নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

হে মানব! আর নয়তো দেরী; জেগে তুলে বিবেকের তরী করো হিংসার বলিদান। জন্মান্ধ হয়ে থেকো নাকো তুমি;মানুষ বলে হও বলিয়ান ।

তুমি জীবন খুঁজো সুখের নীড়ে, আমি জীবন খুঁজি দুঃখের ভীরে।,,, রহমান লতিফ,,,,

› বিস্তারিত পোস্টঃ

অহর-প্রহর

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:০৩


অহর-প্রহর

হে নীলকান্তমণিহার,
যত সহজেই তুমি বলো তারে,নীরবতার অন্তিমপুর !
ততটাই কাঠিন্যে আমি বলি,বেদনার নীলকন্ঠি সুর,
আজ শ্যাওলা কাদায় পরিপূর্ণ ; দুজনার হৃদয়পুর,
হয়না'কো শোনা একাকিত্ব ছুঁয়ে সুরলহরী বেদনাবিধুর।

হে সর্বশী,
আবার যদি কখনো নিভৃত -নির্জনে, কৃঞ্চকলির পানে চেয়ে থাকি অতি সযত্ন !
বুকচিতিয়ে দেখাতাম, কত রাত,কত ভাবনার অন্তরর্জ্বালা দিয়ে রচিত গল্পকথন,
করুণ চিত্র তুলির আঁচলে জীবনচর্চার টুকরো টুকরো রতন,
তোমায় শোনাতাম শেষ লেখা চতুষ্পদী কবিতার পঙক্তি সঙ্গোপন।

হে ষোড়শী,
আবার যদি দেখা হয় ভুল করে,ভুলে যাওয়া মেঠো পথ ধরি,
তোমার খোঁপায় পড়িয়ে দিতাম কবিতার রক্তকরবী,
তোমাকেই দেখাতাম অতৃপ্ত বাসনার বিপুলা বেদনাবহর,
কতটা অনাদর,কতটা তেষ্টায় কেটেছে অহর- প্রহর।।


কপিরাইট@রহমান লতিফ,

মন্তব্য ৪৬ টি রেটিং +৮/-০

মন্তব্য (৪৬) মন্তব্য লিখুন

১| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:৫৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





এ রকম স্বপ্ন সবার মনেই থাকে কম বেশী।
- তবে কি, স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যায়।।



০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:৪০

বলেছেন: স্বপ্নরা অধরা থেকে যায় তবু
মানুষ স্বপ্ন দেখে
তবুও বালুচরে বাঁধে ঘর।।।।।

২| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:০৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




ডোরাকাটা দাগ দেখে বাঘ চেনা যায়,
বাতাসের বেগ দেখে মেঘ চেনা যায়,
মুখ ঢাকা মুখোশের এই দুনিয়ায়
মানুষকে কি দেখে চিনবে বল ?

মানুষকে কি দেখে চিনবে বল ?



০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:৪১

বলেছেন:
কে যেন বলেছে হায়!!
""মানুষ চেনা দায় ""

৩| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ২:২১

মুক্তা নীল বলেছেন:
ল'ভাই ,

অহর প্রহরে'ই যদি এই একাকীত্বে অন্তরর্জ্বালা বিরহবেদনা
তাহলে, হয়তোবা একতরফা হয়না । কবিতার থিম সুন্দর
বিরহের কবিতা ভালোলাগা ।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৩:৪৬

বলেছেন: অনেক বিরহ শেষে
আসে মধুর বসন্ত.....


সময় নিয়ে পড়ার জন্য কৃতজ্ঞতা।।।

৪| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ২:২৭

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: সুন্দর কবিতা।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৩:৫৫

বলেছেন: ধন্যবাদ """কবিতার মেঘদূত"""

ভালো থাকুন।।।

৫| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ২:২৮

আরোগ্য বলেছেন: বাহবা বেশ বড় ভাই। অহর প্রহরের পরডে পরতে ভালোলাগা।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৩:৫৭

বলেছেন: পরতে পরতে ভালোলাগায় উজ্জীবিত।।

বিন্দু বিন্দু দুঃখ নদী থেকে শুদ্ধতার সিন্ধু আসুক

ভালোবাসা রইলো।।।

৬| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:০২

ইসিয়াক বলেছেন: অতীত নতুন করে সাজাবার দুর্দমনীয় প্রত্যাশা
ভুল যত ছিলো সব সুধরাবার মিছে আশা ।
প্রেমময় সেই ক্ষণে হয়তো ছিলো কিছুটা অবহেলা
বেলা শেষে খেলা করে সেই দহন জ্বালা।

“কবিতায় মুগ্ধতা”

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:২৬

বলেছেন: বেলা শেষে খেলা করে সেই দহন জ্বালা ----

দহন, দাহ্য, দোটানা আছে ব'লেই হিসাবে গড়মিল লেগে থাকে --- জীবন বেহিসেবী।।।


কাব্য কথায় মুগ্ধতা।।।।

শুভ সকাল।।।

৭| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: শুভ সকাল।
অত্যন্ত মনোমুগ্ধকর একটি কবিতা পাঠ করলাম।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:১২

বলেছেন: শুভ দুপুর,

কবিতাখানা পাঠ করার জন্য ধন্যবাদ।।।
ভালো থাকুন টুকরো টুকরো সুখ নিয়ে।।।

৮| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৪৪

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: একাকিত্বের অহর -প্রহর যদি ছন্দময় হয় তাহলে চলুক তবে....
কাব্যে ভালোলাগা।
শুভকামনা প্রিয় লতিফ ভাইকে।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:১৪

বলেছেন: আমার একলা পাখি
একলা বিরহে
তোমায় ডাকি...

কেমন করে, কোন কদরে তোরে খাঁচায় পুষে রাখি
আমারা একলা পাখি, মেলো আঁখি
আজ এইবেলায় তোরে ডাকি রে...


ভালো থাকুন সকাল, দূপুর, রাত।।।

৯| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৪৯

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: অনেকদিন পর আপনার কবিতা পেলাম। 'আবার যদি ' এর মধ্যে অসীম হাহাকার আর অপেক্ষায় খুঁজে নিলাম। কবিতায় ভালো লাগা জানবেন। প্রিয় ব্লগার।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:২০

বলেছেন: ধন্যবাদ, ধন্যবাদ এবং ধন্যবাদ,,
একজন উদীয়মান, শক্তিমান, স্বপ্নবাজ কবির কাছে ভালোলাগা মানে ভালোলাগায় আহ্লাদিত বোধ।।।


আবার যদি কথা হয় কোন কবিতায়.....
আবার যদি গাঁথা হয় ছন্দ সুর কোন গীতিকায়
দুজনে অপেক্ষার অগ্নিকে করিবো নির্বাপন জ্বলছে যে চিতায়.........

ভালো থাকুন।।।

১০| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪২

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
ভাল লিখেছেন।

এনামে মনিরা সুলতানা আপুরও একটা কবিতা আছে।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৮

বলেছেন: ধন্যবাদ প্রিয় সরকার ভাই,
মনিরা আপুর কবিতা তো বেস্ট।।।

পাঠে ও মন্তব্য করার জন্য কৃতজ্ঞতা।।।

আপনার স্মরন শক্তি এমন প্রখর থাকুক আজীবন---

-- ভালো থাকুন।।।

১১| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫০

নীল আকাশ বলেছেন: চলে যাওয়া মানে প্রস্থান নয়- বিচ্ছেদ নয় চলে যাওয়া মানে নয় বন্ধন ছিন্ন-করা আর্দ্র রজনী চলে গেলে আমারও অধিক কিছু থেকে যাবে আমার না-থাকা জুড়ে। - রুদ্র মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ

এই শূন্য ঘরে, এই নির্বসনে কতোকাল, আর কতোকাল! আজ দুঃখ ছুঁয়েছে ঘরবাড়ি, উদ্যানে উঠেচে ক্যাকটাস্ত কেউ নেই, কড়া নাড়ার মতো কেউ নেই, শুধু শূন্যতার এই দীর্ঘশ্বাস, এই দীর্ঘ পদধ্বনি। - মহাদেব সাহা

ফেলে আসা কিছু মুহুর্ত, ভুলে থাকা কিছু সময়,
অচেনা কোন শুন্যতা আর অনেক না বলা কথা
বার বার ফিরে আসে,
মন খারাপ আর চোখের জলে।
এক অচেনা সুখের আবেশী অনুভুতি সমস্ত প্রানজুড়ে,
একাকিত্ব কি তবে সুন্দর!! সৃষ্টির আনন্দে মুখর!!
- ইন্দ্রাণী সেনগুপ্ত

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:১০

বলেছেন: আপনার ""থট"""দেন ...
আপনার " আট লাইন "" কবিতা চাই।।।

১২| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:২৫

নীল আকাশ বলেছেন: এখন একটা ভৌতিক গল্প নিয়ে ব্যস্ত। কবিতা থেকে শত হস্ত দূরে আছি। লেখাটা আগে শেষ হোক।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৬

বলেছেন: জ্বীন-ভূত নিয়ে আবারো আসছেন।।।


অপেক্ষায় রইলুম।।

১৩| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৮

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: শুভ দুপুর,

কবিতাখানা পাঠ করার জন্য ধন্যবাদ।।।
ভালো থাকুন টুকরো টুকরো সুখ নিয়ে।।।

অনেক ধন্যবাদ।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২৭

বলেছেন: বারে বারে ফিরে আসার জন্য কৃতজ্ঞতা।।।

১৪| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩৭

হাবিব স্যার বলেছেন:




"কখনো যদি হায় মনে পড়ে গো আমায়
স্মৃতির জানালা রেখেছি খোলা আজি শূন্য হিয়ায়
তোমায় ভালোবাসতে বাসতে যাই যদি হারিয়ে পৃথিবীর ভীরে
এপারে যদি না পাও দেখা........
পাবে মোরে ঐ পারে........।।।"

আপনার কবিতা খানি পরে মনে হলো লাইনগুলো।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৪৬

বলেছেন: জীবন হয়েছে এক প্রার্থনার গানের মতন
তুমি আছ বলে প্রেম, গানের ছন্দের মতো মন
আলো আর অন্ধকারে দুলে ওঠে তুমি আছ বলে!
হৃদয় গন্ধের মতো—হৃদয় ধুপের মতো জ্ব’লে
ধোঁয়ার চামর তুলে তোমারে যে করিছে ব্যজন।
ওগো প্রেম, বাতাসের মতো যেইদিকে যাও চলে
আমারে উড়ায়ে লও আগুনের মতন তখন!
আমি শেষ হব শুধু, ওগো প্রেম, তুমি শেষ হলে!
তুমি যদি বেঁচে থাক,—জেগে রব আমি এই পৃথিবীর 'পর—
যদিও বুকের 'পরে রবে মৃত্যু—মৃত্যুর কবর! .....................জীবনানন্দ


১৫| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৫৩

তারেক ফাহিম বলেছেন: কবিতার প্রতিটি চরনে ভালো লাগা জানবেন।

++

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:০৯

বলেছেন: তারেক ফাহিম,

সময় নিয়ে পড়ার জন্য কৃতজ্ঞতা

ভালোবাসা জানবেন

১৬| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:০৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





চলে যাওয়া সময় নিয়ে সবাই দুঃখ করেন না। দুঃখ করতে জানেনও না। আসলে নিজেকে দোষী মনেই করেন না। তাহলে কার জন্য দুঃখ করবেন আর কিসের জন্য দুঃখ করবেন !

আপন আপন করিস যারে, সে তো আপন নয় - - - - -


০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:১৬

বলেছেন: শুধু তোমাকে একবার ছোঁব,
ঐ আনন্দে কেটে যাবে সহস্র জীবন।

শুধু তোমাকে একবার ছোঁব,
অহংকারে মুছে যাবে সকল দীনতা।

শুধু তোমাকে একবার ছোঁব,
স্পর্শসুখে লিখা হবে অজস্র কবিতা।

শুধু তোমাকে একবার ছোঁব,
শুধু একবার পেতে চাই অমৃত আস্বাদ।

শুধু তোমাকে একবার ছোঁব,
অমরত্ব বন্দী হবে হাতের মুঠোয়।

শুধু তোমাকে একবার ছোঁব,
তারপর হব ইতিহাস।
--------------------------------নির্মলেন্দু গুণ-------------

১৭| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:২৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





হাজার মনের কাছে প্রশ্ন রেখে
একটি কথাই জেনেছি আমি
পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছুই নেই।

তবুও মানুষ করে হৃদয়ের গৌরব
বলে প্রেম সেইতো ভূলে যা সৌরব
আমি বলি মিছে সব মানুষের জন্য।
ফুলের মত মন মানুষের নেই
পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছুই নেই।

নিজের হাতের গড়া স্বার্থের শৃংখল
হয়ে গেছে আজতো পৃথিবীর সম্বল
যারা চায় চিরদিন চেয়ে তারা ধন্য
আসলে দেবার কারো কিছু আর নেই
পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছুই নেই।


-------------------- গানে আর কবিতায় উত্তর হবে ----------------------------------

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:৩৮

বলেছেন: যার জন্য ঘর বানাইলাম
সে রইল না ঘরে,,,
সেই ঘর উড়াইয়া নিল
কাল বৈশাখি ঝরে
প্রাণটা আমার ছট ফট করে,,
প্রাণটা আমার ছট ফট করে,,
বুকে হাহাকার আমার
ভালবাসার ময়না পাখি
এখন জানি কার,,,

কলিজাতে দাগ লেগেছে
কলিজাতে গো...
কলিজাতে দাগ লেগেছে হাজারে হাজার আমার
ভালবাসার ময়না পাখি
এখন জানি কার
ভালবাসার ময়না পাখি

এখন জানি কার

শিকল কাটা পাখির মত
উড়িয়া সে গেলো...
সেদিন হইতে আমার জীবন
সুধু এলো মেলো
শিকল কাটা পাখির মত
উড়িয়া সে গেলো
সেদিন হইতে আমার জীবন
সুধু এলো মেলো
জাতের কুলে দাগ লাগাইলো
জাতের কুলে দাগ লাগাইলো
কান্না হইল সার আমার
ভালবাসার ময়না পাখি

এখন জানি কার

ভালবাসার ময়না পাখি
এখন জানি কার

যার জন্য ঘর বানাইলাম
সে রইল না ঘরে,,,
সেই ঘর উড়াইয়া নিল
কাল বৈশাখি ঝরে
যার জন্য ঘর বানাইলাম
সে রইল না ঘরে,,,
সেই ঘর উড়াইয়া নিল
কাল বৈশাখি ঝরে
প্রাণটা আমার ছট ফট করে,,
প্রাণটা আমার ছট ফট করে,,

বুকে হাহাকার আমার
ভালবাসার ময়না পাখি

এখন জানি কার
ভালবাসার ময়না পাখি
এখন জানি কার

যার জন্য সব হারাইলাম
সে রাখলনা মনে
কার জন্য এতো ব্যথা
সইলাম এই জীবনে...
যার জন্য সব হারাইলাম
সে রাখলনা মনে
কার জন্য এতো ব্যাথা
সইলাম এই জীবনে
ভেবে কয় জীবন দেয়াওনে
ভেবে কয় জীবন দেয়াওনে
সুখের জীবন কার আমার
ভালবাসার ময়না পাখি
এখন জানি কার
কলিজাতে দাগ লেগেছে
কলিজাতে গো...
কলিজাতে দাগ লেগেছে
কলিজাতে দাগ লেগেছে হাজারে হাজার আমার
ভালবাসার ময়না পাখি
এখন জানি কার
ভালবাসার ময়না পাখি
এখন জানি কার
ভালবাসার ময়না পাখি
এখন জানি কার

১৮| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:৪৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





বেশি কিছু আশা করা ভুল
বুঝলাম আমি এতদিনে
মুক্তি মেলে না সহজে
জড়ালে হৃদয় কোনো ঋণে


এই জগতে এমনও লোক থাকে
স্বপ্ন দেখতে নেই যাদের
দুঃখের মূল্যতে গেয়ে
কঠিন সত্যি নেই কিনে


বেশি কিছু আশা করা ভুল
বুঝলাম আমি এতদিনে
মুক্তি মেলে না সহজে
জড়ালে হৃদয় কোনো ঋণে

আমি সেই সে দলের একজনা
বুকে যার শুধু বঞ্চনা
যে বর্ষার মেঘ পেরিয়ে
আসে না আলোরা আশ্বিনে

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:৫০

বলেছেন: কেন পিরিতি বাড়াইলারে বন্ধু
ছেড়ে যাইবা যদি
কেমনে রাখবি তোর মন
কেমনে রাখবি তোর মন
আমার আপন ঘরে বাধিরে বন্ধু
ছেড়ে যাইবা যদি

পাড়া পড়শী বাদী আমার
বাদী কাল ননদী
মরম জ্বালা সইতে নারি
দিবা নিশি কাঁদিরে বন্ধু
ছেড়ে যাইবা যদি

কারে কী বলিব আমি
নিজেই অপরাধী
কেঁদে কেঁদে চোখের জলে
কেঁদে কেঁদে চোখের জলে
বহাইলাম নদী রে বন্ধু
ছেড়ে যাইবা যদি

পাগল আব্দুল করিম বলে
হলো এ কী ব্যাধি
তুমি বিনে এ ভুবনে
তুমি বিনে এ ভুবনে
কে আছে আছে ঔষধি রে বন্ধু
ছেড়ে যাইবা যদি ...............................শাহ আব্দুল করিম--------------

১৯| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:৫৭

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




বন্ধু হতে চেয়ে তোমার
শত্রু বলে গন্য হলাম
তবু একটা কিছু হয়েছি যে
তাতেই আমি ধন্য হলাম


না হয় ভেজালে না একটু হাসি বৃষ্টিতে
আমায় দেখে জ্বাললে আগুন ঐ দৃষ্টিতে
তবু অন্য হাজার জনের মাঝেই
আমি অনন্য হলাম
শত্রু বলে গন্য হলাম

তোমার অনুরাগে নইবা হলাম ছন্দময়
বিরূপ মনের ভাবনা হলাম সে-ও মন্দ নয়
আমি বৈরী হলেও দোষ কি বলো
সে তোমার জন্য হলাম
শত্রু বলে গন্য হলাম

------------------------------------- চিরো সবুজ প্রিয় সুবীর নন্দী ------------------------------------

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:০১

বলেছেন:
এক একটা দিন বড় একা লাগে ।।
ঘুম চোখ খুলে দেখি ভোর নেই আর,
ভালো করে সকালটা পাওয়া হয় না।
এক একটা দিন বড় একা লাগে!

এক একটা দিন বড় একা লাগে ।।
আঙ্গুলের ফাঁকে ধরা খোলা কলম,
গান বা তোমাকে চিঠি লেখা হয় না।
এক একটা দিন বড় একা লাগে!

এক একটা দিন বড় একা লাগে ।।
বিকেলে তোমার সাথে একলা ঘরে,
কি কথা বলবো আমি ভেবে পাই না।
এক একটা দিন বড় একা লাগে!

এক একটা রাত বড় একা লাগে।।
পাশ ফিরে শুলে খাট কঁকিয়ে উঠে
কান পেতে থাকি হাওয়া জেগে উঠে না
কান পেতে থাকি কেউ জেগে উঠে না
এক একটা রাত বড় একা লাগে!
------------------------------------(শিল্পী: মৌসুমী ভৌমিক)------------------------

২০| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:১৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




আমি একা বড় একা
আমার আপন কেউ নেই,

আশা নেই আলো নেই
শুধু যে আঘাত সবেতেই
আমার আপন কেউ নেই।

ও বিধাতা কি হে চাও
কেন এ ব্যাথা দিয়ে যাও,
জানিনা কী অপরাধে
দিলে তুমি অকরুণ সাজা এই,
আশা নেই আলো নেই
শুধু যে আঘাত সবেতেই
আমার আপন কেউ নেই।

জীবনের যত ছিল গান
অকালে তা হল অবসান,
রেশটুকু তাও তো গেল
ভাঙা এই হৃদয়ের ছোঁয়াতে,
আশা নেই আলো নেই
শুধু যে আঘাত সবেতেই
আমার আপন কেউ নেই

--------------------------------------------
শিল্পী- অমিত কুমার (ভারতীয় বাঙ্গালী)
--------------------------------------------
ল ভাই ট্রেন লাইনে রাখবেন।

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:১৬

বলেছেন: দুটি মন আর নেই দুজনার
রাত বলে আমি সাথী হবো যে
ফাগুনের রাতে আমি
রূপকথা হয়ে কাছে রবো যে
দুটি মন আর নেই দুজনার

ফুল বলে রঙে আর ছেও না
পাখি বলে আর গান গেও না (x2)
আমাদের মিতালীর মায়া কে
কানে কানে কতো কথা কবো যে
দুটি মন আর নেই দুজনার

শুকতারা বলে আমি আছি তো
দিশাহারা হতে আর ভয় কি (x2)
পাছে ঘুম ঝরে পড়ে দু'চোখে
হাসি মুখে তাই জেগে রবো যে
দুটি মন আর নেই দুজনার
রাত বলে আমি সাথী হবো যে
ফাগুনের রাতে আমি
রূপকথা হয়ে কাছে রবো যে
দুটি মন আর নেই দুজনার

দুটি মন আর নেই দুজনার
দুটি মন আর নেই দুজনার
-------------------------------------Original Song Credits :
Singer: Chitra Singh
Music: Satinath Mukhopadhya
Lyrics: Shyamal Gupta

২১| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:২২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





আজ দুজনার দুটি পথ ওগো
দুটি দিকে গেছে বেঁকে,

তোমার ও পথ আলোয় ভরানো জানি
আমার এ পথ আঁধারেতে আছে ঢেকে।

সেই শপথের মালা খুলে—
আমারে গেছ যে ভুলে, তোমাত্রেই তবু দেখি বারে বারে
আজ শুধু দূরে থেকে।
আমার এ কুল ছাড়ি,

তব বিস্মরণের খেয়া ভরা পালে
অকুলে দিয়েছি পাড়ি। আজ যতবার দীপ জ্বালি
আলো নয় পাই কালি, এ বেদনা তবু সহি হাসিমুখে
নিজেরে লুকায়ে রেখে।


-------------------------------------------------
সুর ও শিল্পী গানের পাখি হেমন্ত মুখোপাধ্যায়।
‘হারানো সুর’ কথাচিত্রের গান।


০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:৪৭

বলেছেন: আমার গানের স্বরলিপি লেখা রবে
পান্থপাখির কূজন কাকলি ঘিরে
আগামী পৃথিবী কান পেতে তুমি শুনো
আমি যদি আর নাই আসি হেথা ফিরে।
অশথের ছায়ে মাঠের প্রান্তে দূরে
রাখালী বাঁশির বেজে বেজে ওঠা সুরে
আমার এ গান খুঁজো তুমি তারি মীড়ে
আগামী পৃথিবী কান পেতে তুমি শুনো
আমি যদি আর নাই আসি হেথা ফিরে।।

ঝরা পাতাদের মর্মর ধ্বণি মাঝে
কান পেতে শুনো অশ্রুত সুরে
মোর এই গান বাজে

পরাগ ঝরানো স্বপ্ন ভরানো বনে
ভ্রমর যেথায় সুর তোলে মনে মনে
আমার এ গান খুঁজো তুমি তারই মীরে
আগামী পৃথিবী কান পেতে তুমি শুনো
আমি যদি আর নাই আসি হেথা ফিরে
তবু, আমার গানের স্বরলিপি লেখা রবে।
------------------------------------------
কথা : গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর : নচিকেতা ঘোষ
কন্ঠ: হেমন্ত মুখোপাধ্যায়
https://www.youtube.com/watch?v=AvIdOAiTqiw

২২| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:৫৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




যখন পড়বে না মোর পায়ের চিহ্ন এই বাটে,
আমি বাইব না মোর খেয়াতরী এই ঘাটে,

চুকিয়ে দেব বেচা কেনা,
মিটিয়ে দেব গো, মিটিয়ে দেব লেনা দেনা,
বন্ধ হবে আনাগোনা এই হাটে--
তখন আমায় নাইবা মনে রাখলে,
তারার পানে চেয়ে চেয়ে নাইবা আমায় ডাকলে।

যখন জমবে ধুলা তানপুরাটার তারগুলায়,
কাঁটালতা উঠবে ঘরের দ্বারগুলায়, আহা,
ফুলের বাগান ঘন ঘাসের পরবে সজ্জা বনবাসের,
শ্যাওলা এসে ঘিরবে দিঘির ধারগুলায়--
তখন আমায় নাইবা মনে রাখলে,
তারার পানে চেয়ে চেয়ে নাইবা আমায় ডাকলে।

তখন এমনি করেই বাজবে বাঁশি এই নাটে,
কাটবে দিন কাটবে,
কাটবে গো দিন আজও যেমন দিন কাটে, আহা,
ঘাটে ঘাটে খেয়ার তরী এমনি সে দিন উঠবে ভরি--
চরবে গোরু খেলবে রাখাল ওই মাঠে।
তখন আমায় নাইবা মনে রাখলে,
তারার পানে চেয়ে চেয়ে নাইবা আমায় ডাকলে।

তখন কে বলে গো সেই প্রভাতে নেই আমি।
সকল খেলায় করবে খেলা এই আমি-- আহা,
নতুন নামে ডাকবে মোরে, বাঁধবে নতুন বাহু-ডোরে,
আসব যাব চিরদিনের সেই আমি।
তখন আমায় নাইবা মনে রাখলে,
তারার পানে চেয়ে চেয়ে নাইবা আমায় ডাকলে॥

------------------------------------------------------------
বাঙলা গানের ঈশ্বর
বিশ্ব কবি, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ২:১৮

বলেছেন: একলা চলতে হয়

যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে,

তবেই নাকি একলা চলতে হয়!

একলা মানুষ মাতৃগর্ভে একলা মানুষ চিতায়

একলা পুরুষ কর্তব্যে একলা পুরুষ পিতায়

আর মধ্যিখানের বাকিটা সময়

একলা না থাকার অভিনয়

যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে,

তবেই নাকি একলা চলতে হয়!

এক পায়েতে দাড়িয়ে তাল গাছটাও একা

দিনের শেষে ঘুমের দেশে একলা সে দেশ দেখা

যদি কেউ কথা না কয়

ওরে ও রে ও অভাগা কেউ কথা না কয়

তাতেও কিছু যায় না এসে,

তাতেও কিছু যায় না এসে বোঝে যদি তোর মনেরই কথা

মনের কথা বোঝাবারে একলা বলতে হয়

যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে,

তবেই নাকি একলা চলতে হয়!

একলা তুমি ভাবাদর্শে একলা চিন্তায়

তোমার ভাবনা সূর্য হয়ে ডুববে যে সন্ধ্যায়

যদি সবাই ফিরে যায়

ওরে ও রে ও অভাগা সবাই ফিরে যায়

ফিরবে না যে জানবি সে তোর,

ফিরবে না যে জানবি সে তোর ভাবনার মোড়কে আছে ডুবে

ছিড়বে মোড়ক ফিরবে সে তার অপনও কুলায়

যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে,

তবেই নাকি একলা চলতে হয়!

একলা মানুষ মাতৃগর্ভে একলা মানুষ চিতায়

একলা পুরুষ কর্তব্যে একলা পুরুষ পিতায়

আর মধ্যিখানের বাকিটা সময়

একলা না থাকার অভিনয়

যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে,

তবেই নাকি একলা চলতে হয়!----


কথা ও সুর নচিকেতা

২৩| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ২:৩০

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





একা একা চলেছি এ পথ
মনে মনে জেনেছি শপথ
এখন আমি বিদ্রোহী
এখন আমি আর নহি
অভিমানী


একা একা চলেছি এ পথ
মনে মনে জেনেছি শপথ
বুকেরই
মেঘ থেকে
ঝড় ওঠে এই অন্তরে
ক্লেদ যত
ভেদ তত
শেষ হলো যে সেই ঝড়ে
সবকিছু আমি শেষ করেছি আজ
এখন আমি বিদ্রোহী
এখন আমি আর নহি
অভিমানী

সাজাবো
ফের আমি
ঝড় ভাঙা এ পথটাকে
সাজাতে
এ জীবন
ঘরফেরা ওই পথ ডাকে
প্রত্যাশা নিয়ে পথ চলেছি আজ
এখন আমি বিদ্রোহী
এখন আমি আর নহি
অভিমানী

-------------------------------------------------
ফিডব্যাক - লাবু ভাই, মাকসুদ ভাই

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৬

বলেছেন: একদিন মাটির ভিতরে
হবে ঘর রে মন আমার
কেন বান্ধ দালান ঘর

প্রান পাখি ওরে যাবে
পিঞ্জর ছেড়ে
ধরা ধামে সবি রবে
তুমি যাবে চলে

বন্ধু বান্ধব যত
মাতা পিতা তারা সুত
সকলি হবে পর
রে মন আমার
কেন বান্ধ দালান ঘর

দেহ তোমর চর্মচর
গলে পচে যাবে
শিরার ওপর শিরা গুলি
ছিন্ন ভিন্ন হবে

মন্ডু মেরুদন্ড
সবি হবে খন্ড খন্ড
পরে রবে মাটিরো ওপর
রে মন আমার
কেন বান্ধদালান ঘর

রুপেরি গৌরবে
সাজিয়াছ সাজ
সোন দানা কতা কি আর
রাজকিয় পোশাক

যেদিন প্রন চালে যাবে
সবি পরে রবে
গায়ে দিবে মার কিনুথন
রে মন আমমার
কেন বান্ধ দালান ঘর

***একদিন মাটির ভিতরে হবে ঘর (বাউল মুনীর সরকার)***

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.