নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

তোমার আর আমার দূরত্ব রাস্তার এপার ওপার।তুমি দাড়িয়ে আছো আমার আশায়আমি অপেক্ষায় আছি যাবো কখন!waiting for a loyal heart!

মেঘ প্রিয় বালক

একটা কৃষ্ণচূড়া গাছ। শুষ্ক অঞ্চলে গ্রীষ্মকালে কৃষ্ণচূড়ার পাতা ঝরে গেলেও, নাতিষীতোষ্ণ অঞ্চলে এটি চিরসবুজ।

মেঘ প্রিয় বালক › বিস্তারিত পোস্টঃ

প্রিয় জ্যোতির্ময়ী অর্চিশা

০৭ ই মে, ২০১৯ রাত ১১:৫৬

চিরকুট:-১১
তারিখ:-২৩ বৈশাখ ১৪২৬ বাংলা
প্রিয় জ্যোতির্ময়ী অর্চিশা,
পত্রের শুরুতে দূর দিগন্তে পাখা মেলানো শঙ্খ চিলের রোদ ছড়ানো হাসির প্লাবনে আমার শূন্য এপিটাফে জন্মানো খানিক তুচ্ছ আবেগ জমানো শুভেচ্ছা।
উপকূল থেকে ২০০ নটিক্যাল মাইল উওরের বঙ্গোপসাগরের উত্তাল মাঝ সমুদ্রে জাহাজের সম্মুখপ্রাণে বসে তোমায় লিখছি।
জানি ভালো আছো,আর ভালো আছো বলেই হয়ত আমায় ভুলে গিয়েছো।
আমি রমযান মাসের রহমতে আমার সহ-নাবিকদের নিয়ে খুব ভালো আছি বলেই তোমায় লিখছি নিয়মভাঙা চিরকুটে।
আমাকে না হোক,আমার কলমের চোয়ালের আবেগ মিশ্রিত চিরকুটকের লিখা শব্দগুলো তো তুমি ঠিকই ভালোবাসো,আমি কেবলি সেসব চিরকুটের নামমাত্র প্রেরক। পুরো চিরকুট জুড়েই তো তোমার বসবাস।
আমি বুঝি, ভালবাসা পাওয়ার ভীষণ অযোগ্য?
তোমার ঠিকানায় প্রেরক হয়ে চিরকুট লিখাকে আমি ভালোবাসি,আর তুমি ভালোবাস চিরকুটের প্রাপক হতে,অন্তত একটা জায়গায় তো তুমি আমি এক।মেঘের নাচ দেখতে দেখতে আমার নিরাশায় বাধাঁ ঘর হঠাৎ বাণের জলে ভেসে গেল। লাল নীল সাদা শূন্যতার কথা কাটাকাটি চলছে মনের সংলাপে,মন বলছে তোমায় ভালবাসি আর তুমি বলছো বাসিনা।
বিশাল সমুদ্রের হিম ঝরানো বাতাসের কাম্পিল্যে চুমু একে দিয়ে যাচ্ছে তোমার মনের তস্করে দক্ষিণী জানালায়। অথচ তুমি নাকি অবগত নও,কিছুই নাকি বোঝনা। মনে মেঘ দানবের চমৎকার কিছু দৃশ্য মাধুরী অবলোনে তোমার চোখের আবেদন বেশ মনে পড়ছে।মাতাল আমার মন মাঝে মাঝে বিগড়ে যায় তোমার ঐ চোখের মাদকচক্রে। নিজেকে ভয়ংকর রকমের বেয়াদব মনে হয়।
এ সমুদ্রপথের অতন্দ্রিতা রাতের তারাবাতিতে বিদঘুটে নেশার ডাইরী তোমার চোখ যেন দূর থেকে আমায় ডাকছে। অস্মিতায়ী তুমি কি আজও খোঁজও পথের অন্তরালে আমার পায়ের স্পর্শ,কবে দেখা হবে দুজনার?কবে মেরামত হবে তোমার আমার পারাপারের সেতুবন্ধন। কানের অষ্টপদে হাত রেখে নির্লিপ্তে বলছি, ওগো প্রিয় ভালবাসি তোমায়। তুমি দেয়ালে কান পেতে দেখো শুনতে পাবে।
জানো প্রিয়,আজকাল ধরতে ইচ্ছে করে তোমার এলোকেশ,ইচ্ছে করছে কানের দুলের দোলাচাল দেখতে। দ্রোহের মায়াজালে নিস্তব্ধ শূন্যতার প্রতিশ্রুতিতে কেবলি তুমি। বুকের গহীন নিভৃতে তোমার দেয়া ক্ষত ঘুমায় যত্নে আর আমি একলা জেগে থাকি নীরব রাতে। আমি অন্ধকার,চারদিকে কত আলো সে আলো তোমার মনের রঙের বিছানা বিছিয়ে রেখেছে। ভাঙাচোরা মনের আবার গেরস্হালী তোমার মনের দরজার নির্বাক নিরুত্তর প্রহরী একদিন ঠিক চাকরীটা ছেড়ে দেবে অন্য কারো আগমনে। তোমার মাঝে কি আছে কি নেই সে আমি জানিনে,আমি জানি যে তোমার সলাজ মাদকতাময় হাসিটাই যথেষ্ট। নীলরঙা কাঁচের চুড়ি পড়ে আমার হৃদয়পটে তোমার বিচরণ ঝংকার শুনতে এ মন ব্যাকুল। তোমার হৃদয় রাজ্যে মনোনয়ন চাই যেখানে আমি ছাড়া আর কোনো প্রার্থী থাকবেনা। বাকি গল্পটা তুমি ছাড়া যে বড্ড অসম্পূর্ণ,সে গল্পের মাঝখানে অন্যকেউ আসুক তা আমি চাইনে। গতকাল সমুদ্ররানীর অপরূপ রূপে মোহিত হয়েছি,তবে তুমি থাকলে হয়ত একটু গল্প হতো এক আখিঁপাতে,তোমায় মনে পড়েছিল খুব। আমি শুধু অবেলায় কুড়িয়ে পাওয়া একটু ভালবাসা চেয়েছিলাম তোমার প্রাণে,তুমি না দিয়ে উল্টো অভিযোগের পাহাড় জড়ো করেছো। স্মৃতির ঝাপসা আয়নায় তোমার মুখ নিয়ে বেচেঁ থাকার ব্যর্থ চেষ্টা আমাকে অনেক কিছুই শিখিয়েছে। শর্ত ভঙ্গের সব কাব্য আধাঁরের মায়ায় নিস্তব্ধ, তুমি ঝুরিঝুরি শব্দের মাল্যমালঞ্চ। কবিতার শব্দ কোঠরে তোমার অস্তিত্বের ঘ্রাণ পায় নীলপরী। রুদ্ধাক্ষত অহমিকার অহমে আমি পুড়ে ধ্বংস হয়েছি, ধ্বংস হয়েছে আমার অনুভূতির দেয়াল। তোমাকে ভালবাসাও যেন আমার মহাপাপ। আজ আর নয়,তোমার জন্য আমি ভালবাসা ছাড়া কোন উপহার কিনতে পারিনি। আমার আবেগ জড়ানো ভালবাসার এ চিরকুট উপহার কেবলি তোমার জন্য রেখেছি। মস্তিকে বন্দি শব্দগুলো ধীরে ধীরে পলায়ন করছে গা ডাকা দিয়ে। তাই আজ এখানেই শেষ করছি,পরবর্তী চিরকুট অন্য কোন নতুন জায়গা হতে লিখার অপেক্ষায় থাকবো।
ভালো থেকো ভাবনার ওপারে অন্তনীড়ের মঞ্চের বিপরীত সহ শিল্পী।
ইতি
তোমার চার পয়সার চিরকুটওয়ালা।

মন্তব্য ১৪ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০৮ ই মে, ২০১৯ রাত ২:৩৯

রিম সাবরিনা জাহান সরকার বলেছেন: লেখাটায় ক্লাসিক ক্লাসিক ঘ্রান। লাগলো মন্দ নয়।

০৮ ই মে, ২০১৯ রাত ৩:৩২

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: ধন্যবাদ চার পয়সার চিরকুট ওয়ালার চিরকুট পড়ার জন্য। শুভেচ্ছা জানিবেন লেখিকা রিম সাবরিনা জাহান সরকার।

২| ০৮ ই মে, ২০১৯ ভোর ৬:৩৭

বলেছেন: চার পয়সার চিরকুটিিিয়ালা কেন এক পয়সা দু পয়সা হলে দোষ কি হতো। --

ভালে লিখেছেন।।। ++

০৮ ই মে, ২০১৯ ভোর ৬:৪৭

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: বর্তমানে ২ পয়সা আর ৪ পয়সা একি জায়গায় ল ভাই। ভালোবাসা নিবেন ভাই।

৩| ০৮ ই মে, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: সুন্দর

০৮ ই মে, ২০১৯ দুপুর ১:০৩

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: ধন্যবাদ জানিবেন লেখিকা কাজী ফাতেমা ছবি।

৪| ০৮ ই মে, ২০১৯ দুপুর ১:২৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: বেশ লেখা !
আলদা ঘ্রাণ লেখায়। ভালোলাগা।

০৮ ই মে, ২০১৯ দুপুর ২:২৩

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: ধন্যবাদ ও ভালবাসা জানিবেন লেখিকা মনিরা সুলতানা।

৫| ০৮ ই মে, ২০১৯ দুপুর ২:০২

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
আপনি দেখছি চিরকুট সিরিজ দিয়ে বাজিমাৎ করবেন।
++++

০৮ ই মে, ২০১৯ দুপুর ২:২৪

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: ইনশাআল্লাহ দোয়া করবেন লেখক মাইদুল সরকার। ভালোবাসা ও রমযানের শুভেচ্ছা জানিবেন।

৬| ০৮ ই মে, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৩

নীলপরি বলেছেন: ভালো লিখেছেন ।

০৮ ই মে, ২০১৯ রাত ৮:৪৫

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: ধন্যবাদ নীলপরী।

৭| ০৯ ই মে, ২০১৯ রাত ১২:০৪

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: খুব সুন্দর।

০৯ ই মে, ২০১৯ দুপুর ১২:২৫

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: ধন্যবাদ মাহমুদ ভাই।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.