নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

হযরত মোহাম্মদ (সঃ)

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:১৮



আল্লাহকে পেতে হলে আগে নবীজি (সা.)কে পেতে হবে।
সকল মুসলমানের কাছে বড় প্রিয় একটি নাম- মোহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। ‘মাইকেল হার্ট’ যিনি বিশ্বের সর্বকালের সবচাইতে প্রভাবশালী একশত সেরা মনীষীর জীবনী লিখেছেন, তিনি সেই জীবনী তালিকায় প্রথমেই মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)-কে স্থান দিয়েছেন। মহানবী (সা.) কখনো কাউকেও অশ্লীল-অশালীন কথা বলতেন না। অভিশাপ দিতেন না এবং গালাগাল করতেন না। কারো প্রতি অসন্তুষ্ট হলে শুধু এতটুকু বলতেন: তার কি হলো, তার কপাল ধুলোমলিন হোক! -(সহীহ বুখারী)

বিশ্বনবী (সা.)'র আবির্ভাব ঘটেছিল মানব জাতির এক চরম দুঃসময়ে যখন বিশ্বজুড়ে বিরাজ করছিল হানাহানি,জাতিগত সংঘাত,কুসংস্কার,অনাচার এবং জুলুম ও বৈষম্যের দৌরাত্ম্য। নারী জাতির ছিল না কোনো সম্মান। শির্ক ও কুফরির অন্ধকারে গোটা পৃথিবী হয়ে পড়েছিল আচ্ছন্ন। বর্তমান বিশ্বে জাতিতে জাতিতে হানাহানি, রাহাজানি এবং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড যে হারে বিস্তার লাভ করছে তা থেকে পরিত্রাণ লাভের একমাত্র উপায় হলো তাঁর প্রদর্শিত পথে চলা।


মহানবী (সাঃ) একদিন একটি গাছের তলায় ঘুমিয়েছিলেন।
এই সুযোগে দাসুর নামের একজন শত্রু তাঁর পাশে এসে দাঁড়াল। শোরগোল করে সে মহানবী (সাঃ) কে ঘুম থেকে জাগালো। মহানবীর (সাঃ) ঘুম ভাঙলে চোখ খুলে দেখলেন, একটা উন্মুক্ত তরবারি তাঁর উপর উদ্যত।

ভয়ানক শত্রু দাসুর চিৎকার করে উঠলো, এখন আপনাকে কে রক্ষা করবে?
মহানবী (সাঃ) ধীর শান্ত কণ্ঠে বললেন, ‘আল্লাহ।’
শত্রু দাসুর মহানবীর (সাঃ) এই শান্ত গম্ভীর কণ্ঠের আল্লাহ শব্দে কেঁপে উঠল, তার কম্পমান হাত থেকে খসে পড়ল তরবারি।

মহানবী (সাঃ) তার তরবারি তুলে নিয়ে বললেন, ‘এখন তোমাকে কে রক্ষা করবে, দাসুর?
সে উত্তর দিল কেউ নেই রক্ষা করার।’
মহানবী (সাঃ) বললেন, ‘না, তোমাকেও আল্লাহই রক্ষা করবেন।’ এই বলে মহানবী (সাঃ) তাঁকে তার তরবারি ফেরত দিলেন এবং চলে যেতে বললেন।

বিস্মিত দাসুর তরবারি হাতে চলে যেতে গিয়েও পারল না ফিরে এসে মহানবীর (সাঃ) হাতে হাত রেখে পাঠ করলঃ ‘লা- ইলাহ ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ।’



মহানবী (সা.) এর রেখে যাওয়া কুরআন ও সুন্নাহর আলোকে আমাদের জীবন পরিচালিত হোক এই তাওফিক কামনা করছি মহান রাব্বুল আলামীনের কাছে।

মন্তব্য ২৪ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (২৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৪০

অজানা তীর্থ বলেছেন: ফর্সা রঙ এর মানুষ হলে আমরা তাকে সুন্দর বলি অথবা বর্তমানে অনেক ভাবে আমরা একজন মানুষ কে সুন্দর বলে থাকি। সত্যিকার অর্থে সুন্দর বলতে, আদর্শ বলতে, অতুলনীয় বলতে, শেষ কথা হচ্ছে এই পৃথিবীর যত বিশেষণ আছে তা শুধু মহানবী সঃ এর জন্যে প্রযোজ্য। আল্লাহ আমাকে, আপনাকে এবং সকল মুসলমান ভাইকে আমার নবীর মত হবার তৌফিক দান করুক। যেন সু-আত্মা হয়ে এই পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে পারি।

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৫১

রাজীব নুর বলেছেন: খুব সুন্দর মন্তব্য করেছেন।
ধন্যবাদ।

২| ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৪

ইসিয়াক বলেছেন: আলহামদুলিল্লাহ

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৫২

রাজীব নুর বলেছেন: জ্বী।

৩| ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৫০

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: তাই তো রসুলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেন, ‘তোমাদের কেউ মুমিন হতে পারবে না, যতক্ষণ না আমি তার কাছে তার পিতা-মাতা, সন্তান ও সব মানুষের চেয়ে বেশি প্রিয় হই। ’ বুখারি। হাদিসের এ দাবি প্রতিফলিত হয়েছিল সাহাবিদের বাস্তব জীবনে। রসুলুল্লাহ (সা.) ছিলেন সাহাবিদের কাছে তাঁদের জীবনের চেয়েও প্রিয়। হজরত ওমর (রা.) রসুল (সা.)-কে বললেন, ‘হে রসুল! আমি আপনাকে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসি তবে আমার নিজের চেয়ে বেশি নয়

রসুল (সা.) বললেন, আল্লাহর শপথ! তোমার নিজের চেয়েও আমাকে বেশি ভালোবাসতে হবে। তখন ওমর (রা.) বললেন, এখন আমি আপনাকে নিজের চেয়েও বেশি ভালোবাসি। অতঃপর রসুল (সা.) বললেন, হে ওমর! তাহলে এখন ঠিক আছে। ’ বুখারি।

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ ভাইজান।

৪| ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:১৯

ওমেরা বলেছেন: আপনি কি এখন জান্নাতে যেতে চান?

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:২৮

রাজীব নুর বলেছেন: জান্নাতে আমি যাবো না। কোনো ইচ্ছাও নাই।

৫| ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৩২

ওমেরা বলেছেন: তাহলে আবার কোরআন হাদীস অনুসারে চলার তৌফিক চাচ্ছেন ?

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৩৩

রাজীব নুর বলেছেন: আমি অধম তাই বলে কি আপনারা উত্তম হবেন না??

৬| ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৩৮

ওমেরা বলেছেন: অাগে নিজে উত্তম হয়ে অন্যদের উত্তম হওয়ার দুয়া,নসিয়ত করতে হয় না হলে মানুষ তাকে ভন্ড বলবে আর তার কথারও প্রভাব পরবে না অন্যদের উপরে।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: কথাটা ভুল।
ধরুন একজন গানের শিক্ষক। তার কোনো গানের ক্যাসেট বের হয়নি। উনি নাটক সিনেমাতে কোনো গান গান নি। অথচ উনি হাজার হাজার ছেলে মেয়েকে গান শেখান। তারা প্রতিষ্ঠিতও হয়।
এখন আপনি বলবেন, উনি গানের শিক্ষক হওয়ার যোগ্যতা নেই।

৭| ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৩৮

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: ওমেরা আপুর মন্তব্যের রিপ্লে দেখে হাসলাম =p~


আল্লাহ আপনাকে উত্তম জিন্দেগী দান করুন, আমিন

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৪০

রাজীব নুর বলেছেন: আমিন।

৮| ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৪৪

বিড়ি বলেছেন: আপনার পোস্টের চেয়ে মন্তব্য পরে বেশি ভালো লাগলো :)

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৪১

রাজীব নুর বলেছেন: শুকুর আলহামদুলিল্লাহ।

৯| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:২৮

বলেছেন: আপনি কি সত্যি সত্যি জান্নাতে যেতে চান না? কারণ কি??

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১১

রাজীব নুর বলেছেন: না। আমি জান্নাতে যেতে চাই না।

১০| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৯

ইসিয়াক বলেছেন: বন্ধু আপনার মাথাটা একেবারে গেছে !!!!!!!!!

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৩

রাজীব নুর বলেছেন: এতদিন পর একটা সত্যি কথা বলেছেন।

১১| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০১

তারেক ফাহিম বলেছেন: পোষ্ট, মন্তব্য, প্রতিত্ত্যর গুলোতে ভালোলাগা।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৩

রাজীব নুর বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। ভালো থাকুন।

১২| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:১৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: এ ধরণের পোস্ট বোধকরি আপনার ব্লগে এই প্রথম দেখলাম। আল্লাহ রাব্বুল 'আ-লামিন আপনাকে হেদায়েত দান করুন!
শুভকামনা---

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:২১

রাজীব নুর বলেছেন: না, এরকম পোষ্ট আমি প্রায়ই দেই। হয়তো আপনার চোখে পড়ে নি।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.