নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আশাবাদী ।

রাকু হাসান

সাদামাটা জীবন পছন্দ । ভালোবাসা ছড়িয়ে দাও ।ভালোবাসো এ দেশ,মানুষ,প্রকৃতি কে ।

রাকু হাসান › বিস্তারিত পোস্টঃ

কার্টুনিস্ট মোর্শেদ মিশু, আমরা লজ্জিত! The Global Happiness Challenge

০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১:২৭


আজ সকালটা শুরু হয়েছে দীর্ঘশ্বাস দিয়ে । টিভি কম দেখা হয় । কেন যেন, আজ ব্রেকফাস্ট করতে করতে টিভি চালু করলাম ।দেখছি একটি বেসরকারী টেলিভিশন সকালের অনুষ্ঠানে তিনি কথা বলছেন। সকালের এই অনুষ্ঠান একই সাথে খুব সুখবরের এবং দীর্ঘ - শ্বাসের ছিল । কার্টুনিস্ট মোর্শেদ মিশু, খুব দুঃখ প্রকাশ করলেন । তিনি দেশের হয়ে কাজ করেন । অথচ সেই দেশই তাঁর চিত্রকর্ম তুলে ধরতে পারেনি । 'The Global Happiness Challenge' সিরিজের কার্টুন গুলো সারা বিশ্বেই আলোড়ন সৃষ্টি করে। কার্টুনগুলো প্রথমেই বিশ্ব মিডিয়াতে আসে। অথচ আমাদের দেশের মিডিয়া চীন-ভারত যুদ্ধ লেগে যাচ্ছে ,ইরান-যুক্তরাষ্ট্রে-উ.কোরিয়ার বাকযুদ্ধ,ট্রাম্প বায়ু নির্গমন করছে,নুসরাত ফারিয়ার শরীরচর্চা থেকে শুরু করে আংটি বদল ,এমনকি রুবেলের মন নেই সেই খবরও রাখে। বিশ্বাস করুন । একটি সুখববের জন্য আমি তীর্থের কাকের মত অপেক্ষা করি। সেটা যদি বাংলাদেশের হয় তাহলে সেই আনন্দটা অপরিমেয়। প্রথমে 'গ্লোবাল হেপিনেস চ্যালেঞ্জ' সিরিজের আলোড়িত কার্টুন দেখবো ,তারপর জীবন সর্ম্পকে জানবো । এ বিষয়ে নিজের মনোভাব প্রকাশ করছি দ্বায় থেকেই । মনে হচ্ছে বলা প্রয়োজন,প্রচারের প্রয়োজন।


The Global Happiness Challenge
আমি শুধুই আঁকতে জানি, কষ্টগুলো ঢাকতে জানি।”-ক্রেডিট-ছড়াকার অনিক খান সম্পূরক তথ্য ছড়াকার অনিক খান’কে নিয়ে ২০১২ সালে রিফাত হোসেন নামে ব্লগারের সামহোয়্যারইনব্লগে একটি পোস্ট আছে। । প্রায় ৪ হাজার বার পঠিত ।
১।একটু ভাবুন তো ছবিটি কে নিয়ে । এক স্বর্গীয় সুখে বাবা তাঁর মেয়েকে নিয়ে উল্লাস করছে ।যুদ্ধবাজ পৃথিবীতে এই বাবার এই স্বপ্ন দেখতে মানা ।


২।
কথা তো এটাই ছিল। প্রশান্তির চোখে শিশুটি দুধ পান করবে ,দুর্দিনের চিন্তায় বিভোর শিশুটি । গায়ের লোম দাঁড়িয়ে যায় না ?


৩। খেলতে খেলতে বাবার বুকে ঘুমিয়ে যাবে , আর বাবা ঘুম ভাঙ্গে যাবার ভয়ে ,এক চুলও নড়বে না 8-| । হ্যাঁ ঘুমিয়েছে । মৃর্ত্যু ঘুম। B:-)




৪। আহারে জীবন-শৈশব 8-|


৫।আচ্ছা দেশপ্রেম পরিমাপের কোন যন্ত্র নেই ? 8-| আর হ্যাঁ সেই হিসাবটা অবশ্যই দিবেন :) ,কতটুকু অত্যাচারিত হলে দু'পা হীন অবস্থায় হুইল চেয়ারে বসে লড়ায়ে এগিয়ে যায়?(বি.দ্র-যতদূর মনে পড়ছে ছবিটি ফিলিস্তিনের -ইসরাইল সীমান্তে)


৬। এখানে শুধু এটাই বলবো ,আমি ছবিটি খুব বেশিক্ষণ দেখতে পারছি না । ভাবতে পারছি না।
:((


৭। সবুজ নীলের খেলায়, রঙের ভেলায়, কবে পাখি উড়বে এই আকাশে কে জানে ।


৮। এখানে দুইটি পৃথিবী। হাসতেই পারতো আব্বুর এমন সুড়সুড়িতে । কি বলেছিল মেয়েটি মৃত্যুর ঠিক আগে ?



৯।ছবিটি 'কিশোর আন্দোলনের। শত বির্তক থাকলেও ,কিশোর আন্দোলন বিশ্ব ইতিহাসে লজ্জাজনক । এ লজ্জা আমার ,এই লজ্জা বাংলাদেশের । একটি কার্টুন দিয়েই পুরো বার্তা যেন দিয়ে দিলেন । খুব শক্তিমান । গভীর।


১০। এই ছবিটির গল্প শোানর আমন্ত্রন জানিয়ে রাখলাম । এ ব্যাপারে আর কিছু বললাম না । অনেকের জানারও কথা।


১১। জানেন ,যখন খেতে গিয়ে মুখ মাখিয়ে ফেলা শিশুকে দেখলেই ,এই ছবিটি ভেসে উঠে। ভুলা যায় না।


কার্টুনিস্ট মোর্শেদ মিশু'র ব্যক্তিগত কিছু তথ্য:


পূর্ণনাম আব্দুল্লাহ্ আল মোর্শেদ । তিনি ঢাকার মিরপুরে ১৯৯৩ সালের ২৯ শে জুলাই জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯ বছর বয়সে তিনি পেশাদারি কার্টুন আকাঁআকিঁ শুরু করেন । ব্যঙ্গধর্মী মাসিক 'উন্মাদ' এর সহকারী সম্পাদক হিসাবে কাজ করছেন। ডেইলি বাংলাদেশ টুডের কার্টুনিস্ট বিভাগের সম্পাদনার দায়িত্ব পালন করছেন । যারা পত্র পত্রিকা ফলো করেন তারা হরহামেশায় তাঁর কার্টুন দেখতে পান । জীবনে অনেক লক্ষ্য ,পরিকল্পনা করে যখন দেখলেন ব্যর্থ হচ্ছেন ,হচ্ছে না । তখন মনোযোগ দিলেন শখে। বাকিটা ইতিহাস । আর পেছন ফিরে তাকাতে হয় নি । কার্টনিস্ট মোর্শেদ মিশুর ভাই ছিল বড় উৎসাহের জায়গা। বড় ভাই মাদ্রাসার শিক্ষার্থী হলেও কার্টুন আকঁতে পছন্দ করত। তাঁর কাছ থেকেই হাতেখড়ি মোর্শেদ মিশুর। ২০১৯ সালে Forbes কর্তৃক এশিয়ার সেরা ৩০ এ জায়গা করে নিয়েছেন। "Global Happiness Challenge'' গ্লোবাল হেপিনেস সিরেজের এই পর্যন্ত ১১টি ছবি প্রকাশিত হয়েছে। এতক্ষণ তাই দেখেছেন । আরও ১৯ টি শিল্পকর্মের অপেক্ষায় আছি। বি.দ্র সর্ব প্রথম ছবিটি গ্লোবাল হেপিনেস চ্যালেঞ্জ সিরিজের না । The Global GOD FORBID Challenge সিরিজের । এই সিরিজের একটি কার্টুন প্রকাশিত হয়েছে ।

শেষ কথা : পড়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।ভালো কাজগুলো সামনে আসুক । সবাই আলোচনা করুক । অবশ্যই ভালো থাকুন । আজকের এই লেখাটি উৎসর্গ করব একজন নিরেট পাঠক । যিনি অনেক যাবত সামুতে আছেন । কিন্তু লেখেন না । কল্পনার চোখে উনাকে দেখি সৎ,নিষ্ঠাবান, সহজ-সরল একজন মানুষ হিসাবে । তিনি আর কেউ নন :) অন্তরন্তর ভাই । হ্যাঁ আপনি অন্তরেই আছেন। আপনাকে উৎসর্গ করলাম । এটা একটা আমার পক্ষ থেকে ছোট সম্মান । আপনি দীর্ঘআয়ু লাভ করুন ।


সোর্স লিংক : ১- Morshed Mishu
২-Forbes

মন্তব্য ৬০ টি রেটিং +১৮/-০

মন্তব্য (৬০) মন্তব্য লিখুন

১| ০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১:৩৮

চাঙ্কু বলেছেন: আমার কেন জানি মনে হয় আমাদের মিডিয়াগুলো নেতিবাচক খবরগুলোকে বেশী হাইলাইট করে! নেতিবাচক খবর দেখতে দেখতে মাঝে মাঝে পজেটিভ খবরগুলোকেও নেতিবাচক খবর হিসাবে পড়া শুরু করি। আফসুস জেডা।

মিশুর কিছু কার্টুন মনে হয় উম্মাদে দেখেছিলাম!! মন ভেঙ্গে ফেলা ছবিগুলোকে উনি সুন্দরভাবে, পজেটিভভাবে কার্টুনগুলতে তুলে এনেছেন!!

০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১:৪৯

রাকু হাসান বলেছেন:


হাহাহহাহা জেডা ! :) হাসলাম কেন ? ;) । মনে হয় দ্বিতীয় বারের মত প্রমিত বাংলায় মন্তব্য করলো আমার ব্লগে । B-) জেডা কি বাংলা একাডেমির ক্লাস শুরু করলা। ;)
আমার কেন জানি মনে হয় আমাদের মিডিয়াগুলো নেতিবাচক খবরগুলোকে বেশী হাইলাইট করে! নেতিবাচক খবর দেখতে দেখতে মাঝে মাঝে পজেটিভ খবরগুলোকেও নেতিবাচক খবর হিসাবে পড়া শুরু করি। আফসুস জেডা।-- কারণ আছে জেডা ,নেতিবাচক খবর চলে বেশি। শেয়ার হয় ,কথা হয় । অনন্ত খুব ভালো মার্কেটিংও হয় কোনো পক্ষের । এটা সব বয়সী মানুষের মাঝে দেখি।

হ্যাঁ উন্মাদে নিয়মিত ছাপে। মানুষের সুখটা উনি খুব ধরতে পারেন । তবে তাঁকে ভয়ও করে । ভাল কর্মগুলো বেঁচে থাকুক। :)

২| ০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১:৪৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


উনি উার স্হান পাবেন, হয়তো সময় লাগবে।

০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১:৫২

রাকু হাসান বলেছেন:

বয়স এখনও ৩০ পার হয়নি। আয়ু ও সৃজনশীলতা ধরে কাজ চালিয়ে স্থান পাবেন। তবে আমার মনে হয় সেটা শুরু হয়ে গেছে।ধন্যবাদ স্যার । :)

৩| ০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১:৫৫

কল্পদ্রুম বলেছেন: ছবিগুলো দেখেছিলাম আগেই।প্রথমটা বাদে।চমৎকার সব আইডিয়া।

০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ২:০০

রাকু হাসান বলেছেন:

দেখিছি বিচ্ছন্নভাবে । তবে আমার কিন্তু সবগুলোই ভাল লেগেছে।উনাকে ব্যাপক সম্ভবনাময় লাগে।
মতামতের জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা থাকবে। শুভরাত্রি ।

৪| ০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ২:২৩

নুরুলইসলা০৬০৪ বলেছেন: বেশিরভাগ মূল ছবিই দেখা।আইএস দমনের সময়কার ছবি।যুদ্ধের পরিণতি।যুদ্ধ কে না বলুন।

০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ২:২৬

রাকু হাসান বলেছেন:

এটা ভাল। মোর্শেদ মিশুর আক্ষেপের সাথে ছবিগুলো জড়িয়ে দিলাম আর কি । হুম যুদ্ধ পছন্দ করি না । কিন্তু সেই শান্তির বার্তা প্রতিষ্ঠা হবে কি আদৌ? নাকি কবি,সাহিত্যিকদের পাতায় রয়ে যাবে।ধন্যবাদ ভাই। শুভরাত্রি । পড়ে যাচ্ছেন লিখবেন না! লেখার ক্ষমতা রাখেন আপনি।

৫| ০৯ ই জুন, ২০২০ ভোর ৪:২৫

নেওয়াজ আলি বলেছেন: ছবিও কথা বলে । উনার যোগ্য সম্মান পাবেন।

০৯ ই জুন, ২০২০ সকাল ৯:০১

রাকু হাসান বলেছেন:

নেওয়াজ ভাই ধন্যবাদ আপনাকে । আশা করছি ভালো আছেন ।শুভকামনা করছি।

৬| ০৯ ই জুন, ২০২০ সকাল ৮:১৩

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: অসাধারন!
শরীরে কাটা দিয়ে উঠলো অনেক গুলোই...
কোন কথা না বলে অনেক কথা বলার, তীব্র শানিত প্রতিবাদ যেন..

শেয়ার করায় অশেষ কৃতজ্ঞতা।
অন্তর থেকে প্রার্থনা শিল্পীর জন্য আর আপনার জন্যেও

++++

০৯ ই জুন, ২০২০ সকাল ৯:০৭

রাকু হাসান বলেছেন:


শ্রদ্ধেয় অগ্রজ বিদ্রোহী ভৃগু ভাই শরীরে কাটা দিয়ে উঠলো অনেক গুলোই...--মূল ছবিগুলো আমি একবারের বেশি দেখতে চাইতাম না । লিখতে কষ্ট হয়েছে।
কোন কথা না বলে অনেক কথা বলার, তীব্র শানিত প্রতিবাদ যেন..---কার্টুন দিয়ে খুব বড় প্রতিবাদ হতে পারে। এটা জনপ্রিয়তা পাবার কথা বাংলাদেশে। এই প্রবণতাটা শুরু হয়েছে বাংলাদেশে।শিল্পীরা তো তাঁদের মানবতার জয়গান গেয়েই যায় ,আমরা শুনি কই । পাঠ মন্তব্য লাইকে শুভেচ্ছা ও শ্রদ্ধা থাকলো।

৭| ০৯ ই জুন, ২০২০ সকাল ১০:২৩

কাছের-মানুষ বলেছেন: ছবিগুলো দেখে বাক্যরুদ্ধ হয়ে গেলাম। মনকে নাড়া দিল। এত সুন্দর ক্রিয়েটিভ কাজ করেছেন এবং ভাল কিছু মেসেজও দিয়েছেন। অবশ্যই তার প্রতিভার মূলায়ন তিনি পাবেন আজ না হয় কাল।

শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ আপনাকে।

০৯ ই জুন, ২০২০ সকাল ১০:৪০

রাকু হাসান বলেছেন:

অনেক দিন পর্ আপনাকে এই ক্ষুদ্র ব্লগারের ব্লগে দেখে ভালো লাগছে। সুন্দর মতামত দিয়েছেন। ভালো কাজ কখনও বিফলে যায় না । এর প্রতদান নিশ্চয় প্রকৃতি দিবে। হয় মৃত্যুর আগে ,নয়তো পরে । ছবিগুলো নাড়া দেবার মতই । মাঝখানে দেখি নাই আপনাকে ।হয়তো ব্যস্ত ছিলেন । মিস করেছিলাম । শ্রদ্ধা নিবেন আমার ।

৮| ০৯ ই জুন, ২০২০ সকাল ১০:৩৩

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ক্রুয়েল রিয়েলিটি থেকে অন্তর্চোখে হ্যাপি পৃথিবীকে দেখা এবং তার চিত্রায়ন একটা অসাধারণ আইডিয়া এবং অসাধারণ কাজ। এগুলোর ব্যাপারে আমার কোনো আইডিয়া ছিল না, আপনার পোস্টের কারণে দেখা ও জানা হলো।

কিছু কিছু ছবিতে চোখ আটকে গেছে, শরীরের লোম দাঁড়িয়ে গেছে এবং চোখ ভিজে উঠেছে।

চাঙ্কু'র সাথে একমত, আমরা নেগেটিভ খবরের প্রতি বেশি আকর্ষণ বোধ করি; মিডিয়া এটা জানে ও বোঝে বলেই এগুলোকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকে।

আরেকটা ফ্যকটর আছে। মোর্শেদ মিশু'র চাইতে কম ট্যালেন্টেড একজন ফরেইন কার্টুনিস্ট আজ এ দেশে আসলে আমরা তাকে মাথায় তুলে নাচবো, তার সান্নিধ্য পাওয়ার জন্য ব্যাকুল হয়ে পড়বো। কবিতায় তাই বলা হয়েছিল- কতরূপ স্নেহ করি বিদেশের কুকুর ধরি স্বদেশের ঠাকুর ফেলিয়া। এটা আমাদের মজ্জাগত স্বভাব।

চমৎকার একটা পোস্ট উপহার দিলেন। অন্তরন্তর ভাই আমারও প্রিয় একজন ব্লগার। তিনি অনেকদিন ধরেই ব্লগে অ্যাক্টিভ নেই, তবে হঠাৎ হঠাৎ তার দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না তা এক রহস্য বটে।

আপনার জন্য শুভেচ্ছা রইল। ভালো থাকুন, সুস্থ ও নিরাপদ থাকুন।

০৯ ই জুন, ২০২০ দুপুর ২:২২

রাকু হাসান বলেছেন:

প্রথমেই স্বাগতম আপনাকে সোনাবীজ ভাইয়া।আপনি একটি পূর্ণাঙ্গ মন্তব্য রেখেছেন।
কিছু কিছু ছবিতে চোখ আটকে গেছে, শরীরের লোম দাঁড়িয়ে গেছে এবং চোখ ভিজে উঠেছে।
--আমারও এমনটা অনুভূতি হয়েছে। কি করুণ ছবি গুলো। শিল্পীয় চোখে তিনি একেঁছেন তাঁর পৃথিবী । কে না চায় এমন মানবিক পৃথিবীর স্বপ্ন থাকতে।

চাঙ্কু জেডা সুন্দর মতামত দিয়েছেন । তিনি মিডিয়ার বাস্তব কথাই বলে গেছেন । আমি এটা মনে করি । আপনিও একমত পোষণ করলেন । রঙ্গ মঞ্চে সবাই নাচতে চাই।

আমরা নেগেটিভ খবরের প্রতি বেশি আকর্ষণ বোধ করি; মিডিয়া এটা জানে ও বোঝে বলেই এগুলোকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকে।-- এটা বাস্তব ,তবে এটাই কি সাংবাদিকতার নৈতিকতা ? নিশ্চয় নয়। পত্র পত্রিকা সমাজ পরিবর্তনে দারুণ ভূমিকা রাখে ,তাদের দ্বারাই সূচনা হবার কথা নতুন দিনের ,নতুন ভাবনার পথ। আমি বলছি না পত্রিকাগুলো সব সময় ন্যাগেটিভ খবর প্রচার করে ,প্রশ্নচিহ্ন সেখানেই হয়ে যায় ,যখন ‍মেধাবীরা প্রাপ্য সম্মানটা পায় না । আমরা আম জনতার কথা বা বাদই দিলাম।
কতরূপ স্নেহ করি বিদেশের কুকুর ধরি স্বদেশের ঠাকুর ফেলিয়া-- ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত খুব সম্ভবত লাইন টি লিখেছিলেন। সত্যিই আমাদের মজ্জাগত অভ্যাস। শতভাগ একমত । তবু পথ পানে চেয়ে থাকি আশা বেঁধে রাখি--- 8-| এছাড়া কিছু করতে পারবো না । দীর্ঘশ্বাস ছাড়তে পারব শুধু।

পোস্ট ভালো লেগেছে জেনে ভাল লাগলো। আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি হৃদয়ছোঁয়া মন্তব্য করার জন্য। । এমন মন্তব্য শক্তি বাড়ায়। এগুলোই আমার প্রেরণা। খুব বেশি ভাল থাকুন আপনি । আপনি ও আপনার পরিবারের প্রতি সালাম জানবেন ।

৯| ০৯ ই জুন, ২০২০ সকাল ১১:২৭

কাছের-মানুষ বলেছেন: ধন্যনাদ আপনাকে।

এখানে কেউ ক্ষুদ্র ব্লগার নয়। আমরা সবাই ব্লগিং করি, এখানে সবাই সমান।

০৯ ই জুন, ২০২০ দুপুর ২:২৪

রাকু হাসান বলেছেন:

বাহ চমৎকারক বলেছেন । তাই কবি বলেছেন ‘গাহি সাম্যের গান-. যেখানে আসিয়া এক হয়ে গেছে সব বাধা-ব্যবধান. যেখানে মিশছে হিন্দু-বৌদ্ধ-মুস্‌লিম-ক্রীশ্চান।, বিশ্বাস করি ,আমরা সবাই রাজা .। ব্লগীয় বন্ধনে বন্ধী থাকতে পারি যেন সেই দোয়া রইলো এবং থাকলো। আবারও আশায় আন্তরিক শ্রদ্ধা ও শুভেচ্ছা।

১০| ০৯ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: মোর্শেদ মিশু সম্পর্কে জেনে ভালো লাগলো।
আপনাকে আনন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

০৯ ই জুন, ২০২০ দুপুর ২:২৬

রাকু হাসান বলেছেন:


ধন্যবাদ ভাই। আপনার স্বরুপে ফেরার অপেক্ষায় আছি।

১১| ০৯ ই জুন, ২০২০ দুপুর ১:৫৪

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: ছবিগুলো যদির ছবির মত বাস্তব হত কত সুন্দর হত। কিন্তু হয়েছে নির্মম পৃথিবী বাস্তবতা থেকে কল্পনা।+++++

০৯ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:১৯

রাকু হাসান বলেছেন:

হ্যাঁ ভাই,কার্টুনিস্ট সেটাই বুঝাতে চেয়েছেন । মন্তব্য ও প্লাসে ধন্যবাদ । আশা করছি কুশলে আছেন।

১২| ০৯ ই জুন, ২০২০ দুপুর ২:১৭

ডি মুন বলেছেন:
ছবিগুলো আগেও দেখেছি। অসামান্য কাজ।
বিশ্বদরবারে প্রশংসা কুড়িয়েছে, মানুষকে ভাবিয়েছে।
তবে মিশুর এ কাজ নিয়ে যতটা প্রচার এ দেশে হওয়ার কথা ছিলো, তার কিছুই হয়নি।
গুণীর কদর করতে না জানা জাতির কাছ থেকে এটাই হয়তো স্বাভাবিক।

মিশু তার সৃজনশীলতা নিয়ে এগিয়ে যাবেন, এটাই প্রত্যাশা।
সুন্দর পোস্টের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ

০৯ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৩:২৬

রাকু হাসান বলেছেন:


তবে মিশুর এ কাজ নিয়ে যতটা প্রচার এ দেশে হওয়ার কথা ছিলো, তার কিছুই হয়নি।
গুণীর কদর করতে না জানা জাতির কাছ থেকে এটাই হয়তো স্বাভাবিক।

মানতে হয়। কার্টুনিস্ট মিশু অনেক দূর যাবেন। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশর মুখ উজ্জল করবেন সেই কামনা করি । মোর্শেদ মিশু আমরা লজ্জিত । আপনার প্রাপ্য সম্মান দিতে জানি না । ক্ষমা করবেন ।
আমার ব্লগে মনে হচ্ছে প্রথম আসলেন মন্তব্যে । স্বাগতম আপনাকে । আপনার মন্তব্যই আপনার চিত্র তুলে ধরেছে। ভাল বলেছেন । ভালো লেগেছে। শুভেচ্ছা থাকবে।

১৩| ০৯ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৪:১৭

নতুন বলেছেন: খুবই ভাল লাগলো কাটুন গুলি।

এই ছবিগুলি বিশ্ববাসীর দেখা দরকার। আমরা কি করছি কিন্তু কি আসলে হওয়া উচিত ছিলো সেটা বোঝার দরকার বিশ্ববাসীর ।

অনেক দুরে যাবেন উনি আশা করি।

০৯ ই জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০০

রাকু হাসান বলেছেন:


খুশির খবর গ্লোবাল মিডিয়ায় দৃষ্টি আর্কষণ করেছে কার্টুনগুলো। নতুন সিরিজের কার্টুনের জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।আমি আশাবাদী কানর্টুনিস্ট মোর্শেদ মিশুকে নিয়ে।শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ নতুন ভাই।

১৪| ০৯ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৪:১৯

সাইন বোর্ড বলেছেন: অসাধারন লাগল ছবিগুলো, মুগ্ধ হলাম উনার কাজ দেখে ।

০৯ ই জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০১

রাকু হাসান বলেছেন:


মুগ্ধ হবার মতই । অনেক দিন পর আপনার সাক্ষাত পেয়ে ভাল লাগছে। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে। ভাল থাকুন।

১৫| ০৯ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৪:২৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: চোখে পানি ধরা রাখা কঠিন হয়ে গেল এই কার্টুনিস্টের অসাধারন সৃষ্টি দেখে।

০৯ ই জুন, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৩

রাকু হাসান বলেছেন:


ঠিক বলেছেন । ভালো থাকুন তাঁরা । জানি কবে ওরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরবে।
মন্তব্যে শুভেচ্ছা থাকবে ঢাবিয়ান ভাই। আশা করছি নিরাপদে আছেন।

১৬| ০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:৫১

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: প্রিয় ছোট ভাই,

মোর্শেদ মিশুর নাম আগেই শুনেছি। কিন্তু বয়সটা যে এতটা কম ভাবতে পারিনি। অসাধারণ কল্পনা শক্তি। ছবিতে তার যথাযথ অভিব্যক্তি প্রকাশ পেল। হয়তো এশিয়ান বলে প্রচারটা কম আছে কিন্তু ওনার সামনে দীর্ঘ সময় পড়ে আছে। উনি একদিন বিশ্বসেরা হবেন বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।
ধন্যবাদ তোমাকে সুন্দর পোস্টটি শেয়ার করার জন্য।

নিরন্তর শুভেচ্ছা প্রিয় ছোট ভাইকে।

০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১১:৫২

রাকু হাসান বলেছেন:

বয়স যে এত কম হবে সেটা নিয়ে আমিও সন্দিহান ছিলাম । পরে তথ্য জেনে নিশ্চিত হয়েছি তিনি বয়সের আগে আগেই দৌড়াচ্ছে। এশিয়ানদের পশ্চিমা মিডিয়া কম গুরুত্ব দিলেও ,সেটা ক্রমশ পরিবর্তন হচ্ছে। তোমার সাথে এক মত উনার অনেক সময় আছে। নিশ্চয় ভালো কিছু দিবেন আমাদের।
উনি একদিন বিশ্বসেরা হবেন বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।-- উনার আগের ছবিগুলো দেখে আমার মনে হয়েছে ,তিনি ক্রমাগত নিজেকে ভাঙ্গছেন । যা খুব আশাব্যঞ্জক ব্যাপার। চিন্তিত হয়ে পড়ছিলাম দুই দিন ব্লগে না দেখে । ভাইকে ভালোবাসা জানাই। ভাইপোকে আদর দিও । ও কেমন আছে,? নিশ্চয় মানসিকভাবে কষ্টে । আশা করছি তাঁর মানসিক স্বাস্থটা ঠিক রাখতে পারছো যতদূর সম্ভব।তোমাদের দিকে স্কুল খোলার সম্ভবনা আছে ,সবুজ জোনে .. আশা করছি জানতে পারবো কোন এক মন্তব্যে। ।

১৭| ০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:১৪

সোহানী বলেছেন: অনেক অনেক ধন্যবাদ খবরটি শেয়ার করার জন্য। তবে ছবিগুলো দেখে মনটা ভীষন রকম বিষন্ন হয়ে উঠলো।

০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১১:৫৬

রাকু হাসান বলেছেন:


সোহানী আপু , মানবিক মানুষেরা অবশ্যই এমন হয় ।তাঁদের ছোট বড় ঘটনাগুলো ব্যয়িত করে । দুর্বলমনারা কেঁদেও ফেলে। আপনাকেও এমন মনে হয় । এই মানুষগুলো নিয়েই স্বপ্নে বাঁচি । ভালো থাকুন। আমার সালাম আপনার প্রতি।

১৮| ০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:২৬

রাফিন জয় বলেছেন: প্রথমটা বাদে বাকি সব ছবিগুলোই দেখেছি। মিশু ভাইর সাথে দেখাও হয়েছে কয়েকবার। তবে জানতাম না এগুলো তার করা।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১২:৩৫

রাকু হাসান বলেছেন:

দারুণ তো । একজন কে পেলাম যে মিশু ভাইয়ের সাথে সাক্ষাতও হলো।পরের বার দেখা হলে নিশ্চয় জানাতে চেষ্টা করবেন আমাদের ব্লগের ,তাঁর প্রতি ভালোবাসাটা।অনুরোধ টুকু থাকলো।আমার ব্লগে আপনাকে আন্তরিক স্বাগতম জানাচ্ছি।আপনার ব্লগ ঘুরে দেখলাম । একবার নিক ডিলিট করতে চেয়েছিলেন। এখনও আছে ভালোবাসার টানে ,দেখে ভালো লাগলো ।থাকুন । থাকুক না ,খুব বেশি সমস্যা না হলে। ভাললাগা নিবেন আমার ।শুভরাত্রি।

১৯| ০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:০২

পদ্ম পুকুর বলেছেন: যেকোনো নিরপেক্ষ বিষয়কে ভালো বা খারাপ দুভাবেই দেখা যায়, দুভাবেই বর্ণনা করা যায়। কিন্তু ঘটে যাওয়া একটা কষ্টকর বাস্তবতাটা যে আনন্দময় হতে পারতো, কল্পনার সে দৃশ্য মুর্ত করে মোর্শেদ মিশু যে প্রতিবাদ তুলে ধরেছেন, তা অতুলনীয়। শ্রদ্ধা জানাই।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১:০১

রাকু হাসান বলেছেন:


যেকোনো নিরপেক্ষ বিষয়কে ভালো বা খারাপ দুভাবেই দেখা যায়, দুভাবেই বর্ণনা করা যায়। কিন্তু ঘটে যাওয়া একটা কষ্টকর বাস্তবতাটা যে আনন্দময় হতে পারতো, কল্পনার সে দৃশ্য মুর্ত করে মোর্শেদ মিশু যে প্রতিবাদ তুলে ধরেছেন, তা অতুলনীয়।

এত সুন্দর করে বললেন । খুশি হতাম যদি মোর্শেদ মিশু দেখতো আপনাদের ভালোবাসা প্রকাশটা। ছোট করে সুন্দর মন্তব্যের জন্য জানাই কৃতজ্ঞতা ভাইয়া।আনন্দে থাকুন।

২০| ০৯ ই জুন, ২০২০ রাত ১১:৪৫

কাওসার চৌধুরী বলেছেন:



কত সুন্দর আর ইতিবাচক মানসিকতা থাকলে এমন ভাবনা মাথায় আসে! স্যলুট জানাই কার্টুনিস্টকে। কত বিভৎস আর অমানবিক ছবিগুলো কত সুন্দর করে উপস্থাপন করেছেন। যুদ্ধবাজ আর দখলদাররা যদি এভাবে পৃথিবীটা দেখতো তাহলে বিশ্ব আজ এতো অমানবিক হতো না। চমৎকার একটি তুলে আনার জন্য ধন্যবাদ প্রিয় ভাই।

ভালো থাকুন। নিরাপদে থাকুন।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১:২৬

রাকু হাসান বলেছেন:


যুদ্ধবাজদেরই এই পৃথিবী ভাই। যারা যুদ্ধবাজ তারাই মোড়ল। বিবাদ গড়েও তারা ,আবারও ভাঙতেও চায় তারা । অদ্ভুদ । জেনেও না জানা বান করে থাকি দুর্বল মানুষগুলো। যুদ্ধবাজ পৃথিবী চায় না । একটি মানবিক পৃথিবী দেখতে চায় । সে স্বপ্ন পূরণ হবে কিনা জানি । তবে আজীবন মানবিকতার গান গাইতে চায়। আন্তরিক মন্তব্য রেখেছেন ভাইয়া। আপনার নতুন পোস্টের অপেক্ষায় আছি। নিশ্চয় আসছে পোস্ট । শুভরাত্রি । শ্রদ্ধা রইলো ।

২১| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১২:৪৯

আনমোনা বলেছেন: যদি এমন হতো।

এই অসাধারন সিরিজ সম্পর্কে জানতে পেরে ভালো লাগলো।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:১৪

রাকু হাসান বলেছেন:


ধন্যবাদ আপু। আমারও ভালো লাগছে । জানাতে পেরে । এমনই হোক আগামীর পৃথিবী। শুভেচ্ছা নিবে।

২২| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১:২৫

শের শায়রী বলেছেন: সবার দেখার দৃষ্টি থাকে না। এই মানুষটার দেখার দৃষ্টি আছে। দারুন কিছু কার্টুনের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবার জন্য আন্তরিক মোবারকবাদ জানবেন ভাই।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ৮:২৫

রাকু হাসান বলেছেন:


সবার দেখার দৃষ্টি থাকে না-ঠিক বলেছেন। তবে যাদের দৃষ্টি দেওয়ার দায়িত্ব-কর্তব্য তাদের যেন থাকে।ভাইয়া আপনার মোবারকবাদ গ্রহণ করলাম। মন্তব্যের জন্য ভালোবাসা রইল আপনার প্রতি।

২৩| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১:৩৪

রুদ্র নাহিদ বলেছেন: আমি ছবিগুলো আগে দেখেছিলাম কিন্তু জানতাম না এগুলো একজন দেশি ভাইয়ের আঁকা। আর্টিষ্টের জন্য শুভকামনা থাকলো। দুঃখের বিষয় এই দেশে প্রতিভার কদর কম, স্বদেশী হলে তার কদর আরো কম।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:১০

রাকু হাসান বলেছেন:


প্রোফাইল পিকে প্রিয় একজন মানুষকে রাখছেন। ভালো লাগলো । সুন্দর সুচিন্তিত মন্তব্য করেছেন । যে জাতি যতক্ষণ পর্যন্ত নিজের মূল্যায়ন করবে না ,সে পর্যন্ত বড় কিছু আশা করা যায় না। তবে যেটা হচ্ছে ,ভাল। আশে পাশে খেয়াল করলেই দেখবেন ,আমরা অন্যের ভালো বলতে জানি না । ভালো কাজ নিয়ে কথা বলি না। অনেক ধন্যবাদ নাহিদ ভাই। নিরাপদে থাকুন । আমার ব্লগে আমন্ত্রণ সব সময় থাকবে। :)

২৪| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১:৪৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




মোর্শেদ মিশু যেভাবে কাজ করছেন এভাবে কাজ ধরে রাখতে পারলে তিনি অবস্যই সবার কাছে - বিশ্বের কাছে ম্যূলায়ন পাবেন, মূল্যায়ন নিয়ে আসবেন বাংলাদেশের জন্যও। আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ রাকু হাসান ভাই।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:২৮

রাকু হাসান বলেছেন:


আমি ব্শ্বিাস করি তিনি বাংলাদেশের জন্য ভালো কিছু করবেন।মিশুর গ্রহণযোগ্যতা এখন যে কোন সময়ের চেয়ে বেশি। এখন বিবিসি,সিএনএনরা খোঁজ খবর নেয়। ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। আপনার ব্লগ বিষয়ক বিজ্ঞতিটি পড়লাম । আবারও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি এই পোস্টের জন্য।

২৫| ১০ ই জুন, ২০২০ রাত ২:১৬

চাঙ্কু বলেছেন: এডি কোন কথা হল - আমি প্রমিত বাংলায় কমেন্টাই। এইজন্যই কুবি কইছেন- বয়সের সাথে নাডামিও সমানুপাতিক হারে কমে!! আফসুস জেডা

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:৩৬

রাকু হাসান বলেছেন:

এডি কোন কথা হল - আমি প্রমিত বাংলায় কমেন্টাই।--হাহাহা জেডা তোমার জন্য বিশেষ কিছু দিচ্ছি । ;)
ক্লিকাও

২৬| ১০ ই জুন, ২০২০ সকাল ১০:১৩

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: অসাধারণ পোস্ট। চমৎকার উৎসর্গ। অনবদ্য কার্টুনিস্ট মুর্শিদ মিশু ।

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:২৯

রাকু হাসান বলেছেন:


ধন্যবাদ কবি । অন্তরে অন্তর ভাই এখনও দেখি নি । জানি না কেমন আছেন । যেখানেই থাকেন ভালো থাকবেন।

২৭| ১০ ই জুন, ২০২০ বিকাল ৪:৩৬

লাইলী আরজুমান খানম লায়লা বলেছেন: অসাধারণ পোস্ট। আসলে আমাদের দেশে যারা কাজ করে তাদের সঠিক অর্থে মূল্যায়ন হয় না। এত সুন্দর করে ছবি এঁকেছে, আমি দেখছি আর মুগ্ধ হচ্ছি -----পোস্টটি সাবলিল হয়েছে, আর ছবিগুলো সেট হয়েছে যথার্থভাবে ---সার্থক !!!! তবে ছবিগুলো দেখে আমার চোখের পেছনে কান্নায় ভরে যাচ্ছে ---
শুভকামনা রইল নিরন্তর --

১০ ই জুন, ২০২০ রাত ১০:৪১

রাকু হাসান বলেছেন:



লাইলী আরজুমান খানম লায়লা আপু স্বাগতম এই অনুজের ব্লগে ।
:) প্রথম মন্তব্যেই আন্তরিকতার স্পর্শ পেলাম। :) সুন্দর মন্তব্য রেখেছেন।
-পোস্টটি সাবলিল হয়েছে, আর ছবিগুলো সেট হয়েছে যথার্থভাবে ---সার্থক !!!!-- ভালো করার শক্তি পাব িএখানে । আমি শিখতে চাই। দোয়া করবেন।
:( :(( ---- আবেগ ধরে রাখা খুব কঠিন। স্রষ্টা শান্তিময় পৃথিবী উপহার দিবে কি কোন দিন!! আপনার লেখা খুব উপভোগ করলাম । আমি কিন্তু আপনার ব্লগ বাড়িতে হানা দিব । B-) ভালো থাকবেন । শুভরাত্রি ।

২৮| ১৩ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:২৮

প্রোফেসর শঙ্কু বলেছেন: দেখেই মন ভরে গেল। আজাদের কবিতার লাইন যেন হুবহু -

'ব্যাধিকে রূপান্তর করেছি মুক্তোয়'

১৬ ই জুন, ২০২০ রাত ১১:৩৩

রাকু হাসান বলেছেন:

'ব্যাধিকে রূপান্তর করেছি মুক্তোয়'
--দারুণ একটি কবিতার লাইন বলেছেন জনাব । অনেক ধন্যবাদ । আপনার পরের লেখার অপেক্ষায় আছি। :) পাঠ ও মন্তব্যে কৃতজ্ঞতা ।

২৯| ১৬ ই জুন, ২০২০ রাত ৯:২৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: ছবিগুলো দেখতে দেখতে বুকে পাথরের ভার অনুভব করছিলাম।
একজন গুণী শিল্পীর শিল্পকর্ম তুলে ধরার জন্য ধন্যবাদ। পোস্টটি একজন "নীরেট পাঠক অন্তরন্তর" কে উৎসর্গ করাতে খুশী হয়েছি।
পোস্টে ভাল লাগা + +।

১৬ ই জুন, ২০২০ রাত ১১:৩৬

রাকু হাসান বলেছেন:



ছবিগুলো দেখতে দেখতে বুকে পাথরের ভার অনুভব করছিলাম। --বাস্তব অনুভূতির এক বক্যে প্রকাশ। ধন্যবাদ ও আন্তরিক শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করছি আপনার মন্তব্যে স্যার । অন্তরন্তর--ভাইকে এখনও ব্লগে দেখছি না । ক্রমেই চিন্তিত হয়ে পড়ছি। ভালো থাকুন আপসি ফিরে আসুন আমাদের মাঝে।

৩০| ১৬ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ১২:১৪

অন্তরন্তর বলেছেন: রাকু হাসান ভাই কি বলব বুঝতে পারছি না। আবেগাপ্লুত। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে এমন একজন শিল্পীর কথা লিখার জন্য। গুণী মানুষের কদর নেই সে আমজনতার কাছে তথা মিডিয়ার কাছে। মিডিয়া আছে যত নেগেটিভ আর বিতর্কিত বিষয় নিয়ে, তাদের টিআরপি বাড়ে। ছবিগুলো বুকে আঘাত করেছে, খুব কষ্টকর। গুণী শিল্পী সহ আপনাকে আবারও ধন্যবাদ জানাই। আর অনেক দুঃখিত এ পোোস্টটি দেখার জন্য। শুভ কামনা।

১৩ ই আগস্ট, ২০২০ রাত ১১:৩৬

রাকু হাসান বলেছেন:


ভাই।আশা করছি ভালো আছেন । ঈদের ছুটিতে ব্লগে আসা সম্ভব হয় নি। ডাটা ব্যবহার করে প্রবেশ করতে পারেনি । সুচিন্তিত মতা্মতের জন্য অনেক ধন্যবাদ । ভালো আছেন নিশ্চয়। আমি এখনও ভালো আছি সেটাই বড় সুখবর । ভালো থাকবেন । শুভরাত্রি ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.