নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

চলে যাব- তবু যতক্ষণ দেহে আছে প্রাণ, প্রাণপণে পৃথিবীর সরাব জঞ্জাল।

হাবিব

বিশ্বজোড়া পাঠশালা মোর, সবার আমি ছাত্র।

হাবিব › বিস্তারিত পোস্টঃ

আমাদের বংশে পুরুষদের চেয়ে নারীদের আয়ু অন্তত ২০ বছর বেশি

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:১৫



সারাদেশে করোনার ভয়াল থাবা।
করোনার আগ্রাসন থেকে পিছিয়ে নেই আমাদের গ্রামও। কিন্তু এটি কেউ মানতেই চাচ্ছেন না মনে হয়। মানতে চাচ্ছেন না বলছি তার কারণ হলো হাট কিংবা বাজার চলছে আগের মতোই। স্বাস্থ্যবিধির কোন বালাই নেই। কোন দোকানপাট বন্ধ নেই। বেঁচা-বিক্রি চলছে সাধারন সময়ের মতোই। গ্রামের প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই করোনার উপসর্গ নিয়ে অবস্থান করছেন এমন রোগীর সংখ্যা কম নয়। কোন কোন পরিবারেরর সবাই ঠান্ডা-কাশি-নাকে ঘ্রাণ না পাওয়া ইত্যাদি উপসর্গ নিয়েই দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছেন। করোনাকে কেউ গোনায় ধরছেন না। দিনে দুই-একবার বাজারে পুলিশের অভিযান চললেও সারাদিন যেই-সেই অবস্থা।এরই মধ্যে গ্রামের অন্তত ১৫ জন মারা গেছেন করোনার উপসর্গ নিয়ে। কেউই করোনা টেস্ট করাননি। সরকারের তালিকায়ও এদের নাম নেই। সুতরাং বললতে হবে সরকার করোনার সঠিক হিসাব পাচ্ছেন না।

আমাদের গ্রামের নাম উত্তর পেকুয়া।
পূর্বে অবশ্য পেকুয়া নাম ছিলো। গ্রামটি বেশ বড় হওয়াই দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। একটি উত্তর পেকুয়া, আরেকটি পেকুয়া নামেই রয়েছে। গ্রামে আমাদের পাড়াকে সবাই মৌলভী বাড়ি নামেই চিনেন। আমার দাদা, তাঁর দাদা, এভাবে কয়েক পুরুষ ধরে বংশে মৌলভী ছিলেন। খুব একটা সম্ভ্রান্ত নয় আমাদের বংশ। সবাই বেশ পরিশ্রম করে জিবিকা নির্বাহ করতেন। আমার দাদা পর্যন্ত সবাই তাঁতের কাজ করতেন। মানে শাড়ি লুঙ্গি গামছা এসব হাতে চালিত তাঁতে বুনতেন এবং স্থানীয় হাটে বিক্রি করতেন। বেশ উন্নত মানের কাপড় বুনলেও দাম পেতেন না তেমন। যা পেতেন তা দিয়ে সংসার আর চলতো না। আমার জন্মের পরও এই তাঁতের কাজ ছিলো কিছু দিন। আমি যখন ক্লাস এইটে, সে সময় থেকেই বাড়িতে তাঁতের কাজ বন্ধ হয়ে যায়। আমার বাবা সহ আর যারা কাপড় বুনতেন তারা সবাই চলে যান দোহারের জয়পাড়ায়। সর্বশেষ ২০০৮ পর্যন্ত দোহারের জয়পাড়াতেই কাজ করতেন বাবা।

আমাদের পরিবারের পুরুষরা ৭০ পেড়িয়েছেন এমন খুব কমই আছে।
আমার ৫ জন চাচাতো দাদা (দাদার ভাই), ৬ চাচাতো চাচা (বাবার চাচাতো ভাই) মারা গেছেন আমার দশ বছরের সময়। এখনো তাদের স্ত্রীরা জীবিত আছেন। আমি বিষয়টা নিয়ে ভাবি মাঝে মাঝে। এই কথা আমি আরিশের আম্মুকেও বলেছি। এমন কথা উঠতেই আয়েশার মন খারাপ হয়ে যায়। আয়েশা বলেন, আমি তোমাকে ছাড়া একদিনও বাঁচতে চাই না। বৃদ্ধ বয়সে তোমাকে কাছে চাই, না হলে দুজনকেই যেন এক সাথে আল্লাহ মরন দেন। আমি বেশি কিছু বলে আর কথা বাড়াই না। শুধু বলি, "আমিন"।

এই দিক থেকে অবশ্য আমার দাদা-দাদী খুবই ভাগ্যবান।
ওনারা দুজনেই মারা গেছেন আমার এসএসসি টেস্ট পরীক্ষার সময়। দাদী মারা যাবার এক সপ্তাহ পর মারা যান আমার দাদা। আমি খুব কেঁদেছিলাম। দাদা-দাদীকে নিয়ে একদিন বিস্তারিত ব্লগ লিখবো আশা আছে। সেই ব্লগে বাকি কথা বলবো।

আল্লাহর কাছে আমি সবসময় চাই আমি-আয়েশা দুজনে যেন এক সাথে বাঁচি অথবা মরন এলে দুজনেই যেন এক সাথে মরতে পারি। আয়েশা ছাড়া একটি দিনও আমি ভাবতে পারি না। আয়েশাও আমাকে ছাড়া অসহায় হয়ে যাবে। আল্লাহ যেন আমাদের প্রার্থনা কবুল করে নেন। আমিন।

মন্তব্য ৩৯ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (৩৯) মন্তব্য লিখুন

১| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:৩৫

আলমগীর সরকার লিটন বলেছেন: সুন্দর পড়ার জন্য অপেক্ষা থাকলাম দাদা

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:৪৫

হাবিব বলেছেন: এই ব্লগ নিয়ে কিছু বললে ভালো লাগতো।

২| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:৪২

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: পৃথিবীতে গড়ে মেয়েদের আয়ু বেশী সব দেশেই। তবে আপনার ক্ষেত্রে বয়সের পার্থক্যটা অস্বাভাবিক মনে হচ্ছে।

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:৪৯

হাবিব বলেছেন: আমার দুই চাচাতো দাদী এখনো বেঁচে আছেন যাদের স্বামীরা মারা গেছেন ২০০০ সালেরও আগে। আমার যে চাচীরা বিধবা তারাও তাদের স্বামীদের হারিয়েছেন বছর দশেক আগে। এক চাচাতো বোন তার স্বামীকে হারিয়েছেন বিয়ের ৫ বছরের মাথায়। আমার আপন ফুফু স্বামী হারিয়েছেন আমার যখন ২ বছর বয়স তখন। আমার ফুফু এখনো জীবিত।

৩| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ দুপুর ২:৫০

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:

হাবিব ভাই
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এর ২০১৬ সালের তথ্য অনুসারে,
বিশ্বব্যাপী মানুষের গড় আয়ু ছিল ৭২ বছর। কিন্তু নারী ও পুরুষের
আয়ুষ্কাল আলাদাভাবে তুলে আনার পর দেখা যায় নারীদের গড় আয়ু
৭৪ বছর দুই মাস, অন্যদিকে পুরুষদের গড় আয়ু ৬৯ বছর আট মাস।

আপনার চাওয়াটা সুন্দর তবে আপনারা আরো দীর্ঘদিন বেঁচে থাকুন এই
ধরায়, সেই আশির্বাদ ইলো।

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৩:১১

হাবিব বলেছেন: তথ্যটি শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ নূরু ভাই। আপনার আশির্বাদ মঞ্জুর হোক।

৪| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৩:৪৫

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: সাবধাস থাকুন, সুস্থ থাকুন।

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:০৭

হাবিব বলেছেন: আল্লাহ ভরসা। আপনিও সুস্থ থাকবেন ভাইয়া।

৫| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:৩০

শেরজা তপন বলেছেন: আপনার মনোবাসনা পুর্ণ হউক। বেঁচে থাকুন বহু যুগ, সুস্থ্য দেহ-ভালবাসায় পূর্ণ নির্মল মন নিয়ে।

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:৫৩

হাবিব বলেছেন: আমিন। আপনার প্রার্থনা মঞ্জুর হোক।

৬| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:৪৮

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: পোষ্টে খারাপ লেগেছে-
১- করোনা নিয়ে জনসচেতনতার অভাব। 15 জন মারা গেল অথচ কোন উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা নেই। বিষয়টা খুবই দুশ্চিন্তায়..
২-পুরুষের গড় আয়ু মহিলাদের তুলনায় কুড়ি বছর কম- বিষয়টা নিঃসন্দেহে দূরভাবনার। জেনে বিষন্ন হলাম।

ভালো লেগেছে-
১-ব্লগে মাঝে মাঝে বনেদি পরিবারের পোস্ট দেখি। নিজেকে এমন পরিবারের সদস্য বলতে না পারায় একটা হীনমন্যতা তৈরি হয়।সেই স্থলে আপনাকে অবনেদি দেখে খুশি হলাম। আসুন দুজনে কোলাকুলি করি।
২-দাদা দাদির সঙ্গে আপনার অত্যন্ত আবেগঘন মুহূর্ত কেটেছে।এ স্মৃতি বাকি জীবনে সুখস্মৃতি হয়ে থাকুক। আপনার সেই স্মৃতি রোমন্থনের অপেক্ষায় রইলাম।আজ সুখ দুঃখের পোস্টে লাইক।


শুভেচ্ছা প্রিয় হাবিব ভাইকে।




০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৫:১৩

হাবিব বলেছেন:





পোস্টে ভালো লাগা এবং মন্দ লাগা বিষয়টি সুন্দর ভাবে সারাংশ করলেন, ভালো লাগলো ব্যতিক্রমী মন্তব্যটি। মন্তব্যে ++

আপনার সাথে দেখা হলে কোলাকোলি হবে ইনশাআল্লাহ

৭| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:৪৯

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনার বর্তমান পেশা সম্পর্কে আমার ধারণা নেই, আপনি আধুনিক জ্ঞানের আলোকে ভাবুন, তা'হলে আপনার ভাবনাগুলো সঠিক হবে; বাকী ব্লগারেরা আপনার লেখা থেকে উপকৃত হবেন।

শ্রীলংকা থেকে বার্মা অবধি দ্রাবিড়দের বসবাস; শ্রীলংকার মানুষ গড়ে এখন ৭৮ বছর, বাংলাদেশের মানুষ ৭৩ বছর, বার্মার মানুষ ৬৭ বেঁচে থাকছেন; এর মাঝে আপনি মানুষের আয়ু নিয়ে লজিক খুঁজে পাবেন, আশাকরি।

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:৫৮

হাবিব বলেছেন: আমার বর্তমান পেশা স্বনামধন্য একটি ফার্মাসিউক্যাল কোম্পানির কিউসি অফিসার। আধুনিক জ্ঞানের আলোকে ভাববার চেষ্টা করছি। তথ্যের জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি

৮| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:৫৩

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনাদের বংশের ডা টা থেকে কিছুটা অনুমান করা সম্ভব যে, আপনি ৭০ বছরের চেয়ে বেশী বাঁচার সম্ভাবনা; আরিশের মা অন্য বংশের (সম্ভবত ) নারী; আপনি তাঁদের ডাটা সংগ্রহ করলে উনার আয়ু সম্পর্কে একটা আনুমানিক ধারণা পাবেন। আপনাদের উভয়ের দীর্ঘ আয়ু কামনা করছি।

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৫:০২

হাবিব বলেছেন:





আরিশের আম্মুর দাদা মারা যাবার ১৮ বছর পর দাদী মারা গেছেন এ বছরই। ওর নানা মারা গেছেন ১ বছর হলো, নানী এখনো জীবিত, সুস্থ আছেন। ওর এক খালার স্বামী মারা গেছেন ১২ বছর হলো। তার আরেক জায়গায় বিবাহ হয়েছিল, সেখানেও স্বামী ৩ সন্তান রেখে গত বছর মারা গেছেন। এখন স্বামীহীনা তিনি ৪ সন্তান নিয়ে চলছেন কোন মতে।

এই ডাটা থেকে কি কিছু অনুমান করতে পারেন?

৯| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:৫৪

চাঁদগাজী বলেছেন:



বাংলাদেশে আনুমানিক কি পরিমান মানুষ করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন?

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৫:১০

হাবিব বলেছেন: সরকারি হিসাব মতে বাংলাদেশে করোনার মৃতের সংখ্যা আজকে পর্যন্ত মোট মৃত্যু ২১১৬২। তবে আমার মনে হয় এই সংখ্যাটা আরো কমপক্ষে পাঁচগুণ কিংবা আরো বেশি। যারা মৃত্যুবরণ করছে তাদের টেস্ট হচ্ছে না। এখন টেস্ট নাই মানে করোনা নাই হিসেবে চলছে।

১০| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৫:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি বলেছেন, "আরিশের আম্মুর দাদা মারা যাবার ১৮ বছর পর দাদী মারা গেছেন এ বছরই। ওর নানা মারা গেছেন ১ বছর হলো, নানী এখনো জীবিত, সুস্থ আছেন। ওর এক খালার স্বামী মারা গেছেন ১২ বছর হলো। তার আরেক জায়গায় বিবাহ হয়েছিল, সেখানেও স্বামী ৩ সন্তান রেখে গত বছর মারা গেছেন। এখন স্বামীহীনা তিনি ৪ সন্তান নিয়ে চলছেন কোন মতে।
এই ডাটা থেকে কি কিছু অনুমান করতে পারেন? "

-উপরে দেয়া ডা টায় দরকারী ডা টা নেই।

আরিশের মায়ের দাদাদাদীদের গড় আয়ু, নানানানীদের গড় আয়ু, মা-বাবার গড় আয়ু, মামা-ফুফুদের আয়ু থেকে অনুমান করা সম্ভব।

০৫ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ২:১৩

হাবিব বলেছেন: একটি ব্যাপার কিন্তু ঠিক যে বয়সের সাথে মৃত্যুর যোগসূত্র থাকে না।

১১| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৫:২৬

ফুয়াদের বাপ বলেছেন: করোনা কাউকে করুনা করছেনা, শারীরীক সক্ষমতা দূর্বল হলেই ধরছে আর মারছে। পাশ দিয়ে লাশ যাচ্ছে তবু হুশ হচ্ছে না কারোই। মাস্ক মাস্ট বললে ভেটকি মাছের মতো নিলর্জ্জের হাসি দিয়ে বলে, "গরিব মাইনশের করোনা অয়না"।

সুন্দর লেখনীর জন্য শুভেচ্ছা...

০৫ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ২:১৪

হাবিব বলেছেন: অনেকেই করোনাকে গোনায় ধরছে না। মনে করে সাধারণ অসুখের মতো। ওদের বুঝানো কঠিন

১২| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ রাত ১০:২৮

খোলা জানালা। বলেছেন: আয়েশার প্রতি গভীর মমত্ববোধ লেখটিকে প্রাঞ্জল ও পরিপাটি করে তোলেছে! আল্লাহ আপনার আয়ুস্কাল আয়েশার আয়ুস্কালের সমসাময়িক করুন প্রত্যাশা থাকলো

০৫ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ২:১৫

হাবিব বলেছেন: লেখাটি পাঠ এবং সুন্দর মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ
আপনার প্রত্যাশা কবুল হোক। ভাল থাকবেন।

১৩| ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২১ রাত ১০:৪৪

সোহানী বলেছেন: ছবিটা কোন ফলের?

গড় আয়ু মেয়েদের সম্ভবত সবখানেই বেশী। ডাটা দেখতে হবে.........

তবে আয়িশের আম্মু ও আব্বু অনেকদিন বেঁচে থাকবেন এ প্রার্থনা।

০৫ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ২:১৭

হাবিব বলেছেন: আপু, ছবিটি পাঁকা করমচার। বাড়ির গাছের।

আপনার প্রার্থনা কবুল হোক

১৪| ০৫ ই আগস্ট, ২০২১ রাত ১২:৩৯

ফাহিমা আক্তার বলেছেন: প্রতিদিন কত মানুষ যে মারা যাচ্ছে করোনায় তা আল্লাহ ভালো জানেন। তবে সংবাদ আমরা যা দেখি তা খুবই কম।কারণ মিডিয়া সব জায়গায় কাভারেজ করতে পারে না।তা ছাড়া সরকারের তেলপোড়া বিধি নিষধ আছে করোনা নিয়ে।

আপনি নিজে সেফ থেকে মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করবেন সেই কামনা করি।

০৫ ই আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:০৯

হাবিব বলেছেন: সুন্দর মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। আপনিও নিরাপদ থাকুন দোয়া করি।

১৫| ০৫ ই আগস্ট, ২০২১ সকাল ৮:০৯

কলাবাগান১ বলেছেন: দাদারা ২৫ বছর বয়সে ১০ বছর এর মেয়েদের কেই বেশী বিয়ে করত আগের জামানায়

০৫ ই আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:১২

হাবিব বলেছেন: বয়সের পার্থক্য এত না হলেও কাছাকাছি। তবে মৃত্যুর সাথে বয়সের যোগসূত্র অনেক সময় কম।

১৬| ০৫ ই আগস্ট, ২০২১ সকাল ৯:১৩

বিটপি বলেছেন: যেসব মেয়েরা প্রসব যন্ত্রণা সহ্য করে বেঁচে থাকে - মরণ তাদের কাছে সহজে আসেনা। আমাদের দেশের অকর্মণ্য পুরুষ জাতি, যারা শারীরিক শ্রমে মোটেই অভ্যস্ত নয়, বেশির ভাগেরই দিনের বেশির ভাগ সময় কাটে পাড়ার চায়ের দোকানে অথবা ইউনিয়ন অফিসে ঘোরাঘুরি করে - তারা সামান্য সর্দি বা শ্বাসকষ্টজনিত রোগেই কাবু হয়ে যায়। শরীর অসুস্থ হলেই পুরুষেরা কর্মস্থল থেকে ছুটি নেয়, কিন্তু মহিলাদের কোন ছুটি নেই। ১০৪ ডিগ্রী জ্বর নিয়েও আমি আমার চাচীকে উঠান লেপতে দেখেছি।

তাই আমার অবজার্ভেশন হল, এদেশে যদি সরকারী সেক্টরে মহিলাদেরকে ঢালাও নিয়োগ দেয়া হত, এদেশ অনেক উন্নতি করতে পারত।

০৫ ই আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:১৪

হাবিব বলেছেন: মহিলাদের কর্মক্ষেত্রে আরো বেশি ইনক্লুড করলে কেমন উন্নতি হতো তা জানি না, তবে আমার মনে হয় বর্তমান সময়ের চাইতে ডিভোর্সের হার বেড়ে যেত। সিঙ্গেল থাকার প্রবণতা সৃষ্টি হতো মেয়েদের মাঝে

১৭| ০৫ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:০৮

দয়িতা সরকার বলেছেন: আপনার পর্যবেক্ষণ ভুল। আপনি যাদের কথা বলেছেন তারা ২০ বছর আগে মারা গেছে তাঁর মানে এইনা যে তাদের নারীরা কুরি বছর বেশি বাঁচে।
১। আমাদের নানা-নানী, দাদা- দাদী, এমন কি বাবা-মা, চাচা- চাচী বেশীর ভাগের বয়সের পার্থক্যটা বেশি থাকত। বিশেষ করে দাদা- দাদী, নানা- নানী দের। নারীরা বয়েসে ১০ থেকে ১৫ বছর অন্তত কম বয়সের হতো। আমার নানা-নানী সহ পরিচিত কয়েক আত্মীয় যুগলকে দেখেছি যাদের নারীরা তাদের থেকে বয়সে অনেক বছর ছোট ছিলেন।
২। দুজনের সুস্থতার উপরেও নির্ভর করে তাদের আয়ুস্কাল। আমার নানাকে যতদিন দেখেছি অসুস্থই দেখেছি, নানিকে তেমন কখনো দেখিনি, তিনি তিন বছর হোল মারা গেছেন, নানা মামা গেছেন তারও প্রায় ১৭-১৮ বছর আগে। নানীর বড় ভাই যিনি আমার নানীর থেকে প্রায় ১০ বছরের বড় , তিনি সেই ব্রিটিশ আমল থেকে প্রাইমারি স্কুল এ চাকরি করেন, তিনি এখনও বেঁচে আছেন। সুস্থ আছেন, স্বাভাবিক কাজ কর্ম করেন। উনার স্ত্রী(নানী) মারা গেছেন অসুস্থতায়। তবে বর্তমানে উনিও একটু অসুস্থ।
৩। আমাদের দেশের বেশির ভাগ নারী এখনও ঘরে থাকেন। পুরুষরা তাদের প্রয়োজনে বাহিরে থাকতে হয়, অসুস্থতা ছাড়াও বিভিন্ন কারনে উনারা মারা যান ,যেমন বিভিন্ন দুর্ঘটনা(বাস, লঞ্চ, নিখোঁজ , পারিবারিক, সামাজিক খুন ইত্যাদি)।তাই নারীদের গড় আয়ু পুরুষদের থেকে কিছুটা বেশি দেখা যায়, বাস্তবে তা না।

আপনি নিজের প্রতি যত্নবান হন, আপনার স্ত্রী প্রতিও। আল্লাহ আপনাদের চাওয়া পুরন করুন।

০৫ ই আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:১৬

হাবিব বলেছেন:





সুন্দর বিশ্লেষনমূলক মন্তব্যের জন্য কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

পরিশেষে আপনার প্রার্থনা কবুল হোক এই কামনা করি।

আপনিও ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।

১৮| ০৫ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ২:০২

রাজীব নুর বলেছেন: পৃথিবীর খুব সুন্দর একটি ব্যাপার হচ্ছে- জীবনের কোন দুঃখ'ই চিরস্থায়ী না।

০৫ ই আগস্ট, ২০২১ বিকাল ৪:১৬

হাবিব বলেছেন: আপনার পর্যবেক্ষণ ১০০% ঠিক আছে।

১৯| ০৫ ই আগস্ট, ২০২১ রাত ৯:২৬

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন:




) আল্লাহ আপনার ইচ্ছা পূরণ করুক। আপনারা দুজন একসাথে থাকুন, সুস্থ থাকুন ,ভালো থাকুন।
আমিন।
অনেক অনেক শুভকামনা রইলো আপনাদের জন্য।

- দেয়ালিকা বিপাশা

০৭ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১২:০২

হাবিব বলেছেন: আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য অনেক দেয়ালিকা আপা। ভালো থাকবেন সবসময়।

২০| ০৭ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১২:৩৬

মেহবুবা বলেছেন: দাদি বা চাচীরা ভিন্ন ভিন্ন পরিবার থেকে এসেছেন তাদের গড় আয়ু সেই পরিবারের বিষয় । আপনার দাদারা এবং চাচারা কি কারনে মারা গেলেন সেটা জানতে পারলে এব এই বংশের মেয়েরা কোন্ বয়সে মারা যান সাধারনত সেটা জেনে নিলে বুঝতে সুবিধা হোত।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.