নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

বিশ্বজোড়া পাঠশালাতে সবাই ছাত্র-ছাত্রী, নিত্য নতুন শিখছি মোরা সদাই দিবা-রাত্রী!

নীল আকাশ

এই ব্লগের সমস্ত লেখা সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। আমার অনুমতি ছাড়া এই ব্লগের লেখা অন্য কোথাও প্রকাশ করা যাবে না।

নীল আকাশ › বিস্তারিত পোস্টঃ

কবিতাঃ সুন্দরী আমি, হার্টথ্রব মডেল হতে চাই! - ৩

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:০৮



শরীরে কি পাপ হে বিশুদ্ধতাবাদী?
সুদর্শনী এই দেহ নিয়ে কি স্বর্গে যাবো আমি?
এক পুরুষে হয় না আমার, যৌবন বহুগামী।

চাহিদা আমার বহুরূপী, সমকামী/ডির্ভোসী/বিদেশী/বিপত্নীক
ধর্মের পরোয়া করি না, ক্ষুধা আমার অতলান্তিক!
পুরাতন সব বৃষ্টিভেজা স্মৃতি অ্যাই জাস্ট ড্যাম কেয়ার
কতজনের সাথেই তো রিকশায় উঠেছি, করেছি কত পেয়ার!
যৌবনের শিৎকারে এখন ঘুরে বেড়াই দেশান্তর
দুইপাশে এখন পাখা গজিয়েছে, উড়ে বেড়াই নিরন্তর!

আমি হট মডেল-
নগদ প্রাপ্তির মোহে আজ হয়েছি পণ্য,
চকচকে যৌবন আমার, ক্যামেরার আলোতেই ধন্য!

অতি আধুনিকা আমি, মাল্টিন্যাশনাল মার্কেটিং
এই জীবনে জানি না আমি টাকা লাগবে কতটা,
লাজ শরমের মাথা খেয়ে বলি রেট বেড়েছে এতটা!
কোন সাহসে বলো আমায় লেবেলধারী গণিকা?
আমার একটা ভিডিওতেই কেঁপে উঠে সোসাল মিডিয়া,
আমার অর্ন্তবাসের মাপ দেখার জন্য ঝড় উঠে ইউটিউবে,
বিদেশি অভিসারের কাহিনীতে কেঁপে উঠে ট্যাবলয়েড!
সৃজনশীল স্বাভাবিক আমার ছবি হয় আপত্তিকর ভাইরাল
আমার রমরমা কাহিনী ভাটাতেও এনে দেয় ভরা কাটাল!

আমি বিলবোর্ড মডেল-
আদিরসের এক আধুনিক উপস্থাপনা
মুক্তবাজারের অর্থনীতিতে আমি যোগ করেছি উন্মাদনা!

শরীর বেঁচে খাই রে আমি, শরীর বেঁচে খাই
এই শহরে আমার কোনই কলঙ্ক যে নাই...
নেশাতুর চোখগুলিতে আমি মূল্য খুঁজে পাই!
অম্লান কুসুম আমি শরীর ভরা যৌবন
নিত্যনতুন স্ক্যান্ডলে বাড়াই আমার আবেদন।
মধ্যরাতের পার্টিগুলিতে আমি হই নাইট কুইন
ননষ্টপ চাহিদা আমার, নৃত্যে উদ্দাম বল্গাহীন।
কোন রাতে কার কন্ঠলগ্না আমি নিজেও জানিনা
ক্ষুধা আমার অনেক বেশি, অল্পতে পোষায় না।
কে হতে চাও আজ রাতে আমার দেহের রাজকুমার?
চাহিদার কার্ভে উঠিয়ে পুড়িয়ে করবো সব ছাড়খাড়!

আমি রেটেড সেলিব্রেটি-
হৃদয়হীন আগুনে পোড়াই আমার যত আবেগ!
গোপিনীবল্লভ পোজে আগুন ধরাই ফেসবুক
ভার্চুয়াল সুনামিতে সয়লাব করি সোসাল মিডিয়া!
অষ্টভার্যা দেহের প্রতিটা আঁকবাঁকের ভাঁজে
কিংবা স্লিভলেস ব্লাউজে পীনোন্নত বুকের উচ্চতায়
উত্তেজনার সুনামীতে লাগাই আমাজনের আগুন!
অতৃপ্ত কামনার আগুনে দারুণ উম্মত্ততায়, কিংবা
আংশিক অনাবৃত দেহের রহস্যখচিত এ্যাডভেঞ্চারে
হাতছানি দিয়ে ডাকি আমি অতলান্তিক শিঙ্গারে!

শিহরিত/তৃষিত/প্রেমিক হৃদয় পরোয়া করি না আমি
খালি হাতে উঠবে না কখনও এই শরীরে সুনামী
আদর সোহাগ চাইনা আমি, জৈবিক ক্ষুধায় মাতি
পকেটে কি আছে তোমার সেই রকমের পাতি?

বাবুও আমি, দালালও আমি, দেহ আমার নিজের
নিভৃতে ট্রিগার করি কামনারত সব পুরুষের!
সব প্রোগ্রামেরই নায়িকা হবো সীমানা মানি না দেশের
সব প্রযোজকই বশ হবে জানি চাহিদা কি তাদের!



সবাইকে ধন্যবাদ ও শুভ কামনা রইল।
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত@ নীল আকাশ, নভেম্বর ২০১৯


এই সিরিজের আগের পর্বগুলি যারা পড়েন নি তাদের জন্যঃ
কবিতাঃ সুন্দরী আমি, হার্টথ্রব মডেল হতে চাই! - ২
কবিতাঃ সুন্দরী আমি, হার্টথ্রব মডেল হতে চাই! - ১

মন্তব্য ৬৩ টি রেটিং +১৪/-০

মন্তব্য (৬৩) মন্তব্য লিখুন

১| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:১৯

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: সেই রকম লেগেছে।লা-জবাব !!কবিতায় ++
ছবিটা দেখে basic instinct মুভির শ্যারন স্টোনের বিখ্যাত দৃশ্যের কথা মনে হয়ে গেলো।

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:২১

নীল আকাশ বলেছেন: একটা নির্লজ্জ বেহায়া মডেলের নামের জন্য আমার অনবদ্য সৃষ্টি সুন্দর একটা নারী চরিত্র নিয়ে কাজ করার ইচ্ছেটাই পুরোপুরি নষ্ট হয়ে গেছে! ক্ষিপ্ত আমি হবো না তো কে হবে?

২| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৩০

ইসিয়াক বলেছেন: অবশেষে কবিতায় ফেরা ....
সেই রকম হইছে ...
অসাধারণ হইছে .....

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪২

নীল আকাশ বলেছেন: সব মা. হাসান ভাইয়ের দোষ! আমি কবিতা লিখলেই উনি নাকি বাটি চালান দেবেন বলে ভয় দেখিয়েছিলেন! ভয়ে এতদিন চুপ করে ছিলাম। গতকালকে শিখা আপু সাহস দিতেই......

৩| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৩৫

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
অসাধারণ!!
ক্ষুধা বানানটি শুদ্ধ করে নিবেন।

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৫০

নীল আকাশ বলেছেন: আসলেও সেই রকম হয়েছে। নূর ভাই পর্যন্ত চলে এসেছে। আমি খুব খুশি হয়েছি আপনাকে দেখেই
বানান সাথে সাথেই ঠিক করে দিয়েছি।
শুভ কামনা রইল।

৪| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: কবিতা হলো অলস মানুষের বিলাসিতা।

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪২

নীল আকাশ বলেছেন: মাঝে মাঝে মন তবুও কিছু বিলাসিতা করতে চায়!

৫| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:২৪

হাবিব স্যার বলেছেন: রাজিব ভাইয়ের কথাটাকে আমি সমর্থন করলাম না।

আর আপনার কবিতার ব্যাপারে বলবো, চিরায়িত কথিত মডেলদের সুন্দর ফুটিয়ে তুলেছেন কবিতায়

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪১

নীল আকাশ বলেছেন: ঊনিও কিন্তু মাঝে মাঝে কবিতা লিখে ফেলেন।
এদের ধুতরা ফুলের মতো চরিত্র নিয়ে তো কথা বলতেই হবে! অল্প বয়সী মেয়েদের মাথা এরাই নষ্ট করছে।
ধন্যবাদ।

৬| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:২৫

বলেছেন: অনেকদিন পর মডেল সিরিজের কবিতায় আধুনিক যুগের মডেল নিয়ে আসলেন।।।।

দেখি মাঃ হাসান ভাই কি বলে....

চমৎকার

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২২

নীল আকাশ বলেছেন: একটা বেহায়া মডেলের নামের জন্য আমার আস্ত মিথিলা সিরিজটাই বন্ধ করে দিতে হয়েছে। কোথায় মিথিলাকে আমি
দেখিয়েছি অতিশয় ভদ্র মেয়ে হিসেবে আর কোথায় এই মডেল। ইচ্ছে মতো ঝেড়েছি আগা থেকে গোড়া।

৭| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৩১

বলেছেন: কবিতা গল্পে আপনার সিরিজ নির্বাচন আপনাকে অনন্য করে তুলছে....

বাবুও আমি - বলতে কি বুঝতে পারলাম না.....
কথাটা কি

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৫

নীল আকাশ বলেছেন: আমি সব সময় ব্যতিক্রমী কাজ করি। এক সময় এই সিরিজে অনেক দারুন সব কবিতা জমে যাবে। আমার
সব চেয়ে সেরা কবিতা গুলিই সব এই সিরিজে। একমাত্র মাথা গরম আর চরম ক্ষিপ্ত হলেই এই সিরিজের কবিতা লিখতে বসি।
হাসান ভাই আসুক, দেখি উনি কি বলেন!

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৭

নীল আকাশ বলেছেন: এই ব্যবসায় কলিকাতার ভাষা হলো বাবু, যারা খদ্দের জোগার করে দেয়। মালিক বা মালিকিন টাইপ।

৮| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৮

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: এই কবিতার কি মন্তব্য হবে ঠিক বুঝতে পারছিনা। তবে থিমের উপর কবিতা লাজবাব++
শুভকামনা জানবেন।

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৩৫

নীল আকাশ বলেছেন: বেহায়াপণা আর নৈতিকতা বিরোধী কাজকামের বিরুদ্ধে আমি সব সময়ই সোচ্চার।
একজন বেহায়া নির্লজ্জ মডেল নামেই দুঃশ্চিরত্রা মেয়ের কর্মকান্ড নিয়েই এই কবিতাটা লিখেছি।
বেহায়াটা আবার পত্র পত্রিকা বড় গলায় সাফাই গায়, স্টেটমেন্ট দেয়।
এইসব নাকি স্বাভাবিক বলে, দেশের মানুষের মন মানসিকতা উন্নত করতে বলে।
এর কথাবার্তা শুনলে ইচ্ছে করে পা থেকে জুতা খুলে......

৯| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২৩

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সুন্দর।+

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৫৫

নীল আকাশ বলেছেন: পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

১০| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:০৪

ইব্‌রাহীম আই কে বলেছেন: আমি হট মডেল-
নগদ প্রাপ্তির মোহে আজ হয়েছি পণ্য

~ওরা আসলেই পণ্য হয়েছে নিজেদের অজান্তেই কিংবা সজ্ঞানে! কিন্তু বলতে গেলে আপনি নারী উন্নয়ন বিরোধী!

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৫৮

নীল আকাশ বলেছেন: সিড়ি যেখানে, সেখানে তারা লিফটে উঠতে চায়, তার জন্য যা প্রয়োজন দিয়ে দেয় চাইবার আগেই।
এই অল্প কয়েকটা মেয়ে মডেলিং এর নামে শরীর বিক্রি করে এই ভাবে বেঁচে থাকতে চায়।
চোখ ধাঁধানো আলোর রমরমায় অন্ধকারটা সবার সামনে তুলে ধরার জন্যই তো এই লেখা!
শুভ কামনা রইল।

১১| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৫৯

নার্গিস জামান বলেছেন: খুব সুন্দর ভাইয়া :)

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৩৭

নীল আকাশ বলেছেন: আপনি নিশ্চয় নতুন ব্লগার। আমার ব্লগ বাড়িতে সুস্বাগতম।
সুন্দর কিনা জানি না তবে লেখার সময় প্রচন্ড ক্ষিপ্ত ছিলাম।
এর নির্লজ্জ বেহায়া বেশরম কর্মকান্ডে আমি চরম বিরক্ত।
এর আগের ২টা পর্ব কি পড়েছেন আপনি?
শুভ কামনা রইল।

১২| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৪৯

আরোগ্য বলেছেন: দুর্দান্ত বোনাই। তবুও পর্যাপ্ত শব্দ খুঁজে পাচ্ছি না মন্তব্য করার।

মা হাসান ভাইয়ের মন্তব্যের অপেক্ষায় আমিও আছি কিন্তু।

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৫৪

নীল আকাশ বলেছেন: সব মা. হাসান ভাইয়ের দোষ! আমি কবিতা লিখলেই উনি নাকি বাটি চালান দেবেন বলে ভয় দেখিয়েছিলেন!
ভয়ে এতদিন চুপ করে ছিলাম। গতকালকে শিখা আপু সাহস দিতেই......

১৩| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: মাঝে মাঝে মন তবুও কিছু বিলাসিতা করতে চায়!

কবিতা লিখে কি হয়?? বাজারে কি চালের দাম কমে??

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৫৯

নীল আকাশ বলেছেন: কিছু নিশ্চয় হয়। এই যে সবাই পিয়াজ নিয়ে কবিতা লিখেছে, সেটা দেখেই তো এখন প্লেনে করে পিয়াজ নিয়ে আসা হচ্ছে।
দারুণ সাফল্য তাইনা!

১৪| ১৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:২৮

সোহানী বলেছেন: অসাধারন......অসাধারন......অসাধারন......

একটি কবিতায় সব শ্রেনীকে যেভাবে এনেছেন এক কথায় অসাধারন।

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:১৭

নীল আকাশ বলেছেন: দারুণ মন্তব্যে মুগ্ধতা......মুগ্ধতা........মুগ্ধতা।
এদের নোংরা কর্মকান্ডের সবকিছুই লিপিবদ্ধ থাকা উচিত।
নায়িকা আর মডেল হবার জন্য কিভাবে এরা উপার্জন করে!
আধুনিকা হবার নামে এর কিভাবে শরীর বেঁচে খায়!
ধন্যবাদ এবং শুভ কামনা রইল।




১৫| ১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ২:৫৩

স্বপ্নের শঙ্খচিল বলেছেন: কে হতে চাও আজ রাতে আমার দেহের রাজকুমার?
চাহিদার কার্ভে উঠিয়ে পুড়িয়ে করবো সব ছাড়খাড়!

........................................................................................
এত জ্বালা কেন ভাই !!!?
পৃথিবীটাই স্বার্থের টানে ঘুরে , মুসলিম সমাজ ছাড়া
অন্য সমাজে মডেল মানেই চোখের তৃষ্না মিটাও
সাধ্য থাকলে মনের সুখ মিটাও তাতে বরং
অর্থনীতির চাকা সচল হবে ।
............................................................................................

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:১৪

নীল আকাশ বলেছেন: কই ছিলেন এতদিন?
এত সুন্দর একটা ছবি পেলে এটাই আমি আগে দিয়ে দিতাম। পরের পর্বগলিতে এই ছবিটা দিব। আন্তরিক কৃতজ্ঞতা রল।
আমার কোন এদের নিয়ে জ্বালা নেই, আছে ক্ষোভ। আমি শুধু এদের কাজকাম গুলি তুলে ধরেছি। অর্থনীতির চাকা সচল হবার কথা তো আমিই বলেছি-
আমি বিলবোর্ড মডেল-
আদিরসের এক আধুনিক উপস্থাপনা
মুক্তবাজারের অর্থনীতিতে আমি যোগ করেছি উন্মাদনা!

পড়ার জন্য খুব করে ধন্যবাদ নিবেন ভাই।

১৬| ১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:৫৪

আখ্যাত বলেছেন:
আপ্নার ভুলে গেলে চল্বেনা,
এটা বেষ্যায়নের যুগ।

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৫৫

নীল আকাশ বলেছেন: যতদিন আমি আপনি সবাই এইসব বেহায়াপণা আর অশ্লীলতা প্রশয় দিয়ে যাবো, ততদিন এই বেশ্যায়ন চলতে থাকবে। নারীদের পণ্য বানিয়ে এদের ভোগের বিশ্বায়ন চলবেই......
ধন্যবাদ।

১৭| ১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: কিছু নিশ্চয় হয়। এই যে সবাই পিয়াজ নিয়ে কবিতা লিখেছে, সেটা দেখেই তো এখন প্লেনে করে পিয়াজ নিয়ে আসা হচ্ছে।
দারুণ সাফল্য তাইনা!

তাহলে পাপ নিয়ে কবিতা লিখলে কি পাপ কমে যাবে??

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৩৯

নীল আকাশ বলেছেন: তাহলে পাপ নিয়ে কবিতা লিখলে কি পাপ কমে যাবে??
আর কিছু না হোক মনের পাপ তো কিছু কমবেই প্রায়শ্চিত্ত করার জন্য, যদি নিজে থেকেই দোষ স্বীকার করে কিছু লেখে!
শুভ সকাল ভাই, আপনার কলিকাতা ভ্রমণ আজকে পড়বো।
ধন্যবাদ।

১৮| ১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:০৪

মা.হাসান বলেছেন: লাফালাফি করে লাভ নাই। আমাকে খোঁজার দরকার নাই, আমিই কবিদের খুঁজে নেব। আপাতত ব্যস্ত আছি, জানুয়ারিতে সব কবিতাবাজ এবং কবিতাখোরদের দিয়ে পিঁয়াজু বানাবো। সকলকে আলটিমেটাম দিলাম। যা লেখার এর মধ্যে লিখে নেন। মিশনঃ কবিতা হইতে ব্লগ উদ্ধার আসিতেছে।

১৮ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৮:৫৭

নীল আকাশ বলেছেন: সাড়ে সর্বনাশ!
সব কবিদের কে কি ব্লগ থেকে তাড়িয়ে দেবার ব্যবস্থা করছেন নাকি?
আমার অবশ্য ভয় নেই। গল্প লিখে পার পেয়ে যাওয়া যাবে!
মিশন ব্লগ ইম্পসিবল দেখার অপেক্ষায় থাকলাম।

১৯| ১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:২৩

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: কবিতা ভালো হয়েছে
ছবিটা ভালো হয় নি :(

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৩০

নীল আকাশ বলেছেন: স হ ম ত। এর পরের বার থেকে স্বপ্নের শঙ্খচিল যেই ছবিটা দিয়েছেন সেটা দেব। আমি সব সময় বিমূর্ত ছবি দেয়া পছন্দ করি।
কবিতা ভালো লাগার জন্য ধন্যবাদ।

২০| ১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৫

পদ্ম পুকুর বলেছেন: বাপ্রে!! বুলবুলের মতই ঝড়ের গতিতে চলে গেল প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত। যদিও আমি কবিতা বুঝিনা, প্রতিবাদটা তবু বোঝা গেলো ঠিকই।

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:১২

নীল আকাশ বলেছেন: বৈশাখী ঝড়ের মতো ক্ষিপ্ত যেহেতু ছিলাম গতি তো থাকবেই! আমি আসলে এইসব নোংরা কান্ডকারখানা একদম বরদাস্ত করতে পারি না। প্রতিবাদ তো কাউকে না কাউকে করতেই হবে। আমি খেপলে এভাবেই ঝাড়ি। কয়েকদিন আগে সায়িদ সাহেবকেও ঝেড়েছিলাম শাড়ি নিয়ে আজে বাজে লেখার জন্য। এটা কিন্তু কবিতা না। পড়ার আমন্ত্রন দিয়ে গেলাম।
শুভ কামনা রইল।

২১| ২৩ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:১৮

স্বপ্নের শঙ্খচিল বলেছেন: আমি তো আছি,
মাঝে মাঝে অনেকের ব্লগে ঢুঁ মারি
মন্তব্য করি, তবে...!!!

................................................................................
লেখা লেখি বেশী করতে পারিনা, এজন্য একান্ত মনোযোগ দরকার
আমি এখন অষ্ট্রেলিয়া ভ্রমনে আছি,
আশাকরি অষ্ট্রেলিয়া ভ্রমন কাহিনী পড়তে পারবেন ।
আজকের কবিতা পড়ে দেখুন সেখানে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশিত !

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:০১

নীল আকাশ বলেছেন: শুভ সকাল,
আপনাকে দেখলেই খুব ভালো লাগে। ব্লগে আমি কয়েকজনকে ব্যক্তিগত ভাবে খুবই পছন্দ করি। আপনি তার মধ্যে অন্যতম।
অষ্ট্রেলিয়া ভ্রমন কাহিনী পড়ার জন্য আমি আগ্রহী। এখনই প্রিপারেশন নিয়ে ফেলুন। ভালো ভালো ছবি তুলে রাখুন আর দেশে ফিরে সময় নিয়ে দুর্দান্ত একটা ভ্রমণ কাহিনী পোস্ট করুন।
ধন্যবাদ এবং শুভ কামনা রইল।

২২| ২৪ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:০০

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:


দ্রোহের চেতনায় লিখা কবিতাটি পাঠে
মুগ্ধ হয়ে কেবলই ভাবি এটা কি সুন্দরীর
অভাব-স্বভাব ও অবাস্তব কিংবা ভাবস্বভাব?
সে কি জানে না তার জীবনের চরম গতি,
নাকি চায় স্থুল দেহের নিশ্চিত বিনাশ ?

সপে দেয়া কি শুধুই দ্রোহের প্রকাশ ,
নাকি এটি তার অবিমিশ্র সুখবাদ ।
এটা কি শুধুই এক অসহায়ের দর্পন প্রতিবিম্ব
ভিন্নমুখি স্রোতের আবর্তে সুদৃঢ় ভাবে পথ চলা
নাকি এক সুন্রী নারীর বহুবিধ খেলা,
কিংবা শশকশৃঙ্গ মুক্ত বিহংগের মত পথ চলা।

বিশ্বায়ন, দুবৃত্তায়ন আর বৈশ্বিক বানিজ্যের যুগে
শুধুই কি ভ্রান্ত কুটিল জগতের ফসল ঘরে তোলা ।
তার সাধন পন্থাকে উল্টা সাধন বলাই কি সঙ্গত
নাকি উল্টাসাধন তার নিন্মগামী গতিকে ঊর্ধ্বগামী
আর বিরুদ্ধস্রোতে গমনকেই করতে চায় ধাবিত ।

সমাজ পরিবর্তন না হওয়া তক এ ধারা
কোন মতেই রোধিবার মত নয়,
ক্রমাগত রক্ত ক্ষরণ হয়ে জন্ম দিবে
সন্ধা ভাষায় রচিত এমনতর কবিতা।

শুভেচ্ছা রইল

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৫৬

নীল আকাশ বলেছেন: আলী ভাই, এত দেরি করে প্রতি-মন্তব্য দেবার জন্য প্রথমেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

অসম্ভব সুন্দর একটা মন্তব্য করেছেন আর সেখানে ফুটিয়ে তুলেছেন এই কবিতার লেখা সব ধরনের প্রক্ষাপট। এই জীবন্ত কবিতাতে আমি চলমান সমাজের বাস্তবিক ভাবনাগুলি সব ফুটিয়ে তুলেছি।

জী, একদম ঠিক বলেছেন এটা দ্রোহের কবিতা। বুকে একরাশ দ্রোহ নিয়ে এই সিরিজের কবিতা আমি লিখতে বসি।
সাম্প্রতিক ঘটে যাওয়া এই সব মডেলদের নোংরা কর্মকান্ডগুলি যদি খেয়াল করে দেখেন তাহলে বুঝবেন কতটা বেহায়া আর
নির্লজ্জ এদের কথাবার্তা। এরা আসলে অতি আধুনিকা হবার জন্য নিজেদের সর্বোচ্চ চেষ্টার কোন ত্রুটি রাখে নাই।
এই অল্পকয়টা মেয়ে মডেলিং এর নামে শরীর বিক্রি করে এইভাবে বেঁচে থাকতে চায়। সিড়ি যেখানে, সেখানে তারা লিফটে উঠতে চায়, তার জন্য যা প্রয়োজন দিয়ে দেবে, চাইবার আগেই। গ্রুমিং এর নামে কাপড় খোলা শিখলে এর চেয়ে ভালো আর কি করবে বলুন? মেয়েদের কে পন্য হিসেবে দেখা আর দিন শেষে এদের ইন্টারনেটে নগ্ন ছবি/ভিডিও দেখে উত্তেজিত হওয়া আমাদের সহজাত বিষয় হয়ে গেছে। এদের বেহায়াপনার শেষ একটা সীমা থাকা উচিত। দিন শেষে এদের পরিনতি কি হয়ে ভেবে দেখেছেন? কতটা নিঃস্ব হয়ে এরা শেষ জীবন পার করে?

চোখ ধাঁধানো মিডিয়ার আলোর রমরমায় অন্ধকার কতটুকু অন্ধকার থাকে সেটা তুলে ধরার জন্যই এই লেখা। সবাই যদি সোচ্চার না হই এই নোংরা মানসিকতার কিভাবে পরিবর্তন হবে বলুন?
ধন্যবাদ এবং শুভ কামনা রইল।

২৩| ২৪ শে নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৬

রুমী ইয়াসমীন বলেছেন: এক কথায় দারুণ লিখেছেন কবিতাটি।
পড়ে অনেক মুগ্ধ হয়েছি ভাইয়া।
সব শ্রেণীর মডেল কন্যাদের নিয়ে এসেছেন কবিতায়। আপনার কবিতাটি পড়ে এমন স্বভাবের সুন্দরীদের মনে যদি একটুও হলে টনক নড়ে তবে আপনার লিখাটা পুরোপুরি স্বার্থক হবে বলে মনে করি। :)

২৫ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৪৫

নীল আকাশ বলেছেন: আমি এই কবিতার সিরিজটাই লিখেছি চরম বাস্তবতা নিয়ে। এইসব মেয়েরা সমাজের ভয়ংকর দুষ্ট ক্ষত। এরা মডেলিং এর নামে বেশ্যাবৃত্তি করে বেড়ায় আর ভাবে ধরে আধুনিকতার। এরা ভন্ড। এর নিজেরা নষ্ট হয়ে গেছে আর বাকি ভালো মেয়েদের প্রলুব্ধ করে এদের মতো নষ্ট হবার জন্য।
আমি একটা মেসেজ দিতে চেয়েছি সবাইকে। এইসব ভন্ড চরিত্রহীন মেয়েদের যেন চিনতে কেউ ভুল না করে।
এদের স্বরূপ উন্মোচনা করার জন্যই এই লেখা।
ধন্যবাদ। সুন্দর মন্তব্য করেছেন।

২৪| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১৩

রুমী ইয়াসমীন বলেছেন: "আমি একটা মেসেজ দিতে চেয়েছি সবাইকে। এইসব ভন্ড চরিত্রহীন মেয়েদের যেন চিনতে কেউ ভুল না করে।
এদের স্বরূপ উন্মোচনা করার জন্যই এই লেখা।"

আপনার এই মহৎ উদ্দেশ্য সফল হোক ও এই সিরিজের লিখা অবিরত হরদমে চলুক এই প্রত্যাশা করি।

২৬ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:৫৪

নীল আকাশ বলেছেন: কবিতার সিরিজটাই লিখেছি চরম বাস্তবতা নিয়ে।
আমার এই লেখা চলবে অবিরাম, যত দিন আমি বেঁচে থাকবো।
এই সব ভন্ড চরিত্রহীন মেয়েদের স্বরূপ উন্মোচনা করার জন্য আমি লিখেই যাবো।
ধন্যবাদ।

২৫| ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১৬

রুমী ইয়াসমীন বলেছেন: অনেক দুঃখিত ভাইয়া, নেটওয়ার্ক প্রবলেমের কারণে একই কমেন্ট তিনবার চলে গেল। দয়া করে অতিরিক্তগুলো মুছে দিবেন।ধন্যবাদ

২৬ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:৫১

নীল আকাশ বলেছেন: কোন সমস্যা নেই। আমি ইতিমধ্যেই মুছে দিয়েছি।
ছবি আপুর "তবু কিছু থেকে যাবে...." পড়ে ভালো লেগেছে?
তবে এটা পড়ে আসুনঃ
কবিতাঃ তোমাকে নিয়ে লিখতে চাই!

২৬| ২৭ শে নভেম্বর, ২০১৯ রাত ২:২৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




ভোক্তা পণ্য তৈরি করেন। ভোক্তা না থাকলে পণ্যও থাকবে না।
উদাহরণ: - জন্মদিন, মাজার ব্যাবসা, ক্যান্ডেল লাইট ডিনার মোমবাতি জীবিত রেখেছে নয়তো মোমবাতি জাদুঘরে দেখতে হতো!


৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:০৩

নীল আকাশ বলেছেন: আপনার সাথে দ্বিমত করার কোন কারণ নেই। চাহিদা না থাকলে পন্য আসবে কেন? তবে মাজার ব্যবসা কিংবা জন্মদিন, মাজার ব্যাবসা, ক্যান্ডেল লাইট ডিনার এইসবের সাথে এদের পার্থক্য অন্যখানে।
এইসব মেয়েরা শরীর বিক্রি করে চলে। করুক না, বেশ্যাবৃত্তি অনেক কাল আগে থেকেই আছে। সেটা নিয়ে আমার কোন আপত্তি নেই।
আমার আপত্তি উঠে তখনই যখন এইসব মেয়েরা এইসব নোংরা অপকর্ম করে বেড়ায় এবং প্রকাশ্যে সেটার পক্ষে আবার মিডিয়াতে এসে নিজের জন্য সাফাই গায়। এরা নিজেদের দাম জানার জন্য অন্তর্বাস পরে একে ওকে ছবি পাঠায়। কিন্তু এটা নিয়ে প্রশ্ন তুললে বলে আমাদের দৃষ্টি নাকি খারাপ। আমাদের মনোবৃত্তি নাকি এখনও উচু স্তরে মানুষের পর্যায়ে উঠতে পারেনি। কিছুদিন পরে পরে এর ওর সাথে বিয়ে ছাড়াই হানিমুন করে আসে। খাওয়া দাওয়া শেষ হলে, যখন এদেরকে লাথি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়া তখন তোলে বিশ্বাসহীনতা অভিযোগ। বেশ্যাদের সাথে আবার বিশ্বাসহীনতা কি? টাকা পয়সা তো পেয়েই গেছে! এখন আবার অভিযোগ কেন? মিডিয়া এসে কান্নাকাটি কেন?

এরা আসলে নায়িকা আর মডেল হবার নামে বেশ্যাবৃত্তি করেই উপার্জন করে! আধুনিকা হবার নামে এর কিভাবে শরীর বেঁচে খায়! কিন্তু বিপদে পরলে তখন নাকি কান্না কাঁদে। সবার সিম্প্যাথি নিতে চায়। ভাবে ধরে আধুনিকতার। এরা ভন্ড। এর নিজেরা নষ্ট হয়ে গেছে আর বাকি ভালো মেয়েদের প্রলুব্ধ করে এদের মতো নষ্ট হবার জন্য। লেজ কাটা শিয়াল সব শিয়ালের লেজ কাটতে চায়! আমি একটা মেসেজ দিতে চেয়েছি সবাইকে। এইসব ভন্ড চরিত্রহীন মেয়েদের যেন চিনতে কেউ ভুল না করে।এদের স্বরূপ উন্মোচনা করার জন্যই এই লেখা।
সুন্দর মন্তব্য করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

২৭| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ২:৫৬

মুক্তা নীল বলেছেন:
নীল আকাশ ভাই ,
ঘৃণা হোক আর প্রতিবাদীই হোক ,অসাধারণ কবিতা
লিখেছেন । না আছে ধর্ম , না আছে লজ্জা
শুধু একটি কথাই বলতে ইচ্ছে করছে ভাই,
এদের কি মৃত্যু চিন্তা নেই ?
ধন্যবাদ জানবেন।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৩৬

নীল আকাশ বলেছেন: মুক্তা আপু,
দেরি করে প্রতি মন্তব্য করার জন্য লজ্জিত।

টাকা পয়সা সবারই প্রয়োজন বেঁচে থাকার জন্য। তাই মানে এটা নয় যে টাকার জন্য নিজের দেহ প্রতিনিয়ত বিক্রি করে আবেদনময়ী মডেল হতে হবে। চিন্তা করুন, এই সব মেয়েদের কি সাধারণ ভাবে বেচে থাকা জন্য কোন কিছুরই অভাব? না। তবুও এরা নির্লজ্জের মতো, বেহায়া মতো যা ইচ্ছে নোংরা অপকর্ম করে বেড়ায় এবং প্রকাশ্যে সেটার পক্ষে আবার মিডিয়াতে এসে নিজের জন্য সাফাই গায়। একবারের জন্যও ভাবে যে কোন সময় এদের মৃত্যু হতে পারে! দুনিয়ার মোহে পরে এরা সব কিছু ভুলে গেছে।

এরা নিজেদের দাম জানার জন্য একে ওকে ছবি পাঠায়। কিন্তু এটা নিয়ে প্রশ্ন তুললে বলে আমাদের চরিত্র নাকি ভালো না। এদের ব্যক্তিগত ব্যাপারে কেন আমরা নাক গলাই ? আমাদের মনোবৃত্তি নাকি মানুষের পর্যায়ে উঠে নি । কিছুদিন পরে পরে এর ওর সাথে বিয়ে ছাড়াই হানিমুন করে আসে। খাওয়া দাওয়া শেষ হলে, যখন এদেরকে লাথি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়া তখন তোলে বিশ্বাসহীনতা অভিযোগ। বেশ্যাদের সাথে আবার বিশ্বাসহীনতা কি? টাকা পয়সা তো পেয়েই গেছে! এখন আবার অভিযোগ কেন? মিডিয়া এসে কান্নাকাটি কেন?

লেজ কাটা শিয়াল যেমন সব শিয়ালের লেজ কাটতে চায়! ঠিক তেমনি এইসব মেয়েরা আধুনিকতার ভাব ধরে, এরা ভন্ড। এর নিজেরা নষ্ট হয়ে গেছে আর বাকি ভালো মেয়েদের প্রলুব্ধ করে এদের মতো নষ্ট হবার জন্য। এইসব ভন্ড চরিত্রহীন মেয়েদের যেন চিনতে কেউ ভুল না করে। এদের স্বরূপ উন্মোচনা করার জন্যই এই লেখা।

সুন্দর মন্তব্য করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

২৮| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:৫৪

এস সুলতানা বলেছেন: সুন্দর

০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৫১

নীল আকাশ বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে পড়ার এবং মন্তব্য করার জন্য।
সামাজিক অসংগতিগুলি তুলে ধরার দায়িত্ব আমাদের সবারই।

২৯| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:১৭

সাইফ নাদির বলেছেন: দেহের বদলে জোশ কেনে যারা তাদের ফুল ছবি তুলে ধরেছেন কবিতায়। বেশ ভালো লেগেছে। খুবই মুগ্ধ হয়েছি।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৩৭

নীল আকাশ বলেছেন: সাইফ ভাই,
আমার ব্লগে আসার জন্য ধন্যবাদ।
এইসব ভন্ড চরিত্রহীন মেয়েদের যেন চিনতে কেউ ভুল না করে। এদের স্বরূপ উন্মোচনা করার জন্যই এই লেখা।
এদের বিরুদ্ধে আমি সব সময়ই লিখে যাবো, যতদিন পারি।
সুন্দর মন্তব্য করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

৩০| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৩৫

জুল ভার্ন বলেছেন: চমৎকার!

০৫ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৩১

নীল আকাশ বলেছেন: সুন্দর মন্তব্য করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

৩১| ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৩২

ভ্রমরের ডানা বলেছেন: কবিতায় একটি প্রতিবাদের প্রতিচ্ছবি দেখলাম। আসলে এদের সৃষ্টি আমাদের হাতেই। অশ্লীল দৃশ্য এখন উপভোগ্য করা হয়েছে বিভিন্ন কলাকৌশল অবলম্বনে। এটা একদিন কাল হয়ে দেখা দেবে। শালীনতার মধ্যেই রয়েছে সবরকম মুক্তি।

০৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:৫৭

নীল আকাশ বলেছেন: আপনার সাথে আমি একমত। আমাদের প্রশয় পেয়েই এরা এতদূর বেহায়া হতে পেরেছে। কিন্তু তাই বলে সভ্য সমাজে এরা দিনের পর দিন এইরকম অশ্লীলতা আর নোংরামী আধুনিকতার নামে করে যাবে সেটা তো হতে পারে না। অন্তর্বাস পরে যেই মেয়ে একে ওকে নিজের ছবি পাঠাতে পারে দাম বুঝার জন্য, তার বিরুদ্ধে তো লেখা আসবেই। ঠিক বলেছেন - শালীনতার মধ্যেই রয়েছে সবরকম মুক্তি।
ধন্যবাদ এবং শুভ কামনা রইল।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.