নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

রাস্তায় পাওয়া ডায়েরী থেকে-১২৫

১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৩



১। এক গৃহস্থের ঘরের পেছনে বেগুন গাছে টুনটুনি পাখি বাসা বেঁধেছে। বাসার ভেতর তিনটি ছোট্ট ছোট্ট ছানা হয়েছে। গৃহস্থের বিড়ালটা ছিল ভারি দুষ্টু। সে খালি ভাবে, টুনটুনির ছানা খাব। একদিন সে বেগুন গাছের তলায় এসে বলল, ‘কী করছিস টুনটুনি?’
টুনটুনি মাথা হেট করে বিড়ালকে বলল, ‘সালাম মহারানি।’
বিড়াল খুশি হয়ে চলে গেল।

এমনি রোজ আসে বিড়াল।
টুনটুনি তাকে সালাম জানায় আর মহারানি বলে। এর মধ্যে টুনটুনির ছানাগুলো বড় হয়েছে। সুন্দর পাখা হয়েছে।
একদিন টুনটুনি ছানাদের জিজ্ঞেস করল, ‘বাছা, তোরা উড়তে পারবি?’
ছানারা বলল, ‘হ্যাঁ, মা, পারব!’
ছানারা তখনই উড়ে গিয়ে পাশের তালগাছে বসল।
টুনটুনি খুশ হয়ে বলল, ‘এবার আসুক দুষ্ট বিড়াল।’

একটু পরেই বিড়াল এসে আগের মতো জিজ্ঞেস করল, ‘কী করছিস টুনটুনি?’
টুনটুনি তখন পা উঠিয়ে ‘দূর হ, লক্ষ্মীছাড়া বিড়াল।’ বলেই ফুড়ুত করে উড়ে পালাল।
দুষ্ট বিড়াল দাঁত খিঁচিয়ে মুখ উঁচিয়ে লাফিয়ে গাছে উঠে বেগুন কাঁটার খোঁচা খেয়ে নাকাল হলো। টুনটুনিকেও ধরতে পারল না, ছানাও খেতে পারল না।

টুনটুনির গল্প পড়ে যে আনন্দ ও শিক্ষা আমি পেয়েছি, সারা জীবন আমার কাছে তা এক অমূল্য সম্পদ হয়ে থাকবে।

২। অনেকদিন আগে একবার আমি মিসির আলির মতন করে একটা সমস্যার সমাধান করেছিলাম।
সমস্যাটা ছিল এই রকম- একটা মাদ্রাসায় অনেক গুলো ছেলে মেয়ে থাকত। প্রতিটা ছেলে-মেয়েই ধনী পরিবার থেকে এসেছে। মাদ্রাসা মানেই কিন্তু এতিম ছেলেমেয়ে- এই ধারনা ঠিক নয়।

সেই মাদ্রসায় আমার পরিচিত মিশু নামে একটা ছেলে থাকত। একদিন মিশু বলল- তাদের মাদ্রসায় অদ্ভুত একটা ব্যাপার এক মাস ধরে ঘটছে। অদ্ভুত ব্যাপারটি হলো- মাদ্রসার প্রতিটা ছেলে-মেয়ের দাঁত ব্রাশ করার পেষ্ট টিউব থেকে নাই হয়ে যায়। দিনের পর দিন একই ব্যাপার টিউব থেকে পেষ্ট উধাও হয়ে যায়। এই সমস্যার সমাধান আমি তিন মিনিটে করেছিলাম।

মাদ্রাসার এক হুজুর প্রতিদিন রাতে বেসিনে গিয়ে টিউব থেকে সব পেষ্ট বের করে ফেল দিত। আমি মাদ্রাসার হুজুর কে জিজ্ঞেস করলাম-আপনি এই কাজ কেন করেন? হুজুর লজ্জায় মাথা নত করে বললেন- পেষ্ট টিপ দিয়ে বের করতে অনেক ভালো লাগে। অনেক আনন্দ পাই।

৩। এক মহিলা প্রতিদিন তার বাড়ির বারান্দায় দাঁড়িয়ে চিৎকার করে- সকল প্রশংসা আল্লাহর।
পাশের বাড়ির এক নাস্তিক তাই শুনে জবাব দেয়- আল্লাহ বলতে কিছু নেই।

একদিন মহিলা বারান্দায় দাঁড়িয়ে চিৎকার করলো- আল্লাহ, আমার বাজারটা করে দাও।
একটু পরে সে দেখলো তার বাড়ির বাইরে ব্যাগ ভর্তি তরকারি-মাছ ইত্যাদি পড়ে আছে।
সে তা দেখে চিৎকার করে বললো- সকল প্রশংসা আল্লাহর।
পাশের বাড়ির নাস্তিকটি বললো, আল্লাহ বলে কিছুই নেই। আমি ওই বাজার করে দিয়েছি।

মহিলা বললো- সকল প্রশংসা আল্লাহর। তিনি শুধু আমার বাজারই করে দেননি, শয়তানকে দিয়ে তার দামও পরিশোধ করিয়েছেন।

মন্তব্য ২০ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (২০) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:১৮

শুভ্রনীল শুভ্রা বলেছেন: ১ নম্বর গল্পটি আগে শুনেছিলাম। ২ নম্বরটা পড়ে হাসি পেয়েছে। মানুষের কত অদ্ভুত রকমের অভ্যাস ! আর ৩ নম্বরটার শেষ লাইনটিও বেশ ছিল।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে।

২| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৫

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: আস্তিক এবং নাস্তিকের স্রষ্টা কে?

গল্প খুব ভালো লেগেছে।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৩৭

রাজীব নুর বলেছেন: স্রষ্টা কে? কে? কে?

৩| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৪

ইসিয়াক বলেছেন: ভালোই.....।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৩৭

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

৪| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:০৩

দৃষ্টিসীমানা বলেছেন: আপনি এই পোস্টটি সরিয়ে ফেলুন ।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: যদি কাভা ভাই বলেন তাহলে সরাবো।

৫| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:০৩

দৃষ্টিসীমানা বলেছেন: আপনি এই পোস্টটি সরিয়ে ফেলুন ।

৬| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৪৪

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
লেখক বলেছেন: স্রষ্টা কে? কে? কে?

পৃথিবীর সকল সৃষ্টির মালিক হলেন স্রষ্টা।
বিশ্বাস না হলে নাকটা ৫ মিনিটের জন্য চেপে ধরুন।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:০২

রাজীব নুর বলেছেন: আপনি কি আমাকে মারতে চান নাকি??!!!!

৭| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৪৯

জাহিদুল ইসলাম ২৭ বলেছেন: লেখক বলেছেনঃ স্রষ্টা কে?কে?কে?
যে কারনে আমরা আজ এখানে, মানুষ তার নাম দিয়েছে"ঈশ্বর"।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:০৩

রাজীব নুর বলেছেন: মন্দ করে কে? মানুষ।
ভালো করে কে? ইশ্বর।

৮| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:১২

অধীতি বলেছেন: রম্য লেখা খুব ভাল লাগে।প্রথমটা জানা ছিল ।বাকি দুটো অসাধারণ ।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:৪১

রাজীব নুর বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ।

৯| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:৫৬

রুপ।ই বলেছেন: ৩ নম্বরটা দারুন। মজা পেয়েছি।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২১

রাজীব নুর বলেছেন: শুকরিয়া।

১০| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১২:১০

কামরুন নাহার বীথি বলেছেন:
অনেক অনেক শুভকামনা!!!

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:১১

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ বোন।

১১| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৭

সোনালী ডানার চিল বলেছেন:


সুপ্রিয় ব্লগার, আশা করি ভালো আছেন- আপনার ইদানিং কিছু পোষ্ট
বেশ মিশ্র প্রতিক্রিয়া আনে; কিন্তু তা ঠিক বুঝে উঠতে পারিনা বলেই
বিস্তারিত মন্তব্য করা হয় না।

শুভকামনা রইল-

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.