নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সেলিম আনোয়ার

[email protected] Facebook-selim anwar বেঁচে থাকা দারুন একটা ব্যাপার ।কিন্তু কয়জন বেঁচে থাকে। আমি বেঁচে থাকার চেষ্টা করি।সময় মূল্যবান ।জীবন তার চেয়েও অনেক বেশী মূল্যবান।আর সম্ভাবনাময়।সুন্দর।ঢাকাবিশ্বদ্যিালয়ের পাঠ চুকিয়ে নিরস চাকুরীজীবন।সামনে আরও নিরস ভবিষ্যৎ। নিরস জীবন সরসভাবে কাটানোর প্রচেষ্টায় আমি সেলিম আনোয়ার।

সেলিম আনোয়ার › বিস্তারিত পোস্টঃ

ধ্রুবতারা একটাই নক্ষত্রের আকাশে

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৩০



ধ্রুবতারা একটাই নক্ষত্রের আকাশে

ধ্রুবতারা একটাই নক্ষত্রের আকাশে
হয় না যে তার অযাচিত বিচ্যুতি কোনো—
সুনির্দিষ্ট অবস্থান থেকে।
সেই তো দেখায় পথ, সেই তো বলে দেয় নাবিকে
কোথায় আছে কতটুকু বিচ্যুতিতে গন্তব্য থেকে
কোন অবস্থানে কতটুকু বিভ্রান্তিতে আপন কক্ষপথ থেকে;
আপন আলয় থেকে কতটুকু দূরে সরে
কোন খেয়ালে কতটুকু কালোয় অধনমনে
পথহারা দিকহারা পথিকের সন্ধান
সেই তো দিতে পারে।
লুব্ধক হতে পারে উজ্জ্বলতম তারা
তবুও পৃথিবীতে তার কতটুকু প্রয়োজন?
ক্রমাগত প্রখর আগুনে দিনে দিনে
জ্বলে পুড়ে হতে পারে নিঃশেষ
জীবনের সব আয়োজন।
রাতের আঁধারে ধুমকেতুর ধূম্রজালে
আর কতকাল ওগো রবে ডুবে সত্য অবহেলে
পথহারা দিশেহারা গন্তব্য কোথায় তোমার?
তোমার কথামালা ক্রমাগত কেন যে বদলে যায়
খসে পড়া তারার মত বিভ্রান্তি ছড়ায়
যেন অর্থহীন সব প্রলাপের অবতারণা
এসবের কি দাম কী মানে তুমিও কি তা জান না?
কেন যেন মনে হয় তোমার সরচিত পাতা ফাঁদ
তুমি তাতে পড়ে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে উপনিত
তাতে পড়ে দিকভ্রান্ত পথিক হতে হয়
প্রেম যেন হয়ে ওঠে দূর বনের রঙিন প্রজাপতি
প্রত্যাশার আলো হারায় যে তার দ্যুতি
কোন মানদণ্ডে মেপে আজ ক্লান্ত ভীত পথিক তুমি
তোমার কী তবে হিসেবে ষোল আনাই ভুল।
তাইতো ভেবে ভেবে সময় চলে যায় তোমার দেয়া
সবগুলো কাজ আর করা হয় না পাছে হয় কোন ভুল
কতগুলো তাই থেকে যায় , গরলও করেছি পান
শুধু তোমার কারণে। মনে রেখ আকাশে
ধ্রুবতারা একটাই সুদৃঢ় অবস্থানে থেকে
অনেক ভালোবেসে— শুধু তোমার মঙ্গল কামনায় ।



বিঃদ্রঃ নিজাম উদ্দিন আউলিয়া। ৯৯ টি খুন করা ডাকাত ১০০ খুন করার পর আউলিয়া । শেষ খুনটি তার জন্য পূণ্যি ছিল পরশপাথরের মত। বিস্ময়কর হলেও সত্য ।

মন্তব্য ১৯ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (১৯) মন্তব্য লিখুন

১| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৪১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: দারুন হয়েছে

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:০৪

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: ১ম কমেন্টে এবং পাঠে অনেক ধন্যবাদ।নিরন্তর শুভকামনা ।

২| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৪৭

জুল ভার্ন বলেছেন: সুন্দর!

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:০৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: ধন্যবাদ গ্রেট ব্লগার জুল ভার্ন। ভাল থাকবেন সবসময় এই শুভকামনা থাকলো ।

৩| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৫৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: সেলিম আনোয়ার ,





ধ্রুবতারা একটাই। যদিও এটা 'তারা" নয় - "গ্রহ", কাউকে ঘিরে ঘিরে নাচে আর গাহে গান। যে পথিক হারিয়েছে পথ তাকে দোখায় পথের দিশা ।

খুব সুন্দর এবং অর্থবহ হয়েছে কবিতাটি।

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:০৭

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: আপনার কমেন্ট ধ্রুবতারার মতই কবিতাটিকে অর্থবহ করে দিল । কমেন্টে এবং পাঠে অনেক ধন্যবাদ।নিরন্তর শুভকামনা ।

৪| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:০৯

নেওয়াজ আলি বলেছেন: খুবই অসাধারণ লেখা।

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:১৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: অসাধারণ কমেন্টে অনেক ধন্যবাদ। নিরন্তর শুভকামনা ।

৫| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৩২

এল গ্যাস্ত্রিকো ডি প্রবলেমো বলেছেন: ওগো, পাছে এইসব সেকেলে শব্দ কি ব্যবহার না করলেই না?

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:১৬

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: এল গ্যাস্ত্রিকো ডি প্রবলেমো আমি একটু সেকেলে ধাচের কবিতা লিখি। লজ্জবতী লতা কবিতা । আপনার পরামর্শ মন্দ নয় । :)

৬| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৩২

রাজীব নুর বলেছেন: দারুন কবিতা।
ভাষা সুন্দর।

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:১৭

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: দারুন কমেন্টে এবং পাঠে অনেক ধন্যবাদ।নিরন্তর শুভকামনা ।

৭| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:০৩

মেহেদি_হাসান. বলেছেন: চমৎকার

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:১৭

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: ধন্যবাদ চমৎকার কমেন্টে। নিরন্তর শুভকামনা ।

৮| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:৪৯

আলমগীর সরকার লিটন বলেছেন: কাব্যিক পাঠে মুগ্ধতা ছুঁয়ে গেলো কবি দা

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:১৮

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: কমেন্টে এবং পাঠে অনেক ধন্যবাদ নিরন্তর শুভকামনা ।

৯| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:৩৬

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:


খুব সুন্দর ও অর্থবহ কবিতা । পাঠে মুগ্ধ ।
ইংরেজি পোল স্টার। পৃথিবীর উত্তর মেরুর অক্ষ বরাবর দৃশ্যমান তারা
ধ্রুবতারা নামে পরিচিত। এই তারাটি পৃথিবীর অক্ষের উপর ঘূর্ণনের সাথে
প্রায় সামাঞ্জস্যপূর্ণভাবে আবর্তিত হয়। প্রাচীন কালে দিক নির্ণয় যন্ত্র
আবিস্কারের পূর্বে সমূদ্রে জাহাজ চালাবার সময় নাবিকরা এই তারার
অবস্থান দেখে দিক নির্ণয় করতো। দিকভ্রান্ত সময়ে আমাদের এমনি
একটি তারার প্রয়োজন ।

শুভেচ্ছা রইল

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:২০

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: আপনার কমেন্ট পোস্ট খানা অনেক খানি সমৃদ্ধ করলো । কমেন্ট এবং পাঠে অনেক ধন্যবাদ নিরন্তর শুভকামনা ।

১০| ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:২৪

অজানা তীর্থ বলেছেন: এই ধ্রুব তারার মতই একজন চিরন্তন। আমরা বুঝে না বুঝে কত কিছুই করছি। আলোকে ভুলে অন্ধকারে নিমজ্জিত হচ্ছি তবুও ঐ ধ্রুবতারা আলোতে অন্ধকারে আবার পথ চলতে শিখি। সুন্দর কবিতা, আমার কাছে মনে হলো একটু স্তবক করে লিখলে বুঝতে আরেকটু সুবিধে হতো।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.