নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ট্রুথ নেভার ডাই্‌জ

নিজের সম্পর্কে লেখার কিছু নেই । সাদামাটা ।

আহমেদ জী এস

পুরোপুরি একজন অতি সাধারন মানুষ । আমি যা আমি তাই ই । শয়তানও নই কিম্বা ফেরেশতা । একজন মানুষ আপনারই মতো দু'টো হাত, চোখ আর নিটোল একটা হৃদয় নিয়ে আপনারই মতো একজন মানুষ । প্রচন্ড রকমের রোমান্টিক আবার একই সাথে জঘন্য রকমের বাস্তববাদী...

আহমেদ জী এস › বিস্তারিত পোস্টঃ

এই পুড়ার চক্ষে বড়ই পাপ রে বাজান ! বড়ই পাপ …

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:১৭




এই পুড়ার চক্ষে বড়ই পাপ রে বাজান ! বড়ই পাপ ……

সব কিছু ধর‍্যা দে যায় না রে এই পুড়ার চক্ষে
কুথাকার ম্যাঘ কুথা যায়, নৈঋতের আসমান
কান্দে ক্যানে তারে ছাড়ি ,
ছাতিম ডালে বইসে থাকা পক্ষি
চিক্কুর পাড়ে ক্যারে , গাঙ পারে
পইড়ে থাকা ধানের জমিন
চাঁন্দের আলোয় বেহুদা মাখামাখি ।
সব ধর‍্যা দে যায় না রে এই চক্ষে
কিন্তুক বাজান ,
চক্ষে ক্যানে লেইগে থাকে হুদা
জোছনা বাইদানীর তেল পিছলানা শরীলখান !

কহো বাপ , সব ধর‍্যা দেয় না ক্যানে চক্ষে
ইছামতির ঢেউ খেলা পানি, কুমড়ার ফুল
ঢলঢল , ঘাট ছাড়ি যাওয়া খেওয়ার পারাপার ,
বাজারেতে চাঁন্দি চকচকা ইলসার পুনা,
লাউশাঁক লিয়ে বসা দেহাতী ছেমড়ি হাতে গুনা ।
ছোডু ল্যাংটা পুলাপান নুনু দ্যাখায়ে যায় ক্যানে
ক্যানে ধর‍্যা দে যায় না এই পিরথিমির সোমসার !
হামি তো দেকিনা কিছুই, চক্ষে সব ছারেখার, হুদা
অতসী বালার নেইচে ওঠা বুক
এই পোড়া চক্ষে লেইগে থাকে ক্যানে বারেবার !


মনডেয় পচ ধর‍্যা গ্যালো ক্যামনে
বুলবা , মনডেয় ক্যামনে ধর‍্যা গ্যালো পচ ?
কডাদিন আর বাঁচুম, গোনা গুনতি দিন
শরীলে যে লাগিচে ধস ।
লে বাপ, প্রাচিত্তির করি কি হবেনে অখন ?
ক্ষ্যামা কইরে দিস -
সাফা কতা বুলে যাই, পারানীর চরে বইসে
অখনও তো দেকি খালি পুনিমার চাঁন
কও দেহি তালে -
কুথাকার কুন ফিরিস্তা বাঁচাইবে মোরে , বাজান !

মন্তব্য ১৩৪ টি রেটিং +২৮/-০

মন্তব্য (১৩৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:২২

প্রামানিক বলেছেন: এক কথায় চমৎকার কবিতা। ধন্যবাদ

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১:৪৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: প্রামানিক ,



ধন্যবাদ আপনাকেও । প্রথম মন্তব্যকারী হিসেবে একটি ধন্যবাদ বোনাস । ;)

২| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৩৭

শায়মা বলেছেন: এটা গান হলেও যেমন হবে , কবিতা হলেও।

আবৃতি করলে এই লেখার আসল মর্মার্থ প্রকাশিত হবে ভাইয়া।

লেখাটা আবৃতি করে শুনাও ভাইয়া।

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:০৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা ,



আবৃত্তি ছাড়াও মনে হয় কবিতাতে মর্মার্থ সহজ ভাবে প্রকাশিত ।

অবষশ্যয় মনডেয় পচ ধর‍্যা গ্যালে বুজা সহজ হবিনে । বুলবা, ক্যাডা নেজেরে লষ্ট মানুষ কয় ? সব কিছু ধর‍্যা দে যায়রে মোনের চক্ষে হুদা ধর‍্যা দে যায়না নেজের মোন !

শেষে খুব কঠিন একটি আবদার করলেন । যতোদূর জানি, গান তো বটেই আপনি ভালো আবৃত্তিও করেন ।
তো হয়ে যাকনা .................. যায় যদি দিন আবৃত্তি করেই যাকনা .........................

৩| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৪২

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: অসাম!!

এই পোড়া চোখের পাপেই খাইল সব!

হায়! ;) সব জেনেও তবুও কেন লেইগ্যে থাকে চোখে কে কবি!!!!

++++++++++++

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:১৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: বিদ্রোহী ভৃগু ,



কি বুলবেক হাপনাকে ! এ্যাত্তোগুলান পিলাচ দিয়্যে মুকটারে বান্দি রাকলেন গো ! তয় সাফা কতা একখান কইয়্যে যাই ,
যত্তো দুষ এই পুড়ার চক্ষে , তারে তো আর খুচি খুচি তুইল্যে ফেইল্যে দিতে পারিনে গো সাব .. পারিনে ........... তাইলে যে আন্দা হইয়্যে যাইতে হইবেক !

৪| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৪৫

এস কাজী বলেছেন: কবতে পড়লাম, ভিন্ন টাইপের কবতে।

তবে সব সময়ের মত কবতে বুঝার ক্ষেত্রে আমি খুবই দরিদ্র।

ভিন্ন ভাবে লেখার জন্য কবতে টা ভাল লেগেছে।

আহমেদ জী এস ভাই ধন্যবাদ এরকম একটি কবিতা লেখার জন্য।

মনে রাখবেন আপনের নাম যেখানেই শেষ হয় সেখান থেকেই কিন্তু আমার নাম শুরু হয় B-)

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:৫২

আহমেদ জী এস বলেছেন: এস কাজী ,



ভিন্ন টাইপের কবিতার নথিপত্র দেখে তবুও যে রায়টুকু দিলেন কাজী হিসেবে তাই-ই সই ।

গানটির লাইনগুলো একটু ঘুরিয়ে বলি - আমার হলো সারা / তোমার হলো শুরু .... :P

শুভেচ্ছান্তে ।

৫| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৫০

শায়মা বলেছেন: এস কাজী ভাইয়া আমিও একই ভুল করেছিলাম শুরুর দিকে। দুইজনকে মিলাি ফেলছিলাম। :P

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:৪১

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা ,




আমি আদি অকৃত্রিম একজনই । অন্য কোনও নামে নেই এখানে । আমি যা আমি তাই !

৬| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১২:১৩

কল্লোল পথিক বলেছেন:






অসাধারন কবিতা।
সুপার লাইক।

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:৪৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: কল্লোল পথিক ,



অনেক ধন্যবাদ আপনাকে এই কল্লোলিত মন্তব্যের জন্যে । এবং লাইক দেয়াতে ।

৭| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১২:৩১

সুমন কর বলেছেন: একদম ভিন্ন ধাঁচের। চমৎকার লাগল। +।

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:৫৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: সুমন কর ,



চেষ্টা করেছি একটু স্বাদ বদলের । আপনার ভালো লেগেছে দেখে আমার চেষ্টা যে একদম জলে পড়েনি তা বোঝা গেল ।
শুভেচ্ছান্তে ।

৮| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১২:৩৭

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: অন্যরকম কবিতা ভাল লাগল

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:১০

আহমেদ জী এস বলেছেন: মোস্তফা সোহেল ,



খুব ভালো লাগলো আপনার মন্তব্য ।

শুভেচ্ছান্তে ।

৯| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১:৪৫

মো: ইমরান আল হাদী বলেছেন: অসাধারণ কবিতা,শব্দ গুলি আরও অসাধারণ।

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:১৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: মো: ইমরান আল হাদী ,



অনেক অনেক অনেক ভালো লাগলো আপনার মন্তব্য ।
ভালো থাকুন আর সাথেই থাকুন ।
শুভেচ্ছান্তে ।

১০| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:১৬

শায়মা বলেছেন: তুমি আগে আবৃত্তি শুনাও ভাইয়া তারপর আমি ওকে?

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:৩২

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা ,


আবৃত্তি তো শোনানোই আছে ওপরে ।
এবার না হয় একটা গান গাই ---

"কি গাবো আমি কি শোনাবো আজি এ আনন্দধামে....."
শুনলেন তো ? B:-/

১১| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:৩২

তাসলিমা আক্তার বলেছেন: মানিক বন্দোপাধ্যায়কে মনে করিয়ে দিলেন। "চক্ষে ক্যানে লেইগে থাকে হুদা
জোছনা বাইদানীর তেল পিছলানা শরীলখান !"

চোখ না মানে রীত নীত। এতো ভালো লেগেছে, ঝিম ধরে বসে আছি। তার আগে প্লাস দিতে ভুলিনি। ছবিটাও সুন্দর হয়েছে, একেবারে লাগসই।

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:২০

আহমেদ জী এস বলেছেন: তাসলিমা আক্তার,



কামলাখাইটে খাওয়া ম্যায়্যাটার ও যে চক্ষে লেইগে থাকে মালিক বাড়ুজ্জের পাঁচালী আর হামাক তার মইদ্যে ঢুকাই দিলেন ইটা জেনে খুশি নাগছে ।


খুব আন্তরিক এই মন্তব্যটিতে স্বাভাবিক ভাবেই আপ্লুত ।
ভালো থাকুন আর সাথেই থাকুন । শুভেচ্ছান্তে ।


১২| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:৩৩

সাহসী সন্তান বলেছেন: আঞ্চলিক ভাষার কবিতা বেশ সুন্দর হয়েছে! তবে এমনিতেই কবিতা খুব একটা বুঝি না তার উপরে আঞ্চলিক টান? দাঁত তো মাড়ি শুদ্ধু উপড়াই যাওয়ার উপক্রম করছে..... ;)

শুভ কামনা জী এস ভাই!

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৪১

আহমেদ জী এস বলেছেন: সাহসী সন্তান ,




খুব কঠিন কি ?

দেহাতী ভাষায় ( যেমন চা-বাগানের কুলি কামিনদের ভাষা ) লেখা । সহজ, যদি এই শব্দগুলো বুঝতে পারেন -----
পুড়া = পোড়া
ধর‍্যা = ধরা
ক্যানে = কেন
পইড়ে = পড়ে
চাঁন্দি = চাঁদ
ইলসার পুনা = ইলিশের বাচ্চা
পিরথিমির সোমসার = পৃথিবীর সংসার
মনডেয় = মনটায়
কডাদিন = ক'টাদিন
প্রাচিত্তির = প্রায়শ্চিত্ত
ক্ষ্যামা = ক্ষমা
এগুলো আমাদের পরিচিত শব্দের সাথে "আ" , "ই" কারন্ত যোগ করলেই ওরকমটা হয়ে যাবে । আর উচ্চারণগত ভাবে " য" ফলা
যোগ করে দিলেই হয় ।

শুভ কামনা আপনার জন্যেও ।

১৩| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:৪০

বঙ্গভূমির রঙ্গমেলায় বলেছেন:

দারুণ একটা কবিতা। :)

ভাল লাগা।

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৪৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: বঙ্গভূমির রঙ্গমেলায় ,



সব সময় এরকম সাথে থাকেন বলে ভালো লাগে ।
ধন্যবাদের সাথে শুভেচ্ছাও জানবেন ।

১৪| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:৫৮

হাসান মাহবুব বলেছেন: অন্যরকম। বেশ ভালো।

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৪৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: হাসান মাহবুব ,




অন্যরকমই তো ! দেহাতী বা অন্ত্যজ ভাষায় লেখার একটা চেষ্টা ।
খারাপ হয়নি , কি বলেন ?

মন্তব্যে ধন্যবাদ ।
শুভেচ্ছান্তে ।

১৫| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ বিকাল ৩:০৫

রূপক বিধৌত সাধু বলেছেন: "অামি অপার হয়ে বসে অাছি ওহে দয়াময়,
পাড়ে লয়ে যাও অামায় ।" লালনগীতি মনে পইড়া গেলো বৃদ্ধার বয়ান শুইনে । অাঞ্চলিক কথামালায় বহুত ভালো লাগা ।

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৪৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: রূপক বিধৌত সাধু ,



অামি অপার হয়ে বসে অাছি ওহে দয়াময়,
পাড়ে লয়ে যাও অামায়

মনে টান লেগে যায় এমন দারুন লালনগীতিটি শুনিয়ে দিলেন ।
কবিতার কথকের বলাটাও তেমনি শেষপারানীর ঘাটে এসে উপলব্ধির কথা ।

ভালো থাকুন আর সাথেই থাকুন ।

১৬| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ বিকাল ৪:৫৯

ভ্রমরের ডানা বলেছেন:

এ সখি, হামারি এ দুক্ষের নাহি অর
শুন্য হৃদয় ভাংগা মন্দির মোর!


অপুর্ব গ্রামীন অবয়ব!!

কবিতার লাইনে লাইনে সরলতার বাস! চমৎকার কবিতায় প্লাস +

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১১:১৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: ভ্রমরের ডানা ,



এ এক সরল স্বীকারোক্তি । চোখেই যে থাকে মানুষের পাপ ।

প্লাস দেয়াতে আপনার আন্তরিকতারই ছোঁয়া পেলুম ।
ভালো থাকুন । শুভেচ্ছান্তে ।

১৭| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ বিকাল ৫:৩৯

মিজানুর রহমান মিরান বলেছেন: চমৎকার হয়েছে!
কোন অঞ্চলের ভাষা এটা?

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১১:২৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: মিজানুর রহমান মিরান ,




এটা দেহাতী বা অন্ত্যজদের ভাষা । সাধারনতঃ চন্ডাল, মুন্ডা ইত্যাদি জাতিগোষ্ঠীর ভাষা । আমাদের এখানে সিলেটের চা-বাগানের শ্রমিকদের কাছে শুনতে পাবেন হয়তো ।

মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ । শুভেচ্ছান্তে ।

১৮| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ বিকাল ৫:৪২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: সবাই যেহেতু খুব প্রশংসা করেছেন, তাই আমিও বলছি - চমত্‌কার। আসলে আঞ্চলিক ভাষায় হওয়াতে আমি কবিতাটা বুঝতে পারি নি। আমাদের আঞ্চলিল ভাষাটা একটু অন্যরকম।

শুভেচ্ছা থাকলো প্রিয় আহমেদ জী এস ভাই।

০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১১:৩৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই ,



হা....হা....হা.... আন্যের প্রশংসা দেখে আপনিও বললেন, চমৎকার !
খুব কঠিন কি ?

দেহাতী ভাষায় ( যেমন চা-বাগানের কুলি কামিনদের ভাষা ) লেখা । সহজ, যদি এই শব্দগুলো বুঝতে পারেন -----
পুড়া = পোড়া
ধর‍্যা = ধরা
ক্যানে = কেন
পইড়ে = পড়ে
চাঁন্দি = চাঁদ
ইলসার পুনা = ইলিশের বাচ্চা
পিরথিমির সোমসার = পৃথিবীর সংসার
মনডেয় = মনটায়
কডাদিন = ক'টাদিন
প্রাচিত্তির = প্রায়শ্চিত্ত
ক্ষ্যামা = ক্ষমা
এগুলো আমাদের পরিচিত শব্দের সাথে "আ" , "ই" কারন্ত যোগ করলেই ওরকমটা হয়ে যাবে । আর উচ্চারণগত ভাবে " য" ফলা
যোগ করে দিলেই হয় । যেমন- "হয়ে গেছে" এটাকে "হয়্যা গ্যাছে" বলে অনেকেই ।


অবশ্য এ ব্যাপারে আমার চেয়ে আপনি ভালো জানেন বলেই আমার বিশ্বাস ।
শুভেচ্ছা থাকলো আপনার জন্যেও । ভালো থাকুন ।

১৯| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৪৯

জুন বলেছেন: মনডেয় পচ ধর‍্যা গ্যালো ক্যামনে
বুলবা , মনডেয় ক্যামনে ধর‍্যা গ্যালো পচ ?
কডাদিন আর বাঁচুম, গোনা গুনতি দিন
শরীলে যে লাগিচে ধস ।

অসাধারণ।
+

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১২:০৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: জুন ,



অসাধারণ বলার জন্যে ধন্যবাদ ।
শুভেচ্ছান্তে ।

২০| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৩৬

তার আর পর নেই… বলেছেন: এইবার অনুবাদ করে দ্যান।
না হলে কিন্তু আমিও আমার আঞ্চলিক ভাষায় লিখবো, আর আমার আঞ্চলিক ভাষা পড়তে গেলে আপনার বেশ কয়েকটা দাঁত খুলে পড়ে যাবে, তখন কিন্তু দাঁত হারানোর জন্য আমাকে দায়ী করতে পারবেন না ;)

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১২:০০

আহমেদ জী এস বলেছেন: তার আর পর নেই… ,



খুলে পড়া দাঁত কি বিক্রী করা যায় ? গ্যালে বেবাকগুলা দাঁত বেইচ্চা দিমু । ভয় নেই আপনাকে দায়ী করবোনা বরং বেচাবিক্রীর একটা ভাগ দিয়ে দেবো । :(

আপনার আঞ্চলিক ভাষায় তাড়াতাড়ি লিখুন । আসলে সত্যি সত্যিই আমি আঞ্চলিক ভাষা খুব পছন্দ করি । অনেক সময় তা দিয়ে লিখতেও চেষ্টা করি ।

অনুবাদ করে দিতে হবে ? নিন, এখন নয় ; সময় সুযোগ পেলে এই কবিতার একটি চলতি ভাষার সম্পুরক কবিতা দিয়ে যাবো এখানেই । কি , এবার খুশি তো ?
তারপর আর কি থাকে ?

অনুগ্রহ করে ১৮ নং মন্তব্যের জবাবটি দেখে নিলে আপাততঃ কাজ চলে যাবে ।

সাথেই থাকুন আর থাকুন ভালো । শুভেচ্ছান্তে ।

২১| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৭

পুলহ বলেছেন: আঞ্চলিক ভাষার যে একটা সাহিত্যিক, শৈল্পিক সৌন্দর্য আছে- তা আপনার এই রচনাখানি পড়লে স্পষ্ট বোঝা যায়। আমার অপরিপক্ব সাহিত্যিক উপলব্ধি বলে- এ ধরণের লেখা শুধু হৃদয় দিয়ে লেখা যায় না, বরং হৃদয়ের সাথে সাথে মস্তিষ্ককেও পাল্লা দেয়া লাগে....
সত্যি খুব ভালো লাগলো আহমেদ জী এস ভাই! সংগ্রহে রাখলাম :)

...আমার এ পুড়া চক্ষে আপনার কবিতা- মোহ লাগিয়ে গেলো ! :)

১০ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:২৬

আহমেদ জী এস বলেছেন: পুলহ ,


আর্তুর র‍্যাঁবো, শার্ল বোদলেয়ারের সম্পর্কে বলেছিলেন , " কেবল কবিরাই পারেন সংক্রামক ভাবে সাড়া দিতে ।"

আসলে কবিতা তো আসে হেমন্তের ঝড়ো হাওয়ার মতো, কুঁড়ি ঝরিয়ে, বীজ ছড়িয়ে, মরা পাতার মতো ভাবনাগুলোকে উড়িয়ে দিয়ে । ইন্দ্রিয়সমূহের বিপুল ও সচেতন বিস্তারে অদৃশ্যকে দেখে দেখে, অশ্রুতকে শুনে শুনে , সব গরল আত্মসাৎ করে-- তবেই না হৃদয়ের ঝাঁপটি খোলে । যেমনটি আপনি বলেছেন - এ ধরণের লেখা শুধু হৃদয় দিয়ে লেখা যায় না, বরং হৃদয়ের সাথে সাথে মস্তিষ্ককেও পাল্লা দেয়া লাগে....

এমন আন্তরিক মন্তব্যকে মাথায় তুলে রাখলুম ।

কিন্তুক কহেন বাজান , কুথাকার কুন ফিরিস্তা বাঁচাইবে মোরে , এরি পরে ?

ভালো থাকুন। শুভেচ্ছান্তে ।

২২| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৫৭

আমিই মিসির আলী বলেছেন:
মনডেয় পচ ধর‍্যা গ্যালো ক্যামনে
বুলবা , মনডেয় ক্যামনে ধর‍্যা গ্যালো পচ ?
কডাদিন আর বাঁচুম, গোনা গুনতি দিন
শরীলে যে লাগিচে ধস

চমৎকার কবিতা।
+

১০ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১২:১৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: আমিই মিসির আলী ,




খুব ভালো লাগলো আপনাকে দেখে ।
প্লাস ও মন্তব্যের জন্যে অজস্র ধন্যবাদ আপনাকে ।
শুভেচ্ছান্তে ।

২৩| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:২০

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন: কবিতার ভাষায় নদীর ধারের বসতিদের সুর মনে হচ্ছে । ভিন্ন স্বাদের ভিন্ন গলায় ভিন্নরকম আবৃতি । ভাল লেগেছে অনেক ।

১০ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১:২৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: কথাকথিকেথিকথন ,



কি বুলবেক হাপনাকে ! হামি দেহাতী , চন্ডাল আছে । মুকে তো লদীর ধারের কতাই থাকবেক !

অনেক অনেক ধন্যবাদ , সব সময় সাথে থাকেন বলে ।
আপনার ভালো লেগেছে জেনে অনেক ভালো লাগলো ।
শুভেচ্ছান্তে ।

২৪| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:৫৩

জেন রসি বলেছেন: মনে হচ্ছে অনেকটা সময় অতিক্রম করে সময় স্থির হয়ে গেছে! তবু অনুভূতিরা কিছু একটা আঁকড়ে ধরে বেঁচে থাকার আয়োজনে ক্লান্ত খুব।

১০ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:৩০

আহমেদ জী এস বলেছেন: জেন রসি ,



দারুন অর্থবোধক কিছু বলেছেন মন্তব্যের দুটো লাইনে ।

কবিতার কথক হয়তো তেমনি করেই শেষপারানীর ঘাটে এসে সময়কে স্থির করে দিয়ে গেছেন স্বীকারোক্তি বা স্বগোতোক্তি করে । স্মৃতি আঁকড়েই তো মানুষকে বেঁচে থাকতে হয় পড়ন্ত একটা সময়ে।

ভালো লাগলো মন্তব্যটুকু । ধন্যবাদ ।
ভালো থাকুন । বরাবরের মতোই সাথেই থাকুন ।

২৫| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:১৪

বিজন রয় বলেছেন: আপনার চিন্তাধারা অন্য রকম।
হঠাৎ ব্যতিক্রম কিছু মনে ধরে বেশি।
++++

১০ ই মার্চ, ২০১৬ বিকাল ৩:৩৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: বিজন রয় ,



আমার সম্পর্কে আপনার মূল্যায়নকে সম্মান জানিয়ে বলি, চিন্তাধারাকে গতানুগতিক পথে ধাবিত না করে , ব্যতিক্রমী কিছুর পেছনে ছুটিয়ে দেয়ার নামটিকেই তো বলে "চলিষ্ণু জীবন" । নয়তো তা এঁদো গলিপথের জমে থাকা জলাবর্তেই ঘুরপাক খেয়ে খেয়ে মরে ! আর সাহিত্য তো এই জীবনের লেখ্য রূপটিই, আলাদা কিছু নয় ।

অজস্র ভালোলাগা মন্তব্য আর সাথে থেকে সাহস যুগিয়ে যাওয়াতে ।
শুভেচ্ছান্তে ।

২৬| ০৯ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:১৮

আরণ্যক রাখাল বলেছেন: সুন্দর

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:০০

আহমেদ জী এস বলেছেন: আরণ্যক রাখাল ,



ধন্যবাদ আপনাকে ।
শুভেচ্ছা জানবেন ।

২৭| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১:২৩

জ্যোস্নার ফুল বলেছেন: পড়তে খুব কষ্ট হইছে কিন্তু পড়ার পর মনে হইছে কষ্ট বৃথা যায়নি।

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:১৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: জ্যোস্নার ফুল ,



এমন মন্তব্য দেখে বলতেই হয়, আপনি ফুলের মতোই কোমল, জ্যোস্নার মতোই স্নিগ্ধ মন ও মননে ।

২৮| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ৯:১৯

হামিদ আহসান বলেছেন: কবিতা দারুন হয়েছে ......

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:৪০

আহমেদ জী এস বলেছেন: হামিদ আহসান ,



অনেক ধন্যবাদ আপনাকে এই জন্যে যে , এই কট্টর কবিতাটিও আপনার দারুন লেগেছে জেনে ।
শুভেচ্ছান্তে ।

২৯| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ৯:৪৪

রুদ্র জাহেদ বলেছেন: আঞ্চলিক ভাষার অনেক সুন্দর কবিতা,মানতেই হবে।পড়ার সময় আবৃতি চলে আসে,যাতে একটা ঘোর তৈরি হয়।কিন্তু ভাষার মর্মার্থ উদ্ধার করতে না পারায় পুরো কবিতাটা বুঝলামনাযে

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:০১

আহমেদ জী এস বলেছেন: রুদ্র জাহেদ ,



হা........হা.............হা....... আপনার মতো একজন ঋদ্ধ লেখককেও কবিতাটি বুঝিয়ে বলতে হবে ?
তাহলে আগে করা জবাব থেকে আপনার জন্যে এটুকু আবার তুলে দিলুম যাতে আপনি বুঝতে পারেন ----
দেহাতী ভাষায় ( যেমন চা-বাগানের কুলি কামিনদের ভাষা ) লেখা । সহজ, যদি এই শব্দগুলো বুঝতে পারেন -----
পুড়া = পোড়া
ধর‍্যা = ধরা
ক্যানে = কেন
পইড়ে = পড়ে
চাঁন্দি = চাঁদ
ইলসার পুনা = ইলিশের বাচ্চা
পিরথিমির সোমসার = পৃথিবীর সংসার
মনডেয় = মনটায়
কডাদিন = ক'টাদিন
প্রাচিত্তির = প্রায়শ্চিত্ত
ক্ষ্যামা = ক্ষমা
এগুলো আমাদের পরিচিত শব্দের সাথে "আ" , "ই" কারন্ত যোগ করলেই ওরকমটা হয়ে যাবে । আর উচ্চারণগত ভাবে " য" ফলা
যোগ করে দিলেই হয় । যেমন- "হয়ে গেছে" এটাকে "হয়্যা গ্যাছে" বলে অনেকেই ।

এবার নিঃশ্চয়ই বুঝতে পারবেন !
ধন্যবাদান্তে ।

৩০| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ৯:৪৫

প্রামানিক বলেছেন: প্রথম মন্তব্যকারী হিসাবে হুদা ধন্যবাদ দিলে প্যাট ভরবো? চা কেঠায় দিবো?

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৪০

আহমেদ জী এস বলেছেন: প্রামানিক ,



চা পাবেন । প্রথম মন্তব্যকারী হিসেবে এককাপ চা ও দিতে পারলুম না, তা কি হয় ! :(
সবুর । একটা চা -বাগান কেনার জন্যে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি করে দিয়েছি । কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী চা-বাগান কেনা হবে । তখন শুধু চা - আর চা- আর চা । প্রথম না হলেও আপনার জন্যে সব সময় এককাপ বরাদ্দ । :P
এখন আমাকে একটা হুদা ধন্যবাদ দিয়ে যান । :)

৩১| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:১৮

গুলশান কিবরীয়া বলেছেন: কবি আহমেদ জী এস -এর কবিতা মানেই অসাধারণ ভালোলাগার কিছু । ঘায়েল করে ফেলার মত ধারাল শব্দ চয়ন আর অফুরান ভালোলাগার বিন্যাস । কয়েকবার পড়লাম । দারুণ !! আপনার লেখা থেকে আমি অনেক কিছু শিখি । প্রিয়তে রেখে দিলাম ।
অনেক অনেক শুভকামনা রইল । :D

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৫৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: গুলশান কিবরীয়া ,



কবি শব্দটি অপাত্র ঢেলেছেন । সবিনয়ে বলি আমি কবি নই । কবিতা লেখার চেষ্টা করি মাত্র । কবি হতে হলে যে যোগ্যতা লাগে তা আমার নেই । কবিতার ব্যাকরণ জানিনে মোটেও।
তবুও আমার কবিতা আপনার ভালো লাগে জেনে কৃতজ্ঞ আপনার এমন মন্তব্যে ।

প্রিয়তে নিয়েছেন দেখে বুঝতেই হয় , একখানা রোমান্টিক মন নিয়ে আপনার ঘর-গৃহস্থালী । সেটুকু ধরে রাখুন , সে ঘরের চালে যেন নিয়ত ফোঁটে তরতর করে বেড়ে ওঠা কুমড়ার ফুল ।

শুভেচ্ছান্তে ।

৩২| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:২০

বাল্মিকী জেনার বলেছেন: কোন অঞ্চলের ভাষা দরতে পারছিলাম না । কমেন্ট পড়ে জানলাম
কবিতা ভাললাগলো। :)

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১১:১১

আহমেদ জী এস বলেছেন: বাল্মিকী জেনার ,



সম্ভবত প্রথম এলেন আমার ঘরে , স্বাগতম ।
মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ ।
শুভেচ্ছান্তে । ভালো থাকুন ।

৩৩| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:০৪

খায়রুল আহসান বলেছেন: চক্ষে ক্যানে লেইগে থাকে হুদা
জোছনা বাইদানীর তেল পিছলানা শরীলখান !
-- দারুণ বলেছেন!
পুরো কবিতা ভালো লেগেছে। বুঝতে মোটেও অসুবিধে হয়নি। ২০তম প্লাস।
কবিতা পড়ে "পরানের গহীন ভেতর" এর কথা মনে পড়লো।
আপনার আরেকটা কবিতা "কতদিন পরে" এই মাত্র পড়ে সেখানেও দুটো কথা রেখে এলাম।

১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১১:৩৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: খায়রুল আহসান ,




বুঝতে তেমন অসুবিধে হবার কথা নয় । কারন এগুলো আমাদেরই মুখ নিঃসৃত কথা । শুধু একটু টান আছে । উদাহরন - উত্তরবঙ্গের, সম্ভবত চাপাই নওয়াবগঞ্জ এলাকার ( নিঃশ্চিত নই ) এই বাক্যটি -- " নাতি খাতি বেলা গ্যালো শুতি পাল্লামনা " ।

প্লাস ও কষ্টকৃত পঠনের জন্যে অযুত ধন্যবাদ ।
আর আমার কবিতা "কতদিন পরে" তে আপনার মন্তব্যের জবাব দিয়েও এসেছি ।
ভালো থাকুন । শুভেচ্ছা অনেক ।


৩৪| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:০৮

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: ২১ তম লাইক আর ৩৩ তম কমেন্ট একটু দেরী হয়ে গেল বটে তবে আপনার কবিতা মানেই জাক্কা নাক্কারে ভাই। ভাল লাগল অনেক ।

১১ ই মার্চ, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:২১

আহমেদ জী এস বলেছেন: মাহমুদুর রহমান সুজন ,




হা........ হা........ আমার কবিতা মানেই জাক্কা নাক্কা ?

হ্যাঁ, ঝাঁকি দিয়ে যায় হয়তো মনের খুব গভীর কোথাও ! আসলে জীবন থেকে বেছে বেছে তুলে আনা কিছু সংবেদ যা মনের অতলে ঘাপটি মেরে থাকে, তেমন কিছু হয়তো আমার কবিতায় উঠে আসে । সেটুকুই হয়তো ভালো লাগে আপনার ।

লাইক ও মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ । তবে ৩৩ তম কমেন্ট নয় , আপনার কমেন্ট ৩৪তম ।
ভালো থাকুন ।

৩৫| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:২৫

অরুদ্ধ সকাল বলেছেন: সুন্দর

১১ ই মার্চ, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪০

আহমেদ জী এস বলেছেন: অরুদ্ধ সকাল ,



তেমন একটি সকালের মতোই সুন্দর ................

শুভেচ্ছান্তে ।

৩৬| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৪৭

রুদ্র জাহেদ বলেছেন: আমি ঋদ্ধ হতে চায় আপনাদের সংস্পর্শে থেকে,এখনো অনেক পথ বাকি।তবে এই কমেন্ট করার পর পূর্বের প্রতিউত্তর পড়ে আবার পড়ে ফেলছি ইতোমধ্যে।অসংখ্য ধন্যবাদ প্রিয় লেখক-ব্লগার

১১ ই মার্চ, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৫৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: রুদ্র জাহেদ ,



খুব ভালো লাগলো আপনার মন্তব্যখানি ।
পথ থাকুক না হয় কিছু বাকী,
কিন্তু পথচলায় না যেন থাকে ফাঁকি !

ভালো থাকুন আর সাথেই থাকুন ।
শুভেচ্ছান্তে ।

৩৭| ১০ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১১:১৬

উল্টা দূরবীন বলেছেন: চমৎকার

১১ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:০৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: উল্টা দূরবীন ,



মন্তব্যে ভালোলাগা ।
ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছান্তে ।

৩৮| ১১ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১২:৩৬

গুলশান কিবরীয়া বলেছেন: কেন এতো বিনয় ? এতো ভালো লেখেন তারপরও এভাবে বলছেন ? আপনার লেখা বেশ পরিচ্ছন্ন , একটা বাক্যেও হোঁচট খেতে হয় না , বেশ মসৃণ , অতি উৎকৃষ্ট ধাতুর প্রলেপ দেয়া । আমি কবিতা লিখতে না পারলেও কবিতা কিন্তু বুঝি । :D
আমি শুনেছিলাম নিরবচনিয় ভাবকে বচন দেয়াকেই কবিতা বলে এর বিধিবদ্ধ কোন ব্যকরন নেই ।

আমার মনে হয় সৌখিন কবিরা বেশী বেশী সচেতন ব্যকরনের ব্যপারে । এজন্যই তাদের লেখা এতো সুমিষ্ট হয় । আমার ধারনা আপনিও সেরকম কেউ । :)

১১ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:৪৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: গুলশান কিবরীয়া ,




আপনার মুখে ফুল-চন্দন পড়ুক ।
যেভাবে লিখলেন তাতে আমার নিজের মুখটিকে আর খোলা গেলোনা ।

কে বললে , আপনি কবিতা লিখতে জানেন না ? ভাবকে শব্দ ও ছন্দে গেঁথে যদি মালা বানানো যায় তবে তাই-ই কবিতা হয়ে ওঠে । ব্যাখ্যাতীত এক সন্ধ্যেয় অব্যক্ত কথাগুলোর শ্রুতিময় রূপই হলো কবিতা । এর জন্যে থাকতে হয় প্রতীক্ষায় .................

৩৯| ১১ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১:২৬

দীপংকর চন্দ বলেছেন: সাফা কতা বুলে যাই, পারানীর চরে বইসে
অখনও তো দেকি খালি পুনিমার চাঁন
কুথাকার কুন ফিরিস্তা বাঁচাইবে মোরে , বাজান !


কতা সাফ!!

বুঝে পাই না কারে কয় পাপ, কারে পূণ্যি!!
তয় থাকলো মান্যি, আফনের প্রতি উঁচা এক আসমানের লাহান!!



১১ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:৩৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: দীপংকর চন্দ ,




একেবারে আসল কথাটিই তুলে এনেছেন - কুথাকার কুন ফিরিস্তা বাঁচাইবে মোরে , বাজান !
পাপ কিবা পূণ্যি , এসব থেকে আসলেই আমাদের বাঁচাবেন কোন সে ফেরেসতা ? বুঝে আসেনা !
মনুষ্যি জেবন , কত্তো যে তার উত্থান , কত্তো যে তার পতন ............................

কৃতজ্ঞতা জানবেন এমন মন্তব্যের জন্যে ।

৪০| ১১ ই মার্চ, ২০১৬ ভোর ৬:৪৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: আবার এখানে এলাম গুলশান কিবরীয়াকে তার সুন্দর মন্তব্যের জন্য একটা থ্যাঙ্কস দেয়ার জন্য (৩৮ নং মন্তব্য)।
আমি কবিতা লিখতে না পারলেও কবিতা কিন্তু বুঝি -- এ আসরের বিভিন্ন কবিদের কবিতার উপর আপনার মন্তব্যগুলো থেকে সেটা আমরাও বুঝি।
আমি শুনেছিলাম নিরবচনিয় ভাবকে বচন দেয়াকেই কবিতা বলে এর বিধিবদ্ধ কোন ব্যকরন নেই -- খুব ভালো লাগলো এ কথাটা। তাই মন্তব্যটাকে 'লাইক'।

১২ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১০:৫৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: খায়রুল আহসান ,



গুলশান কিবরীয়া নিঃসন্দেহে একজন প্রজ্ঞাবান পাঠক ও লেখক ও বটে ।
আপনার মন্তব্যের বাকী অংশের উত্তরটির জন্যে গুলশান কিবরীয়াকে দেয়া ৩৮ নম্বর মন্তব্যটির কিছু এখানে আবার তুলে দিলুম---
ভাবকে শব্দ ও ছন্দে গেঁথে যদি মালা বানানো যায় তবে তাই-ই কবিতা হয়ে ওঠে । ব্যাখ্যাতীত এক সন্ধ্যেয় অব্যক্ত কথাগুলোর শ্রুতিময় রূপই হলো কবিতা । এর জন্যে থাকতে হয় প্রতীক্ষায় .................

গুলশান কিবরীয়া আপনার এই লাইকটি দেখেছেন ।
শুভেচ্ছান্তে ।

৪১| ১১ ই মার্চ, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৩৩

গুলশান কিবরীয়া বলেছেন: আমার দেখা মতে কবি এবং লেখক খায়রুল আহসান একজন অসাধারণ পাঠকও বটে যে কিনা মন্তব্য সহ পাঠ করেন এবং সেই মোতাবেক অনুভূতির কথা জানানও । ভীষণ ভাবে মুগ্ধ হলাম তার ৪০ নম্বর কমেন্টে ।

১২ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১২:০১

আহমেদ জী এস বলেছেন: গুলশান কিবরীয়া ,



সহ-ব্লগার খায়রুল আহসান প্রশ্নাতীত ভাবে সকল লেখা খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে পাঠ ও অনুধাবনে পারঙ্গম । তাঁর ফেলে আসা পেশাগত জীবনই হয়তো তাঁর এই "পার্ফেকশনিষ্ট" ও " সিষ্টেমেটিক" রূপটি গড়ে দিয়ে গেছে ।

খায়রুল আহসান নিঃশ্চয়ই আপনার এই মন্তব্যটি এরই মধ্যে দেখে থাকবেন ।

৪২| ১১ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:১৪

জুন বলেছেন: সেদিন তাড়াহুড়োয় আপনার কবিতাটি পড়ে হাজিরা দিয়ে গিয়েছিলাম ।
আপনার কবিতা সম্পর্কে বলতে গিয়ে সেই পুরনো আদ্যিকালের অসাধারন ছাড়া আর কিছুই মনে আসছে না আহমেদ জী এস।
সেই রবিঠাকুরের গানের ভাষায় বলতে হয়
"চোক্ষে আমার তৃষ্ণা ওগো তৃষ্ণা আমার বক্ষ জুড়ে হায়" ।
তাই বলি পাপ বলুন আর তৃষ্ণা বলুন তা প্রথমে চোখেই থাকে ।
+

১২ ই মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১২:৪৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: জুন ,




ব্যস্ততা আর তাড়াহুড়ো যে আমাদের নিত্য দিনের সঙ্গী । এদের এড়ানোর উপায় সবসময় থাকেনা ।
তবে রবিঠাকুরের -- " চোক্ষে আমার তৃষ্ণা ওগো তৃষ্ণা আমার বক্ষ জুড়ে হায়" এর প্রতিটা অক্ষর, প্রতিটি অনুভব আমার প্রতিটি রন্ধ্রে রন্ধ্রে বৈশাখী ঝড়ের মাতম তুলে যায় নিশিদিন ।

ঠিকই বলেছেন আপনি - পাপ বলুন আর তৃষ্ণা বলুন তা প্রথমে চোখেই থাকে । তাই তো আমার মনে হলো , জীবনের এই পরম সত্যটাই বলে যাই এমন করে ------
এই পুড়ার চক্ষে বড়ই পাপ রে বাজান ! বড়ই পাপ …



৪৩| ১২ ই মার্চ, ২০১৬ বিকাল ৩:৩৮

বিদগ্ধ বলেছেন: কত কথা কইলেন!

১৩ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১০:১৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: বিদগ্ধ ,



হ.... বুললাম বটেক অনেক কতা ! যে কতাগুলান মোনের মদ্যিখানে জইম্যে থাক্যে , মুকে বুলা যায়না .....

৪৪| ১৩ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৪৪

অগ্নি সারথি বলেছেন: সাফা কতা বুলে যাই, পারানীর চরে বইসে
অখনও তো দেকি খালি পুনিমার চাঁন
কুথাকার কুন ফিরিস্তা বাঁচাইবে মোরে , বাজান ! - ভাললাগা।

১৪ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৩৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: অগ্নি সারথি ,




ধন্যবাদ আপনাকে, কবিতার মূল কথনটির লাইন কয়টি তুলে ধরাতে ।
ভালো থাকুন ।

৪৫| ১৩ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৫৪

ফেরদৌস প্রামানিক বলেছেন: বাব্বাহ! শিল্পমণ্ডিত আঞ্চলিক ভাষায় কবিতা! অসাধারণ !

১৪ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:০০

আহমেদ জী এস বলেছেন: ফেরদৌস প্রামানিক ,



অনেক ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্যে । আপনার কাছে অসাধারণ লেগেছে জেনে ভালো লাগলো ।
শুভেচ্ছান্তে ।

৪৬| ১৪ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ৯:৫৮

দিয়া আলম বলেছেন: আমি সব সময় আপনার মন্তব্য গুলো ফলো করি, আপনি খুব গুছিয়ে কথা বলেন,সবাইকে সন্মান করে কথা বলেন,বিষয়টা আমার অনেক ভালো লাগে। এইভাবে নাম ধরে কদর করে কেউ মন্তব্য করেনা।

লেখাও চমৎকার

সুন্দর থাকুন সব সময়

১৫ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৮:৪৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: দিয়া আলম ,



আপনার এমন নির্মল মন্তব্যটিতে যে সম্মান আমাকে দেখালেন তাতে কৃতজ্ঞ হয়ে রইলুম ।
আপনাদের ভালো লাগবে এমন করেই তো লিখতে চেষ্টা করি নিজের মনে । আপনাদের উৎসাহ তাকে আরো ডগমগে করে তোলে ।

আপনিও সুন্দর থাকুন এবং সাথেই থাকুন ।
শুভেচ্ছান্তে ।

৪৭| ১৪ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:১০

মাঈনউদ্দিন মইনুল বলেছেন:


অসসসসাধারণ!!! জী এস ভাই :)
আহা এমন মিডা ভাষা দিয়া কত কথা কইয়া দিলেন....
মুগ্ধতা কবুল করুন!

১৫ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:৫৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: মাঈনউদ্দিন মইনুল ,



মুক দিয়্যে তো কিচচু বুলি নাই , কেব্যল লিইখ্যে গেচি ! তাতেই মিঠ্ঠা লেইগে গেলো বাবু মোশাইয়ের ?
মনডেয় পচ ধর‍্যা গ্যালো আর আপনের কাচে মিঠা মিঠা লাগলো, তাজ্জব কি বাত কইয়ে গ্যালেন ! :(
কবুল কইরে কোত্থাকে লিয়ে যাবো ? পারানীর চরে বইসে রয়েচি য্যে ! :((

৪৮| ১৫ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১০:১৬

কান্ডারি অথর্ব বলেছেন:



চমৎকার কবিতা ভাই।

১৯ শে মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:৩৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: কান্ডারি অথর্ব ,



বড্ড দেরী হয়ে গেলো উত্তর দিতে , ক্ষমাপ্রার্থী ।
চমৎকার বলাতে ভালো লাগলো ।
শুভেচ্ছা জানবেন ।


৪৯| ১৭ ই মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৩৪

নীলপরি বলেছেন: খুব সুন্দর লাগলো ।

১৯ শে মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:৫৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: নীলপরি ,



মন্তব্যে ভালোলাগা জানালুম ।
ভালো থাকুন । শুভেচ্ছান্তে ।

৫০| ১৮ ই মার্চ, ২০১৬ রাত ১১:৫১

বিজন রয় বলেছেন: নতুন লেখা দিন।

১৯ শে মার্চ, ২০১৬ রাত ১১:১১

আহমেদ জী এস বলেছেন: বিজন রয় ,



আমার লেখার প্রতি আপনার ভালোবাসা আমি বুঝতে পারি ।
কিন্তু "নতুন লেখা দিন" বললেই তো আর লেখা হয়ে ওঠেনা । রোজ রোজ একটি করে লেখা প্রসব করা হয়তো যায় তবে তাতে না লেখার , না লিখিয়ের স্বাস্থ্য ভালো থাকে । তাতে প্রিম্যাচিওর বার্থ আর ম্যাটার্নাল ডেথ এর সম্ভাবনা বাড়ে ।
একটি লিকলিকে, শীর্ণ লেখার চেয়ে খানিকটা হৃষ্টপুষ্ট লেখা ভালো নয় কি ?
তবুও আপনার মন্তব্যটি যথার্থ হৃদ্যতার সাথেই ভেবে দেখবো ।
ভালো থাকুন । শুভেচ্ছান্তে ।

৫১| ২০ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১:৫৭

বিজন রয় বলেছেন: রোজ রোজ একটি করে নয়, সপ্তাহে একটি করে পোস্ট দিন, তাই বলতে চেয়েছিলাম।
আমি সেই চেষ্টা করছি।

আপনার অভিজাত্যময় বলার ঢং ভাল লাগে।
শুভকামনা।

২১ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১০:৫৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: বিজন রয় ,



আবারও ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্যে ।
বুঝতে পেরেছি আপনার কথা ।
ভালো থাকুন । শুভেচ্ছা জানবেন এই মধ্য সকালের ।

৫২| ২০ শে মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৫৬

আরজু পনি বলেছেন:

কবিতাটা পড়তে অসাধারণ লাগছিল।
ভিন্ন স্টাইলে কনফেশন মনে হলো।

আমি একটা লেখার চেষ্টা করেছিলাম কখনো...

"পোড়া মন"

তুমার লাইগ্যা মনডা এমন পোড়ায় ক্যান ?
ক্যান পোড়ায় কইতে পারো ?
বেইন্যে থাইক্কা বৈকাল পার কইরা
গতর খাইট্টা কাম কইরা
কাহিল হইয়া এট্টু চক্ষু বুজলেই
তুমি আইস্যা চক্ষু জুইড়া বস...

পোড়ার গন্ধ পাওনা ?
আমার অন্তরডা পুইড়া বিরান হইয়্যা যাইতেছে !
.
.
চক্ষু বুজলেই যদি তুমারে দেহা যায়
তয়, কত দূরে যাইয়্যা তুমি চোক্ষের আড়াল হইবা ...?

(২০১৪)

২১ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৩৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: আরজু পনি ,




কনফেশানই তো ! প্রতিটি মানুষেরই মনে হয় এইরকম একটা কনফেশান থাকেই - " এই পুড়ার চক্ষে বড়ই পাপ রে বাজান ! বড়ই পাপ …" ।


আর আপনিও কিন্তু কম যাননি এরকম কবিতাতে । শেষের এই দু'লাইন তো এপিক ---
"চক্ষু বুজলেই যদি তুমারে দেহা যায়
তয়, কত দূরে যাইয়্যা তুমি চোক্ষের আড়াল হইবা ...?"

আরো লিখুন এমন করে । সমৃদ্ধ হোক ব্লগের ভান্ডার ।
শুভেচ্ছান্তে ।

৫৩| ২১ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১:২১

আবু শাকিল বলেছেন: প্রিয় জি,এস দা- কবিতায় বিশেষ ভাষার ব্যাবহার খুব টেনেছে।
দাদার বাড়ি কি কুমিল্লা-বি-বাড়িয়া এলাকায়??

২১ শে মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:১৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: আবু শাকিল ,



হা......হা.........হা....... কেন মনে হলো আমি বি-বাড়িয়া এলাকার লোক ? বি-বাড়িয়া এলাকার মানুষেরা কি এভাবে কথা কয় ? জানিনে !

না হে প্রিয় ব্লগার , আমি খাস বরিশাইল্লা । এগুলো লিখি, পথে দেখা মানুষের বলা কথা দেখেশুনে । আপনিও পারবেন , আপনার এলাকার প্রত্যন্ত অঞ্চলের সাধারন মানুষদের কথ্য ভাষা ব্যবহার করে যদি লেখেন ।
শুভেচ্ছান্তে ।

৫৪| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৬ বিকাল ৩:৩০

দিশেহারা রাজপুত্র বলেছেন:
গ্রাম্য শরীরি কবিতা।
অন্যপ্রকার ভালো লাগা।


তবে সংকলনে এটা মিস হয়ে গএছে মনে হচ্ছে। :(
সেজন্য আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

০২ রা এপ্রিল, ২০১৬ রাত ৯:২৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: দিশেহারা রাজপুত্র ,



ইটস অলরাইট । দুঃখিত হওয়ার মতো কিছু হয়নি ।

আমার লেখা কোনও সংকলনে এলো কি এলোনা, এ নিয়ে আমি সত্যিই ভাবিনে মোটেও ।
আমি ভাবি আমার পাঠকদের কথা । তাঁদের সন্তুষ্ট করতে পেরেছি কি পারিনি, এটা নিয়ে শংকিত থাকি ।

মন্তব্যে ধন্যবাদ । শুভেচ্ছান্তে ।

৫৫| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৬ রাত ১১:০৩

দিশেহারা রাজপুত্র বলেছেন:
যেহেতু সংকলক আমি। এবং কবিতাটা আপনার তাই আমার কাছে ব্যাপারটা অন্য রকম।
আমার ব্লগিং এর শুরু থেকে আপনি সাথে আছে। ভুল শুধরে দিয়েছেন অনেকবার। যা হোক সেটা অন্যকথা। মোবাইল দিয়ে ব্লগিং কররায় আপডেট করতে পারছি না। সুযোগ পেলে শুধরে নেব।

ভালো থাকবেন। শুভ রাত্রি।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৬ সকাল ১১:২৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: দিশেহারা রাজপুত্র ,




অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে, আবার এসে কিছু বলে গেলেন বলে ।
নিরন্তর সৃষ্টির উল্লাসে মেতে থাকুন এমনি করে ।

৫৬| ০৯ ই এপ্রিল, ২০১৬ রাত ১২:১৫

এহসান সাবির বলেছেন: যা বলছিলাম.... ঐ যে একটা ব্যাপার....


আচ্ছা আগে পোস্টে +

০৯ ই এপ্রিল, ২০১৬ রাত ১০:০৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: এহসান সাবির ,



অনেকদিন দেখিনি ।
হ্যাঁ.... হ্যাঁ.....সেই ব্যাপারটা চিন্তা করে এখনও হাসি আটকাতে পারছিনে .............. =p~ :(

মন্তব্যে ধন্যবাদ ।

৫৭| ২৭ শে জুন, ২০১৬ বিকাল ৫:০৬

উদাসী স্বপ্ন বলেছেন: ইদানিং ব্লগে কবিতার অনেক পাঠক আমি জানি না কেউ কবিতার বই লিখলে সমান পাঠকপ্রিয়তা অর্জন করতে পারে কিনা। তবে দেহাতী ভাষা আমাদের দেশের প্রান্তিক মানুষের ভাষা। এই ভাষায় সাহিত্য চর্চা করা নিশ্চয়ই চাট্টিখানি কথা না

২৭ শে জুন, ২০১৬ রাত ১০:০৬

আহমেদ জী এস বলেছেন: উদাসী স্বপ্ন ,




আমার মনে হয় , অনেক মানুষই আছেন যারা ব্লগে আসেন সারাদিনের ক্লান্তিকর একঘেয়েমী থেকে খানিকটা মনের কোয়ালিটি রিফুয়েলিংয়ের জন্যে ।
কবিতা তাই-ই হয়তো তাদের টানে । কবিতায় পাঠকপ্রিয়তা অর্জন সহজ কোনও কাজ কিনা আমার জানা নেই । কারন হাতের নাগালে পাওয়া কিছু আর খুঁজে পেতে অর্জিত কিছুর ভেতর যোজন তফাৎ ।

মন্তব্যে ধন্যবাদ জানিয়ে রাখছি ।
শুভেচ্ছান্তে ।

৫৮| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৬ রাত ১১:০৫

বিলিয়ার রহমান বলেছেন: অন্য রকম ভালোলাগা ভাইয়া!!! :) :)

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৬ রাত ১১:৩০

আহমেদ জী এস বলেছেন: বিলিয়ার রহমান ,




পুরোনো লেখায় এসে অন্য রকম ভালোলাগার কথা জানিয়ে গেলেন । কৃতজ্ঞতা জানাই ।
ভালো থাকুন ।

৫৯| ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:৫২

জাহিদ অনিক বলেছেন:


সোনাবীজ ভাইয়ের মন্তব্য দেখে কিছুটা অবাক হয়েছি।
তিনি এই কবিতার ভাষা বুঝতে পারেন নাই বলেছেন !

আঞ্চলিক ভাষা হলেও তো তাঁর বুঝতে পারার কথা।

যাইহোক, আমার বেশ ভালো লেগেছে।

অনেক ধন্যবাদ।

০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: জাহিদ অনিক ,




খুব ভালো লাগলো, দেয়া লিংকটি ধরে এসেছেন দেখে ।
এরকম আঞ্চলিক ভাষায় লিখতে বড় সাধ যায় ! ভালো লেগেছে জেনে প্রীত ।

শুভেচ্ছান্তে ..................



৬০| ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:৫৩

জাহিদ অনিক বলেছেন:


ওহ, একটা গানও মনে পড়ে গেল।

চোক্ষের নজর এমনি কইরা

০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৩২

আহমেদ জী এস বলেছেন: জাহিদ অনিক ,




গানটি শুনলুম । তবে গানের কথারা আমার এই কবিতার উল্টোদিকের । গানে প্রকৃতির সব ভালোলাগা যেন চোখে মাখানো, তারই কথা । আর আমার কবিতায় পোড়ার চোখে প্রকৃতি নয় , লোভ-লালসায় চকচকে ।

গানটি শেয়ার করার জন্যে ধন্যবাদ ।

৬১| ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:০৫

শিখা রহমান বলেছেন: বাহ!! ভালো লেগেছে কবিতাটা অনেক। এই ধরনের আঞ্চলিক ভাষায় কবিতা লেখা কঠিন আর তার চেয়েও কঠিন পাঠককে কবিতার আবেগে বেঁধে ফেলা। আপনি খুব সহজেই সেটা করতে পেরেছেন। একরাশ ভালোলাগা।

জাহিদ অনিকের লেখার মন্তব্য থেকে কবিতাটা পড়লাম। আর জাহিদ "চোক্ষের নজর এমনি কইরা" আমার খুব প্রিয় একটা গান। মনে করিয়ে দেবার জন্য ধন্যবাদ।

শুভকামনা থাকলো।

১০ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৫৬

আহমেদ জী এস বলেছেন: শিখা রহমান ,




ধন্যবাদ সুন্দর একটি মন্তব্যের জন্যে ।
আসলে কি, বিভিন্ন আঞ্চলিক ভাষার এক একটা আলাদা মাদকতা আছে । আমার কাছে বেশ লাগে । তাই সেরকম কিছু চেষ্টা করেছি এখানে । তা যে আপনাদের ভালো লেগেছে, সেটা জেনে সামনের কোনও দিনে এমন আরও লেখার তাগিদটা জোরদার হচ্ছে যেন !

শুভেচ্ছান্তে ।

৬২| ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:২১

মিথী_মারজান বলেছেন: বাহ্!
আঞ্চলিক ভাষার সরলতা মাখা খুব সুন্দর একটি কবিতা।

অনেক ভাললাগল।

১০ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৪০

আহমেদ জী এস বলেছেন: মিথী_মারজান ,



ভালো লাগলো আপনার মন্তব্যখানিও ।
বিভিন্ন আঞ্চলিক ভাষায় একধরনের সরলতা আছে , আছে আলাদা মাদকতা ।

শুভেচ্ছান্তে ।

৬৩| ০৮ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:১৩

সোহানী বলেছেন: আঞ্চলিক ভাষায় হলেও একটু ও বুঝতে অসুবিধা হয়নি। অনেকদিন পর অন্যরকম কবিতা পড়লাম।

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:৫১

আহমেদ জী এস বলেছেন: সোহানী ,




যিনি কবিতা বোঝেন না তিনিই যদি বলেন, "অনেকদিন পর অন্যরকম কবিতা পড়লাম।" তাহলে বুঝতে হয় অখাদ্য কিছু লিখিনি । আঞ্চলিক ভাষায় হলেও কবিতায় পড়ন্ত একজনের চোখের যতো পাপ, সে পাপের দোলাচলের নিঃসঙ্কোচ স্বীকারোক্তি বুঝতে কষ্ট হবার কথা নয় ।
ধন্যবাদ এমন করে মন্তব্য করাতে ।

শুভেচ্ছান্তে ।

৬৪| ০৮ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:৪০

মলাসইলমুইনা বলেছেন: এই পুড়ার চক্ষে বড়ই পাপ রে বাজান ! বড়ই পাপ ... পাপ চোখে দেখা জীবনের গল্পের অনবদ্য কবিতা পড়ে বিরাট, বিশাল সাহিত্য সওয়াব প্রাপ্তির মত হলো মনে হয় | জীবনের গল্পের অনবদ্য কবিতায় স্বর্গীয় ভালোলাগা আহমেদ জি এস ভাই |

০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ১০:০৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: মলাসইলমুইনা ,




এমন চমৎকার করে বলে কৃতজ্ঞতায় বেঁধে ফেললেন যে !
জীবনটাই যে অমন - বিচিত্রতায় ভরা , গোপনীয়তায় মাখামাখি, ভালো-মন্দ মিশিয়ে জটিলতায় বোনা জালখানি ।
অনেক অনেক শুভেচ্ছা আপনাকে ।

৬৫| ০৯ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:৫৫

সোহানী বলেছেন: আমার বিশ্বাস আপনার সব কবিতার মাঝে এ কবিতাটা আপনার একটি প্রিয় কবিতা। যে দরদ দিয়ে লিখেছেন তা প্রতিটি শব্দেই ফুটে উঠেছে.......

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৯:১৬

আহমেদ জী এস বলেছেন: সোহানী ,




আমার সব কবিতাই আমার কাছে মোটামুটি সমানভাবেই প্রিয় । প্রিয় না হলে তা পোস্ট করবো কেন ? অপ্রিয় কিছুকে কি কেউ সামনে টেনে আনে ? আর দরদ ? দরদ না থাকলে তা কবিতা হবে কি করে ?

অসংখ্য ধন্যবাদ আবার এসে কিছু বলে গেলেন বলে ।

৬৬| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৯:২৬

জুন বলেছেন: মন্তব্যের ঘরে নামটি দেখে ভাবলাম নতুন কবিতা হয়তো । নাহ এটা বেশ পুরনো তবে আবেদন এখনো সেই নতুনের মতই প্রিয় কবিতাটির আহমেদ জি এস । এখন আর কবিতা লিখেন না কেন ? আপনিতো অসাধারন এক একটি কবিতার রচয়িতা ।

১৮ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৯:০৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: জুন ,




ধন্যবাদ মন্তব্যের ঘরে নামটি দেখে আবার এলেন বলে ।

বলেছেন, আপনিতো অসাধারন এক একটি কবিতার রচয়িতা ।
হয়তো !!!!!!

৬৭| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ সকাল ৯:২৮

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
আপনার এত সুন্দর কবিতাটা রাকু ভাইকে লিংক না দিলে হয়তো আর আমার পড়া হতোনা।

কবিতাটা পত্রিকায় দেন, প্রকাশ হোক, হোক বিখ্যাত।

অসাধারণ।

++++++

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৪৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: মোঃ মাইদুল সরকার ,



হা.....হা.....হা....... পত্রিকায় ছাপা হলে সেখানে আপনাদের ভালোলাগার, মন্দলাগার তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়া কোথায় পেতুম ? এই যে অনেকদিন পরে এসে অনেকগুলো প্লাস দিয়ে আপনার অনুভূতিটা প্রকাশ করলেন তা কোথায় পেতুম আমি ?
এই ব্লগই যে একজন লেখকের বিচারের আসল জায়গাটি, সে জায়গাটিকে নষ্ট হতে দিতে চাইনে ।

আপনার এই মন্তব্যটি আমার অসাধারণ একটি প্রাপ্তি হয়ে থাকুক ।
শুভেচ্ছান্তে ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.