নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

চার হাত থেকে আধ হাত কম..

সৈয়দ তাজুল ইসলাম

জীবনের পুত্র

সৈয়দ তাজুল ইসলাম › বিস্তারিত পোস্টঃ

পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর উত্তরাধীকারীদের ব্যর্থতাই হেফাজতের শক্তি বৃদ্ধির কারণ।

০২ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৫:৪১



বাংলাদেশে কিছুদিন যাবত অপরাজনীতির খেসারত হিসেবে যে হত্যাকাণ্ড চলছে তার দায়ভার পুরোপুরি আওয়ামিলীগ সরকারের। 'অবৈধভাবে ক্ষমতায় আসা। নিজ দলের লোকদের যত কুকীর্তি সবকিছুকে পবিত্রকরণের সফলতা। বিরোধী দলকে নিয়ন্ত্রণের কৌশল। সবই কিন্তু প্রশংসনীয়।' হ্যা, আমাদের মধ্যে থাকা অতি বিচক্ষণতার দাবীদার অনেককে দেখেছি এক তরফা নীতি অবলম্বনের মাধ্যমে নিজেদের জ্ঞানের স্বল্পতার বিকাশ ঘটাচ্ছেন আওয়ামী সরকারের প্রশংসার মাধ্যমে। হ্যা, অবৈধ ভাবে ক্ষমতায় জেঁকে বসা আওয়ামীলীগের প্রশংসার মাধ্যমে।
ওপরদিকে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর উত্তরাধীকারীদের যে দলটি কিছুকাল ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে নিজ আসন ধরে রেখেছিল। তারাও আজ আর পারছে না দেখে একেবারেই কপাট বন্ধ করে দিয়েছে আপন গৃহের। আর জাতীয় পার্টি! সেও কিছুদিন পূর্ব পর্যন্ত বিনোদনের সহায়ক ছিল আওয়ামী সরকারের। বর্তমানে আওয়ামী সরকার বিরোধী দলের শূন্যতা অনুভব করছে। শতভাগ যে বিরোধী দলের শূন্যতা বিরাজ করছে তা কিন্তু না, বিরোধী দলের শূন্য জায়গাটা দৃশ্যমান হলেও কিছুটা দখলে রেখেছে হেফাজত। বহিঃবিশ্বে আপাত আওয়ামিলীগ হেফাজতকেই বিরোধী দল ও জঙ্গি গোষ্ঠী হিসেবে পাকাপোক্ত স্থান দেওয়ার চেষ্টায় রত আছে বলা যায়। হেফাজতিরা জিহাদের প্রকৃতার্থ না বুঝে তাদের এসকল তাণ্ডবকেই ভেবে নিচ্ছে জিহাদের ধাপ বলে।

আওয়ামীলীগ নিজেদের ক্ষমতাকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে হেফাজতকে ব্যবহার করছে। তাদের শক্তিবৃদ্ধিকরণে হেফাজত বলির পাঁঠা বানাচ্ছে কওমী অঙ্গনে আসা নিরিহ শিক্ষার্থীদের। হেফাজত করছে ধর্ম রক্ষার নামে নিজেদের অবস্থান জানান দেওয়ার যুদ্ধ আর আওয়ামীলীগ করছে জঙ্গি গোষ্ঠী নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা। যেখানে বহিঃবিশ্ব ভাবছে, নতুন কোন সরকারের আগমন এবং জঙ্গি নিধনযজ্ঞে যথেষ্ট শক্তিধর কোন দল আসবে না বিদায় আওয়ামী সরকারই বাংলাদেশের মত রাষ্ট্রের জন্য যথাযোগ্য সরকার ব্যবস্থা।

পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর উত্তরাধীকারী শক্তি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের ব্যর্থতাই হেফাজতের শক্তি বৃদ্ধির কারণ। বিএনপির যে পক্রিয়ায় তৈরি সেই পক্রিয়ায় তৈরি জাতীয় পার্টির। তাই আমরা দেখেছি, আওয়ামিলীগ বিএনপিকে মাটিচাপা দেওয়ার পরপরই জাতীয় পার্টিকে মাটি চাপা দিয়েছে অতি সহজে। যদিও বিএনপি পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর উত্তরাধীকারী হিসেবে এদেশে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে, তবুও তাদের মধ্যকার কিছু নেতাগণ দেশের জন্য কিছু কাজকাম করে গেছেন। কিন্তু এই একতরফা আওয়ামী সরকারের তাণ্ডবের বিপরীতে সাধারণ জনগণের আশা ছিল বিএনপি নিজ বিরোধী দলের অবস্থান ধরে রাখবে। সেখানে বিএনপির ব্যার্থতা পরবর্তী জাতীয় পার্টির ব্যার্থতায় সুযোগ দিতে না চাইলেও আওয়ামীলীগ হেফাজতকে মাটে ব্যবহার করছে বিরোধী দল হিসেবে। আর এতে আন্তর্জাতিক মহলে দেশের যেমন ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে তেমনি বাস্তবিক অর্থে বাংলাদেশ হারাচ্ছে তার স্বাধীনতা।




ছবিঃ নেট

মন্তব্য ১৮ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (১৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০২ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৫:৫৩

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: খুবই দু:খজনক স্বাধীনতার সুবর্নজয়ন্তীকালে দেশের সাধারণ জনগনের প্রাণ গেল। সচেতন হলে অনাকাঙ্খিত মৃত্যু এড়ানো যেত

০২ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২১

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: আন্দোলনের নিয়মতান্ত্রিকতা ভঙ্গ করা বা পুলিশের অনিয়ন্ত্রিত নিয়ন্ত্রণ প্রচেষ্টা সবই ছিল গলদ প্রকৃতির। যে কারণে এতগুলো মৃত্যু ঘটলো। এসব কিছুর দায় আওয়ামীলীগের। এবং হেফাজতের। তবে সম্পূর্ণ দায় অবশ্যই আওয়ামীলীগের। কারণ তারা এদেরকে ব্যবহার করছে ঠিকই তবে নিয়ন্ত্রণ করতে না পারার কারণে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটলো!

২| ০২ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৫:৫৮

চাঁদগাজী বলেছেন:



তা'হলে হেফাজতদের জিহাদ, আপনার মতে "আসল জিহাদ" নয়? শিবিরেরটা খাঁটি?

০২ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২৩

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: আমি কোথায় বলেছি হেফাজতের বোকামি 'আসল জহাদ' নয়? আর রগকাটা শিবিরেরটা খাটি?


মুরব্বি, আপনি এক লাইন বেশি বুঝেন কেরে?

৩| ০২ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:০৫

রাজীব নুর বলেছেন: যাই হোক, হেফাজতকে এখনই থামিয়ে দিতে হবে।
এদের বুদ্ধি কম। এরা দেশের জন্য সম্পদ নয়ম, বোঝা।

০২ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২৫

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: এদেরকে থামানো উচিত, কারণ এরা নিজেদের সমর্থকদের নিরাপত্তা দিতে পারে না! বোকামির কারণে নিরপরাধ শিক্ষার্থীদেরকে মৃত্যুর মুখে ঢেলে দেয়!

৪| ০২ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:১৯

তানভির জুমার বলেছেন: নিজের বানানো গল্প বললেন যা বাস্তবতা বিবর্জিত। লেখা পড়ে বুঝা যায় আপনি বিএনপির কর্মী। মানুষ আওয়ামী-বিএনপির লুটতরাজ থেকে মুক্তি চায়। বাংলাদেশে মুসলমানরা ধর্মপ্রিয় কিন্তু ধর্মান্ধ নয়। শহীদের সংঙ্গা তারা ভালো করেই জানে। হেফাজত কে সরকার চাইলেও এত সহজে দমন করতে পারবে না। আজকে তাদের সারা দেশে বিক্ষোভ গুলোর ভিডিও দেখেন।

০২ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৩০

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: দেখিন, আপনি পোস্টটি ভালভাবে পড়েননি! পড়ে থাকলে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর উৎস থেকে তৈরি বিএনপির দলে আমায় সামীল করতেন না!

"মানুষ আওয়ামী-বিএনপির লুটতরাজ থেকে মুক্তি চায়।"
তাহলে বিএনপির কালে হেফজত কেন ধরে বিএনপির সঙ্গ আর আওয়ামীলীগের কালে আওয়ামিলীগ?

৫| ০২ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২১

চাঁপাডাঙার চান্দু বলেছেন: আমি তো জানি খালেদ মোশাররফ, জিয়াউর রহমান এরা দেশ প্রেমিক বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন, দুজনেই সেক্টর কমান্ডার ছিলেন, দুজনের নামে বাংলাদেশের প্রথম দুই নিয়মিত ব্রিগেডের নাম করণ করা হয়। দুইজনেই পচাত্তরের ঘটনার প্রেক্ষিতে ক্ষমতায় আসেন, যার কোনটাই স্বীকৃত সরকারের কাছ থেকে ছিল না। খালেদ মোশাররফ আর জিয়াউর রহমান কি পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর উত্তরাধিকারী ছিল?? পিতার নাম মোদী আর নাড়ী সোনাগাছিতে পোঁতা থাকলেই এই ধরনের কথা বলা সম্ভব।

৬| ০২ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৩০

চাঁদগাজী বলেছেন:


২য় প্যারাগ্রাফের শেষ লাইনে আপনি বলেছেন, "হেফাজতিরা জিহাদের প্রকৃতার্থ না বুঝে তাদের এসকল তান্ডবকেই ভেবে নিচ্ছে জিহাদের ধাপ বলে"।

-এখান থেকে বলেছি যে, হেফাজতের জিহাদ "আসল জিহাড" নয়?
আরেকটা প্রশ্ন, আমাদের প্রজাতন্ত্রে আপনি জিহাদের পক্ষে কেন? প্রজাতন্ত্রে জিহাদ নেই, গৃহযুদ্ধ নেই, ারাজকতা নেই; এফুলো সংবিধান বিরোধী; আপনি সংবিধান মানতে চান না?

৭| ০২ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৩২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:


সবার আগে বুঝতে হবে- হেফাজত কোন রাজনৈতিক শক্তি নয়।

আর, আল্লামা শফি সাহেবের পরে তারা মূল লক্ষ্য থেকে সরে যাচ্ছে কি না তা খতিয়ে দেখতে হবে।

যেহেতু, কোন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই, তাই, এই শক্তিকে মাঠে নামিয়ে একদিকে উনারা বিএনপি'র ভোট বাড়াচ্ছেন, অন্যদিকে, ইসলামের দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতি করছেন বলেই মনে হচ্ছে।

৮| ০২ রা এপ্রিল, ২০২১ রাত ৯:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: হেফাজত অদি ভালো হতো তাহলে এখন আল্লাহ আ;ল্লাহ করতো। করোনার জন্য আল্লাহর কাছে ফানা চাইতো। এই করোনার মধ্যে এত লাফালাফি করতো না।

৯| ০২ রা এপ্রিল, ২০২১ রাত ১১:২০

নেওয়াজ আলি বলেছেন: হেফাজতের দেওয়া কওমি মাতা শুনতে ভালো লাগে হেফাজতের নামে বি বাড়িয়ায় সব জ্বালিয়ে দিতে ভালো লাগে কারণ সরকারের এতে লাভ হয়

১০| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ ভোর ৫:৪৭

সোহানী বলেছেন: উগ্রপন্থী কোন দলই দেশের মঙ্গল আনতে পারে না। অন্য কিছু নয়, শুধু দেশের মঙ্গল চাই।

১১| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সকাল ১১:৪৮

রানার ব্লগ বলেছেন: দিল্লির শাসন ভার একবার কিছুদিনের জন্য হাবশি কৃতদাসদের কাছে গিয়েছিলো, এরা ভিক্ষুকের জাতি এরা দেশ কে নড়কে পরিণত করেছিলো।

১২| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৩২

গফুর ভাই বলেছেন: একটা ভিডিও তে দেখলাম জুনায়েদ বাবুনগরী বলতেসেন মনের ভুলে আমার মনে হয় সত্য বলে ফেলছেন মূখ ফস্কে মামুনুল হককে জামাতে আমির বলে ঊঠলেন সাথে সাথে মামুনল হক ঠিক করে দিল।যদিও আমারা জানি মামুনুল হক এর বাবা আজিজুল হক ১৯৭১ এ শান্তি কমিটির নেতা ছিলেন।

১৩| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৫৪

গফুর ভাই বলেছেন: শনিবার (০৩ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার রয়েল রিসোর্টে মামুনুল হককে নারীসহ অবরুদ্ধ করেন স্থানীয়রা। বর্তমানে তিনি পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সোনারগাঁও থানার পরিদর্শক (ওসি-তদন্ত) তবিদুর রহমান। বর্তমানে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোনারগাঁওয়ের রয়েল রিসোর্টের ৫০১ নম্বর কক্ষে এক নারীসহ মামুনুল হককে আটক করে স্থানীয় জনগণ। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে।

মামুনুল হকের দাবি, সঙ্গে থাকা নারী নাম আমিনা তৈয়ব। ওই নারীকে নিজের দ্বিতীয় স্ত্রী দাবি করেন তিনি। আমিনাকে সঙ্গে নিয়ে রিসোর্টে ঘুরতে গিয়েছিলেন তিনি।

১৪| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৫৫

গফুর ভাই বলেছেন: যুগান্তর পত্রিকা হতে কপি পেষ্ট

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.