নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

ঢাকার পথে পথে- ২০ (ছবি ব্লগ)

১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:২৩



ইদানিং মনে হচ্ছে আমি বার্ধক্যে চলে এসেছি।
সময় শেষের দিকে। সব কিছু থেকে অবসর নিয়েছি। এখন শুধু অবসর আর অবসর আমার। বই পড়া, মুভি দেখা আর ব্লগিং। এছাড়া দুনিয়াতে আমার আর অন্য কোনো কাজ নেই। কেউ যখন জিজ্ঞেস করের আপনি কি করেন? উত্তরে 'বেকার' এই কথাটা বলা অনেক কষ্টকর। তার চেয়ে অবসরে আছি এটা বলা ভালো। সে যাক গে, কিছু লেখার চেয়ে ছবি নিয়ে পোষ্ট দেওয়াই ভালো। শুধু ছবি থাকবে। তাতে কোনো নিজের কথা থাকবে না। মতামত থাকবে না। শুধু ছবি। তাতে কারো খারাপ লাগবে না। কেউ কঠিন করে মন্তব্য দিবে না। কটু কথাও বলবে না। নিশ্চিন্ত থাকা যায়। ছবি তোলাও মনে হয় হারাম। গান বাজনা হারাম, মদ হারাম। যাই হোক, অনেকদিন পর 'ঢাকার পথে পথে' ছবি ব্লগ দিলাম। ছবি গুলো দেখুন। তুচ্ছ এবং সাধারন সব ছবি। কোনো রকম চিন্তা ভাবনা করে এসব ছবি তুলি নি। হুটহাট করে তোলা। সবাই ভালো থাকুন। সুস্থ থাকুন।

১।
শীতের এক সকালে মতিঝিলে। চারিদিকে ভীষন কুয়াশা। জন্ম ম্রিতু বিয়ে কোনো কিছুই আটকায় না শীতে।

২।
নতুন বছর উৎযাপন। ফটকা আতশবাজি।

৩।
ফার্ম নয়। দেশী মূরগীর ডিম।

৪।
ঢাকা শহরের সমস্ত এলাকার রাস্তায় এখন পিঠার দোকান। চিতই আর ভাপা পিঠা। সাথে তিন রকমের ভরতা। ঢাকা শহরের মানুষ পিঠা পছন্দ করে। ঘরে বানায় না, তাই সবাই দোকান থেকে পিঠা কিনে।

৫।
এবার শীত মানুষকে কাপিয়ে দিয়েছে। গ্রামে নিশ্চয়ই আরো বেশি শীত।

৬।
রাস্তার পাশে ফুটপাতে বইয়ের দোকান। পল্টন। এই বইটা কিনলাম।

৭।
নাম তার রফিক। বয়স ৩৫ বছর। জন্মের পর থেকেই হাটতে পারে না। বসতেও পারে না। তার ভিক্ষা ছাড়া অন্য কোনো উপায় নেই। সব আল্লাহর ইচ্ছা। আল্লাহর হিসাব বুঝা সাধারন মানুষের কর্ম নয়।

৮।
বাচ্চা মেয়েটা পার্কে বেড়াতে আসে নি। উন্নয়নের মহাসড়কে ফুল বিক্রি করতে এসেছে। সময় সকাল ১১ টা।

৯।
খিলগাও। খুব ব্যস্ত রাস্তা। আজ একমাস ধরে রাস্তাটার এরকম হয়ে আছে। এরকম একটা নয় অনেক গুলো গর্ত। কবে স্লাব বসানো হবে কে জানে!

১০।
দুই দিন আগের তোলা ছবি। ভয়াবহ কুয়াশা।

১১।
শীতকালে গাছপালা মলিন হয়ে পড়ে। বর্ষা এলে তরতাজা হয়ে উঠবে।

১২।
পার্কে বসে পত্রিকা পড়ার মজাই অন্যরকম।

১৩।
রাস্তায় কাঠখড় পুড়িয়ে আগুন জ্বালানো হয়। প্রচন্ড শীতে আগুন পোহাতে ভালো লাগে। আমি আগুন পোহালাম। খুব ভালো লেগেছে।

১৪।
সিটি করপোরেশন নির্বাচন উপলক্ষ্যে ঢাকায় প্রতিদিনই মিটিং মিছিল দেখা যাচ্ছে। মিছিলে এত লোক হয় যে রাস্তায় জ্যাম লেগে যায়।

১৫।
পল্টন মোড়ে রাস্তায় একটি বইয়ের দোকান।

১৬।
হাতীর ঝিল। সকাল ১১ টা। দারুন কুয়াশা চারিদিকে।

১৭।
শতকরা ৭০ জন বাইকওয়ালা রাস্তায় বের হলে কোনো নিয়ম মানেন না। তাদের জন্য এই সিস্টেম করা হয়েছে।

১৮।
লইটা শূটকি। আমি মাঝে মাঝে খাই।

১৯।
ছবিটাতে কি চড়ুই পাখি বুঝা যাচ্ছে? আমাদের ছাদে প্রচুর চড়ুই আসে।

মন্তব্য ২৮ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (২৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:৪২

সায়েমুজজ্জামান বলেছেন: বিদেশে থেকেও ঢাকা ঘুরে এলাম। ধন্যবাদ আপনাকে।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:৫০

রাজীব নুর বলেছেন: ভালোবাসা নিরন্তর।

২| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:২৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ভালো মেজাজ নিয়েই ছবি দেখা শুরু করেছিলাম। ৭/৮ নম্বর ছবি দুটো দেখার পর মন ভালো থাকবে না কারোই। শুধু আনন্দই যদি করতে চান, তাইলে ঐ দুটো ছবি এ পোস্ট থেকে বাদ দিয়ে দিন, আর আমার কমেন্টটাও বাদ দিন। আবার এসে কমেন্ট করবো।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: পুরোপুরি আনন্দ বলে কিছু নেই।
আনন্দের সাথেও দুঃখ কষ্ট মিশে থাকে।

৩| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:৫৭

নূর আলম হিরণ বলেছেন: এদেশের সরকার আন্তরিক হলে সবার জন্য সরকার কোন না কোন চাকুরীর ব্যবস্থা করতে পারবে। এই নিয়ে একটা পোস্টের অর্ধেক লিখছিলাম এখন আর শেষ ইচ্ছে হয়না ঐ পোস্টটি। সরকার ব্লগ পড়বে না, ব্লগ বন্ধ করতে চায়।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: সরকার কান কথা শুনে। চিলে কান নিয়ে গেছে চিলের পেছনে ছুটে। কানটা ধরে দেখে না আসলেই চিলে নিয়েছে কিনা।

৪| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:০১

চাঁদগাজী বলেছেন:


৭ নং:

এই পংগু মানুষটাকে দেখে মনে হচ্ছে, কোন দুষ্ট মানুষ হয়তো এই মানুষটাকে পংগু করেছে।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:০৭

রাজীব নুর বলেছেন: না জন্ম থেকেই এই রকম।

৫| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১২:২৩

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
এটা এক দিক থেকে ভােলো।
আমিও একবার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম
ফুল পাতা দিয়ে পোস্ট দিতে।
তা হলে কারো বিরাগভাজন
হতে হবে না।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২১

রাজীব নুর বলেছেন: দেখেছেন দুষ্টলোকদের কাছ থেকে কিভাবে হেরে যেতে হয়।

৬| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৭:২৬

নজসু বলেছেন:



ছবি কথা বলে।
আজকাল দেশি মুরগীর ডিম আমাদের গ্রাম এলাকাতেই কম দেখা যায়। ঢাকাতেই বেশি পরিমাণ দেখছি।
দামও মনে হয় অনেক বেশি।

পঙ্গু মানুষটাকে দেখে খারাপ লাগছে।

আমারো ইদানিং মনে হয় ধীরে ধীরে পৃথিবীর আলো বাতাস আমার জন্য করা বরাদ্দ শেষ হয়ে যাচ্ছে।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২২

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য।
দেশি মূরগীর অনেক দাম।
এরকম পঙ্গু লোকের সংখ্যা কিন্তু অনেক।

৭| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৭:৪৬

শুভ্রনীল শুভ্রা বলেছেন:
সবার মন জুগিয়ে চলা লেখকের কর্ম নয়। তাঁর যে গল্পটি বলতে ইচ্ছে করবে, সেটাই বলবে। তাতে কারো ভালো লাগবে আবার কারো লাগবেনা, সেটাই স্বাভাবিক।
৩ নম্বর ফটোতে, আপনি বলেছেন দেশি মুরগির ডিম। এতদিন তো জানতাম দেশি মুরগির ডিম সাদা হয় ! আমার জানায় ভুল ছিল নিশ্চয়।
হরেক রকমের ভর্তা দিয়ে চিতই পিঠা খেতে বেশ ভালোই লাগে।
শেষ ছবিতে, একগাছে এতগুলো চড়ুই ! বেশ সুন্দর লাগছে।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২৪

রাজীব নুর বলেছেন: পুরোপুরি সাদা না হলেও দেশি মূরগীর ডিম এগুলো। তাছাড়া ডিমের ঝুড়ির উপরে একটা হলুদ আলো জ্বলছিলো।

৮| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৮:০০

ইসিয়াক বলেছেন: খুব সুন্দর।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২৪

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

৯| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৮:০২

ইসিয়াক বলেছেন: ভাবছি আমিও ছবি ব্লগ পোষ্ট দেব। কিন্তু শুধু কবিতাই পোষ্ট দিতে ইচ্ছা করে।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২৪

রাজীব নুর বলেছেন: সব রকম পোষ্ট ই দিবেন।

১০| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:৫৪

নতুন বলেছেন: নীল রং কি সুরভী ভাবীর পছন্দ? না কি আপনার?

আপনার মোজা আর সোয়েটার সবই নীল B-))

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১০:০৭

রাজীব নুর বলেছেন: আরে না।
হাতের কাছে যা পাই তাই পড়ি। এত বাছবিচার করার সময় কই?

১১| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১১:২২

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন:
চলতি পথে কাঁটাবনের খাঁচাবন্দি পাখি আর সোনালী মাছের ছবি পোস্ট করবেন। কাঁটাবন ঢালে বিখ্যাত অষ্টব্যঞ্জনে আমন্ত্রণ রইলো। পৃথিবীর সেরা ভূনা খিচুড়ি আর গ্রিল চিকেন ওখানে পাওয়া যায়। :)

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:১১

রাজীব নুর বলেছেন: ভূনা খিচুড়ি আর গ্রিলের দাওয়াত দিলেন নাকি??? বুঝলাম নাতো। ঝেড়ে কাশুন।

১২| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৩৬

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
লেখক বলেছেন: দেখেছেন দুষ্টলোকদের কাছ থেকে কিভাবে হেরে যেতে হয়।

আপনি এত দূর্বল চিত্তের কেন?
কোমর সোজা করে দৃঢ় চিত্তে
লড়ুন সত্যের পক্ষে। কে কি বললো
তা আমলে না এনে আপনি যেটা
বিশ্বাস করেন তাই প্রকাশ করবেন।
তবে কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত
করবেন না। আপনি নাস্তিক না। সুতরাং
আমি দোজখে যাব এমন কথা বলা আপনার
মুখে শোভা পায়না। আমার বিশ্বাস সুরভী ভাবীও
আপনার সাথে এক মত হবেন না আপনার দোজেখে
যাবার সিদ্ধান্তে।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:৩২

রাজীব নুর বলেছেন: সাহস পেলাম।

১৩| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:৫৮

শাহাদাৎ হোসাইন (সত্যের ছায়া) বলেছেন: ওস্তাদ ফুটপাত দখল নিয়ে একটা ছবি ব্লগ দেন।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:০৩

রাজীব নুর বলেছেন: ওকে। এটা কোনো ব্যাপারই না।

১৪| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:৪৬

হাবিব স্যার বলেছেন: বইটা কি দশটাকা দিয়ে কিনেছেন/?
আপনার ছবি কে তুলে দিল?

১৬ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:৩২

রাজীব নুর বলেছেন: বইটার দাম নিয়েছে ১৫০ টাকা।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.