নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

বাংলা ভাষা অনেক সুন্দর একটি ভাষা। বাংলা আমার ভাষা। বাংলা আমার দেশ।

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন

আমি কেউ না। কবে যে কেউ হতে পারবো।

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন › বিস্তারিত পোস্টঃ

অপরিচিত জনকে আপনি করে বলুন তবে খুনিদেরকে নয়

১০ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:২৬



বাংলাদেশের মানুষের একটি অন্যতম সমস্যা হচ্ছে তারা মানুষকে সম্মান দিতে চায় না। প্রত্যেকের মাঝে যেন এক ধরনের উগ্রতা। যেন দারুন মেজাজ খারাপ সবার। সবাই যেন কেমন গরম হয়ে থাকে। মনে হয় বিদ্যুত সমস্যা, পানি সমস্যা, গ্যাস সমস্যা আর চলমান জীবনের নানা সমস্যার কারণে তাদের মেজাজ ভীষণ চড়া।

অপরিচিত জন কাউকে দেখলে ‘আপনি’ করে কথা বলা উচিত। অথচ গরীব মানুষ পেলে ‘আপনি’ করে আর কে বলতে চায়? আর রিক্সাওয়ালা হলে তো আর কথাই নেই। রিক্সাওয়ালাদেরকে এতো বেশী তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করা হয় যে এখন কেউ আর রিক্সাওয়ালাও বলে না। বলে, এই খালি যাবে? কিছু দিন আগেও বলত, এই রিক্সা, যাবে? আমার কথা হচ্ছে, রিক্সাওয়ালাকে ‘আপনি’ করে বললে সমস্যা কোথায়? একজন রিক্সাওয়ালার বড় পরিচয় তিনি এক জন মানুষ এবং ধরে নিতে পারি, তিনি এক জন সৎ মানুষ। কারণ, তিনি রিক্সা না চালিয়ে চুরিও করতে পারতেন। মাস্তানী কিংবা ছিনতাইও করতে পারতেন। মাস্তানী করলে তো সবাই ‘বড় ভাই’, ‘বড় ভাই’ করতে করতে মুখে ফেনা তুলে ফেলত। তিনি একটি ভাল কাজ করছেন এবং সংসার চালাচ্ছেন। আপনি হয়তো তার চেয়ে অনেক অনেক বড় একটি কাজ করেন, অনেক বেশী আপনার আয়। কিন্তু সবাই-ই তো মানুষ ।



তাই আমার একটি আবেদন, অপরিচিত জনকে আপনি করে কথা বলুন। ভদ্র ভাবে কথা বলুন। মানুষকে তার যথাযথ মর্যাদা দিন। বাংলা অনেক সুন্দর একটি ভাষা। এই ভাষার সৌন্দর্য্য রক্ষায় আমরা কি একটু ভূমিকা রাখতে পারিনা?

আমি অত্যন্ত ক্ষোভ ও বিস্ময়ের সাথে লক্ষ্য করি, সংবাদপত্রগুলো তাদের সংবাদ লেখার সময় খুনীদেরকেও আপনি করে বলতে শুরু করেন।

যেমন পত্রিকা সাংবাদিকরা লেখেন ,"এক খুনি তাকে চেপে ধরেন , আরেক খুনী তার গলায় ছুরি চালিয়ে দেন"। আবরার হত্যাকান্ড নিয়ে দেশের শীর্ষ দৈনিক ইত্তেফাকের খবরটি পড়ে দেখুন।

আবরার ফাহাদ এর হত্যাকাণ্ড সংক্রান্ত খবর গুলি পড়লে দেখতে পাবেন সাংবাদিকরা খুনিদের প্রতি যেন বিনয়ে গদগদ হয়ে উঠেছেন। আমাদের বাংলা পত্রিকার সাংবাদিকদের ভাষা- জ্ঞান কত টুকু চিন্তা করলে খুব লজ্জা লাগে।

অপরিচিত জনকে আপনি করে বলা একটা ভালো কাজ । কিন্তু খুনীদেরকে আপনি করে সম্মান দেখানোর কোনো ভালো কাজ হতে পারে না।

মন্তব্য ২৬ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (২৬) মন্তব্য লিখুন

১| ১০ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:২৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: অপরিচিত জনকে আপনি করে বলা একটা ভালো কাজ । কিন্তু খুনীদেরকে আপনি করে সম্মান দেখানোর কোনো ভালো কাজ হতে পারে না।

১০ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:৩৭

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: আমাদের লিলিপুটিয়ান সংবাদমাধ্যমগুলির তথাকথিত সাংবাদিকেরা এই বিষয়টিতে নজর দেয়না। তাদের খবরগুলি পড়লে মনে হয় যেন খুনিরা তাদের বস। তাদের তোয়াজ করতেই যেন তারা ব্যস্ত। আসলে সাংবাদিকদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ও যথাযথ প্রশিক্ষণ থাকা দরকার । পত্রিকা অফিসের সহ-সম্পাদক ও অন্যান্য সম্পাদকদেরকেও দায়িত্বশীল ও প্রশিক্ষিত হতে হবে। ভাষার সৌন্দর্য রক্ষা করার একটা অন্যতম দায়িত্ব।

২| ১০ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:৩৯

চাঁদগাজী বলেছেন:



যারা কোথায়ও চাকুরী পায় না, ওরা পত্রিকায় চাকুরী করে।

১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৫:৪১

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: বাংলাদেশের বর্তমান এই অবস্থার জন্য তথাকথিত সাংবাদিকদেরও একটা বিরাট ভূমিকা আছে। তারা দেশটাকে শেষ করে দিতে অমানুষদের সহায়তা করছে ।

৩| ১০ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:৫৩

রাজীব নুর বলেছেন: আমি সব সময় সবাইকে আপনি করে বলি। একজন রিকশাওয়ালা, সবজি বিক্রেতা বা একজন ভিক্ষুক। আমার মুখে তুই আসেই না।

১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৫:৪১

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: এই ব্লগের আপনি একজন গ্রেট ম্যান। আপনার মত মানুষ আরো কয়েক লক্ষ দরকার আছে।

৪| ১০ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৩৮

পাঠকের প্রতিক্রিয়া ! বলেছেন: আবরার হত্যা: প্রথম স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি সকালের
অনলাইন ডেস্ক২১:০২, ১০ অক্টোবর, ২০১৯


বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার আসামিদের মধ্যে প্রথম স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন ইফতিমোশাররফ সকাল। তিনি বুয়েটের বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের এই ছাত্র এবং বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের উপ-সমাজসেবা সম্পাদক ছিলেন।বৃহস্পতিবার বিকেলে ইফতি মোশাররফ সকালকে মহানগর হাকিম সাদবির ইয়াসির আহসান চৌধুরী আদালতে নিয়ে যান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক মো. ওয়াহিদুজ্জামান। সেখানে ১৬৪ ধারায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। জবানবন্দী নেওয়ার পর সকালকে কেরাণীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করার নির্দেশ দেন বিচারক।জবানবন্দি রেকর্ডের আগে আদালতে দেওয়া তদন্ত কর্মকর্তার প্রতিবেদনে বলা হয়, রিমান্ডে সকাল স্বীকার করেছে যে ছাত্রলীগের অন্যদের সঙ্গে সে আবরারকে প্রহার করেছে যাতে তার মৃত্যু হয় এবং তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে চান।আরও পড়ুন:খোকসায় অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধারউল্লেখ্য, রবিবার মধ্যরাতে ফাহাদকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে রাজধানীর চকবাজার থানায় ১৯ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।


[এই লেখায় সমস্যা কোথায়??]

১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৫:৪০

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: এই লেখায় হাজারটা সমস্যা আছে। আপনি প্রশ্নফাঁস প্রজন্মের লোক । আপনি সেটা নাও বুঝতে পারেন।

৫| ১০ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৪৭

পাঠকের প্রতিক্রিয়া ! বলেছেন: অপরাধী বা খুনিদের আপনি বললে সমস্যা কোথায়! "পাপকে ঘৃণা করো পাপীকে নয়" এই নীতিকথা কই গেল?



পুনস্চঃ
বেশ কিছু ব্লগারকে দেখেছি ফেসবুকার বা সাংবাদিকদের হেয় করে দেখতে। কিবোর্ড টেপা শিখে এমন ভাব নিলে তো সমস্যা। হাজারো নিউজ পোর্টালের ভিড়ে অদক্ষরা থাকতেই পারে, তার মানে এই না যে ভালো সাংবাদিক নেই। প্রথম আলো বা বিডি নিউজে যে মানের কলাম পড়ি, সামুতে তার ছিটে ফোটাও দেখি না।

১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৯:০০

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: আপনার পক্ষে পাপীদেরকে ঘৃণা না করার দরকার নেই। আপনি পাপীদেরকে ভালো বাসতে থাকুন। । আবরারের সব হত্যাকারীকে আপনাদের বাসায় নিয়ে গিয়ে জামাই আদরে রাখুন। পোলাও কোরমা রান্না করে খাওয়াতে থাকুন। তাদের কোন দোষ নেই, সব দোষ পাপের। পাপকে গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নিধন। যেসব হত্যাকারীকে আটক করা হয়েছে তাদেরকে ছেড়ে দিন।

আমি পাপ ও পাপী দুইটাকেই অন্তর থেকে ঘৃণা করি। পরিত্যাগ করে দুইটাকে দূরে সরিয়ে রাখি। এমন পচা নীতি কথার আমার কোন দরকার নেই।

নিজাম মন্ডল সাহেব, আপনি নিজে তো খুব ভালো লিখেন। আপনিই ভালো ভালো লেখা লিখতে শুরু করুন না। আপনার লেখার গুণমুগ্ধ পাঠক হতে চাই। মন্তব্য করার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

১৪ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:৩২

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: আপনি দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন এ প্রকাশিত এই খবরটি পড়ে দেখতে পারেন। এই খবরটি একটি সুন্দর রিপোর্ট হিসেবে পরিগণিত হবে ইনশাআল্লাহ ।

https://www.bd-pratidin.com/first-page/2019/10/14/465739

৬| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:০৪

ঢাকার লোক বলেছেন: গ্রেফতারকৃত খুনি, চাঁদাবাজ, মাস্তান ডাকাতরাও তো অপরিচিত, তাদের বেলায় খবরের কাগজগুলি "তুপনি " ব্যবহার করলে কেমন হয় !

১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৫:৩৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: তাদেরকে সবসময় রিমান্ডের উপরে রাখা উচিত। তারা নষ্ট মানুষ । নষ্ট মানুষদেরকে........

৭| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:৩৩

পাঠকের প্রতিক্রিয়া ! বলেছেন: ওকে আমি প্রশ্নফাঁস প্রজন্ম। এখন ধানাই পানাই না করে বলেন কোন কোন লাইনে সমস্যা।




বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার আসামিদেরমধ্যে প্রথম স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন ইফতিমোশাররফ সকাল। তিনি বুয়েটের বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের এইছাত্র এবং বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের উপ-সমাজসেবা সম্পাদক ছিলেন।বৃহস্পতিবার বিকেলে ইফতি মোশাররফ সকালকে মহানগর হাকিম সাদবির ইয়াসির আহসান চৌধুরী আদালতে নিয়ে যান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক মো. ওয়াহিদুজ্জামান। সেখানে ১৬৪ ধারায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। জবানবন্দী নেওয়ার পর সকালকে কেরাণীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করার নির্দেশ দেন বিচারক।জবানবন্দি রেকর্ডের আগে আদালতে দেওয়া তদন্ত কর্মকর্তার প্রতিবেদনে বলা হয়, রিমান্ডে সকাল স্বীকার করেছে যে ছাত্রলীগের অন্যদের সঙ্গে সে আবরারকে প্রহার করেছে যাতে তার মৃত্যুহয় এবং তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে চান।

উল্লেখ্য, রবিবার মধ্যরাতে ফাহাদকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে রাজধানীর চকবাজার থানায় ১৯ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।



না পিছলিয়ে ঠিকমত প্রতিউত্তর করুন।
[ ভেড়াদের সাথে ব্লগিং করে নিজেকে শৃগাল ভাবেন?]

১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৯:০৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: নিজাম মন্ডল সাহেব, আপনার প্রিয় পত্রিকা কালের কণ্ঠের খবরেই কেবল নয় । বাংলাদেশের প্রতিটি পত্রিকার খবরে এই ধরনের ত্রুটি দেখা গেছে। খুনিদেরকে ওয়াজ করে খবর রাখার কোনো কারণ নেই। খবর গুলি এমন ভাবে রচনা করা হয়েছে যাতে মনে হতে পারে খুনিরা সমাজের খুবই সম্মানিত ব্যক্তি । বাস্তবিকপক্ষে খুনিরা হচ্ছে নর্দমার কীট । বাংলাদেশের সাংবাদিকরা ও তাদেরকে তোয়াজ করে চলেন। তাদের কাছ থেকে মাসে মাসে স্পেশাল খাম নেন।


সম্ভবত আপনি কালের কন্ঠ চাকরি করেন। আপনার সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন কে বিষয়টি জানাতে পারেন।

কষ্ট করে মন্তব্য করার জন্য আবারো আপনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি । ভাল থাকুন সব সময়।

৮| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৯:৪৯

স্বামী বিশুদ্ধানন্দ বলেছেন: একটি মানুষকে পৃথিবী থেকে চিরতরে সরিয়ে দেয়ার মতো জঘন্য কাজ যে করতে পারে, সেই খুনিকে সম্মান করার পিছনে কোনোই যুক্তিই নেই |

৯| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:৫৩

পাঠকের প্রতিক্রিয়া ! বলেছেন: ডিফেন্স করার যদি দম নেই, আজাইরা প্যাচাল করেন।

তিনি বুয়েটের বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের এইছাত্র এবং বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের উপ-সমাজসেবা সম্পাদক ছিলেন।
এই লাইন ছাড়া ওই লেখায় ভুল পাই নি। টিআরপি বাড়াতে এরা উদ্ধট শিরোনামে ফেসবুকে পোস্ট দেয়, সেসবের সমালোচনা ককরা যায় কিন্তু ঢালাওভাবে সাংবাদিক বিদ্যেষীতা ভালো দেখায় না।

সামুর হোম ব্যানারে একটা অপপ্রয়োগ/ভুল আছে, ধরতে পারবেন?



গতকাল টাইপ করে রেখেছিলাম। পড়েন...

আপনি, তুই তুমিতে সমস্যা না, সমস্যা মগজে আর প্রকাশভঙ্গিতে। শায়মাকে দেখেছি ব্লগের সবাইকে তুমি বলতে, কিন্তু তার কথায় সম্মানবোধ থাকে(অন্তত হেয় করে না)। আর আপনার গুরু চাঁদগাজী আপনি ছাড়া বলতে পারে না কিন্তু মতের অমিল হলেই নানা রকম ট্যাগিং আর হেয় করা শুরু করে। এমন আপনিকে গুলে খান।


কমেন্ট বাড়িয়ে আপনার আয়োডিনহীন পোস্ট আলোচিত ককরার মানে ননেই। গুড বাই
[[বানান ঠিকরকরে পড়ে নিন। মেজাজ গরম থাকলে আমি বানান আর ঠিক করি না]

১০| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৭

করুণাধারা বলেছেন: একেবারে আমার মনের কথা বলেছেন। জানিনা কেন, পত্রিকার সাংবাদিকরা অমানুষদের কেও সম্মান করে আপনি করে বলে!!!

১১| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:০৮

টারজান০০০০৭ বলেছেন: পাঠক হিসেবে আমাদের লাগে ঠিকই , তবে সাংবাদিকতার এথিক্স হিসেবে সবাইকেই 'আপনি' সম্বোধন করিতে হয় বোধহয় ! বাহিরের দেশেও মিস্টার অমুক সম্বোধন করিতে দেখিয়াছি। ইহা সম্মানসূচক না হইলেও সাধারণ নিয়মেই এমন মনে হয় ! সঠিক জানা নেই। সাংবাদিক কেহ থাকিলে জানা যাইতো !

১২| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:১৭

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: এই ব্লগের আপনি একজন গ্রেট ম্যান। আপনার মত মানুষ আরো কয়েক লক্ষ দরকার আছে।

মন্তব্য পড়ে চোখে পানি চলে এলো ভাই।

তবে আমি গ্রেটম্যান নই। আমি ভাঙ্গা কূলা।

১৩| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৩৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: রাজীব নুর ভাই, কি বলেন এসব? আপনি ব্লগে আমাদের খুবই প্রিয় মানুষ। মনে কষ্ট পাই এমন কথা পড়তে, দুঃসময় থাকে না। মন খারাপ করবেন না।।

১৪| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:১৩

নীল আকাশ বলেছেন: সাজ্জাদ ভাই,
বিনয় করে আপনি বলেছে নাকি ছাত্রলীগের ছেলেপেলে দেখে ভয় পেয়ে উচ্চবর্ণীয় সম্ভাসন করছে?
যা দিনকাল পড়েছে, কোন কিছুই এখন আর অবিশ্বাস্য লাগে না।
পুলিশের অফিসাররাই যখন এদের সালাম দেয়, সাংবাদিকদের আর দোষ দিয়ে কি লাভ?

১৫| ১৬ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৪

জুন বলেছেন: আমার এক মামা ঢাকা বিশ্বঃবিদ্যালয়ের প্রফেসর আমার একটি লেখা পড়ে বলেছিলেন তুমি কারো সম্পর্কে বলতে গেলে অবশ্যই ছে না বলে 'ছেন'শব্দটি ব্যবহার করবে । যেমন করেছেন, গিয়েছেন এমন । এখন মামাকে প্রশ্ন করতে ইচ্ছে করছে যে খুনীদের কথা বলতে গিয়েও কি বলতে হবে উনি খুন করেছেন !!

১৬| ২০ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:৩৯

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনাকে ব্লগে দেখছি না, কেমন আছেন?

১৭| ২০ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: মালয়েশিয়া নিয়ে একটি পোষ্ট দিবো ভাবছি। আপনার সহযোগিতা লাগতে পারে। আমি জানাবো।

১৮| ২০ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:২৯

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: সব সমস্যা ঐ ব্যাকরণেই। আমার মনে হয় এভাবে জেনারেলাইজড করা যাবে না। কারণ, বিচারকও যখন রায় দেন তখন আপনি করে দেন। আবার ধরেন ৫০ বছরের খুনীকে তুমি কীভাবে সম্বোধন করবে? তবে বুয়েটের ঘটনার পর কিংবা ছাত্রগোত্রীয় অপরাধীদের ক্ষেত্রে তুমি সম্বোধন করা যেতে পারে...

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.