নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সবাই যখন নীরব, আমি একা চীৎকার করি \n--আমি অন্ধের দেশে চশমা বিক্রি করি।\n

গিয়াস উদ্দিন লিটন

গিয়াস উদ্দিন লিটন › বিস্তারিত পোস্টঃ

স্বামী কেন চাকর ; জীবন থেকে নেয়া রম্য ।

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৩৬





এক লোক দোকানে গিয়ে নাপিতকে বলছে , আচ্ছা তুই ছাগলের দাঁড়ি কামাতে পারিস ?
নাপিত বলল , আসেন চেষ্টা করে দেখি।

চেষ্টা করতে দোষ নাই ,তাই একটা রম্যের অপচেষ্টা ।
ছোট বেলায় সম্ভবত সুকুমার রায়ের এক ছড়া পড়েছিলাম , ‘’মেজাজ ছিল তিরিক্ষি তার , মাথায় ছিল চুলের বাহার।‘’ সাথে এই চুলের বাহার ওয়ালা লোকটির খড়ের গাঁদার মত বিশাল চুল সমেত মাথার একটা ছবি । জিনিষটা ছিল দেখার মত । বেটার চুলের ভিতর পাখিরা বাসা বেঁধে ছানাপোনা নিয়ে দিব্যি বসে আছে ।

এরকম এক লোক গেল চুল কাটাতে । নাপিত তাকে চেয়ারে বসিয়ে অনেকক্ষণ ধরে চুলে বিলি কাটছে ,চুল কাটার নাম নাই । লোকটা অধৈর্য হয়ে খেঁকিয়ে উঠলো , আধা ঘনটা ধরে চুল নিয়ে টানাটানি করছিস বিষয় কি ? চুল কাটবি কখন ?
নাপিতও খ্যাপা – রাখেন আপনার চুল কাটা ! চুলের ভিতরে কাঁচি হারাই ফেলছি , খুইজ্জা পাইতাছিনা ।

কাঁচি হারালে কাঁচি পাওয়া যায় , আমার নানা বাড়ীতে যে নাপিত আসতো সে হারাতে বসেছিল এমন বস্তু যা হারালে পাওয়ার সম্ভাবনা ছিল না ।
প্রতি শুক্রবার ছিল নানা বাড়িতে ‘ক্ষেরি’ দিবস । হরেন্দ্র নাপিত এসে সবার চুল দাঁড়ি কেটে দিয়ে যেতো । টাকা পয়সা দিতে হতনা । ধানের মৌসুমে এসে ধান নিয়ে যেতো ।

চুল কাটার বিষয়ে আমার বৈরাগ্য ছিল , কাটাতে চাইতাম না । যতটা ছিল বৈরাগ্য তার চেয়ে বেশি ছিল ভীতি । চুল কাটা শেষ হলে ফিনিশিং টাচ দেয়া হত ক্ষুর দিয়ে । এ জিনিষ আমার ঘাড়ে ছোঁয়ানোর সাথে সাথে আমার ভীষণ কাতুকুতু পেতো । একবার ঘাড়ের উপর ৯ যায়গায় ক্ষুরের পোঁচ লেগেছিল ।

এক শুক্রবার আমাকে ভুলিয়ে ভালিয়ে হরেন্দ্রর দুই হাঁটুর মাঝে সোপর্দ করা হল । আমি নাকি বেশি নড়া চড়া করি তাই হাঁটু থেরাপি । বৃদ্ধ হলে কি হবে বেটার হাঁটু যেন শিল কাঠে তৈরি । দুদিক থেকে চেপে ধরেছে ,মাথা ঝিম ঝিম করছে, চোখে অন্ধকার দেখছি ।
আধা ঘণ্টা শেষে ফিনিশিং টাচ ! এই বার সে আমার ঘাড়ের উপর পা তুলে দিয়ে ঝাঁতি মেরে ধরেছে ।

সেকালে তসরের সুতা দিয়ে এক প্রকার জালির থলে বানানো হত । সেখানে টাকা ,খুচরা পয়সা রাখা হত । পয়সা খুচরা হলেও তখন তার ভ্যালু ছিল । ৫ পয়সায় একটা আস্ত বারো মিঠাই পাওয়া যেতো । এই থলিকে আমরা বলতাম ‘খইলতা’ । টাকা থাক বা না থাক খইলতা একটা সকলের কোমরের তাগির সাথে ঝুলে থাকতো । বয়স্করা কাপড়ের তৈরি খইলতা ব্যবহার করতো , একে ‘দোলবান’ও বলা হত ।

একটা চল তখনো ছিল এখনো আছে , চুল কাটা শেষ হলে নাপিত দুই হাতের তালু এক করে আঙ্গুলে আঙ্গুল লাগিয়ে ঠাশ ঠাশ করে মাথায় বাড়ি মারতো এতে বেশ আরামই লাগে ।

আমারও তখন ঠাশ ঠাশ কর্ম চলছে । এমন সময় ধুতির ফাঁক দিয়ে আমার আবচা নজর পড়লো বেটার ‘খইলতা’র উপর । ঠাশ ঠাশ এর সাথে তাল মিলিয়ে ওটাও বেশ দোল খাচ্ছে । মাল পানি ভালই আছে বলে মনে হল । মনে একটা দুষ্ট বুদ্ধি এল , এতক্ষন ব্যাটা হাঁটু দিয়ে ,কাঁধে পা তুলে আমার জান পেহচান করে ফেলেছে । এখন টান দিয়ে বেটার ‘খইলতা’ নিয়ে পালিয়ে যাবো ।

যেই ভাবা সেই কাজ , ‘খইলতা’ ধরে হ্যাঁচকা টান মেরে দিলাম দৌড় ! ভাগ্য খারাপ ! শক্ত রশি দিয়ে ওটা বেঁধে রেখেছে, ছিঁড়তে পারিনি । পিছনে ফিরে দেখি ব্যাটা রাম রাম , ভগবান ভগবান বলে গড়া গড়ি দিচ্ছে আর চিৎকার করছে । সবাই দৌড়ে এল বিষয় কি ? বিষয় কি ?

হরেন্দ্র আর্ত চিৎকারের ফাঁকে ফাঁকে জানালো – ‘’চবুরার হোলায় আঁর ‘অন্তরকোষ’ টানি ছিঁড়ি ফালাইতো লাগছে গো --- ।‘’

বয়সে বড় মামাতো ভাই বলল - করছস কি ?
আমি বললাম , কি করছি ? আমি বেটার ‘দোলবান’ ধরে টান দিছি , ‘দোলবান’রে বুঝি ‘অন্তরকোষ’ কয় ?
মামাতো ভাই বলল – ‘বলদ ! তুই বেটার ‘অণ্ডকোষ’ ধরি টান দিছত!’’ :P

আমার বুঝে আসছিল না ও বস্তু তার নিজের স্থান ছেড়ে বিঘত খানেক নিচে এসে ঝুলছিল কেন?

ঘটনা এখানেই শেষ হলে ভাল হত ।



আমার আম্মা ছিলেন কট্টর রক্ষণশীল মুসলিম পরিবারের মেয়ে । সেকালে হিন্দু ,মুসলমান একে অন্যকে অস্পৃশ্য মনে করতো ।
আম্মা ছিলেন আরো এক কাঠি সরেস, হিন্দুদের ধরা ছোঁয়া কিনা এই ভয়ে তিনি জীবনে বাজারের মিঠাই মণ্ডা খান নি । আমার মেঝ ভাই একবার উনার দুস্তিয়ালা গৌরাঙ্গকে আমাদের ঘরে খাইয়েছিলেন , আম্মা ঘরে ছিলেন না । পরে কোন প্লেটে খেয়েছে ভাবীরা এটা সনাক্ত করতে না পারায় উনি সব প্লেট ফেলে দিয়েছিলেন ।

সেই মায়ের পুত্র হয়ে আমি কিনা হরেন্দ্রর ‘ইয়ে’ ধরে বসে আছি । আমার আম্মা পারলে প্লেটের মত আমাকেও ফেলে দেয় অবস্থা । মাটিতে ঘষে ঘষে হাত ধুইয়ে আমার হাত ক্ষয় করে ফেলার জোগাড় । এর পরে ছাই , সব শেষে সোডার সাবান । মামী মামাতো বোনরা যেভাবে ছ্যা ছ্যা করছে , খেতে গিয়ে দেখি হাতের উপর আমার নিজেরই ঘেন্না লাগছে । চামচ দিয়ে কাজ সারালাম ।



আঘাত পেলাম সমবয়সী মামাতো বোনটির কথায় , সে ফরমান জারী করলো – সাবধান ! তোর ডান হাত যেন আমার গায়ে না লাগে ।‘
জামাই বউ খেলায় আমরা নিয়মিত দম্পতী , এমতাবস্থায় শুধু বাম হাতে পোষাবে ? যাক কি আর করা !
এমন সময় রিনা আরেক ফরমান পেশ করলো , আজ থেকে জামাই খলিল , তুই চাকর ! ফুট ফরমাশ খাটবি , বাজার করবি ।

পুরুষ মানুষের কাঁদতে নেই , ৬/৭ বছরের এই আমি তখনো মনে হয় পুরুষ হয়ে উঠিনি ; অন্য দিকে ফিরে চোখের জল মুছলাম ।

হরেন্দ্রর ''দোলবানের'' অভিশাপে ফুট ফরমাশ খাটা , বাজার করার চাকরীটা এখন আমার স্থায়ী , এমনই স্থায়ী যে এর কোন এল পি আর নাই , রিটায়ার নাই । :P :P





মন্তব্য ৭৯ টি রেটিং +১৭/-০

মন্তব্য (৭৯) মন্তব্য লিখুন

১| ১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:১৫

মোঃ সাইফুল্লাহ শামীম বলেছেন: আগে চা দেন। পড়ে আবার আসছি।

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:১৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: কি আর করা ! ''ফুড ফর রিড'' এর লোভ দেখিয়ে হলেও যদি দুচার জনকে পড়াতে পারি !! :P
আরও কয়েকজন আনা যায় কিনা দেখুন সাইফুল্লাহ ভাই , আপনার জন্য ডবল চা !!! =p~ =p~

২| ১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:২৫

মোঃ সাইফুল্লাহ শামীম বলেছেন: অতিরিক্ত হাসার কারনে আমার ইতিমধ্যে মাথাব্যথা শুরু হয়েছে। তারাতারি ঔষধ পাঠান!!!

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৩২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: এবার বুঝি 'ফুড' এর জায়গায় 'মেডিসিন' ????

৩| ১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:২৯

মোঃ সাইফুল্লাহ শামীম বলেছেন: সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণঃ
জীবনে কখনো আমার সাথে দেখা হলে ভুলেও হ্যান্ডশেক করার জন্য সেই হাত বাড়াবেন না কিন্তু।
প্রয়োজনে বামহাতে করবো!!!
হাঃ হাঃ হাঃ!!!

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৫৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: বুঝছি ! আপনি রিনার খালাতো ভাই , তা ভাই গ্লাভস লাগাইলে চলবো ?? :D

৪| ১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪০

নুরুন নাহার লিলিয়ান বলেছেন: হা হা ভাই যা শোনালেন। গুমোট মনটা ফুরফুরে হয়ে গেলো। হাসিতে নেই বাধা।ধন্যবাদ

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৫৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার আনন্দে আমিও আনন্দিত ! অনেক শুভ কামনা রইল নুরুন নাহার ।

৫| ১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৯

এডওয়ার্ড মায়া বলেছেন: হাসানোর জন্য ধন্যবাদ লিটন দা :)

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ৮:০৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: নজর বুলানোয় আনন্দিত ! আপনাকেও ধন্যবাদ এডওয়ার্ড মায়া ।

৬| ১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ৮:১৮

সুমন কর বলেছেন: না হেসে, পারলাম না !! শুরু থেকেই চমৎকার রম্য হয়েছে।

মাঝে শুধু চাচীর ধর্ম নিয়ে একটু বেশি বেশি মনে হয়েছিল......যদিও সে সময় উনারা তেমনই ছিলেন।

+।

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ৮:৩০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন:


আমার নিজের দেখা , আমার নানা বাড়ী থেকে আশে পাশের মানুষ টিউবওয়েলের পানি নিত । এক বয়স্ক হিন্দু মহিলার কলসিতে মুসলমান ছেলের হাত লাগায় তিনি মাটির কলসি আছাড় মেরে ভেঙ্গে ফেলেছিলেন ।
''সেকালে হিন্দু ,মুসলমান একে অন্যকে অস্পৃশ্য মনে করতো।'' অবশ্য সবাই নয় ।

আপনার পাঠ প্রতিক্রিয়া জেনে ভীষণ আনন্দিত , শুভ কামনা জানবেন সুমন দা ।

৭| ১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ৮:৫৬

সুমন কর বলেছেন: ''সেকালে হিন্দু ,মুসলমান একে অন্যকে অস্পৃশ্য মনে করতো।'' অবশ্য সবাই নয় । ---- আমি কিন্তু সেটাই বুঝিয়েছিলাম।

ভালো থাকুন।

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ৯:০৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনিও ভাল থাকুন কবি ।

৮| ১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ৯:০৪

মূল-উপদল বলেছেন: কি লিখলেন ভাই হাসতে হাসতে তো পেটে খিল ধরে গেলো

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ৯:০৮

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আমাকে আবার ক্ষেতিপুরনের জন্য ধইরেন না মূল-উপদল :P :P

৯| ১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ১০:১৭

প্রামানিক বলেছেন: হে হে হে যা কইছেন হাসতে হাসতে কাহিল। ধন্যবাদ

১৭ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ১১:০৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ প্রামানিক ভাই ।

১০| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ১২:৩১

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: ধর্ম নিয়ে আমার তেমন কোন মাথাব্যাথা নেই।। ভাগ্যিস গিন্নী ও শ্বাশুরী ধর্মভীরু হওয়াতে মুসলমানই আছি।।
তার আগে কিছুটা হেসে নিলাম।।

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সকাল ১০:৪৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার কমেন্ট পড়ে আমিও হাসছি সচেতনহ্যাপী , ধন্যবাদ ।

১১| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ২:৫৬

মহা সমন্বয় বলেছেন: হাঃ হাঃ প্রথম ছবিটা যা হইছে না, এক্কেবারে জব্বর। B-)

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সকাল ১১:৫৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: মহা সমন্বয় , আপনার জন্য আরেকখান ছবি - =p~

১২| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ৩:১৮

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন: হা,হা,হা পড়ে মজা পেলুম B-) B-)

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সকাল ১১:৫৮

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ শাহরিয়ার কবীর ।

১৩| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ ভোর ৫:৫০

মাদিহা মৌ বলেছেন: হাহাহাহা! একা একাই হেসে চলেছি।

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সকাল ১১:৫৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: একা হাসার বিপদ আছে , কেউ ভাবতে পারে কারো সাথে চ্যাট করছেন :P

১৪| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ ভোর ৬:৫৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: গিয়াস লিটন,




হুমমমমমমম এই জন্যেই আপনার ডান হাত যতো পোংটা পোংটা লেখা টাইপ করে যাচ্ছে এখনও ।
জামাই মাত্রেই চাকর । তা আমরা জামাইরা কোন ধনেন্দ্রর ধন ভরা থলেতে টান দিছিলাম ?????? আমরা কার কোনটা ধরে টান দিছিলাম যে কপালে আমরন চাকরের (বউয়ের স্বামী = জামাই ) মতো ফুট ফরমাশ খাটার এই চাকরিটা জুটছে ?????
হাঃ.......হাঃ....... হাঃ......... এবং ........

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:১১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আমার ধারনা ছিল হরেন্দ্রর 'ইয়ে' ধরার অভিশাপে আমরন চাকরের মতো ফুট ফরমাশ খাটার এই চাকরিটা শুধু আমিই করে যাচ্ছি
এখন দেখছি আহমেদ জী এস ভাইও ''ইয়ে'' ধরা পাবলিক । =p~ =p~ =p~

১৫| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সকাল ১০:১৭

সৌরভ_শাহনূর বলেছেন: :) :)

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:১১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: =p~ =p~ =p~ =p~ =p~ =p~

১৬| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সকাল ১০:৫৮

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: রম্য
বোধ অগম্য
হাহা হিহি হাসি
দুষ্টু লোকের ফাসি

স্বামী কেন চাকর
এইই ভেতরের খবর?
জিএসভাইর প্রশ্ন জব্বর!
জলদি চাই উত্তর ;)

কাউকে বলবনা
কি টেনেছিলে
অস্পৃশ্য হবে শেষ
ভাবীরে বললে ;)

++++++++++++++

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:২১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: =p~
=p~
=p~
হা হা হি হি কেনরে ভাই
কেন এত দিল খোশ
আপনিও কি ধরে ছিলেন
হরেন্দ্রর ওই অণ্ডকোষ ?

আগে যদি জানা থাকতো
ধরেছিলেন 'ইয়ে'
আপনার কাছে দিতাম না
ভাবীটাকে বিয়ে ।

আমি আপনি জি এস ভাই
একই পথের পথিক
বেমালুম চেপে যান
নেই অন্য গতিক !! ;);)

১৭| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সকাল ১১:৫৫

অশ্রুকারিগর বলেছেন: যা দেখাইলেন ভাউ। =p~ =p~ =p~

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:২২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: কারিগরি শুধু আপনিই দেখাইবেন ? =p~ =p~ =p~

১৮| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:৫২

অদৃশ্য বলেছেন:




খুবই মজার... মজাতে ভরপুর... শেষে কিনা বর-কনের বর থেকে চাকর... হাহ হাহ হাহ...

দারুন রম্য...
শুভকামনা...

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:৫৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অনেক অনেক ধন্যবাদ অদৃশ্য , আপনার জন্যও শুভ কামনা ।

১৯| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১:০৮

রূপক বিধৌত সাধু বলেছেন: ধর্মীয় ব্যাপারটা আহত করার মত, কিন্তু এটাই বাস্তবতা ছিলো । চরম হয়েছে রম্য, ছবিটার কথা তো বলাই বাহুল্য ।

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১:৩৩

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ধর্মীয় বিষয়টায় আমি ব্যাল্যান্স রাখার চেষ্টা করেছি । অনেক ধন্যবাদ রূপক বিধৌত সাধু ।

২০| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৩:৩৮

সুলতানা রহমান বলেছেন: খইলতা পড়ে হাসতে হাসতে শেষ। অবশ্য আরো তিন জায়গায় হাসছি। শিরোনামে লিখে দিতে পারতেন, শুধু মাত্র পুরুষদের জন্য =p~

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৫:০২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য লিখলে অপ্রাপ্ত বয়স্করা ভিড় করে , পুরুষদের জন্য লিখলে সুলতানা'দের ভিড় সামলাইতে হিমসিম খাইতে হইত :-P

২১| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৪:৩৬

বলবো না!! বলেছেন: ""আমার বুঝে আসছিল না ও বস্তু তার নিজের স্থান ছেড়ে বিঘত খানেক নিচে এসে ঝুলছিল কেন?""
--আকাশ ছিল এত্ত ছোট, চাঁদ ধরেনা তাতে !!
প্রশ্ন আসতে পারে, অই লাইন ই কেন ?
এটাইতো প্রাচীন সমস্যা, জায়গার বস্তুু জায়গায় থাকেনা...যদি উহার স্থানচ্যুতি না ঘটত তবে কি এতো কিছু হত!!
আপনার লেখাতো সবসময়ই দারুন।
ধন্যবাদ ভালো থাকবেন ।

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৫:০৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার লেখাতো সবসময়ই দারুন। ধন্যবাদ । আপনাকে প্রথম পেলাম মনে হয় !

বলবো না!! বলবো না!! করেতো সব বলে দিলেন ! আমিও পরে জেনেছিলাম বয়স বেশি হলে নাকি ওটার ইলাসটিসিটি বেড়ে যায় । =p~

২২| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৪:৪১

অরুনি মায়া অনু বলেছেন: হা হা হা কিচ্ছু বলার নেই। শুধুই মজা।

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৫:২৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ধন্যবাদ , অনেক ধন্যবাদ অনু ।

২৩| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৫:৫১

Mk jorze বলেছেন: বেজায় সুঃখিত ।

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৫:৫৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সুঃখিত ? দারুন এক্সপেরিমেন্টাল ওয়ার্ড !!!!

২৪| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৫:৫৬

খোলা মনের কথা বলেছেন: হরেন্দ্র আর্ত চিৎকারের ফাঁকে ফাঁকে জানালো – ‘’চবুরার হোলায় আঁর ‘অন্তরকোষ’ টানি ছিঁড়ি ফালাইতো লাগছে গো --- ।‘’ =p~ =p~ =p~

আগে কি সুন্দর দিন কাটাইতাম,
গ্রামের নওজোয়ান হিন্দু মুসলমান
মিলিয়া বাউলা গান আর মুর্শিদি গাইতাম.....

গানটি মনে পড়ে গেল আপনার লেখা পড়ে।
ব্যাপুক হাঁসানোর জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ লিটন ভাই...

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: খোলা মনের কথার খোলা মেলা কথা ভাল লাগলো । আপনিও ধন্যবাদ নিবেন ।

২৫| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ বিকাল ৫:৫৮

গেম চেঞ্জার বলেছেন: এত টেটনামি ভালু নাহঃ :-P লোকটার ডিম ধরে টানাটানি!! B-))

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: গেম ভাই ।দোলবানের ভিত্রে যে ব্যটায় ডিম রাখছে সেটা কি আমি জানি ? :-P

১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: গেম ভাই ।দোলবানের ভিত্রে যে ব্যটায় ডিম রাখছে সেটা কি আমি জানি ? :-P

২৬| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৬

গেম চেঞ্জার বলেছেন: সে-ই মাপের রস!! B-) =p~

১৯ শে আগস্ট, ২০১৬ সকাল ১০:৫৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: না'রে ভাই রসের ঘাটতি আছে , ১৫/১৬ সালে মনে হয় এটাই আমার প্রথম লিখা যা নির্বাচিত পাতায় জায় নি ।

২৭| ১৮ ই আগস্ট, ২০১৬ রাত ৯:০৫

নীলপরি বলেছেন: উফ , দারুন উপস্থাপনা । :) :)

++++

১৯ শে আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:২০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ নীলপরি ।

২৮| ১৯ শে আগস্ট, ২০১৬ সকাল ৭:৪৩

কি করি আজ ভেবে না পাই বলেছেন: বলবো না!! বলবো না!! করেতো সব বলে দিলেন ! আমিও পরে জেনেছিলাম বয়স বেশি হলে নাকি ওটার ইলাসটিসিটি বেড়ে যায় । =p~

লোকে করে ইয়াগ ইয়াগ
আমি কই বাহ;
হরেন্দ্র'র ইয়েটিতে
সেকি গুণ,আহ।

কোন কচিকালে তুমি
টেনেছিলে'খন;
সেই রেষে বেরুলো যে
প্রবাসী গুণীজন।

হরিদা'র গোল্ডটিতে
কত বাপু বরকত;
রাজী আছি শতবার
করতে সে হরকত।

ইলাসটিসিটি নিয়ে
জ্ঞাণ দেখি টনটনে;
...........কি একি দশা
কও দিনি গোপনে। =p~ =p~

১৯ শে আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:৫০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: =p~
=p~
=p~
=p~


হরি’দার ওটা ছিল
অভিশপ্ত ইয়ে
তার ছোঁয়ায় ভাঙল আমার
খেলা ঘরের বিয়ে ।

সেই শাপ’এ স্বামী হল
চাকরেতে বলি
আজো আছে হাতে মোর
বাজারের থলি ।

কি করি হতে চাও
আমার মত গুণী (?)
হরি’দার ইয়ে ধুয়ে
তুমি খাও পানি ।

শাপ দিচ্ছি তোমাকে
না শুনুক ঠাকুর
হাহাকার করবে তুমি
‘স্বামী কেন চাকর?’

কি বুঝাতে চাইলে তুমি
...........(ডট) দিয়ে শত ?
আমারটাও আছে জেনো
তোমারটার মত । =p~ =p~ =p~ =p~ :-P :-P :P :P

২৯| ১৯ শে আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:৪৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: =p~
=p~
=p~
=p~


হরি’দার ওটা ছিল
অভিশপ্ত ইয়ে
তার ছোঁয়ায় ভাঙল আমার
খেলা ঘরের বিয়ে ।

সেই শাপ’এ স্বামী হল
চাকরেতে বলি
আজো আছে হাতে মোর
বাজারের থলি ।

কি করি হতে চাও
আমার মত গুণী (?)
হরি’দার ইয়ে ধুয়ে
তুমি খাও পানি ।

শাপ দিচ্ছি তোমাকে
না শুনুক ঠাকুর
হাহাকার করবে তুমি
‘স্বামী কেন চাকর?’

কি বুঝাতে চাইলে তুমি
...........(ডট) দিয়ে শত ?
আমারটাও আছে জেনো
তোমারটার মত । =p~ =p~ =p~ =p~ :-P :-P :P :P

২৬ শে অক্টোবর, ২০১৬ সকাল ১০:৩০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: =p~ =p~ =p~ =p~

৩০| ১৯ শে আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ২:৩৩

সাহসী সন্তান বলেছেন: প্রথমে ভাবছিলাম ব্যাটার থলে ধরে টান দিলে ব্যাটা গড়াগড়ি খাবে ক্যান? তবে পরে বিষয়টা ক্লিয়ার করায় আমিও এখন গড়াগড়ি খাচ্ছি! আপনি পারেনও, হাসতে হাসতে পেট ব্যাথা হয়ে যাওয়ার অবস্থা..... =p~

খুব খুব ভাল লাগলো আপনার রম্য! আমি মেজরিটি পার্সেন্টই দেখেছি আপনি বাস্তব ঘরনার রম্য লেখেন! কিন্তু সেটা এতসুন্দর ভাবে সাঁজিয়ে পাঠকের সামনে উপস্থাপন করতে পারেন যে, আন-লিমিটেড হাসি চলতেই থাকে!

অনেক অনেক শ্রদ্ধা আর ভালবাসা রইলো প্রিয় লেখকের জন্য! আগামীতে আপনার কাছ থেকে এমনই সুন্দর সুন্দর পোস্ট পাবো, সেই আশা পোষণ করছি! শুভ কামনা লিটন ভাই!

১৯ শে আগস্ট, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: এ আপনার আন্তরিকতার বাড়াবাড়ি সাস ভাই ।
এখানে আমার কোন কৃতিত্ব নেই ,আসলে পাঠক হিসেবে আপনি রসবোধ সম্পন্ন , যদ্দরুন আমার আবজাব লিখা আপনার ভাল লাগে । অনেক ধন্যবাদ , অনেক শুভ কামনা।।

৩১| ২০ শে আগস্ট, ২০১৬ সকাল ৮:১১

চাঁদগাজী বলেছেন:



যাক, জীবনে বেকারত্ব অনুভব করছেন না, ভালো!

২০ শে আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১২:১৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: জী ভাই , অবৈতনিক !!!!

৩২| ২৭ শে আগস্ট, ২০১৬ দুপুর ১:২৪

গোফরান চ.বি বলেছেন: বিনুদিত :)

২৮ শে আগস্ট, ২০১৬ রাত ১০:২৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ।।

৩৩| ০৭ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ সকাল ১১:০৬

তামান্না তাবাসসুম বলেছেন: হিহিহি,,, হাসতে হাসতে শেষ :P :)

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৩৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: শেষ হবেন কেন ? হাসতে হাসতে বাঁচুন !
অনেক ধন্যবাদ তামান্না ।

৩৪| ০৭ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ বিকাল ৩:২৩

ধমনী বলেছেন: দারুণ।
কাঁচি হারালে কাঁচি পাওয়া যায় , আমার নানা বাড়ীতে যে নাপিত আসতো সে হারাতে বসেছিল এমন বস্তু যা হারালে পাওয়ার সম্ভাবনা ছিল না ।- এ লাইন থেকেই সন্দেহ করছিলাম- "দুষ্ট" কিছু হতে চলেছে।

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৪১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনি সমজদার পাঠক , ধমনী ভাই , আপনি না বুঝলে কে বুঝবো ? B-)

৩৫| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:১৫

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:



এত সুন্দর গল্পটা কেন যে এত দিন
চোখের অআড়ালে ছিল, খুব আফছুছ
হচ্ছে সময়মত পাঠ না করার জন্য ।
খুব ভাল লাগল পাঠে ।
শুভেচ্ছা সাথে ঈদ মোবারক

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ সন্ধ্যা ৬:৪৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার সুন্দর মন্তব্য ভাল লাগলো । আপনাকেও ঈদের শুভেচ্ছা এম এ আলী ভাই ।

৩৬| ৩০ শে অক্টোবর, ২০১৬ দুপুর ১:৪৪

মানবী বলেছেন: ব্লগে পড়া অন্যতম শ্রেষ্ঠ রম্য!

পোস্টের ছবি দেখে অবাক হলাম! এমনি ভাবে ঘাড়ের উপর বসে আছে কেনো? ভয়ংকর ব্যাপার!
৫/৬ বছরের রিনার বিবেচনাবোধে মুগ্ধ!! শুধু জানতে ইচ্ছে এখনও বাম হাতেই স্পর্শ না ডান হাত অনুমতি পেয়েছে!! :-)

পার্মানেন্ট চাকরীর আন্তরিক অভিনন্দন!
মজার পোস্টের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ ভাইয়া।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৬ দুপুর ১:৩১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার চমৎকার মন্তব্যটি পড়ার পর পোস্টটি আবার পড়লাম । :D
মজার মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ মানবী।

৩৭| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৬ দুপুর ২:০৯

মার্কো পোলো বলেছেন:
হাহা। বেটার অবস্থা শুনে মায়া লেগেছিল কিন্তু হাসি থামাতে পারলাম না। :) :D

০২ রা নভেম্বর, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৪৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: মন্তব্যে অনুপ্রাণিত , ধন্যবাদ মার্কো পোলো ।

৩৮| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৬ দুপুর ২:৫৫

রানার ব্লগ বলেছেন: পেট ব্যথা করছে রে ভাই। হাসতে হাসতে চোখে পানি এসে গেছে।

০২ রা নভেম্বর, ২০১৬ সন্ধ্যা ৭:৫৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: মন্তব্যে আনন্দিত! অনেক ধন্যবাদ রানা ভাই ।

৩৯| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১২:৩০

উদাস মাঝি বলেছেন: পুরা মাথার উপর দিয়া গেল :D

আচ্ছা লিটন ভাই , আপনি যে ডান হাতে ইয়ে ধরছেন হেইডা ভাবি কি জানে ;)

২২ শে অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১২:২৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: এমন উদাস হইয়া থাকলে মাথার উপ্রে দিয়াতো জাইবই :P

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.