নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

দীপ ছিলো, শিখা ছিলো, শুধু তুমি ছিলেনা বলে...

শায়মা

দিয়ে গেনু বসন্তেরও এই গানখানি বরষ ফুরায়ে যাবে ভুলে যাবে, ভুলে যাবে,ভুলে যাবে জানি...তবু তো ফাল্গুন রাতে, এ গানের বেদনাতে,আঁখি তব ছলো ছলো , সেই বহু মানি...

শায়মা › বিস্তারিত পোস্টঃ

কালচারাল থেরাপী ও একজন নাইজেল আকারা এবং একজন জেল জননী অলকানন্দা রায়ের গল্প

০৯ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ১:৫০


আমি জানিনা এই জগতে ঠিক ক'জনা কালচারাল থেরাপী সম্পর্কে জানেন বা ইতিবাচক ধারনা করেন। আমিও যখন জেনেছিলাম খুব অবাক হয়েছিলাম এবং উপলদ্ধ করেছিলাম আসলেই তো এভাবে অবশ্যই সম্ভব। যদিও কারণ এটা হতে পারে খুব ছোট থেকেই আমি সাংস্কৃতিক চর্চার মাঝেই ছিলাম। যাইহোক কালচারাল থেরাপী এটা শুনতে একটু অবাক লাগলেও এই কালচারাল থেরাপীর মাধ্যমে মানুষের জীবনের ভয়ংকর সব অবসাদ, বিষন্নতা, দুঃখ, বেদনা থেকে শুরু করে ভয়ংকর সব অপরাধ প্রবনতাকেও দূরীভূত করা সম্ভব। সোজা কথায় কালচারাল থেরাপী বলতে কাউকে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের মাঝে জড়িয়ে দিয়ে তার অন্তরে সূর বা ছন্দের মূর্ছনা ছড়িয়ে দিয়ে সকল দুঃখ, বেদনা বা অপরাধের গ্লানিকে দূর করে দেওয়াকেই বুঝািয়ে থাকে। তাই তো সদা সর্বদা গুনগুন করা আমার মনে জাগে সেই গান- তুমি যে সূরের আগুন লাগিয়ে দিলে মোর প্রাণে, সে আগুন ছড়িয়ে গেলো সবখানে, সবখানে সবখানে......

ঠিক এমনই এক কালচারাল থেরাপীর অংশ হয়েছিলেন নাইজেল আকারা। লম্বা চওড়া ও বিশালাকার এই মানুষটিকে অতিমানব বা দেবতাই বুঝি মনে হয় আমার। কিন্তু তার অতীত কোনো দেবতাসুলভ সুন্দর গুনাবলীতে মোড়ানো ছিলো না। সে ছিলো এক ভয়ংকর অপরাধী। কিন্তু অন্ধকার জগত হতে আলোর পথে ফেরানোর প্রত্যাশায় সংশোধনাগারে থাকার সময় তিনি অলকানন্দা রায়ের হাত ধরে এই কালচারাল থেরাপীর অংশ হিসাবেই বাল্মিকি প্রতিভা’য় অংশ নিয়ে নতুন মানুষে রুপান্তরীত হন। অলকানন্দা রায়ের ভালোবাসা মমতা ও এই কালচারাল থেরাপীতে নাইজেলের মত আরও অনেকগুলো মানুষ সুন্দর জীবন ফিরে পেয়েছে। অলকানন্দা রায়ের আরেক নাম তাই জেল জননী। নাইজেল আকারার মতন সমাজের চোখে কুখ্যাত আরও অনেক অপারাধীদের মা তিনি। নাইজেল আকারা অলকানন্দা রায়ের হাত ধরেই কলকাতার অভিনেত্রী ঋতুপর্ণার সাথে প্রথম সেলুলয়েড দুনিয়ায় পা রাখেন ‘মুক্তধারা’ ছবিতে। আমি ওই সিনেমাটা দেখেছিলাম। অবাক বিস্ময়েই মুগ্ধ হয়েছিলাম এটা ভেবেই। রবিঠাকুর কি সত্যিই ভবিষ্যৎবক্তা ছিলেন? তিনি কি এই শতবছর পরে নাইজেল আকারার জন্যই লিখেছিলেন ঐ বাল্মিকী লেখাটা!

নাইজেল আকারার সেই অবিশ্যাস্য রুপান্তর সম্পর্কে বলার আগে আমি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাল্মিকি প্রতিভা নিয়ে কিছু একটু বলতে চাই। বাল্মীকি-প্রতিভা গীতিনাট্যের আখ্যানবস্তু কৃত্তিবাস বিরচিত বাংলা রামায়ণের সূচনাভাগ থেকে গৃহীত। যাইহোক- মূল গল্পটা এমন-
মহাকবি বাল্মীকি প্রথম জীবনে দস্যুসর্দার ছিলেন। অরণ্যে বাস করতেন। বনের মধ্যে তিনি নরবলি প্রদান করতেন। একদিন তার অনুচরেরা নরবলির জন্য এক ছোট মেয়েকে ধরে আনল। বলি দেবার ঠিক আগে আগে মেয়েটির করুণ গান শুনে বিহ্বল হয়ে পড়লেন বাল্মীকি। অনুচরদেরকে বলেন মেয়েটির বাঁধন খুলে মুক্তি দিতে। তারপর তার কি এক পরিবর্তন হল। বনের পথে ঘুরতে লাগলেন।

এরপর একদিন বাল্মীকি তার অনুচরবর্গকে নিয়ে মৃগয়ায় গেলেন। কিন্তু তার এক অনুচর এক হরিণছানাকে হত্যা করতে গেলে আবারও তিনি সহ্য না করতে পেরে বাধা দিলেন। এতে বাল্মীকির অনুচরেরা তাকে উন্মাদ মনে করে ফেলে গেলো। বাল্মীকি আবার শূন্যমনে বনে বনে ঘুরে বেড়াতে লাগলেন। একদিন এক ব্যাধকে ক্রৌঞ্চমিথুন বধ করতে দেখে শোকার্ত দস্যুসর্দারের মুখ দিয়ে নির্গত হল প্রথম শ্লোক:

মা নিষাদ প্রতিষ্ঠাং ত্বমগমঃ শাশ্বতীঃ সমাঃ।
যৎ ক্রৌঞ্চমিথুনাদেকমবধীঃ কামমোহিতম্।।
এই শ্লোক উচ্চারণ করেই শিহরিত হলেন বাল্মীকি। নিজের অজান্তেই দস্যুপতি কিভাবে দেবভাষা উচ্চারণ করলেন তা বুঝতে পারলেন না। তখন তার সম্মুখে আবির্ভূত হন দেবী সরস্বতী। সরস্বতীর দর্শন পেয়ে দস্যুপতির পাষাণ হৃদয় বিগলিত হল। তিনি এত দিন নরবলী দিতেন যেই কালীপ্রতিমাকে। তাকে পরিত্যাগ করলেন। সরস্বতী অন্তর্হিত হলে বাল্মীকি তার অনুসন্ধান করে ফিরতে লাগলেন। লক্ষ্মী তাকে ধনসম্পদের প্রলোভন দেখিয়েও ব্যর্থ হন। তখন তার ও বনদেবীদের করুণ প্রার্থনায় সাড়া দিয়ে পুনরায় আবির্ভূত হলেন সরস্বতী। বাল্মীকি সঙ্গীতের মাধ্যমে তার বন্দনা করলে তিনি উত্তরে বললেন:

দীনহীন বালিকার সাজে,
এসেছিনু এ ঘোর বনমাঝে,
গলাতে পাষাণ তোর মন –
কেন বৎস, শোন্, তাহা শোন্।
আমি বীণাপাণি, তোরে এসেছি শিখাতে গান,
তোর গানে গলে যাবে সহস্র পাষাণপ্রাণ।
যে রাগিনী শুনে তোর গলেছে কঠোর মন,
সে রাগিনী তোর কণ্ঠে বাজিবে রে অনুক্ষণ।

বসি তোর পদতলে কবি-বালকেরা যত
শুনি তোর কণ্ঠস্বর শিখিবে সঙ্গীত কত।
এই নে আমার বীণা, দিনু তোরে উপহার
যে গান গাহিতে সাধ, ধ্বনিবে ইহার তার।

ঠিক এভাবেই যেন একদিন নাইজেল আকারার জীবনে বীণাপাণি রূপে আশীর্বাদ হয়ে এসেছিলেন অলকানন্দা রায়। নাইজেল আক্কারা দস্যু রত্নকরেরই এক আধুনিক ভার্সন যেন। দুধর্ষ গুন্ডা বলেই পরিচিত ছিল সে। ছিলো সকলের ঘৃনার পাত্র। ১৮টি খুনের মামলা মাথায় নিয়ে কয়েকটি’বছর কারাগারে কাটিয়েছিলো সে। আলোকানন্দা রায়ের কারণেই নাইজেল আক্কারার জীবনে নতুন আরেক অধ্যায়ের সূচনা হয়েছিলো। নাচ-গান-নাটক কী ভাবে বন্দিদের জীবন বদলে দিতে পারে, তা নিয়ে অনেক কথা হলেও আসল গল্পটা ছিলো আসলে ভালোবাসার। এডিজি (কারা) বংশীধর শর্মার উদ্যোগে প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে বন্দিদের ‘ড্যান্স থেরাপি’ করাতে গিয়েছিলেন অলকানন্দা। প্রথমে তিনি এমন কোনো উদ্দেশ্য নিয়ে যাননি।শুধুই একজন ভিজিটর ছিলেন। কিন্তু বন্দীদেরকে দেখে তার মনে হয় মানুষ তো কেউ অপরাধী হয়ে জন্মায় না। মাঝে মাঝেই ছন্দ পতন হয়। এই ছন্দই ফিরিয়ে দেওয়া যায় নাচ, গান বা কবিতার ছন্দে। তিনি নিজেই জানতেন নাচলেই তার সব থেকে বেশি ভালো লাগে।

তার ইচ্ছেতেই সংশোধনাগারের সুপার বলেছিলেন, ২০-৩০ বছর বয়সীরা যেন নাচ শিখতে যায়। বিভিন্ন সংশোধনাগারে বন্দিদের নিয়ে নাচের দল গড়েছিলেন নৃত্যশিল্পী অলকানন্দা রায়। করিয়েছিলেন বাল্মীকি প্রতিভা। দস্যু রত্নাকরের আত্মশুদ্ধির গল্প! গল্পের পাতা থেকে উঠে আসা সত্যিকারের‘বাল্মীকি’ যেন নাইজেল আকারা।

এক সময়ে পার্ক স্ট্রিটের যে দোর্দণ্ডপ্রতাপ গুন্ডা নাচতে হবে শুনে প্রশ্ন করেছিল, “গুন্ডাদের পায়ে ঘুঙরু বাঁধবেন, স্যার?” বংশীধর শর্মা যাঁকে বলেছিলেন, ‘ফল-দুধের মেডিক্যাল ডায়েট দেব, দু’ এক দিন দেরি করে সেলে ঢোকার অনুমতি মিলবে। শর্ত একটাই, নাচের ক্লাসে থাকতে হবে।’ দায়ে পড়ে পা মেলানো শুরু হলেও তা পৌঁছে যায় নাচের ছন্দ ভাল লাগায়। শেষ পর্যন্ত রবীন্দ্র সদনে মঞ্চের মাঝখানে দাঁড়িয়ে চিৎকার করে কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন নাইজেল। তত দিনে অলকানন্দা অন্য বন্দিদের মতো তাঁরও মা, ভালবাসায় বদলে গিয়েছে জীবনটাই। বাল্মীকি প্রতিভার কাহিনী শুনে তার মনে হয়েছিলো, এতো তার নিজের গল্প। বদলে গেলো তার জীবন। গুন্ডা থেকে জেইলের গন্ডি পেরিয়ে আজ তিনি বাল্মিকী। সত্যিকারের জলজ্যান্ত বাল্মিকি।

সমাজের অবহেলিতদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। জেল খাঁটা দাগী আসামীদের কোথাও জায়গা হয় না। তাদের নিয়ে নিজ উদ্যোগে কর্মসংস্থার ব্যবস্থা করেছেন তিনি। বন্ড সই করেছেন যে কোনো ক্ষতির ক্ষতিপূরণ দেবার। সমাজে পতিত মানুষগুলোকে টেনে তোলার আপ্রাণ চেষ্টায় যে মুছে দিতে চান গত জীবনের সকল অপরাধের কালীমা।

অপরাধপ্রবণতা থেকে ভালবাসা উত্তরণের এই গল্পে তবু একটি প্রশ্ন থেকে যায়। নাইজেলের কাজকর্মে যাঁরা ক্ষতিগ্রস্ত, তাঁরা কি ক্ষমা করতে পারবেন তাঁকে? করা সম্ভব? নাইজেল নিজেই বলেন, “না, তাঁদের পক্ষে সম্ভব নয়। তবে আমি তাঁদের অনেকের সঙ্গেই যখন দেখা হয়েছে, বলেছি, আমাকে ক্ষমা করুন। আমি যদি এখন কোনও ভাবে সাহায্য করতে পারি, বলবেন। এক জনের ভাইকে বলেছিলাম, আমাকে যদি মারতে হয়, মারো। সে বলেছিল, বন্দি হিসেবে তুমি যা করেছো, তাতে আমাদের মাথা উঁচু হয়েছে।

এইভাবে চরম এক অপরাধীকে বদলে দিলো এই কালচারাল থেরাপী। এখানে ছিলো মূলত নাচ। জেল জননী অলকানন্দা রায় আন্তর্জাতিক খ্যাতি সপন্ন ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্য শিল্পী , সংশোধক এবং একজন মা। Miss India-এর একজন প্রাক্তন runner-up। সকল সৌন্দর্য্য মায়া মমতা ও শিল্পের দেবী। কারাবন্দীদের জন্য কারাবাসীদের সংস্কারের কাজ বিশেষ করে কারাগারের কারিগররা তাদের শিল্প ও প্রেম থেরাপি (Love Therapy)- র মাধ্যমে নতুন করে কঠোর অপরাধীদের নতুন জীবন দিয়েছেন এবং খ্যাতি অর্জন করেছেন যা দেশের সীমান্ত অতিক্রম করে ছড়িয়ে পড়েছে বিভিন্ন দেশে। তাঁর এই Love Therapy আজ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ব্যবহৃত হয়।

ড্যান্স থেরাপী, লাভ থেরাপী, কালচারাল থেরাপী। অলকানন্দা রায়ের কিছু কথা আমার মনে গেঁথে গেছে। তিনি বলেছেন,আমরা সবাই ছন্দ নিয়ে জন্মাই। সেই ছন্দ পতন হয় মাঝে মাঝে। এই ছন্দ পতনের উত্তরণ একমাত্র সম্ভব ছন্দ ফিরিয়ে দিয়ে। নাচ গান আবৃতি, নাটক ..... এই তো জীবনের ছন্দ।এই ছন্দ খুঁজে পেলে ফিরে পেলে অনেক অপরাধ থেকে ফিরে আসা সম্ভব। সবাই ভালোাবাসার কাঙ্গাল। একজন অপরাধীকেও সম্ভব এই ভালোবাসা দিয়েই ফিরিয়ে আনা।সবাই ভালো হতে চায় কিন্তু অন্যের সহযোগীতা দরকার। যা একবার ভুল করে ফেলা মানুষগুলো আর সহজে পায় না।

নাইজেল অভিনীত ২টি চলচ্চিত্র মুক্তধারা এবং গোত্র
আমাদের সমাজে বিশেষ করে বাংলাদেশের সমাজে সাংস্ক্বতিক কর্মকান্ড নিয়ে তেমন মাথা ব্যাথা নেই। মানুষের মাঝে সুকুমারবৃত্তিগুলো যে নাচ, গান কবিতার ছন্দে জাগিয়ে তোলা সম্ভব তা বললে যেন বিশ্বাসই হবে না অনেকের। আমি অনেক অনেক ফ্যামিলীতে দেখেছি যাও বা ছোটবেলায় ছেলেমেয়েদেরকে গান বা নাচ শিখতে দেওয়া হয় বড় হতে হতে সে সব বন্ধ হয়ে যায় যথার্থ উৎসাহ না দেবার কারণে। সেখানে চাপিয়ে দেওয়া হয় প্রতিযোগীতামূলক পড়ালেখার বোঝা। একটা কথা কি, মনে যদি আনন্দই না থাকে তো চাপিয়ে দেওয়া কাজ কি করে সুন্দর হবে! যাইহোক অনেকেই মনে করেন বাচ্চাদের নাচ গান কবিতা নাটকে মন গেলে পড়ালেখা হবে না। কিচ্ছু হবে না জীবনে। নাচ তো পুরোপুরিই অবহেলিত যেন। আমাদের দেশে অধিকাংশ বাড়িতে মেয়েরা নাচবে এটা যেন মেনেই নেওয়া যায় না। নাচ মানে যেন অচ্ছুৎ,অপরাধের বিষয়। আর ছেলেরা নাচলে তো উপহাসেরও পাত্র হতে হয়।

অথচ এই নাচ, অভিনয় আর গীতি নৃত্যনাট্যের মাঝেই ফিরিয়ে দিলো অলকানন্দা রায় সমাজের চোখে অসুন্দর কতগুলো মানুষের জীবন সুন্দরের মাঝে। অলকানন্দা রায়কে আমার মনে হয় এমনই এক দেবী যিনি আরও কিছু দেবশিশুদের জন্ম দিয়েছেন। নতুন করে। পূণর্জন্ম হয়েছে তাদের! শ্রদ্ধা জানাই জেল জননী অলকানন্দা রায়কে। অন্তরের অন্তস্থল থেকে ভালোবাসা জানাই নাইজেল আকারা ও তার মত পূণর্জন্ম নেওয়া আরও মানুষগুলোকে। শ্রদ্ধেয়া অলকানন্দা রায় আর আমার সত্যিকারের বাল্মিকী নাইজেল আকারা যদি কখনও বাংলাদেশে আসে তাদের জন্য রইলো আমার পরীর দেশে আমন্ত্রন....... সকলের জীবন সুন্দর, সার্থক ও সাফল্যমন্ডিত হোক.....

রাগ আর ঘেন্না নয়, পৃথিবীটার চাই আরও ভালোবাসা
Alokananda Roy - Love Therapy in My Second home
অন্ধকার অপরাধ জগৎ থেকে রূপালী পর্দার জনপ্রিয় নায়ক Nigel এর জীবনে অজানা কাহিনী টি কি ?
Dance Drama
Debshankar Haldar
নাইজেল অভিনীত গোত্র সিনেমার একটি প্রিয় গান


এই লেখাটি উৎসর্গ করছি আমাদের প্রিয় মডারেটর কাল্পনিক ভালোবাসা ভাইয়াকে....

মন্তব্য ১৪৪ টি রেটিং +২৭/-০

মন্তব্য (১৪৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ১:৫৭

রাতুল_শাহ বলেছেন: আমির খানের উপস্থাপনায় একটা টিভি অনুষ্ঠানে দেখেছিলাম- এক প্রফেসর রাস্তার গুন্ডাদের ফুটবল দিয়ে, ভালো পথে নিয়ে এসেছিলেন, এদের মধ্যে সম্ভবত একজন কোচ হয়েছিলেন।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ২:০২

শায়মা বলেছেন: দুধর্ষ খুনিকেও মনে হয় কালচারাল থেরাপী দিয়ে সুন্দর মনের ও সুন্দর কর্মকান্ডে নিবেদিত মানুষ করে তোলা সম্ভব।

সবাই ভালো হতে চায়। কোনো কারণে ট্যাগ লেগে গেলে বা ভুল করে ফেললে ফিরে আসার পথ বন্ধ হয়ে যায়। আমি এই জেইল জননী এবং নাইজেল আকারার ইন্টারভিউ যে কত শত বার দেখেছি।

যাইহোক রাতুলভাইয়া অনেকদিন তোমাকে লুডুতে হারানো হয় না! :P

২| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ২:১১

গেম চেঞ্জার বলেছেন: ব্লগে ঢুঁ মারতে এসেই পোস্টটি নজরে পড়ে গেল। বাল্মীকী-র কথা অনেক আগে পড়লেও নাইজেল আকারা'র এমন কথা একদম নতুন লাগল। কালচারাল থেরাপী ব্যাপারটা সম্পর্কে জানতে পারলাম যদিও এর প্রাকটিক্যাল আমি নিজের চোখেই দেখেছি।
বাচ্চাদের জোর করে গণিত পড়ানো যেমন উচিত না, ঠিক তেমনি কোন খেলা/ড্যান্স কোন কিছুই জোরাজুরি করে শেখানো উচিত না। এতে তার সর্বোচ্চ/ভালটা পাওয়া যাবে বলে মনে হয় না। তাদের সাথে কৌশলে এইগুলো নিয়ে আগ্রহ সৃষ্টি করানো যেতে পারে। এতে সুফল আসতে পারে!!

০৯ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ২:২০

শায়মা বলেছেন: গেমু!!!

ঢু ঢা ছাড়ো!!!

আবার আসো!!!

কালচারাল থেরাপীতে এই দুধর্ষ গুন্ডা নাইজেল আকারাকে জোর করেই ধরে বেঁধে বলতে গেলে নাচ শেখানো হয়েছিলো। যদিও অলকানন্দা রায়ের মমতা ও ভালোবাসাও কাজে লেগেছিলো। তবুও এই নাইজেল আকারা আমার কাচে হিরো। সত্যিকারের বাল্মিকী। আমি গোত্র ম্যুভির গান যে কত শত বার দেখেছি। আর মানালি যেই মেয়েটা অভিনয় করেছে সেও একদম পারফেক্টো!! :)

৩| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ২:২৩

রাকু হাসান বলেছেন:


সাংস্কৃতিক থেরাপির ব্যাপারে প্রথম তোমার পোস্টের মাধ্যমেই শুনলাম । একটু গুগলও করলাম। আরও কিছু জানলাম । সে সবের বেশ কিছু তথ্য তোমার পোস্টের লক্ষ্য করলাম। যেহেতু পোস্ট লিখেছ সেগুলো নিশ্চয় পড়েছো এবং সর্বশেষ এই লেখা তাই নতুন করে বললাম না । সহজভাবে আমি যা বুঝি। সংস্কৃতির চর্চা অবশ্যই ভালো কিছু দেয়। সুস্থ সংস্কৃতির চর্চা অনেক ক্ষেত্রেই হতাশাজনক ভাবনাকে ভাবার সুযোগ দেয় না। এই জন্যই সংস্কৃতিবান মানুষ দরকার আমাদের। মানসিক আঘাত দূর করতে কালচারাল থেরাপি দারুণ কাজ দেয়।রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য এই থেরাপি প্রয়োগ করার কথা শুনেছিলাম ।

নতুন বিষয়ে পড়লাম । বাংলা ভাষায় এই টপিকে খুব একটা লেখা নেই। দারুণ পোস্ট উপহার দিলে তো :P উৎসর্গে
ভাল লাগা । :)
এটা কি ফুল ?

০৯ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ২:৪০

শায়মা বলেছেন: কালচারাল থেরাপী অবশ্যই কার্য্যকরী টার প্রমান তো পাওয়াই গেলো। প্রতিটা মানুষের একটা না একটা বাদ্যযন্ত্র বাজাতে শেখা উচিৎ! সূর কানের ভেতর দিয়া মরমে পরশে... যাইহোক...... এটা অলকানন্দা ফুল....... এই ফুল স্বদেশী নহে বৈদেশী। মনে হয় রবিঠকুর এর নাম দিয়েছিলো অলকানন্দা ফুল.......

অতল তোমার তোমার সাক্ষাৎ পেয়ে চিনতে পারিনি বলে
হৃদি ভেসে গেলো অলকানন্দা জলে.........

৪| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ২:৩৬

রাতুল_শাহ বলেছেন: আমি কিন্তু ভালো হতে চাই না।
যেই থেরাপি দেন না কেন, সুস্থ পরিবেশ থাকতে হবে, পরিবেশে রাজনীতি থাকলে কিন্তু সম্ভব না।

অ:ট: লুডু খেলার সেটিংস নারীবান্ধব। এখানে কারচুপি হয়।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ২:৪৯

শায়মা বলেছেন: রাজনীতি না থাকলে পরিবেশ কেমনে হবে!!!
দেখো সকল পরিবেশে মানিয়ে নেওয়া বা খাপ খাইয়ে বা লড়াই করে চলার নামই জীবন।

জীবন মানেই যন্ত্রনা নয় ফুলের বিছানা এ কথা সহজে কেউ মানতে চায় না......

নাচ শেখাও কি আর সহজ ভেবেছো!!

শিখে দেখো কত ধানে কত চাল !!!


শুধু লুডু খেলা নারী বান্ধব কেনো হবে? পৃথিবীর সকল কিছুই নারী বান্ধব...... সে কথাও সহজে কেউ মানতে চায়না......

৫| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:০৪

রাতুল_শাহ বলেছেন: আমার নাচ শেখার দরকার দেখি না। আমাকে কি দুর্ধষ অপরাধী মনে হচ্ছে?

রাজনীতি সকল প্রাণীর মাঝেই বিরাজ মান। কিন্তু মানুষের মাঝে অপরাজনীতি চর্চা করার প্রবণতা বেশি।
প্রাণীদের মাঝে একটা জিনিস দেখেছি- দূর্বলের জায়গা সেখানে নেই। অবহেলিত হতে হতে মারা যায়।

কিন্তু মানব জীবনে উল্টো। মনযোগের বেশি অংশ দূর্বলরাই পায়।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:০৮

শায়মা বলেছেন: এহ দূর্বল মনোযোগ পায়!!! এই কথা কই পাইলে রাতুলবাবু? দূর্বলরা দূর দূর করে বিতাড়িত হয়!!!

আর তোমাকে অপরাধী মনে হচ্ছে না তবে নাচ শিখলে ভালো করবে মনে হচ্ছে......... :)

৬| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:০৫

আমি সাজিদ বলেছেন: কঠিন বিষয়। শুধু এইটুকুই জানি অলোকানন্দা নামের আমার এক বান্ধবী ছিলো। ডেন্টিস্ট। রিসেন্ট বিয়ে করেছে।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:১০

শায়মা বলেছেন: হা হা হা অলকানন্দা রায়ের মতই নিশ্চয় সে একজন ভালোমানুষ হবে। এই নামটাই তো মন কেমন করা!!! ভালোবাসার দেবীর মতন নাম!!!

৭| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:০৯

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সবাই ভালো হয়ে যাক। মানুষ বাঁচুক শুভ্র ও শ্বেত হয়ে। কালচার দুর করুক মনের কালিমা

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:১১

শায়মা বলেছেন: অনেক সুন্দর চাওয়া ভাইয়া। তুমি একজন সুন্দর মনের মানুষ মনে হয় আমার।

৮| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:১৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


মুসলিম এলাকায় নাচ, গান, নাটক, ফাটক কি প্রয়োজ্য? বাংলাদেশের জেলে জিকির থেরাপী চেষ্টা করা যেতে পারে।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:২৯

শায়মা বলেছেন: হায় হায়!!! ভাইয়া !!! হায় হায় হায় তোমাকে মৌলোবাদীরা ধরলো কিন্তু........

৯| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৩২

কাজী আবু ইউসুফ (রিফাত) বলেছেন: আসলেই তো -মানুষ তো কেউ অপরাধী হয়ে জন্মায় না।

--- আমাদের দেশেও জেল গুলোতে এ চর্চা করা উচিত; সুস্থ্য সংস্কৃতির বিকাশ অবশ্যই জরুরী।

---সুন্দর লেখার জন্য ধন্যবাদ।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৩৭

শায়মা বলেছেন: হ্যাঁ মানুষ নানা কারণে অপরাধে জড়িয়ে পড়ে যা থেকে চাইলেও আর ফিরে আসা যায় না। সমাজ অপরাধীকে সেই পথ থেকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করে না বা তার ভুলগুল শুধরে সঠিক পথে চলার চেষ্টাও অনেক সময় সমাজ গ্রহন করে না। যা অনেক সময়ই ভুল হয়।

১০| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৪৫

সপ্তম৮৪ বলেছেন: আমার এক সময় মনে হত খুব সব অপরাধীদের ধরে ধরে যদি বাউল গানের শিল্পী বানানো যেত

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৪৭

শায়মা বলেছেন: হা হা খুবই ভালো হত......

সারাজীবন ধরে অচিনপাখি আর আয়নামহল খুঁজতে খুঁজতে আর অপরাধের কথা মাথায় থাকতো না.........

১১| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৪৭

সপ্তম৮৪ বলেছেন: "চাঁদগাজী বলেছেন:


মুসলিম এলাকায় নাচ, গান, নাটক, ফাটক কি প্রয়োজ্য? বাংলাদেশের জেলে জিকির থেরাপী চেষ্টা করা যেতে পারে"

আমি ফার্মার হুজুরের সাথে একমট !:#P !:#P !:#P

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৫৪

শায়মা বলেছেন: আমারও মনে হচ্ছে এটাও খারাপ না।
ধর্মের পথেও শান্তি খুঁজে পাবে অনেকে। ধর্মের সুপথগুলি অনুসরণ করলে অবশ্যই অপরাধ থেকে সরে আসবে অনেকেই। কিন্তু
আবার যদি ধর্মকে অবলম্বন করেই জেইল থেকে বেরিয়ে এসে ধরে ধরে অন্যদের ঘাড়েও জিকিরের খড়গ ফেলে......বিনা অপরাধে অপরাধীদেরকেও অপরাধী বানায় ফেলে তবে সমস্যা....

১২| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৫৩

মৌরি হক দোলা বলেছেন: মানে... আমার মাথায় কিছু ঢুকছে না। নাইজেল আকারার বাস্তব জীবনের কাহিনি এটা? আমি রিসেন্টলি কয়েকদিন আগে 'গোত্র' মুভিটা দেখেছি। তাই বুঝতে পারছি না, যা পড়লাম এটা কি কেবল গোত্র মুভির কাহিনি না সত্যিই এই ভদ্রলোকের বাস্তবজীবনের গল্প??? মানুষের জীবন সত্যি অদ্ভুত না? "Truth is stranger than fiction!"

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৫৬

শায়মা বলেছেন: সত্যি কাহিনী এটা মৌরিমনি। আমি গোত্র ম্যুভিটা দেখিনি। গান দেখেছি। ম্যুভি সম্পর্কে জেনেছি। আমি এই সত্যিকারের বাল্মিকীর ফ্যান হয়ে গেছি। আমি গোত্র ম্যুভিটা কেমনে দেখবো আমাকে বলে দাও.......

১৩| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:১৭

মৌরি হক দোলা বলেছেন: আপু, আমি তো হইচইতে দেখেছি। ওখানে পাবে। ইউটিউব এ আছে কিনা জানি না। zee5 এও পেতে পারো। 'নীল দিগন্তে' গানটা সত্যি খুব সুন্দর। আমারো খুব পছন্দ :)

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:২২

শায়মা বলেছেন: ওকে থ্যাংক ইউ সো মাচ!! আমি শুধু ইউটিউবেই খুঁজেছিলাম! :)

নীল দিগন্তে গানটা একদিন শোনাবো তোমাকে!!!!!!

১৪| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:২৯

মৌরি হক দোলা বলেছেন: তোমার কন্ঠে সরাসরি রবীন্দ্রসঙ্গীত আর আবৃত্তি শোনার ইচ্ছে আমার অনেক দিনের। অপেক্ষায় রইলাম আপু...

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৩৫

শায়মা বলেছেন: হা হা পুচ্চি আর জড়িয়ে ধরে চুমু দিয়ে দিতে আমাকে পেলে...... সেই কথাটা কি ভুলে গেছো?? জানো আমি মাঝে মাঝেই অনেককেই বলি আমার একটা লেখা পড়ে একটা পাগলি আমাকে এই কথাটা বলেছিলো!!

অবশ্য কোনো পাগলা বললে সেই কথা আমি কাউকেই বলতাম না!!! :P

১৫| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৩৯

মৌরি হক দোলা বলেছেন: =p~ =p~

সেটাতো আছেই। তুমি গত ব্লগডেতে গিয়েছিলে শুনে আমার এততো আফসোস হয়েছিলো!!!!!!!! X((

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৪২

শায়মা বলেছেন: আমি তো যাইনি!!!

কাজেই নো আফসোস।

তোমার বিয়েতে যাবো।

দাওয়াৎ দিতে ভুলো না ওকে?? :)

১৬| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৫:১৯

মৌরি হক দোলা বলেছেন: কি??????? তাহলে কোন শায়মা আপুর কথা পড়েছিলাম? নাকি যেতে চেয়েছিলে সেটা পড়েছিলাম আর ওটাই মাথায় আছে?? :D

তোমার বিয়েতে যাবো।

দাওয়াৎ দিতে ভুলো না ওকে?? :)


তোমার মনোস্কামনা পূর্ণ হোক =p~ =p~ :P

০৯ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৫:৩৫

শায়মা বলেছেন: সেটাই। মানে কঙ্কাবতীর কথা পড়ে..... বলেছিলে .......হাহা

১৭| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৪

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: পাপকে ঘৃণা কর, পাপীকে নয়।

আপনার জ্ঞানের পরিধি সম্পর্কে আমার জ্ঞান বৃদ্ধি পেল। বাংলাদেশের সব জেলখানায় অনতিবিলম্বে নাচের ব্যবস্থার করার আহবান জানাচ্ছি।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৭

শায়মা বলেছেন: হা হা হা আর অলকানন্দা রায়কে আমন্ত্রন জানাতে হবে........

১৮| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৭

তারেক ফাহিম বলেছেন:

মৌলবাদীরা এ পোস্ট চোখে পড়লেতো :)
দেশের রাজনীতিবিদদের এ থেরাপী কতটুকু কার্যকর হতে পারে?

০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৫

শায়মা বলেছেন: মৌলবাদীরা তাইলে চাঁদগাজীভাইয়ার কথা মত থেরাপী প্রমান করে দেখাক!

অলকানন্দা রায় তো প্রমান করেছে। :)

ভাইয়া তুমি আর পোস্ট লেখো না কেনো?

১৯| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩০

মিরোরডডল বলেছেন:



শায়মাপু,
বাংলাদেশে প্রিজনে নেই কিন্তু হয়তো হবে ইন ফিউচার । বাইরে আছে এরকম প্রিজনারদের জন্য অনেক ধরণের থেরাপি । মিউজিক, ইনস্ট্রুমেন্ট, বিভিন্ন হাতের কাজ যেমন কোলাজ, মেডিটেশন, ইয়োগা এসব করানো হয় যে যেটাতে ভালো করে । এটা বাধ্যতামূলক না, যদি করতে চায় । মেন্টাল হেলথ ইস্যুতে অনেক হেল্পফুল । এভরিওয়ান ডিজারভড সেকেন্ড চান্স । মানুষ সবাই ভালো আপু । অনেক সময় কন্ট্রোল হারিয়ে ট্র্যাকের বাইরে চলে যায়, তখন অপরাধ করে । ভুল শোধরানোর অবশ্যই সুযোগ করে দেয়া উচিৎ। সময় আর পরিবেশের সাথে মানুষ বদলায় ।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৮

শায়মা বলেছেন: আপুনি এই কথাগুলিই লাভ থেরাপীর কথা.........

অপরাধীদেরকে এই সেকেন্ড সুযোগটাই দেওয়া হয় না অনেক সময়!!!

আচ্ছা তুমি কে??

তোমাকে দেখটে ইচ্ছা করে।

একটা প্রফাইল পিক দিলেও তো হয়ে যেত। সেটাকেই ভেবে নিতাম!

০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫১

শায়মা বলেছেন: তোমার জন্য আমার আঁকা প্রপিক দিলাম

২০| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২১

চাঁদগাজী বলেছেন:


জেলের কয়েদিদের সাহায্য করার কথা প্রশাসনের; কিন্তু প্রশাসনের লোকদের অপরাধের পরিমাণ হিসেবে করলে, দেখা যাবে যে, এদেরও জেলে থাকার কথা।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫৪

শায়মা বলেছেন: তাইলে তাদেরও জেইলে ঢুকায় দিয়ে আমরাই নাচ গান শিখাই ভাইয়া।আর তুমি ট্রাক্টর নিয়ে আসবা। না শিখতে চাইলেই ট্রাক্টর নিয়ে তাড়া করা হবে! :P

২১| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৩

জোবাইর বলেছেন: জেল জননী অলকানন্দা রায়ের প্রতি শ্রদ্ধা, নাইজেল আকারা ও তার মত পূণর্জন্ম নেওয়া মানুষগুলোর প্রতি ভালোবাসা এবং কালচারাল থেরাপী নিয়ে পোস্ট দেওয়ার জন্য শায়মার প্রতি কৃতজ্ঞতা। আশা করি ব্লগের অনেক ব্লগারও কালচারাল থেরাপীতে উপকৃত হবেন।

যারা নাচ-গান-কবিতা-নাটক ভালবাসে অর্থাৎ সাংস্কৃতিক জগতের বেশিরভাগ মানুষগুলো সাধারণত ভদ্র, নিরাহংকারী এবং শান্তশিষ্ট হয়–এরকম একটা ধারণা আমার আগে থেকেই ছিল। তবে কালচারাল থেরাপীর মাধ্যমে মানুষের চারিত্রিক পরিবর্তন অর্থাৎ অপরাধ জগতের দুর্ধর্ষ খুনী-দস্যুদেরও সুস্থ-স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আনা যায় তা জানতাম না। তবে 'কোন রোগের জন্য কোন ঔষধ খেতে হয়' সেভাবে যদি আপনিও কোন ধরনের মানুষের জন্য কোন ধরনের কালচারাল থেরাপী দরকার সেটাও উল্লেখ করতেন আরো বেশি খুশি হতাম

যা-ই হোক, আপনার পোস্টের বদৌলতে কালচারাল থেরাপী সম্পর্কে কিছু জ্ঞান অর্জন হওয়ার সাথে সাথে আশেপাশের পরিচিত/অপরিচিত কিছু মানুষের বদঅভ্যাস ও ভুলত্রটি সংশোধন করার জন্য কাকে কোন ধরনের কালচারাল থেরাপী দিলে কাজ হবে তা নিয়ে ভাবছি। আমার মনে হয় সামুর কিছু ব্লগারেরও কালচারাল থেরাপী প্রয়োজন। যেমন:

সামুতে কিছু ব্লগার আছেন দেশের নেতিবাচক সংবাদ নিয়ে এদের প্রতিক্রিয়া খুবই দ্রুত। এরা এ ধরনের খবর আসার সাথে সাথে তালকে তিল করে ব্লগে ত্বড়িৎ গতিতে পোস্ট দেয়। যেমন করোনা ভাইরাস চীন ও ইউরোপে হানা দেওয়ার সাথে সাথেই এরা পোস্ট দিয়েছিল যে, করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে প্রবেশের সাথে সাথেই ৫ লক্ষ লোকের মৃত্যু হবে :(( ! বাংলার আকাশে-বাতাসে এখন করোনা ভাইরাসের ছড়াছড়ি, মৃত্যুর সংখ্যা এখনও ৩ হাজারের নিচে! তাই আমার ধারণা এ ধরনের ব্লগারদের জন্য প্রয়োজন 'ভায়োলিন থেরাপী'। এদেরকে ভালোভাবে ভায়োলিন বাজানো শেখাতে পারলে এরা একসময় সম্রাট নিরোর মত হয়ে যাবে। "রোম জ্বলছে নিরো বাঁশী বাজাচ্ছে।" আশা করি আগামীতে ব্লগারদের সুস্থ ও স্বাভাবিক আচরণের প্রত্যাশায় কোন ধরনের ব্লগারের কোন ধরনের কালচারাল থেরাপী প্রয়োজন তা বিস্তারিত লিখে একটা পোস্ট দেবেন :)

শেষ কথা হলো: নাচ-গান তথা সাংস্কৃতিক চর্চা একজন মানুষকে অন্তরে ও বাহিরে কিরকম সুন্দর ও আন্তরিক করতে পারে ব্লগে তার জীবন্ত উদাহরণ আপনি নিজেই। তাই আমি মনে করি ভদ্র, নিরাহংকারী, উদার, অসাম্প্রদায়িক এবং আন্তরিক হওয়ার জন্য সাংস্কৃতিক চর্চার কোনো বিকল্প নেই।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:০৫

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া এত সুন্দর কমেন্টের জন্য কি উপহার দেওয়া যায় ভাবছি।

আর ভায়োলিন থেরাপীর উপরে আর কিছু নাই। ভায়োলিনের সূর মন্দ্রকের কাজ করে হৃদয় মন্দিরে......

যাইহোক ভাইয়ামনি। গোলডেন হার্পের গল্প ছোটবেলায় পড়ার পরে ঠিক করেছিলাম আমিও হার্প বাজাবোই। কিন্তু আমার আজও হার্প কেনা হলো না.....

২২| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৩

কল্পদ্রুম বলেছেন: গোত্র মুভিটা দেখেছি।সব অপরাধীকেই কি ফেরানো সম্ভব?

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:০৭

শায়মা বলেছেন: বলতে গেলে তাই ভাইয়া। অলকানন্দা রায়ের ইউটিউব লিঙ্ক গুলি দেখো। সবাই ভালোবাসার কাঙ্গাল। অপরাধীদের থেকে সবাই মুখ ফিরিয়ে নেয় তাই তাদের আর ফেরা হয় না......কিন্তু ভালোবেসে সবই সম্ভব!!!

২৩| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৯

অচেনা হৃদি বলেছেন: কালচারাল থেরাপি!
বাবা!
এদেশের জেলখানাতে নাকি ডিম থেরাপিই সবচেয়ে কার্যকর। অবশ্য এটা শোনা কথা।
যাহোক, নাচ গান যে সভ্যতার একটা অপরিহার্য অংশ তা প্লেটো থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত সকল দার্শনিকরা উল্লেখ করে গেছেন। তবে আমাদের দেশে নাচ গান তো একেবারেই গৌণ বিষয় হয়ে গেছে। রক্ষণশীলেরা এসব থেকে দূরে থাকে, আবার আধুনিক মনস্কা লোকেরাও এসব অনুতপাদনশীল খাতে শ্রম ব্যয় করতে অনিচ্ছুক।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:১৬

শায়মা বলেছেন: হ্যাঁ সেটাই। আমাদের দেশেও এখন অলকানন্দা রায় জরুরী!!!

২৪| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪২

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
এমন থেরাপী যদি অপরাধীরে ভাল পথে নিয়ে আসে তবে দিন শেষে দেশ ও জাতীর লাভ। পোস্টে +++++++

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৪০

শায়মা বলেছেন: ঠিক তাই ভাইয়া!

আমার ধারণা এটা কার্য্যকরী থেরাপী

২৫| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৭

কৃষিজীবী বলেছেন: কালচারাল থেরাপি সম্পর্কে কোন ধারণা ছিলো না। মুক্তধারা দেখেছি, আমার কাছে মনে হয়েছিলো একদম ফালতু অতিরঞ্জিত গল্প। এই পোষ্ট পড়ার বুঝলাম আমার ধারণা ভুল ছিলো, সিনেমাটা এখন আবার দেখতে হবে। চমৎকার পোষ্ট এর জন্য ধন্যবাদ +

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৫৭

শায়মা বলেছেন: না এটা সত্যি কাহিনী ভাইয়া। মুক্তধারার ভিকি আমাদের সত্যিকারের নাইজেল এ যুগের বাল্মিকী।

২৬| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫০

মিরোরডডল বলেছেন: চাঁদগাজী বলেছেন:


জেলের কয়েদিদের সাহায্য করার কথা প্রশাসনের; কিন্তু প্রশাসনের লোকদের অপরাধের পরিমাণ হিসেবে করলে, দেখা যাবে যে, এদেরও জেলে থাকার কথা।[/sb

হা হা হা হা ...... আই ক্যান্ট স্টপ লাফিং =p~
এতো মজা লাগে আমার ওনার কথাগুলো ।
একটু আগে ওনার একটা কমেন্ট পড়ে হাসলাম, আবার এটা ।
উফ ! গাল দুটা ব্যাথা হয়ে গেছ আমার হাসতে হাসতে :)

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৫৯

শায়মা বলেছেন: হা হা আর আমার কমেন্ট পড়ো। নিজে কমেন্ট করে নিজেই হাসতে হাসতে মরেছি।ভাইয়াকে ট্রাক্টর নিয়ে তাড়া করতে বলেছি কয়েদীরা যদি নাচ শিখতে আপত্তি করে তবে ......

২৭| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:০৫

মিরোরডডল বলেছেন:



আমি কে ?

হয়তো আমি ধূসর কোনো আলো
অনাদরে ভাসিয়ে দিয়ে গেলে
সুখের দিনে নাইবা পেলে পাশে
খবর দিও হঠাৎ কান্না পেলে


হা হা হা ... কেমন করে দেখবে আপু !
আমিতো কখনও ছবি তুলিনা , ভিডিও করিনা, সোশাল মিডিয়াতে নেই , কোনও পাবলিক ক্রাউডে নেই ।
ফেসবুক সাইন ইন করেছিলাম সেই ২০০৬ । তারপর একসময় সব লক করে দেই ।
কোনকিছুতেই আকর্ষণ হয়না আপু ।
অনলি মিউজিক, মুভি আর ট্র্যাভেল এই তিনটাতে তুমি আমাকে পাবে ।
আদারওয়াইজ আই’ম ইন নোহোয়ার :)

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:০১

শায়মা বলেছেন: হায় হায় এই বৈরাগ্য কেনো??


ছবি না তুলো নো প্রবলেমো। একটা কিছু গাছ পাতা, ফুল ফল দিলেও তুমি মানেই সেটাই ভেবে নিতাম!!! :)

২৮| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:০৭

লরুজন বলেছেন: X( শায়মার পোস্টে মন্তব্য এত কম কেন? X(
এখন পর্যন্ত ১০০ মন্তব্য ৩০ লাইক জমা হবার কথা
X( আমি তিব্র প্রতিবাদ জানাইতাছি X(



০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:০৪

শায়মা বলেছেন: লরুজন!!

এইটা আবার কি নিক?

ভাইয়া তুমি কি গরুজন বা গুরুজন কিছু একটা লিখতে গিয়ে লরুজন বানিয়ে ফেললে?

লরুজন মানে কি!!!

যাইহোক ১০০ মন্তব্য না দেখে দুঃখ পাবার কিছু নেই।

এক কাজ করো।

বাকি ২০টা মন্তব্য একাই করে ফেলো। আর আমি বাকী ২০ উত্তর দিয়ে দেই।

ব্যস তারপর হয়ে যাবে ১০০।

আর কোনো দুস্ক থাকবেনা তোমার!!!

না করলে কিন্তু চাঁদগাজীভাইয়াকে বলবো তোমাকে ট্রাক্টর নিয়ে তাড়া করতে........

২৯| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:১৫

মিরোরডডল বলেছেন:
ওয়াও ! আপু ইটস বিউটিফুল !!!
থ্যাংকস আ লট আপুটা :)

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:০৫

শায়মা বলেছেন: ওকে এখন প্রোপিক বানাও!! :)

৩০| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৩৩

মুক্তা নীল বলেছেন:
শায়মা আপা ,

বিচিত্র কত ধরনের থেরাপি আছে তার মধ্যে এই কালচারাল থেরাপির বিষয়টি পড়ে ভালো লাগলো । আপনি সংস্কৃতিমনা
মানুষ তাই আপনার উপস্থাপনাটা হয়েছে খুব সুন্দর।
কিছু থেরাপি মানুষের জীবনকে বেশ উপকৃত করে।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:২৬

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ আপুনি।

আমি আমার ক্লাসেও দেখেছি নাচ এমনই এক গুরুত্বপূর্ণ আর্ট যা ক্লাসের গোমড়ামুখী বাচ্চাটাকেও হাসিখুশি করে তোলে.......

৩১| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৩৪

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
খুবই চমৎকার উপস্থাপনা।
পোস্টে গোল্ডেন এ+।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৩৬

শায়মা বলেছেন: হা হা ভাইয়া।

গোল্ডেন এ + দিয়েছো এখন মিষ্টি আনো....

৩২| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৪২

লরুজন বলেছেন: শায়মা তুমার পোস্ট আর তুমার মন্তব্য কিন্তু মিলে না
পরিস্কার বুঝা যায়
দুই হাতের লেখা

কেউ দেখে না
সবাই অন্ধ হয়া তুমার পোস্টে মন্তব্য করে
আমি অন্ধ না
এই পোস্ট অন্য কেউ লেইখ্যা দেয়
আর তুমি পোস্টাও

ঘরের কতা পরে জানল কেমনে?

যেই বেরাদার তুমারে পোস্ট লেইখ্যা দিছে তারে একটা থ্যংকু দিলাম
@বেরাদার ভিরমি খাইনে না, আপনারে আমি থ্যংকু দিছি গো!

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৪৪

শায়মা বলেছেন: হা হা ভাইয়া তুমি সত্যি একটা লরুজান ওরফে গরুজান!!!


হাতের লেকা ঘাসের লেকা ...... তোমাকেও কালচারাল থেরাপী দিয়ে মানুষ বানাতে হবে......

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৪৭

শায়মা বলেছেন: আরে!!!!!!!! সত্যি তো তুমি লরুজান......
All Words Containing LORUJAN
With this 7 letter combination LORUJAN it is possible to make 722 words containing exactly the same letters. Also look at our partial matches for lorujan! We searched a database of 182 000 words for results. All answers are official Scrabble words that can be used in the game.

৩৩| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৫০

লরুজন বলেছেন: তোমাকেও কালচারাল থেরাপী দিয়ে মানুষ বানাতে হবে......
@আউচ!!!
আমার অঙ্গে অঙ্গে ব্যাথা
ঔষধ দেবে কোথা!!!

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৫৫

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া হাসনরাজার কংসধরের বংশধর........

হাসনরাজার গান শোনাও। রেকর্ড করে আনো।

তোমার পোস্টে গিয়ে বুঝেছি তুমি আসলেও কালচারাল থেরাপীম্যান......

যাও যাও গানা গেয়ে সবাইকে ভুলাও.......

নইলে বংশি বাজাও.......

৩৪| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৫৬

ডার্ক ম্যান বলেছেন: লরুজন মানে নজরুল
নাইজেলের ঘটনা আগে থেকে জানতাম । luckno central নামে একটা হিন্দি মুভি আছে ।জেলের কয়েদির কালচারাল ঘটনা নিয়ে । ঐটা দেখতে পারেন ।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:০১

শায়মা বলেছেন: ওহ এটা উল্টাবুড়া ভাইয়া। নজরুলকে লিখেছে লরুজন!!!!

হা হা হা হা ডার্কুভাইয়ু তোমার তো ভালোই বুদ্ধি আছে!!!

ভীতুর ডিমরাও তাইলে বুদ্ধিমান হতে পারে।

হিন্দী ম্যুভিটার লিঙ্ক দাও!!!

থ্যাংক ইউ সিনেমার নাম বলার জন্য!!! :)

৩৫| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:০৪

লরুজন বলেছেন: যাও তুমা্র লগে খেলমু না
তুমি মজা বুঝ না........

আমি গোস্বা করছি, বুঝ না........
না বুঝলে আড়ি
যাও........

আবার কইতাছি পোস্ট কিন্তু বেরাদার লেইখ্যা দিছে হে হে হে হে........
আমি কিন্তু কেউরে কইতাম না।



০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:০৮

শায়মা বলেছেন: হে হে করে লাভ নেই। গোস্বা করেও লাভ নেই!!! আসলে কোনো লাভই নেই তোমার ঠিক ঠাক পোস্ট না পড়লে!!! :)

৩৬| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:০৪

রাজীব নুর বলেছেন: বোন আপনি কেমন আছেন?

গোত্র মুভিটা দেখেছি। মুভিটা ভালোই লেগেছে। 'রঙ্গবতি' নামে একটা গান আছে। গানটাও ভালো লেগেছে।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:০৯

শায়মা বলেছেন: আমি ভালো আছি ভাইয়ু। রঙ্গবতী যেমনই সুন্দর গান। সব গানগুলি ভালো তবে নীল দিগন্তের মত আর একটাও না..... সেটা ফার্ষ্ট!!!

৩৭| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:১২

লরুজন বলেছেন: নামডা পছন্দ হইছে গরুজান........
বেচারা গরুও আছে আবার জানও আছে........
আই লাইক ইট........

যদি কাগজে লেখো নাম কাগজ ছিড়ে যাবে পাথরে লেখো নাম পাথর ক্ষয়ে যাবে হৃদয়ে লেখো নাম সে নাম রয়ে যাবে........আমি গরুজান হৃদয়ে লেইখ্যা নিছি! আমার জীবনে এত সুন্দর নাম কেউ দেয় নাই........গরুজান গরুজান গরুজান





০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:১৪

শায়মা বলেছেন: হা হা হা হা গরুজানভাইয়ু!!!

সামনে কোরবাণী ঈদ আছে! হৃদয় কেটে টুকরা টুকরা হয়ে হৃদয় সিঙ্গাড়া হয়ে যেতে পারে তখন হৃদয়ের সাথে সাথে লিখ্যা রাখ্যা নামটাও যাবে.......

৩৮| ০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:৪৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা,




খুব সুন্দর একটি লেখা লিখেছেন। লেখার বিষয় সেজে উঠেছে যেন নৃত্যেরই তালে তালে, মূদ্রার মতোই তা যেন অর্থবহও হয়ে উঠেছে।
কালচারাল থেরাপীর কথা শুনেছি আগে। কিন্তু সে থেরাপীর বাস্তব প্রয়োগের কথা কখনও এমন কথাকলি নাচের মতো নেচে উঠতে ( মানে জানতে ) দেখিনি।

মুক্তধারা আর গোত্র ছবির পোষ্টারের পরের প্যারাটিতে ( ব্লগের কৃপায় কপি করা যায়না বলে এভাবে বলছি, নইলে কপি করে দিতুম ) খুব খাঁটি কথা বলেছেন। মানুষের সুকুমার মনোবৃত্তিগুলো নাচের মূদ্রার মতোই বাঙ্ময় হয়ে উঠতে পারে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে জড়িত থাকলে পড়েই।

০৯ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১১:০৩

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া।

জানিনা তুমি বাল্মিকী পড়েছো কিনা তবে এই নাইজেল আর বাল্মিকীর মিল দেখে আমি নিজেই অবাক হয়েছি। যেদিন নাইজেল শুনেছিলো সে নিজেও অবাক হয়েছিলো।
এরপর নাচ তাকে বদলে দিলো। হিরো হয়ে উঠলো বাস্তবে ও পর্দায়। অলকানন্দা রায়কে তাই অন্তর থেকে আমার শ্রদ্ধা! আমি

তার কথায় বার বার মুগ্ধ হয়েছি। এত সুন্দর মন আর কথা বলার আভা তার চেহারাতেও ফুটে উঠেছে যেন!!!

৩৯| ১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৩৯

করুণাধারা বলেছেন: পোস্ট আর মন্তব্য পড়তে পড়তেই দেখি দিন বদলে গেল! :( কী আর করা, আপাতত ঘুমাতে যাই। কালকে এসে বলব যা বলার...

১০ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ১২:১৪

শায়মা বলেছেন: হা হা আজ কি কালকে হয়েছে আপুনি??
আবার পড়ো কিন্তু আবার ভুলে যেওনা।
আপু আমি এই অলকানন্দা রায় আর নাইজেলের সত্যিকারের গল্পের সাথে বাল্মিকী কবির যে মিল পেয়েছি তাতে আমি মুগ্ধ!

কালচারাল থেরাপী নিষ্ঠুর দস্যুকেও মানবিকতায় ফেরাতে পারে। :)

৪০| ১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৫০

ডার্ক ম্যান বলেছেন: বুদ্ধি সবার কম বেশি থাকে।
আপনি এমন কিছু শুরু করতে পারেন। আপনি ড্যান্স থেরাপি দিতে পারবেন।
উৎসর্গপত্র দেখে ভাবুক হলাম।

১০ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ১:২৪

শায়মা বলেছেন: হা হা আমি তো অলকানন্দা রায়ের মত সাহসী না। আমি তো ভীতু মানুষ! :(

উৎসর্গ পত্র দেখে ভাবুক কেনো??

এখন তো আমিও ভাবুক হলাম।

৪১| ১০ ই জুলাই, ২০২০ ভোর ৪:৫৫

সোহানী বলেছেন: কয়েকদিন ধরে বাচ্চাদের সাথে সাইকোলজিকের কিছু ইউটিউব ভিডিও দেখছিলাম মাইকেলের। হাঁ, ঠিক তাই ভালোবাসা দিয়ে অনেক কিছুই সম্ভব। আর এ ভালোবাসা হতে পারে বিভিন্ন রকমের।

১০ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ১:৫৯

শায়মা বলেছেন: ভালোবাসা সব চাইতে বড় অস্ত্র। কালচারাল থেরাপী্টে বিশেষ করে নাচ! সবচাইতে আনন্দের। :)

৪২| ১০ ই জুলাই, ২০২০ ভোর ৫:৩৪

অনল চৌধুরী বলেছেন: বাংলাদেশে শিক্ষিত আর সংস্কৃতিবান নামধারী লোকজনই হয় সবচেয়ে নষ্ট- নিকৃষ্ট।সুতরাং অন্তত এই দেশেএই পদ্ধতি কাজ করবে না।
এদেশের একনামে পরিচিত প্রতিটা লেখক-কবি-সাহিত্যিক জঘণ্য সব কর্মকান্ডের সাথে জড়িত।
দেশের বিরাট সংস্কৃতিবান ও সংস্কৃতিজগতের মোড়ল মাতব্বররা মিডিয়ার নায়িকা-গায়িকা-মডেল-উপস্থাপিকা বানানোর নামে কি করে,সেটা প্রমাণসহ জানতে চাইলে ইমেইল করেন।এখানে এসব লেখা নিষেধ।
আর চলচ্ত্রি জগতের কথা সবাই জানে।
গত ৩ দশক ধরে সাহিত্য-সংস্কৃতি-চলচ্চিত্র-মঞ্চ ও টিভির সাথে জড়িত থেকে খুব কাছ থেকে দেখেছি এই জগতের মুখোশ পরা ময়ূরপুচ্ছধারীদের চরিত্রের আসল রুপ।
আরো জানতে হলে দেখেন বিরাট শিক্ষিত-সংস্কৃতিবানদের বানানো বাংলা ছবির অশ্লীল কাটপিসকে হার মানানো ওয়েব ধারাবাহিক।
চোর না শোনে ধর্ম কাহিনী।
এদের একটা পদ্ধতিতেই সোজা ও সভ্য বানানো সম্ভব।
আর সেটা হচ্ছে সিঙ্গাপুরের মতো বেত-লাঠি পেটা থেরাপি
ফৌজদারী কার্যবিধিতেও এর উল্লেখ আছে,যদিও দেশে এর প্রয়োগ নাই।
চোর না শোনে ধর্ম কাহিনী।

১০ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ২:০৫

শায়মা বলেছেন: হা হা হা ভাইয়া তুমিতো পুরাই দারোগা!!

চোরা শুনবে এইবার আনন্দময় সাংস্কৃতিক কাহিনী।

দেখো না অলকানন্দা রায় তো শুনিয়েই ছাড়লো!!!

৪৩| ১০ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ১:৪৪

ঢুকিচেপা বলেছেন: একটা বই পড়েছিলাম অনেকদিন আগে। বইয়ের নাম বা লেখকের নাম মনে নেই।
তবে বিষয়টা ঠিক এমনই।

শারীরিক প্রতিবন্ধী মেয়েকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে ডাক্তার বললেন এটা ঠিক হবে না তবে সামান্য এক্সারসাইজ করতে হবে। মা ভাবলেন তাহলে নাচ শিখতে দেই। নৃত্যগুরু মায়ের এই বাসনা শুনে রাগত স্বরে না করে দিলেন এবং বললেন শুধু নাচ শিখতে চাইলেই যেন আসে এটা এক্সারসাইজের জায়গা নয়।
শেষে মেয়ের জেদের কারণে নাচ প্রাকটিস শুরু এবং ধিরে ধিরে উন্নতি লাভ করে। পরবর্তীতে তিনি নৃত্যে ভারতের সর্বোচ্চ মুকুটের অধিকারীনি হন।

আপনার লেখা খুব ভাল হয়েছে।


শুভেচ্ছা রইল ।

১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৩৪

শায়মা বলেছেন: বাহ!! সেই সিনেমার নাম বলো ভাইয়া!!

৪৪| ১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:০৬

পদ্ম পুকুর বলেছেন: সুপাঠ্য এবং সময়োপযোগী পোস্ট কিন্তু পরোক্ষভাবে আমি কিভাবে জড়িয়ে থাকলাম বুঝতে পারিনি। বাই এনি চান্স, আপনি আমাকেও নাইজেল এর মতো ভাবছেন না তো? :(

১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৩৭

শায়মা বলেছেন: হাহাহাহাহাহাহাহাহা হাসতে হাসতে মরলাম ভাইয়ু....
তোমাকে নাইজেল ভাবছিনা নাইজেলের বড় ভাই ভাবছি......

পরোক্ষভাবে কেমনে জড়িত বুঝলে না!!!

সেটা যদিও বিশ্বাস করলাম না তবুও না বুঝলে কানে কানে বলা ছাড়া উপায় নাই :P

৪৫| ১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৫২

ডার্ক ম্যান বলেছেন: বৌদি আপনি ভীতু না ভীষণ সাহসী একজন । আপনি পারবেন ।
আমরা বলতে পারবো , আমাদের একজন শায়মা আছে , পদ্মপুকুর আছে

১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৫৪

শায়মা বলেছেন: ঐ বৌদি কি!!!!!!!!!

আজ সাহসের একদিন কি তোমার দুই দিন!!!


যাইহোক আমাকে পারতে আরও কয়েক বছর ওয়েট করতে হবে......:)

৪৬| ১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৫:০০

ডার্ক ম্যান বলেছেন: নাম তার শায়মা
ভীষণ করিৎকর্মা
অনেকে ডাকে দিদি
আমি ডাকি বৌদি

১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৫:১২

শায়মা বলেছেন: সাবধান ডার্কম্যান
যদি না মরিতে চান
ডাকা ছেড়ে হাঁক পেড়ে
জেইল খানা চলে যান।

আসিতেছি আমি সেথা
করিতে যে খান খান
খেনখেনা পায়ে তুমি
নাচিবেক ঢ্যাং ঢ্যাং


৪৭| ১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৫:২১

করুণাধারা বলেছেন: নাম তার শায়মা
ভীষণ করিৎকর্মা
অনেকে ডাকে দিদি
আমি ডাকি বৌদি
:D
পড়ে আমারও একটা কবিতা মনে পড়ল:

এসো গো মা সরস্বতী আমরা অবলা
তুমি বাজাও হারমোনিয়াম আমরা তবোলা


তুমি বা অলকানন্দা রায়ের চেয়ে কম কিসে! ডার্ক ম্যানকে ড্যান্স ম্যান না হোক, কবি তো বানিয়েছ! এমনই কবিতা, পড়ে হাসতে হাসতে মন ভালো হয়ে গেল। খুব মেজাজ খারাপ ছিল, লগ ইন করা হোক বা মন্তব্য করা, যাই করতে যাই তাতেই error 522 লেখা এসে করা বন্ধ হয়ে যায়। তাই আর বড় মন্তব্যে গেলাম না...

অলকানন্দা রায়ের কথা জেনে ভালো লাগলো, দুঃসাহসী মহিলা! জানানোর জন্য তোমাকে লাইক!

১০ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৬

শায়মা বলেছেন: ডার্কম্যানকে ড্যান্সম্যান থেকে ডেডম্যানও বানিয়ে দেবো ভাবছি........


আপুনি আমি তো অলকানন্দা রায় থেকে নাইজেল আকারা। নাইজেল আকারা থেকে ঐ মানালী নায়িকাটা। ঐ মানালী নায়িকা থেকে তার নীল দিগন্তে নাচটা। নীল দিগন্তে নাচটা দেখে সেই গানটা। গানটা দেখে শিবু প্রসাদ, নন্দিতা। শিবুপ্রসাদ নন্দিতা দেখে গোত্র ম্যুভিটা। গোত্র দেখে ....... উফ আর কত বলবো!!!


সব কিছুর ফ্যান হয়ে গেছি।

৪৮| ১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৫:২২

জেন রসি বলেছেন: আমি ভাবতেছি অপরাধ থেরাপি দিয়ে একজন ভালো মানুসকে কেমনে অপরাধী বানানো যায়? :P

কারন পৃথিবীতে এমন সব প্রতিভাবান অপরাধী আছে যাদের প্রতিভায় ভালো মানুষদের নাভিশ্বাস উঠে যাচ্ছে। ;)

সবাই অপরাধী হলে খেলাটা একটু জমত। B-)

১০ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩০

শায়মা বলেছেন: নিজেকে বানাও....... :)

ভালোমানুষ ভাইয়া....... অপরাধী হয়ে অপরাধীদের সাথে ফাইটিং।

এমন তো অনেক সিনেমায় আছে........

ঐ যে ডাকাত ভালোমানুষ বেবি তুলে নিয়ে গিয়ে ডাকু বানায়। পরে সে প্রতিশোধ নেয়।

সেইটা তো কমন। আবার নতুন করে করা কি ঠিক হবে??

বরং নতুন কিছু করো আর নতুন কিছু দেখো...

দেখো ডার্কম্যান ভাইয়া কবি হয়ে গেছে....... :)

৪৯| ১০ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৫:৫০

মিরোরডডল বলেছেন:




শায়মাপু তোমার ভালোবাসার অত্যাচারে প্রোপিক নিয়েছি :)
ভালোবেসে কিছু চাইলে ফেরানো যায়না ।
এটা কিন্তু তোমার পোষ্ট রিলেভেন্ট Love Therapy :)

১০ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৩

শায়মা বলেছেন: ভালোবেসে সখী নিভৃতে যতনে

তোমার জন্য গানা আপুনি!!!

৫০| ১০ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:১৭

ডার্ক ম্যান বলেছেন: হয়ও না কথার ফুলঝুরি
হয়ে যাও দাদী বুড়ী

১০ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৭

শায়মা বলেছেন: ডেডম্যান তোমাকে ধরে টুকরা টুকরা করে ভেঙ্গে, কুচি কুচি করে কেটে, বিছুটি পাতা দিয়ে ছেঁচে, করল্লার রস দিয়ে মেখে, গরুর ভুড়ি দিয়ে কষিয়ে, শুটকী মাছ দিয়ে ভর্তা করে চচ্চড়ি বানিয়ে খাইয়ে দেবো!! :)


দাঁড়াও ফুলঝুরী আপুকেও ডেকে আনছি........

৫১| ১০ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫৫

প্রোফেসর শঙ্কু বলেছেন: নতুন একজন মানুষ এবং তার কনসেপ্ট সম্পর্কে জানলাম।
ভাল লেগেছে, শায়মা। ভালো আছেন আশা করি।

১০ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৮

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়ামনি!!

তুমি ব্লগে ফিরেছো তাই অনেক ভালো লাগছে। :)

৫২| ১০ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১১

মিরোরডডল বলেছেন:

থ্যাংকস আপুটা

১০ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৯

শায়মা বলেছেন: অনেক অনেক ভালোবাসা আয়নাপুতুল আপু!! :)

৫৩| ১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:১৯

ডার্ক ম্যান বলেছেন: ফুলঝুরী আপু আবার কে ??
আমি এমনিতেই ভীতু । আমাকে মারার ভয় দেখিও না ।

১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৩৫

শায়মা বলেছেন: তোমাকে ফুলঝুরী দিয়ে কুমড়া ফুলের বড়া বানিয়ে তেলে ভেজে তালপাতায় মুড়ে দূরে ছুড়ে ফেলে দিয়ে আবার আছাড় মেরে ভর্তা বানাবো! :)

৫৪| ১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:২৪

আজাদ প্রোডাক্টস বলেছেন: একটা কবিতা লিখে কাল্পনিক ভালোবাসা কে উৎসর্গ করলে আমার প্রথম পাতায় একসেস পাওয়ার সম্ভাবনা আছে কি?

১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৩৭

শায়মা বলেছেন: আছে মনে হয়। কিন্তু শিরোনামে লিখতে ভুলবে না ভাইয়া। দেখো আমি নীচে লিখেছি তাই ভাইয়া এখনও জানেই না। :(

যাইহোক তুমি কবিতা লিখবে। ভালোবাসার প্রেমময় কবিতা। তারপর উপরে শিরোনামের সাথে উৎসর্গ লিখবে এই কবিতাটি কাল্পনিক ভালোবাসা ভাইয়ার জন্য.... :)


ড্রাফ্ট লিখে আমাকে দেখাও আগে ভাইয়া। :)

৫৫| ১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:১৪

মাহমুদ০০৭ বলেছেন: অনেক কিছু জানলাম
এইবার ভাগলাম

১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৩৩

শায়মা বলেছেন: :P

৫৬| ১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৪০

মোঃমোজাম হক বলেছেন: বরাবরের মতোই চমৎকার লেখা।
পরিচিতির জন্য সামুর পরীকে অনেক ধন্যবাদ।

১০ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৫৩

শায়মা বলেছেন: হা হা হা ভাইয়া এখনও সেই পরী পরী মনে আছে তোমার!!!


অনেক জল গড়িয়েছে পদ্মা, মেঘনা, সূরমা, যমুনায়......

৫৭| ১১ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:৩২

রাকু হাসান বলেছেন:

আমরা বলতে পারবো , আমাদের একজন শায়মা আছে , পদ্মপুকুর আছে
----- B-) B-) =p~
তো শায়মা আপু কবে শুরু করবে ? =p~ B-))

সত্যিই তুমি সব্যচাষী

১১ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:৩৪

শায়মা বলেছেন: হা হা শুরু করে দেবো কোনো একদিন.....

এখন ভাবছি কাঁচের পুতুল গল্পটা লিখবো কি লিখবো না!!! :`>

৫৮| ১১ ই জুলাই, ২০২০ রাত ২:০২

রাকু হাসান বলেছেন:

এখন ভাবছি কাঁচের পুতুল গল্পটা লিখবো কি লিখবো না!!! :`<
--দারুণ হবে । শুরু কর । :) এটা ভালো হবে মনে হচ্ছে। :-B

১১ ই জুলাই, ২০২০ রাত ২:৩১

শায়মা বলেছেন: একটা পুরান দিনের সিনেমা আছে মনে হয়.....

শেষে মানুষ বলবে আদ্দিকালের বদ্দিবুড়িটা কই থেকে এটা নিয়ে আসলো!!! #:-S

৫৯| ১১ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৫

জুন বলেছেন: এই জন্যই আমাদের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী স্কুল কলেজে সাংস্কৃতিক চর্চার ব্যাপারে জোর দিয়েছিলেন শায়মা। সুকুমার বৃত্তির চর্চা মানুষের মনকেও কোমল করে তোলে যা তুমি বলেছো। আমার মনে পরে আমাদের স্কুল কলেজ জীবনে কত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হতো। আর তাতে টিচার থেকে শুরু করে আমাদের ছাত্রীদের মাঝে কত উৎসাহ উদ্দীপনা ছিল।
+ ভালোলাগা রইলো অনেক।

১১ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:২০

শায়মা বলেছেন: আমাদের ছোটবেলায় ছিলো আমাদের সাংস্কৃতিক পরিমন্ডল আর এখন হয়েছে অপসংস্কৃতি!! কোনদিকে যে যাবে বুঝতে না পেরেই গড়বড় লেগে যায়!!!

৬০| ১২ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১২:২৯

উদ্বাস্তু মানুষ আমি বলেছেন: কালচারাল থেরাপী অবশ্যই ভালো উদ্যোগ হবে। ভালো হবার একটা সুযোগ সবারই অধিকার।

১২ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৫৬

শায়মা বলেছেন: হ্যাঁ সেটাই দেখিয়েছেন অলকানন্দা রায়! :)

৬১| ১২ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৪৯

রাকু হাসান বলেছেন:


লেখক বলেছেন: একটা পুরান দিনের সিনেমা আছে মনে হয়.....
শেষে মানুষ বলবে আদ্দিকালের বদ্দিবুড়িটা কই থেকে এটা নিয়ে আসলো!!! #:-S
--- আরেহ না ! নাম মিল থাকলেই কি! তাঁদের কথা ভেবে , কে কি বললো ,সেটা ভেবে নিশ্চয় ব্লগিং কর না। :)

১২ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৫৯

শায়মা বলেছেন: :P

সে আর বলতে!!!!

৬২| ১২ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:০৭

রাকু হাসান বলেছেন:


তুমি নভোনীল লিখলে খুশি হতাম খুব। 8-|

১২ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:১১

শায়মা বলেছেন: আচ্ছা লিখবো..... :)

নীলনভ ঘনে আষাঢ় গগণে তিল ঠায় আর নাহিরে ......

৬৩| ১২ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:২২

রাকু হাসান বলেছেন:


আচ্ছা লিখবো..... :)
নীলনভ ঘনে আষাঢ় গগণে তিল ঠায় আর নাহিরে .
---------------- X(( X(( X(( X((

১২ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:৩০

শায়মা বলেছেন: হা হা হা হা
শ্রাবনের ধারা ঝরে ঝরো ঝরো ঝরো ঝরো
আউশের খেত জলে ভর ভর
কালী মাখা মেঘে ওপারে আঁধার ঘনিয়েছে
দেখ চাহিরে.......
ওগো আজ তোরা যাসনে যাসনে ঘরের বাহিরে!!!!!!!!!

৬৪| ১৩ ই জুলাই, ২০২০ দুপুর ১:১৫

হাসান মাহবুব বলেছেন: বাহ, কী অসাধারণ!

শিল্প-সাহিত্য-সঙ্গীত আসলেই জীবন বদলে দিতে পারে। আমার জীবনের চরমতম কিছু অনুভূতির সাথে কালচার জড়িত। কেঁদেছি, হেসেছি, তবে আমার ভেতরের মূল আমিটা কতটুকু বদলেছি জানি না। বদলানো সম্ভব জেনে আনন্দিত হলাম।

১৩ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৪

শায়মা বলেছেন: অনেকটুকুই হয়ত বদলেছো হামুবেবী। অনেক ভালো আছো এখন। :)

তবে লাভ থেরাপী একজন হতাশ মানুষ বা যে ভাবছে তাকে আর কেউ লাইক করছে না , তার আর আশা নেই তাকে ফিরিয়ে দেবার
জন্য সবচেয়ে বড় অস্ত্র!

তবে সেখানে নিজেরও ইচ্ছা থাকতে হবে।

নিজের ইচ্ছা ছাড়া কাউকে সন্মোহনও করা সম্ভব না।

৬৫| ১৪ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৩৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমাদের দেশের ক্রিমিনালরা একেবারেই ব্যতিক্রম। এদের নাচ শেখালে শিখবে ঠিকই, তবে জেল থেকে বের হয়ে নাচতে নাচতেই আবার ক্রাইম করবে। :-B

ব্যাতিক্রমী লেখা। অবশ্য তোমার ক্ষেত্রে এটাই স্বাভাবিক। :)

১৪ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৫৩

শায়মা বলেছেন: হা হা হা হা নাচতে নাচতে ক্রাইম। মানে খুন বা চাঁদাবাজী বা ফাইটিং! বাহ মানুষ মরার সময়ও ভালো কিছু দেখবে!!! :P

৬৬| ১৪ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:১৮

মিরোরডডল বলেছেন:



হা হা হা...... শায়মাপু আমি সাম্প্রতিক মন্তব্যে ভুমের কমেন্ট দেখে পড়তে আসছি কারণ জানতাম খুব হাস্যকর কিছু লিখবে ।
হি ইজ সুপার ফানি । কমেন্টগুলো এতো মজার হয় । আই লাফ লাউড :)

আরেকজনের এ অবস্থা কেনো । ৬৩ নং রাকু ঠিক আছেতো =p~ :P

শোন আপু, তুমি যদি নভোনীল লেখো , যদি লেখো , প্লীজ পুশ হার্ড এন্ড টেক ইট টু নেক্সট লেভেল । যদিও আমার মনে হয়না তুমি লিখবে :P

৭ টা এপিসোড হয়ে গেছে কাহিনী কোথাও যায়না । সেই যে বলেছিলাম আমার ট্র্যাফিক জ্যামের কথা সেরকম । সামনে পেছনে ডানে বাঁয়ে কোথাও যায়না । এভাবে চললে এই নভোনীল শেষ হবার আগে আমরাই এই ধরা ত্যাগ করবো বলে মনে হয় :)

১৪ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৩৩

শায়মা বলেছেন: হা হা তুমি আমার রাজপুত্র ভাইয়াকে ভুম বানাইসো!!!!!!!!!! X(( অনেকখন পর বুঝতে পারলাম!! :P

আর রাকু খেপেছে কারন সে আমাকে নভোনীল লিখতে বলেছিলো আমি লিখেছি নীল নভ ঘনে আষাঢ় গগণের গানের লাইন তাই....... হা হা

ওকে নভোনীল লিখবো যাও। তবে তার আগে সব কটা পড়তে হবে তো নইলে ঠাস করে নভ এসে পপাৎ ধরণীতল হবে!!


ওকে আমি কালকের মাঝেই নভনীলকে প্লেনে উঠায় আবার নভোতে পাঠাই দেবো।

ডোন্ট ওয়ারী এট অল!! :)

৬৭| ১৪ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:১৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: বাহ মানুষ মরার সময়ও ভালো কিছু দেখবে!!! :P তাতো বটেই! আমাদের দেশের ক্রিমিনালরা একই সাথে একেকজন এন্টারটেইনারও বটে!! :-B

১৪ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৩৪

শায়মা বলেছেন: হায় হায় তাইলে তো আমারও ক্রিমিনাল হবার সম্ভাবনা আছে ভাইয়ু!!!!!!!!!!!!

যাইহোক একটা ছবি দেখো.....



কিছু মিছু চিনতে পারো ভাইয়া? আমার রাজপুত্র ভাইয়া!!!! :)

৬৮| ১৪ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:২৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমাদের দেশের ক্রিমিনালরা এন্টারটেইনার। এর মানে এই না যে, এন্টারটেইনাররা ক্রিমিনাল। তাছাড়া, রাজকন্যা বোনকে ক্রিমিনাল বললে ভাইয়েরও তো দায় থাকে! তাই নিজেকে বিপদে ফেলতে চাই না......এক্ষেত্রে একটু কৌশলী না হয়ে উপায় কি?:)

ছবি দেখে তো প্রথমে কিছুই বুঝি নাই। রংয়ের বাহারের কারনে অন্ধকারে কালো মানুষ দেখার মতো বিষয় হয়ে গিয়েছিল প্রথমে।
যাই হোক, অতঃপর ভালোভাবে চক্ষু মেলিয়া ব্যাপারটা বুঝিতে পারিলাম!! B-)

১৫ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:১১

শায়মা বলেছেন: হা হা দাঁড়াও রং এর বাহার ছাড়িয়ে কালকে ছবি দেবো......

৬৯| ১৫ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:৩৩

কাছের-মানুষ বলেছেন: পোষ্টের সাথে একমত।

আমি ফুটবল থেরাপি নেই রেগুলার। আমাদের এখানে ফুটবল টিম আছে, আমরা এই করোনা কালেও সপ্তাহে ২/৩ তিন ফুটবল খেলি। ফুটবল থেরাপিতে মন ভাল থাকে তবে মাঝে মাঝে ইঞ্জুরিতে পরতে হয়!

আমার বউ আজকাল ফুটবল থেরাপি নিতে বাধা দিচ্ছে, তাঁর ধারণা ফুটবল থেরাপী নিতে গিয়ে করোনা থেরাপীর খপ্পরে পরব!

পোষ্টে প্লাস।






১৫ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১:৩৯

শায়মা বলেছেন: হা হা কথা সত্যি ভাইয়া। ফুটবল থেরাপী নিতে গিয়েকরোনা থেরাপীর খপ্পরে পড়ে যেতে পারো। তার থেকে বাসায় বসে তুমি রান্না থেরাপী, ঘর মুছা থেরাপী, সব্জী কোটা, বাটনা বাটা এসব থেরাপী নিয়ে দেখতে পারো।ভাবীরও হেল্প হবে তোমারও আনন্দ হবে। :P এছাড়াও গান চর্চা নাচ চর্চা আকাআকি লেখালিখি করতে পারো তো!! :)

৭০| ১৫ ই জুলাই, ২০২০ সকাল ১১:২৪

কাছের-মানুষ বলেছেন: রান্না বান্না থেরাপী আমি নিয়মিত নেই! ভাত, মাছ মাংস, বিরানী, পোলাও, কালা ভুনা, নেহারি, আটা রুটি বানানো, খিচুরী, ফ্রাইড চিকেনসহ এমন কোন খাবার কমই আছে যা আমি রাধতে পারিনা!! এগুলো ব্যাচের লাইফ থেকেই রান্না থেরাপি নিয়ে আসছি!

একমাত্র নাচানাচি আর গান বাজনাই পারি না। আহা এগুলো পারলে আজ আমি বাংলা সিনেমার হাটথুব নায়ক থাকতাম! :( :(






১৫ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:৪১

শায়মা বলেছেন: বাপরে!!!!!!!

বলো কি ভাইয়া!!!

তো এখন কি লকডাউনে সেই থেরাপী চলছে তোমার বাড়িতে!!!


গুড গুড ভেরী গুড ভাইয়ামনি সোনারখনি!!

শুনো নাচ আর গান শেখার কিন্তু এটাই পারফেক্ট সময় ছিলো!!! শিখে ফেললেও পারতে :)

৭১| ১৭ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:১০

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:



এক ঝলক পাঠের পর প্রিয়তে তুলে নিলাম।
পরে সময় করে আসব ফিরে ।
শুভেচ্ছা রইল

১৮ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১২:০৭

শায়মা বলেছেন: আচ্ছা ভাইয়া।

অনেক ভালো থেকো!!! :)

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.