নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ছাওয়াল কালে মনেমনে কথা বলে স্থির সিদ্ধান্ত করেছিলাম, আর কিছু করতে না পাড়লেও অন্তত অনেক বড় কবি এবং লেখক হব। হতে পারিনি। আপসোস করে লাভ হবে না জেনে বাস্তবিক হয়েছি, কাজ করলে মনে সুখ এবং হাতে পয়সা থাকে। স্বত্ব মো.আ.হা [https://bookorebook.com]

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক

অন্তত একবার সত্যকে তার সম্বন্ধে কিছু বলতে দাও। আমরা কে কী, অন্যরা তা জানতে এবং দেখতে পারবে।

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক › বিস্তারিত পোস্টঃ

আল্লাহ কেলা?

০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৮




মানুষ মারার সব আছে, আহত অথবা অসুস্থ মানুষকে সম্পূর্ণ সুস্থ করার কিচ্ছু নেই। কেন জানেন? আঁতেলরা বলেন, মানুষ মানুষকে মারতে পারে, মানুষ মানুষকে বাঁচাতে পারে ন। জন্ম মৃত্যু মুসলমানদের আল্লাহর আয়ত্তে। মুসলমানদের আল্লাহ হলেন, দয়াময় করুণময় উনি কেন এই মহামারির সময় মানুষকে সাহায্য করছেননা?

উত্তর কারো পছন্দ হবেনা। সেই কবে আমরা সীমালঙ্ঘন করেছি। শতভাগ বিশ্বাস এবং মনোযোগের সাথে আমরা প্রার্থনা করতে পারি না। পিছনে যা করেছি তা আর করবনা বলে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হয়ে তাওবা করলে সত্বর সাহায্য আসবে।

মনে রাখবেন... খালি বাঙালি নয়, আদম জাত জবর ঝামেলা মার্কা। বিপদো পড়লে আল্লাহ আল্লাহ নাইলে কয় আল্লাহ কেলা?

বাড়াবাড়ি না করে ঘরে ভিতর থাকলে সকলের মঙ্গল হবে নইলে করনায় জাঁতলে আঁতুতুপুঁতু অথবা আঁতি-পাঁতি করে নিস্তার মিলবে না, বিধায় সবাই সাবধান থাকবেন।

Copyright © by Mohammed abdulhaque

ছবি নেট থেকে

মন্তব্য ৩৬ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৩৬) মন্তব্য লিখুন

১| ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৫

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি যাঁর জন্য ভালোবাসা অনুভব করেন, সেইজন আপনাকে ভালোবাসেন।

০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫৩

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: ব্লগার বকের পোস্ট পড়ে সত্যি চিন্তিত হয়েছিলাম।

আধুনিক মুসলমানরা কোরআন এবং সুন্নতের ধারে পাশে যায় না তা অনেকাগে প্রমাণিত হয়েছে। মাদ্রাসায় গড়গড়া মুখস্ত পড়া হয়।

গতরাত আপনি আমাকে ধন্যবাদ দিয়েছেন। আমাকে আপনি পছন্দ করেন উপদেশ দেন এতে আমি সত্যি খুব খুশি। সকলের ভালোবাসা পাওয়া যায় না, কয়েকজনের ভালোবাসা অনেকের ঘৃণা থেকে অনেক উত্তম।

যাক, আপনার খবর কী? আমাদের এখানে আজ সূর্য গরম হয়েছেন মানে নেংটামির জন্য হাঁইহুঁই শুরু হয়েছে। আজ কড়া হুকম করা হয়েছে বেরোলে ফাইন করা হবে।
সকল সতর্ক না হলে বছরেও এই জীবাণু নিয়ন্ত্রিত হবে না। :(

২| ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি অপ্রয়োজনীয় ব্লগারের লেখা ভুল কিছু পড়েছেন।

আপনি জেনে না জেনে কাকে ১ম ভালোবেসেছিলেন?

০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৭

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: আপনি মারাত্মক প্রশ্ন করেছেন, সোজা জবাব হবে অবুঝ বয়স থেকেই আমি আল্লাহকে সাথে পেয়েছি।

আল্লাহ শব্দ জপে আমি তাপ শাপ ভুলে যাই। আমার ভালোবাসার নাম রাসূল। জানি আমি ভণ্ড এবং দিনমান ভণ্ডামি করি।

প্রেম পিরিতি হলো ফেরুচিসম্মত, ফ্যাশনসম্মত কেতাদুরস্ত পোশাকের মত।

৩| ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি আপনার মাকে প্রথম ভালোবেসেছেন; প্রকৃতিতে পাখীর বাচ্চা থেকে মানুষের বাচ্চা, মাকেই প্রথম ভালোবাসে।

০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১৩

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: জি, মা এবং বাবাকে ভালোবাসার জন্য আল্লাহ কড়া আদেশ করেছেন। বাবা লণ্ডন থাকতেন। মা আমাকে সুরা এবং কবিতা মুখস্ত করাতেন, আমি ছিলাম কানার হাতের লাঠি। আমার মায়ের জন্য সব কুরবান, তবে তা আল্লাহর আদেশ নিষেধর ভিতর থাকতে হবে।

(আপনি তা লিখেছেন যা প্রথম লিখে মুছেছিলাম। আপনি অপার্থিব ভালোবাসার কথা জিজ্ঞেস করেছিলেন।)

৪| ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫৪

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: হ্যাঁ ভাইয়া আমরা এখন গৃহবন্দি। আগেই জেনেছি আপনিও বন্দি রয়েছেন।
দুশ্চিন্তা থাকবেই। তবে তার অবসান হবে বলে বিশ্বাস করি।

শুভেচ্ছা নিয়েন।

০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৩১

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: দাদা, দোয়া ছাড়া এখন আর কিচ্ছু করার নেই। সময় থেমে থাকেনি থাকবেও না। দুঃখ এতটুকু পরিকল্পিতভাবে মানুষ হত্যার নিলনকশা তৈরী করছে। আমাদের এখানের কথা বলছি, এখনো লকডাউন করেনি।

দয়াময়ের দয়ায় সব ঠিক হবে সত্বর।

৫| ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৮:৩৬

মা.হাসান বলেছেন: আহারে এমন চমৎকার আবহাওয়ায় ঘরে থাকা যায়?

অনেক লোকই সীমা লংঘন করেছে এবং করছেন। যারা সীমার ভিতরে ছিলো তারা অনেকেই অপরদের সীমা লংঘনে বাধা দেয় নি। এখন সাময়িক ভাবে দুই পক্ষই ক্ষতিগ্রস্থ হবে।

সামনে আরো ভয়াবহ দিন থাকার সমূহ সম্ভাবনা। ভালোবাসা ছাড়া রক্ষা নাই।

০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৩২

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: জি ভাইজন, কারো নিস্তার নেই। তাওবা এখনও কবুল হচ্ছে, তাওবা করতেই আছি, ইয়া আল্লাহ তাওবা কবুল করে আমাদেরকে রক্ষা করুন।

৬| ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:২৫

সাইন বোর্ড বলেছেন: বিপদে পড়লে আস্তিকের তবু শেষ ভরসা একজন সৃষ্টি কর্তা থাকেন, নাস্তিকের সেটাও থাকেনা । আর এখানেই একজন আস্তিকের প্রশান্তি ।

০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৩৪

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: আমরা আস্তিকরা কি আমাদের কর্তব্যকর্ম করছি?

৭| ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:১৪

রাজীব নুর বলেছেন: পোশাককর্মীদের বেতন কি দিয়েছেন মালিকরা? তারা তো বেতনের আশায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বহুদূর হেঁটে এসেছিলেন!

০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৩৬

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: যেদিন অধিকার আদায় করতে পারবে সেদিন পায়ের সামনে রেখে আনতনয়ে হাত জোড়ে বলবে, আমাকে ক্ষমা করুন। অধিকার আদায় করতে না পারলে দাসপ্রতা চালা থাকবে।

৮| ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:৫৯

নেওয়াজ আলি বলেছেন: বেশ মন ছুঁয়ে গেল লেখা।

০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৩৬

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

৯| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৩:১২

কানিজ রিনা বলেছেন: তাহলে একটা গল্প বলি,আল্লাহ্ জিব্রীল আঃ
বললেন ঔএলাকা ধ্বংশ করে দাও।
জিব্রীল বললেন ওই এলাকায়তো অনেক ভাল
মানুষ আছে যারা আপনার ইবাদত করে।
আল্লাহ্ বললেন ওরা শুধু একা
একাই ভাল থেকেছে কাউকে কিছু শিখায় নাই।
তাই সব সহ ধ্বংশ করা হোক। ধন্যবাদ।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:৪৯

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: জি পোস্টে আমি তাই লিখেছি।

আপনাকেও ধন্যবাদ।

১০| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৩:৪৭

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: নামাজে দাড়ালেই যতসব হওসাব আর পুরানো কথা মনে পড়ে

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:৫১

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: জি এবং তা হলো স্বাভাবিক। যাক আপনি কেমন আছেন?

১১| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৩:৪৯

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: নামাজে দাড়ালেই যতসব যতসব আর পুরানো কথা মনে পড়ে�
কেমন আছেন।।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:৫১

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: আমি ভালো আছি।

১২| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ সকাল ১১:৩৯

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: করোনায় ভাল থাকুন নিরাপদ থাকুন।

আল্লাহ আমাদের দোষ ক্ষমা করে আমাদের প্রতি করুনা করুন।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:৫৩

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: এখন সকলে মিলে, পাপ-তাপ মোচনের মন্ত্র জপে সকলের মঙ্গল কামনা করতে হবে।

আপনিও ভালো থাকবেন।

মন্তব্যের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ।

১৩| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ১:৫৪

রাজীব নুর বলেছেন: "আমরা কোথায় যাচ্ছি কে তা জানে,
অন্ধকারে দেখা
যায় না ভালো"।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:৫৪

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: ভাইজান এখন অন্ধ ভিখারির মত দোয়া করার সময় হয়েছে। দেশে হয়তো শুরু হয়েছে, দেশে শুরু হলে শেষ কবে হবে তার নিশ্চয়তা নেই। ইতালিতে এখনো মনুষ মরতেই আছে।

১৪| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:৫৬

নজসু বলেছেন:



মাঝে মাঝে আপনি এমন কিছু কথা বলেন যা আমার কাছে হীরের চেয়ে দামী মনে হয়।
এটা অনেক আগে থেকেই।
আজকের কথাগুলোও ঠিক তেমনি।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৪:১০

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: আপনি জ্ঞানি এবং গুণী বিধায় অন্যের মাঝে জ্ঞান এবং গুণ দেখতে পান। বাস্তবে যা হচ্ছে আমি আসলে তা থেকে লিখেছি। এখন ভয় হচ্ছে, সকলে দেশের হর্তাকর্তারা অবহেলা করে করনাকে অকরুণ করেছে।

সাবধানে থাকবেন।

১৫| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৪:৪৭

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: দুনিয়ার সবাই এখন বলছে তমি দূরে থাকো। মা কি তার সদ্য প্রসুত সন্তানকে দূরে সরিয়ে দিবেন? স্রষ্টা রাগ করে আমাদের কিছুটা স্বাস্তি দিবেন তাতেও আমাদের ধর্য পরিক্ষা হবে। সবাইকে আল্লাহ হেফাজতে রাখুন।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:০৫

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: বেশি ভয়ে মানুষ ভোকো বনে, আমরা আসলে ভোকো বনতে শুরু করেছি।

ইয়া আল্লাহ আমাদেরকে ক্ষমা করে রক্ষা করুন। আমিন।

আপনি কেমন আছেন?

১৬| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:১২

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: আমি আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি। আপনি কেমন আছেন? তবে আমার শহরে তেমন ছড়াইনি। যা শুনছি হয়তো ২৪ ঘন্টার কার্ফিও হতে পারেও সারা দেশে এখন আমার সিটিটিতে সন্ধ্যা ৭ থেকে সকাল ৬টা কার্ফিও।

আল্লাহ সবাইকে হেফাজত রাখুন।

০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৫:২৩

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: এখন শুভচিন্তা করা ছাড়া অন্যচিন্তা মাথায় আসলে ব্লাডপ্রেসার হাই হয়ে যায়।

আমি ভালো আছি প্রায় একমাস হবে ঘরে বন্দি আছি। তবুও ভালো।

১৭| ০৬ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৭

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: আমারও প্রেসার ও সুগার এই দুই আছে। দোয়া করবেন আমার জন্য। দেশে পুরো পরিবার ওদের জন্য মন কাঁদে। সবাই যেনো ভাল থাকেন।

০৭ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৩:৪০

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: এখন আল্লাহর জিকির হল সম্বল। আমি তাই করছি।

আল্লাহ সকলের স্রষ্ট। ইয়া আল্লাহ সকলের মঙ্গল করুন। আমিন।

১৮| ০৮ ই এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৪:৪৯

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: «بِسْمِ اللَّهِ الَّذِي لاَ يَضُرُّ مَعَ اسْمِهِ شَيْءٌ فِي الْأَرْضِ وَلاَ فِي السّمَاءِ وَهُوَ السَّمِيعُ الْعَلِيمُ»
উচ্চারণঃ বিস্‌মিল্লা-হিল্লাযী লা ইয়াদুররু মা‘আ ইস্‌মিহী শাইউন ফিল্ আরদ্বি ওয়ালা ফিস্ সামা-ই, ওয়াহুয়াস্ সামী‘উল ‘আলীম।
অর্থঃ আল্লাহ্‌র নামে; যাঁর নামের সাথে আসমান ও যমীনে কোনো কিছুই ক্ষতি করতে পারে না। আর তিনি সর্বশ্রোতা, মহাজ্ঞানী।


«لَّآ إِلَٰهَ إِلَّآ أَنتَ سُبۡحَٰنَكَ إِنِّي كُنتُ مِنَ ٱلظَّٰلِمِينَ»
উচ্চারণঃ লা- ইলা-হা ইল্লা- আনতা, সুবহা-নাকা ইন্নী কুনতু মিনায্‌ য-লিমীন।
অর্থঃ আপনি ব্যতীত কোন উপাস্য নেই। আমি আপনার পবিত্রতা বর্ণনা করছি। নিশ্চয় আমি যালেমদের অন্তর্ভুক্ত।

«اللَّهُمَّ إِنِّى أَعُوذُ بِكَ مِنْ جَهْدِ الْبَلاَءِ، وَدَرَكِ الشَّقَاءِ، وَسُوءِ الْقَضَاءِ، وَشَمَاتَةِ الأَعْدَاءِ»
উচ্চারণঃ আল্লা-হুম্মা আ‘ঊযুবিকা মিন জাহ্‌দিল বালা- ওয়া দারাকিশ শাক্বা- ওয়া সূইল ক্বাযা- ওয়া শামা-তাতিল আ‘দা ।
অর্থঃ ‘হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে কঠিন বালা-মুছীবত, চরম কষ্ট, ফয়সালার অনিষ্ট এবং (আমার বিরুদ্ধে) শত্রুদের মনতুষ্টি থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করছি’।

اللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنْ الْبَرَصِ وَالْجُنُونِ وَالْجُذَامِ وَمِنْ سَيِّئْ الأَسْقَامِ
উচ্চারণঃ আল্লাহুম্মা ইন্নি আউজুবিকা মিনাল বারাসি ওয়াল জুনুনী ওয়াল জুযামী ও মিন সায়্যিইল আসকাম।
অর্থঃ হে আল্লাহ! আমি তোমার নিকট শ্বেতরোগ পাগলামি ও কুষ্ঠ রোগসহ সকল জটিল রোগ থেকে আশ্রয় চাই।

«بِسْمِ اللَّهِ، تَوَكَّلْتُ عَلَى اللَّهِ، وَلَاَ حَوْلَ وَلَا قُوَّةَ إِلاَّ بِاللَّهِ»
উচ্চারণঃ বিসমিল্লাহি, তাওয়াককালতু ‘আলাল্লা-হি, ওয়ালা হাওয়া ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ।
অর্থঃ আল্লাহ্‌র নামে (বের হচ্ছি)। আল্লাহর উপর ভরসা করলাম। আর আল্লাহর সাহায্য ছাড়া (পাপ কাজ থেকে দূরে থাকার) কোনো উপায় এবং (সৎকাজ করার) কোনো শক্তি কারো নেই।

«اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ الْعَفْوَ وَالْعَافِيَةَ فِي الدُّنْيَا وَالآخِرَةِ، اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ الْعَفْوَ وَالْعَافِيَةَ: فِي دِينِي وَدُنْيَايَ وَأَهْلِي، وَمَالِي، اللَّهُمَّ اسْتُرْ عَوْرَاتِي، وَآمِنْ رَوْعَاتِي، اللَّهُمَّ احْفَظْنِي مِنْ بَينِ يَدَيَّ، وَمِنْ خَلْفِي، وَعَنْ يَمِينِي، وَعَنْ شِمَالِي، وَمِنْ فَوْقِي، وَأَعُوذُ بِعَظَمَتِكَ أَنْ أُغْتَالَ مِنْ تَحْتِي»
উচ্চারণঃ আল্লা-হুম্মা ইন্নী আসআলুকাল ‘আফওয়া ওয়াল- ‘আ-ফিয়াতা ফিদ্দুনইয়া ওয়াল আ-খিরাতি। আল্লা-হুম্মা ইন্নী আসআলুকাল ‘আফওয়া ওয়াল-‘আ-ফিয়াতা ফী দীনী ওয়াদুনইয়াইয়া, ওয়া আহ্‌লী ওয়া মা-লী, আল্লা-হুম্মাসতুর ‘আওরা-তী ওয়া আ-মিন রাও‘আ-তি। আল্লা-হুম্মাহফাযনী মিম্বাইনি ইয়াদাইয়্যা ওয়া মিন খালফী ওয়া ‘আন ইয়ামীনী ওয়া শিমা-লী ওয়া মিন ফাওকী। ওয়া আ‘ঊযু বি‘আযামাতিকা আন উগতা-লা মিন তাহ্‌তী)।
অর্থঃ হে আল্লাহ! আমি আপনার নিকট দুনিয়া ও আখেরাতে ক্ষমা ও নিরাপত্তা প্রার্থনা করছি। হে আল্লাহ! আমি আপনার নিকট ক্ষমা এবং নিরাপত্তা চাচ্ছি আমার দ্বীন, দুনিয়া, পরিবার ও অর্থ-সম্পদের। হে আল্লাহ! আপনি আমার গোপন ত্রুটিসমূহ ঢেকে রাখুন, আমার উদ্বিগ্নতাকে রূপান্তরিত করুন নিরাপত্তায়। হে আল্লাহ! আপনি আমাকে হেফাযত করুন আমার সামনের দিক থেকে, আমার পিছনের দিক থেকে, আমার ডান দিক থেকে, আমার বাম দিক থেকে এবং আমার উপরের দিক থেকে। আর আপনার মহত্ত্বের অসিলায় আশ্রয় চাই আমার নীচ থেকে হঠাৎ আক্রান্ত হওয়া থেকে।

০৮ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:১০

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ, আল্লাহ আপনাকে এবং আমাদের সকলকে নিরাপধ রাখবেন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.