নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ছাওয়াল কালে মনেমনে কথা বলে স্থির সিদ্ধান্ত করেছিলাম, আর কিছু করতে না পাড়লেও অন্তত অনেক বড় কবি এবং লেখক হব। হতে পারিনি। আপসোস করে লাভ হবে না জেনে বাস্তবিক হয়েছি, কাজ করলে মনে সুখ এবং হাতে পয়সা থাকে। স্বত্ব মো.আ.হা [https://bookorebook.com]

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক

অন্তত একবার সত্যকে তার সম্বন্ধে কিছু বলতে দাও। আমরা কে কী, অন্যরা তা জানতে এবং দেখতে পারবে।

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক › বিস্তারিত পোস্টঃ

\'প্রতিষিদ্ধ প্রতিষেধক\'

৩১ শে মার্চ, ২০২০ রাত ১১:৫৬



'প্রতিষিদ্ধ প্রতিষেধক'

মরণাপন্ন হলে মানুষ মরিয়া হয়ে মরণ কামড় মারে, সীমানাঘটিত বিবাদের জের ধেরে মারামারি করে সৈন্যরা মরে। নীরিহকে মারার জন্য ধুন্ধুমার বাধিয়ে মহাশক্তিশালী আগ্নেয় ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন করে, রোগ প্রতিষেধের জন্য প্রতিষিদ্ধ প্রতিষেধক বানায় না। পরমাণুবোমা বানিয়ে রাষ্ট্ররা পারমাণবিক হয়ে অমানবিক কার্যকলাপ করে। ধর্মার্থে মানবতা হত্যা করে স্রষ্টার সাথে ঠাট্টা করে। নানা খাতে অগণিত খরচ করলেও মানুষকে বাঁচাবার জন্য গবেষকরা জীবাণুনাশক বানায় না, বলে এতে নাকি খরচ বেশি। এবার ঠেলা সামলাও। গরিবরা এমনিতে উপোস মরে, সংক্রামক জীবাণুয় সংক্রামিত হলে তাদের মৃত্যু দ্রুত হবে। সমকালীন ব্যক্তিবৃন্দরা সন্তানোৎপাদনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে না বিধায় বসন্তের বাতাসে সত্বর হতোস্মি শব্দ প্রতিধ্বনিত হবে।


Copyright © 2017 Mohammed abdulhaque

ছবি নেট থেকে

মন্তব্য ৮ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১২:১৬

রাজীব নুর বলেছেন: আল্লাহ যার মৃত্যু যেভাবে লিখে রেখেছেন সেভাবেই হবে।

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১:২০

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: জি ভাইজান আপনি সত্য বলেছেন।

২| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১২:৫০

নেওয়াজ আলি বলেছেন: মরণ হবেই সবার একদিন ।

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ রাত ১:২০

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: জি যমেরও মৃত্যু হবে।

৩| ০১ লা এপ্রিল, ২০২০ সকাল ৮:০৯

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: সময়টা এমনিতেই দুঃসময় চলছে। তার উপরে আপনার এমন শব্দভাণ্ডারে ঝলকানিতে মন্তব্য করার মত ভাষায় পেলাম না। মরতে তো একদিন হবেই; এটাই স্বাভাবিক।

০১ লা এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:১৮

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: দাদা কেমন আছেন?

আমি হয়তো শব্দের প্রেমে মজে বিভ্রান্ত হয়েছি, অথবা অসুস্থ। আমি এখন আর সহজে কিচ্ছু বলে বুঝাতে পারি না, তবে এটা আমার আজন্মের সমস্যা । তবে আমার সময় কেটে যায়, জানি আপনারা তিক্ত বিরক্ত হন।

যাক, আপনাদের খবর কী? আমাদের খবর বেশ ভালো নয়, আমিতো ঘর থেকে বের হইনি তিন সপ্তায় পড়েছে।

দাদা, গরিবরা অনাহারে মরলেও অন্যরা বরে তা স্বাভাবিক ছিল। কয়েক মাস আগে ইংলেণ্ডে একজন মরেছিল অনাহারে। খবর শুনে আমি বিশ্বাস করতে পারি নি।

৪| ০২ রা এপ্রিল, ২০২০ সকাল ৯:৩২

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন:
প্রতিমন্তব্যে আবার আসা। ভালো আছি এ কথা বলব না ভাইজান। কোনোক্রমে দিন চলে যাচ্ছে। পরিবার অসুস্থ, কিন্তু প্রাইভেট ডাক্তারের ঝাঁপ বন্ধ। কোনোক্রমে হোমিওপ্যাথি দিয়ে চলছে। কোন ল্যাবরেটরি খোলা নেই। খুবই দুঃশ্চিন্তার মধ্যে আছি।
পাশাপাশি আপনার খবরটি জেনে খুব বিষণ্ন হলাম। ঘনঘন দীর্ঘশ্বাস ও হা হুতাশ যেন আমাদের একমাত্র পাথেয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।
কিন্তু না খেয়ে থাকার মতো অবস্থা কিছুতেই কল্পনা করতে পারছিনা। জানিনা সামনে আরো কত ভয়ঙ্কর আমাদের জন্য অপেক্ষা করছে।

০২ রা এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৯

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: এসব ওরা আগেভাগে পরিকল্পনা করে করেছে, আমাকে একজন বলেছিল, সরকার চায় সকল আক্রান্ত হোক। এখন তাই মনে হচ্ছে।

ইয়া দয়াময়, আপনি ছাড়া অনাথ অসহায়ের আর কোনো সহায় সম্বল নেই, দয়া করে দয়া করো দয়াময়।
আয়ূ এবং আহার দয়াময়ের জিম্মায়, দয়াময় নিজে কোরআনে বলেছেন। ইয়া দয়াময় দয়া করো। আমিন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.