নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

দেবতার ভাবনায় কখনো পাপ না থাকলেও, পাপীর ভাবনায় সবসময় দেবতা থাকে কেন?

শূন্য সারমর্ম

অক্সিজেনের মূল্য বুঝতে অক্সিজেনের সাহায্য নিতে হয়,সাথে কৃতজ্ঞতা জানাতে হয়।

শূন্য সারমর্ম › বিস্তারিত পোস্টঃ

সড়ক/ নৌ/ বিমান দূর্ঘটনায় আপনি কিছু হারিয়েছেন?

০১ লা জুন, ২০২২ দুপুর ১:৩৭




প্রতিদিন সড়কে মানুষের রক্ত পড়ে থাকে, তাজা প্রাণ বেড়িয়ে যায়।মোটামুটি পুরোপরিবার নিহত হয় প্রাইভেটকার,মাইক্রোবাসে ও অটোরিকশায় থাকলে ; একটি পরিবারের ছোট থেকে বড় সবাই কথা বলা বন্ধ করে দেয়, আশেপাশের মানুষ স্তব্ধ হয়ে যায়, একে অপরের দিকে তাকায়। কষ্ট পায় দাড়িয়ে থাকা মানুষগুলো? কিছু মানুষ গড়িযে পড়া রক্ত, বেড়িৃযে যাওয়া মগজে পিপড়ার হাটা সহ্য করতে পারে না। সড়কের লাশ বেওয়ারিশ হয় কতভাগ? সড়কে সংসদ সদস্য মৃত্যুহার কেমন? স্বজন হারিয়ে এই বাংলায় একমাত্র দুঃখী সম্ভবত নায়ক ইলিয়াস ; বাকিরা এই দুঃখী, এই সুখী।

নৌ দূর্ঘটনায় পানির জন্য নিশ্বাস নেয়া যায় না, হাসঁ ফাঁস করে মারা যায়,লাশ ফুলে ভেসে উঠে, মাছের খাবার হয়। এ যাবৎ কালের সবচেয়ে বড় নৌ দূর্ঘটনা কোনটা? আপনি হয়তো একটা ড্রোন কিনে নদী পাড় গেলেন, খুব ভালোর ছবি আসলো, সুন্দর ক্যাপশন দিয়ে আপলোড দিলেন।কিন্তু সেই ছবির ভীড়ে ছোট ছোট নৌকা,লন্চ আজীবন ফিটনেসহীনতা ভুগছে , কাল তাজা প্রাণ ভোজ করবে, সেইটা আপনি জানেন না।

বিমানে সম্ভবত উড়াতে থাকতেই টের পাওয়া যায়, অর্ধেক মারা যায় খবর শুনেই,সেই সময় মানুষের ধর্মীয় আবহ বিমানে কেমন বিরাজ করে? প্যারাসুট দিয়ে জাম্প দিয়ে বেঁচে ফিরে সেই অনুভুতি জানিয়েছিলো কেউ আপনাকে? সড়ক,নৌ-তে ঝামেলা থাকলে মানুষ জেনেও উঠে তবে বিমানে জানার তেমন সুযোগ নেই ; উঠে বসো,সিটবেল্ট বাধো,ক্রাশ করার আগে আল্লাহ, আল্লাহ করো। বাংলাদেশের বিমান নিখোজ হবার সুযোগ আছে কখনো? চলুন বিমান নয় বিমান বন্দর নিখোজ করে দেই, যা অব্যবস্থাপনা।

মন্তব্য ১৪ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (১৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০১ লা জুন, ২০২২ দুপুর ১:৪৬

ঋণাত্মক শূণ্য বলেছেন: করোনার ঠিক আগের কথা। আমার কলিগ, খৃষ্টান মেয়ে, সে হাইল (সৌদী আরবের একটি শহর) যাচ্ছিলো বিমানে। হঠাৎই বিমান এমন ঝাকাঝাকি শুরু করলো, সবাই আল্লাহকে ডাকছিলো।

পরে তার বক্তব্য ছিলো যে আর কয়েকটা ঝাকি দিলে হয়ত আমি কলমা পড়ে মুসলিমই হয়ে যেতাম!

০১ লা জুন, ২০২২ দুপুর ১:৫১

শূন্য সারমর্ম বলেছেন:

বিমানে সব মুসলিম হলে উনি কেন যীশু যীশু করবে,যীশু এসে এত আল্লাহর ভীড়ে রক্ষা করতে পারবে?

২| ০১ লা জুন, ২০২২ দুপুর ২:০৭

মোহাম্মদ গোফরান বলেছেন: যখন যোগ্যরা ঘৃণায় মুখ ফিরয়ে চলে যায় তখন দেশের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার জন্য অযোগ্যদের মন্ত্রী বানাতে হয়।

০১ লা জুন, ২০২২ দুপুর ২:৪০

শূন্য সারমর্ম বলেছেন:

অযোগ্যরা দেশকে ভাগাড় বানিয়ে সভ্য দেশে পাড়ি দিবে আনন্দে।

৩| ০১ লা জুন, ২০২২ বিকাল ৪:২৪

সৈয়দ মশিউর রহমান বলেছেন: না। এরকম পরিস্থিতির মুখোমুখী হয়নি কখনো।

০১ লা জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৪৯

শূন্য সারমর্ম বলেছেন:

সামনে যে পড়বেন না উহার গ্যারান্টি নেই।

৪| ০১ লা জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:১০

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: বিমান দূর্ঘটনায় পরিনি।
সড়ক ও নৌ দূর্ঘটনায় পরতে পরতে বেঁচে গেছি।

০১ লা জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৪৯

শূন্য সারমর্ম বলেছেন:

ভয় পেয়েছিলেন খুব?

৫| ০১ লা জুন, ২০২২ রাত ৮:৪৩

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: নৌ দূর্ঘটনায় ভয় পাইনি।
সড়কে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলাম।

০১ লা জুন, ২০২২ রাত ১০:৫৮

শূন্য সারমর্ম বলেছেন:

আমার এখন পর্যন্ত স্তব্ধ হওয়ার মত সিচুয়েশন আসেনি।

৬| ০১ লা জুন, ২০২২ রাত ১১:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: সড়ক ও নৌ পথে দূর্ঘটনায় পড়েছি। মরতে মরতে বেঁচে গেছি। সেসব নিয়ে একদিন সামুতে অবশ্যই লিখব।

০২ রা জুন, ২০২২ রাত ১:৫০

শূন্য সারমর্ম বলেছেন:

জি, লিখুন আমরাও পড়ি।

৭| ০২ রা জুন, ২০২২ সকাল ১০:৫৩

জুল ভার্ন বলেছেন: আল্লাহর রহমতে তেমন কোনো বড়ো দূর্ঘটনায় পরিনি।

০২ রা জুন, ২০২২ দুপুর ১:৪১

শূন্য সারমর্ম বলেছেন:

আপনার সেল দূর্ঘটনায় পড়েছে, অনেক মানুষ জড়ো হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.