নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আখ্যাত

আমি একজন মন্দ মানুষ বলেই নিজেকে জানি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার উদারতা।

আখ্যাত › বিস্তারিত পোস্টঃ

পুরুষই বেশি আগ্রহী, অগ্রগামী, উদ্যোগী এবং আগ্রাসী

১৫ ই মে, ২০১৯ দুপুর ১:৩৪

এই ভারতবর্ষে ধর্ষণতো কত হয়, পুরুষ করে৷ কখনো শুনেছেন নারীরা ধর্ষণ করে? "ধর্ষিকা" দুনিয়ার কোন অভিধানে আছে? নেই৷ হ্যা, একদু'টা অন্যরকম ঘটনা ঘটলে তা ৭মাথা নারিকেলগাছের মত বিরল।

শুধু পুরুষকে দুষে লাভ নেই। পুরুষতন্ত্রকে গালি দিয়ে কী হবে? কিছু করতালি পাওয়া যাবে বড়জোর। প্রকৃতিকেই দুষতে হবে আগে৷ আক্রমণের আগ্রহ, আক্রমণের ক্ষমতা পুরুষকেই দিয়েছে প্রকৃতি৷ শুধু পুরুষমানুষ কেন, পুরুষকুকুর পুরুষ শুকরওতো এমন৷ পুরুষপশু, পুরুষপাখি; পুরুষপোকা, পুরুষপতঙ্গদেরকে দুষছিনা কেন? নারী নরম, আর পুরুষ আগ্রহী—উদ্যোগী—আগ্রাসী, সবাই জানে৷

না না। ধর্ষকের জয়গান গাইছিনা। ধর্ষণের মহিমাকীর্তন করছিনা৷ বলছিনা, "মানুষের কুকুর হওয়াতে কোন দোষ নেই"৷ প্রাণিপ্রবৃত্তির কালো পটে প্রকৃতির লেখা অমোচনীয় শিলালিপির দিকে তর্জনী নির্দেশ করছি শুধুু৷

আচ্ছা, বিজলির ধ্বংসকারিতার কথা ভাবা যায়? বিদ্যুতের প্রলয়ঙ্করী প্রবাহওতো আমাদের হাতে ধরা দিয়েছে, নিয়মের শৃঙ্খলে বন্দী হয়ে আমাদের দাসত্ব মেনে নিয়েছে৷ মানুষ আমরাই শুধু নিয়ম ভাঙি৷ প্রবৃত্তির পাগলা হাতিকে পোষ মানানোরও নিয়ম আছে৷ শাশ্বত সার্বজনীন সেই নিয়ম কানুন


আমাদের দলে যোগ দিন

মন্তব্য ১১ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (১১) মন্তব্য লিখুন

১| ১৫ ই মে, ২০১৯ দুপুর ২:২৭

পবিত্র হোসাইন বলেছেন: অনেক গভীরে লেখা

২| ১৫ ই মে, ২০১৯ দুপুর ২:৪৮

রাজীব নুর বলেছেন: ধর্ষন করার দরকার কি? ৩০০ টাকা দিয়ে হোটেলে গেলেই তো হয়।

১৬ ই মে, ২০১৯ বিকাল ৪:৩১

আখ্যাত বলেছেন:
খুব উন্নত মানের চিন্তা

৩| ১৫ ই মে, ২০১৯ বিকাল ৩:০১

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: লেখক লেখাটা একটু গভীরে।

৪| ১৫ ই মে, ২০১৯ বিকাল ৩:০২

পারভেজ আলি বলেছেন: প্রকৃতির আপন মহিমা..

৫| ১৫ ই মে, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০১

কানিজ রিনা বলেছেন: আপনার গভীর তত্বের লেখা খুব সহজে বলতে
কার্পন্য করলাম না। কোনও বহুগামী মানুষকে
কিন্তু জীব জানোয়ারের উপমা দেওয়া হয়
তেমন ধর্ষককে শুকুর কুকুরের সাথে তুলনা
করা হয়।
প্রকৃতির নিয়মে জীবজানোয়ার কুকুর শুকর
এমনকি হাঁসমুরগী একে অপরের পিছে দৌড়ায়
অর্থাৎ কুকুর কুকুরীর পিছে,শুকর শুকরীর
পিছে,বানর বানরীর পিছে ইত্যাদী জীবজানোয়ার মোরগ মুরগী প্রকৃতির প্রজননের
ধারা বয়ে চলে। কারন জীবজানোয়ারকে
সৃস্টিকর্তা লজ্জা বিবেক দেন নাই।
আদীম যুগে মানুষ বোন মানুষেরা জীব
জানোয়ারের মতই প্রজনন পদ্ধতিতে লিপ্ত
ছিল। কিন্তু মানুষ যখন থেকে কথা বলতে
শিখেছে যুগে যুগে হাজার হাজার বছর ধরে
মানুষ বিবেকের তারনায় সভ্যতায় পৌছতে
সক্ষম হয়েছে। প্রথম সভ্যতা এসেছে মানুষ
যখন পোষাক পড়তে শিখেছে গাছের চামড়া
লতাপাতা জড়িয়ে। আস্তে আস্তে মানুষ
সামাজীকতায় পৌছেছে বিবেক তারিত হয়ে।
আগুন ব্যবহার শিখার অনেক অনেক পরে
মানুষ পড়তে লিখতে শিখেছে। কারন
মানুষকে আল্লাহ্ সৃস্টি থেকেই বিবেক
দিয়েছেন সেই বিবেকে মানুষ আস্তে আস্তে
সভ্যতায় এসেছে। কিন্তু জীবজানোয়ার আজও
তেমনই আছে তাদের বিবেক নাই বলে।
তাই কোনও ধর্ষক বহুগামী মানুষকে কুকুর
শুকরের উপমা দেওয়া হয়।

১৬ ই মে, ২০১৯ বিকাল ৪:৩১

আখ্যাত বলেছেন:
ধন্যবাদ
কৃতজ্ঞতা

৬| ১৫ ই মে, ২০১৯ রাত ৮:১৮

বলেছেন: কারন
মানুষকে আল্লাহ্ সৃস্টি থেকেই বিবেক
দিয়েছেন সেই বিবেকে মানুষ আস্তে আস্তে
সভ্যতায় এসেছে। কিন্তু জীবজানোয়ার আজও
তেমনই আছে তাদের বিবেক নাই বলে।
তাই কোনও ধর্ষক বহুগামী মানুষকে কুকুর
শুকরের উপমা দেওয়া হয়[email protected]কানিজ রিনা ..অসাম

১৬ ই মে, ২০১৯ বিকাল ৪:৩২

আখ্যাত বলেছেন:
ঠিক বলেছেন

৭| ১৫ ই মে, ২০১৯ রাত ১০:০৯

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: আরেকজন সকল অনিয়মের বিরুদ্ধে অথচ বলছেন ধর্ষন করার দরকার কি? ৩০০ টাকা দিয়ে হোটেলে গেলেই তো হয়।
এই মানুষিকতা পরিহার করতে হবে।

২৪ শে মে, ২০১৯ সকাল ১০:২৩

আখ্যাত বলেছেন:
দুঃখ জনক

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.