নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

pramanik99

আমার স্কুল জীবনের স্মৃতিগুলো বার বার মনে পড়ে। ফিরে যেতে ইচ্ছে করে সেই দিনগুলোতে।

প্রামানিক

শহীদুল ইসলাম প্রামানিক

প্রামানিক › বিস্তারিত পোস্টঃ

গোয়ালন্দের ডাল

০৪ ঠা জুন, ২০১৩ রাত ১০:২৩



শহীদুল ইসলাম প্রামানিক



শত বছরের অধিক হবে

গোয়ালন্দের ঘাট

চলছে সদাই লঞ্চ স্টীমার

যায়নি চুকে পাট।



মালিক-মহাজন কুলি-মজুর

এপার ওপার যায়

যাওয়ার সময় লাগলে ক্ষুধা

হোটেলগুলোয় খায়।



পদ্মা নদীর ইলিশ ভাঁজা

পাংগাস মাছের পেটি

চিংড়ি মাছের দোপিয়াজি

যার পছন্দ যেটি।



ছোট মাছের চচ্চরি আর

বোয়াল মাছের ঝোল

একবার খেলে আবার যাবেন

ছেড়ে মায়ের কোল।



গরু নামের মহিষ পাবেন

ভেড়া নামের খাসি

টাটকা ঝোলের তরকারীতে

মুরগীর মাংস বাসি।



এমন স্বাদের তরকারী সব

যায়না কভু ভোলা

সাজিয়ে রাখে সব দোকানে

ঢাকনা ছাড়া খোলা।



ভাতের সাথে মাছ মাংস ভাই

ইচ্ছা মতো খাবেন

বিনা পয়সায় শত বছরের

পাতলা ডালও পাবেন।



নতুন ডাল রান্না করে

সেই ডালের সাথে

শত বছরের বাসি ডাল যে

দিচ্ছে ঢেলে তাতে।



এমনি করে প্রত্যেক দিন

চলছে ডালের রান্না

জিগ্যেস করলে বলে দেবে রে

বুড়ো বাবুর্চি পান্না।



চলছে রান্না যুগযুগ ধরে

শেষ হয়না ভাই

শত বছরের পুরানো ডাল

গোয়ালন্দেই পাই।



পরশু তরশু যখনি খান

কিংবা আগামী কাল

কোন দিনই শেষ হবে না

গোয়ালন্দের ডাল।

মন্তব্য ৬ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৬) মন্তব্য লিখুন

১| ০৪ ঠা জুন, ২০১৩ রাত ১১:১৭

আরজু পনি বলেছেন:

ছবিটা কিন্তু জোশ আসছে ...দেখেই খেতে ইচ্ছে করছে :P

০৭ ই ডিসেম্বর, ২০১৫ সকাল ৮:৩৯

প্রামানিক বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই আরজু পনি। অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল।

২| ০৫ ই জুন, ২০১৩ রাত ১২:০৭

অরুনোদয় বলেছেন: +

০৭ ই ডিসেম্বর, ২০১৫ সকাল ৮:৪০

প্রামানিক বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই অরুনোদয়। অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল।

৩| ০৬ ই জুলাই, ২০১৬ সকাল ৮:৫৩

কালনী নদী বলেছেন: জীবনে একটিবার গোয়ালন্দে খাবার ইচ্ছা আছে ভাই।

১৩ ই জুলাই, ২০১৬ রাত ১২:০৪

প্রামানিক বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই, গিয়ে খেয়ে আসতে পারেন। শুভেচ্ছা রইল।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.