নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

চোখের সামনে প্রচুর বই থাকলে, দেখতে ভালো লাগে

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১০



রবীন্দ্রনাথের 'নিশীথে' গল্পটা পড়েছেন?
অথবা সত্যজিৎ এর 'অনাথবাবুর ভয়'? আমি পড়েছি। অতি অতি চমৎকার গল্প। বিভূতিভূষণের 'তারানাথ তান্ত্রিক' পড়েছিলাম। আমার কলিজা উড়ে গিয়েছিলো। কপাল এমনই খারাপ সেদিন বাসায় কেউ ছিলো না। ভয়াবহ একরাত পার করেছি। 'আমার দেখা রাজনীতির পঞ্চাশ বছর' আবুল মনসুর আহমেদ এর খুব সুদর একটা বই। বইটা পড়ে আমি মুগ্ধ হয়েছিলাম। নারায়ণ গঙ্গোপাধ্যায় এর 'টেনিদা' খুবই ভালো লেগেছে। সাড়ে ৬ হাত লম্বা, বাজখাই গলা, মৈনাকের মত নাক টেনিদার। ভালো নাম ভজহরি মুখার্জি। ম্যাট্রিকুলেশন পরীক্ষায় তিন তিন বার ডিগবাজি দেওয়া এই টেনিদাকে টেক্কা দেয় এমন সাহিত্য নেই বললেই চলে।

প্রেমেন্দ্র মিত্র এর ঘনাদা'র কথা না বলাটা অন্যায় হবে।
৭২ নম্বর বনমালী নস্কর লেনের মেসবাসী ঘনাদা। ইতিহাসে অগাধ জ্ঞান, শুটকো চেহারা, তাই বয়স আন্দাজ করা যায় না, ৩২ ও হতে পারে আবার ৬২ ও হতে পারে। সারা পৃথিবী চষে বেড়াতে বেড়াতে নিজের বয়সের হিসেব পর্যন্ত রাখতে পারেন নি ঘনা'দা। মেছমেম্বার শিশিরের কাছ থেকে সিগারেট ধারে খান, আর মেস ভাড়ার টাকা চাওয়ার সময় এলে মেস ছাড়ার হুমকি দেন। গুলবাজিতে ওস্তাদ, কিন্তু গুল না সত্য তাই বা নির্ণয়ের সাধ্যি কার! সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায় এর 'মামা সমগ্র' দারুন মজার বই। মামার কান্ডকারখানা বড়ই মজাদার। এরিখ মারিয়া রেমার্কের অন্যতম উপন্যাস 'থ্রি কমরেডস'। তিনজনের বন্ধুত্বের গল্প- রবার্ট, ওটো ও গোডফ্রীডের। লেখক এত সুন্দরভাবে গল্পের বর্ণনা দিয়েছেন যে, আপনার কাছে সবকিছু জীবন্ত মনে হবে।

'মনের মত মন' সমরেশ মজুমদারের উপন্যাস।
মাতৃহীন দুই ভাই। ভয়ঙ্কর কড়া পিতৃদেব। শান্ত শিষ্ট ডাক্তারি ছাত্র বড় দাদা। কলেজ পড়ুয়া ক্রিকেট খেলোয়াড় ছোট ভাই। বইটা পড়ে ভালো লেগেছিলো। জহির রায়হান এর 'বরফ গলা নদী'। জহির রায়হানের সব বই ই ভালো। তবে 'বরফ গলা নদী' অসাধারনের উপরে অসাধারন। 'গাভী বিত্তান্ত' আহমদ ছফার দারুন এক বই। এই বই সবার পড়া উচিত। 'নাস্তিক পণ্ডিতের ভিটা' লেখক সন্মাত্রানন্দ। অতীশ দীপংকরের জীবনের উপর রচিত বাংলাভাষার প্রথম প্রামাণ্য উপন্যাস এটি। 'ঈশ্বরের বাসা' তিলোত্তমা মজুমদার এর বই। চমৎকার একটা বই। প্রমথনাথ বিশী'র একটা বই আছে, নাম হচ্ছে- 'রবীন্দ্রনাথ ও শান্তিনিকেতন'। চমৎকার একটা বই। নারায়ন সান্যাল এর 'প্রবঞ্চক' পড়ে খুব বেশি মুগ্ধ হয়েছিলাম। এরপর পড়ি 'বিশ্বাসঘাতক'। জটিল বই।

শিবরাম আপনাদের কাছে কেমন লাগে?
দারুন লাগে আমার কাছে। নিশ্চয়ই 'ঈশ্বর পৃথিবী ভালোবাসা' পড়েছেন? টেনিদা পড়ে যেমন হাসতে হাসতে কাহিল হতাম, তেমনি শিবরাম পড়ে টের পেয়েছিলাম বাংলা ভাষায় কত রস থাকতে পারে। বাঙালি লেখকদের মধ্যে আমি সব থেকে বেশি পছন্দ করি নারায়ণ সান্যাল কে। তার লেখা সব বই'ই অসাধারণ। বাস্তব কাহিনীকে গল্পের আকারে খুবই সুন্দর ভাবে পরিবেশন করেন, পড়ার সময় মনে হয় আমি ইতিহাসের সাথেই আছি। নারায়ণ সান্যাল এর সুতনুকা একটি দেবদাসীর নাম, নক্ষত্রলোকের দেবতাত্মা, আমি নেতাজিকে দেখেছি এবং নেতাজি রহস্য সন্ধানে দূর্দান্ত বই। 'ফাউন্ডেশন' আইজ্যাক আসিমভ এর লেখা। বিশ্ব জগতের মানব বসতিগুলোর কাঠামো ভেঙে গিয়েছে, মানুষজন আদিমতার দিকে এগুচ্ছে, নেতৃত্ব শূন্যতা তৈরী হয়েছে, এমন একটা অবস্থা থেকে শুরু হয় ফাউন্ডেশনের কাজ। পড়তে পড়তে ভ্রমণ করেছি মহাকাশ, পাড়ি দিয়েছি বিভিন্ন গ্যালাক্সি, এক গ্যালাক্সি থেকে আরেক গ্যালাক্সিতে ঘুরে বেড়িয়েছি। অতি চমৎকার বই।

পৃথিবীর রাজা ছিলেন সলোমন।
তিনি একবার তার সভাসদদের একটি প্রশ্ন করেছিলেন। তিনি বললেন, আমাকে এমন একটা কথা তোমরা বলো যেটি মনে করলে যদি আমার মন ভাল থাকে তাহলে খারাপ হয়ে যাবে, আর যদি মন খারাপ থাকে তাহলে ভালো হয়ে যাবে। সপ্তাহ খানেক চিন্তা করে তারা এসে রাজাকে বললেন আপনি এই কথাটি মনে করবেন "This too shall pass."
কথাটাকে বঙ্গানুবাদ করলে হয়তো "কোন‌ও কিছুই চিরস্থায়ী নয়"- এধরনের কিছু একটা হবে, কিন্তু আমার মনে হয় তাতে মূল ইংরেজি কথাটির তাৎপর্য পুরোপুরি সংরক্ষিত হবে না। যদি কেউ পারেন একটা যথার্থ অনুবাদ করে দিন।

মন্তব্য ৩৮ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (৩৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৬

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সুন্দর ছবি, বইয়ের সাগরে ডুব দেওয়া একজন মানুষ

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৮

রাজীব নুর বলেছেন: জ্বী। ধন্যবাদ।
বই পড়া অতি উত্তম কাজ।

২| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:১৭

আলমগীর সরকার লিটন বলেছেন: ভাল লেখেছেন

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৩৪

রাজীব নুর বলেছেন: বই পড়ুন। শুধু পড়ে যান।

৩| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:২০

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
অসমাপ্ত আত্মজীবনী।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৩৪

রাজীব নুর বলেছেন: অবশ্যই সকলের পড়া উচিত। আমি পড়েছি।

৪| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৩০

বিএম বরকতউল্লাহ বলেছেন: একটি অসাধারণ পোষ্ট পড়লাম। খুব ভাল লাগল।
আমার শুভেচ্ছা নিন।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৩৫

রাজীব নুর বলেছেন: বই নিয়ে আলোচনা আমার ভালো লাগে। লিখতে ভালো লাগে। পড়তে ভালো লাগে।

৫| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৩৪

মোঃমোস্তাফিজুর রহমান তমাল বলেছেন: চেষ্টা করলাম।হয়েছে কি না জানিনা।
"This too shall pass"
এটাও অন্তর্হিত হবে।(সবকিছুর মতো)

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৩৫

রাজীব নুর বলেছেন: মন্দ নয়।

৬| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৩৭

মোঃমোস্তাফিজুর রহমান তমাল বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৪৫

রাজীব নুর বলেছেন: ভালোবাসা নিরন্তর।

৭| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৫১

আমি সাজিদ বলেছেন: সৈয়দ সাহেবের জলে ডাঙায় নিয়ে এসেছি ডিউটিতে।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৪৫

রাজীব নুর বলেছেন: গ্রেট।

৮| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৫১

পদ্ম পুকুর বলেছেন: আপনিতো আউটবই এর পাঠ্যসমগ্র তৈরী করেছেন দেখছি! এই পোস্টটা মাস্ট রিড করা গেলে ভালো হতো। এরিক মারিয়া রেমার্কের আরেকটা বিখ্যাত এবং থট প্রোভোকিং বই হলো - অল কোয়ায়েট অন দ্য ওয়েস্টার্ন ফ্রন্ট। বিশ্বযুদ্ধ এবং পরবর্তী সময়ের মনোবিশ্লেষণী এই বইটা আমার খুবই ভালোে লেগেছিলো।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:১৫

রাজীব নুর বলেছেন: 'অল কোয়ায়েট অন দ্য ওয়েস্টার্ন ফ্রন্ট' পড়েছি।
জনাব বই নিয়ে পোষ্ট দিন ব্লগে। আমি মনে করি ব্লগে সবচেয়ে বেশি পোস্ট আশা দরকার বই নিয়ে আলোচনার।

৯| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৫১

পদ্ম পুকুর বলেছেন: দুঃখজনকভাবে পড়ার সময় কমে আসছে দিনকে দিন।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:১৭

রাজীব নুর বলেছেন: স্বচ্ছ পবিত্র আনন্দ পেতে হলে বই পড়তেই হবে। যেভাবেই হোক বই পড়ে যেতে হবে।
আমি একজন সরকারী বড় চাকরিজীবিকে চিনি- উনি গত বিশ ধরে চাকরিও করছেন। প্রচুর পড়ছেন এবং ৩৬ টা বইও লিখে ফেলেছেন।

১০| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:১২

শিখা রহমান বলেছেন: লেখাটা খুব ভালো লাগলো রাজীব। অনেকগুলো পছন্দের বই, লেখক আর চরিত্রকে মনে করিয়ে দিলেন।

শেষের কথাগুলো খুব ভালো লেগেছে। তবে কোনকিছু চিরস্থায়ী না হলেও সাহিত্য কিন্তু কালজয়ী চিরস্থায়ী হয়।

শুভকামনা নিরন্তর। সুস্থ ও নিরাপদ থাকুন সবসময়।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:১৭

রাজীব নুর বলেছেন: বোন শিক্ষা আপনাকে বহু দিন পর ব্লগে দেখলাম। এত অনিয়মিত কেন আপনি ব্লগে?

১১| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:১৫

দেশ প্রেমিক বাঙালী বলেছেন: আপনি ইদানীং অনেক পড়াশুনা করছেন; ইহা খুবই দিক।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:১৮

রাজীব নুর বলেছেন: হাতে অনেক সময়। সময় যায় না। তাই পড়ছি।

১২| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:২১

শিখা রহমান বলেছেন: রাজীব সবকিছু অনলাইনে হওয়াতে হঠাত করেই কাজের ব্যস্ততা খুব বেড়ে গেছে। তাও লেখালেখি না করে থাকতে পারি না। কিন্তু সংসার কাজ লেখালেখি সামলে ব্লগে আসার সময়ই করতে পারি না।

আপনি ও পরিবারের সবাই ভালো আছেন আশা করি। পরীকে আদর ও দোয়া রইলো।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: জ্বী আমরা এখন পর্যন্ত ভালো আছি। আমাদের পরিবারের সদস্যরা এখন করোনা থেকে দূরে আছে। দোয়া করবেন।

১৩| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:২৭

পদ্ম পুকুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: স্বচ্ছ পবিত্র আনন্দ পেতে হলে বই পড়তেই হবে। যেভাবেই হোক বই পড়ে যেতে হবে।
হু, কিন্তু মানুষ এখন স্বল্পমাত্রার বিনোদনে অভ্যস্ত হয়ে পড়ায় পড়ার আনন্দ ইদানিং নিরানন্দ বিষয় হিসেবে প্রজন্মের কাছে উপস্থাপিত হচ্ছে। আখেরে এর ফল ভালো না হওয়ারই কথা।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:৩০

রাজীব নুর বলেছেন: ঠিক বলেছেন।

টিকটক, ফেসবুক, ইউটিউব, ইন্সটাগ্রাম এসব মানুষের সময় কেড়ে নিচ্ছে। মানুষ বই না পড়ে ইন্টারনেটে আসক্ত হয়ে গেছে। আমিও এসব ব্যবহার করি। কিন্তু প্রতিদিন সময় করে বই পড়ে যাচ্ছি। আমৃত্যু আমি বই পড়ে যাবো। এটা আমার শান্তি আর আনন্দের ব্যাপার।

১৪| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:৫৪

জাহিদ হাসান বলেছেন: আমি এখন সায়েনস ফিকশনের বই পড়তে খুব ভালোবাসি

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:০২

রাজীব নুর বলেছেন: আমি এই পোষ্টে একটা সাইন্স ফিকশন বইয়ের নাম উল্লেখ করেছি।

১৫| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:২৪

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
শিব্রাম চকরবরতী।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:২৬

রাজীব নুর বলেছেন: !

১৬| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৪

নুরুলইসলা০৬০৪ বলেছেন: আজাইড়া মানুষের কাজ।কাজের মানুষ কাজই করবে না পড়বে।যারা পড়ায় তাদের কাজ পড়া।
সমস্যাকে সামনে নিয়ে পড়তে হয়।তবেই হয় সত্যিকারের পড়া।
প্রত্যেকের জীবনই এক একটা শ্রেষ্ট উপন্যাস।

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: হতে পারে।

১৭| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫৩

কল্পদ্রুম বলেছেন: ১৬ নম্বর মন্তব্যে "সমস্যাকে সামনে নিয়ে পড়তে হয়। তবেই হয় সত্যিকারের পড়া।" এটা পছন্দ হয়েছে। আগে ব্যাপারটা মানতাম না৷ এখন দিন দিন এই নীতির পক্ষপাতী হচ্ছি। যদিও বাস্তবে মানি না। :)

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:২৮

রাজীব নুর বলেছেন: নতুন নতুন কত কিছু যে আছে শেখার!!

১৮| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৫০

পগলা জগাই বলেছেন: পড়ি নাই, কতকিছু পড়ি নাই। পড়াও হয়ে উঠবে না আর হয়তো।

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১২:৪৩

রাজীব নুর বলেছেন: পড়তে হবে। প্রচুর পড়তে হবে। নির্মল আনন্দ পেতে চাইলে পড়তে হবে। এর বিকল্প কিছু নাই।

১৯| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:৪৭

নতুন নকিব বলেছেন:



পাঠের মোক্ষম বিকল্প আর নেই। সুন্দর পোস্ট। +

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:১১

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ। ভালো থাকুন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.