নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

ঘর সংসারের গল্প

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৪০



শিক্ষক ক্লাসে ঢুকে ব্লাকবোর্ডে একটা লম্বা দাগ টানলেন।
এবার সবাইকে উদ্দেশ্য করে জানতে চাইলেন: -আচ্ছা তোমাদের মধ্যে কে আছো? যে এই দাগটিকে ছোট করতে পারবে? কিন্তু শর্ত হচ্ছে তোমরা একে মুছতে পারবে না!! না মুছেই ছোট করতে হবে!
ছাত্ররা সবাই অপারগতা প্রকাশ করলো। কারণ, মোছা ছাড়া দাগটিকে ছোট করার আর কোনো পদ্ধতি তাদের মাথায় আসছে না!!
শিক্ষক দাগটির নীচে আরেকটি দাগ টানলেন, যা আগেরটির চেয়ে একটু বড়। ব্যস, আগের দাগটি মোছা ছাড়াই ছোট হয়ে গেলো!
শিক্ষক বললেন, বুঝতে পারলে তোমরা? কাউকে ছোট করতে বা হারাতে হলে তাকে স্পর্শ না করেও পারা যায়! নিজেকে বড় করো, গড়ে তুলো, তাহলে অন্যের সমালোচনা/ দুর্নাম করে তাকে ছোট করতে হবে না, তুমি বড় হলে এমনিতেই সে ছোট হয়ে যাবে!!

আজ শুক্রবার।
অবশ্যই শুক্রবার দিনটা অন্য সব দিন থেকে আলাদা। শুক্রবার সকালে আমি হোটেলে নাস্তা খাই। নাস্তা খেয়ে বাসায় ফেরার পথে সবজি টবজি কিনে নিয়ে যাই। সুরভি বলেছে আজ যেন একটা লাউ অবশ্যই কিনি। লাউ কিনতে গিয়ে আমি অবাক! একটা লাউ ১০০ টাকা। এক দাম। লাউ সাধারন সর্বোচ্চ ৪০/৫০ টাকা হয়। তার জন্য ১০০ টাকা!! কি হচ্ছে দেশে এইসব! বাধ্য হয়ে ১০০ টাকা দিয়েই একটা লাউ কিনলাম। রেকর্ড। যদিও লাউ আমি খাই না। কোনোদিন খাইও নাই। লাউ প্রসঙ্গে মনে পড়লো- আমার দাদীজান কচি লাউ এর চকলা দিয়ে একদম কুচি কুচি করে দুধ দিয়ে এক ধরনের পিঠা বানাতেন। সেই পিঠাও আমাকে দেওয়া হয়েছিলো, আমি খাই নি। ইদানিং পাটিসাপটা আর বিবিখানা পিঠাটা খুব খেতে ইচ্ছা করছে। বাসায় এত রকম পিঠা বানায় অথচ কেউ পাটিসাপটা বা বিবিখানা পিঠা বানায় না। আমিও রাগ করে বলি না।

আমার ঘর সংসার আছে।
একটা মেয়ে আছে। স্ত্রী আছে। এলোমেলো জীবনযাপন করা আমাকে মানায় না। হুট করে মরে গেলে সুরভি আর পরী বিরাট বিপদে পড়বে। আমার ব্যাংকে কোনো টাকা পয়সা নেই। অবশ্য আমার কোনো পাওনাদারও নেই। পরিবারের দিকে তাকিয়ে আমাকে দীর্ঘদিন সুস্থভাবে বেচে থাকতে হবে। বিয়ে করা মানে বিশাল দায়িত্ব মাথায় নেওয়া। দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতেই হবে। শুধু স্ত্রী, কন্যার প্রতি দায়িত্ব না। মা-বাবা আছেন, ভাইরা আছে। সবার প্রতি আমার দায়িত্ব আছে, আমি সুন্দরভাবে সবার প্রতি দায়িত্ব পালন করতে চাই। আজ অনেকদিন পর জুম্মার নামাজ পড়লাম। জুম্মার নামাজ পড়লেই পড়ে আমি কবরস্থানে যাই। দীর্ঘ দিনের অভ্যাস। ভালো লাগে। কবরস্থানের সামনে ভিক্ষুকরা বসে থাকে, আমি তাদের জন্য নতুন টাকা নিয়ে যাই। সবাইকে বিশ টাকা করে দেই। বাসায় ফেরার পথে দেখলাম দেশী কুল বড়ই বিক্রি করছে। এক কেজি কিনলাম। একশ' টাকা।

আজ দুপুরে ভাত খেলাম লাল শাক দিয়ে।
আমি ভারী খাবার খাওয়া ছেড়ে দিয়েছি। এখন থেকে হালকা পাতলা খাবার খাবো। সাদা ভাত, লাল শাক আর ইলিশ মাছ ভাজা। খাবারের উপর নির্ভর করে মানুষের শরীর ভালো থাকা, মন্দ থাকা। গতকাল ভাবীর বাসায় মেহমান এসেছিলো। আমারও দাওয়াত ছিলো। ভাবী দুনিয়ার খাবার রান্না করেছেন। গরুর মাংস, রোস্ট, হাসের মাংস, চিংড়ি ফ্রাই, মটরশুটি দিয়ে পোলাউ। আমি এসব কিচ্ছু খাই নাই। রাতে আমি শুধু মুড়ি খেয়েছি। আমি বুঝে গেছি- শুধু মাত্র খাবারটা বেছে খেলেই সুস্থ থাকা যায়। বুঝে না বুঝে এতদিন পাগলের মতো অনেক খেয়েছি। এখন থেকে খাবার বেছে বেছে খাবো। আমাকে বেচে থাকতে হবে। সুস্থ থাকতে হবে।

তিন বছর হয়ে গেছে।
ঘরে রঙটঙ করি না। দেয়াল গুলো কেমন মলিন হয়ে গেছে। খাট, আলমারি, ওয়ার্ডডোব গুলো কেমন মলিন হয়ে গেছে। বার্নিশ করা দরকার। ছোটবেলায় আব্বাকে দেখতাম প্রতি বছর ঘরে রঙ করাতেন। ফানির্চার গুলো বানির্শ করাতেন। বাথরুমের কল গুলোতে সমস্যা দেখা দিয়েছে। সারারাত টপ টপ করে পানি পড়তেই থাকে। বেসিনের কলটাও নষ্ট হয়ে গেছে। বিশুদ্ধ পানির জন্য একটা ফিল্টার মেশিন কিনতে হবে। ফিল্টার মেশিনের অনেক দাম। দশ হাজার টাকারও বেশি। পানি ফুটিয়ে আমি খেতে পারি না। কেমন গন্ধ গন্ধ লাগে। সুরভি কতদিন ধরে একটা গাড়ির কথা বলছে। এই শহরে বাস সিএনজি'তে চলে অনেক কষ্ট। কত কিছুই করা দরকার কিন্তু কিছুই করতে পারছি না। অথচ সময় হু হু করে চলে যাচ্ছে।

মন্তব্য ৩০ টি রেটিং +৪/-০

মন্তব্য (৩০) মন্তব্য লিখুন

১| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৪৮

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: পড়েছি। আমি একটু পর মসজিদে যাব।

ইলিশ মাছ কিন্তু খুব গরম। আপনার সমস্যা হয় না?

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২১

রাজীব নুর বলেছেন: সমস্যা হয়। এই জন্য এক পিস খাবো।

২| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০১

ইসিয়াক বলেছেন: খুব সুন্দর পোষ্ট।

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২১

রাজীব নুর বলেছেন: ওকে।

৩| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৮

শের শায়রী বলেছেন: অনেক কিছুর ই দরকার, কিন্তু একজন ব্যর্থ মানুষ হিসাবে আমিও কিছুই করতে পারিনি ভাই।

পোষ্টে ভালো লাগা।

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২২

রাজীব নুর বলেছেন: দেরী হোক, যায় নি সময়।

৪| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সারাদিন খালি নাই নাই করেন; চাকুরী নাই, টাকা নাই........এরপরেও এক শুক্রবারেই ৫০০ টাকার মতো খরচ করে ফেললেন, আপনে তো দেখি জমিদার মানুষ! তারাও নাই নাই করতো!! ;)

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: হা হা হা----

৫| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৩

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি বাংলাদেশের ধনী বেকার।

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: আমার প্লাস পয়েন্ট হলো মাস শেষে ঘর ভাড়া দিতে হয় না।

৬| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২০

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
চাঁদগাজী বলেছেন:
আপনি বাংলাদেশের ধনী বেকার।

উনার তো বাসা ভাড়া দেয়া লাগে না ।
ঢাকা শহরে অনেকের আয়ের বেশীর ভাগ টাকা বাসা ভাড়ার পেছনে খরচ হয়।

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:১০

রাজীব নুর বলেছেন: বাসা ভাড়া দিতে না হলেও
আরো অনেক কিছু দিতে হয়।
গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি বিল। নেট বিল, ডিস বিল, বুয়া ইত্যাদি।

৭| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:২৭

নতুন বলেছেন: যদি কেউ বেকার থেকেও ৫০০ টাকা খরচ করার সামথ` থাকে সে কেন কস্ট করে কাজ করবে? :-B

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: আমি স্বেচ্ছায় অবসর নিয়েছি।
এখন খাবো, বই পড়বো, লিখব আর মুভি দেখব।
ছোট একটা জীবন। সারাদিন অফিস করে নষ্ট করার কোনো মানে হয় না।

৮| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৩৭

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
নতুন বলেছেন: যদি কেউ বেকার থেকেও ৫০০ টাকা খরচ করার সামথ` থাকে সে কেন কস্ট করে কাজ করবে? :-B.

ব্রাদার নিউ, আপনার কথায় যথেষ্ট যুক্তি আছে।

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:২৬

রাজীব নুর বলেছেন: উফ---
ট্রাই টু আন্ড্রাস্টেন্ড ব্রো।

৯| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:০৯

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন:


ভাই আমি তো ডায়েট করা শুরু করে দিয়েছি । বেছে বেছে খাচ্ছি ।


আপনাকে একটা রিভিউ উৎসর্গ করেছি ।

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: কি বলেন!!!!!!
আমাকে !!!!!!!!!!!
ওয়াও। গ্রেট।

১০| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:৩৭

ময়ূরী বলেছেন: ভাবী ও কন্যার জন্য দোয়া রইলো।।

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:২৩

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে।

১১| ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:৩১

সাইয়িদ রফিকুল হক বলেছেন: ;) ;) ;)

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:৫১

রাজীব নুর বলেছেন: হুম।

১২| ২৫ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১২:৩৬

রানার ব্লগ বলেছেন: প্রাত্যহিক দিন পঞ্জিকা

২৫ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:৩০

রাজীব নুর বলেছেন: হুম।

১৩| ২৫ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৪:৩১

নিভৃতা বলেছেন: অনেক কিছুই দরকার। এই দরকারের তো কোন শেষ নাই। তাই ভেবেও কাজ নাই। তবুও জীবন যায় যে কেটে জীবনের নিয়মে।

২৫ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: জীবন একসময় থেমে যাবে।

১৪| ২৫ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৪০

নেওয়াজ আলি বলেছেন: অসাধারণ লিখনী । শুভেচ্ছা সতত ।

২৫ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: শুকরিয়া জনাব।

১৫| ২৬ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১২:৩৭

আমি স্বপ্নদ্রষ্টা বলেছেন: এক দমে পড়া শেষ করলাম । নিজের জীবনের হিসেব করলাম, প্রয়োজন বনাম অর্জন,ফলাফল প্রয়োজনের পাল্লা ভারী। আর ও কাজ করতে হবে, টাকা উপার্জন করতে হবে । মনটা খারাপ হয়ে গেল । ধন্যবাদ ।

২৬ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:২৫

রাজীব নুর বলেছেন: মন খারাপ করলেই সমস্যার সমাধান হয় না ভাই।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.