নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ব্লগের স্বত্বাধিকারী সামিয়া

সামিয়া

সৎ, সাদাসিধা মানুষ। একটু স্বাধীন টাইপ। পড়তে ভাললাগে, লিখতে ভাললাগে, ছবি তুলতে ভাললাগে, মানুষের মুখে হাসি দেখতে ভাললাগে।

সামিয়া › বিস্তারিত পোস্টঃ

বন্ধু আমার মন ভাল নেই, তোমার কি মন ভাল?

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:১৭



যে কোন সৃষ্টিশীল কাজ অথবা জীবিকার জন্য কাজ যে কোন ধরণের কাজ যা মানুষের কল্যাণ করে তা হচ্ছে আত্মার আনন্দ। এই আনন্দ সবাই অর্জন করতে পারে না, নিজেকে সুখী করতে পারে, নিজেকে নিয়ে থাকতে পারে, অপরকে শ্রদ্ধা ভক্তি সন্মান করতে পারে এমন মানুষ কজনই আছে পৃথিবীতে? নিজে কিছু করবে না আবার অন্য কাউকে কিছু করতেও দিবে না। নিজের গুন নাই অন্যের গুন কে দোষে সহজেই ডাইভার্ট করেই তাদের শান্তি।
এরা সবাইকে ডোমিনেট করার চেষ্টা করে, নিজেকে প্রভু অন্যকে ভৃত্য বানিয়ে রাখার চেষ্টা করে,অন্যকে অপমান নিজেকে সন্মানের সর্বোচ্চ চুড়ায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এই চেষ্টা করতে করতে কি হয়? এই চেষ্টা করতে করতে যা হয় তা সুকুমার রায় তার ষোল আনাই মিছে কবিতায় বহু বছর আগেই বলে গেছেন।

আমার ভীষণ প্রিয় একটি কবিতা প্রথম ও শেষ অংশ তুলে দিলাম-----------

বিদ্যে বোঝাই বাবুমশাই চড়ি সখের বোটে,
মাঝিরে কন, ''বলতে পারিস সূর্যি কেন ওঠে?
চাঁদটা কেন বাড়ে কমে? জোয়ার কেন আসে?''
বৃদ্ধ মাঝি অবাক হয়ে ফ্যালফ্যালিয়ে হাসে।
বাবু বলেন, ''সারা জীবন মরলিরে তুই খাটি,
জ্ঞান বিনা তোর জীবনটা যে চারি আনাই মাটি।''

খানিক বাদে ঝড় উঠেছে, ঢেউ উঠেছে ফুলে,
বাবু দেখেন, নৌকাখানি ডুবলো বুঝি দুলে!
মাঝি শুধায়, ''সাঁতার জানো?''- মাথা নাড়েন বাবু,
মূর্খ মাঝি বলে, ''মশাই, এখন কেন কাবু?
বাঁচলে শেষে আমার কথা হিসেব করো পিছে,
তোমার দেখি জীবন খানা ষোল আনাই মিছে!''



এই ছবিটি তুলেছি বনানীর নৌবাহিনী সদর দপ্তর এরিয়ায় সম্ভবত। অনেক তাপদহ একটি দিন ছিল, জ্যাম ছিল, একটু বাতাসের জন্য জানালার কাঁচ সরিয়ে তাকাতেই এই দৃশ্য চোখে পড়লো, এত আগুন গরমে তাদের নিশ্চিন্তে ঘুম দেখে উপলব্ধি হল জীবনের প্রয়োজন বাঁচার টানাপড়েনের সাথে সাথে কমতে থাকে, টাকা যত থাকে ততই আকাশ ছোঁয়া শখ ইচ্ছা বাসনা। এক সময় সেটার পরিমান কমতে কমতে জীবিকার টানা পোড়েন বাড়লে মনেহয় একটু তিন বেলা খেতে পারলেই হল। প্রচণ্ড পরিশ্রমের পর আর কিছু চাওয়ার নেই পাওয়ার নেই শুধু একটু ঘুমাতে পারলেই স্বর্গের সুখ।

টেকনাফের সূর্যোদয় ঘন ঘন রঙ পাল্টায় এখানে। নজরকারা রঙ।



কখনও সময় আসে জীবন মুচকি হাসে
ঠিক যেন প’ড়ে পাওয়া চোদ্দ আনা
অনেক দিনের পর মিলে যাবে অবসর
আশা রাখি পেয়ে যাবো বাকি দু-আনা৷
---- সুমন চট্টোপাধ্যায় এর গান।



তিনটা ছবিই একই সময় একই স্থানে তুলেছি, কিন্তু তিনটা ছবিই অন্যরকম, সমুদ্র অঞ্চলের প্রকৃতি বিচিত্র ।।



বেলি ফুল

সমুদ্রের ঢেউ, সমুদ্রকে ইদানীং বেশি বেশি মিস করছি।।



ক্যামেরা নিকন ডি ফাইভ ওয়ান জিরো জিরো, ট্রাকের উপর ঘুমন্ত মানুষদের ছবিটা মোবাইল দিয়ে তোলা।

মন্তব্য ৪৪ টি রেটিং +১০/-০

মন্তব্য (৪৪) মন্তব্য লিখুন

১| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:২২

আতোয়ার রহমান বাংলা বলেছেন: চমৎকার ছবি ব্লগ

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:২৪

সামিয়া বলেছেন: ধন্যবাদ

২| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:২৭

তারেক ফাহিম বলেছেন: সুমন চট্টপাধ্যায়ের গানটি আমারও বেশ প্রিয়।


মাঝের মধ্যে চেনা আধুলিও হারিয়ে পেলি।

টেকনাপের আকাশের রঙ সত্যি মনকাড়া।

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৩১

সামিয়া বলেছেন: সুন্দর মন্তব্য এ ভালোলাগা--------

অনেক ধন্যবাদ।।

৩| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৩০

কাওসার চৌধুরী বলেছেন:



জীবন নিয়ে দারুন উপলব্ধি আপনার। একজন মানুষের জীবন তখনই স্বার্থক হয় যখন আত্ম উপলব্ধি আসে। নিজেকে একজন প্রকৃত মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে সচেষ্ট হয়। আর এই উপলব্ধির সাথে মানবিক চিন্তা চেতনাার বিকাশ খুব জরুরী। আপুর ছবি তোলার হাত তো দারুণ! (২) ছবিটা দেখে ভীষণ কষ্ট পেলাম। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ শুধু কাগজে। বাস্তবে তেল সমৃদ্ধ মাথাগুলোই তেলের দোকানদার। বাকীর সবাই ভোটার।

অফটপিক, ব্লগ ডে'তে ভাবছিলাম আসবেন!!

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৩৬

সামিয়া বলেছেন: চেহারায় বেদনা না থাকলে নাকি দেখতে সুন্দর দেখায় না, তেমনি জীবনে হোঁচট আছে বলেই কিছু আত্ম উপলব্ধি ।।
ছবি আর এমন কি তুলি! সাদামাটা। জাস্ট মাঝে মাঝে শখ হয়।

হ্যাঁ আমি ব্লগ ডে তে শেষ পর্যন্ত সামিল হতে পারিনি এই আফসোস আমার ভেতর ও আছে।।

অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া। ভালো থাকুন।

৪| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৪০

অগ্নি সারথি বলেছেন: ছবিগুলো সুন্দর! আর কবিতাটা শৈশবে নিয়ে চলে গিয়েছিল।

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৪২

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ----------

৫| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৪৪

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: চমৎকার পোস্ট......
অনেক অনেক ধন্যবাদ সামিয়া আপু :)

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:১৯

সামিয়া বলেছেন: ধন্যবাদ শুভকামনা---------

৬| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৫৫

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: তোমার মন খারাপ থাকলে আমারও খারাপ :(

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২০

সামিয়া বলেছেন: এখন মন ভালো :)

৭| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ২:১৬

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: আত্মার শান্তি ! হ্যাঁ আপু এটাই তো সবকিছু । যা কিছু করবো, যেভাবেই থাকবো তাতে আত্মার শান্তি পেলেই যেন পরিপূর্ণ ।

ছবি ও লেখা দুটোই চমৎকার ।

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২০

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ

৮| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ২:২০

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: ছবি গুলো দারুন!
লেখা ভাল লেগেছে।

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২১

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ

৯| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ২:৩৯

যোখার সারনায়েভ বলেছেন: ছবিগুলি ভাল লেগেছে।

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২১

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ

১০| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ২:৪৮

অনন্য দায়িত্বশীল আমি বলেছেন: চমৎকার।

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২১

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ

১১| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:০৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: মাশাআল্লাহ সুন্দর পোস্ট আপি

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২২

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ প্রিয় আপু

১২| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: বোন আপনি কত বছর ধরে ফোটোগ্রাফী করছেন?

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৩

সামিয়া বলেছেন: ক্লাস টেন এ উঠার পর থেকে, এখন তো লেখাপড়া শেষ, চাকরী ও করছি।অনেক বছর হয়ে গেলো-------------

১৩| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৪৩

শায়মা বলেছেন: বন্ধু তুমি একটু হাসো একটু কথা বলো....

সুন্দর সুন্দর ছবির মাঝে মন খারাপটাও এসে গেলো ...

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৩

সামিয়া বলেছেন: এখন মন একদম পারফেক্ট । ডোন্ট ওরি প্রিয় আপু-----------

১৪| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:১৫

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন: দ্বিতীয় ছবিটি না বলা অনেক কথা ব্যক্ত করছে! :(


টেকনাফের ছবিগুলো ভালো লাগলো +++

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৪

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ

কিন্তু আপনি যে বলেন ছবি তোলা গুনাহ!!!

১৫| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৫:৫০

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনার উপলব্ধিগুলো আপনার জীবনকে সুন্দর করে তুলুক, আমরা আপনাকে অনুসরণ করছি!

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৫

সামিয়া বলেছেন: হায়
আপনি তো মাঝে মাঝে ইমোশনাল করে দেন এমন সব কথা বলেন!!! :(
অশেষ কৃতজ্ঞতা -------

১৬| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ভোর ৬:৫৫

বলেছেন: একটু ঘুমাতে পারলেই ------ ছবিটা বুকের ভেতর মোচড় দিলো ----




জীবনের ছবি নাকি ছবির জীবন!!!

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৬

সামিয়া বলেছেন: বাস্তবিক ছবিটা গভীর মন খারাপের।

অনেক ধন্যবাদ

১৭| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ৯:২৪

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: টেকনাফ ও সমুদ্রের ছবি অসাধারণ হয়েছে।

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৬

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ

১৮| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৪০

সম্রাট ইজ বেস্ট বলেছেন: সুন্দর ছবি আর সুন্দর লেখা।

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৭

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ

১৯| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:০৫

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: ওয়াও আপু! প্রথমের কথাগুলো একদম মনের কথা। আজকাল এমন অনেক মানুষই দেখি যারা অন্যকে জাজ করতে ব্যস্ত, নিজের দোষ দেখেনা কোনকিছুতে। কেউ যদি খারাপ কাজ করে তবে সেই মানুষটির চৌদ্দ গুষ্টি উদ্ধার করে ফেলে, আর যদি ভালো কাজ করে তবে বলে "লোক দেখানোর জন্যে করছে!" অন্যের ছোট ছোট ভুলগুলো খুটিয়ে খুটিয়ে বের করে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়, নিজের বড় দোষগুলো দেখতেই পারেনা। এসব মানুষকে যে কি করতে মন চায়! X((

প্রিয় কবিতা এবং ছবিগুলো অতুলনীয়।

সবকিছু মিলে অন্যান্য পোস্টের মতো আরেকটি পরিপূর্ণ পোস্ট!

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৮

সামিয়া বলেছেন: কেমন আছো ? অনেক অনেক দিন পর?
তুমি এভাবে ব্লগ থেকে হারিয়ে যাও যে আর খুঁজে বের করতে পারিনা।
যেখানেই থাকো ভালো থেকো বোনটা। লাভ ইউ ডিয়ার--------------

২০| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৫:৫২

গরল বলেছেন: সমুদ্র সৈকতের ছবিগুলো চমৎকার হয়েছে, বিশেষ করে সূর্যাস্তের সময় তোলা ছবি টা।

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৯

সামিয়া বলেছেন: ওটা সূর্যদয়ের ছবি।।

অনেক ধন্যবাদ

২১| ২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৩২

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: ভালো আছি আপু, এই তো আশেপাশেই ছিলাম। ;) ব্যাস ব্যস্ত ছিলাম।
তুমিও অনেক অনেক ভালো থেকো সুইট আপু!

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৫১

সামিয়া বলেছেন: ভালো থেকো

২২| ২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৫০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: চমৎকার দার্শনিকতা, সেইসঙ্গে বোনাস, কিছু দারুন ছবি.......সবমিলিয়ে অসাধারন!!!

২৬ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৫১

সামিয়া বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.