নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সময়ের ব্যবধানে বেজে বেজে চলে, সূর্য চাঁদ সবচেয়ে- দূরতম শব্দের মাস্তল, যেন কোন অজ্ঞাত নিবাস থেকে ছুটে আসি।পরিচিত শ্টেশন এলেই তুৃমি দেখাও নিশান- আমি উঠে পড়ি...

কিরমানী লিটন

কিরমানী লিটন › বিস্তারিত পোস্টঃ

ভোটের হাওয়া...

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৫১



মানচিত্রের শরীর জুড়ে- বইছে ভোটের স্রোত,
কেউ সেঁজেছে ময়ুরপঙ্খী, কেউ সেঁজেছে ভুত।
কারো মুখে গনতান্ত্রিক উন্নয়নের ছড়া,
কারোর মুখে বৈশাখী মেঘ, বৃষ্টিবিহীন- খরা।

কেউ ছুটছে শহর নগর- বলছে তাদের জোয়ার,
কেউবা ছুটে কোট কাচারী দেশকে বলে- খোয়াড়।
নেতার মুখে প্রতিশ্রুতির বস্তাপঁচা সুর,
কর্মি তুলে জিকির ফেনা- স্বর্গ সুখের দোর।

কেউ বলছে শুন্য কলস ভরবে এবার জলে
কেউবা বলে ভরা কলস, শুণ্য কোথা পেলে?
কলসি আগে শুণ্য করো, কারোর চাওয়া দাবী,
কেউ বলছে ভরাই রবে- উল্টে গেলেও রবি।

কেউ ভীড়েছে মহাজোটে- পাল তুলেছে না'য়ে,
কারোর আবাদ ঐক্যজোটে- ধানের শীষের ভুঁইয়ে।
কারো দখল দেশ পতাকা- দখল সংবিধানে,
কারো চোখে অমানিশা- উপায়হীনার গানে।

কেউবা পুষে জজের কলম- তাসের তুরুপ ইভিএম,
কারোর চোখে ফন্দি সেটা- ভোটার বিহীন- গেম।
কারোর ছাঁয়ায়- হাজার খুনী, কারোর ছাঁয়ায়-কিলার
কেউবা দেখায়- প্রচার করে, পদ্মা সেতুর পিলার।

ভোটের হাওয়া সারাবেলা- দিনরাত্রী- ভোর,
দেশ কাঁপছে ভোটের জ্বরে- ভোটের নেশার- ঘোর।
আমরা সকল আাম- জনতা, অত শত বুঝি,
আমরা কিন্তু গণতন্ত্র- ভোটের মাঝেই খুঁজি...।

মন্তব্য ৩২ টি রেটিং +৪/-০

মন্তব্য (৩২) মন্তব্য লিখুন

১| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৫৭

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: পড়লাম

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:০১

কিরমানী লিটন বলেছেন: ধন্যবাদ আর কৃতজ্ঞতা- সময় নষ্ট করে পড়ার জন্য
ভালোবাসা নিরন্তর ..।

২| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:০৪

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: সুন্দর কবিতা।

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:০৬

কিরমানী লিটন বলেছেন: আপনার ভালোলাগার ছুঁতে পারায়- ভালো লাগছে। অনেক ধন্যবাদ পাঠে আর আন্তরিক মতামতে। ভালোবাসা জানবেন- শুভকামনা জানবেন প্রিয় মাহমুদুর রহমান ভাই।

৩| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:১৭

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: কেউবা বলছে ব্যালটে দাও
বুলেটেরই জবাব
কেউবা আবার বলছে হেসে
আমরাইতো মা-বাপ

একাত্তরের যুদ্ধে যারা পায়নি
মনে ক্ষেদ
কারো কাছে এবারের ভোট
একাত্তরের স্বাদ!

স্বৈরাচারের জবাব দিতে
ফুসছে আমজনতা
বুলেটে নয় ব্যালটেরই
চায় যে নিশ্চয়তা।

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:২৬

কিরমানী লিটন বলেছেন: ভয় পেয়ো না মানচিত্রে
দেখে শকুন হাত,
ভোরের আলো তবেই আসে
পেরিয়ে আঁধার রাত।

সব শকুনী দখল রাখে
ভাগার অধিকার,
ইচ্ছে ডানার খেঁচর হয়ে
সাঁজে স্বৈরাচার।

লাল সবুজের স্নিগ্ধ ছাঁয়ায়
তেমন পিচাষ মুখ,
নাম রেখেছো স্বাধীনতা
গনতান্ত্রিক সুখ।

দেশ পতাকা জ্বালিয়ে পুড়ে
ফলায় যত ক্রোধ,
সত্য- ন্যায়ে, হিংস্র থাবায়
তাড়ায় বিবেকবোধ।

তাই বলে কি মিথ্যে আকাশ
মিথ্যে জোনাক মালা,
দিনের রবি, জোছনা রাতে
স্বপ্ন দেখার পালা?

কোথায় একুশ লক্ষ শহীদ
আবার ফিরে এসো,
স্বপ্নখেকু দানব চোখে
আসন পেতে বসো।

বর্গি যতই দর্জি হয়ে
করুক কাটাকুটি,
উঠুক জেগে বীর জনতা
ধরুক চেপে টুটী..।

অনেক ভালো লাগছে, আপনাকে আমার চাল- চুলোহীন ব্লগ বাড়ির জীর্ণ আঙিনায় পেয়ে। ভালোবাসা প্রিয় বিদ্রোহী ভৃগু- ভাই আমার।

৪| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:৩৩

মুসাফির নামা বলেছেন: পড়ে মজা পেলাম।লাইক!

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৫:০৬

কিরমানী লিটন বলেছেন: অশেষ ধন্যবাদ আর কৃতজ্ঞতা জানবেন প্রিয় সুহৃদ মুসাফির নামা ভাই, নিরন্তর ভালোবাসা জানবেন।

৫| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৪:৩৯

সাইন বোর্ড বলেছেন: হারিকেন জ্বেলে যেখানে অাজ গণতন্ত্রকে খুঁজতে হয় সেখানে মানুষ যে তার পছন্দের প্রর্থীকে ভোট দিতে পারবে - সেটা অার নতুন করে বলার দরকার অাছে বলে অামি মনে করিনা, তারপরও মানুষ অাশার ছলনে বেঁধেছে বুক । কবিতায় বাস্তব ভাবনা ভাল লাগল ।

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৫:১৫

কিরমানী লিটন বলেছেন:

অপেক্ষারা ফুরিয়ে গেছে
আর করে না- অধীর
জেনে বুঝে চুপ করে রই
আমরা এখন বধীর।

মানুষগুলোর মন ছিল না
এগিয়ে আসার কেউ
কুকুর শুধু কষ্ট পেলো
উঠলো ক্ষেপে ঘেউ।

এই পতাকা কাঁদছে- কাঁদুক
হাসছে রাজা মনে,
মানুষ হেথা সঙ সেঁজে- সব
বসত করে বনে।

আলো আসুক- পেড়িয়ে আঁধার ..। ভালোবাসা জানবেন- অনেক শুভকামনায়- সুপ্রিয় সুহৃদ সাইন বোর্ড

৬| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৫:০৭

ঝিগাতলা বলেছেন: অসাধারন.......

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৫:২০

কিরমানী লিটন বলেছেন: ছায়ার ভীতর ডুব দিয়ে রয়
ছায়ার আড়াল মন
ছায়ার ছায়ায় ছাই হয়ে তাই
ছায়ায়- অন্যজন।

সাঁজের বেলা চাঁদ ডুবে কয়
ছায়ার আঁধার রাত
ভর দুপুরে চোখ বুঁজে পাই
সূর্য ডুবার স্বাদ।

অমেক ভালোবাসা আর কৃতজ্ঞ ধন্যবাদ সুপ্রিয় সুজন ঝিগাতলা। শুভকামনা জানবেন- সব সময় ।

৭| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:০৪

হাবিব স্যার বলেছেন:





এ যে দেখি ছড়ার হাটে ছড়ায় ছড়ায় খেলা,
ব্লগে এসে আনন্দে তাই কাটলো সারা বেলা।
কোথাও দেখি ভোটের হাওয়া কোথাও আবার ভুত।
কোথাও আবার ব্যালট বাক্স হয়ে গেল লুট।
কোথাও দেখি বস্তাপচা সুরের আহবানে,
স্বর্গসুখের পরশ না পাই কথা কিনবা গানে।

নায়ে উঠার কাড়াকাড়ি লাঙ্গল কে বা ধরে,
কার পাকা ধান কে কাটবে কে তুলবে ঘরে?

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২৬

কিরমানী লিটন বলেছেন:
এই নে বুবু রব কাদের
এই নে কামাল মান্না,
এই নে বুবু মেনন ইনুর
তোষামোদী রান্না।

এই নে বুবু জাসদ বাসদ
এই নে জাকের পার্টী,
এই নে বুবু বি চৌধুরী
পুরো খেলার মাঠটি।

এই নে বুবু মুক্তিযোদ্ধা
এই নে রাজাকার,
এই নে বুবু হেফাজতি
এই নে স্বৈরাচার।

এই নে বুবু মুষ্টির চাল
এই নে গোলার ধান,
এই নে বুবু মোহের গদি
রাখিস পিতার মান।

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২৯

কিরমানী লিটন বলেছেন: সূর্যের আলোয় জোছনা যেমন ঢেকে যায়- তেমনি আপনার ছড়ার আলোয় আমারটা ঢেকে গেলো- ভালোবাসা জানবেন প্রিয় হাবিব স্যার, অনেক শুভকামনা

৮| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:১১

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: ভোটের হাওয়া লেগেছে।

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৩৩

কিরমানী লিটন বলেছেন: একদম...
ভোটের হাওয়ায় কাঁপছে সারা দেশ
কারো শুরু কারো আবার শেষ,
আমরা সবাই তাকিয়ে থাকি মাঠে
ভোটের দাওয়াই খেতে চেটেপুটে ...।

ভালোবাসা আর শুভকামনা সুপ্রিয় মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন ভাই।

৯| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:



ভোটের মাধ্যমে সরকার গঠন হলো গণতন্ত্রের ১ম পদক্ষেপ; তবে, সঠিক কেন্ডিডেটকে ভোট দেয়ার জন্য জ্ঞানের দরকার; সেই জ্ঞান শতকরা ৮০/৯০ ভাগের নেই; কারণ, মানুষকে পড়ালেখা থেকে আগে বন্চিত করা হয়েছে।

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৩৯

কিরমানী লিটন বলেছেন: আপনার মতামতে- আমারও সহমত-

আমরা ভীষণ সুখেই আছি হীরক রাজার দেশে,
সর্বকালের শ্রেষ্ঠ রাজা— মানছে সবাই হেসে।
বাঁচতে হলে জানতে হবে রাজার কত শান,
রাজার পায়ে হাজার প্রজা হাজির করে জান।
আসেন যদি অন্য রাজা, রাজ্যে হবে কী যে;
ভাবতে গেলে অশ্রু আসে, শ্মশ্রু ওঠে ভিজে।

কোথাও কোনো হচ্ছে না রেপ, কোথাও কোনো লাশ;
পরীক্ষায়ও রাজার গুণে একশো ভাগই পাশ।
পাশের দেশে লাশের খবর যায় না কোথাও শোনা;
রাজ্যে কারা ক-বার কাশে, তাহাও রাজার গোনা।

কী হয়েছে? কী হয়েছে? খুন হয়েছে তনু?
কিসের তনু? কোথার তনু? নতুন কোনো হনু?
তোমরা কেবল হত্যা দ্যাখো, কেবল খোঁজো কিলার;
তোমরা কেন দেখছ না ঐ গঙ্গাসেতুর পিলার?
কিলার ছেড়ে পিলার দ্যাখো, বন্ধ দু-চোখ খোলো;
এই যে দ্যাখো— হন্ডুরাসে আড়াইশো খুন হলো!
হত্যা কি আর নতুন কিছু? ঘটছে না আর ভবে?
তনু-মনু এমন কী আর! দু-একটা খুন হবে।

কী হয়েছে? আবার বলো! প্রশ্ন হলো ফাঁস?
রাইখা এসব খুচরা খবর চিবাও বরং ঘাস!
তোমরা কেবল ফাঁসই দ্যাখো কুঁচকে চোখের ভুরু?
চোক্ষে কেন পড়ছে না ঐ উড়ালসেতুর উরু?
কী যায়-আসে লাশে-ফাঁসে? ভাবার আছে হেতু?
শহরজুড়ে আমার রাজার বিশটা উড়ালসেতু!

আবার কী রে? আবার কী রে? কে হয়েছে গুম?
রাষ্ট্র কি আর রাখবে দেখে সবার শোয়ার রুম!
কোথায় কারা ঘুমায়-গুমায়, পড়ল কোথায় বাজ;
রাজায় কেন জানবে ওসব? রাজার কত কাজ!

ভালোবাসা আর কৃতজ্ঞতা সুপ্রিয় চাঁদগাজী ভাই ...

১০| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: কিরমানী লিটন,





দারুন ছন্দে রাজনীতির ছলাকলার গান গেয়ে গেলেন!
কিন্তু প্রতিশ্রুতির এই বস্তাপঁচা সুরেই যে আমরা আবুলেরা কুপোকাৎ! এই আফিমের ঘোরেই হর ভোটের ওয়াক্তে আবুলেরা একই ভুলটা করে বসে, ভোটের মাঝে গণতন্ত্র খোঁজে।

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:১৫

কিরমানী লিটন বলেছেন: নেতা আসে নেতা যায়
সরকার বদলায়
জনতার ভাগ্যটা বদলায় না।
অধিকার ফিরে পাবো
নিজে নিজ ভোট দিবো
সে আশা নাগালে- ছুঁয়া হয় না।
সকলের প্রিয় যারা
ক্লান্তির ছায়া তারা
অসময় এক মুঠো স্বস্তির,
একে একে চলে যায়
মন্দেরা থেকে যায়
বলে যায় সময়টা অস্থীর।
তৃষ্ণায় দাবানল
চীড় ধরা মনোবল
প্রয়োজন পথ চেয়ে বৃষ্টির,
বিবেকের আঙিনায়
বিচ্ছেদী গান গায়
তোমাদের ছাাতেই পুষ্টির।
তবু খুঁজি তোমাদের
ভাসি স্রোত- বিষাদের
তোমাদের অবয়ব- শক্তির,
স্বপ্নরা খালি পায়
ভবঘুরে ভুলে যায়
সৈকতে আঁকি পথ- মুক্তির...।

ঠিক বলেছেন সুপ্রিয় আহমেদ জী এস ভাই, আমরা আবালেরা একদিনের গনতন্ত্রেই খুশি- তবু সেটুকুও পাই না। ভালোবাসা আর শুভকামনা। কৃতজ্ঞতা রইলো- পাশে থেকে অনুপ্রানিত করার জন্য।

১১| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: আল্লা আল্লা করে নির্বাচনটা সুষ্ঠুভাবে হয়ে গেলেই বাচি।

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:২১

কিরমানী লিটন বলেছেন: একদিন এইপথ জীবনের প্রাতে:
সেই পথ ভুলে গেছি, সময়ের স্রোতে।
সন্ধ্যার আলো ছায়া, দুপুরের রোদে
ধুলো মাখা আশ্রয়,মানবিক বোধে।

মেঘলা মনের ডানা-এই পথ ধরে,
গলি- রাজপথ হয়ে, হেঁটে ফেরা ঘরে।
প্রভাত ফেরীর গান, বিজয়ের গান,
এই পথে মুক্তি খুঁজেছিল প্রাণ।

যখন আঁধার নামে, সব পথ ঘিরে,
ফিরে গেছি ঠিকানায়, এই পথ ধরে।
গ্রহন কালের পেটে- অবেলার মেঘে,
এই পথেচেয়ে থাকি অপলক- জেগে।

ফিরবার বেলে বহে, এসো পথ- সাকিনে,
ভোর এসে চলে যায়, ঐ মেঘ দখিনে।
ফুটুক গোলাপ বেলি বকুলের কুঁড়ি
এই পথে শান্তি- সুখ সারি সারি..

ঠিক বলেছেন- ভোটটা ভালয় ভালোয় কাটুক- শান্তি ফিরুক জনপদ জুড়ে । ভালোবাসা আর কৃতজ্ঞতা প্রিয় রাজীব নুর ভাই

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:২১

কিরমানী লিটন বলেছেন: একদিন এইপথ জীবনের প্রাতে:
সেই পথ ভুলে গেছি, সময়ের স্রোতে।
সন্ধ্যার আলো ছায়া, দুপুরের রোদে
ধুলো মাখা আশ্রয়,মানবিক বোধে।

মেঘলা মনের ডানা-এই পথ ধরে,
গলি- রাজপথ হয়ে, হেঁটে ফেরা ঘরে।
প্রভাত ফেরীর গান, বিজয়ের গান,
এই পথে মুক্তি খুঁজেছিল প্রাণ।

যখন আঁধার নামে, সব পথ ঘিরে,
ফিরে গেছি ঠিকানায়, এই পথ ধরে।
গ্রহন কালের পেটে- অবেলার মেঘে,
এই পথেচেয়ে থাকি অপলক- জেগে।

ফিরবার বেলে বহে, এসো পথ- সাকিনে,
ভোর এসে চলে যায়, ঐ মেঘ দখিনে।
ফুটুক গোলাপ বেলি বকুলের কুঁড়ি
এই পথে শান্তি- সুখ সারি সারি..

ঠিক বলেছেন- ভোটটা ভালয় ভালোয় কাটুক- শান্তি ফিরুক জনপদ জুড়ে । ভালোবাসা আর কৃতজ্ঞতা প্রিয় রাজীব নুর ভাই

১২| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:১২

নজসু বলেছেন:



ঠিক। ঠিক।। ঠিক।।।।
মজা করে পড়লাম।

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:২২

কিরমানী লিটন বলেছেন: আমিও মজা করেই লিখেছি....
অনেক ভালোবাসা আর শুভাশিস জানবেন প্রিয় নজসু ভাই ...

১৩| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:৫২

আহমেদ জী এস বলেছেন: কিরমানী লিটন,



প্রতিমন্তব্যে ধন্যবাদ জানিয়ে একটা কথা বলি, এখানে অনেক মন্তব্যের জবাব আপনি কবিতায় দিয়েছেন। প্রত্যেকটি কবিতাই কিন্তু স্বয়ং সম্পূর্ণ। মন্তব্যের ঘরে না লিখে আলাদা করে এক একটি পোস্ট দিলে অনেক ভালো হতো। পাঠকরা কবিতার স্বাদ পেতে পারতেন।
ভেবে দেখবেন।

২৬ শে নভেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:০০

কিরমানী লিটন বলেছেন: আসলে আইসিটি আইনের ভয়েই কবিতাগুলোর বেশিরভাগ সরাসরি পোস্ট দেওয়া হয়নি। তাই সেগুলি মনের ভীতর খচর খচর করছিলো। মন্তব্যের সুযোগে চালিয়ে দিলাম- আর কি। তবে আপনার মতামতের গুরুত্ব বিবেচনা করে সেগুলিকে নতুন করে পোস্ট দেওয়ার ইচ্ছা আছে।

ভালোবাসা জানবেন প্রিয় আহমেদ জী এস ভাই- আবারও কৃতজ্ঞতা রইলো...।

১৪| ২৬ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১২:১৭

জাহিদ অনিক বলেছেন: ছন্দে শব্দে দ্বন্দে আনন্দে রাজনৈতিক কাব্য
চমৎকার

২৬ শে নভেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:০৩

কিরমানী লিটন বলেছেন: একদম....
ছন্দে শব্দে দ্বন্দে আনন্দে মনের ভীতর আঁটকে পড়া কথাগুলো বলে ফেললাম। নিরন্তর ভালোবাসা আর কৃতজ্ঞ শুভকামনা জানবেন প্রিয় কবি জাহিদ অনিক ভাই।

১৫| ২৬ শে নভেম্বর, ২০১৮ রাত ১:১৯

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন: এখন ভোট কেন্দ্র গিয়ে নিজের ভোট দিতে পারলে নিজেকে সৌভগ্যাবান মনে করবো । ;)


ভালো লিখেছেন, প্রিয় কবি ভাই।।

২৬ শে নভেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:০৭

কিরমানী লিটন বলেছেন: " তোমার ভোট আমি দিবো, যাকে খুশি তাকে দিবো..।" এই ধারার অবসান হোক, আমরা প্রকৃত গনতান্ত্রিক ধারায় পথ চলি- এটা এখন সময়ের দাবী । ভালোবাসায় অনেক শুভাশিস প্রিয়কবি শাহরিয়ার কবীর ভাইয়ের জন্য।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.