নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

বাংলা ভাষা অনেক সুন্দর একটি ভাষা। বাংলা আমার ভাষা। বাংলা আমার দেশ।

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন

আমি কেউ না। কবে যে কেউ হতে পারবো।

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন › বিস্তারিত পোস্টঃ

জালিয়াতির অপকর্ম মালয়েশিয়াতেও হচ্ছে

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০৭



বাংলাদেশে যেমন জাতীয় পরিচয় পত্র, জন্ম নিবন্ধন সনদ ইত্যাদিতে জাল হচ্ছে হয় হামেশাই। এগুলোর পেছনে বিভিন্ন পর্যায়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত লোকজন জড়িত থাকে ‌। বাংলাদেশের মতো মালয়েশিয়াতেও জাতীয় পরিচয় পত্র ও জন্ম নিবন্ধন সনদ ইত্যাদি জাল হয়। দুর্নীতিগ্রস্ত সরকারি কর্মকর্তারা ভিনদেশী নাগরিকদের কাছে বল টাকার বিনিময়ে হস্তান্তর করেন। এরকম কিছু ঘটনা সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে।

মালয়েশিয়ার জাতীয় পরিচয় পত্র বলে মাই কাডMy Kad. পেনাং প্রদেশের রাজধানী জর্জ টাউনে এরকম একটি সরকারি চক্রকে পুলিশ সনাক্ত করে ফেলেছে। চক্রটি জাতীয় পরিচয় পত্র ও জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরি করে চীন থেকে আগত কিছু মানুষের কাছে বিক্রি করেছিল।

অভিযোগ প্রমাণিত হলে দোষী ব্যক্তিদের ৭ থেকে ১৫ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। একই সাথে ৫০ হাজার থেকে পাঁচ লাখ রিঙ্গিত অর্থদণ্ড ও হতে পারে।

মন্তব্য ৯ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৯) মন্তব্য লিখুন

১| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৫৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


মালয়েশিয়ার নাগরিকদের মাঝে কোন এথনিক গ্রুপ বেশী দুর্নীতি পরায়ন?

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:২২

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: এরা কেউ কারো চেয়ে কম যায় না। তবে তুলনামূলক ভাবে মালয়রা একটু বেশী ভালো। মালয়<চায়না<তামিল ।
আর আমার দেশী ভাইরা তো আছেনই।

২| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:০৩

বলেছেন: জালা্যাতির পরিমাণ কেমন...?

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:২৮

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: পরিমাণে কম না। তবে অপরাধ অমার্জনীয়।

৩| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:০৩

রাজীব নুর বলেছেন: মালোশিয়ায় লোকজন ঘুষ বেশি খায়। অনেকটা আমাদের দেশের মতোনই।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:২৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: দুই দেশেই প্রচুর খারাপ মানুষ আছে।

৪| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৩৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: মালয়েশিয়া দূর্নীতি করে করে একটি সাইট এতো উন্নত হয়েছে। বিশষে করে ভিসা ব্যাবসা করে, প্রতি বছর ভিসা নবায়ন করতে গিয়ে ফরেনার রা মালয়েশিয়ানদের (মালাইয়ু, চাইনিজ, তামিল) টাকা দিয়ে দিয়ে তাদের অর্থনীতি চাঙ্গা করে দিচ্ছে।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৪৪

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: বছরে ৩০০০ হাজার রিঙ্গিত করে ভিসা ফি ধরলেও ২০ লাখ শ্রমিকের কাছ থেকে বছরে যে পরিমাণ অর্থ আসে তা দিয়ে অনেক দেশের বাজেট পেশ করা যেতে পারে।

৫| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: মালয়েশিয়াতে সরকার জানেন দেশে টাকা আসছে এভাবে, এবং সরকার মনে করেন এটি সঠিক। সমস্যা শেষ। মালয়েশিয়া গেন্তিং হাইল্যান্ড যারা দেখেননি তাদের কাছে ঢাকার চিপা গলির ক্যাসিনো বিশাল কিছু। পার্থক্য ঢাকার ক্যাসিনো অবৈধ আর মালয়েশিয়া ক্যাসিনো বৈধ - এখানে বিলিয়ন রিঙ্গিত খেলা হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.