নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

জীবন কেবলই ফুরিয়ে যায়।

মোঃ মাইদুল সরকার

একদিন জীবন শেষ হয়ে যাবে তবুও অনেক কিছু করার সাধ জাগে..............

মোঃ মাইদুল সরকার › বিস্তারিত পোস্টঃ

ছোট্ট বাবুটার কবর.................

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:১২

আমার ৭ মাস বয়সী বাবুটাকে কোলে নিয়ে গত সপ্তাহে বাসার পাশে পশু-পাখি বিক্রির দোকানে গিয়েছি। খরগোশ, কবুতর, কোয়েল, টিয়া পাখি দেখে আমার রাজকন্যা খুশীতে আত্মহারা। ও নিজেই হাত বাড়িয়ে দিচ্ছিল খরগোশগুলোকে ছোঁয়ার জন্য।

দোকানের উল্টো দিকেই কবরস্থান। সেখানে চোখ যেতেই দেখি দুই তরুণ একটা ছোট্ট কবর খোঁড়ছে। এত ছোট কবর এর আগে দেখিনি, এক হাতেরও কম হবে। রাস্তা পার হয়ে সেখানে গিয়ে জিজ্ঞেস করলাম কে মারা গেছে ?

-ওরা জানালো-জন্ম হওয়ার সময়ই ওদের বাবুটা মারা গেছে। তার কবর খোঁড়া হচ্ছে।

কথাটা শোনার পর একটা কেমন যেন ভয়ের স্রোত শীরদাড়া দিয়ে নীচে নেমে গেল। আমার বাবুটাকে বুকে চেপে ধরে সেই কবরের দিকে চেয়ে মনে হল-যদি আমার বাবুটা মারা যেত তাহলে আমার যেমন পৃথীর সবচেয়ে বেশি কষ্ট লাগতো। ঠিক তেমনি কষ্ট বুঝি লাগছে মৃত বাবুটার বাবা-মার।

দাড়িয়ে দাড়িয়ে ওদের কবর বানানো দেখছি আর ভাবছি- কেমন করে থাকবে অবুঝ শিশুটি অন্ধাকার কররের ঘরে ? পৃথিবী দেখার আগেই কবরের অন্ধকার জগৎ যাকে ঘ্রাস করে দিল, কেমন থাকবে সে সেখানে?

সে কি বাবা মাকে খুঁজবে ? খুঁজবে কি মাতৃগর্ভের উষ্ণতা? থাকবে কি পৃথিবীতে ফিরে আসার আকুতি ?

ভাল থাকুন শেষ ঠিকানায় নাম, পরিচয়হীন সেই বাবুটা।

কেমন করে রবে করের ঘরে
ছোট সোনা বাবুটা
জানিনা কে কেমন থাকে পৃথিবীর ঠিকানা শেষে
মরনের পরে।

মন্তব্য ৩২ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (৩২) মন্তব্য লিখুন

১| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:১৯

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: বিষন্নতার কথা শুনে কমেন্ট করার মতো অবস্থায় নেই।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৫

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:

আসলেই সেই দিনটা খুবই খারাপ গিয়েছে। বিষন্নতায় কেটেছে।

ভাল থাকুন। ধন্যবাদ।

২| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: বাবা-মায়ের কষ্টের কথা তো বলে শেষ করা যাবে না।
তবে, আল্লাহ যা করেন, সবকিছুর মধ্যেই কোন না কোন মঙ্গল রয়েছে। সব তো আমরা বুঝতে পারি না। তাই, যে কোনও বিপদ বা খারাপ অবস্থাতেই মহান আল্লাহর উপর ভরসা রাখতে হবে যে, তিনি যা কিছু করেন, বান্দার ভালোর জন্যই করেন।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৫১

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
তাতো অবশ্যই ভায়া।

কিন্তু মনতো মানেনা।

ধন্যবাদ।

৩| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


@ভুয়া মফিজ,

পোষ্ট থেকে বুঝা যাচ্ছে যে, জন্মের সময়ই শিশুর মৃত্যু হয়েছে; আল্লাহ যদি শিশুটিকে তৈরিই করে থাকেন, তাকে জন্মের সময় কেন মৃত্যু দেবেন? এই ধরণের কোন কিছু ঘটা অর্থহীন, এই ধরণের ভাবনাও অর্থহীন।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৯

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
বিশালভাবে ভাবলে কোন কিছুই অর্থহীন নয়। আর হতাশা ঘ্রাস করলে সবকিছুই অর্থহীন।

যার প্রাণ আছে তারই মরন আছে। সেদিক বিচার করলে ঠিক আছে মৃত্যুর কাছে ছোট,বড়,শিশু বলে কথা নেই।

ভাবনা অর্থহীন হবে কেন ? এ থেকেও শিক্ষা নেওয়া যেতে পারে।

ধন্যবাদ।

৪| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:১৮

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: :(

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১১:০৮

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
মানুষ মাত্রই দুঃখে পতিত হয়।

৫| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৮

নতুন নকিব বলেছেন:



'এধরণের কোনো কিছু ঘটা অর্থহীন?'

হাসি পেল, লাইনটা পড়ে।

গাজী ভাই, পারেন তো আপনার ভাষায় 'অর্থহীন' এ কাজগুলোকে রুখে দিন।

পোস্টে ধন্যবাদ।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১১:০৯

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
ওনার ভাষায় অর্থহীন কাজগুলোকে রুখে দিবার ক্ষমতা ওনার বা আমাদের কারো নেই।

ধন্যবদা।

৬| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৩৪

অনেক কথা বলতে চাই বলেছেন: ভাই, নিষ্পাপ বাবুদের কোন সমস্যা হয় না কবরে। বিপদ হয় সাবালক/সাবালিকা পাপীদের।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:০৫

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: তাতো জানা আছে ভাই।

তবুও মায়া বলে কথা।

ধন্যবাদ।

৭| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৩৬

জুন বলেছেন: বাবা মায়ের কোলে সন্তানের লাশ এর চেয়ে কষ্টকর আর দুনিয়াতে কিছু নেই ।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:০৬

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
সহমত।


ধন্যবাদ।

৮| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:২০

রাজীব নুর বলেছেন: আহারে---
মনটা খারাপ হয়ে গেল।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:০৬

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
আসলেই মত খারাপ হওয়ার মতই ঘটনা।

৯| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:৫৪

হাবিব স্যার বলেছেন: আল্লাহ৯ তাকে জান্তাতে তার বাবা-মার সাথে মিলিয়ে দিবেন, দোয়া করি।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১৫

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
অবশ্যই অবুঝ সন্তানার বাবা মাকে নিয়ে জান্নাতে প্রবেশ করবে।

ধন্যবাদ।

১০| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১০:২২

আহমেদ জী এস বলেছেন: মোঃ মাইদুল সরকার,




জীবনের কঠিন সত্য..................

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১৬

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
সহমত।

ধন্যবাদ কবি।

১১| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১০:৪৬

কেএসরথি বলেছেন: অনেক কষ্ট।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১৬

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
এরই নাম জীবন।

ধন্যবাদ।

১২| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৮:৫২

জাহিদ অনিক বলেছেন: মন খারাপের পোষ্ট

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১৭

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
হুম।

১৩| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:২৬

মা.হাসান বলেছেন: মাইদুল ভাই, মন খারাপ করা পোস্ট।
জগতের নিয়ন্ত্রা সব কিছুই বিশেষ কারণে ঘটান। আমাদের মাথায় সব আসে না।
মুসলিম শিশুরা কেয়ামতের দিন মা-বাবা ছাড়া জান্নাতে যাবে না।

শোক সন্তপ্ত পরিবারকে আল্লাহ ধৈর্য ধরার তৌফিক দিন।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১৭

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
সঠিক বলেছেন ভাই।

ভাল থাকুন।

১৪| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১:৩১

নীল আকাশ বলেছেন: মাইদুল ভাই,
পৃথিবীর সবচেয়ে কষ্টের কাজ হলো নিজের হাতে কোন বাবা যখন নিজের সন্তানকে কবর দেয়।
এই কষ্টের কোনই সীমা পরিসীমা থাকতে পারে না।
শুনেছি, অবুঝ বাচ্চার মারা যাবার পর বেহেস্তে আদম (আলাই..) সাথেই থাকবে এবং সারা দিন খেলাধুলা করবে।
লেখাটা খুবই মর্মস্পর্শী। মন খারাপ হয়ে গেছে। আর বেশি কিছু লিখতে ইচ্ছে করছে না।
আল্লাহ এই অবুঝ বাচ্চাটাকে বেহেস্তবাসী করুক আর এর বাবা মাকে সহ্য করার শক্তি দান করুন, আমীন।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:২৫

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: ঠিক বলেছেন ভাই তারা বেহেস্তে থাকবে।

সহমত। আমীন।

ধন্যবাদ।

১৫| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:১৪

নজসু বলেছেন:



সুকান্তের ছিন্নমুকুলের দুটি লাইন কানে বাজছে-
সবচেয়ে যে শেষে এসেছিল
সেই গিয়েছে সবার আগে সরে।


ব্যথাভরা মন নিয়ে আপনার ব্লগ থেকে চলে যেতে হলো প্রিয় ভাই।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:২৬

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:

আমারও সুকান্তের কবিতার কথা মনে এসেছিল। এটা আমাদের পাঠ্য ছিল।

মাঝে মাঝে জীবনে এমন ব্যথা সইতে হয়।

ধন্যবাদ। ভাল থাকুন।

১৬| ০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ২:৫৭

মুক্তা নীল বলেছেন:
আহারে ---
মহান আল্লাহ ওই শিশুটির মা ও বাবা কে সবুর করার ক্ষমতা
দান করুন।

১৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ২:১৬

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
অবশ্যই তারা এর জন্য পুরষ্কৃত হবে পরপারে।

ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.