নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

হে মানব! আর নয়তো দেরী; জেগে তুলে বিবেকের তরী করো হিংসার বলিদান। জন্মান্ধ হয়ে থেকো নাকো তুমি;মানুষ বলে হও বলিয়ান ।

তুমি জীবন খুঁজো সুখের নীড়ে, আমি জীবন খুঁজি দুঃখের ভীরে।,,, রহমান লতিফ,,,,

› বিস্তারিত পোস্টঃ

একজন আহমেদ জী এসে\'র শায়েরী

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:১৯


ব্লগ ওপেন হ'য়েছে। অনেকেই সুন্দর করে পোস্ট দিতেছেন। অভিনন্দন বার্তা আসছে। অনেকের পোস্ট ও মন্তব্য নিয়ে অনুযোগ ও অভিযোগ আছে। বলা হচ্ছে অনেক নতুন ও পুরাতন ব্লগার ফেইসবুক স্টাইলে লেখা ও মন্তব্য দিতেছেন। তাহলে কথা হলো ফেইসবুক ও ব্লগের মধ্যে পার্থক্যটা কি? আমার মতে ফেবু ও ব্লগের মধ্যে একটা সুক্ষ পার্থক্য আছে। লেখালেখির জগৎ কে যদি একটি কলসির সাথে তুলনা করি তবে ফেবু হচ্ছে ফাঁকা কলসি আর ব্লগ হচ্ছে ভরা কলসি। আর ব্লগের ভরা কলসে আছে জ্ঞান যা আপনাকে যোগাবে পরিমিত পুষ্টি। আপনাকে সয়য় নষ্ট নয় বরং কিছু একটা শেখাতে সাহায্য করবে ব্লগ যেখানে অনেক বিদগ্ধ লেখক পোস্ট ও মতামত প্রদান করেন। আর এদের মধ্যে যার মন্তব্য আপনাকে পুষ্টি যোগাবে তিনি একজন খাঁটি লেখিক ও মন্তব্যের শায়ের। জ্বি বলছিলাম ব্লগিং জগতের একজন আইকন। সবার কাছে সম্মান ও শ্রদ্ধার আসনে আছেন যেমন লেখা তেমনি সহ ব্লগারদের পোস্টে তার শায়েরী মন্তব্য দেওয়ার মাধ্যমে। তিনি কারো কাছে অসাধারণ ব্লগার হলেও সেটা তিনি বিনয়ের সাথে বলেছেন,
পুরোপুরি একজন অতি সাধারন মানুষ । আমি যা আমি তাই ই। শয়তানও নই কিম্বা ফেরেশতা । একজন মানুষ আপনারই মতো দু'টো হাত, চোখ আর নিটোল একটা হৃদয় নিয়ে আপনারই মতো একজন মানুষ । প্রচন্ড রকমের রোমান্টিক আবার একই সাথে জঘন্য রকমের বাস্তববাদী... তিনি যে চরম বাস্তববাদী তা তার বিখ্যাত কবিতা থেকে বুঝা যায় - মৃত্যু.... শুধু মুছে ফেলা নাম !

পৃথিবী কি থেমে যায় কখনও ?
এই যে মাত্র আলম সাহেবের জানাজা শেষ হলো
কেউ কি থেমে গেলো কোথাও ! থমকে কি গেলো
কাকেদের ওড়াউড়ি ? পার্কে মানুষের হাত ধরাধরি ?

বসে থাকা ভিখিরীও কি চুপ করে আছে
হাত না পেতে ! যে দু’টি কিশোরী ছড়াচ্ছে
বাদামের খোসা, একজোড়া কপোত-কপোতী ওড়াচ্ছে
স্বপ্নের ফানুস , সব কি থেমে গেছে ?

রিক্সার ক্রিং ক্রিং ভেসে আসে
ভেসে আসে হট্টগোল মেছো বাজারের,
যেসবে কান পেতে রাখা দায়
তাও কি খানিক থমকাবে মনে হয় ?

গুটিয়ে যাবে কি পৃথিবীর সব কাজ ?
যতো ধড়িবাজ , মাগীর দালাল, কোর্টের মহুরী,
ঘাটের ইজারাদার , বাস ড্রাইভার
থামাবে কি আজ সব বেলেল্লাপনা তার !

কিছুই থামেনা , না সূর্য্য - না পৃথিবী
না থামে বাতাস , না তুমি - না আমি
থামেনা কিছুই , শুধু বয়ে চলে ধরাধাম
কেবল একজন থেমে যায় , মুছে ফেলে নাম !


আহমেদ জি এস ও শায়েরী ---এই আধুনিক যুগে মানুষ শায়রীর মিষ্টি ও চিরস্থায়ী মর্ম ভুলেছে । এক দু' লাইনের শায়েরী অনেকটা জাদুর মতো সবাইকে মুগ্ধ করতে পারে । রোমান্টিক শাইনারি দীর্ঘদিন ধরে আমাদের পূর্বপুরুষদের দ্বারা ব্যবহৃত একটি পরিপূর্ণ পদ্ধতি। শায়েরি দিয়ে অল্প কথায় মনের ভালবাসা প্রকাশ করা হয়।যদিও ইন্টারনেটের কল্যাণে বিভিন্ন সাইট থেকে বাংলা ও হিন্দিতে কিউট, রোম্যান্টিক, মজার এবং ইমোশনাল শায়েরী পেতে পারেন । তবে জীবন্ত শায়েরীটি পাবেন আহমেদ জি এস'র মন্তব্য থেকে।

শায়ারি জগতের সবচেয়ে জনপ্রিয় শাওয়ারের মধ্যে রয়েছেন মির্জা গালিব। মির্জা গালিব তাঁর শায়রী যেমন প্রেম, জীবন, দুঃখ, হৃদয়স্পর্শী শায়রীর জন্য সুপরিচিত ছিলেন । মির্জা গালিব শাইয়ারি শুধু গ্রহণযোগ্য শ্যার ছিলেন না তার সঙ্গে প্রশংসনীয় ও শক্তিশালী হিসেবে বিবেচিত হয় । তেমনি পাকিস্তান ও ভারতের বিখ্যাত শায়রীরা জীবনের সব ক্ষেত্রের মানুষের ,প্রেম আসক্তি আছে। যে কোন শায়ের লেখকের অনুভূতি প্রেমিক ও পাঠকদেরকে জটিল ও মধুর পরিস্থিতির মধ্যে প্রবেশ করার মতো হৃদয় নিংড়ানো দোলা দেয়। আহমেদ জি এস যা মন্তব্য করেন তাকে সহজ কথায় শায়েরী বলা যায়। অনেক সময় পুরো লেখার ভাব তিনি দু লাইনে বলে দেন। যা আপনাকে শেখার ও ভাবার খোঁড়াক যোগাবে।

আমার পোস্টে আহমেদ জি এসে'র ১০ টি শায়েরী মন্তব্য দিলাম।

১) সারাবেলা কারো জন্যে জেগে থাকা অন্তহীন বিশ্বাসের নামই যে ভালোবাসা! এই যদি হয়, তবে সমুদ্রের গভীরতাও পারেনা তাকে ছুঁতে। দুরত্বের ব্যবধান আকর্ষন বাড়ায়, মেঘের ভেলায় চলে তারই অভিসার।

২) উচাটন মন ঘরে রয়না। তাই তো মন বেদুইন হয়ে ঘোরে পথে পথে শীতল ভালোবাসার খোঁজে। এ কেমন বেদুইন, যে ভালোবাসায় উষ্ণতা খোঁজেনা !

৩) উৎকৃষ্ট আত্মা যখন জীবনের সকল বোঝা টেনে টেনে সময়ের স্রোতে প্রেতাত্মা হয়ে যান তখন কে রাখে তাহারে মনে ! তখন সেই পূণ্যাত্মার জায়গা তো আস্তাকুঁড়ে........

৪) এমন ভালোবাসা থাকলে পরে-এ সুন্দর পৃথিবী ছেড়ে মন যেতে নাহি চায়, তবু ও মরন কেন ডেকে নিয়ে যায়, কে জানে কোথায়.

৫) প্রতিকূলতা থাকলেই বরং সকল ধান্দাবাজদের পকেট ভারী হয়- বিদেশের মাটিতে আমাদের এই লাখো লাখো সহজ-সরল- অসহায় মানুষগুলির তথাকথিত "জনশক্তি রপ্তানী" নামের নরকটি থেকে উদ্ধারের দায়টি কার

৬) কোনও না কোনও একটি ঘটনার সামনে পড়ে গেলে মানুষকে পিছে ফিরে দেখতেই হয় - কতোটা পথ পেরিয়ে এসেছে সে- যেতে হবে আরো কতদূর! এই অনুভব মানুষকে মানুষ করে।

৭) নারীর মন- সে তো ভগবানের কাছেও অবোধ্য --- সংসারটা ঠেলা ধাক্কারই, সামলে চলতে হয়।

৮)সব স্পর্শেই সুখ মেলেনা, তেমন স্পর্শেই মেলে!

৯) দিকহারা কবির মনে জটিলতার ঘনঘটা! নইলে মেঘ মল্লিকার দেশে ঘর বাঁধে যে কবি, সে কেন কৃশকায় দেহে জড়িয়ে নেবে মর্ত্যবাসী কষ্টদের!
১০) বসন্ত আসি আসি, এবারে ভালোবাসার বসন্ত এসে হাওয়া দিক কবির বাতায়নে।

আরো যাদের তীক্ষ্ণ, তিক্ত, ঝাঁজালো, রসালো মন্তব্য আপনাকে পুষ্টি যোগাবে ---

সোহানী
জুন
করুণাধারা
খায়রুল আহসান
ডঃ এম এ আলী
চাঁদগাজী
বিদ্রোহী ভৃগু
পদাতিক চৌধুরি
কাওসার চৌধুরী
নীল আকাশ
ঠাকুরমাহমুদ
রাকু হাসান
আখেনাটেন
ভুয়া মফিজ
মা.হাসান
ঢাবিয়ান
বিচার মানি তালগাছ আমার
প্রমুখ.....

শুভ্র ব্লগিং।।
এই পোস্টে মন্তব্য আকারে আপনার ভালোলাগার আহমেদ জি এসের মন্তব্য লিখুন, সেটা হোক আপনার পোস্টে অথবা সহ-ব্লগারের পোস্টে।
সর্বোচ্চ সংগ্রহকারীকে দেয়া হবে "গোল্ডেন কি অব নলেজ"।।।
আহমেদ জী এস

মন্তব্য ৯২ টি রেটিং +২২/-০

মন্তব্য (৯২) মন্তব্য লিখুন

১| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:২৯

শায়মা বলেছেন: ভাইয়ার মন্তব্যে বুঝা যায়

গভীর মনোযোগ, মনোযোগী পাঠক, সুচিন্তিত মতামত, সাথে ফানও থাকে, মানুষকে সন্মান দিয়ে কথা বলার একটা বিশেষত্ব।

তাই ভাইয়ার মন্তব্য সবার কাছেই শায়েরী।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৪৯

বলেছেন: মতামতের জন্য ধন্যবাদ প্রিয় রাজকন্যা কঙ্কাবতী।।।

২| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৩৫

দ্যা প্রেসিডেন্ট বলেছেন: মনে করেছিলাম বিশেষ কোন উপলক্ষে লিখলে মনে হয়! এখন দেখছি অন্য কিছু৷

হ্যা, কথা সত্যি। আহমেদ গাজি এস ভাই আমাদের মধ্যে আলাদা ব্যক্তিত্বের অধিকারী একজন মহান ব্যক্তি। উনার সাথে আমার একটা গাঢ় সম্পর্ক ছিল। ব্যস্ততায়তায় আমি হারিয়ে গিয়ে নতুন বোতলে আশ্রয় নিয়ে এসেছি৷ যাক, দু'আ থাকলো তোমার জন্য লতিফ ভাই।

ভাল থাকবেন সবসময়৷

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৪৯

বলেছেন: প্রেসিডেন্টের নতুন বার্তা চাই।।।

মতামতের জন্য ধন্যবাদ।।।

৩| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৩৮

রিম সাবরিনা জাহান সরকার বলেছেন: ওনার কবিতা দারুন উপভোগ্য। কথায় গভীরতা আছে। আছে প্রবল উদাসীনতা। দুটাই পাঠককে ভীষন টানে।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৫০

বলেছেন: আপনারমতামতের জন্য ধন্যবাদ প্রিয় সায়েন্টিস্ট।।

৪| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৪৪

উম্মে সায়মা বলেছেন: উনার পোস্ট মানেই অসাধারণ কিছু। মন্তব্যও তেমনই। ব্লগে এলে উনার উপস্থিতি খুব উপভোগ করি।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৫০

বলেছেন: অসাধারণ মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।।।
হ্যাপি ডেইজ।

৫| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ২:১৫

কাওসার চৌধুরী বলেছেন:
বাহ, দারুন বিশ্লেষণ। ব্লগে আসার পর থেকে এখন অবধি এই গুণী লেখককে ভীষণ পছন্দ আমার। কোন মানুষকে না দেখেও এতো সম্মান করা যায় তা আগে হয়তো কল্পনাতীত ছিলো। শুধু পোস্টে কেন? মন্তব্যে তিনি সামুর প্রাণ ভমরা। হাতে গোনা কয়েকজনের মধ্যে অন্যতম। উনার সাথে প্রথম দেখা গত বছর ১৯শে নভেম্বর ব্লগ ডে'তে। তাঁর চমৎকার আর সাবলীল বাচনভঙ্গি একজন টগবগে তরুণকে সহজেই হার মানাবে। আর আন্তরিক কথোপকথন, মুগ্ধতায় ভরা।

গত বইমেলায় আরেকবার দেখা। দেখলাম হাতে লিস্টি করে ব্লগারদের বই সংগ্রহ করছেন কোন প্রকার বাছ বিচার না করে। আমার গল্পের "বায়স্কোক" সংগ্রহ করার সময় স্মৃতিটা জীবনভর ফ্রেমবন্ধী করে রাখতে বেশ কিছু ছবি তুলে রাখলাম। এটা গত বইমেলার আমার অন্যতম সেরা কালেকশন। জানি, আগামী বইমেলায়ও দেখা হবে, কথা হবে, কিছুটা হলেও উনার সঙ্গ উপভোগ করার সুযোগ পাবো।

আপনার বাকি সংক্ষিপ্ত তালিকায় যাদের নাম উল্লেখ করেছেন তাতে আমি ছাড়া বাকিরা সামহোয়্যারইন ব্লগের সুপারস্টার। উনাদের পোস্ট আর মন্তব্য ব্লগকে সমৃদ্ধ করছে প্রতিনিয়ত। তালিকায় নেই এমন অসংখ্য সুপারস্টার ব্লগে বিচরণ করছে। তাদের লেখা আর কমেন্টও ব্লগকে সমৃদ্ধ করছে প্রতিনিয়ত।

আপনাকেও ধন্যবাদ, এমন গুণীজকে নিয়ে পোস্ট লিখার জন্য।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৬:৫৬

বলেছেন: এ সময়ের শক্তিমান গল্পকার কাঃচৌঃ আপনাকে জানাই ধন্যবাদ।
বরাবরের মতো বিচক্ষণ মন্তব্য করার জন্য কৃতজ্ঞতা।
আরো অনেক নাম আছে যেগুলো দিলে পোস্ট দীর্ঘ হতেই থাকবে তাই বিশেষ কয়েকটি নাম সিলেক্ট করলাম।


আহমেদ জি এসবের সাথে সহ- ব্লগার তাজুল ইসলামের মাধ্যমে কথা বলার সুযোগ হয়েছিল।
একজন গুণী মানুষকে নিয়ে পোস্ট নয় ৃনের কথা বললাম।

ভালো থাকুন।।


ধন্যবাদ রইলো।।।

৬| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ২:৩৬

কিরমানী লিটন বলেছেন: শ্রদ্ধাভাজন আহমেদ জী এস ভাইয়ার মন্তব্যে তৃষ্ণার্ত তটরেখার মতো ভেসে যাওয়া প্রশান্তির পরশ। যা যে কারো লেখার জ্বালানী - সুন্দরের পথে বিরামহীন ছুটে চলার এক রাশ প্রাণশক্তি। যা বরাবরই লিখার ইচ্ছাকে শানিত করে। এছাড়া যাদের কথা উল্লেখ করেছেন - এরা প্রত্যেকে বিশুদ্ধ পথচলার ক্লান্তিহীন প্রদর্শক। এদের হাত ধরেইতো এ পথে ছুটে চলা। এছাড়াও সুমন কর, বিচার মানি তালগাছ আমার, সাদ মনের মানুষ, নীলসাধু, কাল্পনিক ভালোবাসা, সোহানী, শিখা রহমান, নেক্সাস, জেনী ভাইয়া, গুলশান কিবরিয়া, মনিরা'পু, রাবেয়া রাহিম, বিজন রয়, রাজীব নুর আপনি এরা সকলেই সামুর এক একটা প্রাণশক্তি। যারা সারাক্ষণ জাগিয়ে রাখে সুন্দরকে সঠিক চলায়।
অভিবাদন আপনাকে - এক ঝাঁক সুন্দরকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়ার জন্য। সেই সাথে সব গুনীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশের সুযোজ করে দেয়ার জন্য।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:০১

বলেছেন: মতামতের জন্য ধন্যবাদ প্রিয় ছড়াকার,
আপনার শব্দ চয়ন, বুনন অনেক শক্তিশালী।

আপনিও সেই দলের যারা আলোকিত করে চলছেন।

আরো অনেক নাম আছে - যেমন দুইজন লিটন, স্বামী বিশুদ্ধনন্ধ, এমন জেড এফ, মুক্তানীল, নজসু, আরোগ্য, ইসিয়াক, নতুন, আবু হেনা আশরাফুল, সুজন, কালবৈশাখী,সুপারডুপার, পাঠকের প্রতিক্রিয়া সহ অনেকে যাদের নাম নিতে থাকলে শেষ হবার নয়। এদেরকে কোন এক সময় নিয়ে লেখা হবে।

ভালো থাকুন।।।

৭| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৩:৫৬

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: ৮. ২৮ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:০৩১ আহমেদ জী এস বলেছেন: ঠাকুরমাহমুদ,

টরে...টক্কা...টরে..................
আহা ! কই গেলো সেই দিনগুলো!






৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:০৪

বলেছেন: মতামতের জন্য ধন্যবাদ গুরু,

ভালো থাকুন।।।

৮| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৪:২৮

সোহানী বলেছেন: ওরে বাপরে, এমন একজনকে নিয়ে লিখেছেন যাকে নিয়ে আমার লিখা শেষ হবে না। কি চিন্তা, কি লিখায়, কি মন্তব্যে....... অসাধারন। আমার প্রতিটি লিখায় উনার মন্তব্য আমার লিখার পূর্ণতা আনে।

উনি শয়তান বা ফেরেসতা নন সত্য, উনি একজন সাধারন মানুষ কিন্তু এ সাধারন মানুষটি আমাদের মতো সাধারন মানুষকে খুব ভালোই পড়তে পারেন।

আমার নামটা যাদের সাথে রেখেছেন তাদের পাশে থাকার যোগ্য আমি নই কিছুতেই।....................

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২১

বলেছেন: আপনি তো অলওয়েজ টপ ক্লাস


মতামতের জন্য অশেষ ধন্যবাদ।।।

৯| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৫:৪৯

ইসিয়াক বলেছেন: আহমেদ জী এস প্রতিশ্রদ্ধা ।
লেখায় ভালো লাগা।
সুপ্রভাত

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:০৫

বলেছেন: আপনি আগামীর স্টার।

প্রিয় ভোরের পাখি।।।


ভালো থাকুন।।।

১০| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:০৬

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: উনার মন্তব্য প্রায়ই চোখে পড়ে। লাইক দিতে বাধ্য হই।

উনি একজন ভালো ব্লগার, ভালো লেখক, ভালো মানুষ। শুভ কামনা উনার জন্য।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:১১

বলেছেন: আহ,
আপনার নামটা এডিট করা দরকার """ কবিতার মেঘদূত """


আপনিও একজন ভালো মনের ও মানের কবি ও সমালোচক।।।

মতামতের জন্য ধন্যবাদ।।।

১১| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:৩৭

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সত্যি উনার মন্তব্য চমৎকার। আমার কবিতার চেয়ে তার মন্তব্য ই বেশি আকর্ষণীয় হয়ে ওঠে আমার পোস্টে। অনেক গভীর তার উপলব্ধি । আর পোস্ট গুলো তো পারতপক্ষে মিস করিনা। সব মিলিয়ে এক কথায় অসাধারণ। সেই গুণীজনের সঙ্গে দেখা হলো গত বছর। তবু কত কথাই বাকি থেকে গেল। আরও বেশ কয়েকজন দারুন মন্তব্য করেন। আমার মনে পড়ে মামুন রশিদ ভাইয়ের কথা মইনুদ্দিন মঈনুলের কথা । মিস করি অন্যমনস্ক শরৎ, সুমন কর, গিয়াস উদ্দিন লিটন ভাই এর নাম আমার তালিকায় থাকবে। আরও অনেক আছে শায়মা আরজুপনি শিখা রহমান কান্ডারি অথর্ব স্বপ্নবাজ অভি ইদানিং কালের পদাতিক চৌধুরী । শ্রদ্ধেয় আহমেদ জিএস ভাইয়ের জন্য শুভ কামনা। আর ধন্যবাদ আপনাকে এমন গুণীজনকে আলোচনায় এনেছেন সেজন্য। এই পোস্টটি অবশ্যই জিএস ভালো লাগবে বলেই আমার বিশ্বাস।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২৪

বলেছেন: ব্লগের প্রাণময় ও প্রেমময় কবি সেলিম আনোয়ার,

আপনার দীর্ঘ সময় নিয়ে লেখা মন্তব্যটি যেন একটি কবিতা।

এমন মধুর স্বরে লেখার জন্য কৃতজ্ঞতা রইলো।।
পোস্টটিকে আপনার মূল্যায়ন অবশ্যই প্রসংশনীয়।।

ভালো থাকুন।।

১২| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৯:১৩

রাজীব নুর বলেছেন: এলোমেলো এবং অপ্রয়োজনীয় কথা লিখে বড় মন্তব্য করাকে আমি ভালো মন্তব্য বলব না।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২৬

বলেছেন: রাজীব নূরের বিখ্যাত উক্তি.....


আমাদের তরুণ প্রজন্মকে নিয়ে আমি হতাশ, ওরা পচে গলে গেছে।।। --অসাধারণ।।

১৩| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১০:৩২

নতুন নকিব বলেছেন:



কখনো তাঁর সাথে সরাসরি সাক্ষাত হয়নি। হবে কি না, তাও জানা নেই। কিন্তু তাঁর পোস্ট, মন্তব্য এবং প্রতিমন্তব্যগুলো কি যে এক স্নিগ্ধ আন্তরিকতায় ভরা! সবাইকে আপন করে নেয়ার কেমন যেন এক সম্মেহনী ক্ষমতা রয়েছে তাঁর লেখার পরতে পরতে। অদেখা আলোর ঝলক খেলে যায় তাঁর শব্দ-ছন্দ-অক্ষর বৃন্তে।

প্রথম থেকেই তার অসাধারণ কাব্যিক এবং দার্শনিক ধাচের লেখা ও মন্তব্যের একনিষ্ঠ-নিবিষ্ট পাঠক ছিলাম। আমার বিশ্বাস, আমরা একালের সামুতে আছি। প্রকৃতির অমোঘ নিয়মের বৃত্তের বাইরে কেউ নই আমরা। একটা সময় আসবে, পৃথিবীর এই রূপ-রস-সৌন্দর্য্য-সৌকর্যের বিপুল মায়ার সকল বন্ধন ছিন্ন করে চলে যাব একে একে। যাত্রী হব পরপারের। তখনও টিকে থেকে যাবে দুর্নিবার সামু। সামুর এই পুস্প্যোদ্যান মুখরিত হবে তখন আমাদের পরবর্তী, নতুন প্রজন্মের পদচারণায়। নতুন প্রজন্ম সামুর পাতায় পাতায় আমাদের রেখে যাওয়া পুরনো এইসব আঁকিবুকি দেখবে, পড়বে এবং ভাববে। আজকের এই লেখাটাই তাদের অনেকের কাছে ভাবনা এবং গবেষনার বিষয় মনে হবে। জিএস ভাই এবং তার মত এরকম বরেন্য আরও যারা এই ব্লগে রয়েছেন তাদের উঁচু মানের সাহিত্যগুন সমৃদ্ধ লেখা এবং মন্তব্য ব্লগের লেখক পাঠকদের কতকাল চিন্তার খোরাক যুগিয়ে যাবে, কে জানে। ব্লগের পাতায় পাতায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা মুক্তো দানার মত এগুলো সত্যিই মূল্যবান সম্পদ।

সবিশেষ কৃতজ্ঞতা, আপনার এই পোস্টটির জন্য। উপযুক্ত ব্যক্তির সম্মান জানাতে পারাটা মহত্তম গুনের অন্যতম।

অনেক ভালো থাকবেন। শুভকামনা সবসময়।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২৮

বলেছেন: ""সবাইকে আপন করে নেয়ার কেমন যেন এক সম্মেহনী ক্ষমতা রয়েছে তাঁর লেখার পরতে পরতে। অদেখা আলোর ঝলক খেলে যায় তাঁর শব্দ-ছন্দ-অক্ষর বৃন্তে""" নতুন নকীব,

এমন বিনয়াবনত বাক্য আপনার মতো মহৎপ্রাণে বন্ধুকে মানায়।।



ভালো থাকুন।।

১৪| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:১৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: ব্লগার আহমেদ জিএস একজন সেরা কমেন্টার। উনার কমেন্ট পোস্ট এর সৌন্দর্য্য বাড়ায়। আর তিক্ত কমেন্টে জনাব চাঁদ্গাজী, রসালো কমেন্ট মা হাসান অনবদ্য :)

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩১

বলেছেন: আর তৈলাক্ত কমেন্টে পদাতিক চৌধুরীই সেরা কি বলেন?? হা হা।।

দারুণ উপমা দিলেন।।।


কৃতজ্ঞতা রইলো।।

১৫| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১:০১

মা.হাসান বলেছেন: শিন্নি দেখে এগুই, কোৎকা দেখে পিছুই।

গদ্য দেখে ঢুকে দেখি ভিতরে পদ্য।

উনি আমার পছন্দের লিস্টের ব্লগার। সকলেই ওনার রসবোধের সঙ্গে পরিচিত। ওনার অ্যান্টিবায়োটিক সিরিজ এবং মানুষের ব্রেনের উপর লেখা একটা পোস্টের মতো জ্ঞান গর্ভ পোস্ট ব্লগে কম আছে। ওনার মতো ব্লগারের লেখা থেকে আমার মতো নবিনদের অনেক শেখার আছে। ওনাকে নিয়ে লেখার জন্য রহমান লতিফ ভাইকে অনেক ধন্যবাদ।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৪

বলেছেন: হাসান স্যার,


ফাও বিরিয়ানি খেতে আপনার মন আনচান করে!!! এটা কি আরেক বলতে হয়।

""ওনার মতো ব্লগারের লেখা থেকে আমার মতো নবিনদের অনেক শেখার আছে""" -- এমন উপলব্ধি আপনাকে মহান সেনাপ্রধান করে তুলে।৷ ভালো থাকুন কমরেড।।।

১৬| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১:১০

সম্রাট ইজ বেস্ট বলেছেন: তাঁর মন্তব্যের প্রশংসা করেনি এমন ব্লগার মনে হয় সামুতে নেই। শুধু মন্তব্যের গুণে একজন অসাধারণ ব্লগার হয়ে ওঠার কৃতিত্ব তাঁকে দিতে কোন কার্পণ্য নেই। সবসময়ই তাঁর মন্তব্য উপভোগ করি।

আপনাদের দুজনের জন্যই অফুরান শুভকামনা!

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৭

বলেছেন:

""শুধু মন্তব্যের গুণে একজন অসাধারণ ব্লগার হয়ে ওঠার কৃতিত্ব তাঁকে দিতে কোন কার্পণ্য নেই""' দ্যা বেস্ট।।।

আপনি আসলেই একজন বেস্ট পারসন।।

শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা আপনাকে

১৭| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১:১০

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: ভাইয়াকে নিয়ে বলতে গেলে অনেক সময় লাগবে।
উনার লেখা,মন্তব্য দেখেই বোঝা যায় উনি একজন মেধাবী মানুষ।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৮

বলেছেন:
জীবন সুন্দর ও মধুর হোক।।


মতামতের জন্য লাল গোলাপ শুভেচ্ছা।।।

১৮| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ২:৩৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: কবিতা যেহেতু পড়ি না, কাজেই স্বাভাবিকভাবেই জী এস ভাইয়ের কবিতা পড়া হয় না, তবে উনার গদ্য, হয় অনবদ্য; আমার এই লাইনটার মধ্যে কেমন যেন একটা কবিতার গন্ধ পাচ্ছি!!! :(

আর উনার মন্তব্য পড়লে বোঝা যায়, পোষ্ট ভালোমতো পড়েই উনি মন্তব্য করেছেন। :P

যে ব্লগ গুনীর কদর করে না, সেখানে গুনী ব্লগার পয়দা হয় না। ধারনা করছি, আপনার এই কদরের সুবাদে আমরা আরো বেশ কয়েকজন গুনী ব্লগার পাবো। :)

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪০

বলেছেন: কবিতা বিদ্বেষীর কবি হয়ে ওঠা ভুয়া কিছু না।।।


কোন কদর, সমাদর না এটা একটি মুক্ত মতামত পোস্ট।।।

ভালো থাকুন৷৷

১৯| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ২:৪১

করুণাধারা বলেছেন: উনার পোস্ট, মন্তব্য, প্রতিমন্তব্য সবই হয় অনবদ্য। আপনার পোস্টটাও একেবারে অন্যরকম ভালো হয়েছে। একজন ব্লগার কে নিয়ে এমন পোস্ট হতে পারে, ভাবতেই পারিনি। পোষ্টের শেষে আপনি অনুরোধ করেছেন, আহমেদ জী এস এর কোন মন্তব্য /প্রতিমন্তব্য থেকে উদ্ধৃতি দিতে। তাই আমি আমার একটা পোস্ট থেকে উদ্ধৃতি দিচ্ছি:

ব্লগ নিয়ে এরকম কিছু কেউ লিখেছেন কিনা জানা নেই তবে আহমেদ জী এস বলেছেন----" দাবা খেলাতেও এক সময় কিস্তি মাৎ হবে, খেলার মাঠের মারামারিও এক সময় শেষ হয়ে যাবে কিন্তু ব্লগখানা কালহীন উথাল পাতাল যৌবনা যদি তেমন সব ব্লগার হয়........."!
:(


দারুন কথা! কি বলেন?

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৪

বলেছেন:

ব্লগ নিয়ে এরকম কিছু কেউ লিখেছেন কিনা জানা নেই তবে আহমেদ জী এস বলেছেন----" দাবা খেলাতেও এক সময় কিস্তি মাৎ হবে, খেলার মাঠের মারামারিও এক সময় শেষ হয়ে যাবে কিন্তু ব্লগখানা কালহীন উথাল পাতাল যৌবনা যদি তেমন সব ব্লগার হয়........."!

দারুণ মানে একদম দমবন্ধ করা দারুণ।।।

একজন ব্লগার কে নিয়ে এমন পোস্ট হতে পারে, ভাবতেই পারিনি--- কি যে বলেন, প্রতিটি ব্লগার এক একজন কিংবদন্তি। ভাষাহীন মুগ্ধতা আপনার মন্তব্যে।।।
ভালোয় কাটুক সকলের দিনগুলো।।।

২০| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:১৩

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
কারো পোস্টে উনি মন্তব্য করা মানে কিছু না কিছু জ্ঞান লাভ করা।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৫

বলেছেন:
একদম সত্যি কথা বলেছেন --জি, এস ভাই যেন জ্ঞানের প্রতীক।।।


ভালো থাকুন।।।

২১| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২০

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: শ্রদ্ধাভাজন আহমেদ জী এস স্যার আমার কাছে একজন অসাধারণ ব্যক্তিত্ব। উনার জন্য কিছু কথা জমা করে রেখেছি। যদি কোনোদিন দেখা হয় বলবো। আমার পোস্টে উনার মন্তব্য গুলো ওই পোস্টের চেয়েও জোরালো।
রহমান লতিফ ভাই , জেনে রাখুন আপনিও প্রিয়দের একজন। আপনার মন্তব্যের অপেক্ষায় থাকি। ভালো থাকবেন।

চাঁদগাজী স্যার
খায়রুল আহসান স্যার
ঠাকুর মাহমুদ স্যার
বিদ্রোহী ভৃগু দা
জুন আপু
সেলিম আনোয়ার স্যার
হাসান মাহমুদ
সনেট কবি
আপনি
এবং আরো অনেকে যাদের নাম লিখতে গেলে একটা পোস্ট লেখা হয়ে যাবে।আমার ইচ্ছা আছে আমি সবাইকে নিয়ে আলাদা আলাদা পোস্ট দিব। আমার ব্লগিও ইচ্ছা বলতে পারেন। যদি না পারি তবে আমার ব্লগ অধ্যায় বৃথা বলে ধরে নিব।


আপনাকে ধন্যবাদ, এমন গুণীজকে নিয়ে পোস্ট লেখার জন্য।


৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৯

বলেছেন:
আমার ইচ্ছা আছে আমি সবাইকে নিয়ে আলাদা আলাদা পোস্ট দিব। আমার ব্লগিও ইচ্ছা বলতে পারেন। যদি না পারি তবে আমার ব্লগ অধ্যায় বৃথা বলে ধরে নিব।--- আপনার এমন মহান ইচ্ছের প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা রইলো।।।আশাকরি ব্লগপাড়া সমৃদ্ধ হবে আপনার লেখায়।।

আপনি একজন দক্ষ বুনন শিল্পী।। কিছু কিছু ব্লগারের লেখা পড়ে ভাবি '' ইস কেন আগে পড়া হলো না, কেমন করে এত সুন্দর করে লিখে, কি অদ্ভুত সুন্দর -- আপনি তার সবগুলো।।।।


ভালোবাসা রইলো।।।

২২| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: সময়ের অভাবে শায়েরী মায়েরী লিখতাম ফারি না দেইখ্যা খারো প্রিয়ও হইলাম হুহ

খুব সুন্দর পোস্ট

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৪

বলেছেন: জমিদার বাড়ির মাইয়া

আপনি তো এক্কেবারে কবিতা +ছবিতা+ শায়রিকা।।


সবার প্রিয় একদম হাছা কথা৷

ভালো থাকউক্কা।।।

২৩| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:০৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: তৈলাক্ত কমেন্টে পদাতিক চৌধুরীই সেরা কি বলেন?? ব্লগার চাঁদগাজীর এই বাজে কমেন্টের সাথে একেবারেই একমত নই। ভদ্রতা,সৈজন্যতা আর তেলবাজি এক জিনিষ নয়।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:৪৬

বলেছেন:
ভদ্রতা,সৈজন্যতা আর তেলবাজি এক জিনিষ নয়- সত্যি তাই।।

একজন কট্টর সমালোচক থাকা মন্দ নয় বরং ভালো।

ফিরে এসে মন্তব্য করার জন্য ধন্যবাদ।।।

২৪| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: রাজীব নূরের বিখ্যাত উক্তি.....
আমাদের তরুণ প্রজন্মকে নিয়ে আমি হতাশ, ওরা পচে গলে গেছে।।। --অসাধারণ।।

আগে পিছে বাদ দিয়ে এক লাইন 'কোট' করলে সমস্যা।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:৪১

বলেছেন:

২৫| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩৪

জুন বলেছেন: বহু বছর ধরেই এই গুনী ব্লগারের লেখার ভক্ত আমি। উনি যে কি খুটিয়ে খুটিয়ে আমার অখাদ্য লেখাগুলো পড়ে অসাধারণ এক একটি মন্তব্য করেন তা আমি তার মন্তব্য পড়েই বুঝতে পারি। তার প্রতিটি লেখায় আছে সাহিত্যের ছোয়া সেটা যতই কঠিন আর জটিল বিষয় হোক না কেন। শুধু সাহিত্যই নয়, সেই সাথে অত্যন্ত ঝরঝরে সাবলীল তার লেখনী। কোথাও আটকে যাবেন না পড়তে গিয়ে। ছুটে আনতে হবে না ডিকশনারি। আমি তার সর্বাংগীন মংগল কামনা করি ল। ব্লগের অত্যন্ত প্রাজ্ঞ একজন ব্যাক্তিকে নিয়ে লেখার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ আপনাকে।

৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:৫১

বলেছেন: আহমেদ জি এসের,
"" প্রতিটি লেখায় আছে সাহিত্যের ছোয়া সেটা যতই কঠিন আর জটিল বিষয় হোক না কেন। শুধু সাহিত্যই নয়, সেই সাথে অত্যন্ত ঝরঝরে সাবলীল তার লেখনী। কোথাও আটকে যাবেন না পড়তে গিয়ে। ছুটে আনতে হবে না ডিকশনারী """ ---- জুন


এমন ডিমান্ডএবল নোট পোস্টটির ডিগনিটি বাড়াবে।।। আপনার এমন আন্তরিকতার জন্য পৃথিবী এখনও সুন্দর।
এমন প্রাণময় মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।।।

২৬| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৪

জুন বলেছেন: আহমেদ জী এস বলেছেন: জুন,




ঢুকেই দেখি ব্লগের "ইবনে বতুতা" এবারে আস্ত কাহিনী ছেড়ে টুকরো কাহিনীর পোস্ট দিয়েছে ! ওয়াও...

আবু কারিম নামটিতেই তো উদারতার ছোঁয়া আছে। তাই মহান উদারতার সাথে সে আপনাকে টাঙা চালাতে দিয়েছে (?) অথচ শুরুতেই সেই কারিমের "দ্য কুইন অব দ্য নাইল"টাকে গাধা বানিয়ে ছাড়লেন তাও আবার ছবি সহ। :P আপনি কি আসলেই টাঙা চালিয়েছিলেন? ঈশশশশশ সেই ছবিটা যদি দিতেন তবে শোলে সিনেমার বাসন্তিকে দেখতে পেতুম। :-P B-) ঠাংটা এই টাঙা থেকে পড়ে গিয়ে ভাঙেনি তো? আপনি শিওর.......... :D

খোলা মরুভূমিতে ঘুমিয়েছিলেন। ডেঙ্গু মশায় কামড়ায়নিতো। নইলে দেষে এতো ডেঙ্গু এলো কোত্থেকে? :)

হাত বাড়িয়ে দেয়া আর না বাড়িয়ে দেয়ার যে টুকরো ছবি এঁকে গেলেন তাতে নিঃশব্দে বলে গেলেন অনেক কিছু।

রসে-কষে তো ভালই লিখেছিলেন কিন্তু কবে থেকে আবার ভ্রমন বাদ দিয়ে বাংলা অভিধান লিখতে বসলেন? ১ম প্রতিমন্তব্যে "আজকালতো সব্দেশেই কত রকম প্রতারকে ভরা । আন্ত্রিক একটি মন্তব্যের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ শাহীন ৯৯" লাইনটিতে তারই দেখা মিললো। আন্ত্রিক মন্তব্য :|| :|| :|| সব্দেশে B:-) B:-)
সাধে কি আর বাংলাভাষার এই দশা .............. :(( :(( :((

পোস্ট লাইকড ।

ওনার রসিক মন্তব্যের একটা নমুনা দিয়ে গেলুম ল B-)

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৪

বলেছেন: ধন্যবাদ প্রিয় ইবনে বতুতা,

আপনার মাধ্যমে অনেক সুন্দর মন্তব্যটিকে পড়তে পারলাম।


কৃতজ্ঞতা রইলো।।।

২৭| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০০

জুন বলেছেন: আহমেদ জী এস বলেছেন: জুন,

কথা ফেলি কি করে! এতো তাড়াতাড়ি আসতেই হলো কারন এখানে পোস্টের সল্পতা, না বলার মতো পাঠকসংখ্যা আর মন্তব্যের খরাতে তেমন কিছু করার নেই বলে।
একটা রূপকথার দেশের গল্প বলে গেলেন। যেখানে গল্পের রাজকুমারী তার চারপাশে প্রকৃতির যাই-ই দেখে তাতেই মুগ্ধ হয়। লুসাই পাহাড় থেকে নেমে আসা কর্ণফুলির মতোই যে বেগবান আবেগে, উচ্ছলতায়। তার ভেতরে আবার বাস করে অভিমান, দয়া-মায়া। প্রকৃতির মাঝে প্রজাপতির মতো উড়ে বেড়ানো সেই রাজকুমারী আর তার রূপকথার দেশের ছবি যদি এখানে দেখা যেতো তবে মনে হতো শৈশবের " ঠানদিদির থলে " বইটির সচিত্র কাহিনী পড়ছি।
কিন্তু ভাগ্য খারাপ আমাদের। এমনিতেই ব্লগে ঢোকা কঠিন, তারও চেয়ে কঠিন কিছু লেখা, তার উপরে কর্তৃপক্ষ মাথা ব্যথা সারাতে মাথাটিই কেটে ফেলে দিয়েছেন। কেউ কেউ লেখাতে ছবিই যোগ করতে পারছেন না। যেমন পারছিনে আমিও। এ হলো চিনি ছাড়া পায়েস খাওয়ার মতো।
কর্তৃপক্ষ আগেও তেমন করেছেন , লেখা চুরি করা আটকাতে ব্লগারদেরকেই আটকে দিয়েছেন। অথচ একটি পোস্টের সবটুকু সিলেক্ট করে কপি করা যাচ্ছে অনায়াসেই। এ যেন "বজ্র আঁটুনী ফস্কা গেড়ো"।
আমাদের মন খারাপ দেখে আপনার বাবার মতো ব্লগ কর্তৃপক্ষও কি বলবেন -" তাই হবে, আপনার যা চান...." ?

ব্লগ বন্ধের সময় আমার "অপরূপা চন্দ্রঘোনা " পোষ্টে উনার অনাবদ্য এক মন্তব্য। এ ভাবে লিখলে শেষ হবে না ল। যাইহোক এই রথী মহারথীদের মাঝে আমাকেও টেনে এনেছেন তার জন্য কৃতজ্ঞতা :)

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৬

বলেছেন: এটাই বুঝি সত্যি উনার প্রতিটি মন্তব্যই অনবদ্য - যা লিখলে শেষ হবে না।।।

আল্লাহ সকলের মঙ্গল করুন।।


আমিন।।

২৮| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: ল,





অনেক অনেক আগে আমার একটু আধটু লেখার বাতিক ছিলো,সে বীজ এতো বছরের ঘর-সংসার, চাল-ডাল-নুন এর হিসেব কষতে কষতে, অফিস-আদালত আর নাগরিক সুযোগ সুবিধার পেছনে ছুটতে ছুটতে বাসের হ্যান্ডেল ঝোলা হয়ে একবারেই যে মরে যায়নি, তাতেও যে এখনও কচিকচি পাতারা মাথা তুলতে পারে বুঝলুম ব্লগে আপনাদের কাছে এসে । আর তাই আপনাদের সান্নিধ্য আমাকে সাহস যুগিয়েছে, শিখিয়েছে কি করে লিখতে হয়, কি করেই বা বলতে হয় কথা!

আপনাদেরই সে প্রশ্রয়ের ছায়ায় বেড়ে ওঠা এই আমাকে এমন করে তুলে ধরে আপনি ও মন্তব্যকারী সকল সুহৃদ ব্লগারবৃন্দ শুধু কৃতজ্ঞতা পাশেই আটকে রাখলেন না, জড়ালেন নতুন করে আরেক ভালোবাসার জালেও!
নজরুলের মতোই অন্যভাবে বলি - বিশ্বাস করুন আমি কবি হতে আসিনি,ভালোবাসা দিতে এসেছিলুম, ভালোবাসা পেতে এসেছিলুম। আপনারা কানায় কানায় পূর্ন করে আমার অঞ্জলি ভরে দিয়ে গেছেন তেমন ভালোবাসায়। এ ভালোবাসা আমার সারা জীবনের সঞ্চয় হয়ে রইলো।

সবাইকে এই মাধবী সন্ধ্যার শুভেচ্ছা।

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৫৪

বলেছেন: প্রিয় কবি,

কোনো বিচিত্র কারণে নয়, কিংবা অতিরঞ্জিত করে মাথায় তোলা নয়, দেবোত্তরের অদৃশ্য কোন দেয়াল দেয়া নয়,
শুধু একটু বলবো একজন খাঁটি মানুষকে সঠিকভাবে মূল্যায়ন করা তার ভাল দিকটি তুলে ধরার মূল উদ্দেশ্য এই লেখাটা।

এ প্রসঙ্গে হুমায়ুন আজাদের কথা বলি - আবর্জনাকে রবীন্দ্রনাথ প্রশংসা করলেও আবর্জনাই থাকে। আমরা সুন্দরকে সুন্দর বলি।।

আপনার অসীম মেধা, সৃষ্টিশীলতা, শিল্প-সাহিত্যে ও জগতে সাবলীল বিচরণ অনন্য করে তুলেছে। আশাকরি আপনার ঐকান্তিক একাগ্রতায়, অবিরাম আগ্রহ, নিরলস প্রচেষ্টা এবং ক্লান্তিহীন লেখালেখির মাধ্যম বিশ্বসভায় বাংলা সাহিত্যকে আরো উচ্চ আসন লাভ করবে।

""আপনার উজ্জ্বল অংশকে উদ্ভাসিত করেতে অতি সযত্নে কিছু লেখার চেষ্টা করলাম।
কতটুকু পারলাম জানিনা। তবে করুণা ধারার কথা৷ একজন ব্লগার কে নিয়ে এমন পোস্ট হতে পারে, ভাবতেই পারিনি - এমন ভাবনা সাহস যুগিয়েছে।।

ভালো থাকুন ।। আপনার দীর্ঘায়ু ও সফলতা কামনা করছি।।।

২৯| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:১১

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: ব্লগ ডেতে দেখে মনেই হয়নি আজই প্রথম দেখা!
অমায়িক হাসি আর প্রাণপ্রাচুর্যে ভরা আহমেদ জি এস ভাই।

তবে মন্তব্য পাঠে যে রাশভারী এক আবছায়া মনে আঁকা ছিল- একদমই মিলে নি!
স্লিম ফিগার ;) হাসিখুশি প্রাণোচ্ছল এক মানুষ।

জ্ঞান, প্রজ্ঞা আর জীবনবোধের গভীরতা লেখায়, মন্তব্যে, প্রতিমন্তব্যে সবখানেই দীপ‌্যমান।
উনার কাছ থেকে আমি প্রতিমন্তব্যে সম্বোধনের বিষয়টা এতই ভাল লেগেছে নিজেও মাঝে মাঝে চেষ্টা করি।
আট বছর সাত মাসের ব্লগিংয়ে উনার পোষ্ট ৩০৭ টি। প্রতিটিই যেন একেকটি রত্ন! যা থেকে শেখার আছে। বোঝার আছে।
জানার আছে।

আহমেদ জিএস ভায়া দীর্ঘায়ু, সুস্থতা এবং উভয়কালীন কল্যান কামনা করছি।
আর এ অধমের প্রিত আপনার ভালবাসার দৃষ্টিতে আপ্লুত, লজ্জ্বিতওবটে।
আমি এখনো ছাত্র এ ভুবন পাঠশালায় পৃথিবীর খাতায় জ্যামিতির কারিগরি আজো যে অধরা!
নিজের ভেতরে চেয়ে থাকি অহর্নিশি... কোথা তুমি কোথা তুমি এক অসীম শুন্যতা . . . .


কৃতজ্ঞতা অনেক অনেক।

০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:১৭

বলেছেন: অমায়িক হাসি আর প্রাণপ্রাচুর্যে ভরা আহমেদ জি এস ভাই,
""দেখে মনেই হয়নি আজই প্রথম দেখা! তবে মন্তব্য পাঠে যে রাশভারী এক আবছায়া মনে আঁকা ছিল- একদমই মিলে নি!
স্লিম ফিগার, হাসিখুশি প্রাণোচ্ছল এক মানুষ। জ্ঞান, প্রজ্ঞা আর জীবনবোধের গভীরতা লেখায়, মন্তব্যে, প্রতিমন্তব্যে সবখানেই দীপ‌্যমান""" ব্লগের তারকা খ্যাত বিদ্রোহী কবি
।।

এমন সুরভি ছড়ানো মন্তব্য মনে করয়ে দিলো আপনি বিদ্রোহী হলেও বাড়ন্ত ফলগাছের মতো স্নিগ্ধ ও কোমল।।
শান্তি পেলাম আপনার মন্তব্য পেয়ে।।।

ভালো থাকুন।।

৩০| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২২

আখেনাটেন বলেছেন: উনার কাব্যিক মন্তব্যগুলো সত্যিই অতুলনীয়। লা-জওয়াব। পোস্ট পড়ে পোস্টের মর্মার্থ উদ্ধার করে মন্তব্যের ঘরে ঐ অসম্ভব সুন্দর মন্তব্য অবশ্যই একজন ব্লগারকে উদ্দীপ্ত করে।

জয় তু ব্লগার আহমেদ জী এস। যুগ যুগ জিও।

০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:০৮

বলেছেন: আহমেদ জী এস বলেছেন: মহাকবি আখেনাটেন,
''আগে আমাদের জমিগুলো ছিলো একফসলা, হালে তাতে তিনটি ফসল হয়। হাইব্রীড কায়কারবার!
কবিতার জমিও এখন বহু ফসলা ..
আমাদের ফুচকা খেতে জিহ্বা বাড়িয়ে থাকা উত্তরাধুনিক প্রজাতির জন্যে এখন এধরনের কবিতার কৃষি গবেষনা ইন্সটিটিউট খোলা সময়ের চাহিদা মাত্র''



জয় তু ব্লগার আহমেদ জী এস। যুগ যুগ জিও।

৩১| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৩০

আখেনাটেন বলেছেন: রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: রাজীব নূরের বিখ্যাত উক্তি.....
আমাদের তরুণ প্রজন্মকে নিয়ে আমি হতাশ, ওরা পচে গলে গেছে।।। --অসাধারণ।।

আগে পিছে বাদ দিয়ে এক লাইন 'কোট' করলে সমস্যা।
--- ব্লগার ল, আপনি কিন্তু ব্লগার রাজীব নুরকে এক মন্তব্যে সমস্যায় ফেলে দিয়েছেন। :(
রাজীব ভাইয়ের এক লাইন দুলাইনের অস্বাভাবিকরকম প্রাসঙ্গিক ও গুরুগম্ভীর, বুদ্ধিদীপ্ত ও বাস্তবতাসংশ্লিষ্ট, সাহিত্যগুণ সমৃদ্ধ ও রসাত্মক, সু-তীক্ষ্ণ ও অত্যন্ত বিবেচক মন্তব্যগুলিকে আপনার বিবেচনায় নেওয়া উচিত ছিল। X(

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৮

বলেছেন: মহাশয় যাহা বলেন,
তাই সত্য।।।

রাজীব নূরই একমাত্র ব্লগার যিনি সহজ, সরল মন্তব্য করে সহব্লগারদের অনুপ্রেরণা দিয়ে যান।।

ধন্যবাদ নিরন্তর।।।

৩২| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫১

আহমেদ জী এস বলেছেন: @ জুন,




তিন তিনবার এসেছেন আমাকে নিয়ে লেখা এই লেখাটিতে। চোখের দেখা না হলেও অদৃশ্যে থেকেও যে দেখা যায়, বোঝা যায় তা বুঝলুম, ঐ যে ২৫ নম্বর মন্তব্যে লিখলেন - "উনি যে কি খুটিয়ে খুটিয়ে আমার অখাদ্য লেখাগুলো পড়ে অসাধারণ এক একটি মন্তব্য করেন তা আমি তার মন্তব্য পড়েই বুঝতে পারি।" সেখান থেকে।

আপনার পোস্টগুলোর দু'টিতে আমার করা মন্তব্য এখানে তুলে ধরায় কৃতজ্ঞ।

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৫৬

বলেছেন: চোখের দেখা না হলেও অদৃশ্যে থেকেও যে দেখা যায়,-- কিছু চোখ অনুভবের,অদৃশ্য মায়ার, আপন করে কাছে টানার।।


ভালো থাকুন।।।

৩৩| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৭

মুক্তা নীল বলেছেন:
আমার খুব প্রিয় একজন ব্যক্তিত্বের অধিকারী ও শ্রদ্ধাভাজন
আহমেদ জী এস ভাইকে নিয়ে যে পোস্টটি দিয়েছেন মাইলফলক হয়ে থাকবে। উনার মন্তব্য ও প্রতিমন্তব্য পড়ে শেখার অনেক কিছুই আছে এবং প্রতিনিয়ত শিখছি। আমার প্রিয় ব্যক্তিকে নিয়ে পোস্ট দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ এবং স্যারের
সর্বাঙ্গীণ মঙ্গল কামনা করছি আগামীতে উনি আরো ভালো থাকুন আমাদের সকলের মাঝে।

০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:০২

বলেছেন: আহমেদ জী এস বলেছেন: মুক্তা নীল,
''এরই নাম জীবন। এই জীবনের ঘাটে ঘাটে কতো যে জটিলতা তবুও জীবন থেমে থাকেনা, বয়েই চলে''

৩৪| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৮:১৪

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: সবইতো ভাললাগা!
এমন ধাঁধাঁয় ফেললেন মুক্তোর সমুদ্রে থেকে মুক্তো বাছাইয়ের ;)

দ্রুত যেগুলো পেলাম তাই টুকে নিলুম
<< আলোর স্বপনে সবাই মানুষ হয়ে উঠুক, এই প্রত্যাশা নিয়েই তো আমরা সবাই জেগে আছি।

<< শরতের নীল আকাশ শুধু আমার জন্যেই নয়, বরাদ্দ থাক বাংলার সকল মানুষের জন্যে। তারা যেন উদার হতে শেখে, হয় নির্মল!

<<যে চোখ আকাশ দেখেনা, দেখেনা আকাশের নীল; সে সব চোখের মানুষের অনুভব থাকেনা। আর তাই এ প্রজন্মের শিশু-কিশোরেরা সব অনুভূতি শূণ্য। তাইতো শিশু অপরাধ বাড়ছে দিনকে দিন। সহপাঠিকে গলা টিপে মারতে তাদের হাত কাঁপেনা এতোটুকুও।

<< এখনকার বাচ্চাদের কাছে এসব ইমোশন জিরো.... তারা মনে হচ্ছে ফিলিংলেস হয়ে বড় হচ্ছে ......
"মনে হচ্ছে" নয় তারা আসলেই অনুভূতি শূণ্য হয়ে গেছে। এই দীনতা ক্ষমা করো, ক্ষমা করো প্রভু...। এমন করে ক্ষমা চাওয়া ছাড়া এ থেকে উত্তরণের কোন পথ নেই। একদিন এ পৃথিবীটা ধূসর হয়ে যাবে এদের জন্যেই।

<< প্রকৃতি নিজেই প্রতিশোধ নেয় এবং ভয়ঙ্কর ভাবেই নেয়। মানুষ তা বোঝেনা কখনও।

আমাদের হারিয়ে যাওয়া সুকুমার মনোবৃত্তি, সেই বর্ণালী শৈশব বঞ্চিত এ প্রজন্ম... সব মিলিয়ে এক
দারুন ভাবনার পোষ্ট। ভাললাগার পোষ্ট! আরেকবার পড়বার মতো পোষ্ট!
একথার পরে আর কোনও কথা চলেনা। শুধু কৃতজ্ঞতার কথাই বলতে পারি!

<< প্রত্যেক মানুষের মাঝেই মনে হয় বাউন্ডুলে বাস করে একজনা। তাদের জীবনের কোনও একসময় কেটে গেছে এমন করেই হয়তো, অপূর্ণ বেদনা নিয়ে।

<< একসময় না একসময় অমোঘ নিয়তিতে মানুষকেও তো আকাশের ঠিকানায় ঘর বাঁধতে হয়! কোনও একদিন সেথায় আরেক মিথী যেন খুঁজে পান তার জুঁথিকে!

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৫৭

বলেছেন:

৩৫| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:০৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: @ করুণাধারা,




লেখকের অনুরোধে সাড়া দিয়ে আপনিই প্রথম আপনার পোস্টে করা আমার মন্তব্য তুলে ধরেছেন এখানে।
ভেবে দেখুন তো, আপনাদের মতো তেমন সব ব্লগার আছেন বলেই তো ব্লগের উঠোনখানি এখনও উথাল পাতাল কলরবে!

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৫৯

বলেছেন: উথাল পাতাল কলরবে! মিলিত হই করুণাধারায়.....

৩৬| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:০৬

পুলক ঢালী বলেছেন: যে কোন বিষয়ে লিখে আহমেদ জি,এস,ভাইয়ের বুদ্ধিদীপ্ত মন্তব্য পেলে সেই মন্তব্যের আলোকেই লেখার মান বুঝা যায়। জি,এস ভাই মন্তব্য করার আগে একেবারে খুটিনাটি বিষয় গুলিও গভীর মনোনিবেশে দেখে নেন তারপর মন্তব্য করেন, সেখানে কোন অসঙ্গতি থাকলে সুন্দরভাবে সেটা উপস্থাপন করেন। ওনার মন্তব্য মানেই আয়নায় যেন নিজেকে দেখা।
জি,এস ভাইয়ের মস্তিস্ক এবং এন্টিবায়োটিক বিষয়ক লেখাগুলি ব্লগের গৌরব যেমন বৃদ্ধি করেছে তেমনি সামুর সম্পদ হিসেবেও রয়েছে।

০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:১৭

বলেছেন: আহমেদ জী এস বলেছেন: পুলক ঢালী ,


''আজ হোক শরতের কাশের বনে হাওয়ার লুকোচুরি । সূর্য্য উঠুক , কাশের বনে উঁকি দিয়ে দেখুক হাওয়াদের খেলা''' .............

৩৭| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:০৮

আমি তুমি আমরা বলেছেন: লতিফ ভাই, আপনার পোস্টের সূত্র ধরে আহমেদ জী এস ভাইয়ের চমৎকার একটা পোস্ট পড়ে এলাম। এজন্য আপনি একটা ধন্যবাদ পেতেই পারেন :)

০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:১২

বলেছেন: আহমেদ জী এস বলেছেন: আমি তুমি আমরা,

""""হুমমমমমমম............... বসন্ত বলে কথা!
জলবসন্ত যে চিরকালের জন্যে ক্ষতের দাগ রেখে যায় তার প্রতীক হিসেবে, এ তো সত্য।।

৩৮| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:২১

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: সবাইকে দেখি ভালো লিখতে উৎসাহ দেয় কিন্তু ভালো মন্তব্য এর বিষয়ে তেমন উৎসাহ পাওয়া যায়না যেখানে ব্লগে তা অনেক বেশী জরুরী । আপনার লেখাটি পড়ে মনে হল ভালো লেখার পাশাপাশি আরও ভালো মন্তব্য করা প্রয়োজন । খুবই ভালো পোস্ট ।

হুম, আহমেদ জী এস ভাইয়ার মন্তব্যে কেমন একটা সুঘ্রাণ আছে । কেউ তাকে না দেখেও বলে দিতে পারবে এটি তাঁর করা মন্তব্য ।। একদম পাকা রাঁধুনির মত :#)

০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:৫৮

বলেছেন: আহমেদ জী এস বলেছেন: কথার ফুলঝুরি!
''একটি ভালো বাসাকেও ভালোবাসার অনেক ধকল পোহাতে হয়। গায়ের চামড়া ( মেঝে ) ছিলে ছিলে ঘসামাজা করার কষ্ট সইতে হয় রোজ রোজ। এন্টেরিয়র ডেকোরেশানের পাল্লায় পড়ে এখানে ওখানে হাতুরী ছেনীর আঘাত বুক পেতে নিতে হয়। দিনের সূর্যের আলো যাতে দেখতে না পারে সে জন্যে ভারী বাহারী পর্দার আড়ালে জানালাগুলো ঢেকে দেয়ার জ্বালাটাকেও সইতে হয়''.

৩৯| ৩১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৫১

আহমেদ জী এস বলেছেন: @ বিদ্রোহী ভৃগু




আমাকে নিয়ে দু'দুটো মন্তব্য করেছেন। আমার একদিস্তা মন্তব্যও তুলে ধরেছেন।
যে চোখ আকাশ দেখেনা, দেখেনা আকাশের নীল; সে সব চোখের মানুষের অনুভব থাকেনা। এই মন্তব্যটা আমার একান্ত গভীরে থাকা সবচে' বাস্তব একটা অনুভব। এটাও তুলে এনেছেন দেখে ভালো লাগলো।

আপনার মতো ব্লগাররা আছেন বলেই ব্লগটা এখনও ঝিমিয়ে যায়নি । ভুলিনি, গত কয়েকটা মাসের অবরূদ্ধ ব্লগেও আপনার দৃপ্ত পদচারণা, ব্লগ আঁকড়ে পড়ে থাকতে হাতে গোনা আমাদের কয়েকজনকে কিভাবে উৎসাহিত করে গেছে।

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:০১

বলেছেন: """প্রত্যেক মানুষের মাঝেই মনে হয় বাউন্ডুলে বাস করে একজনা। তাদের জীবনের কোনও একসময় কেটে গেছে এমন করেই হয়তো, অপূর্ণ বেদনা নিয়ে""" ---

অসম্ভব ভালোলাগার।।।

৪০| ০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:২৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





আমার পক্ষ থেকে ব্লগার ল ভাইয়ের মাধ্যমে “আহমেদ জী এস” ভাইকে সামান্য উপহার।

০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:৪১

বলেছেন:


অফুরান ধইন্যবাদ রইলো কমরেড।।।

৪১| ০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৩০

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: লেখক বলেছেন : আপনি একজন দক্ষ বুনন শিল্পী।। কিছু কিছু ব্লগারের লেখা পড়ে ভাবি '' ইস কেন আগে পড়া হলো না, কেমন করে এত সুন্দর করে লিখে, কি অদ্ভুত সুন্দর -- আপনি তার সবগুলো।।।।

ভালোবাসা রইলো।।।


সামুতে এমন অনেক কিছু পেয়েছি যা অনেক কাছের মানুষদের কাছ থেকেও পাইনি।
পছন্দের গানের কয়েক লাইন আপনি সহ সামুর মানুষ গুলোর জন্য, আশাকরি পৌঁছে দেবেন-----
দূরের মানুষ কাছের মানুষ, দূরের মানুষ কাছের মানুষ জটিল সমীকরণ, সরল মনে তরল কাধে করছি তাকে বরণ, করছি তাকে বরণ।

দূরের মানুষ , কাছের মানুষ
জটিল সমীকরণ,
সরল মনে তরল কাঁধে
করছি তাকে বরণ, করছি তাকে বরণ।

০৩ রা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৩৯

বলেছেন: ভালোয় কাটুক সকলের দিনগুলো।।।


গানের কলির জন্য ধন্যবাদ।।।

৪২| ০২ রা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:১০

আহমেদ জী এস বলেছেন: @ঠাকুরমাহমুদ,




আপনার সামান্য উপহারটুকু যে এক অসামান্য ভালোবাসারই প্রতীক তা কি জানেন ?
কৃতজ্ঞতার সাথে গ্রহন করলুম।

আর এই সাথে আপনাকেও ধন্যবাদ আমার কাছে এমন অনুপম একটি উপহার পৌঁছে দেয়ার জন্যে।

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:০৩

বলেছেন: ""এক অসামান্য ভালোবাসারই প্রতীক"" পোস্টটিকে পূর্ণতা দিলো।।।

৪৩| ০৩ রা নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:০২

নীল আকাশ বলেছেন: লতিফ ভাই,
উনি আমার খুব শ্রদ্ধেয় গুরুজন। ব্লগে যার প্রতিটা কথা আমি মনোযোগ দিয়ে শুনি এবং পালন করি সেটা হচ্ছে জী এস ভাই।
আমি ব্লগে ঢুকেই প্রথমে আমার অনুসারিত ব্লগে ঢুকে দেখি উনার কোন লেখা আছে নাকি?
ঊনার একটা কবিতাঃ
তুই ফেলে এসেছিস কারে ......
আমি কতবার যেয়ে পড়ে এসছি সেটা আমি নিজেও বলতে পারবো না।
আমি গল্প লিখি বেশিরভাগ সময় আর উয়ান্র সেই গল্পগুলি কি যে দারুণ সব মন্তব্য করে আসেন!! আমি গল্প দেয়ার পর অপেক্ষা করি কখন উনি পড়বেন? আর পড়ার পর মন্তব্য করবেন।
আমার ভীষন পছন্দের একজন ব্লগারকে নিয়ে লেখার জন্য আপনাকে অভিনন্দন এবং কৃতজ্ঞতা জানালাম।
ধন্যবাদ।

০৩ রা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৩৭

বলেছেন: আপনার মন্তব্যগুলি পড়তে পড়তে নিজের চোখ আদ্র হয়ে এলে।

""" আজও উনার সেই উপদেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করি। যে কোন পোস্টে আমার মন্তব্য থেকে প্রায়ই শেষ দিকে। কারণ আমি লেখাটা বশ কয়েকবার ভালো করে পড়ার পরই মন্তব্য করতে বসি""" নীল আকাশ।।।



একজন ব্যতিক্রমী চিন্তার মানুষ হিসাবে আহমেদ জি এস কতটা ভালোবাসার,
কতটা আপন সেটা আবারো প্রমাণিত হলো।

আপনাকে অনিঃশেষ ধন্যবাদ।।
ভালো থাকুন।।

৪৪| ০৩ রা নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৩৪

নীল আকাশ বলেছেন: ঊনি আমাকে একটা মন্তব্যে বলেছিলেনঃ
আপনার জানার জন্যে বলি - আমি কোনও লেখা পড়লে তা ধৈর্য্য নিয়েই সবটা পড়ি নইলে প্রাসঙ্গিক মন্তব্য কি করে করবো ? একটু আধটু পড়ে বা না পড়েই বাহবা দিয়ে কোনও মন্তব্যই করিনে , করিও নি আমার ব্লগীয় জীবনে। ওটা লেখকের সাথে একরকম প্রতারণা করারই মতো ।
আমি আজও উনার সেই উপদেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করি। যে কোন পোস্টে আমার মন্তব্য থেকে প্রায়ই শেষ দিকে। কারণ আমি লেখাটা বশ কয়েকবার ভালো করে পড়ার পরই মন্তব্য করতে বসি।

১। আমি ব্লগে প্রথম গল্প লিখেছি আর উনি এসে বল্লেনঃ
"বিষয়বস্তুতে নতুনত্ব না থাকলেও লেখার জোরে একটানে পড়ার মতো"।
গুরু কথা আর ফেলি কিভাবে? সেই থেকে গল্প লেখা শুরু করলাম!!!

২। একটা বিরহের গল্প লিখলাম খুব সাহস করে। আমার কাছ বিরহ মানেই নীল রং। উনি এসে বল্লেনঃ
"নীল আকাশ, প্রেমের আর্তি আকাশের মতোই অবারিত হয়। আর বেদনার রংও নাকি, নীল। নীল আকাশ অবলীলায় তেমনি একটি গল্প লিখে গেছেন নীল রংয়ে রাঙিয়ে"।

৩। শবনমের সবচেয়ে সেরা গল্প "ছেড়া পালে লাগে হাওয়া" তে উনি এসে বলে গেলেনঃ
"নীল আকাশ , জম্পেশ লেখা হয়েছে। শাহ জেহান বাদশা যদি তার "নুর জেহান" এর জন্যে তাজমহল বানিয়ে দিতে পারে তবে আমাদের শুভ এস-পি সাহেব গোটা দুই রোড এক্সিডেন্ট ঘটিয়ে ফেলতে পারবেনা, তা কি হয় ? :P
তাহলে, শেষতক রাপা প্লাজার রফা হলো ? এই ঘটনা গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে না উঠুক, সামুব্লগে তো বন্দি হয়ে রইলো, তাই বা কম কি?"
- আমি মাঝে মাঝেই এই মন্তব্যটা পড়ি গল্প লেখার ইন্সপারেশনের জন্য।

৪। শবনমের শেষ গল্প। আমার এটার জন্য আলাদা সফট কর্নার আছে। উনি পড়ে বললেনঃ
"নীল আকাশ, মনে হচ্ছে কথাটি ঠিক - "প্রেমের মরা জলে ডোবেনা।" প্রেম স্বৈরতান্ত্রিক বলেই ব্যক্তিগত মোটর সাইকেলের মতো ( যদিও সেটা ছিলো সম্ভবত পুলিশের!) গো....গো...শব্দ করে ঘুরপাক খায়। চক্কর মারে সারাটা শহর। গনতান্ত্রিক হলে পাবলিক ট্রান্সপোর্টে উঠে পড়তো।
প্রেম সম্পর্কে শুভর এই বৈজ্ঞানিক ধারনা এখনকার সকল প্রেমিকদের " মেটেরিয়া মেডিকা" হয়ে উঠতে পারে সন্দেহ নেই। হলে শুভর মতো পুলিশদের কাজকাম বাড়বে, মুফতে বার্গার-পিজ্জা খাওয়ার ধুম পড়বে।
প্রেম নিয়ে এতো কথা বলার কারন হলো- শবনম। মুখে ফটফট করা মেয়েটিরও যে বুক ছটফট করে প্রেমে! তার ঊথলে ওঠা প্রেম এই লেখায় বোটানিক্যাল গার্ডেনের গাছ-গাছালির মতো যে সাজিয়ে রেখেছেন, তাও যে কারো মনে হাওয়ার দোলা দিয়ে যেতে পারে, তাই।
শুভ - শবনমের প্রেমের মতোই টগবগে স্নিগ্ধ হয়েছে "শায়মা"র আঁকা ছবিটাও। "মনিরা সুলতানা" র কবিতার লাইনগুলোও গল্পের ফিরনীর মাঝে কিসমিসের মতোই। ভালো লাগলো।"
আমি ভয়ে ভয়ে ছিলাম ঠিক মতো প্রেমের গল্প লিখতে পেরেছি নাকি? এক মন্তব্যেই সব ভয় খতম।

৫। ভিন্ন ধরনের গল্প লিখলাম "স্বৈরাচারিণী" । উনি পড়ার পর মুগ্ধ। কি বলেছে দেখুন?
"বাঘে ছুঁলে আঠারো ঘা হয় আর পুলিশে ছুঁলে নাকি ছত্রিশ ঘা ! তাহলে "পুলিশিনী" ছুঁলে যে বাহাত্তর ঘা হবে তা রেশমার কারিশমায় বুঝিয়ে দিলেন।
জম্পেশ লেখা হয়েছে। একদম পুলিশের ইস্ত্রী করা পোষাকের মতো টাইটফিট।
সেমিট্রান্সপারেন্ট লেখার ভেতর দিয়ে সব কিছু পরিষ্কার দেখা গেল। দেখা গেলো যে, গল্পকার নিজেও সম্ভবত একজন ইঞ্জিনিয়র, লেখালেখির বাতিক আছে, বিশেষ করে গল্প। সে সব গল্পে আবার পুলিশের জয়জয়কার। ইদানীং কবিতা লেখায় হাত পাঁকাতে শুরু করেছে"।

৬। কবিতা আমি খুব একটা লিখি না। তবে একটা বিষয়ের উপর কবিতার সিরিজ আছে। বেহায়াপনা আমি একদম পছন্দ করি না। বিশেষ করে মডেলিং এর নামে। এখানে এসে উনি কি বলেছেন দেখুন?
"কবিতা হিসেবে সত্যিই ফাটাফাটি। তবে সমগ্র বক্তব্য রোমান্টিকতায় ভরপুর। যা কিছু যুক্তির অতীত, অবৈধ, অন্ধকারাচ্ছন্ন, রহস্যময়, যা কিছু গোপন, পাপোন্মুখ-ঐশ্বরিক ও অনির্বচনীয়; সেই বিশাল ও স্বতোবিরোধময় বিস্ময়ের সামনে মুখোমুখি দাঁড়াবার শক্তির নামই "রোমান্টিকতা"। যা আপনার কবিতার দু'টি অংশে প্রবল। এই রোমান্টিকতা কোনও যুগেই একেবারে রূদ্ধ হয়ে থাকেনি, প্রকাশ ঘটেছে তার বিস্ফোরণের মতো নইলে নিঃস্তরঙ্গ কোনও লক্ষন হিসেবে"।

৭। মিথিলার ভালোবাসার নিয়ে একটা গল্পে উনি বলেছিলেনঃ
"চমৎকার লিখেছেন । মিথিলা ও মাসুদের কথোপকথন খুব যৌক্তিক ও প্রাসঙ্গিক হয়েছে । ছন্দপতন হয়নি কোথাও ।
লাইকড............"
-এই গল্প পুরোটাই কথোপকথনের উপর লেখা। কতবড় সম্মান উনি আমাকে দিয়েছেন চিন্তা করুন?

আমার প্রতিটা লেখায় উনার মন্তব্যগুলি মুক্তার মতো জ্বলজ্বল করে। সবগুলি যদি এখানে দিতে চাই তাহলে আস্ত একটা পোস্ট হয়ে যাবে। তাই বেছে বেছে কয়েকটা দিলাম।

গুরুজী, আপনার প্রতি আমার শ্রদ্ধা এবং কৃতজ্ঞতা র কোন অন্ত নেই। সেই প্রথম যেদিন থেকে লেখা শুরু করেছি সেই দিন থেকে।


০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:০৫

বলেছেন: You are a TOP Leaders....


Thumbs-up....

৪৫| ০৩ রা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:১৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: @ নীল আকাশ,




আকাশের মতোই উদার আপনার মন তাইতো এমন রংধনু রঙে মাখিয়ে "আহমেদ জী এস" সম্পর্কে বলে গেলেন।
সে রঙ নিয়ে "আহমেদ জী এস" তার মনের ক্যানভাসে ফুটিয়ে রাখবে একটি নীল আকাশের ছবি!




০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৪৯

বলেছেন: নীল আকাশ, আকাশের মতোই উদার

অসংখ্য ধন্যবাদ।

ভালো থাকুন অনেক অনেক।

শুভেচ্ছা।

৪৬| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:০০

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





আহমেদ জী এস ভাই,
আপনার প্রতি অনেক অনেক ভালোবাসা ও দোয়া রইলো।


০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:১৭

বলেছেন: আপনাকে অনিঃশেষ ধন্যবাদ।।
ভালো থাকুন।।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.