নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

বাধা বিঘ্ন না পেরিয়ে বড় হয়েছে কে কবে?

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

বৃষ্টিস্নান বনাম বৃষ্টিম্লান

১৭ ই মে, ২০১৯ রাত ১০:৫৯

আগে পুরনো টিনের ঘরে ছিলাম কালবৈশাখী আসলে আতংক এই বুঝি টিন উড়িয়ে নিয়ে যাবে!
.
তখন রবীন্দ্রনাথের বর্ষা না বরং বালের বর্ষা মনে হতো আমার কাছে,
.
টিনের ছিদ্র দিয়ে টুপটুপ পানিগুলো বিছানা ভিজিয়ে দিতো আমি এককোণে ঘুপটি মেরে শুয়ে থাকতাম!
.
ঘরের হাড়ি পাতিল সব জায়গা মতো বসিয়ে দিতাম!
.
তবুও তো আমার ঘর ছিলো! মাথা গুঁজার জায়গা ছিলো! সেটা নড়বড়ে হলেও দিব্যি চলে যেতো,
.
কিন্তু রোজ ফুটপাতে শুয়ে থাকা মানুষগুলোর বর্ষার অনুভূতি কখনো কেউ জানতে চাইনি! আমিও চাইবো না!
.
বস্তিতে ও বর্ষা আসে! সেগুলো কবিতা হয়ে ফুটে না! জীবন এক একজনের কাছে এক এক রকম!
.
যে মেয়েটি রোজ ফুল বিক্রী করে সে নাকে ফুলের গন্ধের চেয়ে টাকার গন্ধ বেশী লাভ করে,
.
যে পতিতাদের পেটে ক্ষুধা থাকে সে সেক্সের অনুভূতির চেয়ে বরং কখন কচকচে তিনশ টাকা পকেটে থেকে বের হবে সে আশায় চোখ বুজে থাকে,
.
বর্ষায় মাসের পর মাস ঘর বন্দী হয়ে থাকা মানুষগুলোর জীবনে প্রতি বছর সশ্রম কারাদন্ড ভাগ্যে লিখা থাকে!
.
তবুও যেসব শালার বলে টাকা পয়সা দিয়ে সুখ কিনা যায় না তারাও অসুখ হলে ডাক্তারের ভিজিটের ভয়ে পেট চেপে ধরে পড়ে থাকতে অভ্যস্ত!
.
টাকা থাকলে এটলিস্ট বর্ষায় ঘরের টিনতো পাল্টানো যায়,
.
দিন এনে দিনে খাওয়া প্রত্যেকটা মানুষ এক একটা ব্রেয়ার গ্রিলস্!
.
সে জানে কিভাবে এক টাকার শ্যাম্পু চুলের সাথে পুরো শরীরে মেখে দিব্যি গোসল সেরে এভাবেও ফ্রেশভাবে বেঁচে থাকা যায়,
.
খোদার কসম ভাই, আমার দেশের অধিকাংশ মানুষকে আমার হিরো মনে হয়! পকেটে স্রেফ পঞ্চাশ টাকার নোট নিয়ে পুরো চট্টগ্রাম শহর ঘুরে আসার ট্রিকস্ তাদের মুখস্ত!
.
অদ্ভুত এক সংগ্রামে আমরা নিজেদের মানিয়ে নিয়েছি! চোখ মুখে মায়া! এতো কষ্টের জীবনে কত হাসিমাখা মুখের প্রতিচ্ছবি,
.
এই পৃথিবীতে আর কোন দেশের রিক্সাচালক টাইপ মানুষরা বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে জীবনের তাগিদে প্যাডেল চাপবে বলে আমার মনে হয় না!
.
ঐদিকে বৃষ্টি এলে নতুন কপোত কপোতিরা নামে বৃষ্টি স্নানে! রিক্সার হুড উঠে! রোমান্সে ভরে উঠে মন! আঙ্গুলের স্পর্শে দেহ কেঁপে উঠে অন্যদিকে বৃদ্ধের শরীর বৃষ্টির স্পর্শে থরথর করে!
.
পিছনে কি হচ্ছে সেদিকে ভ্রুক্ষেপ করার তার সময় নেই! মাত্র এক হাত দূরত্বে জীবন অন্যরকম! জীবন যেখানে যেমন!

মন্তব্য ৩ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৩) মন্তব্য লিখুন

১| ১৭ ই মে, ২০১৯ রাত ১১:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: বুঝলাম না আপনি কি বৃষ্টির পথে না বিপক্ষে?

২| ১৮ ই মে, ২০১৯ ভোর ৪:৪২

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: আজ কালবৈশাখী ঝড় হয়েছে।এ বিষয়ে একটি পোষ্ট দিন।

৩| ১৮ ই মে, ২০১৯ রাত ৯:৪৬

মা.হাসান বলেছেন: প্রতিটি দেশের মানুষকেই সংগ্রাম করে বেঁচে থাকতে হয়। একেক দেশে সংগ্রামের চেহারা একেক রকম।
আপনার এই কথাটা খুব ভালো লাগলো যে দেশের অধিকাংশ মানুষকে আপনার হিরো মনে হয়। কিভাবে বাঁচতে হয় শিখে গেছে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.