নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

হাজার হাজার ব্লগারের ভীড়ে আমি এক নগন্য ব্লগার।আমি ভালোবাসি কিছু লিখতে তাই বলে আমি লেখক নই।যখন যা দেখি,যা মনে দাগ কাটে তাই লেখার চেস্টা করি।

Subdeb ghosh

আমি খুব কল্পনাবিলাসী। কল্পনা নামের আলাদা একটা পৃথিবী আছে আমার। আমার এ পৃথিবীটা বাস্তবের পৃথিবী থেকে আলাদা। এখানে আমি যা খুশি কল্পনা করি। বাঁধা দেওয়ার কেউ নেই। কোন কষ্ট নেই, দুঃখ নেই এখানে। বই আর গান এ দুইটা আমার বন্ধু। বই আমার একাকীত্বের সাথী আর গান আমার সুখ দুঃখের সাথী। কোন কথা কে কি বলল??? তার চেয়েও কিভাবে বলল সেটাকেই বেশী গুরুত্ব দিই। সবচেয়ে বেশী কষ্ট হয় যখন কেউ ভুল বোঝে। সবকিছুতেই ভালোটা খোঁজার চেষ্টা করি। প্রিয় ফুল কৃষ্ণচূড়া। প্রিয় সময় গোধূলিবেলা। প্রিয় ঋতু বসন্ত।

Subdeb ghosh › বিস্তারিত পোস্টঃ

নির্ঘুম রাত

১৭ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১২:৪৬

রাতের সাথে সম্পর্ক আমার
অনেক পুরানো,
ইদানিং আমার রাত শেষ হতে
চায় না। এ যেন এক
অন্তহীন রাত।
আমার এই কস্টের রাত
শেষ হবে নাকি কোনদিন???
প্রকৃতির নিয়মে যখন ভোর হয়
তখনো আমাকে জড়িয়ে থাকে
এই অন্তহীন রাতের নিকষ
কালো আঁধার।
বুকের ভিতরটা কস্টের আগুনে
জ্বলে পুড়ে ছারখার,
আর কত পুড়বে আমি নিজেও
জানি না।
তোমাকে হারানোর কস্ট
আমার ভেতরে জ্বলন্ত
আগ্নেয়গিরির মতো
বিরামহীন তপ্ত লাভা উদগীরন
করে চলেছে।
রাত জেগে থাকাটা এক
সময় অভ্যাস ছিল,
ইদানীং বদভ্যাসে
পরিনত হয়েছে,
মোবাইল হাতে নিয়েই প্রথমে ঘড়ির দিকে তাকাই,
১১ঃ৩৩ বাজে,
মনে মনে খুশি হই এই ভেবে যে ১২ঃ০০ টা পর্যন্ত অনলাইনে থাকা যাবে,হাতে ২৭ মিনিট আছে। মোবাইলের প্রেমে হাবুডুবু খেয়ে আবার যখন ঘড়ির দিকে তাকাই তখন
দেখি ১২ঃ০৭,
আহা! ভুল হয়ে গেল কি যে করি??পরক্ষনেই স্বীদ্ধান্ত নিয়ে নেই মিল মিল ১২ঃ৩০ শে শুয়ে পড়বো, তারপর আবার কোন না কোন চিন্তায় সময়টা আর আমার অনুকূলে থাকে না।
কিছুক্ষন আগে রুম থেকে বের হয়েছি রাতের শেষ
সিগারেট টানার জন্য।
খালি গায়ে হাফ পেন্ট
পড়া অবস্থায়।
হাতে সিগারেট পকেটে লাইটার। রুম থেকে বের হয়ে সিগারেট ঠোঁটে নিয়ে পকেটে হাত দিয়ে দেখি লাইটার নেই।
কেমন যেন একটু বিরক্ত লাগলো??
কারন রুমে ঢুকলেই দরজাটা কুওওওত করে আওয়াজ করবে আর বাবা টের পেলেই, পাইকারি বয়ান দিবে।
সিগারেট খেতেই হবে তাই আবার রুমে ফিরলাম,
কিন্তু লাইটার রুমে নাই, মোবাইলের আলোতে বিড়ালের মতো শব্দহীন ভাবে কিছুক্ষন খোঁজাখুঁজি-ও করলাম।
না লাইটার নাই।
আমাদের রান্নাঘর বাহিরে,
চিন্তা করলাম ওখানে দিয়াশলাই
পাওয়া যাবে,
কিন্ত না নাই।
তিক্ত বিরক্ত হয়ে বাহিরেই বসে আছি, লক ডাউন চলে রাস্তায় কুকুর ছাড়া আর কিছুই নেই, গুটি পায়ে নিজের অজান্তেই
বাড়ির বাহিরে চলে আসছি, একটা কুকুর পায়ের সামনে দিয়ে দৌড়ে গেল,
একটু ভয়ের মতো লাগছে।
বাড়ির ভিতর ঢুকে যাবো তখন শুরু হয়েছে নাটক,
কুকুরটি আমাকে বাড়ির ভিতর ঢুকতে দিচ্ছে না???
কেমন যেন করছে??
প্রথমে ভাবলাম লক ডাউনে সে হয়তো রাস্তায় খাবার পায়নি তাই এমন করছে,
তাকে খাবার দেওয়ার একটা
চিন্তাও মাথায় এলো।
কিন্তু না সে আমাকে
ভিতর ঢুকতে দিচ্ছে না,
কেমন যেন হিংস্র চোখ।
পরক্ষনেই পকেটে হাত পড়লো,
বড়ই অদ্ভুত লাগলো,
লাইটার আমার পকেটে।
সিগারেট জ্বালালাম,
কেমন যেন গুংগানি মার্কা একটা আওয়াজ করে
কুকুরটি হারিয়ে গেল।
সিগারেট জ্বালিয়ে ফুঁকতে
ফুঁকতে চিন্তা করতেছি এটা
কি আমার অবচেতন মনের কল্পনা???
নাকি আধো অদৃশ্য কিছু??
রাত প্রায় শেষ ভোঁর হতে বাকি আছে আর মাত্র কয়েক ঘন্টা
জানি না, এই কঘন্টা
কিভাবে কাটবে???
আজকের রাতটা তো কেটেই গেল, কাল কি হবে???
কতগুলো রাত আর আমাকে ঘুম ছাড়া পার করতে হবে????
অসহ্য লাগছে
ফেসবুকের নীল-সাদা পৃস্ঠাগুলো আর ভাল
লাগছে না।
অসহ্য,তিক্ত,বিরক্ত,
তার পরও অপেক্ষাই আছি জীবনের নতুন স্বপ্নের।

মন্তব্য ৪ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১৭ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ২:৩৫

নেওয়াজ আলি বলেছেন: কত আর ঘুম আসবে। খাওয়া আর ঘুম ।

১৭ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:০২

Subdeb ghosh বলেছেন: জ্বি! ভাই কোন কাজ নেই ঘুম আর খাওয়া। ভালো থাকবেন।

২| ১৭ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ২:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: বড্ড অগোছালো।

৩| ১৭ ই এপ্রিল, ২০২০ ভোর ৬:৩৭

Dr.Ruhul Amin Chowdhury বলেছেন: আমার কথাগুলোই এখানে লেকা হয়েছে - রাতের সাথে আমার সম্পর্ক জ্ঞ্ান হওয়া অবধি- মাঝে মাঝেই সারা রাত ঘুম হোতো না - একটি গান রিউন্ড করে করে সারা রাত শুনতাম - আজ রাতেও এক সেকেন্ড ঘুম হয়নি - মোবাইলে আপনার মতোই আর ধরবো না - অথচ প্রতিদিনি এক ঘন্টার অধিক দেখলে না কি মানসিক রোগ ? সকলে্ই কি মানসিক রোগি আমরা ? -

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.