নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আলহামদুলিল্লাহ। যা চাইনি তার চেয়ে বেশি দিয়েছেন প্রিয়তম রব। যা পাইনি তার জন্য আফসোস নেই। সিজদাবনত শুকরিয়া। প্রত্যাশার একটি ঘর এখনও ফাঁকা কি না জানা নেই, তাঁর কাছে নি:শর্ত ক্ষমা আশা করেছিলাম। তিনি দয়া করে যদি দিতেন, শুন্য সেই ঘরটিও পূর্নতা পেত!

নতুন নকিব

যবে উৎপীড়িতের ক্রন্দল-রোল আকাশে বাতাসে ধ্বনিবে না, অত্যাচারীর খড়্গ কৃপাণ ভীম রণ-ভূমে রণিবে না- বিদ্রোহী রন-ক্লান্ত। আমি সেই দিন হব শান্ত।

নতুন নকিব › বিস্তারিত পোস্টঃ

আশ্চর্য তার নিরবতায় হইনি! বরং, অবাক হয়েছি, ইসরাইলের পক্ষে তিনি একটি কথাও না বলায়!

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৪:০৬



হতভাগা গুলিবিদ্ধ ফিলিস্তিনি! জন্মই যেন ওদের মৃত্যুর মিছিলে ঠাঁই করে নেয়ার জন্য!

সউদি রাজপুত্র মুহাম্মাদ বিন সালমান কোথায়? তিনি কথা বলছেন না কেন? তার কথা শোনার জন্য অধীর আগ্রহে প্রহর গুনে যাচ্ছি যে! তিনি কোন বানী নিয়ে মিডিয়ায় আসেন না কেন? তার মধুমাখা অমিয়বানী শুনতে না পেরে আমরা শঙ্কিত! বিচলিত! চিন্তিত!

ফিলিস্তিনিরা গুলি খাচ্ছে, রক্তের সাগর পেরিয়ে কাতরাতে কাতরাতে ধুঁকে ধুঁকে পাড়ি জমাচ্ছে ওপাড়ের অদৃশ্য জগতে! আর তিনি কী না কোনো কথাই বলছেন না! এটা কী করে হয়! হ্যাঁ, না, বন্ধু! আপনি ভুল বুঝবেন না, দয়া করে! আমি মনে হয় বুঝাতে পারিনি! বুঝাতে না পারাটা আমার দীনতা ছাড়া কিছুই নয়! ক্ষমা করবেন! সউদি রাজপুত্রের আচরনে আমি আশ্চর্য! তবে, আশ্চর্য তার নিরবতায় হইনি! বরং, অবাক হয়েছি, ইসরাইলের পক্ষে তিনি একটি কথাও না বলায়! যেখানে ফিলিস্তিনের এতগুলো তাজা প্রান কেড়ে নিল (প্রায় ডজন দুয়েক) ইসরাইল, তার কি একটু আনন্দ প্রকাশ করেও দেখানোর দায়িত্ব ছিল না? ইসরাইলের এত বড় সফলতায় (!) তিনি একটুও খুশি প্রকাশ করতে পারতেন না! ইসরায়েলের পক্ষে দু'টো কথা বলা কি তার উচিত ছিল না! 'সাবাশ!' 'সাবাশ!' -বলে ইসরাইলী সেনাদের একটু পিঠ চাপড়ে দেয়া কি তার আবশ্যক মনে করার কোনোই কারন ছিল না! নেতানিয়াহুর সাথে গলাগলি, কোলাকোলি করে বিশ্বকে একটু আনন্দ উপহার দেয়া তার কি একান্তই কর্তব্য ছিল না!

হায় কপাল, কী কলিকাল দেখতে হচ্ছে আমাদের! জগতের বিশ্বাস কি ধীরে ধীরে উবে যাচ্ছে তাহলে? বন্ধুর সুদিন দেখে বন্ধু নির্বাক! বন্ধুর সফলতা বন্ধুর ভেতরে কোনো ভাবান্তর ঘটায় না! আনন্দ-উচ্ছৃাস-ছন্দ আনে না! ভালবাসা কি জগত থেকে এমন করেই হারিয়ে যাবে একদিন! এ কেমন বন্ধুত্ব? আর কেমনই বা বন্ধু হলেন তারা?

ছবির জন্য কৃতজ্ঞতা, দৈনিক প্রথম আলোর প্রতি।

মন্তব্য ৩০ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৩০) মন্তব্য লিখুন

১| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৪:১২

পদ্ম পুকুর বলেছেন: তিনি তো বলেছেনই।
এই খাপো বলেছে যে ইজরাইলেরও ভুমীর অধিকার আছে (আজকের প্রথম আলো অনলাইনের আন্তর্জাতিক পাতায়)

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৪:১৬

নতুন নকিব বলেছেন:



তাই না কি? আমার নজরে পড়েনি। তাহলে তো তাকে ধন্যবাদ আরও দিতে হয়! বুকে টেনে নিতে ইচ্ছে করে! এতবড় মহান নেতা বিশ্ব কবে কোন কালে পেয়েছিল আর পাবে, তাই বা কে জানে!

কৃতজ্ঞতা এবং ধন্যবাদ, সংবাদটি অবগত করে দিলেন বলে। নিউজ লিঙ্কটাও যদি কষ্ট করে একটু যুক্ত করে দিতেন!

২| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৪:২২

চাঁদগাজী বলেছেন:


প্যালেষ্টাইযনের লোকদের মাথা কাজ করছে না, ওরা মশা মাছির মত প্রাণ দিতে চাচ্ছে; ওরা বেকুবের মত, "দি গ্রেট মার্চ রিটার্ন নামে" একটা প্রতিবাদ পালন করে বিনা দরকারে প্রাণ দিচ্ছে! এভাবে ইসরায়েলের সীমান্ত ক্রস করে কি লাভ? কেন এই ধরণের বেকুবী প্রতিবাদ?

প্রতবাদ হতে হবে, যেটার একটা ফলাফল হবে; ইসরেয়েলের বর্ডারে প্রবেশ করে কি উহা দখলে নিতে পারবে? হামাস মানুষগুলোকে মরার জন্য উটসাহিত করছে মাত্র।

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৫:৩৮

নতুন নকিব বলেছেন:



আপনি নিজেকে একবার যদি একজন নির্যাতিত ফিলিস্তিনি ভেবে দেখতেন! এই কমেন্টটা এরকম না হয়ে, অন্যরকম হতে পারতো হয়তো!

বিপন্ন প্রায় একটি দেশের, ধ্বংসোম্মুখ একটি জাতির বাঁচার শেষ চেষ্টাটুকুকে আপনার 'বেকুবি' মনে হলেও তাতে আশ্চর্যের কিছু দেখি না। যেমনটা দেখি না, সউদি রাজপুত্তুরের উদারতা আর মহানুভবতায়।

ধন্যবাদ।

৩| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৪:২২

পদ্ম পুকুর বলেছেন: ইজরাইলেরও ভুমীর অধিকার আছে

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৫:৩৯

নতুন নকিব বলেছেন:



অনেক ধন্যবাদ, লিঙ্কটি যুক্ত করে দেয়ায়।

৪| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৪:২৭

পদ্ম পুকুর বলেছেন: চাঁদগাজী সাহেব, একাত্তুরে প্রশিক্ষিত শক্তিশালী পাকিস্থানী আর্মির বিপক্ষে আপনােেেদের কি হাতিয়ার ছিল, কি প্রশিক্ষণ ছিল? তবুও কি মানুষ যায়নি যুদ্ধে? ওটাওকি বেকুবি ছিল?

মেজর কামরুল ইসলাম ভুইয়ার একটা বই আছে জনযুদ্ধের গণযোদ্ধা বা গণযুদ্ধের জনযোদ্ধা নামে। যদি পড়ে থাকেন, দেখবেন কোন পর্যায়ের মানুষ কিসের টানে যুদ্ধে নেমে গিয়েছিল.... দেশের টানে মানুষ প্রাণ দেবে এটাই স্বাভাবিক।

বর্তমান কালের বাংলাদেশিদের নপংসুকতাকে আপনি বুদ্ধিমত্তা ভাবতে রাজী থাকুন আপত্তি নাই, ফিলিস্তিনিদের মুক্তি সংগ্রামকে বেকুবী বলাটা কি একটু বেশি হয়ে গেল না?

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৩৯

নতুন নকিব বলেছেন:



সুন্দর যুক্তিগ্রাহ্য প্রত্যুত্তর ভাল লাগলো। ধন্যবাদ।

৫| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৪:২৮

হাফিজ বিন শামসী বলেছেন:
উনি ঘুমাননি।উনি জাগ্রত আছেন। উনি বলেছেন, ইসরাইলের ভূমির অধিকার আছে।

উনি ইরানকে শায়েস্তা করার জন্য ইসরাইল এবং আমেরিকাকে পরম বন্ধু হিসেবে নিয়েছেন।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৪০

নতুন নকিব বলেছেন:



ঠিক বলেছেন। মোবারকবাদ।

৬| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৫:০৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


পদ্ম পুকুর বলেছেন, " চাঁদগাজী সাহেব, একাত্তুরে প্রশিক্ষিত শক্তিশালী পাকিস্থানী আর্মির বিপক্ষে আপনােেেদের কি হাতিয়ার ছিল, কি প্রশিক্ষণ ছিল? তবুও কি মানুষ যায়নি যুদ্ধে? ওটাওকি বেকুবি ছিল? "

-বাংলাদেশ ও প্যালেস্টাইন সমস্যা এক নয়। বাংলাদেশ পশ্চিম পাকিস্তান থেকে ভৌগোলিকভাবে আলাদা; প্যালেষ্টাইনীরা ৭০ বছর পরাজিত হয়ে, রিফিউজী ক্যাম্পে আছে; তারা যুদ্ধ করে পরাজিত হয়ে ৮/১০ বার; বাংগালীরা জয়ী হয়েছে একবারেই। এখন যুদ্ধ তাদের জন্য পথ নয়, নেগোচিয়েশনই পথ।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৪২

নতুন নকিব বলেছেন:



নেগোসিয়েশন মানেই মাতৃভূমির বৃহদাংশ দখলদার ইসরাইলীদের হাতে তুলে দেয়ার দাসখতে স্বাক্ষর করা। তাদের আশ্রিত হয়ে ফিলিস্তিনিদের বাকি জীবন কাটানো। তাই নয় কি?

৭| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৫:০৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


@পদ্ম পুকুর,

আপনি বলেছেন, "বর্তমান কালের বাংলাদেশিদের নপংসুকতাকে আপনি বুদ্ধিমত্তা ভাবতে রাজী থাকুন আপত্তি নাই, ফিলিস্তিনিদের মুক্তি সংগ্রামকে বেকুবী বলাটা কি একটু বেশি হয়ে গেল না? "

-ফিলিস্তিনীরা তাদের দেশ পাবার অধিকার রাখে, তাদেরকে দেখতে হবে, কিভাবে পাওয়া যায়! যুদ্ধ করা পাওয়া যাবে না, এটা পরিস্কার!

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৪৬

নতুন নকিব বলেছেন:



ভাল বলেছেন। তাই বলে শান্তিপূর্নভাবে নিরস্ত্র প্রতিবাদ বিক্ষোভে কেন গুলি করা হবে? এসবের অধিকার তাদের কি থাকা উচিত ছিল না? হিংস্র জানোয়ারতুল্য নব্য রক্তখেকো ইসরাইলের লাগাম টেনে ধরার মত ক্ষমতাধর পৃথিবীতে কেউ নেই? কারও থাকা উচিত নয়?

৮| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৫:৪৭

পদ্ম পুকুর বলেছেন: গাজী স্যারের যে গুণটা আমার সবচে ভালো লাগে, তা হলো তিনি চরম প্রতি আক্রমণের মধ্যেও রাগেন না একদমই। ভেরি গুড।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৫১

নতুন নকিব বলেছেন:



আমারও তাই মনে হয়। তার ভেতরে যুগপথ ধৈর্য্য এবং বিচক্ষনতার সমন্বয় দেখে ভাল লাগে। তিনি ধন্যবাদার্হ।

চাঁদগাজী ভাইয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন বলে আপনাকেও উষ্ণ অভিনন্দন। আপনার কমেন্টগুলোও অবশ্যই ক্ষুরধার এবং দারুন বুদ্ধিদীপ্ত।

৯| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: সৌদিরাজপরিবার আগেও মুসলিম বিশ্বের জন্য কিছু করেনি আর এখনতো সরাসরি তারা ইসরাইলের পক্ষে গিয়েছে। সামনে মক্কা মদিনা ইহুদিদের হাতে তুলেও অবাক হবার কিছু থাকবে না। প্যলেস্টাইনিদের বাস্তবতা বুঝতে হবে। এভাবে রক্ত ঝড়িয়ে কোন লাভ নাই। কার কাছ থেকেই যেহেতু সাহায্য পাবার আশা নেই তাই ইসরাইলের সাথে সন্ধি করে নেয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। ইস্রাইল এটাই চায়। ইহুদিদের মাঝে অনেক ভাল মানুষও আছে। প্যলেস্টাইন ইস্রাইলের আধিপত্য মেনে নিলে হয়ত , অনেক ইহুদি তাদের সাহায্য করবে। ধর্মের জন্য অযথা রক্তের হোলি খেলে পরিবারকে অসীম দূর্দসার মধ্যে ফালানোর মাঝে বীরত্বের কিছু নাই।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:০২

নতুন নকিব বলেছেন:



ভাল বলেছেন। ধন্যবাদ।

মুসলিম বিশ্বের জন্য সউদি রাজ পরিবার কিছু করেনি, বেশ ভাল কথা। তাতে কোনও দু:খ হত না, যদি না এই বরাহ শাবক, প্রকাশ্যে নির্লজ্জভাবে ইসরাইলের মোসাহেবি না করতো। তার আচরন সভ্যতা, ভব্যতার সকল সীমা অতিক্রম করেছে। এটা মুসলিম বিশ্বের সাথে স্রেফ গাদ্দারী ছাড়া আর কিছুই না। তীব্র ঘৃনা জানাই এদের এই ন্যাক্কারজনক এবং নোংড়া মানসিকতায়।

১০| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:১১

যুক্তি না নিলে যুক্তি দাও বলেছেন: সৌদি রাজ পরিবারের অবসান ইহজনমে দেখার সাধ আল্লাহ পুরণ করলে বেহেশতি সুখ পাব

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:০৩

নতুন নকিব বলেছেন:



দারুন বললেন! মর্ত্যের পৃথিবীতে বেহেশতি সুখ! বাহ!

ধন্যবাদ।

১১| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:১১

সনেট কবি বলেছেন: সৌদি রাজপুত্তুর আপন পর চিনেন। তাদের কাজ মুসলমানদের মাঝে বিভেদ তৈরী। আর তাদের আপন লোকদের অর্থের যোগান দেওয়া।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:০৭

নতুন নকিব বলেছেন:



ভাল বলেছেন। এদের আরও অনেক 'কাজ' আছে। 'কাজ' বললেও 'কাজ' -এর অপমান হয়। 'অপকর্ম' বলুন। 'অপকর্ম' বললে তবু কিছুটা রক্ষে। সেই অপকর্মের অংশ বিশেষ- ইসরাইলী পাষন্ডদের গোলামী করা।

ভাল থাকুন কবিভাই।

১২| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ রাত ৮:০৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


লেখক বলেছেন, "আপনি নিজেকে একবার যদি একজন নির্যাতিত ফিলিস্তিনি ভেবে দেখতেন! এই কমেন্টটা এরকম না হয়ে, অন্যরকম হতে পারতো হয়তো!

বিপন্ন প্রায় একটি দেশের, ধ্বংসোম্মুখ একটি জাতির বাঁচার শেষ চেষ্টাটুকুকে আপনার 'বেকুবি' মনে হলেও তাতে আশ্চর্যের কিছু দেখি না। যেমনটা দেখি না, সউদি রাজপুত্তুরের উদারতা আর মহানুভবতায়। ধন্যবাদ। "

-আপনি ফিলিস্তি সমস্যা না বুঝাতে এসব লিখছেন। এখন যে প্রতিবাদটা হচ্ছে, "দ্যা গ্রেট মার্চ রিটার্ণ", এটা সম্পর্কে আপনার কোন ধারণা নেই; ফলে, যা মাথায় আসছে তা লিখছেন; এগুলো বুদ্ধিমান ভাবনা নয়।

ফিলিষ্তিনীরা যুদ্ধকেই বেছে নিয়েছিল দেশ স্বাধীন করার জন্য, সেখানে তারা ভয়ংকর ভয়ংকরভাবে পরাজিত হয়েছে অসংখ্যবার; এখন তাদেরকে দেশ পেতে হবে শান্তিপুর্ণ নেগোচিয়েশনের মাধ্যমে।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:১৫

নতুন নকিব বলেছেন:



মতের বিপক্ষে বললেও আপনার বলার ধরনটা ব্যতিক্রমী। ভাল লাগে। কেউ একজন বলেছিলেন, তার পরিচিত এক ভদ্রলোক। তিনি কাউকে গালি দিলেও শুনতে নাকি মজা লাগে। আপনার অধিকাংশ কমেন্ট বুদ্ধিদীপ্ত।

ফিলিষ্তিনীরা যুদ্ধকেই বেছে নিয়েছিল দেশ স্বাধীন করার জন্য, সেখানে তারা ভয়ংকর ভয়ংকরভাবে পরাজিত হয়েছে অসংখ্যবার; এখন তাদেরকে দেশ পেতে হবে শান্তিপুর্ণ নেগোচিয়েশনের মাধ্যমে।

----তাহলে জাতিসংঘ ফাতিসংঘ হিউম্যান অর্গানাইজেশন ফর্গানাইজেশন এইসব কেন? এগুলোর থাকার দরকার কী? মাতব্বর আর মোড়ল দাবিদার ইঙ্গ-মার্কিন-রুশ-চাইনিজ সব কি বিক্রিত মাল? এক্ষেত্রে পৃথিবীর কারও কোনো ভূমিকা থাকা উচিত নয়?

১৩| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ রাত ৮:১৬

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: সউদ বংশের কথিত যুবরাজ সালমান একটা মুরতাদ!

তার হাতে মক্কা মদিনা নিরাপদ নয় ! এরদোগান কি উদ্যোগ নেবেন পবিত্র ভুমিকে অপবিত্র ব্যক্তির হাত থেকে উদ্ধারে!
বিদায় হজ্বে পরিষ্কার বলা হয়েছে -তাকওয়াই হল মানদন্ড! আরব অনারব নয়।
বিশ্বের বাকী মুসলিম বিশ্বের নেতাদের একত্রিত হবার সময় এসেছে। ঐ শয়তানের দালাল, ইহুদী এজেন্টের হাত থেকে মুসলমানদের পবিত্র ভূমি পুনরুদ্ধারে।

হে আল্লাহ! তোমার গায়েবী সাহায্য চাই। তুমি মুমিনদের মধ্যের ঐক্যের চেতনা দৃঢ় করে দাও। এবং তাদের বিজয়ী কর।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:২৫

নতুন নকিব বলেছেন:



যুবরাজ 'সালমান' নন, 'মুহাম্মাদ বিন সালমান' বলতে চেয়েছেন সম্ভবত:। সালমান তো বাদশাহর নাম।

এরদোগান সাহসী পুরুষ। তার পক্ষে সাহসী পদক্ষেপ আশা করা অমূলক ছিল না। কিন্তু, আমার মনে হয়, পারমানবিক এই যুগে পারমানবিক অস্ত্রহীন তুরস্ককে সউদিরাও তেমন একটা গনায় ধরার কথা নয়। আগে প্রয়োজন, মুসলিম ঐতিহ্যের ধারক বাহক, বীর তুর্কি জাতিকে পারমানবিক শক্তিতে স্বয়ংসম্পূর্ন হওয়া। কারন, আজকের পৃথিবীতে কোনো দেশ জাতি কতটা শক্তিশালী তা নির্ধারিত হয়, তাদের পারমানবিক অস্ত্র-শস্ত্রের মজুদের উপর ভিত্তি করে। তুরস্ককেও মনযোগ দিতে হবে, তাদের হাত শক্তিশালী করার দিকে, এরপরেই তাদের পক্ষে উদ্ধার করা সম্ভব মুসলিম জাতির হারানো গৌরবগাঁথা। অতিতের ঐতিহ্যধারা।

আপনার প্রার্থনা আল্লাহ পাক কবুল করুন। ভাল থাকুন অনেক।

১৪| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ রাত ৯:১৩

চাঁদগাজী বলেছেন:



বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন, " সউদ বংশের কথিত যুবরাজ সালমান একটা মুরতাদ! তার হাতে মক্কা মদিনা নিরাপদ নয় ! এরদোগান কি উদ্যোগ নেবেন পবিত্র ভুমিকে অপবিত্র ব্যক্তির হাত থেকে উদ্ধারে! "

সৌদীতে যা ঘটছে, তা ঘটনা; এরদেগানের মক্কা, মদীনার ব্যাপারে কিছু করা হলো, "ফেন্টাসী"।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:৩৩

নতুন নকিব বলেছেন:



'ঘটনা' আর 'ফ্যান্টাসী'র ব্যাখ্যা আপনি যেভাবে জানেন, এর সম্ভবত: আরও প্রকরন রয়েছে। সেগুলোও নেড়েচেড়ে দেখা দরকার। ধন্যবাদ।

বিশ্ব মুসলিমের প্রতিনিধিত্বকারী ব্যক্তি যদি বিপথগামী হয়ে পড়েন, তাকে সোজা পথে ফিরিয়ে আনা কিংবা তা সম্ভব না হলে তার অপসারন কল্পে ভূমিকাকে 'ফ্যান্টাসী' কিভাবে ভাবা যায়, বোধগম্য নয়। একই কাজ যদি তুরস্ক না করে বৃটেন বা আমেরিকা করে, তাকে কী বলা যাবে?

১৫| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ রাত ৯:১৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: আজকের দিনে মুসলিমদের সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে বাস্তবতা বিবর্জিত আবেগ।এই ঠুনকো আবেগের আসলে কোন মূল্য নাই।সোদি যুব্রাজ আগুন নিয়ে খেলছে । তাকে রুখতে হলে দরকার কৌশল , আবেগের বশে যুদ্ধে জড়িয়ে পড়লে ক্ষতি কেবল মুসলিমদেরই হবে অন্য কারো নয়। যুক্তরাস্ট্র /ইস্রাইল আইএস তৈরী করে মুস্লিমদের বিড়াট ক্ষতি করেছে। রাশিয়া বিরুদ্ধে না গেলে এইএস এর তান্ডব বন্ধ হত না। এখন আবার সৌদি যুবরাজকে দিয়ে নতুন খেলায় নেমেছে ইস্রাইল /আমেরিকা। মধ্যপ্রাচ্যে আরেকটা যুদ্ধ লাগানোর পায়তারা করছে তারা। বাদবাকি মুসলিম দেশগুলোর ঘটে একটু বুদ্ধি থাকলে তাদের উচিৎ রাসিয়ার সাথে বসা।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:৩৪

নতুন নকিব বলেছেন:



মূল্যবান নিরীক্ষন। অনেক ধন্যবাদ। ভাল থাকুন।

১৬| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৮ রাত ১০:২৬

শাহাদাৎ হোসাইন (সত্যের ছায়া) বলেছেন: এদের (সৌদ প্রিন্স/রাখাল) যোগ্যতা এবং কর্ম দক্ষতা নিয়ে লেখা-লেখির কারণে ইতিপূর্বে অনলাইনে অনেকের চক্ষুশূল হয়েছিলাম। এখন নতুন করে কিছু বলতে চাইনা।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:৩৭

নতুন নকিব বলেছেন:



চক্ষুশূল হয়েছেন বলে আরও শক্ত প্রতিবাদ নিয়ে আসতে হবে। নতুন করে আমিও কিছু বলতাম না, নতুন করে ইসরাইল যদি হত্যাযজ্ঞে মেতে না উঠতো, আর রাজপুত্তুর যদি তাদের মোসাহেবিতে পূর্ন মনযোগ না দিতেন।

অনেক ভাল থাকুন ভাই।

১৭| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:০৮

কেএসরথি বলেছেন: ইরানের ভয়ে সৌদিআরব এখন ইসরাইলের বন্ধু!

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:৪৭

নতুন নকিব বলেছেন:



ঠিক এমনটাই মনে হয়। ভয় ফুরিয়ে যাবে একসময়। আর কেউ কিছু করার জন্য এগিয়ে না আসলে, এই রাক্ষুসে ইসরাইলের হাতেই ধরা খাবে সউদি রাজপুত্তুরগং। এরা ইহুদিবাদী ইসরাইলের আসল রূপ জানে না।

মহাগ্রন্থ আল কুরআনে মহান অাল্লাহ পাক যে জাতিকে অভিশপ্ত বলেছেন, তারা আর কেউ নন। এই ইহুদিগন। এরা বেআদব জাতি। অসংখ্য নবী রাসূল পর্যন্ত এদের হাতে নির্মমভাবে হত্যার শিকার হয়েছেন। পৃথিবীতে বিবাদ বিসম্বাদ সৃষ্টিতেও এরাই ছিল অগ্রনী। এরা ইতিহাসের কলঙ্ক। নিকৃষ্টতম মানব সন্তান। এই নিকৃষ্টদের দখলে আজ সভ্যতার সূতিকাগার মধ্যপ্রাচ্যের নাভীমূল আমাদের প্রথম কিবলাহ বাইতুল মুকাদ্দাসের প্রিয় ভূমি ফিলিস্তিন। তাদের হিংস্র দন্ত-নখরের আঁচড়ে-কামড়ে ক্ষত বিক্ষত রক্তাক্ত গোটা ফিলিস্তিন। এদের প্রতি আল্লাহ পাকের লা'নত, অভিশাপ। অভিশপ্তদের যারা বন্ধুরূপে গ্রহন করে তাদের জন্য কোনো শুভ পরিনাম থাকতে পারে না।

ভাল থাকুন।

১৮| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১২:৫৭

রাজীব নুর বলেছেন: পোষ্ট এবং মন্তব্য গুলো পড়লাম।

কিছু বলব না, শুধু একটা কথা বলি, চাঁদগাজী সামু ব্লগের জন্য আর্শীবাদ স্বরুপ।
কেউ তাকে নিয়ে কটাক্ষ্য করলে আমার মেজাজ প্রচন্ড খারাপ হয়।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১:৫১

নতুন নকিব বলেছেন:



ভাল বলেছেন। আমারও তাকে ভাল লাগে। তিনি বিজ্ঞ ব্যক্তি। তাকে শ্রদ্ধা করি। বিশেষত: ভাল লাগে তার ধৈর্য্য, স্থৈর্য্য। মন্তব্যে বিরুদ্ধ পক্ষের প্রচন্ড আক্রমন তিনি অত্যন্ত শান্তভাবে মোকাবেলা করতে পারেন। সহজে তাকে উত্তেজিত হতে দেখা যায় না। তার রাজনৈতিক বিশ্লেষনগুলো আমি দেখি। ধর্মীয় বিষয়ে তার মতামতে কিছু কিছু ক্ষেত্রে মিলতে পারি না। হয়তো তার জানা আমাদের জানা থেকে ভিন্ন।

আর আমার মনে হয় না এই পোস্টে তাকে কটাক্ষ্যমূলক কোনও কথা কেউ বলেছেন, যাতে তাকে হেয়প্রতিপন্ন করা হয়েছে। মতের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করলে- কথার পীঠে কথা যতটুকু বললে শিষ্টাচার ভঙ্গ হয় না, কিংবা কারও সম্মান ক্ষুন্ন হয় না, ততটুকু বলা অন্যায় মনে করি না।

আমার ধারনা, চাঁদগাজী ভাই নিজেও এই পোস্টে কোনও কথায় ক্ষুব্ধ হননি কিংবা কষ্টও পাননি। যতটা দেখেছি, উদারতার অভাব এত সহজে তাকে কাবু করে না।

তাকে এবং আপনাকে ধন্যবাদ।

১৯| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১:০০

অগ্নিবেশ বলেছেন: নাকিব ভাইরে আমি অনেকদিন আগেই কইছি। ইসলাম ইসলামে পোন্দাপুন্দিতেই ইসলাম শেষ হবে। আপনি যেমন মনে করেন আপনার ইসলামই একমাত্র সঠিক, আর অন্য সব বেঠিক। অন্যরাও একই মনে করে। ইহুদি নাসারা করে আর কতদিন? উপায় একাটাই আছে, কানে কানে বলুম।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১:৫৭

নতুন নকিব বলেছেন:



ভাই, আপনারেও তো হেইদিনই কইছিলাম, শব্দ চয়নে যদি দয়া কইরা আরিট্টু বিবেচনা করতেন!

এটা ইহুদি নাসারা নিয়ে কোনো পোস্ট নয়। সউদি যুবরাজ যিনি মনে করেন, আগামীর সউদি তার হাতে, তাকে নিয়ে লিখেছিলাম।

বুঝতে কষ্ট হয় না, পোস্ট না পড়ে মন্তব্য করে গেলেন। ভাই কি খুব ব্যস্ততার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন? সময় হলে পোস্ট পড়ে দেখার অনুরোধ থাকলো।

তা, আপনি ভাল আছেন তো? ভাল থাকার কামনা।

২০| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ১:৫৮

কামরুননাহার কলি বলেছেন: হায় রে মানুষ, আর বিধাতারই কি নীলা তিনি মানুষরুপে যে পৃথীবিতে কি পাঠিয়েছেন তা তিনিই জানেন।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ২:০৩

নতুন নকিব বলেছেন:



বুকের ভেতর আপনার হাহাকার আর কান্নার শব্দ শুনতে পেলাম। ফিলিস্তিনের নির্যাতিত মানবতার পক্ষে নিশ্চয়ই আপনার এ ব্যথা কান্নার আওয়াজ।

ভাল থাকুন অনেক।

২১| ০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ২:১১

কামরুননাহার কলি বলেছেন: মানুষ যে ধর্মেরই হোক না কেনো তাদের নির্যাতনে শিকার হতে দেখলে কার হৃদয় না হাহাকার করে।

০৪ ঠা এপ্রিল, ২০১৮ দুপুর ২:১৪

নতুন নকিব বলেছেন:



মোস্ট ওয়েলকাম। আবারও ফিরে আসায় কৃতজ্ঞতা।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.