নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

চলে যাব- তবু যতক্ষণ দেহে আছে প্রাণ, প্রাণপণে পৃথিবীর সরাব জঞ্জাল।

হাবিব স্যার

বিশ্বজোড়া পাঠশালা মোর, সবার আমি ছাত্র।

হাবিব স্যার › বিস্তারিত পোস্টঃ

নারী তোমার জন্য

০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৩:১০



তোমার জন্য লাখো কবিতা কত গান আর উপন্যাস,
কত মৃত জীবন পেল; কেউবা আবার মৃত (লাশ)।
নির্ঘুম কারো শত রজনী তোমায় নিজের করার তরে,
বহুদূর আবার যায় চলে কেউ ধর্ম স্বজন বন্ধু ছেড়ে ।

তুমি ছিলে কি হ্যামিলনে?
নাকি তুমি হ্যামিলনের গুরু;
সেই যদি হয় তোমার আসল রূপ,
সেথা হতেই পারে সর্বনাশের শুরু।

তোমার জন্য কাব্যের ভাব ক্রমে -
কঠিন থেকে কঠিনতর;
দূর্বোধ্য সব গদ্যের ভাষা-
শুকুন্তলার মতো ,

গানের প্রকাশ ক্রমেই যেন ঝাপসা বনে গেল।
কে জুড়াবে তাদের ভাঙ্গা মন ;
সারাবে কে দগদগে সেই ক্ষত।

তোমার জন্য কেউ হলো দেবদাস,
কেউবা আবার বরশি বেয়ে প্রেমিক চন্ডিদাস।
তোমার জন্য কত জনের ভেঙ্গে গেল মন ,
কেউ হারালো তোমার জন্য নিজের সিংহাসন।

তোমার জন্য পিঁপড়া হয়ে মধুর পানে ছুটে,
আসলে তা মধুতো নয় বিষ কপালে জুটে ।
তোমার জন্য ভাইয়ে ভাইয়ে কত হল দ্বন্দ্ব
প্রকাশ পেল কত জনের শত ভাল মন্দ।

তোমার জন্য ইতিহাসের প্রথম হলো খুন ,
কাবিল মারলো হাবিলকে;
দেখ- তোমার কত গুন।

তোমার জন্য মজনু দেখ নাম না জানা কত জন,
তিলে তিলে তোমার তরে শেষ হইতে কতক্ষণ ।

তোমায় আদম চেয়ে নিল ভাল থাকার তরে,
আবার তোমার জন্য আসতে হলো-
জান্নাত থেকে নিম্নস্তরে ।

তোমার জন্য গীতান্জলী তোমার জন্য প্রেম,
তোমার তরে আমার জীবন বাজী রাখিলেম।
তোমার জন্য সাজানো আজ কত কাব্য উপন্যাস,
কারো আবার হৃদয় পটে দু:খের সাথে বসবাস ।

তোমার জন্য স্বপ্ন দেখা তোমার জন্য কলম ধরা,
তোমায় পেলে তপ্ত হৃদে নামে শীতল ঝরনা ধারা ।
তোমার জন্য নাও ভাসিয়ে চায় যেতে কেউ তেপান্তরে,
কেহ আবার সারাজীবন থাকে বসে নদীর ধারে।

তোমার জন্য হিরো কেহ চায় পাথরে ফুল ফুঁটাতে,
একশ একটা দিঘীর পদ্ম তোমার তরে চায় জুটাতে।
তোমার জন্য মহানায়ক কেউ আবার আজ গায়ক হয়ে,
দেশের তরে অনেক করে তবু তুমি রও হৃদয়ে।

তোমার জন্য আসিফ পেলাম তোমার জন্য মনির খান,
কেহ আবার বোকার মতো করতে পারে আত্মদান।
তোমার জন্য কবি নজরুল; পেলাম দেখ বিশ্বকবি,
কেহ আবার জীবনানন্দ হৃদয় খামে তোমার ছবি।
তোমার জন্য সব্যসাচী হিমু নামের জন্ম দিলে,
বহুরূপী তুমি আবার এ কোন তোমার রূপ দেখালে?
তোমার জন্য লালন পেলাম তোমার জন্য হাছন রাজা,
তোমার জন্য রক্ত গোলাপ মৃত বৃক্ষ করে তাজা।

অজানাতে কেউ যেতে চায় কেউবা আবার নদীর শেষে,
কেহ আবার জীবন তরী দেয় কাটিয়ে বাউল বেশে।
তোমার জন্য জোসনা ছড়ায় দূর আকাশের চাঁদের আলো,
জোনাক পোকা নিবে জ্বলে দেখতে অনেক লাগে ভালো।
তোমার জন্য বিনি সুতায় গাঁথে কেহ ফুলের মালা,
বদ্ধ হৃদয় খুলে গেল ভেঙে কারো মনের তালা।
তোমার জন্য নদীর ধারে কাশফুলের ঐ নরম ছোঁয়া,
তোমার জন্য ছাড়ে কেহ সিগারেটের কালো ধোঁয়া।

সৈয়দ আব্দুল হাদী মজনু বনে তোমার কেশে,
তোমার জন্য কবিরা আজ রাজার বেশে।
তোমার জন্য কুঁড়েঘর আর নগর বাঊল,
জলের গানে মুগ্ধ দুপুর আশীষ নেউল।
তোমার জন্য কতো বাসর ফুলের তোড়া,
ভাঙ্গা হৃদয় তোমার তরে লাগে জোড়া।
টকটকে লাল সূর্যাস্ত সাগর পাড়ে,
ময়না কোকিল কি বলিয়া ডাকবো তারে?

তোমার প্রেমে কেউবা আবার কারো প্রেমে তুমি পরো,
কখনো বা গলা ছেড়ে আইয়ূব বাচ্চুর গানটি ধরো।
দেখ- ভুল করিলে তোমার লাগি মন করে আনচান,
আবার- তোমার লাগি কেউবা আনে সদরঘাটের খিলি পান।

ছোট্ট জাহিদ তুমি নামের গান করিয়া-
কেমন শিল্পী হয়ে গেল,
আবার বিশ্ব প্রেমিক ভালবেসে তোমার তরে-
কি বা বলো পেল।

তোমার জন্য ধ্বংস হলো ট্রয় নগরী
তোমার জন্য ব্যবিলনের ঝুলন্ত উদ্যান,
তাজমহল কে গড়লো বলো তোমার তরে-
কোন সে পুরুষ? সে তো সম্রাট সাজাহান।

তোমার গর্ভে এই জগতের সৃষ্টি সকল কিছু,
সাধ্য কাহার মর্যাদা তার-
করতে পারে নিচু?

তোমার গর্ভে নবী রাসুল কিংবা শহীদ গাজী,
হতে পারে লেংড়া আতুর খারাপ কিংবা পাজি।
তাদের- ফেলতে নাহি পারো,
আদর করে নাও তুলিয়া বুকে।
যত্ন করে বড় করো গভীর ভালোবেসে,
যতই থাকো দুঃখে কিংবা যতই সুখে।

তুমিতে কেউ খুঁজে ফিরে কামুক মনের আহার,
কেউবা আবার খুঁজে সেথা খনি ভালোবাসার।

তোমার জন্য নাযিল হলো তায়াম্মুমের বিধান,
তোমার জন্য মক্কা মরু ফিরে পেল প্রান।

তুমি কোথাও কন্যা বধু কোথাও তুমি মা,
কোথাও তুমি ভগ্নি তোমার হয়না তুলনা।

নবীর প্রেমে সপে দিলে তোমার সকল ধন,
ফেরাউনের ঘরে আবার অটল তোমার মন।
তোমার জন্য কেউ নরকে কেউবা সুখের জান্নাত,
তোমার কাছে সান্ত্বনা পায় নবীর প্রথম নবুয়াত।

এক লেখাতে শেষ হবে না তোমার যত অবদান,
কোরআন হাদীস সকল গ্রন্থে রয়েছে তাহার প্রমান।
তাই- তোমার জন্য লিখে দিলাম শত লাইনের এই কবিতা,
হৃদয় খামে যত্নে আছে চকচকে নীল সেই ছবিটা।
তোমার জন্য দেখতে পেলাম এই দুনিয়ায় আলোর মুখ,
আদর সোহাগ দিয়ো আমায়; ভালোবাসা একটু সুখ।
....................................................................
ছবি সূত্র: http://www.amar-sangbad.com

মন্তব্য ৮ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৪:৩৫

ফারিহা হোসেন প্রভা বলেছেন: এই সমাজে কিন্তু ১০০ভাগের ৭০ভাগই নারী করেছেন। B-)
আপনার কবিতাটি সুন্দর হয়েছে প্রতিবারের মতই।

০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:০৫

হাবিব স্যার বলেছেন:




প্রথম মন্তব্যকারী হিসেবে আপনাকে স্বাগতম।
ব্লগ লিখার পর আপনার পদচারনার অপেক্ষায় থাকি।
প্রতিবারের মতো এবারো অনুপ্রাণিত হলাম।

২| ০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:৫০

আরোগ্য বলেছেন: " তোমায় আদম চেয়ে নিল ভাল থাকার তরে,
আবার তোমার জন্য নামতে হল
জান্নাত থেকে নিম্ন স্তরে। "
দ্বিমত পোষণ করছি। আদমের পৃথিবীতে আগমন পূর্ব নির্ধারিত।

০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১৪

হাবিব স্যার বলেছেন:




মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। আসলে এখানে হাওয়া (আঃ) কে ঠিক দোষী করা হয়নি, সবই আল্লাহর মহা পরিকল্পনার অংশ। তবে শয়তানের ধোঁকায় পরে মা হাওয়ার মাধ্যমে যে বাবা আদম (আঃ) ফল খেয়েছেন এবং পৃথিবীতে আগমন করেছেন এখানে সেটাই উদ্দেশ্য ছিল। আল্লাহ ভুল মার্জনা করুন। আমাদের কে উত্তম জ্ঞান দান করুন। আমীন।

৩| ০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:৫৯

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: স্যার আপনার কবিতা বেশ উচ্চ মার্গের হয়েছে। লাইকও দিয়েছি ।
তবে আপনাি নারীকে যে ভাবে দেখিয়েছেন, এগুলি যদি পর্বাকারে দিতেন বা এক একটি পর্বকে পৃথকভাবে পোস্ট করতেন তাহলে আরও সুখ পাঠ্য ও আকর্ষণীয় হত। যে ছন্দ আপনার আগের কবিতাতে পেয়েছি বা এই কবিতাতেও শুরুতে দেখিয়েছেন, বা পরেও দেখিয়েছেন কিন্তু আগাগোড়া সেই ছন্দ ধরে রাখতে পারেননি সম্ভবত বিশালাকার বপুর কারনে।

যাইহোক প্রচেষ্টা সুন্দর । অবশ্য আপনি আমার মতটি ভালো ভাবে নিবেন সেই দাবীরেখেই কথাটি বললাম।


শুভকামনা ও ভালোবাসা আপনাকে ।



০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৩৬

হাবিব স্যার বলেছেন:




পদাতিক ভাইয়া, আপনার মতামত পেয়ে অনেক আশান্বিত হলাম। অপেক্ষায় ছিলাম আপনার পদচারনার জন্য? আমি আপনার পরামর্শ মেনে চলবো অক্ষরে অক্ষরে। সাথে সাথে আপনার পদধূলি সামনের দিনগুলিতেও আমার ব্লগকে আলোকিত করবে এই কামনা করি। আপনার মূল্যবান মতামত আমাকে ব্লগ লিখতে সাহায্য করবে। ধন্যবাদ ভাইয়া, পাশে থাকবেন। ভুল মার্জনীয়।

৪| ০৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১২:২৮

এ.এস বাশার বলেছেন: ভালো লিখেছেন ভাই চিন্তার কোন কারন নেই। আপনার কবিতা লেখার হাত ভালো। চালিয়ে যান। আশা করি খুব তাড়াতাড়ি সেফ হবেন। দোয়া রইল।

০৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:৩১

হাবিব স্যার বলেছেন:




আপনার সুন্দর মতামত নতুন করে আমার মনে আশার সঞ্চার করলো।
পুঞ্জিভূত হতাশার মেঘ সরে গিয়ে আশার প্রদীপ চাঁদের ন্যায় আমার ব্লগ পাড়ায় জ্বলজ্বল করছে।
ধন্যবাদ জানবেন।
আমার আজকের ব্লগ "জ্যামিতিক ভালোবাসা" পড়ার জন্য অগ্রিম আমন্ত্রন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.