নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি ভেড়ামারা হাই স্কুলের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষকের ছেলে। অনেকে আমাকে \'স্বপ্নবাজ সৌরভ\' নামে চেনে।

স্বপ্নবাজ সৌরভ

এমন যদি হতো , ইচ্ছে হলে আমি হতাম প্রজাপতির মতো!

স্বপ্নবাজ সৌরভ › বিস্তারিত পোস্টঃ

জাহাজীর ছেঁড়া ডায়েরীর পাতা

২৯ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:০৭



দিন তারিখ কিছুই মনে নেই। ইদানীং কিছুই মনে থাকছে না। তোমার হয়ত মনে আছে।কারণ মেয়েরা স্মৃতিগুলো চিরকুটের মত ভাঁজ করে রেখে দিতে ভালোবাসে। শুধু মনে আছে তখন তাহসানের 'দূরে তুমি দাঁড়িয়ে' খুব চলছে। আমার চোখের দিকে তাকিয়ে দেখো কাঁদছি আমি অসহায়... সিডির দোকান গুলোতে বেজেই চলেছে।
তুমিও গুনগুন করতে... 'তোমার হাতে আজ অন্য কেউ '! আমার কানে যেতো, 'কাছে যেতে পারিনা বলতেও আজ পারিনা'! গানটা পছন্দ হলেও মেজাজ খারাপ হয়ে যেত।কার জন্য তোমার হাহাকার আর কেনইবা আমাকে শুনতে হবে?
মাঝে মাঝে এতো রাগ হতো মনে হতো চুল ছিঁড়ে ফেলি। তবে চুল না ছিঁড়লেও চুল ফেলে দিয়েছিলাম ডিসেম্বরের কনকনে শীতে!

তুমি যখন তাহসানের 'ঈর্ষা' গাও আমি তখন ব্ল্যাকের 'প্রার্থনাদ'রত! আর লাল রংয়ের তুলিতে রাঙিয়ো না আমার জীবন।

গুনে গুনে ২৯বার রিপিট করে শুনেছি! তুমি বললে, একগান এতোবার কেউ শোনে? পাগল নাকি?
আমি ত্রিরিশবারের মত শুনতে শুনতে ভাবলাম, শুনিনা মেয়ে ,শোনায়! ইস্ যদি জানতে কার জন্য আমার প্রার্থনাদ!

একদিন তারিন এলো।তুমি হয়ত ততো দিনে আমার প্রার্থনাদ বুঝতে পেরেছিলে। কারণ সিডি প্লেয়ারের সেই গানটি আমি কাগজে লিখে দিয়েছিলাম। তুমি কাঁপা কাঁপা হাতে কাগজটি নিতে নিতে বললে, কি এটা?
আমি কাঁপা কাঁপা কন্ঠে বললাম, 'প্রার্থনাদ। ব্ল্যাকের গান। যেটা আমি বারবার শুনি।'
তারিন এসে দেখে গেলো তোমার জন্য প্রার্থনাদরত ছেলেটা কেমন!

এরপর থেকে তোমাকে আগের মত পাইনা। সামনেও আসোনা ঠিক মত। কথাও বলো না, গান গাওনা গুন গুন করে। বদলে গেলে।

আমি কষ্ট পাই। খারাপ লাগে।একদিন মন খারাপ করে ৭ এলিফ্যান্ট রোডের বাসা থেকে চলে আসলাম। সিডি প্লেয়ারের পাশে রেখে আসলাম 'জাহাজী' নামের অদ্ভুত একটা অ্যালবাম আর তার নিচে চিরকুটে লেখা অদ্ভুত একটা গানের কয়েকটা লাইন।
গুনগুন করতে করতে রাস্তায় নামলাম। চিরকুটে লেখা সেই কয়েকটা লাইন... তুমি চেয়ে আছো তাই, আমি পথে হেঁটে যাই!

রাস্তায় হাঁটতে হাঁটতে পেছনে ফিরে চাইনি। ফিরে তাকালে দেখতে পেতাম 'হাসিমুখ' নয় সমস্ত বিষাদ নিয়ে তুমি আমার দিকে চেয়ে আছো।

ভালো থাকুক সেইদিন গুলো। তুমি আমি। জেব্রা ক্রসিং। তবে ইদানীং অনেক কিছুই বদলে গেছে। সিডি দোকান আগের মত নেই । গানগুলো আগের মত বাজে না। ব্ল্যাক ভেঙে গেছে। ইমন জুবায়ের ভাই আমাকে জাগিয়ে রেখে একাই ঘুমিয়ে গেছেন অভিমানে। তানযীর তুহিন ভাই শিরোনামহীন ছেড়ে গেছেন। তবে এতো কিছুর মাঝে -'আমার লাস্ট বাসে বাড়ি ফেরা, মাথা তুলবার তাড়া' রয়েই গেছে।
আমার জাহাজের পাটাতন, ছেড়া নোঙর, ছেড়া মন নিয়ে ছুটে চলি এই শহরে জাহাজী মত।

মন্তব্য ৬ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৬) মন্তব্য লিখুন

১| ২৯ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৪৩

নাহিদ০৯ বলেছেন: হাহাকার ভরা এই চিঠি পড়ে আমিও আমার হাহাকার ঝালিয়ে নিলাম। :||

২৯ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৯:১১

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: অনেকদিন পর নাহিদ ভাই। শুভ সকাল।
এটা আমার জীবনের অতি ক্ষুদ্র অংশ মাত্র।এইটুকু খানিকটা হাহাকার মিশানো। পরের গল্প অন্যদিন বলবো।

২| ২৯ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৪৬

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: আসছি আগামীতে জাহাজীর গল্প নিয়ে।

২৯ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৯:১২

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: শুভ সকাল স্যার। অপেক্ষায় রইলাম। ধন্যবাদ মন্তব্যে আর পাঠে।

৩| ২৯ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৯:২০

রাজীব নুর বলেছেন: অতীত সৃতি খুব মূল্যবান। খুব দামী।

২৯ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৯:৩১

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: ধন্যবাদ রাজীব ভাই। যথার্থ বলেছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.