নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার পুরো নাম শাইয়্যান মোহাম্মদ ফাছিহ-উল ইসলাম। অন্যদের সেভাবেই দেখি, নিজেকে যেভাবে দেখতে চাই। যারা জীবনকে উপভোগ করতে চান, আমি তাঁদের একজন। সহজ-সরল চিন্তা-ভাবনা করার চেষ্টা করি। আর, খুব ভালো আইডিয়া দিতে পারি।

সত্যপথিক শাইয়্যান

আমি লেখালিখি করি, মনের মাধুরী মিশিয়ে

সত্যপথিক শাইয়্যান › বিস্তারিত পোস্টঃ

আমার ব্যবসাটি পুঁজিবাদী কোন সংস্থা নয়

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ দুপুর ১:১২



লাল কোর্তাধারী কেউ একজন সম্প্রতি আমার একটি পোস্টে মন্তব্য করেছিলেন যে, আমার ব্যবসা থেকে পাওয়া লভ্যাংশ যেন আমি কোন সামাজিক কর্মকান্ডে ব্যয় না করি। বরং, সেটি যেন পূনরায় আমার ব্যবসাতেই বিনিয়োগ করি। একটু চিন্তা করলাম। লোভ মানুষকে ধ্বংস করে। আর, সম্পদ যত নিজের কাছে থাকবে, তা ততো লোভের সৃষ্টি করবে। তাই, নিজের ব্যবসায় লাভের টাকা ফিরিয়ে নেওয়া মানে লোভের কাছেই ধরা দেওয়া, পুঁজিবাদের দিকেই এগিয়ে যাওয়া।

সমাজ চিন্তাবীদ সৈয়দ মবনু'র মতে, পুঁজিবাদীদের মধ্যে আমরা প্রধানত চারটি বৈশিষ্ট্য দেখতে পাই-

১) ব্যক্তির সম্পত্তিতে স্বত্বাধিকারী ব্যতীত অন্য কারো কোন অধিকার নেই।
২) অর্থোপার্জনের যে কোন পথ বা পন্থা সেই ব্যক্তি অবলম্বোন করে।
৩) সম্পদের মালিক যেখানে ইচ্ছে সেখানে সম্পদ খরচ করে।
৪) জনসাধারণের স্বার্থকে উপেক্ষা করে একজন যত ইচ্ছে তত সম্পদ সঞ্চয় করতে পারে।


পুঁজিবাদীদের কবলে পড়ে দেশের অবস্থা খুব একটা ভালো অবস্থায় নেই। শহরাঞ্চল থেকে ছটিয়ে পুজিবাদীদের সংস্থাগুলো আজ গ্রামের দরিদ্র মানুষদের হাস-মুরগী, ডিম, গরু এমনকি বৌ-ঝিদের ইজ্জতের দিকে হাত বাড়াচ্ছে। পুঁজিবাদীদের অর্থ সমাজের উচ্চ শ্রেণীদের মুখ বন্ধ করে দিয়েছে। সবাই এখন ইয়া নফসি, ইয়া নফসি অবস্থা।

পুঁজিবাদীদের চরম শত্রু মার্ক্সবাদীরাও আজ মুখ বন্ধ করে বসে আছেন। জনগণের নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের উর্ধ্মূল্যের মধ্যে গুদামজাতকারী কালোবাজারীদের উৎপাতের দিক থেকে মুখ অন্য দিকে ফিরিয়ে নিয়েছেন। ঋণের ভারে জর্জরিত মানুষের স্বার্থ রক্ষা আর তাঁদের দিয়ে হয় না।

১৯৭১ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত, আমাদের বৈদেশিক ঋণ ছিলো প্রায় ২১২৫ বিলিয়ন টাকা। সরকার তার উন্নয়ন প্রকল্পের জন্যে আরো ৭০,৫০২ কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার চিন্তা করছেন। ঋণ নিয়ে দেশের উন্নয়ন হচ্ছে, ঠিক আছে। কিন্তু, দেশের মানুষের মানসিকতার উন্নয়ন হচ্ছে কি? হেফাজতের তান্ডব দেখে তা মনে হচ্ছে না।

দাতা সংস্থাগুলো ঋণের বোঝা চাপিয়ে কিভাবে একটি দেশকে পরনির্ভরশীল করে তোলে, সেটার একটি প্রমাণ পাওয়া যায় মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা 'এন,এস,এ'-এর সাবেক এজেন্ট জন পার্কিন্সের লেখা একটি বই থেকে। সেই বইতে তিনি চাকুরীকালীন নিজের দায়িত্ব সম্পর্কে লিখতে গিয়ে বলেছিলেন-

প্রথমত বিশাল অংকের আন্তর্জাতিক ঋণ প্রদানকে ন্যায়সঙ্গত করার ব্যাপারে আমাকে কাজ করতে হবে...। দ্বিতীয়ত, সেই ঋণ নেওয়া দেশটিকে কিভাবে দেউলিয়া করা যায় আমাকে সেটা নিশ্চিত করতে হবে যাতে সেই দেশটি দাতা দেশগুলোর কাছে চিরতরে বাধা পড়ে। এতে করে যখন সামরিক ঘাটি স্থাপনে তাদের ভূমি, জাতিসংঘে ভোট দান কিংবা তাদের প্রাকৃতিক সম্পদ আমাদের কাছে দরকার পড়বে, তখন তারা আমাদের সহজ শিকারে পরিণত হবে।

তিনি আরো লিখেছেন-

আমার মতো মানুষদের কাজের ফলে ইকুয়েডরের মতো একটি দেশের দারিদ্র সূচক ৫০ থেক ৭০ শতাংশে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। বেকারত্ব বা অর্ধ-বেকারত্ব ১৫ শতাংশ থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭০ শতাংশে। দেশের ঋণের পরিমাণ ২৪ কোটি ডলার থেকে বেরে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার কোটি ডলারে। দেশের জাতীয় সম্পদের মাত্র ৬ শতাংশ ব্যয় হয় দরিদ্র জনগণের জন্যে, যা আগে ছিলো ২০ শতাংশ।

নিজের ব্যবসার লভ্যাংশ আবার নিজের ব্যবসাতেই ফিরিয়ে নেওয়া আমাকে পুঁজিবাদী হিসেবে প্রতিষ্ঠা করারই নামান্তর। যদিও, আমি যে সম্পদ অর্জন করি বা করছি, সেটার সিংহভাগই মানুষের কল্ল্যাণে নিয়োজিত ব্যক্তিদের প্রকল্পে দানের জন্যে। আমার প্রতিষ্ঠান কখনোই পুঁজিবাদী ধ্যান-ধারণায় দূষিত হবে না।







মন্তব্য ২০ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (২০) মন্তব্য লিখুন

১| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ দুপুর ২:৪৩

সৈয়দ মোজাদ্দাদ আল হাসানাত বলেছেন: সুন্দর বলেছেন । ভালো লাগলো কথা গুলো।

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৩:০৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:


ভালো লাগায় শুভেচ্ছা।

প্লাসের জন্যে ধন্যবাদ নিরন্তর।

২| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ দুপুর ২:৫৩

ফেরদাউস আল আমিন বলেছেন: শুধু হেফাযত এর তান্ডব দেখলেন; সরকারী প্রায় কোন দপ্তরে কোন কিছুর জন্য আবেদন করলে, "খোঁজ - খবর" না নেয়া হলে ঐ আবেদনের কোন গুরুত্বই থাকেনা, তা জনেন কি??

"খোঁজ - খবর" কেন বললাম আশা করি অনুধাবন করেছেন

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:০৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:


আমার হয়তো খোঁজ-খবর নেওয়ার প্রয়োজন নেই।

তারপরও, এই সম্পর্কে আপনার সংজ্ঞাটি জানতে ইচ্ছে করছে।

ধন্যবাদ।

৩| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৩:৫০

জুল ভার্ন বলেছেন: ভালো লাগলো।

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:০৪

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:



মন্তব্যের করে ভালো লাগা জানানোর জন্যে ধন্যবাদ নিরন্তর।

৪| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৪:২৬

রাজীব নুর বলেছেন: আপনি কি হাজী মোহাম্মদ মহসিন হতে চান?

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:০৫

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:


আমি তাঁর নাম শুনেছি। কর্ম-কান্ড সম্পর্কে খুব একটা জানি না।

আপনি হাজি সাহেবকে নিয়ে লিখলে ব্লগ উপকৃত হতো।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৫| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৫:০৮

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনার কিছু কিছু লেখায় দরকারী তথ্য থাকে; তবে, ৯০ ভাগ লেখা আজগুবি। ফাইন্যন্সিয়েলী আপনি ভালো করছেন, এটা ভালো; কিন্তু আপনার আজগুবি চিন্তাভাবনাগুলো আপনার জন্য ক্ষতিকর হতে পারে; আপনি সন্চয় করুন।

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:০৬

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:



সায়েন্স ফিকশন আমার খুব পছন্দের বিষয়।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৬| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৫:১০

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: এই সত্যটাকেই পূজিবাদী সমাজ লুকিয়ে রাখতে ব্যবহার করে মিডিয়া!

মানুষের মন মগজ ধোলাই করে জীবনের লক্ষ্য উদ্দেশ্য বদলে দেয়- চুলে, রংফর্সা করার ক্রীমে অথবা
চমকদার, চটকদার কোন ইভেন্ট দিয়ে!

ভোগ আর পূজি আবার পিঠাপিঠি! একে অন্যের পরিফূরক।
তাই ভোগের কাঁধে ভর দিয়ে পূজি দৌড়ায় নিত্য।

ধর্মকেও আজ পূজির গ্যাড়াকলে বেশ ফাসিয়ে নিয়েছে। দারুন দারুন স্থাপত্য আর কারুকর্যময় মসজিদেই ঝৌক বেশি
আয় হালাল না হারাম তা জিজ্ঞাসা করার সাহসও নেই ইমামদের। যারা প ্রশ্ন তোলে তাদের আবার লালসালু ফর্মূলায় ফাসিয়ে দেয়! তোমার দাড়ি কই মিয়া? প্রশ্নে!

আপনার সিদ্ধান্তে অভিনন্দন।

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:১০

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:



আমাকে একবার একজন বলেছিলেন। কোরআনে তো দাঁড়ি রাখার কথা বলা নাই। তাহলে, দাঁড়ি রাখার উপর এতো গুরুত্ব দেওয়া হয় কেন?

আমার উত্তর ছিলো এরকম- আসলে কোরআনের আয়াতগুলো সংকেতের মতো। কেউ ধরতে পারে, কেউ না পেরে ভুল পথে যায়।

কোরআনে দাঁড়ি রাখার কথা সংকেতে জানানো হয়েছে, ভাই। অনেকেই তা জানেন না।

আল্লাহ আমাদের পূজিবাদ থেকে দূরে রাখুন।

ধন্যবাদ নিরন্তর।

৭| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৫:২১

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি ক্যাপিটেলিজম বুঝেন বলে মনে হয় না; হয়তো, এই ব্যাপারে আপনার সাধারণ ধারণা আছে; আপনি কিন্তু সোস্যালিষ্ট মনের মানুষ নন; ধর্ম হচ্ছে সামন্তবাদের (খিলাফত ইত্যাদি) সাপোর্টার। যাক, আপনার পয়সাগুলো খরচ করার সময় ভেবেচিন্তে করবেন; আপনার আজগুবি ভাবনা ইত্যাদি যেন আপনার জীবনটাকে কষ্টকর করে না তোলে, সেটাই কাম্য।

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২১

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:



আমি আসলে ক্যাপিটেলিজম এবং কমিউনিজম সম্পর্কে ভালো করে জানি না।

বই পড়ে কি আর ধারণা পাওয়া যায়? একজন গুরু লাগে। আমার কোন গুরুই ক্যাপিটেলিজম বা কমিউনিজম প্র্যাকটিস করেন নাই। আর, আমি যে সব দেশে গিয়েছি, সেগুলোর কোনটিই এই দুটি ইজম ভালো করে প্র্যাকটিস করেনি।

তাই, আমার ধারণা নেই।

কষ্ট আমার জীবনের অংশ ছিলো। কষ্ট করেই এখানে পৌঁছেছি। তাই, সেটা নিয়ে চিন্তিত থাকি সব সময়, কখন না আবার সেই আগের জায়গায় ফিরে যেতে হয়!!! সেজন্যে, বিভিন্ন ফন্দি ফিকির বের করার চেষ্টা করি যাতে সেই জীবনে ফিরে যেতে না হয়।

আর, এই কারণেই, যারা কষ্টের মাঝে থাকে, তাঁদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করি।

আপনি সাধারণতঃ বড় কমেন্ট করেন না। আমার সৌভাগ্য, আপনি আমার এখানে সেরকম কমেন্ট করেছেন।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

৮| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৫৪

অধীতি বলেছেন: পুঁজিবাদ বা মার্কসবাদ কোনটাই উপযুক্ত নয় যদি না ব্যক্তি স্বাধীনতা ও সচেতনতা না থাকে। দেশে এনলাইটেনমেন্টের মত জাতিগড়ার একটা অভ্যুত্থান দরকার। একটা শিক্ষা ব্যবস্থাপনার উত্থান দরকার।

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২১

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:



ধর্মকে 'আফিম' হিসেবে নিতে কেন যেন দ্বিধা হয়।

এঙ্গেলস ধর্মকে ব্যক্তি স্বাধীন বলেছিলেন। ।

ধন্যবাদ

৯| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২১ দুপুর ১:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: হ্যা হাজী মোহাম্মদ মহসিনকে নিয়ে অবশ্যই লিখব।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২১ রাত ৯:৫৭

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:



এরকম একটি সিদ্ধান্তের জন্যে অনেক ধন্যবাদ।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

১০| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২১ দুপুর ২:৪২

রবিন.হুড বলেছেন: সুন্দর চিন্তা ভাবনা এবং সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তনে অগ্রণী ভূমিকা রাখার জন্য ধন্যবাদ।

১১| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৩:১৭

জগতারন বলেছেন:
রাজীব নুর বলেছেন: হ্যা হাজী মোহাম্মদ মহসিনকে নিয়ে অবশ্যই লিখব।

হ্যাঁ, লিখবেন।
আপনাকে প্রাথমিক (তার সমন্ধে) ধারনা দিয়ে রাখিঃ
হাজী মোহাম্মদ মহসিন জীবনে নিজে কষ্ট করে সৎভাবে কোন উপার্যন করেন নাই।
পরের ধনে পোদ্দাআরি করেছেন।
জীবনে বিয়েথা করেননি, স্ত্রী নেই, ছেলে-মেয়ে নেই।
একাকী জীবন যাপন করে পরে মক্কা গিয়ে হাজী হয়ে এসেছিলেন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.