নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি স্মৃতিকাতরতা নামক ভীষণ এক রোগগ্রস্ত, সেই সাথে বিষাদগ্রস্থ মানুষ। আমার চিকিৎসা প্রয়োজন।

স্বপ্নবাজ সৌরভ

ভীষণ রকম সাম্যবাদী , সাম্যের কথা বলে - তারায় আবার স্নান করে যায় , মগজ গলা জলে !

স্বপ্নবাজ সৌরভ › বিস্তারিত পোস্টঃ

অপেক্ষা

২৬ শে আগস্ট, ২০২১ রাত ২:১১


লকডাউনের এই মাস সময়ে আমার ছানাটা বড় হয়ে গেছে। জামা গুলো আটোসাটো লাগে। ছোট হয়ে নাভীর উপরে উঠে আসতে চায়। ন্যাপকিনের ফাঁক গলে 'নুনথুন পাখি' বের হয়ে আসে । ওর তাতে যায় আসে না, পা দুটো নাড়াতেই থাকে-- নাড়াতেই থাকে।

এই দুই মাসে অনেক কিছু শিখে ফেললো। বাবার সাথে একান্ত সময় কাটালো। এই নাগরিক ব্যস্ততায় এটা বিশেষ ভাগ্যের ব্যাপার । আব্বুর সাথে খেলতে খেলতে 'আগ্গু আগ্গু' বলে ডাকা শিখে ফেললো। হাগু করার আগে দুই পা উচু করে আগ্গু আগ্গু করা শিখে ফেললো। ওর কাছে আব্বুও 'আগ্গু' আবার হাগুও 'আগ্গু '। শিখেছে ঐ একটা শব্দই। ছোট তো!

আনমনে খেলে চলে। জানালার উপরে এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে কাদের সাথে যেন কথা বলে অনবরত। কল্পনার অদৃশ্য বন্ধুদের নিয়ে একটা হয়তো জগত তৈরি করেছে।
মাঝে মাঝে তাকায় , হাসে । কান্না পেলে ঠোঁট বাঁকা করে, ঠোঁট ফোলায়। আচ্ছা আমি কি ছোটবেলায় এমন করতাম? --আম্মাকে জিজ্ঞেস করলে আম্মা শুধু হাসে।

ওর মা ওর যাবতীয় কার্যবিধি চরম আগ্রহ নিয়ে ভিডিও করে রাখে। ক্যামেরা ধরলে আই কনট্রাক্ট করতে পারে। সেই সাথে বেড়ে যায় যাবতীয় কসরত । সব কিছু হয় ক্যামেরা বন্দী।

ও যেদিন বড় হবে ভিডিও গুলো দেখবে নিশ্চয়ই । কি করবে তখন ? আমি আর ওর মা, ভাবি আর হাসি। মাঝে মাঝে মনে হয়, আমাদের সময় তো এমন কোন অপশন ছিলনা । ইচ্ছা হলেই কিছু দৃশ্য সংরক্ষণ করা যেত না ইলেকট্রনিকস ব্রেন সেলে। চলমান একের পর এক দৃশ্যপট অরক্ষিত ভাবে কোথায় যেন মিলিয়ে গেছে।

তবু কিছু কিছু দৃশ্যপট মানবিক ব্রেনসেল থেকে নিমিষেই দৃশ্যমান করা যায় ভীষণ শক্তিশালী মানবীয় কল্পনা শক্তির মাধ্যমে । এই যেমন-----

"আব্বার স্কুল থেকে আসার সময় হয়েছে । পড়ন্ত বিকেলের আলো নেমে এসেছে বাড়ির পাশের রাস্তায়। আমাকে কোলে নিয়ে দাদা তাকিয়ে আছেন । তাকিয়ে আছেন রাস্তার শেষ প্রান্ত পর্যন্ত । আমি দাদার কোলে 'আব্বু গো গো গো ' করে কাঁদতে থাকি। কমতে থাকে দিনের আলো। রাস্তার শেষ প্রান্তে এখনই কাঙ্খিত জন দৃশ্যমান হবে। আমরা অপেক্ষায় থাকি। আমি আব্বার অপেক্ষায় আর দাদা আমাকে কোলে নিয়ে ছেলের অপেক্ষায়। কি অদ্ভুত অপেক্ষা! কি প্রশান্তির অপেক্ষা! !"

স্বপ্নবাজ সৌরভ
১৮ই মে ২০২০
এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা।


ছবিঃ বাইসাইকেল থিফ

মন্তব্য ১০ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১০) মন্তব্য লিখুন

১| ২৬ শে আগস্ট, ২০২১ সকাল ৭:৩৯

খায়রুল আহসান বলেছেন: এতদিনে তো নিশ্চয়ই 'ছানাটা' অনেক বড় হয়ে গিয়েছে?

২৮ শে আগস্ট, ২০২১ রাত ১২:৩৭

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: হাঁটা শিখেছে। দৌড়াতে পাড়ে। ভাবতে পারে।বাবা/আব্বা বলতে পারে । তবুও ছানাই আছে।
দোয়া করবেন। ভালো থাকবেন।

২| ২৬ শে আগস্ট, ২০২১ সকাল ৮:১১

হাবিব বলেছেন: আপনার ছানাটার জন্য শুভকামনা রইলো

২৮ শে আগস্ট, ২০২১ রাত ১২:৩৭

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: ধন্যবাদ হাবিব স্যার। ভাল থাকবেন ।

৩| ২৬ শে আগস্ট, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:১৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: স্বপ্নবাজ সৌরভ ,




অপেক্ষার দৃশ্যপটে যে ছবি আঁকলেন তা চিরায়ত ।

নুনথুন পাখি বের হওয়া ছানাটি অবশ্যই আরো বড় হয়েছে, আধো আধো বোলে "বা...বা" বা "আব্বা" বলতেও শিখেছে হয়তো!
পিতা-পূত্র ভালো থাকুক, থাকুক স্নেহময় ভালোবাসায়...............

২৮ শে আগস্ট, ২০২১ রাত ১২:৪০

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: হাঁটা শিখেছে। দৌড়াতে পাড়ে। ভাবতে পারে।বাবা/আব্বা বলতে পারে । তবুও ছানাই আছে।

এই করোনাকলীন সময়ে আমার রোজগারহীন জীবনে ওর সাথেই কাটে।

৪| ২৬ শে আগস্ট, ২০২১ রাত ১০:২১

রাজীব নুর বলেছেন: বাইসাইকেল থিবস মুভিটা দেখেছি। বুকের মধ্যে হাহাকার করে উঠেছে।

২৮ শে আগস্ট, ২০২১ রাত ১২:৪১

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: ছবিটা দেয়ার বিশেষ কারণ আছে রাজীব ভাই । বাইসাইকেল থিফ নিয়ে পোষ্ট করবো সামনে।

৫| ২৮ শে আগস্ট, ২০২১ রাত ১:০৫

কবিতা পড়ার প্রহর বলেছেন: ছানার জন্য ভালোবাসা আর অনেক অনেক দোয়া।

২৮ শে আগস্ট, ২০২১ রাত ১:৫৫

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপনাকে । আমার ব্লগে আপনাকে স্বাগতম । ভালো থাকবেন ।শুভ কামনা ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.