নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

কলাবাগান১

বাংলাদেশ হোক রাজাকার মুক্ত

কলাবাগান১ › বিস্তারিত পোস্টঃ

শেখ হাসিনার ভাল কাজ

২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১২:৩০


অনেক ব্লগার কে দেখি কলম নিয়ে মুখিয়ে থাকে কখন পান থেকে চুন খসবে আর কলম নিয়ে ঝাপিয়ে পড়বে...এত সুন্দর একটা খবর যেখানে ৪৪১ জন পরিবারকে যাদের জমি আছে ঘর নাই তাদের কে এক লক্ষ টাকা দিয়ে সেমি-পাকা বাড়ী তৈরী করে দেওয়া হয়েছে তা নিয়ে কোন খবর দেখি না..
Houses for destitute

ব্লগার রাজীব নুরের ব্লগে ভুলে এই কথা বলতে গিয়েছিলাম কিন্তু উনাকে বার বার অনুরোধ করার পরেও উনি কমেন্ট টা মুছছেন না উল্টো ত্যাড়ামি মার্কা প্রতিউত্তর করছেন..উনার পোস্ট বয়কট করলাম যতক্ষন না উনি কমেন্ট টা না মুছেন..

সামুর উচিত কমেন্ট সাবমিট করার ৫ মিনিট পর্যন্ত্য সময় দেওয়া যাতে ভুল হলে কমেন্টকারী তার কমেন্ট টা মুছে ফেলতে পারে (কেননা কমেন্ট প্রিভিউ করা যায় না)

মন্তব্য ২৮ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (২৮) মন্তব্য লিখুন

১| ২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১:০৯

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: অনেক সুন্দর একটি কাজ। এর প্রতিদান আল্লাহ দিবেন। প্রত্যেকটি ভালো কাজের প্রসংসা করা চাই।

২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১:২৭

কলাবাগান১ বলেছেন: এর আগেও কোন দূর্নীতি ছাড়া ১১০ জন কে বাড়ি করে দেোয়া হয়েছিল এবং এবার ও কোন দুর্নীতি ছাড়াই এই প্রকল্প শেষ হয়েছে..শেখ হাসিনার একার পক্ষে সম্ভব না আমলাদের দুর্নীতি কে চেক দেওয়া

২| ২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১:৩৭

পথিক প্রত্যয় বলেছেন: এরচেয়ে ভাল কাজ করছেন । তাঁর উচিত জামাত শিবিরকে চিরতরে নির্মূল করা

২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১:৪১

কলাবাগান১ বলেছেন: চিরতরে নির্মূল না করে ৭১ এর চেতনায় তাদের কে ফিরিয়ে আনা হবে আসল কাজ

৩| ২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ২:৪৯

পথিক প্রত্যয় বলেছেন: তাদের চেতনা একটাই আর সেটা হলো পাকিস্তানপ্রেম। এই ব্লগে তাদের কিছু উত্তরসূরি রয়েছে । মরার আগ পর্যন্ত তাদের এই চেতনা পরিবর্তন হবে না।

২৪ শে মে, ২০১৯ সকাল ৮:৩৪

কলাবাগান১ বলেছেন: নিচের কিছু কমেন্ট দেখুন

৪| ২৪ শে মে, ২০১৯ ভোর ৪:১১

ইব্‌রাহীম আই কে বলেছেন: সরকারের ভালো কাজের প্রশংসা কুড়ানোর জন্য তো অনেক প্রতিষ্ঠান আছে, আর খবর প্রকাশ করার জন্য বাতাবি লেবুর চ্যানেল।

আমরা না হয় একটু সমালোচনাই করি!

~একটা রাষ্ট্রের দায় দায়িত্ব কি শুধুমাত্র কিছু কাচা ঘর পাকা করে দেওয়া মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে?

২৪ শে মে, ২০১৯ সকাল ৮:৩৪

কলাবাগান১ বলেছেন: চোখে টুলি পরে থাকলে দিন কে ও রাত বলেই মনে হয়

৫| ২৪ শে মে, ২০১৯ ভোর ৬:০২

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:

উনার অনেক ভালো কাজ চামচা আর পাতি নেতাদের কারণে ম্লান হয়ে যায়।
উনার উচিত পাতি নেতা আর চামচাদের প্রতি কঠোর হওয়া।
বিপদকালে এরা কেউ উনার সাথে থাকবে না।
এরা সুযোগসন্ধানী।

২৪ শে মে, ২০১৯ সকাল ৮:৩৫

কলাবাগান১ বলেছেন: বংগবন্ধু এর হত্যা কিন্তু অনেক কাছের লোকদের ষড়যন্ত্রেই কার্যকর করা হয়েছিল

৬| ২৪ শে মে, ২০১৯ সকাল ৭:৩৪

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন:
অনেক উত্তম একটি কাজ। তবে

কেন জানি মনে হচ্ছে বাংলাদেশের অসহায়, দরিদ্র ও ঘরবাড়িহীন পরিবারের সংখ্যা হচ্ছে ৪৪১+১২২= ৫৬৩


আমাদের এই আটারো কোটিরও বেশি জনগণ নিয়ে চলতে থাকা দেশটির জন্য আমীন বলে গেলাম।



২৪ শে মে, ২০১৯ সকাল ৮:৩৭

কলাবাগান১ বলেছেন: আপনাদের সব কিছু তেই 'তবে' 'যদি' 'কিন্তু'

৭| ২৪ শে মে, ২০১৯ সকাল ৯:৫৬

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:
রাষ্টের আর্থিক সক্ষমতা বহুগুন বেড়েছে।
বিভিন্ন ভাতাও বাড়ছে, প্রতি বছরই বাড়ছে।
বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক সামাজিক কর্মসূচির আওতায় বয়স্ক ও বিধবা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতাসহ বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক সামাজিক কর্মসূচির আওতায় ১৪৫ টি খাতে ৭৮ লাখ উপকারভোগী সরকারের কাছ থেকে সরাসরি নির্ধারিত অঙ্কের মাসিক আর্থিক সুবিধা পাচ্ছেন।

এর মধ্যে বয়স্ক, বিধবা, অসচ্ছল প্রতিবন্ধী, প্রতিবন্ধী শিক্ষা উপবৃত্তি, ক্যান্সার, কিডনি রোগসহ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত ব্যক্তি, পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী তথা বেদে সম্প্রদায় ও তাদের ছেলেমেয়েদের জন্য শিক্ষাবৃত্তি, হিজড়া জনগোষ্ঠী ও চা বাগানের শ্রমিকদের, ইলিশ ধরা জেলে ইত্যাদি ১৪৫ ধরনের বিভিন্ন গোষ্ঠিদের বিভিন্ন অঙ্কের মাসিক ভাতা দেওয়া হচ্ছে।

কোন দালালি নেই, কমিশন নেই, দুর্নিতী নেই। দুর্নিতী যাতে সম্ভব নাহয় সে জন্য সরাসরি মোবাইল একাউন্টে ডাইরেক্ট ডিপোজিট।

ভাতাভোগীর সংখ্যা আরো বাড়ানো চেষ্টা অব্যাহত আছে।
ভাতার হার ও ভাতাভোগীর সংখ্যা বাড়ানোর পাশাপাশি সামাজিক সুরক্ষা কার্যক্রমকে লক্ষ্যভিত্তিক, স্বচ্ছ ও জবাবদিহিমূলক করার জন্য তথ্য প্রযুক্তিভিত্তিক সংস্কার কার্যক্রম তথা জি-টু-পি পদ্ধতির প্রবর্তন করা হয়েছে। এর আওতায় প্রত্যেক উপকারভোগী সরকারি কোষাগার হতে ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফারের মাধ্যমে নিজ নিজ পছন্দের ব্যাংক হিসাব বা মোবাইল একাউন্টে মাসের নির্দিষ্ট তারিখে ভাতা পাবেন। পাশাপাশি, জাতীয় পরিচয়পত্র + ফিঙ্গারপ্রিন্ট সংযোগ রেখে প্রত্যেক সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির জন্য ডিজিটাল তথ্য-ভাণ্ডার প্রস্তুত করা হচ্ছে, যা উপকারভোগী নির্বাচনে ভুল বা দ্বৈততা পরিহারে সহায়তা করবে।

একই সঙ্গে নতুন ভাতার আবেদন, অভিযোগ ব্যবস্থাপনা, অর্থবরাদ্দ, অর্থছাড় ইত্যাদি বিষয়ও এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে। ফলে সরকারি সম্পদ ও সেবায় সাধারণ জনগণের সহজ অভিগম্যতা ও অধিকার নিশ্চিত হবে। পাইলট ভিত্তিতে মাতৃত্বকালীন ভাতা কর্মসূচির সাতটি পিছিয়ে পড়া উপজেলায় জি-টু-পি’র মাধ্যমে ভাতা বিতরণ পদ্ধতির সূচনা করা হয়েছে। বয়স্কভাতা বিধবা ও স্বামী নিগৃহীতা ভাতা এবং প্রতিবন্ধী ভাতা ১১টি জেলায় জি-টু-পি পদ্ধতিতে ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফারের মাধ্যমে নিজ নিজ পছন্দের ব্যাংক হিসাব বা মোবাইল একাউন্টে বিতরণের ব্যাবস্থা করা হচ্ছে।

২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১১:১১

কলাবাগান১ বলেছেন: যতক্ষন না রাজাকারের গাড়ীতে পতাকা উঠবে, ততক্ষন পর্যন্ত্য............

৮| ২৪ শে মে, ২০১৯ সকাল ১১:০৪

মা.হাসান বলেছেন: মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর দিন শুরু হয় তাহাজ্জুদের সময় এবাদতের মাধ্যমে। ফজরের নামাজের পর কিয়ৎক্ষণ কোরআন পাঠের পর হইতে গভীর রাত্রে পুনরায় বিছানায় যাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত সারাক্ষণই তিনি গণমানুষের মঙ্গলের চিন্তায় নিমগ্ন থাকেন।
আমরা যাহারা দেশে থাকি তাহারা বাংলাদেশ টেলিভিশনের কল্যাণে নিয়মিত দেশের উন্নতির খবরা-খবর দেখিতে পাই। । যেই গুটিকয় তস্কর টেলিভিশনে বাংলাদেশ টেলিভিশন চ্যানেল টি দেখেনা তাহারা যাহাতে জাতীয় উন্নয়নের খবরা খবর নিয়মিত দেখিতে পারে সেই জন্য সরকার বাহাদুর স্থানে স্থানে উন্নয়নের খবরাখবর সম্বলিত বিলবোর্ড স্থাপন করিয়া দিয়াছেন। যাহাদের পড়িতে কষ্ট তাহাদের জন্য ওই সমস্ত বিলবোর্ডে উন্নয়নের চিত্র সংযোজন করিয়া দেওয়া হইয়াছে। দেশে না থাকার কারণে আপনি এই সমস্ত উন্নয়নের খবর হইতে বঞ্চিত হয়েছেন শুনিয়া বিমর্ষ হইয়া পড়িলাম।
বিটিভি ওয়ার্ল্ড নামে বাংলাদেশ টেলিভিশনের একটি স্যাটেলাইট চ্যানেল আছে। আপনার ক্যাবল অপারেটরকে বলিয়া উহার সংযোগ নেওয়ার চেষ্টা করতে পারেন। ইহা ছাড়া দরবেশ টিভির ডিটিএইচ সার্ভিসও গ্রহণ করিতে পারেন। ওইখানে ও উন্নয়নের চ্যানেলগুলি সংযুক্ত করা হইবে বলিয়া আশা রাখি।
ইহা ছাড়া ৭নম্বর মন্তব্যে বিশিষ্ট জনাব হাসান কালবৈশাখী যাহা বলিয়াছেন বাস্তবসম্মত নহে। আমরা এখন মধ্যম আয়ের দেশ। এই বছর উন্নতিতে কানাডাকে অতিক্রম করিয়াছি। দেশে ৭৮ লক্ষ ভাতা গ্রহণকারী কোথা হইতে আসিবে? । ইহা ছাড়া কোনরূপ কমিশন ও দুর্নীতি ব্যতীত অর্থ প্রাপ্তির তথ্য এবং দুর্নীতির ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে সরকারি অর্থ বরাদ্দের ঘটনা সেলফ কন্ট্রাডিকটরি।

কমেন্ট মডারেশন এর ক্ষেত্রে যাহা বলিয়াছেন উহা অনেক ব্লগারেরই দাবি। অনুমান করি কারিগরি কারণে মডারেটরগণ উহা বাস্তবায়ন করিতে পারিতেছে না।
ব্লগার জনাব রাজীব নুর একজন ব্যস্ত মানুষ। সাধারণত পোস্ট দিবার আনুমানিক ১২ঘণ্টা পর তিনি ফেরত আসিয়া পোস্টে কমেন্ট করেন । কাজেই আপনার কমেন্ট এর উপর একশন না নেওয়ার বিষয়টি সম্ভবত অনিচ্ছাকৃত। অনেক অনেক শুভকামনা

২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১১:১২

কলাবাগান১ বলেছেন: টিটকারীই সম্বল...কিছু দুমুখী ব্লগার এর মত দুদিকেই পাল তুললেন (প্লাস ও দিলেন)

৯| ২৪ শে মে, ২০১৯ দুপুর ১২:০৫

পাঠকের প্রতিক্রিয়া ! বলেছেন: আল্লাহ শেখ হাসিনাকে বাচাঁইয়া রাখুন

হাকা আর কবা তো দুজনে মিলে চারশো। অন্য ব্লগারদের কি আর তেল মারার দকরার আচে?:P

রানু একটা ম্যাওম্যাও


পুনশ্চঃ
@লীগারবৃন্দ
কংগ্রেসের ফল থেকে শিক্ষা লও মনু....

২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১১:১৪

কলাবাগান১ বলেছেন: ভাল কাজ জে ভাল বললে যদি তেল মারা হয়..তাহলেও সই
এত তেল মেরেও কোনদিন এক পয়সাও পেলাম না আফসোস..নিদেন পক্ষে আমাকে যদি চিনত তাও বলতে পারতাম...যেখানে বাস করি তার এক মাইলের মধ্যে শেখ হাসিনার ছেলে সপরিবারে থাকে...কোনদিন ও সামনে গিয়ে দাড়াই নাই পরিচয় দেওয়ার জন্য

১০| ২৪ শে মে, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৩

ঢাবিয়ান বলেছেন: এরপরও নোবেল কেন পায় না , বুঝি না। নোবেল কমিটি খুউউব খারাপ।

২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১১:১৫

কলাবাগান১ বলেছেন: যেদিন উনি তেলাপোকার এক্সরে কে খালি চোখে দেখতে পারবেন, সেদিন উনাকে পর্দাথবিদ্যায় নোবেল দেওয়া হবে

১১| ২৪ শে মে, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৭

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: আপামনি আমায় ঠেলে বিএনপি বানিয়ে দিলেন :-<

১২| ২৪ শে মে, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৮

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: থুক্কু, আপনি ;)

১৩| ২৪ শে মে, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫০

নতুন নকিব বলেছেন:



মন্দ কাজের সমালোচনা যারা করেন তাদের উচিত ভালো কাজের প্রশংসাও কিছু কিছু করা। তা নাহলে তো একতরফা হয়ে যাবে। এটা ঠিক নয়।

শুভকামনা।

২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ১১:১৬

কলাবাগান১ বলেছেন: "মন্দ কাজের সমালোচনা যারা করেন তাদের উচিত ভালো কাজের প্রশংসাও কিছু কিছু করা। তা নাহলে তো একতরফা হয়ে যাবে। এটা ঠিক নয়।" স হমত

১৪| ২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ৮:১৭

ব্লগার_প্রান্ত বলেছেন: বাহ ভালো লাগলো। আরো ভালো হবে তাদের ঘরে কিছু উন্নতমানের বালিশ সরবরাহ করা হলে।
+

২৪ শে মে, ২০১৯ রাত ৯:১০

কলাবাগান১ বলেছেন: কোন বালিশ ??? ইটালী থেকে ১ লক্ষ টাকায় কিনা বালিশ???

১৫| ২৫ শে মে, ২০১৯ রাত ১:৫৯

স্বপ্নের শঙ্খচিল বলেছেন: সাদা কে সাদা এবং কালো কে কালো বলার সময় এসেছে ,
বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক সামাজিক কাজের অবশ্যই প্রশংসা করা উচিত
.........................................................................................

২৫ শে মে, ২০১৯ রাত ২:২৮

কলাবাগান১ বলেছেন: বিড়াল সাদা না কালো তা নিয়ে হইচই না করে বিড়াল ইদুর মারতে পারে কিনা ..তা হওয়া উচিত মুখ্য বিষয়

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.