নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

চলে গেলে- তবু কিছু থাকবে আমার : আমি রেখে যাবোআমার একলা ছায়া, হারানো চিবুক, চোখ, আমার নিয়তি

মনিরা সুলতানা

সামু র বয় বৃদ্ধার ব্লগ

মনিরা সুলতানা › বিস্তারিত পোস্টঃ

শেষ পারানির কড়ি

২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:১৬



দারুন তুমুল ঝঞ্ঝায় অসময়ে আসা মেঘফুল ছুঁয়েছিল পদ্ম বালিকা
হিমচাঁপা সুখ লেপটে ছিল গুচ্ছ কুন্তলে, গালের কোমলতায় কপালের ভাঁজে
দিনমান রেখেছিল তাকে নীলজামা ফুলে যত্ন আঁচলে।


পউসের পর একদিন- ফিকে হতে থাকা মেঘফুল
বালিকাকে অকপটে জানালো তার পদ্ম গাহন;
তোমার মন রোদ্দুরে রোদ্দুরে সমুদ্দুর নীল করবে আমায়
অথবা কাজলে মেঘ রঙে পাহাড়
অরণ্যে সবুজে আরণ্যক
আকাশ করে রাখত পারো চোখের আয়নায়
জলরঙে এঁকে কপালের টিপে সাজো
জোছনায় বেয়ে উঠা চাঁদ।
করতে পারো তোমার;
বৃত্তবন্দী সময়ের দ্রাঘিমা তে শেষ প্রান্তের আঁকা রেখা।


পদ্মিনী হাসির ঝর্ণাধারায় স্নান করিয়ে;
সাবলীলতায় লিখে গেল তার শখের সাত কাহন।
আমি হতে চাই তোমার চৌচালা ঘর
যেখানে একফালি উঠানে থাকে প্রত্যাশার রোদ
ঘুলঘুলি তে বেয়ে নামে জোছনা ঢল
অনায়েসে আড়মোড়া ভাঙা সুখে ঝলসায় অলস দুপুর
সমস্ত দিন পথ চলা শেষে চৌকাঠের ও' পাড়ে প্রতীক্ষায় থাকা স্বস্তির নিশ্বাস
মৌফুল শালবন সবুজের গায়ে লাগা সুবাস রোদ জমা রাখা ওষ্ঠ ছুঁয়ে আবেশিত প্রেরণা হব আমি।


রঙধনু রঙ সিদুঁরে মেঘ, দূরে থাকা চাঁদে আকাংখা সবার !
সমুদ্রের সফেদ ঢেউ ও আশ্রয় হতে পারে না
অতলে ডোবায় তীরে ফেরায়।
আমি হতে চাই তোমার প্রয়োজন! শেষ আশ্রয়!
আমি ই তোমার শেষ পারানি’র কড়ি।


সেই থেকে
পদ্ম বালিকার তৃপ্ত অরুণে অরুণাভ হয়ে রইলো মেঘফুল!
তার আট কুঠুরির স্বপ্ন আর বই এর ভাঁজের বকুল।





শেষ পারানির কড়ি
মনিরা সুলতানা
ছবিঃhttp://www.somoyerkonthosor.com/2017/04/14/117026.htm

মন্তব্য ৭৮ টি রেটিং +২২/-০

মন্তব্য (৭৮) মন্তব্য লিখুন

১| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:২৪

গুলশান কিবরীয়া বলেছেন: দারুণ সুন্দর কবিতা পড়ে মুগ্ধ!!

অনেক অনেক ভালোলাগা রইলো।

২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:৩৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: অনেকদিন পর আপনি !!

লম্বা সময় পর আপনাকে প্রথম মন্তব্যে পেয়ে মন ভালো হয়ে গেলো; ভালোলাগা মুগ্ধতা আমার লেখার অনুপ্রেরণা হয়ে থাকলো।
আশা করছি ব্লগে নিয়মিত হচ্ছেন!

শুভ কামনা আপনার জন্য গুলশান কিবরীয়া।

২| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:২৯

স্রাঞ্জি সে বলেছেন: এক কথায় অনবদ্য কাব্য।____দারুণ মুগ্ধতা ছুঁয়ে গেছে হৃদয়ের গভীরে। ____ অতলে ডোবায় তীরে (এমন হবে মনে হয় শব্দটা) ফেরায়।______ দ্বিতীয় ভালোলাগা। ______ :-0

২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:৪৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আপনার মুগ্ধ পাঠে ভালোলাগা রাখলাম স্রাঞ্জি সে !
ঠিকঠাক কোমলতায় শব্দ সাজিয়ে উপস্থাপন করলেন মন্তব্যে।

হুউ আপনার মত করেই ঠিক করে নিলাম শব্দ, কৃতজ্ঞতা।

৩| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: অত্যন্ত মনোমুগ্ধকর।

২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:৪৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে;
মুগ্ধ হবার হতে পারা ও নিঃসন্দেহে দারুণ ব্যাপার।

৪| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:৫২

জাহিদ অনিক বলেছেন:




বেশ দুর্বেধ্য কবিতা লিখেন আপনি বরাবরের মতই, ঠিক দুর্বেধ্য না- পাঠকের পূর্ণ মনোযোগ দাবী করে আপনার কবিতা।
যাইহোক, শেষ পর্যন্ত মেঘফুল নিজেই হয়ে রইলো বইএর ভাঁজে বকুল আর তৃপ্ত অরুণে অরুনাভ।
অরুণাভ শব্দটা আপনার কবিতায় বহুল প্রচলিত। :)

শেষমেশ রবী ঠাকুর থেকেই
কণ্ঠে নিলেম গান, আমার শেষ পারানির কড়ি--
একলা ঘাটে রইব না গো পড়ি ॥

২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:২২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: পাঠকের পূর্ণ মনোযোগ দাবী করে আপনার কবিতা।

সব কবিতাই পাঠকের পূর্ণ মনোযোগ দাবী করে; তবে আমার লেখায় ফাঁকিবাজি করা সহজ এবং অতি সহজ। শুধু মন্তব্য করলেই হয় " বেশ দুর্বোধ্য লেখা আপু " যা প্রতিবার তুমি করে আসছ ;)

এবারেই ব্যতিক্রম দেখছি :P

হুহু মেঘফুলের আর কী ই বা করার ছিল ! অতখানি মমতার রৌদ্র জল সিঞ্চনে যে বেঁধে রাখে, সে শিকল কাটা মুশকিল বৈকি!


আহা রবী ঠাকুর! জন্ম নিয়েই আমাদের সর্বনাশ করে ছাড়লো, দিনশেষে এখানেই ফিরে আসতে হয়।



৫| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:০৯

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: চমৎকার চিত্ররূপময় কবিতা......

আচ্ছা পউস নাকি পৌষ হবে????

সময়ের অভাবে হলো নাকো শব্দের খেলা....
নাহলে লিখতাম মায়ার কথামালা....

২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হুম এইটাই আপনার সিগনেচার লাইন !! কবিতায় চিত্ররূপ কবি তুলে আনতে চায়; কিন্তু সব পাঠক কিন্তু সে রুপ নিজের দৃষ্টির আয়নায় রঙে রূপে সাজাতে পারে না। আপনি পারেন ! তাই আপনি অনন্য।

পৌষ ই হবে , ভেবে নিন আমি কথ্য বাংলায় কবিতা লিখছি তাই একটু নরম করে লিখেছি পউস।

এই যদি হয় সময়ের অভাব !
তাহলে বেঁচে থাক এ স্বভাব ;)

৬| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩২

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন:

" সেই থেকে
পদ্ম বালিকার তৃপ্ত অরুণে অরুনাভ হয়ে রইলো মেঘফুল !
তার আট কুঠুরির স্বপ্ন আর বই এর ভাঁজের বকুল। " অসাধারন! শেষ পারানির কড়ি। ++++


বিনম্র শ্রদ্ধা ও শুভকামনা প্রিয় আপুনিকে।


২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৫৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: মন্তব্যে দারুণ ভাবে শব্দে সুবাস ছড়ালেন চৌধুরি ভাই!
পুরো কবিতায় আমার সবচাইতে ভালোলাগার লাইন তুলে আনলেন কতই না যত্নে। অনেক অনেক ধন্যবাদ আপনাকে লেখায় চমৎকার উৎসাহিত পাঠক হয়ে থাকার জন্য।

শুভ কামনা আপনার জন্য।

৭| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৫১

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: কবিতা হলো কবির ছবি আঁকার ক্যানভাস.....
তাইতো প্রাকৃতিক উপমার ছাঁচে ফেলা যায় কালো কালির লিখন...
ফলে সৃষ্টি হয় চিত্ররূপময়তা.... Vividness of poem.....

শব্দের দ্বারা তৈরী হওয়া এ জালে প্রতিটি শব্দই হয়ে ওঠে ছবির অংশ....
তখন কবিতা হয়ে যায় ছবি.... কবির মনে আঁকা স্নিগ্ধ, সাবলীল, রঙিন অনুভূতি...

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:১৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: কবিতা হলো কবির ছবি আঁকার ক্যানভাস.....
তাইতো প্রাকৃতিক উপমার ছাঁচে ফেলা যায় কালো কালির লিখন...
ফলে সৃষ্টি হয় চিত্ররূপময়তা.... Vividness of poem.....

শব্দের দ্বারা তৈরী হওয়া এ জালে প্রতিটি শব্দই হয়ে ওঠে ছবির অংশ....
তখন কবিতা হয়ে যায় ছবি.... কবির মনে আঁকা স্নিগ্ধ, সাবলীল, রঙিন অনুভূতি...


চমৎকার ! দারুণ ভাবে তুলে এনেছেন চিত্ররুপময়তা কে;
আমি ও এমন ই বুঝেছিলাম কিন্তু আপনার মত করে শব্দ জালে তুলতে পারি নি। আমার মন্তব্য আমি এরপরের টুকু বলেছি -
বলেছি ! কবির মনে আঁকা স্নিগ্ধ সাবলীল রঙিন অনুভূতি সব পাঠকের মনে বা চোখের আয়নায় দেখা যায় না।


ফিরতি মন্তব্যে ভালোলাগা নিন।

৮| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৫৬

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সুন্দর।+

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:১৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আপনার মন্তব্য ও সুন্দর।
ধন্যবাদ :)

৯| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:২২

বলেছেন: পদ্ম বালিকার তৃপ্ত অরুণে অরুনাভ হয়ে রইলো মেঘফুল !
তার আট কুঠুরির স্বপ্ন আর বই এর ভাঁজের বকুল।
-------------





-কবিরাণী মনিরা সুলতানার অনবদ্য শিল্পশৈলী শব্দের গাঁথুনিতে মায়াভরা কবিতা 'শেষ পারানির কড়ি'

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:৪৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: মন্তব্যের মায়া জালে বাঁধলেন ল !!
ধন্যবাদ মুগ্ধপাঠ আর চমৎকার মন্তব্যের জন্য।

১০| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:২৮

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: মুগ্ধতা আর হৃদয় ছোঁয়া কথামালায় মেঘ বালিকার আত্মকথা বেরিয়ে এসেছে কবির কলম হয়ে।

সজীবতা ভরেই থাকুক পৃথিবী- সকল প্রাণ।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:৫০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: কবির কলমে কলমে উঠে আসুক স্নিগ্ধতা সজীবতা !
তাহলেই পৃথিবীর সকল প্রাণ ভরে থাকবে সজীবতায়।

ধন্যবাদ নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন পাঠে এবং মন্তব্যে।
সব সময় অতখানি কাব্যতে থাকুন! কবিতায় থাকুন।

১১| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:৪০

মুক্তা নীল বলেছেন: একরাশ স্বচ্ছ রুপোলী জলে পরিপূর্নতার স্নান করবে মেঘফুল আর পদ্মবালিকা। যেখানে তাদের সাথে রঙের পাহাড়, অরণ্য, জোছনার চাঁদ আর সেই সাথে চৌচালা ঘর।
দু'জনেই দুজনার শেষ আশ্রয় ও শেষ পারানি'র কড়ি হয়ে থাক।
অনেক ভালোলাগা রইলো আপনার কবিতায়।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:৫৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: কী যে সুন্দর করে স্বচ্ছ মনের উচ্ছ্বাস দিয়ে মন্তব্য করলেন ! আমি আপ্লুত !!
অনবদ্য শুভকামনায় ভালোবাসা রাখলাম।

কবিতার ভালোলাগা টুকু লেখার সুখ হয়ে থাকবে;
ভালো থাকুন আনন্দে আহলাদে আবদারে আদরে।

১২| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:২৩

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: অপরূপ শব্দময় অনুপম কবিতায় একরাশ মুগ্ধতা নিয়ে গেলাম ।
পরে সময়করে একবার আসব ।
শুভেচ্ছা রইল

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:০৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: কবিতায় আপনার উপস্থিতি সব সময় ই আনন্দের ডঃ এম এ আলী ভাই !
আপনার মুগ্ধতা ও দারুণ প্রাপ্তি নিঃসন্দেহে। আশা করছি ভালো আছেন ?

অনেক অনেক ভালোথাকার শুভ কামনা আপনার জন্য।

১৩| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:৩৩

নীল আকাশ বলেছেন: শুভ সকাল প্রিয় আপু,
মনোযোগ দিয়ে পড়লাম। এক কথায় অনবদ্য কবিতা। অনেক দিন পরে আপনার একটা কবিতা পড়লাম যেটা পড়ার পর বাংলা ডিকশনারী নিয়ে বসতে হয় নি আমার। ;)
পদ্ম বালিকার হৃদয়ের অবগাহন আর মেঘফুল ছুঁয়ে তৃপ্ত হয়ে যাওয়া দুর্দান্ত মুগ্ধ করেছে আমাকে।
ঘুঘু পাখির বাসার খবর কি আপু? সব ঠিকঠাক আছে তো ?
শুভ কামনা রইল!

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:২২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: শুভ দুপুর নীলআকাশ !
আপনার মত সব্যসাচী একজন লেখকের মুগ্ধতা আমার জন্য আনন্দের এবং লেখার জন্য অনুপ্রেরণা।

হাহাহাহাহা এখন ডিকশনারী লাগছে না মানে, আপনার শব্দভান্ডার সমৃদ্ধ হয়েছে; এবং আপনার মনযোগী পাঠ অভ্যাস আপনাকে ঋদ্ধ করেছে। কবিতায় আপনার ভালোলাগার প্রকাশে আমার মুগ্ধতা।


আপনার পরামর্শ অনুযায়ী বাদামী রঙ এর একটা জুতার বাক্সে ডিম সহ বাসা সেট করে দিয়েছি; এদিক সেদিক উড়ে ফিরে এসছে নিজের ডিমের কাছে; তা দিচ্ছে এখন। বাকি আল্লাহ ভরসা।

শুভ কামনা।

১৪| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৪২

হাবিব স্যার বলেছেন: মন ছুঁয়ে গেলো..........++++

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:২৬

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে হাবিব স্যার !
এক লাইনের চমৎকার মন্তব্যে ভালোলাগা।

১৫| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:২৪

রাকু হাসান বলেছেন:


হিমচাঁপা সুখে । জোছনায় বেয়ে উঠা চাঁদ আহ কি দারুণ গাঁথুনি 8-| । চিত্রকল্প যেন । অরুণাভাব শব্দটি আমার জন্য নতুন । পুঁইডাটা কই ,তোমরা যে যা বলো ভাই ,আমার পুঁইডাটা চাই :P :)

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৫৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: অরুণাভ হবে শব্দ' টা ! আমার প্রিয় কিছু শব্দের মাঝে একটি।
কারন-
আমি তাকে ডাকি অরুণাভ নামে! আরুনাভ - অ বলে।
এই নাও তোমার হিমচাঁপা ফুল উদয়পদ্ম!


অনেক কষ্টে এবারে ডায়ে চেপে বামে কেটেছি :P প্রায় চলে আসছিল আর কি ;)

লেখায় তোমাকে পাওয়া অন্যরকম ভালোলাগা ; সব সময় এতখানি মমতায় মন্তব্যের ডালি সাজাও যে ভালোলাগার ভ্রমর গুনগুন গান গায়।

১৬| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৩২

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: কবিতাটি পাঠান্তে বলতে চাই চমৎকার কবিতাটি পাঠে যে কেহ মুগ্ধ হবে। আমিও তৃপ্তি সহ মুগ্ধতা নিয়ে গেলাম। শুভেচ্ছা জানবেন ।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৪২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: এমন সব আন্তরিক মন্তব্যে একজন ও লিখে তৃপ্ত হন! আর মুগ্ধতা থাকে পরতে পরতে।
অনেক ধন্যবাদ মাহমুদুর রহমান সুজন! লেখার সাথে একাত্ম হয়ে লেখায় থাকার জন্য।

সব সময় ভালোথাকার শুভ কামনা।

১৭| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:২২

শিখা রহমান বলেছেন: নীরা তুমি কবিতায় শব্দে শব্দে ছবি আঁক মেয়ে!!

শেষের দুটো লাইন যে কি আশ্চর্য সুন্দর!! অনবদ্য কবিতাটার জন্য একরাশ ভালোলাগা ও মুগ্ধতা।

ভালো থেকো ভালোবাসায়। তুমি যে আমার শেষ পারানির কড়ি আমার কবিতার মেয়ে।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৪৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হুম হুম আমি শব্দে ছবি আঁকি তোমার চোখে মায়ার কাজল পড়াবো বলে!
ভালোবাসা ভালোবাসা।

১৮| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:০৭

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: মেঘফুল আর পদ্মবালিকার কাব্য যেন জীবনের কোন এক ঘোর লাগা সময়ের স্বপ্ন কুহক
যেন বা ভালবাসার রক্তিম দিগন্তে আশার বসতি।
+++++++++

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:০০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ভালোবাসা ই দিগন্তে রক্তিমতা আনে, খুঁটে আনা সুখ জমা করে গড়ে তোলে আশার বসতি। সেখানে স্বপ্ন জড়ানো চোখে মেঘফুল আর পদ্মবালিকার বসত।

মোঃ মাইদুল সরকার !
শুভেচ্ছা নিন, আবেশ জড়ানো মন্তব্যে আমার ভালোলাগা।

১৯| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৩৭

সুমন কর বলেছেন: সুন্দর ! কিন্তু আমাদের জন্য আরো একটু সহজ করে লিখবেন না......
+।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:০৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আচ্ছা !
আবার তাহলে রবী ঠাকুরেই ফিরি -
সহজ করে বলতে আমায় কহ যে
সহজ কথা যায় না বলা সহজে।

আপনার জন্য যা সহজ সরল, আমার জন্য তা লেখা মস্ত কঠিন।

লেখায় আপনার মন্তব্য আমাকে সব সময় ছোঁয়।
ধন্যবাদ।

২০| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৪২

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন:
শেষ পারানির যাতনা জানো কবি!
বড্ড জ্বালাগো!
কইলজার ভিত্রে জ্বলে, খালি শুন্য, শুন্য
মহা শুন্যতার শুন্যে যে কি ভীষম জ্বালা

:)

++++++++

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:১০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: চমৎকার চমৎকার !
এমন ধাঁচে রাবেয়া আপুর কিছু কবিতা আছে, অসম্ভব মন ছোঁয়া।

ধন্যবাদ বিদ্রোহী ভাই ! এতগুলো ++++++ পেয়ে আনন্দিত।

২১| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৪৪

প্রামানিক বলেছেন: চমৎকার কাব্য কথামালা। ধন্যবাদ

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:১৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: পরামানিক ভাই আমার প্রাণঢালা শুভেচ্ছা রইলো আপনার জন্য।

২২| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:১১

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন:


নাহ আর কারও প্রয়োজন হতে চাই না। তাহলে সব শেষে ভাংগা কুলার মত অবস্থা হবে ।

হ্যা কারো নিরাপদ আশ্রয় হতে চাই ।

+++++

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:২৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: শুধু প্রয়োজন হলে তো হবে না দ্যা গ্রেট !!
প্রয়োজন নিরাপদ আশ্রয় - শেষ পারানির কড়ি।

ধন্যবাদ পাঠে এবং মন্তব্যে।

২৩| ২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:১৭

জুন বলেছেন: জাহিদ অনিকের সাথে পুর্ন একমত আমি মনিরা
তোমার কবিতা সত্যি পাঠকের পূর্ণ মনোযোগ দাবী করে।
বিশেষ করে কিছু বাক্য যেন অসাধারন ।
+ দিয়ে গেলাম :)

২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৩০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ভালোবাসা জুন আপু !
তোমার মুল্যায়ন আমাকে সমৃদ্ধ করে। জাহিদ তো নিজেই দারুণ লিখে তাই অন্যদের লেখায় ওর মুল্যায়ন ও বেশ সুচিন্তিত হয়।

কিছু বাক্য তোমার মন ছুঁয়েছে, সেখানেই আমার লেখার ভালোলাগা।

ধন্যবাদ আপু সব সময় লেখার সাথে থাকার জন্য।

২৪| ২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:২৬

অক্পটে বলেছেন: মুগ্ধ হলাম কবি এই সকালে। কবিতাটি পড়ার পর সকালটা বোধ করি আরো সুন্দর হয়ে উঠল। কিছু মানুষ বোধ হয় থাকে যারা সবার অলক্ষ্যে অবেলায় মনের কোন এক কোণ দিয়ে প্রবেশ করে তারপর শুধুই মুগ্ধতা ছড়ায়! শুধু এই কারণেই যেন রুগ্ন মনের অনেকখানি চিকিৎসাও হয়ে যায়। জানিনা মনোবিজ্ঞানীরা এর কি নাম দেবে। তবে আমি মনের দিক থেকে যে অনেকখানি পুরিত হয়েছি এই ব্যাপারে আমার কোন সন্দেহ নাই, এইটুকু জানান দেবার জন্যই মন্তব্যটুকু রেখে গেলাম।

২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৩৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: একজন লেখক প্রতাশ্য এটুকু ই -
পাঠক যখন লেখায় থাকে লেখায় একাত্ম হয়েই থাকে- লেখার আনন্দ বেদনা অথবা স্নিগ্ধতা টুকু পাঠকের নিজের করে নেয়।
কবিতার সারল্য স্নিগ্ধতা আপনার মনের পূর্ণতা এনেছে, জানতে পেরে ভালোলাগল।

লেখার সাথে ই থাকুন , অনেক অনেক ভালো থাকুন।

২৫| ২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৫

আরোগ্য বলেছেন: চিত্রকল্পের রানী আপনি মনিরা আপা। আপনার কবিতায় সেই সব কবিযুগের স্বাদ থাকে।
আপা একটা প্রশ্ন। পারানি মানে কি?

২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৪১

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ধন্যবাদ ধন্যবাদ !
আপনাদের ভালোলাগে তাতেই সাহস করে কিছু লিখি। তবে আমার নিজের ও অমন ধাঁচের কবিতায় আগ্রহ অনেক বেশি।
হুম দারুণ প্রশ্ন :)
এই নাও উত্তর -

২৬| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:১৩

সোহানী বলেছেন: যে কঠিন মন্তব্য দেখছি আমার আর মন্তব্যে ঝুলি খুলতেই ভয় পাচ্ছি.........হাহাহাহাহা। ভালোলাগা সবসময়ই।

২৪ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: যাই লিখি তোমাদের ভালো লাগবে , সেই ভরসাতেই লিখি আপু !
ভালোবাসা নিও।

২৭| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪০

কাওসার চৌধুরী বলেছেন:



আপা, আপনার কবিতার ভাব-ভাষা একটু কঠিন হলেও এর অলঙ্করণ চমৎকার। অনেক সময় নিয়ে একটি কাহিনীকে কবিতায় রূপ দেন আপনি। এ কবিতাটিও তাই। ভাল লাগা রইলো; একটি কবিতার বই চাই। +++

২৪ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপনার মুক্তকণ্ঠের প্রশংসার জন্য !
একজন লেখকের মুল্যায়ন সব সময় ই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ! সে জন্যই ব্লগে লেখা আগে দেই, সহ ব্লগারদের মন্তব্য আমাকে আজকের আমি তে এনেছে।

কবিতার বোই করার মত যথেষ্ট কবিতা আসলে আমার হাতে নেই; যে কয়েকটা লেখা সব ব্লগে ই । তাই সেভাবে চিন্তা করা হয়ে উঠে নাই। আরও কিছু লেখা হোক, তখন অবশ্যই আপনাদের অনুরোধ রাখার চেষ্টা করব।

চমৎকার আন্তরিক মন্তব্যে ভালোলাগা।
শুভ কামনা আপনার জন্য।


২৮| ২৫ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১:৩২

ভ্রমরের ডানা বলেছেন: পড়ে ডুবেছি..... না না....... না...... ভেসেছি.......ডুবেছি...



অনেক অনেক ভাল লাগা প্রিয় কবি! সরাসরি শোকেসে!

২৫ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:১২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আহা ভ্রমরের ডানা !
অনেকদিন পর আমার লেখায় আপনি, ব্লগে ও আজকাল লাপাত্তা। আশা করছি ভালো আছেন। আমার লেখায় আপনার মন্তব্য সবসময় মিস করি।

প্রিয় তে রেখেছেন ! হুম আমার প্রিয় লেখকের শোকেসে রইলোই না হয় আমার ও একটা লেখা :)

২৯| ২৬ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৯

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: বড়াপা,

বিরাট এক কাহিনীকে এতো সুন্দর ভাবে, শৈল্পিকতার মাধুর্যে ভরপুরভাবে তুলে এনে মুগ্ধই করেননি শুধু, শিখিয়ে দিলেন অনেক কিছু।


নির্মল ভালোলাগা জানবেন আপি।

২৬ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:১৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: সৈয়দ তাজুল ইসলাম !
নির্মল ভালোলাগার প্রকাশ আমাকে মুগ্ধ করলো !!!
আমি আসলে বিস্তারে বিস্তারিত কিছু লিখতে পারি না, আধো আধো বোল ই আমার পছন্দ। হুম আমাদের জীবন ই একটা ইশকুল সব কিছু থেকে শিখতে পারেন।
আন্তরিক মন্তব্যে ভালোলাগা :)

৩০| ২৬ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৫৪

নজসু বলেছেন:



আপনার কবিতাটা পড়ছি আর আমার কানে বাজছিলো
কবিগুরুর সেই গান-
কণ্ঠে নিলেম গান, আমার শেষ পারানির কড়ি–
একলা ঘাটে রইব না গো পড়ি


আপনার কবিতার মধুরতা ছুঁয়ে যায় আমায়।
উম্মাদনায় ভেসে যাই আমি।

কবিগুরুর কণ্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে চুপি চুপি শুধু বলে যাই-
ওগো তোমরা মিছে ভাবো,
আমি যাবোই যাবোই যাবো–
ভাঙল দুয়ার, কাটল দড়াদড়ি


ভালো থাকবেন আপা।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৪৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: চমৎকার আবেশিত মন্তব্যে ধন্যবাদ সুজন !
গান টা আমার অনেক প্রিয় !!

আপনি ও ভালো থাকবেন! শুভ কামনা।

৩১| ২৬ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:২৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: মনিরা সুলতানা,



জোছনা আবেগের ঢল নামা কবিতা। শেষ প্রহরের সীমানা ছাঁড়িয়ে প্রত্যাশিত গন্তব্যে ঠাঁই নেয়ার আকুলতায় সান্ধ্য মেঘের রঙে সাজানো এক চিত্রকল্প!

বইয়ের পাতার ভাজে ভাজে যত্ন করে বকুল তুলে রাখা মতোই ভালোলাগা! ++++

২৭ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:০৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আপনার মন্তব্য সব সময় ই এক দারুণ এক অনুপ্রেরণা ! অপূর্ব সব শব্দের মাঝে নিজস্বতায় চমৎকার ভাবে তুলে আনেন লেখার ঘোরলাগা অংশটুকু। ধন্যবাদ ভাইয়া লেখায় সুন্দর মন্তব্যের জন্য।

শুভ কামনা আপনার জন্য।

৩২| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৩২

মোঃসালাহ্উদ্দিন বলেছেন: অনন্য।।শুভকামনা।।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:১৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: লেখায় স্বাগত মোঃ সালাহউদ্দিন!
আপনার শুভ কামনা আমার লেখার পথের পাথেয় করে রাখলাম।

৩৩| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৩৩

মোঃসালাহ্উদ্দিন বলেছেন: অনন্য।।শুভকামনা।।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:১৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: অন্তরের অন্তঃস্থলের শুভ কামনা আপনার জন্য।

৩৪| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩২

রাকু হাসান বলেছেন:

অনেক কষ্টে এবারে ডায়ে চেপে বামে কেটেছি :P প্রায় চলে আসছিল আর কি ;) --হাহাহাহা তোয় আমার কিন্তু পুঁইডাটাই বেস্ট । ;),
কৃতিত্ব কবিকে দিব =p~ ,শিল্পের পর্যায়ে নিয়ে গেছ :P



২৮ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৩০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আয় হায় !! শিল্প মানে কি এই চোখ কে মুরগী বানানোর শিল্প ?গেছি তাইলে ;) সবাই তো মুরগীওয়ালা ডাকব :P

৩৫| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:০৩

অলিভিয়া আভা বলেছেন: খুব সুন্দর আবেগ নিয়ে লেখা কবিতা, এই কবিতা যেন পাঠকের হৃদয়ের কথা বলে।
খুব খুব ভালো লেগেছে কবিতা পড়ে। ভালো থাকুন

২৮ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:২৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আপনি ও ভীষণ দরদ মাখা একটা মন্তব্য রাখলেন কবিতায় !! পাঠকের হৃদয়ের কথা কবিতায় খুঁজে পেলে একজন লেখক এর চাইতে বেশি আর কি চাইতে পারে !!
অনেক অনেক ধন্যবাদ অলিভিয়া আভা ! মন্তব্যে আপ্লুত হলাম।

শুভ কামনা।

৩৬| ১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৩৬

লিখন ০৩ বলেছেন: কি বলব বা লিখব বুঝেই উঠতে পারি না। সেই দোর প্রান্তে যেতেও চাই না, শুধু বুঝি তোমার লেখায় কি যেন খুঁজি সে কি অন্তর আত্মার আকুতি। নাহ্‌! হবে হয়ত আবছায়ায় তোমার হাতের সেজুতি। যত বার পড়ি মুগ্ধ হই তারও বেশী।

১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৩২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: বাহ ! ভালোলাগার কাব্যিক প্রকাশ !!
আপনার এ প্রয়াসে মুগ্ধতা রাখলাম।

৩৭| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:৩৭

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: কবিতায় রাশি রাশি ভালো লাগা রেখে গেলাম।

২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:৪৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: বাহ !!
রাশি রাশি ভালোলাগা আমার লেখায় উৎসাহের ফুল ফোটাক।
ধন্যবাদ মাহমুদুর রহমান।

৩৮| ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১:০৯

রোকসানা লেইস বলেছেন: পদ্ম বালিকার স্বপ্ন আর্তি কাব্য কলায় উপস্থাপন সুন্দর হযেছে।
কিন্তু ভাবছি সামু বন্ধ হয়ে গেলে এই সব যোগাযোগ মিলন মেলার যোগ কি ভাবে পাওয়া যাবে :(

২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১:২০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ইশশ কী মনে কড়াইয়ে দিলেন :(
আমার এত চমৎকার সব মন্তব্য !!! সারাক্ষণ প্রার্থনা শুভ বুদ্ধির উদয় হোক।

ধন্যবাদ আপনাকে মন্তব্যে ভালোলাগা রেখে যাবার জন্য।

৩৯| ০৮ ই মে, ২০১৯ দুপুর ২:৩৩

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: আমি যে কেন পারি না,এতো সুন্দর করে কবিতা লিখতে,উফ আফসোস হয় কবি। শেষ পারানির কুড়ি।

১৪ ই মে, ২০১৯ রাত ১১:০৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আপনার লেখা ও অনেক সুন্দর !
আপনার এ নিজের লেখা নিয়ে অতৃপ্তি আপনাকে সমৃদ্ধ করবে নিশ্চয়ই।

ভালো থাকার শুভ কামনা।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.