা রইল।

১১ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:৪৭

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:
সিঝোফ্রেনিয়া রোগটি সারা জীবন থেকে যায়।

আসলে, এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার চেয়ে এই রোগ সাথে নিয়ে কিভাবে ভালো ভাবে বেঁচে থাকা যায় সেটাই আসল বিষয়। সেই চেষ্টাই করে যেতে হবে।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

১৩| ১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১২:৪২

বিপ্লব০০৭ বলেছেন: গবেষণা করার প্রয়োজন নাই। একজন সিজোফ্রেনিয়াক হিসেবে আপনি যে অভিজ্ঞতা লাভ করেছেন ডাক্তারি দৃষ্টিকোন থেকে খুবই মূল্যবান। সিজোফ্রেনিয়া মানেই রিয়েলিটিকে বিকৃতভাবে দেখা। সেইটা হ্যালুসিনেশন বা যেকোন ধরনের অলৌকিক এক্সপেরিয়েন্স হইতে পারে। সেজন্য জানতে চাচ্ছিলাম আপনার এক্সপেরিয়েন্সটা কেমন? আপনার কি ভিজুয়াল হ্যালুসিনেশন হইতো নাকি অডিটরি হ্যালুসিনেশন হইতো, নাকি দু'টাই হইতো? এখন কি আগের থেকে ইমপ্রুভ করেছেন?

১১ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:৫৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

ভিজুয়াল হ্যালুসিনেশন মানে যদি সুস্থ্য মানুষদের চোখে অদৃশ্য জিনিস কেউ যদি দেখতে পায় সেতা বুঝায়, তাহলে আমার ভিজুয়াল হ্যালুসিনেশন হতো। আমি অশরীরী শব্দও শুনতে পেতাম।

এখন অবশ্য শুনতে পাই না।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

১৪| ১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১:৪৪

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
কঠিন মনোবলের মানুষ আপনি।
আশা করি সকল বিপর্যয় কা্টিয়ে
উঠতে পারবেন। আপনার মঙ্গল
কামনা করছি।

১১ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:৫৪

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

কঠিন মনোবলের জন্যে কঠিন পরিশ্রম করতে হয়। এগুলো নিয়েই জীবন।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

১৫| ১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১:৫৭

কালো যাদুকর বলেছেন: আপনার সুস্থতা কামনা করছি। আপনি একজন অসাধারণ মানুষ। আপনি একদিন পুরোপুরি ভাল হবেন ইনশাআল্লাহ।

১১ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১:০০

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

পুরোপুরি ভালো হওয়ার আশা নেই। কারণ, সিঝোফ্রেনিয়া রোগীদের সারা জীবন এই রোগ নিয়ে চলতে হয়।

কিন্তু, এই রোগের সমস্যাগুলো নিয়ে জীবন চালিয়ে যেতে হবে। এটাই আমার শিক্ষা।

অকুন্ঠ প্রশংসা করার জন্যে অনেক ধন্যবাদ।

ভালো থাকুন নিরন্তর।

১৬| ১১ ই জুন, ২০২০ ভোর ৪:১৭

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: আমি বিষয়টি নিয়ে স্টাডি করেছি কিন্তু মাথায় ঢুকেনা আসলে এটা কি ?

আল্লাহ্‌ আপনাকে ভালো রাখুন ।

১১ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১:০৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

এই রোগটা কিভাবে হয় তা আমার জানা নেই।

তবে, আমার অডিও-ভিজুয়াল সমস্যা আছে। মানে, অস্বাভাবিক জিনিস আমি দেখতে ও শুনতে পেতাম। বই পড়তেও সমস্যা হতো।

অনেক ধন্যবাদ।

ভালো থাকুন নিরন্তর।

১৭| ১১ ই জুন, ২০২০ সকাল ৯:৪৬

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
রোগকে জয় করতে পারা মানে জীবনকে সহজ করে বেঁচে থাকার আনন্দ।

ভাল থাকুন, সুস্থ্য থাকুন।

১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:০০

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

সত্যিই তা-ই। জীবন সম্পর্কে আমাদেরকে সহজ করে ভাবতে হবে। তাহলেই, জীবন আমাদের হাতে ধরা দেবে তার পূর্ণ রুপ নিয়ে।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

১৮| ১১ ই জুন, ২০২০ সকাল ১০:৫৭

নতুন বলেছেন: আপনি সেল্ফ মটিভেটেট মানুষ, আপনি ভালো থাকতে পারবেন।

ডাক্তারের পরামশ` অনুযায়ী চলুন।

নিজেকে নতুন ভাবনায় ব্যস্ত রাখুন। ভালো হয়ে যাবেন।

১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:০২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

অনেক ধন্যবাদ। সেলফ কন্ট্রোলটা আগে ছিলো না।

এখন আমি অনেক পরিণত।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

১৯| ১১ ই জুন, ২০২০ সকাল ১১:৪৬

রাজীব নুর বলেছেন: আপনার জীবন হোক আনন্দময়।

১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:০৪

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

অনেক ধন্যবাদ।

আমরা মানুষ। তাই, ভুল করবোই। কিন্তু, যে একই ভুল বার বার করে, সে ভালো লোক নয়। আমাদের সাবধান থাকতে হবে।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

২০| ১১ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১২:৫৪

নতুন নকিব বলেছেন:



আপনার পরিপূর্ণ সুস্থতা কামনা করছি। জীবন আনন্দময় হোক। মনোবল নিয়ে এগিয়ে যান ইনশাআল্লাহ।

১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:০৫

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

এই রোগ পুরোপুরি সারে না। সারা জীবন এটা নিয়ে চলতে হবে।

তবে, আমি এটা নিয়ে খুব একটা চিন্তিত নই। আমার বন্ধু আমি নিজেই। :)

ধন্যবাদ নিরন্তর।

২১| ১১ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১:৩৫

ইসিয়াক বলেছেন: আপনার প্রতি শুভকামনা রইল ভাইয়া।

১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:০৭

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:
অনেক অনেএএক অনেএএএএএএএএএএক ধন্যবাদ।

ভালো থাকুন নিরন্তর।

২২| ১১ ই জুন, ২০২০ দুপুর ২:০২

অগ্নিবেশ বলেছেন: ভালো, আপনার একটা সুন্দর নামের রোগ হইছে, বুক ফুলাইয়ে বলছেন, খুব ভালো হইছে। ফোড়া, ঘামাচি, আমাশা, পাতলা পায়খানা এইসব হইলে দুইখান কথা ছিল।

১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:০৮

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:


হা হা হা!!!!!!!! ভালো বলেছেন।

আসলে, আমার রোগটা বেশ মজার!

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

২৩| ১১ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:০৬

পদ্ম পুকুর বলেছেন: রাজীব নুরের জন্য শক্তিশালী বার্তা।
আর আপনাকে অভিনন্দন। জীবনে যারা নিজের গণ্ডীটাকে ঠিকমত চিনতে পারে, তারাই সত্যিকার বিজয়ী।

১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:১২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

আসলে, যারা নিজেদের কমফোর্ট জোন থেকে নিজেকে বের করে পেনিক জোন পা্র করতে পারেন, তাঁরাই জয়ী।

আমি আমার সম্মান হারানোর ভয়ে অনেক কিছু বলতে বা করতে পারতাম না। আজকে আপনাদের সাথে আমার জীবনের সবচেয়ে গোপন কথাটি শেয়ার করে আনন্দ পাচ্ছি।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

২৪| ১১ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৫:৫৯

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: আপনার বি্সময়কর বাস্তব অভিজ্ঞতা সত্যি অনন্য, চিকিৎসা বিজ্ঞানের জন্য উদাহরণ ।

আপনার মানসিক দৃঢ়তা এবং সার্ভাইবাল স্পিরিটের জন্য অভিনন্দন।
আপনার জন্যে সুখবর হলো রাজিবনুর ভায়া অলরেডি সেফ ষ্ট্যটাস পেয়ে গেছেন :)

সূখি হোন, সূখে থাকুন সদা।

১১ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:১৫

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

ব্লগার রাজীব নূরকে অনেক অনেক অভিনন্দন। ব্লগের মডারেটরদের ধন্যবাদ। আর আপনাকে শুভেচ্ছা।

জীবনের ভীতিকর অভিজ্ঞতাগুলোকে পাশ কাটিয়ে নিজেকে অন্য স্তরে নিয়ে যেতে অনেক জোর মনোবলের দরকার হয়। আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

২৫| ১১ ই জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৩

বিপ্লব০০৭ বলেছেন: ভাই, আপনার সাথে মেইলে যোগাযোগ করা যাবে? আমি শিজোফ্রেনিয়া বলা চলে এক প্রকার কাজ করছি এবং আমার অভিজ্ঞতা আপনার সাথে শেয়ার করতে চাই। আপনি বলছেন রোগটা কিভাবে হয় আপ্নার জানা নেই। মেইনলি দু'ভাবে হয়। বংশগত কারণে প্রাপ্ত জিনের বৈশিষ্ট্যের কারণে অথবা ড্রাগ-অ্যাবিউজের কারণে আপনি এমন অনেক কিছু দেখতে পাবেন যা অন্যেরা দেখতে বা শুনতে পাবে না। শিজোফ্রেনিয়া যাদের হয় তারা আসলে 'বাস্তব'-কে বিকৃত বা ডিসটর্টেড আকারে দেখে। কিন্তু মজার ব্যাপার হল, প্রকৃত বাস্তবতা আসলে কি-- আপনি যদি এই প্রশ্ন করেন, তাহলে শিজোফ্রেনিয়া কোন রোগ না হয়ে বরং মানুষের জ্ঞানলাভের একটা সম্ভাবনা হতে পারে। আমি বলতে পারেন অডিওটার ব্যাপারে অনেক জ্ঞানলাভ করেছি, বাট ভিজুয়ালটার ব্যাপারে এখনো তেমন বেশি কিছু বুঝতে পারিনি। যাই হোক, আপনার সাথে মেইলে যোগাযোগ করতে পারলে বিস্তারিত কথা বলতে পারতাম। আপনাকে দেখে আমার অবাক লাগছে যে আপনি আপনার অসুস্থ্যতা অনেকটাই কাটিয়ে উঠেছেন। একসময় যে সকল অডিও নিজের কানে শুনে নিশ্চিত ছিলেন না ঘটনা কি হচ্ছে সেটাকেই এখন দৃড়ভাবে অডিটরি হ্যালুসিনেশন বলতে পারছেন।

১৩ ই জুন, ২০২০ দুপুর ২:২৮

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:


ঠিক আছে। আমি যোগাযোগ করবো আপনার সাথে। আপনার পরিচয়সহ কন্টাক্ট ডিটেইলসটা দিন, প্লিজ।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

২৬| ১২ ই জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১৯

রাকু হাসান বলেছেন:


আপনার অভিজ্ঞতা মূলক লেখাটি গত কালকেউ পড়েছিলাম। ধন্যবাদ ধন্যবাদ । এ বিষয়ে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করা দরকার বলে আমি মনে করি জনস্বার্থে। কেননা এই পোস্টে দেখবেন অনেক পাঠক আসবে। তারা আপনার লেখা পড়ে সাহস পাবে। তাই আমি দাবি রাখছি এ বিষয়ে আরও লেখার । প্রকৃতিকে মেনে নেওয়ার নীতিই আপনাকে এখন পর্যন্ত ভালো রেখেছে। বিদ্রোহ করলে হয়তো এখন পর্যন্ত অবস্থা আরও ভয়াবহ হতে পারত। আবারও ধন্যবাদ এবং অনুরোধ টুকু রাখছি।

১৩ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৫:০২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

আমি সব সময়ই মনে করি, রোগ-শোক একটি পরীক্ষা।

আমি হয়তো এই পরীক্ষায় পাশ করে গিয়েছি।

আমি অবশ্যই আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করবো।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

২৭| ১৩ ই জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৪

বিপ্লব০০৭ বলেছেন: পরিচয়সহ কন্ট্যাক্ট ডিটেইলস- এগুলা কমেন্টে দেওয়াটা ভালো দেখাবে না। মেইলে যোগাযোগ করতে পারেন যেহেতু এটা আমার কাছে সবচেয়ে নিরাপদ মনে হয়: [email protected]।" target="_blank" >http://[email protected]

১৪ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৪:৩৪

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

আপনার ইমেইল আইডিতে ভুল আছে।

তাছাড়া, ব্যক্তিগত তথ্য আদান-প্রদান করা মনে হয় ঠিক হচ্ছে না। ব্লগীয় নীতিমালা লংঘিত হচ্ছে কি?

আপনি বরং সামহোয়্যার ইনের ফিডব্যাক ইমেইলে যোগাযোগ করুন।

আমি অনুমতি দিয়ে দিচ্ছি। ব্লগ কর্তৃপক্ষ আপনাকে আমার ইমেইল আই,ডি পাঠিয়ে দিবেন।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

২৮| ১৪ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৫:১১

বিপ্লব০০৭ বলেছেন: ব্যক্তিগত তথ্য আদান-প্রদান করাটা খুবই সেনসিটিভ বিষয়। সেজন্যই তো আপনি যখন পরিচয়সহ কন্ট্যাক্ট ডিটেইলস চাইলেন তখন আমি শুধু কমেন্টে মেইলটা দিতে চেয়েছি। যদিও সামুতে আমি দেখেছি অনেকেই সেল নাম্বারসহ মেইল দেয়, বাট এইটা উচিৎ কিনা জানিনা। মেইল দেওয়া যেতে পারে। আমার ব্লগে গেলেও দেখবেন ওইখানে পরিচয়ের জায়গায় মেইল আইডি আছে। আর আইডিতে কোন ভুল নেই। ডাব্লিউডাব্লিউডাব্লিউডটবিপ্লবএটাদারেইটটুজিমেইলডটকম। ইংরেজিতেও ঠিক এভাবে লিখতে হবে আমাকে মেইল পাঠানোর জন্য। সামুর ফিডব্যাক ইমেলের অপশন যে আছে জানা ছিলো না। ঠিক আছে দেখছি...।

১৪ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:১৪

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:


সামু'র ফিডব্যাক ইমেইল থেকে যে কোন গুরুত্বপূর্ণ ইমেইলের জবাব দেওয়া হয়।

এই সেই ইমেইল এড্রেস- [email protected]

আসলে, লেখা-লেখির অতীত অভিজ্ঞতা থেকে দেখা যায়, অনেক সন্ত্রাসী ব্লগ প্ল্যাটফর্মকে ব্যবহার করতে পারে। ব্যক্তিগত পরিচয় তাই না লুকানোই ভালো। আপনি এতে ভালো ব্লগার হয়ে উঠতে পারবেন।

সামুতে আমার মতো অনেকেই নিজ নামে ব্লগিং করেন। যারা নিজের পরিচয় লুকান, তাঁরা আসলে ব্লগিং বুঝেন না। আপনি একজন নামকরা ব্লগারকে পাবেন না যারা নিজের আসল পরিচয় লুকিয়য়েছেন।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.